নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি লেখক নই, মাঝে মাঝে নিজের মনের ভাবনাগুলো লিখতে ভাল লাগে। যা মনে আসে তাই লিখি,নিজের ভাললাগার জন্য লিখি। বর্তমানের এই ভাবনাগুলোর সাথে ভবিষ্যতের আমাকে মেলানোর জন্যই এই টুকটাক লেখালেখি।

তারেক_মাহমুদ

পৃথিবীর সব ভাল টিকে থাকুক শেষ দিন পর্যন্ত

তারেক_মাহমুদ › বিস্তারিত পোস্টঃ

ফান পোস্টঃ ট্রাফিক জ্যামের সুবিধা

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:০৮



(ছবিতে যাকে দেখতে পাচ্ছেন তিনি কোন সাধারণ যাত্রী নন একজন বাস ড্রাইভার। প্রায় একঘন্টা বাস একই স্থানে দাড়িয়ে আছে এই সুযোগে তিনিও একটু নাক ডেকে ঘুমিয়ে নিচ্ছেন)

ঢাকার ট্রাফিক জ্যামের প্রচুর সুবিধাঃ

১।রাতে যাদের ভাল ঘুম হয়নি তারা গাড়িতে বসে মনের সুখে দুই তিনঘন্টা ঘুমিয়ে নিতে পারেন,তবে আপনাকে অবশ্যই কম্ভুকর্ণ হতে হবে নাহলে চারপাশের ভয়াবহ শব্দে ঘুমাতে পারবেন না।

২।তাড়াহুড়োয় বাসা থেকে নাস্তা করে বেরোতে পারেননি?
-যেকোন ট্রফিক সিগন্যালে নেমে পড়ুন, তারপর আরামসে পাশের হোটেল থেকে নাস্তা করুন এরপর এককাপ চা পান করুন এবার ঢেকুর তুলতে তুলতে গাড়িতে উঠুন, দেখুন গাড়ি একচুলও নড়েনি,ঠিক আগের জায়গাই আছে।

৩।বউয়ের কড়া শাসনে বাসায় ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ পান না?
-মনের সুখে ফেসবুক ইউটিউব ব্যবহার করতে থাকুন, আপনার হাতে অফুরন্ত সময় ।
সতর্কতাঃ বউয়ের কাছে ঝাড়ি না খেলেও অফিসের বসের কাছে দেরি করে অফিস যাওয়ার কারণে ঝাড়ি খাওয়ার সম্ভাবনা ১০০%।

৪।প্রতিদিন গাজিপুর থেকে মতিঝিল হেটে চলে আসুন, আপনিই পারবেন ভবিষ্যতে পায়ে হেটে বিশ্বভ্রমণে যেতে, এটা তারই প্রস্তুতি।
সুবিধাঃ একদিকে ডায়াবেটিস ব্লাডপ্রেসার থেকে মুক্তিপাবেন, আবার গাড়ির চেয়ে অনেক আগেই কর্মস্থলে পৌছাতে পারবেন ।

৫।বিনোদনঃ হুডতোলা রিকশা কিংবা সিএনজি অটোরিকশায় প্রেমিক যুগলের অন্তরঙ্গ মুহূর্ত আপনাকে ফ্রী বিনোদন দেবে।

৬। কেনাকাটাঃ গাড়িতে বসেই হকারদের কাছ থেকে পায়ের জুতা থেকে মাথার ছাতা সবই কিনতে পারবেন তাই মার্কেটে যাওয়ার বাড়তি ঝামেলা থেকে আপনি মুক্ত।

৭।পরকালীন সুখঃ গাড়ির ভিক্ষুক অন্য ভিক্ষুকদের চেয়ে দোয়া করায় বেশি পারদর্শী তাই ওদের দান করলে পরকালীন সুখের গ্যারান্টি পাওয়া যাবে।

যারা ঢাকার বাইরে থাকেন আর ট্রাফিক জ্যামকে ভয় পান তাদেরকে বলছি, ট্রাফিক জ্যাম জিনিসটাকে আপনারা যতটা খারাপ ভাবেন ওটা আসলে ততটা খারাপ নয়।

মন্তব্য ২৮ টি রেটিং +৬/-০

মন্তব্য (২৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:১৯

পবিত্র হোসাইন বলেছেন: ভাই একটা A/C ব্যবস্থা করা যায় না?
উফ !!! যে গরম !!!! :P

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:৩৪

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: ভরসা রাখুন আমি যেদিন ক্ষমতায় যাবো সেদিন পুরো ঢাকা শহরকে সেন্ট্রাল এসির আওতায় আনা হবে।

২| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:৪১

করুণাধারা বলেছেন: ছবিটা চমৎকার। ভাগ্যিস জ্যাম ছিল, নাইলে ঘুম চোখে চালাতে গিয়ে ড্রাইভার নির্ঘাত এক্সিডেন্ট করত।

চমৎকার রম্য, ভালো লেগেছে।

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৫৭

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপু।

৩| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:০৫

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: বসবাসের অযোগ্য শহরের তালীকার ফাস্ট বয় হওয়া 'মহা উন্নয়নের' দেশে.. রম্য হিসেবে জীবনটাকেই চালাতে হয়!
নইলে যে বেঁচে থাকাই দায়!

তাই রম্য না বলে বাস্তব ভাবনা বলে রম্য করলেও আমরা বুঝে নেব ;) :P
হা হা হা

মিরপুর থেকে মতিঝিল যেতে যেত দুপুরের ভাত ঘুমটা বাসেই সেরে নেয়া যায় বেশ!
খালি দু একদিন গন্তব্যে ছাড়িয়ে চলে যেতে হয়েছে। এছাড়া বিষয়টা উপভোগ্যই বটে :-B

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:০২

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: আপনারও দেখি আমারই মতই অবস্থা, এটাই আমাদের নিয়তি তাই ফান হিসাবে নিয়ে আনন্দে থাকার চেষ্টা। পাঠ ও মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ সুপ্রিয় ভৃগু ভাইয়া।

৪| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৬

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: হা হা হা হা সত্যিই ফান বটে!!! বিচিত্র ধর্মী ফান পোস্টে লাইক। ++

শুভকামনা জানবেন।

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:০৩

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ও শুভকামনা একবার বেড়িয়ে যান এই শহর থেকে।

৫| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:১৭

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: পরকালীন সুখ কেবল মহান আল্লাহ তাআ'লা এবং তার রাসুল যেভাবে নির্দেশনা দিয়েছে আমাদের ঠিক সেভাবে চললেই পাওয়া যাবে।

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৪:২৫

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: ফান পোস্টকে অত সিরিয়াসলি নেওয়ার দরকার নেই।

৬| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:২৯

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
ফান পোস্টে গান হবে
ভুলে মান অভিমান।
গাড়ি চলে না তবু ওরা বলে
রান ফাস্ট রান।

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৪:২৬

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: বাহ বেশ। ধন্যবাদ মাইদুল ভাই।

৭| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:২৬

অজ্ঞ বালক বলেছেন: প্রতিদিন এক্কেবারে হিসাব কইরা ঘন্টা ছয়েক রাস্তায় থাকন লাগে। আইজকা শ্যামলি থেইকা মতিঝিল আইতে আড়াই ঘন্টা লাগছে। একটা ইয়ের শহর হইয়া উঠসে। ছাড়নও যায় না, থাকনও যায় না। কি একটা প্যাড়া।

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৫২

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: আপনি আর আমি মনে হচ্ছে একই পথের পথিক। জ্যাম নিয়ে হতাশা প্রকাশ করে লাভ নেই ওটাই আমাদের নিয়তি।

৮| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৩

রাজীব নুর বলেছেন: গরমের দিনে বাস গুলোতে বেশী কষ্ট।
পুরো শরীর ঘামে ভিজে যায়।

১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৩

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: তবুও আমাদের পথ চলতেই হয়। ধন্যবাদ ও শুভকামনা।

৯| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৯

হাবিব স্যার বলেছেন: চারিদিকে এতো গরম তবুও ব্লগে রম্য পোস্টের ঠ্যালায় ভালোয় মজা পাচ্ছি........... পোস্টে ++

১৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:১৪

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ সুপ্রিয় হাবিব স্যার।

১০| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৪

আরোগ্য বলেছেন: ফান পোস্টে ফান পাইলাম কিন্তু ট্রাফিক জ্যামে কেবল মাথা ব্যথা পাই।

১৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:১৮

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: কি আর করার আছে আমাদের শুধু একটু অন্তরজ্বালা মেটানোর জন্যই এসব লেখা।

১১| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:০২

সুমন কর বলেছেন: ফেবুতেই পড়ছিলাম। কিন্তু যেভাবে জ্যাম বাড়ছে, কয়দিন পর হেঁটেই আসতে হবে......

১৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:১৯

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: তাছাড়া আর উপায় কি। পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

১২| ১৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১২:১৩

আকতার আর হোসাইন বলেছেন: হাহা।।। ভালই লাগলো...

১৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:১৯

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাই আকতার।

১৩| ২৭ শে মে, ২০১৯ দুপুর ১:২৬

shamny khan বলেছেন: সুন্দর লিখেছেন। ট্রাফিক জ্যামের অনেক সুবিধা তুলে ধরেছেন যেটা সহজে কেউ ভাবেনি আগে।

০৯ ই জুন, ২০১৯ সকাল ১১:৪২

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: এমন সুবিধা আসলে আমরা কেউই চাই না এ থেকে পরিত্রাণ চাই। অনেক ধন্যবাদ আপনাকে।

১৪| ০৭ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: জ্যামে আটকা পড়লে আমি কনট্যাক্ট লিস্ট ধরে যে সব বন্ধু বান্ধব, আত্মীয় স্বজনদেরকে দীর্ঘদিন ধরে ফোন করা হয়নি, তাদেরকে ফোন করি। একটা ছোট নোট বই আর একটা কবিতার বই সব সময় সাথে রাখি। জ্যামে সেগুলো বেশ কাজে দেয়। আমার অনেক লেখাই জ্যামে আটকাবস্থায় লেখা।

০৯ ই জুন, ২০১৯ সকাল ১১:৪৪

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: ইদ মোবারক স্যার

হা হা দারুণ ভাবে কাজে লাগান ট্রাফিক জ্যামের সময়গুলো। সামুতে আমার লেখা অধিকাংশ পোস্ট ই ট্রাফিকজ্যামে বসে লেখা। আপনাকে ধন্যবাদ

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.