নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

লেখালেখিটা পেশা নয় এক প্রকার ক্ষুদ্র নেশার মতো আমি মনে করি। ভালো লাগা থেকে কাগজে কলমে যে শব্দ আসে তার ব‍্য‍খ‍্যা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না। আমি সাধারণ মানুষ, তাই লেখালেখির মতো সাধারণ ভালো লাগাটাই আমার কাছে অসাধারণ মনে হয়।

দেয়ালিকা বিপাশা

দেয়ালিকা বিপাশা › বিস্তারিত পোস্টঃ

ভালোবাসা কেমন ?

১১ ই জুলাই, ২০২১ বিকাল ৫:২৯



ভালোবাসা কি সে সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা না থাকলেও উপলব্ধি যথেষ্ট রয়েছে, যা সকলেরই থাকে । কাউকে ভালোবাসি নি বললে ভুল হবে বেসেছি কিন্তু গোপনে। ভালবাসার প্রথম ধাপ মনে তা উপলব্ধি করা এবং মুখে তা স্বীকার করে নেয়া কিন্তু ক'জন তা করে তার সম্পর্কে আমার জ্ঞান নেই। আলাপচারিতা স্বভাবের না হলেও ভালোবাসার কিছু গল্প শুনেছি দু-একজনকে কাছে থেকে দেখেছিও ।

একপ্রকার ভালবাসার গল্প শুনেছি , গোপনে একতরফা ভালোবেসে যাওয়া এবং কোনো কিছু পাওয়ার আশা না করা। সারা জীবন পাশে থেকে শুধুমাত্র একটিবার দেখার জন্য বেস্ট ফ্রেন্ড হয়ে পাশে থাকা। সর্বোচ্চ বিশ্বস্ত বন্ধু হয়েও মনের গোপন অনুভূতিটা প্রকাশ না করেই হাসিমুখে জীবন কাটিয়ে দেয়া।

আরেক প্রকার ভালোবাসার গল্প শুনেছি যেখানে ভালোবাসা অনুভব করে স্বীকার করার জন্য ছটফট করতে থাকা। প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে হাজারো রকমে তা বোঝাতে চাওয়া, অবশেষে ব্যর্থ হয়ে নিজেকে বিশ্বাস করানো সেটি আসলে ভালোবাসা নয় দীর্ঘসময়ের মোহ মাত্র । একাকিত্বের কেউ সঙ্গী হলে এরূপ মোহ মনের জানালায় উঁকি মেরে জুড়ে বসতে চায় এবং সেই উঁকি মেরে জুড়ে বসা অনুভূতিকে উপড়ে ফেলার জন্যও আবার হাজারো রকমের প্রচেষ্টা চালানো হয় । অর্থাৎ শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনের সবটা অনুভূতি অজানাই রয়ে গেল এক প্রকার অনুভূতিগুলোকে গলা টিপে মেরে ফেলার মত। তবুও মনের মধ্যে রং তুলিতে আঁকা ছবিটিকে মুছে ফেলার সাহস হয় না । এটাও বুঝতে পারা যায় না যে মনের অভ্যান্তরে অদৃশ্য কারো ছবি দৃশ্যমান হয়ে আছে।

আরেক প্রকার গল্প শুনেছি যা উপরোক্ত দু'প্রকার গল্প থেকে পুরো আলাদা। যেটি ভালোবাসার সম্পর্কে বিশ্বাস এবং ভক্তিকে পুরো পাল্টে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা অর্জন কৱাৱ মতো। এক পক্ষের অস্বাভাবিক আন্তরিকতায় অপর পক্ষের মন জয় করে ফেলা এবং অবশেষে পিছিয়ে পড়া অর্থাৎ কারো হাসি, সরলতা, মানসিকতা বা আরো সহজ করে বলতে গেলে লাভ এট ফাস্ট সাইট এবং পাগলের মত প্রেম নিবেদন করে নিজের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ করে যে করেই হোক অপরের মন জয় করে নেয়া। অনেক আশা, অনেক সপ্ন দেখা ,প্রতিশ্রুতি আর খুনসুটিতে পরিপূর্ণ সারাবেলা । একত্রে ওঠাবসা এবং অনেক সুঅভ্যাস কুঅভ্যাস গড়ে তোলা। জীবনে একসঙ্গে চলার হাজার মাইল পথের পদচিহ্ন এক ঝলকে একত্রে দেখে ফেলা , মোহিত শিহরিত হওয়া ।
অবশেষে হঠাৎ চোখে পড়ল যোগ্যতা এবং পারিবারিক মর্যাদার পার্থক্য। যার মন জয় করতে প্রথমে এত পাগলামি আজ তার যোগ্যতা যেন চক্ষুশূল হতে শুরু করলো। শুরু হয় পিছিয়ে পড়া, শুরু হয় নানা অজুহাত কিন্তু বিপদ ঘটে তখন11 যখন অপরপক্ষ সত্যিকার অর্থেই অপরের পাগলামিকে ভালবাসার নাম দিয়ে মনে স্থায়ীভাবে মর্যাদা দেয়। এত বিশাল মর্যাদা পেয়ে পাগলের পালানোর পথ কঠিন হয়ে যায়।
যখন সব ছল ধরা পড়ে যায় তখন অপরের দুনিয়া বিষাক্ত হয়ে যায়। অর্থাৎ ব্যাপারটা একটা গানের লাইন এর মত, " তোমার এমনি আসা এমনি যাওয়া এমনি হাজার ছল সাজিয়েছো যেন , তোমার এমনি খেলা খেয়ালখুশি করছে কোলাহল থামে নি এখনও...। " তখন পাগলের সব পাগলামি পালিয়ে যায় আর রয়ে যায় কু অভ্যাস গুলো যা সারা জীবন কুরে কুরে খায়।

আরেকটি গল্প শুনেছি অপেক্ষা আর বিশ্বাসের। পাওয়ার জন্য বছরের পর বছর অপেক্ষা করে থাকা এবং একই জায়গায় বিশ্বাসকে স্থির করে রাখা। অবশেষে পুরো দুনিয়া এবং পরিবারের সাথে লড়াই করে ভালবাসাকে আপন করে নেয়া। অবশেষে অনুভব করা আমিতো একটি মায়ার পড়েছিলাম সেটা আদৌ ভালবাসা কিনা বলা কঠিন কিন্তু সে মায়ার জন্য আরেক নতুন লড়াই শুরু করে জীবন জয়ের সংগ্রাম করা।

আরেক প্রকার হলো একাকিত্বের ভয়ঙ্কর ফাঁদে পড়ে কাউকে না দেখে, কারো কণ্ঠস্বর না শুনেই শুধু মানসিকতা এবং মন বুঝেই তাকে ভালবেসে ফেলা । সাথে সাথে প্রকাশ করা আর সেই সত্যতা প্রমাণ করতে হাজারো প্রচেষ্টা চালানো। অবশেষে বুঝে যাওয়া এই অনুভূতিকে বাস্তবতায় রূপ দেয়া কঠিন তাই আগ্রহ হারিয়ে ফেলা। ভালোবাসা প্রকাশ করা ঠিকই কিন্তু শেষ অব্দি পাশে থেকে চলার প্রতিজ্ঞায় ব্যর্থ হওয়া। অর্থাৎ প্রেম করা যায় কিন্তু ছিনিয়ে আনা যায় না কারণ, নিজের পজিশনটাই যে নড়বড়ে তাই না চাইতেও হারাতে হয়..!!

আরেক প্রকার ভালোবাসা কাউকে দেখে তার চোখের মায়ায় ডুবে যাওয়া , গোপনে পছন্দ করে ফেলা কিন্তু সেই মানুষটি সামনে থেকে এসে ভালোবাসার প্রস্তাব দিলেও তা স্বীকার করার সাহস হয় না। ভয়-লোকলজ্জায় তাকে ফিরিয়ে দেওয়া কিন্তু সর্বদায় গোপনে তাকে অনুভব করে যাওয়া। খুব খারাপ সময়েও সে মানুষটির ছবি চোখের সামনে স্পষ্ট হয়ে ভেসে ওঠা অথচ সরাসরি দেখা হয়না দীর্ঘ বছর !!!

োৌএত রকম ভালোবাসার গল্পের মাঝে কোনটি যে প্রকৃত ভালোবাসা তা বলা কঠিন! আবার কোনটি ভালোবাসা না সেটাও বলতে চাই না কারণ সে যুক্তি তর্কে যেতে চাইছি না । তবে এতটুকু বলতে পারি ভালোবাসা অন্ধকার থেকে আলোর সন্ধান দেয়। যা অনুভূতিকে পবিত্র করে, মনকে শুদ্ধ করে, বিশ্বাসকে মজবুত করে, আমার আমিকে পাল্টে পরিপূর্ণ আমি তে পরিণত করে ! কাল্পনিক মনে হলেও আমার তো মনে হয় ভালোবাসা এমনই ! কারো জন্য বেঁচে থাকা এবং কারো জন্য জীবন টাকে বিশ্বাস করতে শুরু করা , মনকে শুদ্ধ করে সৃষ্টিকর্তার পথ ধরে চলা ! ভালোবাসা পবিত্র ,ভালোবাসা ইবাদত , ভালোবাসা একটি সম্মানের জায়গা , যেখানে সৃষ্টিকর্তার অস্তিত্ব বিদ্যমান!!
বেঁচে থাকুক সকলের ভালোবাসা সকলের অন্তরে ।


- বিপাশা

মন্তব্য ২১ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (২১) মন্তব্য লিখুন

১| ১১ ই জুলাই, ২০২১ রাত ৮:১৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: দেয়ালিকা বিপাশা,




ভালোবাসা কি, সে সম্পর্কে উপলব্ধির কথা বলেছেন। মানব মানবীর ক্ষেত্রে এক অর্থে তা হয়তো ঠিক কিন্তু ভালোবাসা নিজেই যে বড্ড জটিল। কঠিন এক শব্দ। ভালোবাসি বলা ( মনে মনে বা মুখে ) যতো সহজ , বোঝানো কিন্তু লক্ষকোটি গুন কঠিন।

বলেছেন , হাযারো ভালোবাসার মধ্যে কোনটি যে প্রকৃত ভালোবাসা তা বলা কঠিন। ভালোবাসা কারে কয়...... আসলেই বড্ড কঠিন বিষয়।
ভালোবাসা সম্পর্কে আপনি যা যা শুনেছেন অনুগ্রহ করে সাথের লিংকটি দেখে নিলে তা আসলে কি বুঝতে পারবেন -----“লভ এ্যান্ড রোমান্স” । সখি ভালোবাসা কারে কয়......

১১ ই জুলাই, ২০২১ রাত ৮:৫৭

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: আহমেদ জী এস সাহেব ,


ভালোবাসা বিষয়ে আপনার ব‍‍্যখ‍্যাটি চমৎকার । পড়ে ভালো লাগল কিন্তু আশা করি ভালোবাসার সংজ্ঞায়নে আপনি-আমি কেউ দ্বিমত পোষণ করি নি। "ভালোবাসা থাকে আন্তরিকতায়। " আপনার মন্তব্য এবং স্বচ্ছ ধারণার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ । ☺

- দেয়ালিকা বিপাশা।

২| ১১ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১০:০৫

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: আহমেদ জী এস,

ভুলবশত আপনার মন্তব্য এবং আমার প্রতি উত্তরটি মুছে গিয়েছে সে জন্য আন্তরিক ভাবে দুঃখিত :( । আশা করছি আমার অনাকাঙ্ক্ষিত ভুলটি গ্রহণযোগ্য। ধন্যবাদ ।

৩| ১১ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১০:৫৫

শায়মা বলেছেন: ভালোবাসা এক কঠিন জিনিস।
বুঝা তো সম্ভবই না এক জীবনে....

১১ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১১:৩৬

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: ঠিক বলেছেন শায়মা আপু। ভালোবাসা বুঝা যায় না একজীবনে, এ এক বিশাল রহস্য। পাওয়াও যায় না এতো সহজে।

মন্তব্য করার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ আপু।

৪| ১২ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১:১৩

আমি রানা বলেছেন: অনুভূতি সবগুলোই নিজের সাথে মিলে যায়। শেষটাও, শুধুই শূন্যতা।

১২ ই জুলাই, ২০২১ সকাল ১০:৩৮

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন:
যদিও পূর্ণতা পাওয়া কঠিন তুবও পেয়ে গেলে বিশাল ব‍্যাপার।

লেখাটি পড়ে মন্তব্য করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ

৫| ১২ ই জুলাই, ২০২১ দুপুর ২:৪৪

শায়মা বলেছেন: দেয়ালিকা আপুনি!!


কেমন আছো???


আজকে কি লিখবে??

একটা কবিতা লেখো।


ভালোবাসার কবিতা। :)

১২ ই জুলাই, ২০২১ রাত ৯:১৫

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: ইনশাআল্লাহ আপু চেষ্টা করবো ভালো কিছু লিখতে।

তুমি কেমন আছো?

৬| ১২ ই জুলাই, ২০২১ রাত ৯:৫৩

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: আপনার নিকটা সুন্দর দেয়ালিকা বিপাশা ব্লগে সুস্বাগতম ।

১৩ ই জুলাই, ২০২১ বিকাল ৫:৪৯

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে ।

৭| ১৩ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১১:০২

আহমেদ জী এস বলেছেন: দেয়ালিকা বিপাশা,




মন্তব্য মুছে গেছে, ক্ষতি নেই।
দুঃখ প্রকাশ করাতে আপনার সচেতনতার, ভদ্রতার প্রশংশা করতেই হয়।

১৩ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১১:৪৮

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: আহমেদ জী এস,


প্রতি মন্তব্যের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ ।

আপনার স্বচ্ছ মানসিকতাও প্রশংসনীয়।
ইনশাআল্লাহ। আগামীতেও লেখা পোস্ট করবো সাথে থাকবেন।

-দেয়ালিকা বিপাশা

৮| ১৯ শে জুলাই, ২০২১ ভোর ৬:১৯

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:


ভালবাসার উপলব্দি ও বিবিধ প্রকার
স্বরূপেরপ্রকাশ ভালই লাগল ।
সকল মনিষিই বলে গেছেন
ভালবাসাবিহিন জীবন অর্থহীন
জীবনের মানে বুঝতে হলে
ভালবাসার মধ্যদিয়েই যেতে হবে
সারাটি জীবন ।

শুভেচ্ছা রইল

১৯ শে জুলাই, ২০২১ বিকাল ৩:১২

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: ডঃ এম এ আলী,

আপনার মতামত জানানোর জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ।

দোয়া করি সৃষ্টিকর্তা আমাদের সকলের অন্তরকে ভালোবাসায় পরিপূর্ণ রাখুক এবং
বেঁচে থাকুক আমাদের ভালোবাসা।

- দেয়ালিকা বিপাশা

৯| ২৭ শে জুলাই, ২০২১ বিকাল ৩:৩৪

সোনালি কাবিন বলেছেন: আপনার উপলদ্ধি চিন্তার পললময়, ভাবনার আবেশে ঋদ্ধ ।



০৯ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:২৫

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: সোনালী কাবিন ,



আন্তরিকভাবে দুঃখপ্রকাশ করছি দেরিতে প্রতি মন্তব্য করার জন্য। ধন্যবাদ আপনাকে সুন্দর মন্তব্য করার জন্য।
কিছু জিনিস আমাকে ভীষণ ভাবায়। তাই চিন্তাভাবনা করে বিবেচনা করার চেষ্টা করি। আর ভাবনা যখন বিশাল আকাশে ডানা মেলে তখনই তা টেনে এনে কাগজে-কলমে ছুঁড়ে ফেলি। অনেকটা বেরিয়ে যায় হৃদয়ের আক্ষেপ প্রশান্ত হয় অন্তর।তাই ভাবনাময় চিন্তার এমনই এক দিনে লেখা উপরের উদ্ধৃতাংশটি।

অনেক অনেক শুভকামনা রইল।

- দেয়ালিকা বিপাশা

১০| ০৮ ই আগস্ট, ২০২১ সকাল ১১:২৬

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: যদি উভয় পক্ষ মনে করে ভালোবাসার জন্ম হয়েছে সেই ক্ষেত্রে ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশকে আমি জরুরী মনে করি। এটা শুধু নর-নারীর ভালোবাসা না। অনেক সময় দেখা যায় যে বাবা অথবা মা সন্তানকে ভালোবাসে ঠিকই কিন্তু তার বাইরের আবরণটা থাকে কঠোর। ফলে সন্তান অনেক সময় মনে করে বাবা অথবা মা মনে হয় আমাকে ভালোবাসে না। আমার মা মারা গেছে। যতদিন জীবিত ছিল বুঝতাম না যে সে আমাকে কত ভালোবাসে। বরং অনেক সময় তার কঠোর আচরণের জন্য রাগ করতাম। এখন বুঝতে পারি আমার মা আমাকে অনেক ভালোবাসতো। আমার কোন অসুখ হোলে আমার মা যেভাবে উদ্বিগ্ন হত এখন আমি তেমন কাউকে পাই না। এই তুলনার মাধ্যমে আমি এখন বুঝি যে আমার মা আমাকে অনেক ভালোবাসতেন। কিন্তু তার বহিঃপ্রকাশ অন্য রকম ছিল।

কেউ যদি ভালোবাসার ব্যাপারে নিশ্চিত না হয় সেই ক্ষেত্রে ভালোবাসার কথা কাউকে জানানোর আগে সরাসরি অগ্রসর না হয়ে কৌশল অবলম্বন করে জেনে নেয়া প্রয়োজন যে অপরপক্ষ তৈরি আছে কি না। উভয় পক্ষ নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত এক তরফা প্রস্তাব করা বিপদজনক।

তাড়াহুড়ার ভালোবাসা যেটাকে আপনি লাভ অ্যাট ফার্স্ট সাইট বলেছেন এই ক্ষেত্রে সততার ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া কষ্টকর। তাই ধীরে এগুনো ভালো। কারণ ভালোবাসাকে সার্থক করতে সামাজিক দিককেও বিবেচনার প্রয়োজন হয়। যেটাকে সমাজ মানবে না সেটা থেকে আগেই দূরে থাকা উচিত। ভালোবাসার সামাজিক বহিঃপ্রকাশ অন্তত আমাদের দেশের জন্য জরুরী।

সমস্যা হোল মানুষ যখন প্রেমে পড়ে তখন স্বাভাবিক বুদ্ধি শুদ্ধি অনেক সময় লোপ পায়। ফলে ভালোবাসার পাত্র যতই খারাপ হোক তার কাছে তাকে ভালো লাগে। ভালোবাসায় জড়ানোর আগে অপর পক্ষ সম্পর্কে সঠিকভাবে জানতে হবে। আর মনের মিলের ব্যাপার আছে। অনেকে আছে খুব ভালো মানুষ। কিন্তু বিভিন্ন কারণে তার সাথে এক ছাদের নীচে থাকা সম্ভব না। তাই ভালোবাসা শুধু আবেগ নির্ভর হোলে বিপদ হওয়ার সম্ভবনা বেশী।

ক্ষণিকের প্রেমের জন্য বেশী ভাবনা চিন্তার দরকার নাই। এই ধরণের সম্পর্ক আসলে ভালোবাসা না বরং ক্ষণিকের চাওয়া পাওয়া। কিন্তু কেউ যদি স্থায়ী সম্পর্ক চায় তাহলে তাকে আবেগ বাদ দিয়ে ঠাণ্ডা মাথায় ভাবতে হবে এই ছেলে বা মেয়ের সাথে আসলেই আমি সারাজীবন থাকতে পারবো কি না।

আপনার শেষের প্যারাগ্রাফের আগের প্যারাগ্রাফে আপনি যে ভালোবাসার কথা বলেছেন সেটা অনেক সময় সবচেয়ে কষ্টদায়ক হয়। কারণ ভালোবাসা যদি কেউ মুখ ফুটে বলতে না পারে সেই ক্ষেত্রে তার বিপদে পড়ার সম্ভবনাই বেশী। তাই ভালোবাসার জন্য সাহসও জরুরী। ভীরু ছেলে বা মেয়ে ভালোবাসার জন্য উপযুক্ত পাত্র বা পাত্রি না।

ভালোবাসা সৃষ্টিকর্তার একটি নেয়ামত। কিন্তু আমরা এটার অপব্যবহার করি। দুইজন অশীতিপর বৃদ্ধ আর বৃদ্ধার ভালোবাসার মধ্যে কোন খাদ নাই। এটা আমি হলফ করে বলতে পারি।

০৯ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:১৫

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: সাড়ে চুয়াত্তর,




ভুলবশত আপনার মন্তব্যের প্রতি মন্তব্য করতে গিয়ে মন্তব্য করে ফেলেছি। যার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখপ্রকাশ করছি। দয়া করে আমার মন্তব্যটি পড়ে নেবেন। আপনাকে আবারও অসংখ্য ধন্যবাদ সুন্দর মন্তব্যের জন্য।

শুভকামনা জানবেন ।

- দেয়ালিকা বিপাশা

১১| ০৯ ই আগস্ট, ২০২১ দুপুর ১:০৯

দেয়ালিকা বিপাশা বলেছেন: সাড়ে চুয়াত্তর,



প্রথমে দুঃখ প্রকাশ করছি দেরিতে প্রতি মন্তব্যের জন্য। ভালোবাসার সম্পর্কে আপনার ব্যাখ্যাটি খুব ভালো লেগেছে। চমৎকার লিখেছেন!
আমি আপনার সঙ্গে একমত যে, ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ করাটা খুবই জরুরী। আবার সে ক্ষেত্রে লক্ষ্য রাখতে হবে যে অপরের অনুভূতিটাও যেন দৃঢ় হয়। আবার তাড়াহুড়ো করে ভালবাসা অর্থাৎ লাভ অ‍্যাট ফাস্ট সাইট এর ক্ষেত্রে সততার ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়াটা কষ্টকর তাই ধীরে আগানো এবং সামাজিক দিক বিবেচনা করাও জরুরি।

যথার্থই বলেছেন ভালোবাসার অনেক সময় স্বাভাবিক বুদ্ধি লোপ পায়। আসলে ভালোবাসা নিজেই যে বড্ড কঠিন বিষয়। বুদ্ধিকে নিয়ন্ত্রণ করা যায় কিন্তু মনকে নিয়ন্ত্রণ করা খুব কঠিন তাই হয়তো এমনটি হয়। আমি মনে করি প্রকৃত ভালোবাসা সেটি যেটি মনের চেয়ে বেশি শ্রদ্ধায় বিদ্যমান। ভালোবাসা মুখ ফুটে প্রকাশ করা জরুরী সেটা নিজের কাছে এবং ভালোবাসার মানুষের কাছেও। আর এতে অনেক সাহস লাগে। সেই সাহসটা সবার থাকেনা যা বড়ই দুঃখজনক।

আপনার শেষের অনুচ্ছেদটি আমার খুবই ভালো লেগেছে। কারণ অনুচ্ছেদটি আমার মনোভাবের সঙ্গে মিলে যায় ভালবাসা সৃষ্টিকর্তার একটি নেয়ামত। কিন্তু আমরা এটার অপব্যবহার করি দুইজন অশীতিপর বৃদ্ধ আর বৃদ্ধার ভালোবাসার মধ্যে কোন খাদ নাই।

আসলে ভালোবাসা তো একটি ইবাদতের মত পবিত্র। যেখানে না থাকে কোন হিংসা, অহংকার, বিদ্বেষ আর না থাকে কোনো স্বার্থপরতা। যা মানুষকে শুদ্ধ করে, মনকে প্রশস্ত করে, আত্মাকে মুক্ত করে এবং সৃষ্টিকর্তার অতি নিকটে নিয়ে আসে। যদিও এমন ভালোবাসা পাওয়াটা খুব কঠিন কিন্তু আল্লাহর নেয়ামত যার উপর বর্ষিত হয় তার জন্য কোন কিছুই কঠিন নয়।

আমার সবগুলো পোস্টে লাইক এবং মন্তব্য করার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ। খুব ভালো লেগেছে যে আপনি আমার সব লেখা পড়েছেন এবং সুন্দর মন্তব্য করেছেন। আশাকরি আগামী দিনগুলোতেও সাথে থাকবেন। অনেক শুভকামনা জানবেন।

- দেয়ালিকা বিপাশা

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.