নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

বাধা বিঘ্ন না পেরিয়ে বড় হয়েছে কে কবে?

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

প্রতিদিন মে দিবস

০১ লা মে, ২০১৯ সকাল ১০:০২

ফসলের জমিতে মধ্যবয়স্কা নারী অবলীলায় ধান রোপন করার দৃশ্য দেখে আমি অনেকবার আঁতকে উঠেছি,
.
প্রতিনিয়ত আমি দেখেছি রাস্তার পাশে নারীরাও মাইট্টাল খাটছে!
.
একটু ভালো করে বাঁচার আশায় নারীরাও খেটে চলছে পতিতালয়ে,
.
ঘরের চার দেয়ালে নারীদের খাটুনি দেখে কে বা কবে বলেছিলো ওরা এক একটা কাজের মেশিন!
.
নারীরা হলো পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ইন্ডাস্ট্রি মানুষ গড়ার কারখানার সবচেয়ে নিবেদিত কামলা,
.
যদি সম্ভ্রম হারনোর ভয় না থাকতো তাহলে এই নারীদের শ্রমে পৃথিবী পাল্টে যেতো,
.
আমি মে দিবসে পুরুষদের কথা এক্কেবারে বলবো না কারণ ওদের শক্তি সামর্থ্য আছে এবং প্রকৃতি ওদের কামলা খাটার মতো পর্যাপ্ত রিসোর্স দিয়ে পাঠিয়েছে!
.
দুর্বল শরীরে নারীরা যখন ইটের কুন্ডলি মাথায় তুলে নেয় তখন ওরা কতটা হাঁপিয়ে উঠে তা বলার অপেক্ষা রাখে না,
.
নারীদের কারণে ঘরগুলো তাজমহলের মতো ফুটে থাকে নাহলে মাকড়সাদের অধিকারে চলে যেতো!
.
জগতে নিন্মস্তরের শ্রমিকদের মতো নারীদের কাজেরও মূল্যায়ন হয়না,
.
এখনো নারীরা ঘরে বাহিরে ২৪ ঘন্টা কাজ করে চলছে! নিবেদিত শ্রমিক!
.
একমাত্র নারীরা মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে কোন প্রতিদানের আশা ব্যতিরেখে,
.
নারী বলতে আমি বেশীরভাগ নারীদের কথা বলছি!
.
এই নারীরা পুরুষদের চোখে সৌন্দর্যের তৃপ্তি নিবারণ করা জন্য কত রকমে নিজেদের ফুটিয়ে তোলার আপ্রাণ চেষ্টায় থাকে,
.
এতো হেডাম লইয়ো না পুরুষ, বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় শিল্প পোষাক কারখানার আশিভাগ কামলা ওরাই,
.
সুযোগ পেলে তোমার এসব নন্দ দুলাল রাজুর কাজ মীনা বাঁশি বাজাতে বাজাতে করতে পারবে!
.
নারীর দুর্বল শরীরে তোমাকে সৃষ্টি করলে তুমি পুরুষ পৃথিবী মাথায় তুলতে, পৃথিবীর প্রায় কাজ থমকে যেতো,
.
তোমাদের আন্দোলনের চোটে প্রতিদিন হতো মে দিবস্ কিন্তু নারীরা নীরব! ওরা কাজ ভালবেসে করে! ভালবাসার কাজ করে! বুঝে ওদের ছাড়া এই কাজ লাখ টাকা মজুরি দিলেও কেউ এতো সুনিপুণভাবে করে দিয়ে যাবে না!
.
শুভেচ্ছা তোমাদের স্বীকৃতি না পাওয়া হে নারী শ্রমিকদের, দিনশেষে তোমাকে শুনতে হবে সংসারে তুমি কোন বালের কাজটা করো! তবুও তুমি সব ভুলে এগিয়ে যাবে....সুন্দর হবে পৃথিবী!

মন্তব্য ৩ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৩) মন্তব্য লিখুন

১| ০১ লা মে, ২০১৯ সকাল ১০:৪০

রাজীব নুর বলেছেন: আল্লাহ মানূষকে পৃথিবীতে শুধু আরাম আয়েশ করার জন্য পাঠায়নি। কাজ করতে হবে।

২| ০১ লা মে, ২০১৯ দুপুর ১২:০১

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংগালীরা নিজেদের মাকে দিয়ে চাষ করাচ্ছে, ইট টানাচ্ছে, চাকরাণী, ঝি ও মেয়েকে পতিতা বানায়েছে; পুরো জাতিতা ইডিয়টে ভরে গেছে

৩| ০১ লা মে, ২০১৯ রাত ১১:২১

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: প্রকৃতি বলতে কোন কথা না এখানে,মূল ব্যাপারটা আমরা সিস্টেম মেকার তাই এই দুর্দশাও আমাদের।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.