নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

নিজের পোস্টের উত্তর দিতে দেরী হয় সেজন্য সরি।

কাজী ফাতেমা ছবি

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। লেখকের অনুমতি ব্যতীত যে কোন কবিতা, গল্প, ছড়া, রম্য ইত্যাদি সাহিত্যকর্ম যে কোন গনমাধ্যমে যেমনঃ-ম্যাগাজিন, ফেসবুক, ব্যক্তিগত ব্লগ, সামাজিক মাধ্যম, পত্রিকা ও ওয়েবসাইটে প্রকাশ নিষিদ্ধ। বাংলাদেশ কপিরাইট আইন, ২০০০ লংঘন একটি শাস্তিযোগ্য ও দণ্ডনীয় অপরাধ। কপি পেস্ট-ভ্রমরের ডানা”

কাজী ফাতেমা ছবি › বিস্তারিত পোস্টঃ

» =স্মৃতিময় ঈদ ১৪ মে ২০২১=

২৫ শে মে, ২০২১ দুপুর ১:১০

০১। উফ গাছের নিচে করবির মেলা। কী যে ভালো লাগছিলো। তুলে এনে টিউবওয়েলে রেখে ছবি তুলেছি।



=স্মৃতিময় ঈদ আমার=

এবারের ঈদ ছিল আমার সেরা ঈদ। কারণ এবারের ঈদ আব্বা আম্মার সাথে করেছি। প্রায় বিশ বছর পরে নিজের বাড়ীতে ঈদ করলাম। এই বছরের গত মার্চের শেষ দিকে আব্বার মাইল্ড স্ট্রোক হয়। আব্বা আগের চেয়ে অনেক দুর্বল হয়ে পড়েছেন। মার্চেই এসেছিলেন ঢাকায়, কিছু টেস্ট আর ডাক্তার দেখানোর জন্য। ঢাকায় আমরা দুইবোন আছি, আমার ছোট বোনও বাংলাদেশ ব্যাংকেই জব করে। আব্বাকে দুই বোন মিলে ডাক্তার টেস্ট সব করিয়েছি। আব্বার বয়স প্রায় ৯০। তিনি মুক্তিযোদ্ধা এবং একজন সেনাবাহিনীর সৈনিক হিসেবে রিটায়ার্ড পারসন। আব্বা যথেষ্ট শক্ত এখনো আল্লাহর রহমতে। এন্ডোসকপি পর্যন্ত করালাম। সব টেস্ট ভালো রেজাল্টও আসছে। গ্যাস ছাড়া তেমন বড় কোন সমস্যা নাই।

যাই হোক সব টেস্ট ডাক্তার দেখানোর পরে বাড়ী গেলেন। যেদিন গেলেন, এর পরেরদিনই মাইল্ড স্ট্রোক করেন। এক সাইট হালকা প্যারালাইজড ভাব ছিলো। এখন সব ঠিক আছে আলহামদুলিল্লাহ্ । হাঁটতে পারেন। তবে দুর্বল বেশী। একটাই সমস্যা এখন মুখ তিতা তিতা। খেতে পারেন না তেমন। আলহামদুলিল্লাহ তবুও অনেক মানুষের চেয়ে সুস্থ আছেন আব্বা। আব্বা খুব কর্মট ব্যক্তি। তিনি বসে থাকা পছন্দ করেন না। গ্রামের বাড়ীতে কত কাজ, ক্ষেতে সবজি করা থেকে ধরে কাপড় ধোয়া ঘরের কাজে আম্মাকে হেল্প করা সবই আব্বা করতেন। বসে থাকার লোক তিনি ছিলেন না। কিন্তু এখন কাজ করতে ভয় পান দুর্বলতার কারণে। কাজকর্ম করতে না পারায় আব্বা অনেকইটা হতাশ। আল্লাহ আমার আব্বাকে নেক হায়াত ও সুস্থতা দান করুন।

এবার মনে মনে ভেবে নিয়েছিলাম আব্বা আম্মার সাথেই ঈদ করবো। কিন্তু করোনার লকডাউন। করোনার সংক্রমণ বেড়ে গেলো হঠাৎ। তাসীনের বাপে বললো যেতে পারো তবে বাচ্চারা যাবে না এই সংক্রমণকালে। আমি সেটাও মেনে নিয়েছি। আমার বোনও রাজী এবারের ঈদ আব্বা আম্মার সাথেই করবো ইনশাআল্লাহ। গত ১২ তারিখ একটা মাইক্রো ঠিক করে আমি ও আমার বোনের ফ্যামিলী আর আমার ছোট ভাই বাড়ীর উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছিলাম। বিকেল পাঁচটায় রওয়ানা দিয়েছিলাম। ওরে বাপরে বাপ, এত জ্যাম ঢাকা থেকে বের হতে পারিনি ইফতারের আগে। এক হোটেলে ইফতার সাড়লাম। কিন্তু দুঃখের বিষয় সেই হোটেলে একটা থালায় দু'মুঠ মুড়ি আর একটা পিঁয়াজো রাখলো ৭৫/- । রোজার দিনেও এদের সীমাহীন লাভ করতে হয়। অথচ অন্যান্যা দেশে রোজাদারদের ফ্রি ইফতার করায় আর আমাদের দেশে করে ডাকাতি।

আমরা যে যাবো তা আবার বাড়ীতে জানাইনি সারপ্রাইজ দেবো বলে ! যাই হোক রাত প্রায় বারোটা বাজলো বাড়ী পৌঁছতে। ছোট ভাই বাড়ীতে যে ছিলো তাকে ফোন করে দিলে সে আমাদেরকে এগিয়ে নিতে আসে। ঘরে এসেই আব্বাকে তাক লাগিয়ে দেই। আব্বাতো হতবাক। কান্নাকাটি করতেই আছেন। ইশ কী যে আনন্দ আব্বার চোখে।

পরেরদিন ইফতার করতে বসছি আমরা পাঁচ ভাইবোন আব্বা আম্মা আহা আব্বার যে কী খুশি। এই খুশি লক্ষ কোটি টাকা দিয়েও কেনা যাবে না। আব্বা বলেন এবার আমার সেরা ঈদ হবে। আব্বা বলতেই থাকেন এই ইফতারীটা জীবনের সেরা ইফতারী। এসব শুনে বুকটা হাহাকার করে। মেয়েরা কত অসহায় । জামাইর ইচ্ছা ছাড়া বিয়ের পর বাপের বাড়ী ঈদই করা হয় না। কিন্তু টানা বৃষ্টিতে সারাদিনই কারেন্ট ছিলো না। এমনকি ইফতার টাইমেও কারেন্ট ছিলো না। গ্রামের বাড়ী একটা বৃষ্টির ফোঁটা পড়লেই কারেন্ট উধাও। তাতে কিন্তু আনন্দে একটুও ভাটা পড়েনি।

ঈদের দিনটাও এমন আনন্দে কেটেছে। তবে মনটা খচখচ করতেছিলো তাসীন তামীমের জন্য। তারা আমার সাথে না থাকাতে কোথায় যেন আনন্দের ঘাটতি ছিলো। ইচ্ছে করলে ঈদের পর আরও কয়েকদিন থাকতে পারতাম। কিন্তু বাচ্চারা আমাকে ছাড়া ঈদ করেছে তাই ঈদের একদিন পরে চলে আসছি ঢাকা। ঈদে কোথাও বেড়াতেও যেতে পারিনি ওদের জন্য মন পুড়ছিলো। ছোট বোনটা বলেছিলো চল চা বাগানে অনন্ত ঘুরে আসি। মন সায় দিলো না যাওয়া হলো না কোথাও।

আমার স্মৃতিময় ঈদের আনন্দটুকু সবার সাথে ভাগ করলাম। থাকুক স্মৃতি হয়ে। আরও এমন ঈদ আমার জন্য ফিরে আসে সেজন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ আমার আব্বাকে সুস্থ সুন্দর রাখেন দোয়ার জন্য প্রার্থনা করছি।

০২। পথে গ্যাস ভরার সময় একটা দোকানে চকলেট আইসক্রিম খেয়েছিলাম যাওয়ার দিন।



০৩। আহা তরতাজা কামরাংগা। গ্রামের বাড়ী ফলের মেলা। গাছে গাছে প্রচুর আমও ধরেছে মাশাআল্লাহ।



০৪। গাছে ফুটেছে থরে থরে কামিনী ফুল । ঘ্রাণে মাতাল মন পাড়া।



০৫। প্রচুর ব্যাঙের ছাতা চারিদিকে। কত কিছিমের মাশরুম । ছবিও তুলেছি কতগুলোর । মাত্র একটা দিলাম।



০৬। দিনদুপুরে এক কাপ চা, সাথে আছে সোনালো, করবি, কামিনি। ঈদের পরদিন।



০৭। বাকবাকুম বাকবাকুম......... ওদের স্বাধীনতার দিন।



০৮। সব গাছেই দেখলাম প্রচুর কাঁঠাল। এমন মুহুর্তে গেলাম। কিছুই খেতে পারলাম না আফসোস।



০৯। কিতা গো আফা, পিছে পিছে আইতাছো কা? ফটো তুলতায় নি, নেও তুলো তুইলা ফুটো........ তার সাথে দেখা করতে
যাইতাছি আর বাধা দিয়ো না। দেখো তো সাজটা ঠিকাছে নি



১০। গামারী গাছের নিচেও ঝরা ফুলের মেলা আহা, গ্রামীন জীবন কত সুন্দর জীবন।



১১। কাঁঠাল



১২। আনারস।



১৩। কিছু জারুল ফুলের পাপড়ি। গাছ অনেক বড় যার কারণে ফুলের ছবি উঠাতে পারিনি।



১৪। আমাদের পুকুর ঘাট, জলের আয়নায় আকাশ ছবি



১৫। ধানকাটা শেষে প্রকৃতি



১৬। জোড়া কইতর



১৭। কাঁঠাল



১৮। মেহেদী রাঙা হাত, ভাইয়ের মেয়ের হাত।



১৯। চটপটি ঈদের দিন।



২০। গামারী ফুল হাতে



২১। কিতা গো বইন, ফটো তুলতে নি........ খাড়া পোজ দিয়া লই প্লিজ



২২। ঈদের পিঠা, ডাল পিঠা।



মন্তব্য ৪২ টি রেটিং +১০/-০

মন্তব্য (৪২) মন্তব্য লিখুন

১| ২৫ শে মে, ২০২১ দুপুর ১:৪০

রোকনুজ্জামান খান বলেছেন: দৃষ্টি নন্দন । সেই সাথে মনে পরে গেল লবণ নিয়ে বড় কামরাঙ্গা গাছে উঠে~ আমি আর আমার বন্ধু কামরাঙ্গা খেয়েছিলাম~ সেই দিনের কথা।

২৫ শে মে, ২০২১ দুপুর ১:৫১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আপনার জন্য।

ঢাকায় কামরাঙ্গা খাওয়ার কথা ভুলেই গেছি। অথচ বড় বোলে এক বোল গুড়া মরিচ দিয়ে মাখিয়ে আমরা ভাইবোনেরা মিলে ভর্তা খাইতাম। এখন অবশ্যই পেটেও সইবে না

ধন্যবাদ আপনাকে ভালো থাকুন ফি আমানিল্লাহ

২| ২৫ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:০৯

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: ১, ৪, ৭, ১৪, ১৫ ও শেষেরটা বেশী ভালো হয়েছে।

২৫ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:১৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ মরু ভাই।
ভালো থাকুন

৩| ২৫ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: প্রতিটা ছবিই সুন্দর হয়েছে।
বাবা মায়ের সাথে ঈদ করা সবচেয়ে উত্তম কাজ।

২৫ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:২৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে। ফি আমানিল্লাহ

৪| ২৫ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:৩৬

জটিল ভাই বলেছেন:
ছবি আপার ছবিতে ২টা জিনিসের প্রশংসা না করে পারছি না। ১, আমার বেআইনদের ছবিগুলো খুবই জোস হইছে=p~
আর ২, কাঁঠালের ছবিগুলি :D তো, এমন ঈদ আপনার জীবনে বারবার ফিরা আউক, এই দোয়া হরি...... :)

২৭ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:০৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হাহাহাহা বেআইন কোনগুলো চিনলাম না তাদের । ইতা কিতা কইন যে আমিন

জাজাকাল্লাহ খাইরান
ভালো থাকুন ভাইয়া জি

৫| ২৫ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৫৫

স্প্যানকড বলেছেন: " জলের আয়নায় আকাশ ছবি " দুর্দান্ত ! সব গুলি ভালো হইছে। তাইলে ঈদ তো সেইরম কাটছে। ভালো থাকবেন এবং সুস্থ থাকুন।

২৭ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:০৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আলহামদুলিল্লাহ ঈদ ভালো কেটেছে এবার

জাজাকাল্লাহ খাইরান
ভালো থাকুন ভাইয়া জি

৬| ২৫ শে মে, ২০২১ রাত ১০:২২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




আপনার আব্বার জন্য দোয়া রইলো। বাবার সাথে ঈদ করেছেন জেনে খুবই ভালো লেগেছে। আল্লাহ আপনার আব্বাকে নেক হায়াত দান করুন।

২৭ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:১৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আমিন। জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া। ফি আমানিল্লাহ।
আপনার জন্যও দোয়া রইলো

৭| ২৬ শে মে, ২০২১ রাত ১২:৩০

কামাল১৮ বলেছেন: এই বিষয়টা মানতে পারলাম না।এই যে ইচ্ছা ছাড়া।তবে যদি এমন হয় জামাই আপনার ইচ্ছা ছাড়া ঘর থেকে বের হয় না তবে ঠিক আছে।পৃথীবি কোথায় আর আমরা কোথায় আছি।

২৭ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:২৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আমাদের দেশে বেশীর ভাগ পরিবারই এমন :( এ বিষয়ে বলার কিছু নাই। মাঝে মাঝে ভাবি এ নিয়ে যে ছেলেদের পরিবার এত স্বার্থপর কেন। যেন মেয়েদের মা বাবা ভাই বোন কেউ নাই আজব লাগে

ধন্যবাদ ভালো থাকুন

৮| ২৬ শে মে, ২০২১ রাত ১:০৪

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সুন্দর ছবির বগ্ল

২৭ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:৪২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ নেওয়াজ ভাইয়া
ভালো থাকুন ফি আমানিল্লাহ।

৯| ২৬ শে মে, ২০২১ দুপুর ১২:১৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: আশাকরি এ ঈদের আনন্দময় স্মৃতিগুলো ঘুরে ফিরে মনে জাগরূক হয়ে আপনাকে আরও অনেকদিন ধরে আনন্দ দিবে।

তা'হলে একদিকে বয়স্ক মা বাবার সাথে ঈদ করার আনন্দ, অপরদিকে দুই বাচ্চাকে ঢাকায় ছেড়ে যাবার বেদনা ও উৎকন্ঠা, এ দুয়ের দোলাচলেই আপনাকে এবারের ঈদটা কাটাতে হলো! তবুও ভাল, যে বহুদিন পর মা বাবার সাথে এবারের ঈদ করতে পেরেছেন। আপনার বাবার পরিচয় জেনে তার প্রতি শ্রদ্ধা জাগলো। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত সৈনিক হিসেবে তিনি তার দুই মেয়েকে উচ্চশিক্ষিত করেছেন এবং প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা হিসেবে যোগ্য করে তুলেছেন, এটা আপনার মা বাবার একটি অসামান্য অর্জন।

ছবিগুলো খুবই সুন্দর হয়েছে। ১৪ নম্বরটি, "জলের আয়নায় আকাশ ছবি"টি এক কথায় অনন্যসাধারণ।

পোস্টে পঞ্চম ভাল লাগা + +।

২৭ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:৫২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: এত সুন্দর মন্তব্যের জন্য জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া। আল্লাহ আমাকে এই আনন্দ নিয়ামত দান করেছেন সেজন্য আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞ আর হাজার শোকর গুজার করি।

ভালো থাকুন স্বপরিবারে
ফি আমানিল্লাহ

১০| ২৬ শে মে, ২০২১ দুপুর ১২:১৯

ডার্ক ইথান বলেছেন: ছবি গুলো দেখে অনেক কিছুর কথা মনে করিয়ে দিল, দারুন পোস্ট

২৭ শে মে, ২০২১ দুপুর ১২:০১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ডার্ক ইথান
ভালো থাকুন সুন্দর থাকু
শুভেচ্ছা সতত

১১| ২৬ শে মে, ২০২১ দুপুর ১২:৩০

আমি সাজিদ বলেছেন: কামরাঙ্গা, কামিনী ফুল, পুকুর ঘাটে জলের আয়না চমৎকার।

তাসীন তামীমকে ছাড়া ঈদ করতে কষ্ট হলেও এই ঈদ স্বার্থক।

২৭ শে মে, ২০২১ দুপুর ১২:০৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
জী এবারের ঈদ খুব আনন্দে কেটেছে। তবে একটাই কষ্ট সময় অসময় আব্বা আম্মার কাছে যেতে পারি না। দুরত্বটা যদি একটু কম হতো।

ভালো থাকুন ফি আমানিল্লাহ

১২| ২৬ শে মে, ২০২১ দুপুর ১:১২

তারেক ফাহিম বলেছেন: বেড়ালটা সত্যিই পোচ দিল মনে হয়, হা হা।

সবগুেলো ছবিই বরাবরের মতই সুন্দর।

কাব্যকথা যোগ করলে আরো সুন্দর দেখাতো।

২৭ শে মে, ২০২১ দুপুর ১২:১৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: কাব্য কথা লিখেছিলাম ভাবলাম বড় হয়ে যাবে পোস্ট তাই দেই না। জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া
অনেক ভালো থাকুন ফি আমানিল্লাহ

১৩| ২৬ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:৩৫

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: ছবিগুলো বেশ সুন্দর। আপনার আব্বার জন্য দোয়া করি আল্লাহ যেনো ওনাকে সুস্থ রাখেন।

২৭ শে মে, ২০২১ দুপুর ১:২৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জাজাকাল্লাহ খাইরান ভাইয়া। আমীন

অনেক ভালো থাকুন ফি আমানিল্লাহ

১৪| ২৬ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:৪২

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: লেখা শুরুর আগে করবী ফুলের যে ছবিটা সেটা অনবদ্য। অন্যগুলো সেটার ধারে কাছে নাই। ++++++ শুভকামনা জানবেন।

২৭ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:৪৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভালো থাকুন সবসময়
ফি আমানিল্লাহ।

আপনি প্লাস দিলে কেনো যে পোস্টে প্লাস আসে না বুঝি না। পোকায় খায়া ফেলায় নি

১৫| ২৭ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:১২

জটিল ভাই বলেছেন:
আপনে আমগো এলাকার বউ। সেই সুবাদে আপনার বোইন আর আফারাতো আমরার বেআইনই হয় না? পোস্টেতো আফনেই বোইন আর আফা কইয়া ক্যাপসন দিছেন =p~

২৭ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হাহাহাহা ভালা রে ভাই ভালা আপনের বেয়াইন আমার কুস্তা না

দাওয়াই রইলো বেয়াইনদের বাড়ী যাইয়ুন যে

১৬| ২৭ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:৩৬

রানার ব্লগ বলেছেন: এইবারের ঈদ আমার জন্য মোটেও সুখের না। বদনা নিয়ে সদা জাগ্রত ছিলাম টানা ছয় দিন।

২৭ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আহারে, খাইছিলেন কী, যাক এখন সুস্থ আছেন তো।

ভালো থাকুন সর্বদা দোয়া করি

১৭| ২৭ শে মে, ২০২১ দুপুর ১:৩৯

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: ঈদ মোবারক ছবি কবি। নিরন্তর শুভকামনা আপনার জন্য।

২৭ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ঈদ মোবারক ভাইয়া। আগের মত পোস্ট করেন না। কেন?

কেমন আছেন?
ভালো থাকুন স্বপরিবারে
জাজাকাল্লাহ খাইরান

ফি আমানিল্লাহ

১৮| ২৭ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৭

জটিল ভাই বলেছেন:
কতা গুরাইন্না যে..... কিস্তা নাইলে কি আফা আর বইন ডাহুইন? =p~

৩১ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:০৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হা হাহাহা হাহা বিলাইর বেয়াই

১৯| ২৮ শে মে, ২০২১ রাত ১০:০৫

মিরোরডডল বলেছেন:




ছবিপুর মতো আমিও বাসায় না জানিয়ে গিয়ে সারপ্রাইজ দিতে পছন্দ করি ।
পরিবারের সবার সাথে এতদিন পর একসাথে সময় কাটানো, এর চেয়ে আনন্দের আর কি হতে পারে !
তোমার ঈদটা সত্যিই স্পেশাল ছিলো আপু ।
বাবা মা ভাই বোনকে নিয়ে যেনো আবারও এরকম সুন্দর সময় কাটাতে করতে পারো এই শুভকামনা ।

ছবিগুলো বরাবরের মতোই সুন্দর ।


৩১ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:০৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: দারুন ব্যাপার সারপ্রাইজড দেয়া। আমাকে কেউ কখনো সারপ্রাইজড করেনি আপু।

আল্লাহর রহমতে অনেক আনন্দ হয়েছে ঈদে। স্পেশাল ইদ স্মরণীয় হয়ে থাক বুকে।

আমিন
জাজাকিল্লাহ খাইরান অনেক ভালো থাকো আপি

২০| ৩০ শে মে, ২০২১ সকাল ১০:৫৬

মা.হাসান বলেছেন: আমাদের এলাকায় টিউবওয়েলে ফাউন্ড্রির নাম লেখা থাকে। আপনার এলাকায় দেখি একেবারে পার্সোনালাইজড টিউবওয়েল, টিউবওয়েলে মালিকের নাম খোদাই করা। B:-/

চায়ে ডুবাইয়া লোকে বিসকুট খায় । আপনের কাছে শিখলাম- চায়ে ডুবাইয়া করবী, সোনালু আর কামিনীও খাওন যায়।

শুধু কবুতর গুলারই স্বাধীনতা দিবস না, ঐ দিন নাকি দুলাভাইও ঢাকায় স্বাধীনতা দিবস পালন কর্সে- হাচা নি? :`>

কাডল তালা দিয়া রাখবেন, কখন আপনার কবিতার মতো চুরি হইয়া যায় কে বল্তে পারে।



আশা করি যাদের ছবি দিসেন, অনুমতি নিয়েই দিসেন। B-))

দুনিয়ার নিয়মই এইরকম, কারো ঈদ করোনায় গৃহবন্দী অবস্থায় কাটে, কেউ গেবনের সেরা ঈদ করে। |-)

৩০ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:২৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: নিজের নামে তো কিছুই করতে পারিনি। না সংসার না সন্তান অন্তত একটা চাপকলই থাকুক আমার নামে। নাকি কি কন।

মন আপনার খঞ্জন থাকলে চায়ের সাথে সবই খাওয়া যায় । মানুষের মনও খাওয়া যায়।

এই লোকের স্বাধীনতা দিবস কী বুঝে না । ঘরেই বন্দি থাকে সারাজীবন। ভালো মন্দ সময় তার কাছে নেই। শুক্র শনি বারে কত করে ফদাই (অনুরোধ) করি চলেন রিক্সা নিয়ে ঘুরে আসি কয় আলসেমী লাগছে যামু না। কেমনডা লাগে

চুরির কথা আর বইলেন না। গ্রামের কোন ফলই ঠিকঠাক মত পাকিয়ে খাওয়া যায় না। এবার প্রচুর আম আসছে গাছে। আম্মা কুরিয়ারে পাঠাইছে কিছু আম কিন্তু পোকা ভিতরে ভর্তি, তার চেয়ে না পাঠানোই ভালো ছিলো ।

ধন্যবাদ আপনাকে অতলা মন্তব্যের জন্য।

আমার মনটা খুব খারাপ, কয়েকমাস ধরে আমার ব্যাগ থেকে টাকা চুরি হচ্ছে। প্রায় পঁচিশ হাজার টাকা নাই হয়ে গেছে। মনটারে স্থিরই করতে পারছি না । চেনা মানুষগুলো কেন চোর হয়। আল্লাহর কাছে বিচার দিছি :( দোয়া কইরেন চোর যেন ধরতে পারি। চুরিটা অফিস থেকে হয় ।

২১| ৩০ শে মে, ২০২১ সকাল ১০:৫৭

মা.হাসান বলেছেন: ইমেইল পাঠাইছিলাম, কিন্ত মনে হয় ডাকটিকিট ঠিক মতো লাগাইনি বইলা আপনি পান নাই। X((

৩০ শে মে, ২০২১ সকাল ১০:৫৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ইন্নালিল্লাহ বলেন কী। দেখি নাই সত্যিই সরি

আচ্ছা চেক করতেছি

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.