নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

নিজের পোস্টের উত্তর দিতে দেরী হয় সেজন্য সরি।

কাজী ফাতেমা ছবি

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। লেখকের অনুমতি ব্যতীত যে কোন কবিতা, গল্প, ছড়া, রম্য ইত্যাদি সাহিত্যকর্ম যে কোন গনমাধ্যমে যেমনঃ-ম্যাগাজিন, ফেসবুক, ব্যক্তিগত ব্লগ, সামাজিক মাধ্যম, পত্রিকা ও ওয়েবসাইটে প্রকাশ নিষিদ্ধ। বাংলাদেশ কপিরাইট আইন, ২০০০ লংঘন একটি শাস্তিযোগ্য ও দণ্ডনীয় অপরাধ। কপি পেস্ট-ভ্রমরের ডানা”

কাজী ফাতেমা ছবি › বিস্তারিত পোস্টঃ

= সব শেষ হয়ে যায় একদিন=

২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:১৮



©কাজী ফাতেমা ছবি
=একদিন সব শেষ হয়ে যায়=
একদিন আনন্দের ঢেউ ছিলো মন নদীতে,প্রাথমিকে যখন
হইহুল্লোড়ে কেটে যায় পাঁচটি বছর- মন বেখবর,
ক্লাস পার্টি ছিলো না, ছিলো না সেদিন আনন্দের লহর
বন্ধুদের ছেড়ে যাওয়ার এক বেদনাপীড়িত মন ছিলো বুকে।

আহা সেই দিনগুলো মনে পড়ে যায় এবেলা,
তোমাদের মত আমাদের কাঠের বেঞ্চ ছিলো না,
ছিলো না স্কুল ইউনিফর্ম,না ছিলো কাঁধে ঝুলানো স্কুল ব্যাগ,
তোমাদের মত গাদা গাদা বই ছিলো না,
ছিলো না ধবধবের সাদা পাতার খাতা;
তোমাদের মত আমরা কখনো নিয়ে যেতাম না টিফিনের বাটিতে
মধ্যাহ্ন ভোজনের আয়োজন।

বেতের বাড়ির ভয়ে স্কুল পালানো মেয়ে হইনি কখনো
অথবা কখনো পালিয়ে গেলে হাতের তালুয়
সপাং সপাং বেতের বাড়ি নিয়ে বাড়ী ফেরার ব্যথা,
মুখস্থ বিদ্যায় পারদর্শী,এত জ্ঞানমূখর ছিলো না আমাদের পরিবেশ।

স্কুলের মাঠে ঠিক দুপুর হলেই বসতো খেলার আসর,
গোল্লাছুট কানামাছি অথবা রুমাল চোর খেলে খেলে
পার হয়ে যেতো টিফিনের সময়,পেটে অথৈ ক্ষিধা নিয়ে
ক্লাসে মনোযোগী হওয়ার প্রহরগুলো আজও ভাবায়,
তোমাদের মত এত যত্ন আত্মিতে ভরা ছিলো না আমাদের
প্রাথমিকের সিঁড়িগুলো।

ছিলো না শাসন ছিলো না বারণ, নিজের ইচ্ছেয় পড়া শেষে
খেলাতে মত্ত হওয়ার সেই প্রহরগুলো আমায় আজও টানে।
ক্লাস ফাইভে যখন আহা তখন একটি কাঠের বেঞ্চ
শক্তি দেখিয়ে একদল মেয়ে ছেলেদেরকে ঠেলে দখল নিতাম ফাঁকা বেঞ্চের
মেয়েরা বেঞ্চে আর ছেলেরা বসতো পাকায় আসন পেতে,
খাতায় কলম কাটাকুটিতে কেটে যেতো ক্লাসের সময়,
সুখের ঢেউ বুকে নিয়ে ফিরতাম ঠিক বিকেলে নীড়ে।

আজ তোমাদের ক্লাস পার্টি, তোমরা আনন্দে উচ্ছ্বাস আর উল্লাসে
কাটিয়ে দিচ্ছো একটি দিন, ফেরার বেলায় কাঁদো কাঁদো চোখ
বিষাদ মনে মাখিয়ে ফিরে এলে ঘরে, তোমাদের এমন দিন
আমারও যে ছিলো, একদিন হঠাৎ কে কোথায় হারিয়ে গেলাম,
প্রাথমিকের গন্ডি পেরিয়ে মাধ্যমিকে পেলাম এমন প্রিয় প্রিয়
আরও কত মুখ ।

একদিন মাধ্যমিক এর দোরগোড়ায় হাজির, মন তখন খঞ্জন পাখি
প্রজাপতির ডানা মেলা দিন, ফড়িং উড়াউড়ি প্রহর
আমরা মেঘবালিকারা একসাথে হইচই আনন্দে আহ্লাদে
দুষ্টুমি খুঁনসুঁটিতে কাটিয়ে দিয়েছিলাম আরও পাঁচটি বছর।

অতপর সেদিনটুকুও অতীতে ছেড়ে দিয়ে চলে আসি বিশ্ববিদ্যালয়ের গন্ডিতে
সেখানে পেয়ে যাই পুরাতনদের হারিয়ে আরও নতুন মুখ,নতুন বন্ধু
একদিন শিক্ষার শেষ পর্যায়ে এসে দেখি, কেউ নেই পাশে
নেই সুখ পাখির আনাগোনা, প্রজাপতির ডানা ভাঙ্গা প্রহর
ব্যস্ততার বুকে বসে আছে মম কষ্টের গোঙ্গানী,
এই তো জীবন এইতো বেঁচে থাকা, পেয়ে হারিয়ে আবার পেয়ে
বেলাশেষের খেয়ায় উঠে দাঁড়াবো সহসা।
October 3, 2019

মন্তব্য ৫০ টি রেটিং +৯/-০

মন্তব্য (৫০) মন্তব্য লিখুন

১| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২৫

কাজী আবু ইউসুফ (রিফাত) বলেছেন: আপু, আবেগি স্মৃতি কথন তবে, ছবিটা মনে হয় বিবি-র স্কুলের !

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:২৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া

হ্যা বিবি স্কুলের ছবি এটা। এই স্কুলে আর যাওয়া হবে না :( দুইজনই স্কুল ছেড়েছে । বড়জন এসএসসি শেষ করলো
আর ছোটজন অন্য স্কুলে ভর্তি করছি

২| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২৮

কাজী আবু ইউসুফ (রিফাত) বলেছেন: স্কুলের শেষ দিনটা-র কষ্ট এখনো অনুভব করি...সেই স্যার-রা নেই...তাদের পিটুনি, বকুনিসহ ভিতরের আমি-কে জাগিয়ে তোলার যে প্রচেষ্টা তা আজো মনে গেঁথে আছে! মাঝে মাঝে মনে এখন তো চাকুরি করি--সুযোগ করে সেই প্রিয় স্যারদের সামনে কোন উপহার নিয়ে দাঁড়াই! এই যাই যাই করতে করতে কোভিড-কালে দু-জন প্রিয় স্যারকে হারালাম।

---------আপনার লেখাটায় একটু আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছি।

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৩২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আসলেই সেই দিনগুলো বড্ড স্মৃতিকাতর করে ফেলে । কত দুষ্টুমি যে করতাম। মেডাম আদর করে আমাকে পাগলী ডাকতেন। কোথায় আছেন কেমন আছে কে জানে। ব্যস্ততা আমাদেরকে অবসর দেয় না। দেখা হয় না যাওয়া হয় না। তাও ফেইসবুক থাকাতে অনেকের সাথে এড আছি যার কারণে তাদের হালচাল দেখতে পারি রোজ।

জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
ভালো থাকুন

৩| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:৪০

আমি সাজিদ বলেছেন: প্রজাপতির ডানা ভাঙ্গা প্রহর ব্যস্ততার বুকে বসে আছে..... এই তো জীবন

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৩৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি ভাইয়া। আমরা ফুরিয়ে যাচ্ছি এটাই সত্য।

জাজাকাল্লাহ খাইরান ভালো থাকুন অনেক অনেক

৪| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:৪৮

সাইন বোর্ড বলেছেন: স্মৃতি ফিরে আসে বার বার...

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৩৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: স্মৃতি মধুর, স্মৃতি থাকুক সবার মনে সুখ হয়ে। জাজাকাল্লাহ খাইরান ভালো থাকুন ভাইয়া

৫| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৭

শায়মা বলেছেন: আহা আনন্দরা চিরস্থায়ী হলে কি আর আনন্দ থাকে বলো???

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৩৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হুম কথা সত্য। তবুও মনে পড়লে মনে হয় ্আমি শেষ হাহাহা
জাজাকিল্লাহ খাইরান আপি
ভালো থাকো

৬| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫১

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




আমাদের যুগে আমরা যখন খেলেছি পুতুল খেলা
তোমরা এ যুগে সেই বয়সেই লেখাপড়া কর মেল।
আমরা যখন আকাশের তলে ওড়ায়েছি শুধু ঘুড়ি
তোমরা এখন কলের জাহাজ চালাও গগন জুড়ি।
উত্তর মেরু, দক্ষিণ মেরু সব তোমাদের জানা
আমরা শুনেছি সেখানে রয়েছে জিন ,পরী, দেও, দানা।
পাতালপুরীর অজানা কাহিনী তোমরা শোনাও সবে
মেরুতে মেরুতে জানা পরিচয় কেমন করিয়া হবে।
তোমাদের ঘরে আলোর অভাব কভূ নাহি হবে আর
আকাশ-আলোক বাঁধি আনি দূর করিবে অন্ধকার।
শস্য-শ্যামলা এই মাটি মা'র অঙ্গ পুষ্ট করে
আনিবে অটুট স্বাস্থ্য, সবল দেহ-মন ঘরে ঘরে।
তোমাদের গানে, কল-কলতানে উছসি উঠিবে নদী-
সরস করিয়া তৃণ ও তরুরে বহিবে সে নিরবধি
তোমরা আনিবে ফুল ও ফসল পাখি-ডাকা রাঙা ভোর
জগৎ করিবে মধুময়, প্রাণে প্রাণে বাঁধি প্রীতিডোর।

আজিকার শিশু
প্রিয় কবি সুফিয়া কামাল


এখন সম্ভবত বেবী ক্লাস নার্সারী ক্লাস থেকে বিসিএস ফাইনাল এর জন্য পড়ানো হয়। কবিতা খুব ভালো হয়েছে বোন। +++



২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৪৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আহারে কী সুন্দর কবিতা, এসব পড়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়ি। এসব কবিতা রাখে নাই প্রাইমারিতে অথবা রেখেছে তবে অনেকদিন পড়ি নাই ।
জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া ভালো থাকুন অনেক অনেক

৭| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১৯

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: আহা! স্মৃতিকাতর হওয়া কাব্য। কি মধুর না ছিল সেসব দিনগুলো। কাব্যে ভালোলাগা।
সঙ্গে বাড়তি পাওনা প্রিয় ঠাকুর মাহমুদ ভাইয়ের শেয়ার করা শ্রদ্ধেয়া সুফিয়া কামালের অনন্য কবিতাটি। ধন্যবাদ ঠাকুর মাহমুদ ভাইকে।
শুভেচ্ছা জানবেন আপু।

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:১০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আসলেই আমাদের যুগ স্বর্ণযুগ আনন্দের যুগ ছিলো। জাজাকাল্লাহখাইরান ভাইয়া সুন্দর মন্তব্যের জন্য
ভালো থাকুন অনেক অনেক

৮| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৯

জুন বলেছেন: কাজী ফাতেমা ছবি এত সুন্দর করে সেইসব দিনের বর্ননা কবিতার ছত্রে ছত্রে ফুটে উঠেছে যে সত্যি বলতে কি সেসব দিনের কথা মনে করে বুক ব্যাথা করছে। সেই আনন্দময় দিন, টিফিন ছুটি নামেই টিফিন, একটু আচার, বা বাদাম, বুট সাথে খোলা মাঠে উদ্যাম খেলাধুলা। ছুটি হলে বই বুকে করে হেটে হেটে বন্ধুদের সাথে গল্প করতে করতে বাড়ি ফিরে আসা। আহা সেই যে আমার সোনা রংগের দিনগুলো।
+
আমার অনেক আগের এক পোস্ট এক মায়ের স্মৃতিচারন এ আপনার মন্তব্যের জবাব দিয়েছি। দেরী জয়ে গেল বলে আন্তরিক দুঃখিত আমি। সব দোষ আপনার ভাষায় বদ নোটিফিকেশনের :|

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৩৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি আপি আমরাও আচার আইসক্রিম এসব দিয়েই টিফিন সাড়তাম । আনন্দময় দিনগুলো আর ফিরে আসবে না। আর এখনকার বাচ্চাদের সব নিয়মের মাঝেই চলতে হয়, তাই ওরা আমাদের মতন স্কুল জীবনে আনন্দ স্মৃতির খাতায় জমা করতে পারেনি।

সমস্যা নেই আপি। নোটিফিকেশনের জন্য আমিও ভেজালে পড়ি। অনেকদিন পর গিয়ে টের পাই। সামুর এই জিনিসটা ঠিক হলো না।

জাজাকিল্লাহ খাইরান আপি
ভালো থাকুন স্বপরিবারে

৯| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:১১

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: মনটাকে নষ্ট্যালজিক করে তোলে এমন কবিতা, মনে পড়ে যায় আমাদের সেই প্রাথমিকের দিনগুলো, তারপর মাধ্যমিক উচ্চ মাধমিকের পর কঠিন বাস্তব জীবনে এসে আগের দিন গুলো যেন শুধুই স্বপ্ন মনে হয়।

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৩৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: একদম সত্য। অনেক সুন্দর মন্তব্যের জন্য জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
ভালো থাকুন

১০| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:৩৮

পগলা জগাই বলেছেন: ছবিটা চমৎকার

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৩৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ ভাইয়া ভালো থাকুন

১১| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:০৯

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: সব শেষ হয় না। সৃতিরা রয়ে যায়।

স্মৃতি গুলো মনে পড়ে যায়
ছোট বেলার হাসি ভরা দিনে
মনে পড়ে যায়
মন হারায়
হারানো দিনের স্মৃতির পটে
খেলার সাথীরা অনেক দূরে
চোখ থেকে নয় মন প্রীতি থেকে
- উইনিংস

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৪০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আহা কী সুন্দর লাইনগুলো, এসবই হারানো স্মৃতি বারবার মনে ফিরে পাওয়া, সুখে উচ্ছ্বল হয়েই মানুষ এমন কবিতা লিখে। জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
ভালো থাকুন সপরিবারে

১২| ২২ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:১০

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সৃজনশীল লেখা।

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৪২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া ভালো থাকুন

১৩| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১২:০২

রাজীব নুর বলেছেন: আসলেই একদিন সব শেষ হয়ে যাবে! এটা ভাবতে আমার কষ্ট হয়।

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৪২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হুম ফুরিয়ে যাবো আমরা, জাজাকাল্লাহ খাইরান ভালো থাকুন ভাইয়া

১৪| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ৭:৫১

এস সুলতানা বলেছেন: যেন এভাবেই স্মৃতি ফিরে আসে বারবার

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:০১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি আপা
জাজাকিল্লাহ খাইরান ভালো থাকুন

১৫| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৪৮

এমএলজি বলেছেন: ভালো লেগেছে। ধন্যবাদ আপনাকে।

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৪১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান
অনেক ভালো থাকুন
শুভেচ্ছা সতত

১৬| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ৯:১২

নতুন নকিব বলেছেন:



স্মৃতি জাগানিয়া কবিতা। +

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৪১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া অনেক ভালো থাকুন
ফি আমানিল্লাহ

১৭| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৩৬

রামিসা রোজা বলেছেন:
জীবনের শেষ প্রান্তে এসে স্মৃতি-রা হয়তো শ্রেষ্ঠ সঙ্গী হয়ে ওঠে । আপনার ছোটবেলার শৈশব কথন পরীর আবেগ তাড়িত হয়ে গেলাম । এভাবেই হয়তো আমাদের প্রতিটি মানুষকে অনুভব করতে হয় বেলা শেষে ।
আপনাকে অনেক ধন্যবাদ এবং শুভকামনা ।

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:১৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি আপি। স্মৃতিই সময়কে অনেক সময় সুন্দর করে তোলে। কখনো কিছু স্মৃতি মনে করে একই হেসে ফেলি। এত সুন্দর মন্তব্যের জন্য জাজাকাল্লাহ খাইরান
ভালো থাকুন পাশেই থাকুন আপি
ফি আমানিল্লাহ

১৮| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৫৭

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: হুম ফুরিয়ে যাবো আমরা, জাজাকাল্লাহ খাইরান ভালো থাকুন ভাইয়া

কোনো কারনে কি আপনি আমার উপর রেগে আছেন?

২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:২০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হাহাহাহাহাহা হ ভাইয়া রাগ করে আছি, চাদগাজীর সুরে সুর মিলান ক্যারে, এর লাইগ্গা হাহাহা

আরে না রাগ করতাম ক্যারে। আমার রাগ নাই ভাইয়া জি। কেনো মনে হলো রেগে আছি, একদম না

ভালো থাকুন পাশেই থাকুন ফি আমানিল্লাহ

১৯| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:৪৮

উম্মে সায়মা বলেছেন: আহা স্মৃতিময় শৈশব। আবার যদি ফিরে পাওয়া যেত!

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৪৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: কতই না মজা হতো।
অনেক ধন্যবাদ আপি
ভালো থাকুন

২০| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:১৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: পড়তে পড়তে 'আজিকার শিশু' কবিতাটার কথা মনে পড়ছিল। কমেন্টে দেখলাম ঠাকুরমাহমুদ ভাই ওঠা শেয়ার করেছেন।

আমরা স্লেটে লিখতাম মাটির পেন্সিল দিয়ে। আমাদের ছিল ক্লাস ওয়ান-বি এবং ক্লাস ওয়ান-এ। ওয়ান-বিতে ভর্তি হলে পারফর্মেন্স দেখে ২/১ মাস পরেই ওয়ান-এ বা ওয়ানে উঠিয়ে দিত।

এখন লেখাপড়া খুব ব্যয়বহুল। চাইলেও বিনাখরচে বা অল্প খরচে সন্তানদের লেখাপড়া করানো যাবে না। প্রতিযোগিতার বাজার।

আবেগতাড়িত স্মৃতিময় পোস্টে ভালোলাগা জানিয়ে গেলাম।

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:২০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আমরাও কিছুদিন স্টেটে লিখেছি , মাটির পেন্সিল ছিলো সাথে ভেজা কাপড় রাখতাম। আহারে আমাদের ছোটোবেলা।

ব্যয়বহুল তো বটেই, প্রাইভেট পড়ানো, বাসায় টিচার কোচিং কত কি।

জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
ভালো থাকুন

২১| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৫৬

তারেক ফাহিম বলেছেন: পোস্ট পড়ে পুরোনো অনেক স্মৃতি মনে পড়লো।

পাঠে ভালোলাগা।

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৩০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া ভালো থাকুন অনেক অনেক

২২| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০১

নীল আকাশ বলেছেন: পুরাতন স্মৃতি তো বেশ সুন্দর করে ফুটিয়ে তুলেছেন। ভালো লাগলো পড়ে।

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
অনেক ভালো থাকুন

২৩| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:০১

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: স্মৃতি অনেক ক্ষেত্রেই মধুর হয়।

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি ভাইয়া
ধন্যবাদ আপনাকে ভালো থাকুন

২৪| ২৩ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৯

ঢুকিচেপা বলেছেন: আপনার কবিতা পড়ে সেই স্কুল জীবনে ফিরে গিয়েছিলাম।
দারুণ হয়েছে।

উপরের ছবি দেখেই কিন্তু আপনাকে চিনে ফেলেছি..... ঐ যে দেখা যাচ্ছে ওটাই আপনি

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান

হ আপনি ক্যামনে চিনলেন অবাক হলাম হাহাহাহা

ভালো থাকুন সব সময়

২৫| ২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৪৫

কবিতা ক্থ্য বলেছেন: অনেকের কাছে চলে যাওয়াটা আনন্দের

চলে যাওয়া মানে প্রস্থান নয়- বিচ্ছেদ নয়
চলে যাওয়া মানে নয় বন্ধন ছিন্ন-করা আর্দ্র রজনী
চলে গেলে আমারও অধিক কিছু থেকে যাবে
আমার না-থাকা জুড়ে

- রুদ্র মুহম্মদ শহীদুল্লাহ

২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:০২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হুম আনন্দের হতে পারে, তবে আমার কাছে কষ্টের

আর ফিরে পাবো না জেনে

ধন্যবাদ কবিতা
ভালো থাকুন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.