নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সবাই ভালো থাকুন

এ আর ১৫

এ আর ১৫ › বিস্তারিত পোস্টঃ

ভ্যালেনটাইন দিবসে হুজুরদের যাহা করনিয় !!

১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৭

আমাদের দেশের মুফতি , মাওলানা, হুজুরা ভ্যালেনটাইন ডের ইতিহাস সম্পর্কে মিথ্যা প্রচারনার শিকার হয়ে - এই দিবসকে হারাম বলে ফতুয়া দিয়েছে কারন তারা মিথ্যা ইতিহাসটা জানে তাই । রোমন রাজা ক্লডিয়াস হঠাৎ তার দেশের যুবক যুবতিদের ভিতর বিবাহ করাকে নিষিদ্ধ ঘোষনা করলো কারন তিনি মনে করলেন বিবাহিত যুবকেরা ভালো যোদ্ধা হতে পারে না এবং এই যুবকদের তার প্রয়োজন রাষ্ট্রিয় কাজে, যুদ্ধ ক্ষেত্রে । তখন বাধ্য হয়ে তরুন যুবক যুবতিরা গোপন অভিষার বা ডেটিং করা শুরু করলো ।
সেইন্ট ভ্যালেনটাইন ছিলেন খৃষ্টান জাজক এবং তিনি যুবক যুবতিদের গোপন অভিষার বা ডেটিং করার ঘোর বিরুধী ছিলেন এবং এই কাজ গুলোকে ব্যাভিচার মনে করতেন । তিনি চাইলেন যুবক যুবতিরা বাধ্য হয়ে যেন ব্যাভিচারে লিপ্ত না হয় । তখন তিনি স্বীয় উদ্দ্যোগে প্রেমিক যুগলদের কাছে গিয়ে গোপন অভিষার বন্ধ করার ধর্মীয় উপদেশ দিতে থাকেন । তখন প্রেমিক যুগলরা তাকে বলতে থাকে - আমরাতো বিয়ে করতে চাই কিন্তু কোন জাজক রাজার আদেশ অমান্য করে তাদের বিয়ে দিতে রাজি হচ্ছে না, তাই তারা বাধ্য হয়ে ডেটিং করছে ।
তখন সেইন্ট ভ্যালেনটাইন তাদের চুপি চুপি অভয় দেয় -- খুব গোপনে রাতের অন্ধকারে বনের ভিতর তার গোপন আস্তানাতে তারা যেন আসে, তখন ঐ অন্ধকারে তিনি তাদের ধর্মীয় মতে বিবাহ দিয়ে দিবেন , সেই সাথে তাদের বলেন-- রাতের বেলা তার আস্তানার ভিতর খুব অন্ধকার তাই তারা যেন আসার সময়ে সাথে করে মোমবাতি নিয়ে আসে ,তাহোলে তিনি মোমের আলোতে তাদের বিয়ে পড়িয়ে দিবেন ।

কিন্তু এই ভাবে গোপনে বিয়ে দেওয়া আর কত দিন চলে এবং এক সময়ে বিষয়টি রাজার কাছে ফাস হয়ে যায় এবং সাথে সাথে রাজার পাইকরা সেইন্ট ভ্যালেনটাইনকে গ্রেফতার করে । এর পরে এই ঘটনাটা যখন সবাই জেনে যায় , তখন সেইন্ট ভ্যালেনটাইনের জনপ্রিয়তা খুব বেড়ে যায় । তার জনপ্রিয়তার বৃদ্ধি দেখে রাজা ক্লডিয়াস সাথে সাথে তাকে মৃর্তু দন্ড প্রদান করে ।

এখন সেইন্ট ভ্যালেনটাইনের কর্মে আলোকিত হয়ে আমাদের দেশের হুজুর মুফতিরা কি কাজি ভ্যালেনটাইন হিসাবে আবির্ভুত হতে পারেন না ? বর্তমানে অনেক তরুণ তরুণীরা প্রেম করে, ডিটিং করে এবং কেউ কেউ লিভ টুগেদার করে । এই কাজ গুলো নি:সন্দেহে শরিয়ত বিরুধী কাজ এবং কোন হুজুর এগুলোকে মেনে নিতে পারেন না, ঠিক যেমনটি সেইন্ট ভ্যালেনটাইন মানতে পারেন নাই । এখন হুজুরা যদি ভ্যালেনটাইন দিবসে মোড়ে মোড়ে ফ্রি কাজি ভ্যালেনটাইন সার্ভিস নিয়ে বসেন এবং প্রেমিক যুগলদের আহবান করেন -- ও হে প্রেমিক যুগল তোমরা কি জানো না প্রেম করা , ডেটিং করা, লিভ টুগেদার করা শরিয়ত বিরুধী কাজ , তোমার বরং আমাদের কাছে আসো , আমরা তোমাদের বিনা খরচে শরিয়ত সম্মত ভাবে বিয়ে দিয়ে দিবে ঠিক যেমনটি সেইন্ট ভ্যালেনটাইন করেছিলেন ।

সেইন্ট ভ্যালেনটাইনের সময়ে প্রেমিক যুগলরা যখন ডেটিং লিভ টুগেদার করতো , তখন জীবনের ঝুকি নিয়ে রাতের আধারে মোমের আলোতে তিনি গোপনে তাদের বিয়ে দিতেন ধর্মীয় রিচুয়াল অনুসারে কিন্তু হায় আজকে যুবক যুবতিরা যখন প্রেম করে, ডেটিং করে , লিভ টুগেদার করে, তখন কোন হুজুর তাদেরকে সেইন্ট ভ্যালেনটাইনের মত বিয়ে করে নিতে উৎসাহিত করে না এবং উপদেশ দেয় না !

আমার সেই দিনের জন্য অপেক্ষা করছি , কখন দেখবো আমরা ভ্যালেনটাইন কাজি !!

মন্তব্য ৯ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৯) মন্তব্য লিখুন

১| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


অবিবাহিতরা জিং জিং করার ৫ মিনিট আগে নিজেরা বিয়ে করার, ও জিং জিং শেষ হওয়ার পর তালাক দেয়ার নিয়ম চালু করা সম্ভব কিনা?

১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৭

এ আর ১৫ বলেছেন: এই প্রথা আগে চালু ছিল যখন তাৎক্ষনিক তিন তালাক প্রথা চালু ছিল এবং মুতা বিবাহ প্রথা চালু ছিল । এখন কোথাও কোথাও মুতা বিবাহ চালু থাকিলে ও , তাৎক্ষনিক তিন তালাক প্রথা সব জায়গায় বাতিল হয়ে গিয়েছে ।
এখন মুতা বিবাহ ও তাৎক্ষনিক তিন তালাক প্রথা চালু করিলে , আপনি যাহা জানিতে চাহিয়াছেন সেটা খুবই সম্ভব ।

২| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি বলেছেন, "এখন মুতা বিবাহ ও তাৎক্ষনিক তিন তালাক প্রথা চালু করিলে , আপনি যাহা জানিতে চাহিয়াছেন সেটা খুবই সম্ভব । "

-এই জন্যই ধর্মকে ভালোবাসেন মানুষজন

১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৫

এ আর ১৫ বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে ।

৩| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০৮

বিজয় কেতন বলেছেন: আমাদের দেশের মোল্লা-হুজুররা কোন জিনিষটা সত্য জানে? বেশিরভাগই অশিক্ষিত, গন্ডমুর্খ। কোনকিছু বিশ্লেষণ করার যোগ্যতা তারা স্বইচ্ছায় ত্যাগ করেন ইসলামের দোহাই দিয়ে। ভেলেন্টাইন সম্পর্কে সঠিক জানলে যে তাদের সিদ্ধান্তের কোন পরিবর্তন হতো না, তা হলফ করে বলতে পারি। ওসব ধর্মান্ধদের কাছে সবই হারাম।

১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৪

এ আর ১৫ বলেছেন: কথাটা ভুল বলেন নি ভাই । অনেক ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য ।

৪| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৪

রাজীব নুর বলেছেন: বড় মাপের হুজুর বা পীর ধুয়ে কী পানি খাবো? মানুষের কোন কাজে আসে এরা?

৫| ১৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৪৯

Shopnodana123 বলেছেন: চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি বলেছেন, "এখন মুতা বিবাহ ও তাৎক্ষনিক তিন তালাক প্রথা চালু করিলে , আপনি যাহা জানিতে চাহিয়াছেন সেটা খুবই সম্ভব । "

-এই জন্যই ধর্মকে ভালোবাসেন মানুষজন

:P

৬| ১৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৭

এভো বলেছেন: কিছুই বলার নাই

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.