নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

নিজের পোস্টের উত্তর দিতে দেরী হয় সেজন্য সরি।

কাজী ফাতেমা ছবি

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। লেখকের অনুমতি ব্যতীত যে কোন কবিতা, গল্প, ছড়া, রম্য ইত্যাদি সাহিত্যকর্ম যে কোন গনমাধ্যমে যেমনঃ-ম্যাগাজিন, ফেসবুক, ব্যক্তিগত ব্লগ, সামাজিক মাধ্যম, পত্রিকা ও ওয়েবসাইটে প্রকাশ নিষিদ্ধ। বাংলাদেশ কপিরাইট আইন, ২০০০ লংঘন একটি শাস্তিযোগ্য ও দণ্ডনীয় অপরাধ। কপি পেস্ট-ভ্রমরের ডানা”

কাজী ফাতেমা ছবি › বিস্তারিত পোস্টঃ

=হায় রিটায়ার্ড পারসন=

০৫ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:১৫



©কাজী ফাতেমা ছবি

হায় জীবন, হায় রিটায়ার্ড পারসন, হায় নিয়তি!
কত স্বপ্নে লালিত একটি সংসার,
কত ঘামের বিনিময়ে সন্তানের মুখে ফুটে উঠেছিলো হাসি,
ব্যাংক কর্মকর্তা উচ্চ পদবী কতই না ছিলো সম্মান!

হায় জীবন, সময় নিয়ে যায় বেলাশেষের বয়স দোরগোড়ায়,
কত দাপট সংসার মাঝে, সংসারের কর্তা তিনি,
কত সম্মান কর্মস্থলে, তিনি ব্যাংক কর্মকর্তা,
কত ফাইল সই হলেই মানুষের স্বপ্ন হতো পূরণ!

কত সৎ কাজের সাক্ষী হয়ে থেকেছিলেন
নোটিংয়ের এক একটি স্বাক্ষরে,
কত নিয়ম নীতির বুকে মন রেখে কর্মস্থলে থেকেছেন সৎ অবিচল,
হায় রিটায়ার্ড পারসন, বেলাশেষের খেয়ায় ভাসছেন অবিরাম।

উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত একমাত্র ছেলে
চাকুরীরত, মোটা অংকের বেতন...... ছেলে মেয়ে তার দু'
কথা ছিলো তো এই ... সুখ কলকাকলীতে ভরা সংসার
অথচ ছেলের উচ্চাকাঙ্খার কাছে পরাজিত রিটায়ার্ড পারসন!

সঙ্গী নেই বেঁচে, হেঁটে হেঁটে হাফিয়ে উঠা জীবন,
ফ্লাট কিনেছে বলে ছেলে, থাকবে না আর সে বাবা ছুঁয়ে,
নাতী নাতনিরা বেছে নিয়েছে দামী বিদ্যালয়
মানুস হওয়ার মানস,
হায় রিটায়ার্ড বাবা..... একাকিত্বের বুকে নুয়ালো মাথা।

কী হয় সন্তান উচ্চশিক্ষিত হলে,ব্যাংক ব্যালেন্স করে কী হয় ছেলের নামে
কী হয় সন্তানের চোখে চাকচিক্যতা বাড়িয়ে,
কী হয় সন্তানের স্বপ্নকে ঘাম জড়িয়ে লালন পালন করে,
কী হয় সন্তানের নামে বাড়ী গাড়ী করে, কী হয়, কী হয়!
বাবার প্রতি কতটুকু দায়িত্ব মাথা পেতে নিয়েছে সে ছেলে?

হায় সন্তান, হায় রিটায়ার্ড পারসন, হায় জীবন,
কোটি টাকা আঙ্গুলের ফাঁকে চলে যাওয়া জীবনের একি পরিণতি!
হাতের মুঠোভরা টাকা, সন্তান নিজের পায়ে আছে দাঁড়িয়ে,
অথচ হাতের লাঠি সহসা পড়ে যায় ধুলায়,
ও সন্তান মৃত্যু সংবাদ শুনে আসিস তবে দাফন কাফন করিস
এটুকুন আরজি হয়তো রিটায়ার্ড পারসনের মনে।

কান পেতে শুনি রিটায়ার্ড বাবা বলছে, ও আদরের সন্তান
যত টাকা কড়ি জমিয়েছি, নমিনী করে রেখেছিলাম বাপ,
তোরাই নিয়ে যাস সব, করে নিস নিজের নামে,
এটুকু প্রার্থনা, তোদের সন্তান উচ্চ শিক্ষিত না বানিয়ে,
মানুষ বানাস, বুড়োবেলা যেন তোদেরকে ছেড়ে না যায়
তোদের আদরের সন্তান।
(০৫ আগষ্ট ২০২০)

মন্তব্য ৩২ টি রেটিং +৮/-০

মন্তব্য (৩২) মন্তব্য লিখুন

১| ০৫ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:৩৭

জটিল ভাই বলেছেন: নির্মম বাস্তবতা...... কিন্তু সবাই সব ভুলে গেলেও, প্রকৃতি ভুলে না!!
লিখাটা মনে আঘাত করলো.......

০৬ ই মে, ২০২১ সকাল ১০:৪০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হয়তো সবাই একরকম না। কিন্তু কিছু কিছু সন্তান এমন নিষ্ঠুর আচরণ মা বাবার সাথে করে দেখলে অবাক হই।

ধন্যবাদ আপনাকে
ভালো থাকুন

২| ০৫ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:৪০

শেরজা তপন বলেছেন: বাবা সন্তানের শুরুর সম্পর্কটা কিন্তু শেষ বেলার সম্পর্কের একটা বড় ভিত্তি!
সেই দ্বায়িত্বটা সঠিকভাবে কিন্তু বাবাকেই পালন করতে হবে- সেই সাথে মায়েরও যদি বাবার প্রতি শ্রদ্ধাবোধ না থাকে বাবার প্রতি সন্তানের দ্বায়িত্ববোধ ও কেমন আচরন করতে হবে সেই শিক্ষা না দেন, তবে এমন হবার সম্ভাবনা বেশী।

কবিতা কষ্টের তবে ভাল লেগেছে বিশেষ করে শেষ লাইনগুলো। তবে সেই বাবাও কিন্তু ছেলেকে মানুষ করে গড়ে তুলতে পারেনি- সন্তান পারবে কেমনে????

০৬ ই মে, ২০২১ সকাল ১০:৪৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি এজন্য বাবাদের অত্যন্ত সহনশীল এবং সন্তানদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ করতে হয়। জানতে হয় তাদের মন বুঝে তাদের শাসন করতে হয়। অনেক বাবাই কঠিন আচরণ করেন ছোটোবেলা থেকে যদি ভরণপোষণ ইচ্ছা সবই পূরণ করেন। সে বাবাদের প্রতি সন্তানদের তিক্ততা লেগে যায় যা ভবিষ্যতে আলাদা হওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়ে নে।

হয়তো পারেনি মানুষ করতে। ছেলেও মানুষ হতে পারে যদি অনুভবে বাবা মায়ের প্রতি দায়িত্ববোধটুকু নিয়ে আসে।

আর এখনকার সন্তান মানুষ করা কঠিন ভাইয়া। এরা কথাই শুনতে চায় না। এরা অল্পতেই অভিমানি হয়ে যায়। বুঝাইলেও বুঝে না।

জাজাকাল্লাহ খাইরান ভালো থাকুন ভাইয়া
ফি আমানিল্লাহ

৩| ০৫ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:৪৬

নজসু বলেছেন:


আস সালামু আলাইকুম প্রিয় আপা।
আশা করি আল্লাহর অশেষ রহমতে পরিবারের সবাইকে নিয়ে ভালো আছেন।
নচিকেতার বৃদ্ধাশ্রম গানটি শুনে চোখে পানি এসেছিলো।
আপনার লেখাটি আমার সেই পুরাতন স্মৃতি জাগিয়ে দিলো।
উচ্চ শিক্ষিত হয়ে কি লাভ? যদি না সে মানুষ হয়।
লাইক । দোয়া রইলো

০৬ ই মে, ২০২১ সকাল ১০:৫১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ওয়ালাইকুম আস সালাম প্রিয় ভাইয়া। আলহামদুলিল্লাহ সবাইকে নিয়ে ভালো আছি।

কথা সেটাই। তবে এমনও হতে পারে, সন্তান লালন পালনে কিছু একটা খুঁত রয়ে গেছিলো। তবে সন্তানদের বুঝা উচিত, মা বাবাই তাকে যেভাবেই হোক বড় করেছেন মানুষ করেছেন। আল্লাহ আমাদের সন্তানদের সঠিক বুঝদান দিন।

জাজাকাল্লাহ খাইরান ভালো থাকুন ভাইয়া ফি আমানিল্লাহ

৪| ০৫ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:৫৩

চাঁদগাজী বলেছেন:



পদ্যের কথা বাদ দেন, আপনার ধারণাই সঠিক নয়; আপনার রিটায়ারমেন্ট কি কাছে চলে এসেছে? বাংলাদেশই বিশ্বের একমাত্র দেশ নয়। রিটায়ারমেন্টের পর, বেশীরভাগ মানুষ শিকলমুক্ত হয়।

০৬ ই মে, ২০২১ সকাল ১১:২২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হুম আমার ধারণা সঠিক না ভাইজান। এগুলো মাঝে মাঝে ঘটে যায় আর কী। না রিটায়ার দেরী আছে কিছুটা। শিকলমুক্ত হলেও মানুষের জন্য মানুষ প্রয়োজন। মানুষ একা থাকতে পারে না। তবে বুড়োকালে মানুষের বড় প্রয়োজন।

ধন্যবাদ ভালো থাকুন

৫| ০৫ ই মে, ২০২১ বিকাল ৩:৩৩

স্বর্ণবন্ধন বলেছেন: আসলে এখন যে অন্তর্দ্বন্দে আমরা ভুগছি তা হলো সভ্যতা ও সংস্কৃতির সংঘাতের ফল। আমাদের প্রাচ্যের সমাজ প্রাচীন কাল থেকেই কালক্টেভিস্ট। এখানে ব্যক্তির চেয়ে সমন্বিত সমাজকে বা পরিবারকে বড় করে দেখা হয়। আমাদের মধ্যে তাই বপন করা আছে সেই ধরনের প্রত্যাশাও। মানুষ একাকী বা একাকীত্বই পরম সত্য এই আধ্যাত্মিকতা এই উপমহাদেশের আবিষ্কার হলেও সেটা তাত্ত্বিক কথা হয়েই থেকেছে। আমরা আজো সমবেত জীবন যাপনের ধারণাকেই ধারণ করি।
অন্যদিকে পশ্চিমের দর্শনে জীবন ব্যক্তিতান্ত্রিক বা ইনডিভিজুয়ালিস্টিক। সেখানে আত্মকেন্দ্রিকতা, ব্যক্তি স্বাধীনতা ও মুক্ত জীবনের গুরুত্ব সামাজিক সম্পর্কের চেয়েও অনেক বড়। সেটাই তাদের জীবনের শক্তিও বটে।
আমাদের দেশের সফল মানুষেরা সন্তানদের বড় করেন পশ্চিমের শিক্ষায়। চান তাদের সন্তানেরা পুরোদস্তুর সফল হোক নিজস্ব জীবনে। জীবন যুদ্ধে হোক একেবারে প্রথম দরকার হলে অন্যকে মাড়িয়ে হলেও! যা পুরোদস্তুর পশ্চিমের দর্শন।
তাই পশ্চিমের সভ্যতার আলোয় পুরোটা সময় পার করে, শেষকালে পূর্বকে খুজলে হতাশা, অপ্রাপ্তি, আর মনোস্তাত্বিক সঙ্ঘাত কি অনিবার্য নয়!

০৬ ই মে, ২০২১ সকাল ১১:৪৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আপনার কথা ঠিক আছে। শেষ বয়সে একাকিত্ব যে কী কষ্ট। বুড়ো মানুষরাই বুঝে। এজন্য মাঝে মাঝে শুনি। পাশ্চাত্যের দেশগুলোতে মানুষ একা একা ঘরে মরে পরে থাকে। লাশের গন্ধ বের হইলে পরে পুলিশ এসে উদ্ধার করে। এসবকে জীবন বলে :( শুনলেই ভয়ে কেপে উঠি।

আসলেই আমাদের দেশের কালচার বদলে গেছে সীমাহীন। এখনকার যে রঙ ঢঙে ডিভাইস হাতে দিয়ে সন্তান লালন পালন করছি আমরা, আমাদের ঠিক প্রাপ্যতাই বুড়ো বয়সে অপেক্ষা করছে। মানুষ করার চেয়ে আদর আহ্লাদ আবেগ দিয়ে এদের বড় করার ফলে এরা মা বাবার কষ্ট বুঝতে চায় না। আর চাকুরীজীবীদের তো কথাই নেই। কোনো অভাববোধ না থাকায় সন্তানরা ভাবে তারা যায় চায় তাই পায়, তাদের কষ্ট করার দরকার কী। মা বাবার সহায় সম্পদ পেয়ে যায় অনায়াসে। তারা বুঝে না মানুষের জন্য মানুষের দরদ। নিজের দিকটাই বিবেচনা করে দেখছি।

ওরা বলে মা এটা নিয়ে আসতে পারো, এটা কিনতে পারো না। আমি বলি বাপরে টাকার মূল্য কী এখনো বুঝতে পারলি না। সব কিছু পেয়ে যাচ্ছিস অনায়াসে আর আমরা কত কষ্ট করে পড়াশুনা করেছি। এরা কী আমাদের দুঃখ বুঝবে? কে জানে।

অথচ আমার বাবার জন্য মায়ের জন্য কলিজা ফেটে যায়। দূরে থাকি বলে সেবাযত্নেরও সুযোগ নেই। আল্লাহ সব মা বাবাকে ভালো রাখুন

ধন্যবাদ আপনাকে
ভালো থাকুন স্বপরিবারে

৬| ০৫ ই মে, ২০২১ বিকাল ৩:৫২

ইসিয়াক বলেছেন: ভালো লাগলো।

০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ১২:১২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া
ভালো থাকুন

৭| ০৫ ই মে, ২০২১ বিকাল ৪:১৩

শোভন শামস বলেছেন: সুসন্তান কাম্য, সন্তান ধনী হলে ভাল তবে আগে মানুষ হওয়া চাই, চাই মানবিক গুনের সন্তান।

০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:১৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: এখনকার সন্তান বেশী পেয়ে পেয়ে কষ্ট করে পাওয়ার মর্যাদা ভুলে যাচ্ছে। আমরা মা বাবারাই এজন্য দায়ী।

ধন্যবাদ ভাইয়া সুন্দর মন্তব্যের জন্য

৮| ০৫ ই মে, ২০২১ বিকাল ৪:২০

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:

চমৎকার কাবিক ঢংয়ে কঠিন বাস্তবতার
চিরন্তন রূপ। ধন্যবাদ আপু রিটায়ার্ড পারসনের
কঠিন চিত্র অংকন করার জন্য।

০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:৪০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: সুন্দর মন্তব্যের জন্য জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
স্বপরিবারে ভালো থাকুন
ফি আমানিল্লাহ

৯| ০৫ ই মে, ২০২১ বিকাল ৪:২৩

আরাফআহনাফ বলেছেন: তোদের সন্তান উচ্চ শিক্ষিত না বানিয়ে,
মানুষ বানাস, বুড়োবেলা যেন তোদেরকে ছেড়ে না যায়
তোদের আদরের সন্তান।


অথচ, বৃত্তবন্ধী হয়ে আমার দাদা,বাবার হয়েছিলো একই পরিণতি, আমারও হবে তাই - হায় নিয়তি!

০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:৫৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: যে যেমন করে তেমনই পুরুস্কার পায়। কে জানে কার জন্য আল্লাহ তাআলা কী উপহার রেখেছেন।

ধন্যবাদ ভাইয়া
ভালো থাকুন অনেক অনেক
ফি আমানিল্লাহ

১০| ০৫ ই মে, ২০২১ রাত ৮:০৪

কামাল১৮ বলেছেন: আমার কাছে কিন্তু ভালই লাগে,স্বাধীন জীবন।সকল অবস্থা মেনে নেবার যে মানসিক শক্তি সেটা অর্জন করা গেলে সমস্যা হবার কথা না।

০৬ ই মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: কিন্তু একেবারে চলার ক্ষমতা থাকবে না তখন কী করবেন? বুড়ো মানুষরা চায় কেউ তার পাশে বসুক গল্প করুক আড্ডা দিক। এমন কত দেখতেছি। মানুষ একা থাকতে পারে না কিন্তু

বুড়োরা পরনির্ভরশীল হয়ে উঠে একটা সময়ে তখন সন্তানদেরকেই কাছে চায় মা বাবা।

ধন্যবাদ ভালো থাকুন

১১| ০৫ ই মে, ২০২১ রাত ৮:০৬

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:


অবসরের পর ভালো জীবন দরকার।
সময় কাটানোর জন্য প্রচুর পরিমাণে কাজ দরকার।

০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:৫৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হুম কাজ দরকার, নিজেকে ভালো রাখার জন্য সেই রকম পদক্ষেপও নেয়া দরকার। চুপসে গেলে হবে না। তবে বুড়োবয়সে সন্তানরা কাছে থাকুক সব মা বাবাই চায়

ধন্যবাদ সাজ্জাদ ভাই
ভালো থাকুন

১২| ০৫ ই মে, ২০২১ রাত ১১:৩১

ঢুকিচেপা বলেছেন: খুবই বাস্তব প্রতিচ্ছবি।

০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ১২:১৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি ভাইয়া । বাস্তবে তাই দেখতেছি।

ধন্যবাদ অনেক অনেক
ভালো থাকুন ফি আমানিল্লাহ

১৩| ০৬ ই মে, ২০২১ রাত ১:২৩

রাজীব নুর বলেছেন: একদিন আপনি রিটায়ার্ড পারসর্ন হবেন।

০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ১২:১২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হুম তাতো হবোই
ভালো থাকুন
ফি আমানিল্লাহ

১৪| ০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ১২:৫৪

মা.হাসান বলেছেন: রিটায়ারমেন্টের পরে ব্লগে আইসা অপরদের ইডিয়ট বলে গালি গালাজ করবেন, সময়টা ভালো কাটবে, ছেলেপুলের কথা মনে পড়বে না।

তবে রিটায়ারমেন্টের আগে আমারে একটা বড় অঙ্কের লোন দিয়া তার পর রিটায়ারমেন্টে যাবেন। মনে রাখবেন- বড় অঙ্কের টাকা।
আবুল কিন্তু কইছে- তিন হাজার কোটি টাকা কুনু টাকাই না।

০৬ ই মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হাহাহাহ তখন লেখার ক্ষমতা যদি থাকে ইনশাআল্লাহ আসবো আইসা সুখ দুঃখ ভাগ বাটোয়ারা করবো। তখন ব্লগারদের সাথে আড্ডা দিতে যাবো। আল্লাহ জানেন আমার পোলারা কেমন হবে :( আল্লাহ তাদেরকে নেক হায়াত দান করুন।

আরে এখনো লোনের জন্য আবেদন করেননি। সময় ফুরায়ে যাচ্ছে তো । দশ হাজার কোটি দেবো আগে আবেদন পাঠান ।

জাজাকাল্লাহ খাইরান ভালো থাকুন। ফেসবুক একাউন্ট খুলেন নাই :(

১৫| ০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ১:৫৮

অনন্য দায়িত্বশীল আমি বলেছেন: রিটায়ারমেন্ট আমার কাছে স্বাধীনতা মনে হয়।

০৬ ই মে, ২০২১ দুপুর ২:৪১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: গায়ে জোর শক্তি চলার ক্ষমতা থাকলে ভালো লাগে। কিন্তু যখন জরাজীর্ণতায় আচ্ছন্ন হবেন তখন একলা থাকলে খুবই কষ্ট হবে। বুড়ো মানুষগুলো পরনির্ভরশীল হয় খুব ।

ধন্যবাদ আপনাকে ভালো থাকুন

১৬| ০৬ ই মে, ২০২১ বিকাল ৩:২৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




কারো কারো জন্য অবসর জীবন যাপন বিপদ জনক।

০৯ ই মে, ২০২১ সকাল ১০:২২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: একদম ঠিক। জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
ভালো থাকুন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.