নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সব কিছুই প্রথমে দেখি ভাল লাগার দৃস্টি নিয়ে , অনুভব করি তার গুনাগুণে, সত্যটুকু করি গ্রহণ আর মিথ্যাটুকু বর্জন ।

বিলুনী

বিচরী স্বর্গ মর্ত পাতাল , উড়ি গাছের ডালে ডালে ঘুরী সামুর পাতায় পাতায় , মন খুলে করি অশ্বেশন যা চাই কিছু নিয়ে যাই , কিছু ফিরিয়ে দিয়ে যাই ।

বিলুনী › বিস্তারিত পোস্টঃ

নভোনীল পর্ব-১০ ( রিম সাবরিনা জাহান সরকারের অসম্পূর্ণ গল্পের ধারাবাহিকতায়)

২৭ শে জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:৩৯


পর্ব ৯এর শেষ কটি কথা খুব আলগুছে কাল রাতে লেখা দীর্ঘ চিঠিটা ব্যাগের পকেটে গুঁজে দিল মৃন্ময়ী....
সে রাত্রে ব্যগের পকেটে গুঁজা মৃন্ময়ির চিঠিখানি পাঠ শেষে নভো ঘরের বাতি নিবিয়ে বিছানায় শয়ন করে বর্ষানিশীথের সমস্ত শব্দ এবং সমস্ত নিস্তব্ধতার পরপ্রান্ত হতে বিজন বিনিদ্র শয্যায় মৃন্ময়ীর কথাই ভাবতেছিল । মৃন্মমীর টানা টানা দুটি কালো চক্ষুতে না ছিল লজ্জা, না ছিল ভয়, তবে ছিল হাবভাবলীলার কিছু লেশ। পুরাতন কিছু কথাও ভাবছিল । মনে পড়ছিল একই ক্লাশের নবাগত ছাত্র হিসাবে তার আচার ব্যবহার সম্বন্ধে বিস্তর বাহুল্য বর্ণনা সে বেহুদাই করেনি।

নভো নিজেকে কেবলই এই বলে পীড়া দিতে লাগল যে, এতদিনকার সেই ভাবনার ভুলটা কি উপায়ে সংশোধন করে নেয়া যায় । মৃন্ময়ী ছলাকলার আভাসে ঈঙ্গিতে যে কথা বলতে চেয়েছিল এতদিন ধরে, তা কেন তাকে বুঝতে হল তার পত্রটি পড়ে ।

পরদিন রৌদ্রোজ্জ্বল নির্মল চঞ্চল নির্ঝরিণীর দিকে অবনত হয়ে কৌতূহলী পথিক যেমন নিবিষ্ট দৃষ্টিতে তার নির্ঝর জলরাশি দেখতে থাকে, নভো তেমনি করে পরের দিন ক্যাম্পাসে যথাস্থানে গিয়ে ফাগুন ঝড়া আগুনের দিনে গভীর গম্ভীর নেত্রে মৃন্ময়ীর অধোবোদনকৃত মুখের উপর তড়িত্তরল দুটি চক্ষুর দিকে চেয়ে দেখল এবং অপলোকভাবে চোখে চোখ রেখে অসম্পন্ন চিন্তা ছেড়ে দিয়ে যথা কর্তব্যটি ভেবে নিল ।

নভোর চোখে চোখ পড়া মাত্রই নৃত্যময়ী প্রকৃতির নূপুরনিক্কণের ন্যায় চঞ্চল মৃন্ময়ীর হাস্যধ্বনিটি সমস্ত আকাশ ব্যাপিয়া চিন্তামুক্ত নভোর মনে বাজতে লাগল । নভো দেখতে পেল একটি গম্ভীর স্নিগ্ধ বিশাল রমণীপ্রকৃতি মৃন্ময়ীর সমস্ত শরীরে ও সমস্ত অন্তরে রেখায় রেখায় ভরে উঠছিল ।

সেইতো লাইনে এলি তবে এত দেরী করলে কেন, একথা ভেবে প্রথম আষাঢ়ের শ্যামসজল নবমেঘের মতো মৃন্ময়ীর হৃদয়ে একটি অপূর্ণ বিস্তীর্ণ অভিমানের সঞ্চারও হল। সেই অভিমান তার চোখের ছায়াময় সুদীর্ঘ পল্লবের উপর আর-একটি গভীরতর ছায়া প্রক্ষেপন করল।

নভো মনে-মনে বলতে লাগল, আমি আমাকে বুঝতে পারি নাই বলে তুমি আমাকে আরো আগেই বুঝালে না কেন।
এখন এর পরিনতি কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা কে বলবে ।


ছবি সুত্র : কৃতজ্ঞতার সহিত গুগল ইমেজ

পুর্বেরপর্বের লিংক
নভোনীল পর্ব -১ ব্লগার রিম সাবরিনা জাহান সরকার Click This Link

নভোনীল পর্ব-২ পদ্ম পুকুর Click This Link

নভোনীল পর্ব-৩ ব্লগার মেঘশুভ্রনীল Click This Link

নভোনীল পর্ব -৪ ব্লগার খায়রুল আহসান Click This Link

নভোনীল পর্ব-৫ ব্লগার আখেনাটেন Click This Link

নভোনীল পর্ব-৬ ব্লগার পুলকঢালী Click This Link

নভোনীল পর্ব – ৭ ব্লগার নিযাজ সুমন Click This Link

নভোনীল পর্ব- ৮ ব্লগার কবিতা পড়ার প্রহর Click This Link

নভোনীল পর্ব-৯ ব্লগার মনিরা সুলতানা Click This Link


মন্তব্য ৩৮ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (৩৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ বিকাল ৫:৫৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ছোটো হয়ে আসছে পর্ব। এ পর্বের ভাষাশৈলী বেশ উন্নত ও গম্ভীর। মাঝখানে কিছু সাধুরীতি যোগ হয়ে গেছে।

২৭ শে জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪২

বিলুনী বলেছেন:
এই লেখাটি পোষ্ট হতে না হতে আরো দু'চারটি পর্ব-১০ প্রকাশ হয়ে যায় কিনা সে ভাবনা থেকে এটা খুব তারাতারি পোষ্ট করে
দেই। পরে এডিট করার আগেই আপনি এসে হাজির । আপনার মত ব্লগের একজন গুণী সাহিত্যিকের মুল্যবান মন্তব্য পেয়ে নীজকে ধন্য বোধ করছি । এখন এডিট করে ঠিক করে নিব ।

২| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


নায়ক নায়িকা কি ছাত্রছাত্রী? তারা কি শুধু প্রেমের জন্য বেঁচে আছেন?

২৭ শে জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৯

বিলুনী বলেছেন:



হ্যা তারা ছাত্র ছাত্রী । এ পর্বের সবগুলি লিংকে গেলে তা দেখতে পাবেন । এই পর্বের পুর্বের পর্ব-৯ এ গেলে সবগুলি পর্বের লিংক দেখতে পাবেন । একটি পোষ্টে খুব বেশী লিংক অনাবশ্যকভাবে দিলে ব্লগটি সার্বিকভাবে স্লো হয়ে যায় । তাই সবগুলি পর্বের লিংক এখানে দেয়া হলোনা । তবে এডিট করে পুর্বাপর লিংকগুলি এখন দিয়ে দিব।

সবগুলি পর্বেও দেখা যাবে তারা এখনো কেবলি ছাত্র , অনেক পর্বে দেখা যায় এই করোনাকালীন সময়ে লেখার কাহিনীতে তারা ক্যম্পসে যাচ্ছেন,ক্লাশে যাওয়ার কথা ভাবছেন , যদিও এখন ক্লাশ বন্ধ তথাপী বেদনা বিদুর ভাবে ক্লাশে যাওয়ার কথা তাদের মনে গেথে আছে, । তবে আমি তাদের মিলন স্থানটি ভার্সিটি ক্যাম্পাস দেখালেও এখনো তারা ছাত্র বলে কোথাও শ্পষ্টকরে উল্লেখ করিনি। করোনাকালে সোসাল ডিসটেন্স বজায় রাখতে হবে বলে এসময়ে লেখা কাহিনীর সময়টিও ফাগুন মাস তথা ফাগুনের আগুন ঝড়া দিন বলে দেখিয়েছি যেন গল্পটি লেখার কালে সমসাময়িক সামাজিক স্থান কাল অবস্থার বিরোপ প্রতিফলন
লেখাটিতে না এসে পরে ।

উল্লেখ ছাত্রত্ব শেষ হওয়ার পরেও চির চেনা জায়গা ভার্সিটি ক্যাম্পাসে গিয়ে দুজনে প্রেমালাপ করেছে বলে ভেবে নিলে দুষ কি । শুরুটা ছিল ছাত্রত্বকালে পরিনতিটা না হয় এসেছে তার পরবর্তীকালে । ছাত্র জীবনে যে প্রেম প্রেম খেলা করে নাই সে জীবনটাকে পুরাপুরি উপভোগ করতে পারেনি।তাই ছাত্রকালে শুরু হলেও প্রেমের জন্য কেও বাঁচেনা , প্রেমের পরিনতি নিয়ে বাঁচে ,ব্যর্থতায় অবশ্য আবার কেও কেও গলায় দড়ি দিয়ে মরে ।তবে এ যুগের কোন ভার্সিটি ছাত্র ছাত্রী তা আর করেনা , জীবনটাকি তা তারা বুঝে ।সুন্দর মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ ।

৩| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১৪

পদ্ম পুকুর বলেছেন: চুল তার কবেকার অন্ধকার বিদিশার নিশা
মুখ তার শ্রাবস্তীর কারুকার্য; অতিদূর সমুদ্রের পর
হাল ভেঙে যে-নাবিক হারায়েছে দিশা
সবুজ ঘাসের দেশ যখন সে চোখে দেখে দারুচিনি-দ্বীপের ভিতর
তেমনি দেখেছি তারে অন্ধকারে; বলেছে সে, ‘এতদিন কোথায় ছিলেন?

আপনার এই লেখা পড়ে আমারও একই ধরনের অনুভুতি আসছে- এতদিন কোথায় ছিলেন.....
প্রথম মন্তব্যে সোনারু যে মন্তব্য করেছেন, তার বাইরে কিছু বলার নেই। ভাষাশৈলী বেশ উন্নত এবং গম্ভীর। প্রতিটা পর্বেই নতুনত্ব আসছে দেখে ভালো লাগছে। নতুন পর্ব দেখলেই নিজের মধ্যে 'হলের সিনিয়র সিনিয়র' ভাব এসে পড়ে :P

আগের লিংকগুলো যোগ করে দিলে আমরাও একটু পাতে দেয়ার যোগ্য হই! :-B

২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৩৭

বিলুনী বলেছেন:

নতুন পর্ব দেখলেই নিজের মধ্যে 'হলের সিনিয়র সিনিয়র' ভাব এসে পড়ে , অবশ্য্ই আপনি এ ব্লগেরও শ্রদ্ধেয় সিনিয়রদের কাতার ভুক্তই ।মন্তব্যে প্রীত ।সময় নিয়ে ব্লগে এখন হতে হব নিয়মিত ।

৪| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩০

পদ্ম পুকুর বলেছেন: সবগুলি পর্বেও দেখা যাবে তারা এখনো কেবলি ছাত্র , অনেক পর্বে দেখা যায় এই করোনাকালীন সময়ে লেখার কাহিনীতে তারা ক্যম্পসে যাচ্ছেন,ক্লাশে যাচ্ছেন। তবে আমি তদের মিলন স্থানটি ভার্সিটি ক্যাম্পাস দেখালেও এখনো তারা ছাত্র বলে কোথাও হাবেভাবে উল্লেখ করিনি। করোনাকালে সোসাল ডিসটেন্স বজায় রাখতে হবে বলে কাহিনীর সময়টিউ ফাগুন মাস তথা ফাগুনের অগুন ঝড়া দিন বলে দেখিয়েছি যেন গল্পটি লেখার কালে সমসাময়িক সামাজিক স্থান কাল অবস্থার বিরোপ প্রতিফলন
লেখাটিতে না এসে পরে ।


প্রথম দুইপর্ব যদি মনোযোগ দিয়ে পড়েন, দেখবেন, এই দুজন মাত্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়েছে। প্রথমবর্ষে পড়ে। গল্পে যে সময়টার কথা বলা হয়েছে, তা করোনাকালের বেশ আগের। যদিও পরবর্তী পর্বগুলোতে অনেকটা সময় পার হয়েছে, কিন্তু তাতে করেও তারা করোনার এই সময়ে চলে এসেছে, এমনটা মনে হয় না। তাই সামাজিক দুরত্ব বা দৈহিক দুরত্ব কোনোটিই এখানে প্রযোজ্য নয়।

২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৫২

বিলুনী বলেছেন:


আপনার এই মন্তব্যটি লেখার কিছু পুর্বেই( কিংবা আপনার মন্তব্য লেখার সময়ে আমার উদ্ধৃত প্রতি মন্তব্যটির কিন্চিত সংশোধন করেছি। কাহিনীর সময়কাল যেহেতু প্রায় লেখাতেই ছিল উজ্জ, তাই কে কিভাবে নেন সে ভাবনা থেকেই কথা কয়টি বলা । এখন গল্পের খাতিরে সবাই ধরে নিবে লেখাগুলির কাহিনীকাল করোনা পুর্ব । ধন্যবাদ বিষয়টি শ্পষ্ট করে জানিয়ে দেয়ার জন্য ।

৫| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৮:০৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: বিলুনী,




ভাষার মিশ্রন হয়েছে কিছুটা।
এই পর্বের মূল সুর মনে হয় এমন --
সব কথা বলা হলো
বাকি রয়ে গেল শুধু বলিতে
যে কথা মনের কথা কতবার থেমে গেছি
বলিতে বলিতে ।

( হেমন্তের গান )

এর পরে যারা হাল ধরবেন, তার যেন শান্ত নদীতেই গল্পের নৌকাটি আর না বেয়ে চলেন, একটু বিক্ষুব্ধ নদীতে হাল ঘোরান নইলে সবটা যে পানসে হয়ে যাবে!

২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৫৬

বিলুনী বলেছেন:
আপনার মুল্যবান মন্তব্যে খুবই প্রীত হলাম ।
আপনার সুপরামর্শটি আমলে নিয়ে পরবর্তী পর্ব
লেখকগন এগিয়ে আসবেন বলে ধারনা করি ।

৬| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৮:০৬

ইমরান ৩৪ বলেছেন: নদীর বড় কাতলা মাছ কিভাবে কাটে তা নিজের চোখে দেখুন । এই ধরণের আরো নিত্য নতুন ভিডিও পেতে আমাদের Channel টি Subscribe করে Bell icon টি All করে রাখুন । Click this link: www.Update Information.com

নদীর বড় কাতলা মাছ কিভাবে কাটে তা নিজের চোখে দেখুন । এই ধরণের আরো নিত্য নতুন ভিডিও পেতে আমাদের Channel টি Subscribe করে Bell icon টি All করে রাখুন । Click this link: www.Update Information.com

২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৯:০০

বিলুনী বলেছেন:

জায়গা মতেই লিংটি দিয়েছেন ।
এ পর্বগুলির সবজায়গায় লিংকের ছড়াছড়ি
আপনেই বা কেন বাদ পড়বেন ।

৭| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৯:১৪

কবিতা পড়ার প্রহর বলেছেন: ছবিটি সত্যকারের মৃন্ময়ীর ছবি যেন।
লেখাও দারুন হয়েছে।

২৮ শে জুলাই, ২০২০ রাত ২:৩৪

বিলুনী বলেছেন:



লেখাটি দারুন অনুভুত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ ।
মৃন্ময়ীকে সামনা সামনি দেখলে আরো সুন্দর লাগবে।
নভোর মতই দেখতে একটি ছবি আছে কোন এক পর্বে ।

৮| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৯:২২

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সুন্দর উপস্থাপন। সবচেয়ে সহজ হয়েছে সব পর্ব একসাথে পাওয়া যাবে

২৮ শে জুলাই, ২০২০ রাত ২:৩৬

বিলুনী বলেছেন:

উপস্থাপন সুন্দর হয়েছে শুনে ভাল লাগল ।

৯| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১১:৩১

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বাহ !! চমৎকার।
দারুণ একটা ছবি পছন্দ করেছেন।
চমৎকার এ সিরিজের একজন হিসেবে অভিনন্দন।

শুভ কামনা আপনার জন্য।

২৮ শে জুলাই, ২০২০ রাত ২:৫১

বিলুনী বলেছেন:


বাহ!! চমৎকার হয়েছে শুনে আপ্লুত হলাম।
আসল মৃন্ময়ী মনে হয় আরো দারুন ছিল ।
চমৎকার এ সিরিজটি এগিয়ে চলুক এ কামনা করি ।

১০| ২৭ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১১:৪৬

মুক্তা নীল বলেছেন:
নভো'র চিঠিটা আমাদের সাথে একটু শেয়ার করলে খুশি
হতাম । অন্যের প্রেমপত্র পড়ার মজাই আলাদা।
আপনার লেখা হয়েছে অত্যন্ত চমৎকার এবং গোছানো।
পড়ে ভালো লাগলো।

২৮ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৩:০৪

বিলুনী বলেছেন:




এই সেরেছেন, নভো চিঠিটা যে রাখছে কোথায়
সেতো পুরানো কাগজ কুড়িয়ে ডাষ্টবীনে ফালায়,
তবে পাইলে তাকে শুধাব ,না হয় তন্ন তন্ন করে
খুঁজে দেখবো কাওকে মজা পেতে দিব বলে ।
লেখা চমৎকার এবং গোছানো হয়েছে শুনে
ভাল লাগল ।


১১| ২৮ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৪৯

রাজীব নুর বলেছেন: ভালো। জীবন হোকা আনন্দময়।

২৮ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৩:০৬

বিলুনী বলেছেন:



জীবন হোক আনন্দময়
খুবই মুল্যবান কথা বলেছেন ।

১২| ২৮ শে জুলাই, ২০২০ সকাল ১০:৩৬

পুলক ঢালী বলেছেন: প্রথমেই রীলে রেসের দৌড়ে অংশ নেওয়ার জন্য অভিনন্দন ম্যডাম (আমার ধারনা আপনি রুটি বেলার বেলুনী ম্যাডাম নেভার মাইন্ড প্লীজ :D =p~ =p~ =p~ )
পর্ব ৮,৯ এবং ১০ পড়ে মনে হচ্ছে পর্বগুলি দুঁদে সাহিত্যিকদের হাতে পড়ে আরো আরো অনেক সমৃদ্ধ হয়েছে।
এখন আর ঢাক গুঢ় গুঢ় নেই, ওদের মনোবাসনার বিষয়টি আনভেইল হয়ে গেছে। এখন আর রোমাঞ্চে কোন বাধাঁ নেই। দেখি পরের পর্বে কি আসে !!?? বেশ আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষার পালা শুরু হলো।

আপনিও আমার মত ভয় তাড়িত হয়ে তাড়াহুড়া করে লিখে পোষ্ট করে দিয়েছেন !!? এতে অলিখিত একটা প্রতিযোগীতার আভাস বেশ স্পষ্ট ভাবে ফুটে উঠেছে। এখন থেকে যিনি লিখবেন তিনি ভাবতে থাকবেন, " না জানি আবার কে আমার আগে আরেকটা পোষ্ট লিখে ফেললেন :D " হা হা হা।
তবে এমন ঘটনা ঘটলেও কোন সমস্যা নেই, বরঞ্চ মজাই হবে, এবং তার পরবর্তী লেখকের হাতে মাল্টি চয়েজ অপশন থাকবে, যেকোন একটাকে উপজিব্য করে লিখতে পারবেন।

(অঃটঃ সব পর্বেই গাজীভাই মন্তব্য করছেন। এই পর্বে ওনার মন্তব্য দেখে হাসতে হাসতে মরার দশা।
উনি জেনে শুনে বুঝে ইচ্ছে করেই এমন মন্তব্য করেন। তিনি জানেন ভোরের সূর্য জীবনের প্রারম্ভ, মধ্য গগনের সূর্য যৌবন বা বসন্তের প্রতীক অতএব তখন তো জীবনে রং বেরং-এর ফুল ফোটারই কথা, লাল নীল স্বপ্নে বিভোর হয়ে থাকার কথা।
এসময়ে প্রেম না করে বেচেঁ থাকা দায় :D । মৃন এবং নভোর জীবনের সূর্য মধ্য গগনে সুতরাং ------- :D )

সুন্দর একটি পর্ব উপহার দেওয়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ। ভাল থাকুন বিলুনী।

২৯ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১২:২৭

বিলুনী বলেছেন:


লেখা ও বাক স্বাধীনতায় যেহেতু বিশ্বাস করি ,তাই নিক নিয়ে কৌতুক মেনে না নিয়ে উপাই কি। :)

ঠিক্‌ই ধরেছেন আপনার মত আমিও ভয় তাড়িত হয়ে তাড়া হুড়া করে লিখে পোষ্ট করে দিয়েছি ।
এতে অবশ্য অলিখিত প্রতিযোগীতার মনোভাব ছিলনা, তবে যেহেতু এটি মুল পর্বের ধারাবাহিকতায়
এগিয়ে যচ্ছে তাই পুর্বতন পর্বের শেষ লাইন বা মুল কথাটির রেশ টেনে পর্বটি লেখার পরে পোষ্ট করতে
গিয়ে যদি দেখা যায় আমার মত একই রকম ভাবে আগের পর্বের শেষ কথাটি ধরে লেখা হয়ে গেছে ,
তাহলে এর পরের পর্ব হিসাবে আমার লেখাটি দিতে হলে গল্পের কাঠামোটা ও কাহিনীটাই বেমানান
হয়ে গেছে বলে দেখা যাবে , ভয়টা ছিল সেখানেই বেশী ।

আবার পরের পর্ব লেখকগন যদি পুর্বতম শেষ পর্বের শেষ কথা বা কাহিনীর রেশ টেনে না লেখে আগের
যে কোন পর্বের বা পুর্বের পর্বের যে কোন স্থানের লেখার রেশ টেনে লেখেন তাহলে দেখা যাবে তাঁদের
লেখায় ধারাবাহিতা বিঘ্নিত হয়েছে । যথা দেখা যেতে পারে কেও লিখেছেন নভো -মৃনের প্রেমের
রোমান্স কিংবা বিয়ে পর্যন্ত গড়িয়ে নিয়েছেন কাহিনী আবার কেউ বা লিখেছেন নভো-মৃনের প্রেমের
প্রকাশোত্তর অব্যক্ত কাহিনী । লেখা শেষে পোষ্ট করার প্রাক্কালে খুঁজ নিয়ে দেখ যাবে বিষয়টি কি
দাঁড়াল,কষ্ট করে লেখতে গোল পেকে গেল ।

উল্লেখ্য অনেক নতুন পাঠকই পুর্বের শেষ পর্বটি পাঠ করে নতুন পর্ব পাঠে এগিয়ে যান । তখন তিনি
বিভ্রান্ত হয়ে যেতে পারেন ।আমি মনে করি পর্বের কাহিনীর ধারাবাহিকতা বজায় থাকুক। গল্প যেমনই
হোক একই বিষয় যথা নভোনীল শিরোনামে পর্ব গুলিতে কাহিনীর ধারাবাহিকতা বজায় থাকুক ।
এখন যেহেতু অনেকেই স্বপ্রনোদিত হয়ে লিখতে আগ্রহী তাই তারা কতটুকু সময় হাতে পাবেন পুর্বের
পর্বের ধারাবাহিকতায় পাঠক তৃপ্তিদায়ক অপেক্ষাকৃত একটু বড় আকারের গল্প উপস্থাপন করতে
সেটাই ভাবনার বিষয় ।

গাজী ভাই এর প্রাসঙ্গিক মন্তব্য সবসময়ই উপজিব্য। তাঁর মন্তব্যে অনেক সময়ই একটি পোষ্টের লেখার
উপযুক্ত মুল্যায়ন হয় , উচিত বলতে তিনি কাওকে ছাড় দেন না বলে দেখা যায় ।

সুন্দর একটি মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ। আপনিও ভাল থাকুন এ কামনা রইল।

১৩| ২৮ শে জুলাই, ২০২০ দুপুর ১২:৪৭

লরুজন বলেছেন: গল্পডা ইলাসটিকের লাহান অয়া গেছে B-))
টানেন আর লাম্বা হইতাছে,,, B-))
ইলাসটিক থাহে বাইচ্চা ফুলাফানের হাপ্পেনো B-))
আফনেরা বেবাক মিল্যা গল্পডারে ইলসাটিক রবার বানাই লাইছেন গো B-))

২৯ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৩২

বিলুনী বলেছেন:
এবার হতে নতুন পর্বে লেখার বৈচিত্রতা পাবেন বলে আশা করি ।
লেখায় আপনিও যুক্ত হোন এ কামনা রইল ।

১৪| ২৮ শে জুলাই, ২০২০ দুপুর ১:৩২

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন:
জীবন হোক আনন্দময়
খুবই মুল্যবান কথা বলেছেন ।

কথাটা আমার না। একটা মুভি দেখেছিলাম। সেখানে দুঃখী অভাবী নায়ক বারবার তার স্ত্রীকে বলে- জীবন হোক আনন্দময়।

২৯ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৩৫

বিলুনী বলেছেন:


কথাটা আপনার না হলেও মুল্যবান ।
মুভিটার ঠিকানা পেলে দেখে আসতাম।
দুঃখী অভাবী নায়কটা খুবই ভাল মানুষ।

১৫| ২৮ শে জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৫

মিরোরডডল বলেছেন:



বিলুনী, পড়তে ভালোই লাগলো । ইউ ডিড ওয়েল । পুরনো লেখার রেশ ধরে চলছে চলবে ।
কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে পড়ার পর সাথে কিছু নিয়ে যাচ্ছি কি না ? নাহতো ! সাসপেন্স, এক্সসাইটমেন্ট নাথিং ।

আহমেদ জী এস
এর পরে যারা হাল ধরবেন, তার যেন শান্ত নদীতেই গল্পের নৌকাটি আর না বেয়ে চলেন, একটু বিক্ষুব্ধ নদীতে হাল ঘোরান নইলে সবটা যে পানসে হয়ে যাবে!


জী এসের সাথে সহমত । ১০ পর্ব হয়ে গেলো, এ যেন খুবই স্লো । We must need a shake. We all are not vegetarian or vegan here. Some of us must love tasty hot & spicy yummy food. :)

এ কেমন প্রেম, স্পার্কস নেই, পাগলামি নেই, আদর নেই :(

আশা করি নেক্সট যিনি লিখবে এ বিষয়গুলো কনসিডার করবে :|

২৯ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৪০

বিলুনী বলেছেন:


সুন্দর মন্তব্যে প্রীত হলম

সাসপেন্স, এক্সসাইটমেন্ট নিয়ে পরবর্তী পর্ব
আপনার হাত ধরে এগিয়ে চলুক
এ কামনাও থাকল ।

১৬| ২৮ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৮:২১

খায়রুল আহসান বলেছেন: একটু বেশী ছোট হয়ে গেছে বলে মনে হলো। হয়তো তাড়াহুড়োর কারণেই এটা হয়ে থাকবে বলে মনে হয়।
তবে গল্পটা এগিয়েছে, এটাই বড় কথা। স্ব-উদ্যোগী হয়ে গল্পটিকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য ধন্যবাদ।
প্রচেষ্টায় ভাল লাগা + +।

২৯ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৫০

বিলুনী বলেছেন:



গল্পটি ছোঠ হয়ে যাওয়ার কারণ উপরে পুলক ঢালীর মন্তব্যে জবাবে কিছুটা তুলে ধরেছি।
পরের পর্বগুলি কিভাবে এগিয়ে যাবে তা নিয়ে সকলের আলোচনার অবকাশ আছে।
কারণ নভো-মৃনের ধারাবাহিকতায় কোন বিশৃংখলা যেন না ঘটে সেটাও ভাবনার
বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে ।

পোষ্টে ভাল লাগা + + এর জন্য ধন্যবাদ ।

১৭| ২৯ শে জুলাই, ২০২০ সকাল ৭:৩০

পুলক ঢালী বলেছেন: বিলুনী প্রথমেই ধন্যবাদ দেই কৌতুকটিকে উদার মনে গ্রহন করার জন্য। :D

আপনার উত্তর দেখে বুঝতে পারলাম আমি আমার বক্তব্য যথোপযুক্ত ভাবে তুলে ধরতে পারিনি।
ধরুন নবম পর্বের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে ( সেটা শেষ লাইন হোক অথবা বিষয় বস্তু যাই হোক না কেন নো ম্যাটার ) ৩টা নভোনীল ১০ পর্ব পোষ্ট হয়ে গেল। এই ৩টি পর্বের উপস্থাপনায় ভিন্নতা ছাড়া বাকী সবকিছুই ঠিক আছে। এখন ১১ তম পর্ব যিনি লিখবেন তিনি এই ৩টি পর্বের যে কোন একটিকে বেছে নিয়ে লিখতে পারেন। আমি এই ক্ষেত্রে মাল্টি চয়েজের কথা বলেছি। কিন্তু ধারাবাহিকতা ক্ষুন্ন করে কেউ যদি সর্বশেষ যেমন ১০ম পর্ব বাদ দিয়ে ২,৩,৪,৫, যে কোন একটি পর্ব বেছে নেন তাহলে তো আর ধারাবাহিকতাই থাকলো না জগাখিচুড়ী হয়ে গেল মাল্টি-চয়েজ বলতে একথা বুঝাইনি।
আপনি লিখতে লিখতে কেউ যদি ১০ম পর্ব পোষ্ট করে ফেলতো তাহলে আপনার লেখার (৯ম পর্বের ধারাবাহিকতা) খোলনলচে বদলে ফেলে ১০ম পর্ব অনুসরন করে ১১ম পর্ব লিখতে হতো।

ব্যাখ্যাটি প্রয়োজন ছিল ১১ম পর্ব যিনি লিখবেন তিনি যেন বিভ্রান্ত না হন সেজন্য।

ভাল থাকুন বিলুনী। :)

৩০ শে জুলাই, ২০২০ সকাল ৭:৩৮

বিলুনী বলেছেন:



বিষয়টি সম্পর্কে একটি পরিস্কার ব্যখ্যা ও পরবর্তী পর্ব লেখকদের
জন্য একটি ভাল দিক নির্দেশনা দিয়ে যাওয়ার জন্য ধন্যবাদ।

১৮| ২৯ শে জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৩৯

নিয়াজ সুমন বলেছেন: অভিনন্দন বিলুনী আপু,
প্লাটফ্রমে অংশগ্রহণ করার জন্য। আপনার কভার ছবিটি পছন্দ না হয়ে পারলো না।
--------------------------------------------
পর্ব শুরু না হতে শেষ হয়ে গেলো, আকার আয়তন আরো বাড়ানো হলে ভালো হত। আপনি মনে হয় ১৯০১-১৯৫০ সালের লেখা সমুহ পড়ছেন এই মুহুর্তে , কেন এই কথা বলছি- আপনার প্রতিটি লাইন এর টোন, পড়ে মনে হলো আমি ঐ সময়ের কোন লেখকের লেখা পড়ছি।
------------
...পরিনতি কোথায় গিয়ে দাড়াবে তা হয়তো জানা যাবে আগামী পর্বের কোন এক নতুন হাতের স্পর্শে... ততক্ষন পযন্র্ত আমাদের অপেক্ষার প্রহর গুনতে হবে।


৩০ শে জুলাই, ২০২০ সকাল ৮:০৯

বিলুনী বলেছেন:



অপারগায় হলেও প্রচ্ছদ ছবি পছন্দ হয়েছে
শুনে ভাল লাগল । :)
বুঝা গেল আপনি যথেষ্ট পড়াশুনা করেন ।

পরিনতি কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে
তা নতুন লেখকসহ পুর্বের যে কোন পর্ব লেখকও
সুন্দরভাবে আগামী পর্বে তুলে ধরতে পারেন।
একজন লেখক একাধিক পর্ব লিখতে
কোন বাধা আছে বলে মনে হয়না ।

একটি ড্রামা সিরিয়াল দীর্ঘদিন ধরে চলে,
সেখানে দেখা যায় একটি পরিনতি
প্রায় সমাপ্তির পথে এগুতে না এগুতেই
আরেকটি নতুন কাহিনীর সুচনা ঘটে ।
পর্বাকারে লেখা গল্প কথাতেও না হয়
সেরকম কিছু ঘটতে পারে ।
এরকমটা হলে নভোনীল পর্ব
বেশ লম্বাই হয়ে যেতে পারে।

১৯| ৩০ শে জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৪২

খায়রুল আহসান বলেছেন: পুলক ঢালী এর ১৭ নং মন্তব্যের জন্য এবং সেটার উত্তরে একটি সুন্দর প্রতিমন্তব্যের জন্য আপনাদের উভয়কে ধন্যবাদ।

০২ রা আগস্ট, ২০২০ ভোর ৪:৪০

বিলুনী বলেছেন:
পুনরায় এসে মুল্যবান মতামত জাননোর জন্য ধন্যবাদ ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.