নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ট্রুথ নেভার ডাই্‌জ

নিজের সম্পর্কে লেখার কিছু নেই । সাদামাটা ।

আহমেদ জী এস

পুরোপুরি একজন অতি সাধারন মানুষ । আমি যা আমি তাই ই । শয়তানও নই কিম্বা ফেরেশতা । একজন মানুষ আপনারই মতো দু'টো হাত, চোখ আর নিটোল একটা হৃদয় নিয়ে আপনারই মতো একজন মানুষ । প্রচন্ড রকমের রোমান্টিক আবার একই সাথে জঘন্য রকমের বাস্তববাদী...

আহমেদ জী এস › বিস্তারিত পোস্টঃ

অনন্তকালের ব্লগ

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:১৯



কতোকাল ! কতোকাল ধরে আছি এখানে ! এই ব্লগে !
এমন ভাবনা থেকেই অনেকেই দিন-বছরের হিসেব মিলিয়ে ব্লগের কাল গুনে গুনে পোস্ট লেখেন - অমুক বছর পূর্তি.........। আমরা তাতে অভিনন্দনের কথা জানাই, শুভেচ্ছায় ভরে দেই , আরো দীর্ঘকাল তার ব্লগ জীবনের কামনা করি ।
কেউ কেউ রাগ করে চলে যাবার আবার কেউ কেউ ফিরে আসার কথাও বলেন।
আমার কিন্তু এমন সব দিনক্ষনের হিসেবটা নেই । হিসেবটাও করিনে । করা হয়ে ওঠেওনা । মনে হয় অনন্তকাল ধরে আছি আমি এই ব্লগে ।
কবে কখন এখানে এসেছিলুম তার দিনক্ষন আমার মনে নেই । খুঁজলে সেদিনটি হয়তো ধরা দেবে সহজেই কিন্তু সে গরজও আমার নেই খুব একটা । শুধু ভালো করে মনে আছে কেন এসেছিলুম এখানে । কি করেই বা এর দেখা পেয়েছিলুম ।
অন্তর্জালে তখন আমি সবেমাত্র হাটতে শুরু করেছি । স্কুল জীবনের শেষের দিক থেকে পরবর্তীকালেও কিছু কিছু লেখার অভ্যেস ছিলো। তেমন অভ্যেসের কারনেই একটি গল্প বা উপন্যাস লেখার উপাদান খোঁজার তাগিদে অন্তর্জালে বাংলা উচ্চারণ সহ কিছু "শের" খুঁজছিলুম।
"বাংলা উচ্চারণ সহ ওমর খৈয়ামের শায়রী" লিখে সার্চ দিতেই প্রথমেই উঠে এলো যে লিংকটি তা হলো এই - " বাংলাভাষার সর্ববৃহৎ ব্লগ" তার পরেই "সামহোয়ারইনব্লগ" এর উল্লেখ । সেখানে "বাঁধ ভাঙার আওয়াজ" শব্দ কয়টি দেখেই কৌতুহল হলো । ক্লিক করলুম । সম্ভবত তখন তখনই সামুর প্রথম পাতাটি আমার চোখের সামনে উঠে এলো । আর সেখানে শুরুতেই "কোরান কি অলৌকিক গ্রন্থ?" এমন শিরোনামের একটি লেখায় চোখ আটকে গেলো । আশ্চর্য্য হলুম, কি লেখা হয়েছে এখানে, ভেবে ! ভেতরে ঢুকলুম । "সৈকত চৌধুরী" নামের কেউ একজন লেখাটি দিয়েছেন । লেখা পড়তে পড়তে মনে হলো, আমিও কিছু লিখি তার লেখার বিষয়ের উপরে ।
কিন্তু কি করে এখানে লিখবো ? কোথায় লিখবো ? খুঁজে পেতে একদম নীচের দিকে দেখলুম, একটা বক্স আছে, লেখা -" আপনার মন্তব্য লিখুন" । সেখানে লিখতে গিয়েই বাঁধা । আমাকে নাকি আগে এখানে নিবন্ধিত হতে হবে । মহা বিপদ । কি করে নিবন্ধিত হবো ? এইসব ব্যাপারে আমার এখন যে "ক" আর "খ" জ্ঞান তার চে' জ্ঞান তখন আরো কম ছিলো । " রিম সাবরিনা"র "পর্তূগালের অলিগলি"র মতো ব্লগ ঘুরে শেষমেশ গুঁতিয়ে গুঁতিয়ে কয়েকবার চেষ্টার পরে নিবন্ধিত হতে পারলুম । আমার তখন কৌতুহল উদ্রেককারী "সৈকত চৌধুরী"কে কিছু লেখার জন্যে হাত নিশপিস করছে । কিন্তু অল্প কথায় তো তা বলা যাবেনা ।
" আপনার মন্তব্য লিখুন" ঘরখানা যে এত্তোটুকুন ছোট ! সেখানে বড় কিছু লেখা যাবে কি ! সংশয় নিয়ে কিছুটা লিখে ট্রাই করলুম , দেখি যায় কিনা ।
"মন্তব্য প্রকাশ করুন" এ চাপ দিতেই ..... ওমমা.......!
"আপনাকে আগে লগইন হতে হবে" লেখাটি ভেসে উঠলো । মর ....জ্বালা....!
এটা জানা ছিলোনা যে, এখানে কিছু লিখতে গেলে লগইন করতে হয়। ভেবেছিলুম নিবন্ধন যখোন হয়েই গেছে তখন আমার সবকিছু জায়েজ । এতো ফ্যাকড়া , জানা ছিলোনা । কোশেশ করে লগইন হয়ে সেখানে কিছু মন্তব্য করেছিলুম কিনা এবং তার লেখার বিষয়ে আমার বক্তব্য বোঝাতে সেটুকু যথেষ্ট ছিলো কিনা আজ আর তা স্পষ্ট মনে নেই। সম্ভবত করেছিলুম এবং নিজের কাছেই তা যথেষ্ট মনে হয়নি । নিজের বক্তব্য বোঝাতে এবার আর রিস্ক নিলুম না । ওয়ার্ড ফাইলে পুরোটা লিখে ফেললুম । এত্তো লেখা, এ তো মন্তব্যের বদলে নিজেই আস্ত একখানা লেখা হয়ে গেছে । কি করি ! আমি নিজেই এটা ব্লগে আলাদা করে দিয়ে দেবো, যেমন এখানে অনেকের লেখা দেখছি ? কিন্তু কিভাবে দেবো ? জায়গা কই ? ব্লগের এখানে ওখানে ঘাঁটলুম । ঘাঁটতে গিয়ে নিজের ঘরের একদিকে দেখি লেখা " নতুন ব্লগ লিখুন" । বাহ.... বাঁচলুম ।
এভাবেই মন্তব্যের বদলে আমার প্রথম ব্লগ পোস্টটির জন্ম-
সৈকত চৌধুরীকে যিনি প্রশ্ন তুলেছেন - কোরান কি অলৌকিক গ্রন্থ?

দীর্ঘ সময় ধরে সে লেখাটি কোন রকম মন্তব্য বিহীন অবস্থাতেই পড়ে ছিলো। পড়ে থাকার কারনও বোধগম্য । আমি একদম নতুন এখানে । কেউ নতুনদের লেখা যে পড়েন না, বা পড়লেও মন্তব্য করেন না, সে ধারনা তখন ছিলোনা আমার । তাই মনের কোনে কোথাও হতাশা একটু ছিলোই ! তিন মাস পরে সে হতাশা কেটেছে, নাঈফা চৌধুরী (অনামিকা) নামের এক সহৃদয় ব্লগার প্রথম মন্তব্যটি করে ফেলেছেন বলে । আমার প্রথম পোস্টে তিনিই প্রথম মন্তব্যকারী ।
প্রথম পোস্টটি দেয়ার পরে উড়তে থাকলুম । বাহ..... নিজের কথা কতো সহজেই শত শত পাঠকের কাছে পৌঁছে দেয়া যাচ্ছে দেখে , তা যতোই মন্তব্যবিহীন পড়ে থাকুক না কেন । এ যেন বাচ্চা ছেলের হাতে রংপেন্সিল দেয়ার মতো অবস্থা হয়েছে আমার । রংপেন্সিল হাতে পেলে বাচ্চারা কারো প্রসংশার ধার না ধেরে যেমন ঘরবাড়ীর দেয়াল, মেঝে, দরজা, জানালায় আঁকিবুকি করে আমিও পরবর্তী কয়েকটি মাস ধরে তেমন আঁকাবাঁকা লেখার ঘোরে মত্ত ছিলুম । মাসে ২৪/২৫টি লেখাও পোস্ট করেছি এমনও গেছে ।
তাই আমার মনে হচ্ছে, আমি যেন অনন্তকাল ধরেই আছি এই ব্লগে।

শেষের কথা -
মনে হয়, নিত্য উধাও কালের যাত্রার যাদুতে ব্লগখানা যেন আমাকে জড়িয়ে রেখেছে আষ্টেপৃষ্ঠে । অজস্র লেখার অলিগলি বেয়ে বেয়ে মনে হয়, উঠে যাচ্ছি আমি ভালোলাগার শেখর চূড়ায় । দুর হতে চেয়ে চেয়ে দেখি - এ থেকে ফেরার পথ আর নেই ! অতীতের ধূসর রাত্রির তমশা ছিঁড়ে এ যেন এক নবযাত্রা - অনন্তকালের পথে.................

মন্তব্য ৭৪ টি রেটিং +২৪/-০

মন্তব্য (৭৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৫১

জুল ভার্ন বলেছেন: খুব সুন্দর লিখেছেন!

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৫৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: জুল ভার্ন,




প্রথম মন্তব্যটির জন্যে ধন্যবাদ।

ব্লগের দিনগুলো নিয়ে জাবর কাটা আর কি !

২| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৫৬

নতুন নকিব বলেছেন:



অনন্তকালের ব্লগ....

ব্লগ তো আসলেই অনন্তকালের। ব্লগ থেকে যাবে। আমরা একটি সময়ে গিয়ে থেমে যাব। কি-বোর্ডের নবগুলোতে ঘুরে ঘুরে আঙুলের আলতো চাপে লিখে চলবো না নতুন অক্ষররাজি। বানাবো না নতুন কোনো শব্দ। গেঁথে তুলবো না নতুন কবিতা, ছন্দ, কাব্যকথা। লেখার আখরে আখরে বপন করে দেব না নতুন কোনো স্বপ্ন।

একসময় আমরা থাকবো না। চলে যাব না ফেরার দেশে। কিন্তু থেকে যাবে আমাদের চির অমলিন এই সব স্মৃতিরাশি...।

দারুন উপলব্ধি! +

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:৩২

আহমেদ জী এস বলেছেন: নতুন নকিব,




মন্তব্যে মুগ্ধ।

তবে হ্যাঁ....... একসময় সবই থেমে যাবে সত্যি কিন্তু কেন যেন মনে হয় এমনটাই --

দিন চলে যায় , সবি বদলায়
শুধু যে আমার এ মন, যা ছিলো থাকে তেমন
পুরানো হয় না...

৩| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:১২

নুরুলইসলা০৬০৪ বলেছেন: সাধারন বিষয় কিন্তু লেখার খুনে অসাধারন।

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:৩৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: নুরুলইসলা০৬০৪,





কি করবো ?
সাধারণ জিনিষ একটু অন্যরকম করে না সাজালে যে বাজারে বিকোয় না!

৪| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:২৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: চমৎকার। আমারও অনেক লেখা প্রতিমন্তব্য থেকে সৃষ্টি । কিভাবে কিভাবে যেন সামহুয়ার ইন ব্লগে সংযুক্তি অতপর বিস্তর পথ চলা বললেও ভুল হবে না।

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:৩৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: সেলিম আনোয়ার,




ব্লগে আসা নিয়ে সবারই কিছু না কিছু গল্প থাকেই । অনেকেই মন্তব্য লিখতে গিয়ে বা প্রতিমন্তব্যের সূত্র ধরে অনেক ঋদ্ধ লেখাই লিখে ফেলেছেন ব্লগে।
আমার শুরুটাও তেমন, সে কথাই বলেছি এখানে।

৫| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:৪৭

জুন বলেছেন: আমার মনে হয় আমিও আপনার অনন্ত কাল না হলেও দীর্ঘদিন ধরেই আপনার লেখার এক গুনমুগ্ধ পাঠক । সাথে থাকবেন আরও অনন্তকাল সেই প্রত্যাশা রইলো আহমেদ জী এস।সুন্দর করে লেখা আপনার স্মৃতিচারনে অনেক অনেক ভালোলাগা রইলো।
+

২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:০৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: জুন ,




জ্বী.... আপনি আমার লেখায় প্রায় সেই শুরু থেকেই হাজির থেকেছেন। সে জন্যে আপনাকে বহুবার বহু মন্তব্য - প্রতিমন্তব্যে ধন্যবাদ জানিয়েছি। আপনার মতো আমিও আপনার লেখা দেখলেই সেখানে ঊঁকি দিয়ে কিছু না কিছু ভালোমন্দ বলে এসেছি। এ যেন একটা অলিখিত বন্ধনের মতো! ব্লগীয় আত্মীয়তার আন্তরিকতা নিয়ে তা যেন সততই বহমান ।

মানুষ অবিনশ্বর নয় তাই হয়তো অনন্তকাল থেকে যাওয়ার কথাটি রাখা সম্ভব হবেনা। তবে অশরীরি হয়েও ব্লগে অনন্তকাল থেকে যেতে চাই!

মন্তব্যের জন্যে এবং সবসময়ের মতো সাথে সাথে থাকার জন্যে কোটি কোটি ধন্যবাদ।

৬| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:৫৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সেই বাচ্চা ছেলেটার রং পেন্সিল আজকের বিশাল ক্যানভাসে আকার তুলি হয়ে গিয়েছে। যেই ক্যানভাস থেকে নিত্য নতুন ক্লাসিকাল সৃষ্টি ব্লগকে সমৃদ্ধ করছে প্রতিনিয়ত। যাহ...........মন্তব্য কি বেশী ভারি হয়ে গেল!!! :P

নির্দিষ্ট করে শুভেচ্ছা দেয়ার কায়দা নাই। কামনা করছি, অনন্তকাল ব্লগে আপনার সরব উপস্থিতি নিশ্চিত করবেন। :)

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:২৬

আহমেদ জী এস বলেছেন: ভুয়া মফিজ,




মন্তব্য কি মাত্র চারটি লাইন আর দু'টি ইমোতে ভারী হয় ? আরও ইটপাত্থর চড়াতে হবে। ;)

"........বিশাল ক্যানভাসে আকার তুলি হয়ে গিয়েছে।" আসলেই তাই। সেই বাচ্চা ছেলেটা এখন প্রবীন হয়ে ব্লগের ক্যানভাসে তুলি দিয়ে ঐ যে শিরোনামের ছবিটিই এঁকে ফেললো ! :)

"ইচ্ছে থাকলেই উপায় হয়" ন্যাংটোকাল থেকে পড়ে শুনে আসেন নি ? শুভেচ্ছা দেয়ার ইচ্ছে থাকলে "কায়দা" একটা বের করেই ফেলতেন ! :P

অনন্তকাল ব্লগে আমার সরব উপস্থিতি নিশ্চিত করতে হবে ?
এই রে সাইচ্চে- মাইচ্চে! আজরাইলরে ঠেকা দেবো ক্যাঠা ? :|

প্রতিমন্তব্যটা কি হাল্কা হয়ে গেলো ? :(

৭| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:৩৫

শায়মা বলেছেন: আমিও অনন্তকালের যাত্রী। তাই কিচ্ছু না লিখেও কিচ্ছু না বলেও বসে থাকি পাতা খুলে...... অন্যান্য কাজে মশগুল থেকেও ফাকে ফাকে উঁকি দেই ব্লগের অলিগলিতে........

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:৫৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা,




আমরা সবাই-ই অনন্তকালের যাত্রী !
তাই আপনার মতো বসে থাকি জীবনের পাতাটি খুলে আর ভাবি -

"যদি সব কিছু ছেড়ে দিতে হবে
তবু এই আকাশ, এই বাতাস
পিছু ডাকে কেন তবে..."

৮| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:০৮

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সেই হাটি হাটি পা করে আজ অনেক দুর । আপনার লেখা এই বগ্লের স্মৃতি থাকবে হয়তো আপনি আমি থাকবো না। খুবই অসাধারণ লেখা।

২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:৫৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: নেওয়াজ আলি,





মানুষ তো হাটি হাটি করতে করতেই দূরের পথ চলা শেখে। আমরাও তেমনি প্রতিদিন একটু একটু করে ব্লগের পথ ধরে অনেক দূর চলে এসেছি। এই পথ চলায় সবাই যে অনন্তকাল এখানে থেকে যাবেন এমনটা নয় কিন্তু তার পদরেখা থেকে যাবে।

৯| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:১৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:



জানলাম অনেক বিষয় ।
অনন্তকালের ব্লগ বলে কথা :)
তাইতো একে প্রিয়তে
তুলে রাখলাম ।

শুভেচ্ছা রইল

২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১২:১১

আহমেদ জী এস বলেছেন: ডঃ এম এ আলী ,





প্রিয়তে তুলে রাখার জন্যে ধন্যবাদ কিন্তু তুলে রাখলেই তো হবেনা, কিছু তো বলতে হবে!

শুভেচ্ছা আপনাকেও।

১০| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:১৯

হাসান মাহবুব বলেছেন: এই ব্লগ একটা আজব জিনিস। আগে তো ভাবতেই পারতাম না ব্লগ ছাড়া কীভাবে থাকবো! ধীরে ধীরে অনিয়মিত হতে থাকলাম, প্রায় হারিয়েই গেলাম, আবারও ফিরে ফিরে আসছি। আসতে থাকবো। ফেসবুকে অনেক লাইক-কমেন্ট-শেয়ার পাওয়া যায়। কিন্তু ব্লগের একেকটা মন্তব্য পাওয়ার যে আনন্দ, তার সাথে সেটা তুলনীয় নয় মোটেও!

২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০১

আহমেদ জী এস বলেছেন: হাসান মাহবুব ,





ব্লগ ছাড়া যে থাকা যায়না সেটার প্রমান আপনি নিজেই। বারবার ফিরে ফিরে আসছেন। এ যেন আলোর , পতঙ্গদের আত্মহত্যায় প্রলুব্ধ করার মতো।
ঠিকই বলেছেন - ব্লগ অনন্য, তুলনীয় নয় কারো সাথেই।

১১| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৩৭

রাজীব নুর বলেছেন: জানা গেল আপনার ব্লগে আসার ইতিহাস।
সহজ সরল ইতিহাস।

২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:৩৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: রাজীব নুর,




আপনার "জীবনের গল্প" সিরিজের মতো এও এক গল্প। সহজ সরল................

১২| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:১৩

মেহেদি_হাসান. বলেছেন: আপনার স্মৃতিচারণ অসাধারণ লেগেছে সত্যিই মুগ্ধ হলাম।

২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৩৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: মেহেদি_হাসা.





স্বাগতম আমার ঘরে।
আপনার কাছে অসাধারণ লেগেছে জেনে, লেখাটি সার্থক ।

১৩| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:৩০

এল গ্যাস্ত্রিকো ডি প্রবলেমো বলেছেন: আমি তো কিছুদিন এই ব্লগে থেকেই ব্লগের প্রেমে পড়ে গেছি! আমিও অনন্তকাল থাকতে চাই!

২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:১২

আহমেদ জী এস বলেছেন: এল গ্যাস্ত্রিকো ডি প্রবলেমো,




অনন্তকাল কে না থাকতে চায় ? তবে ঐ সব "গ্যাস্ত্রিকো ডি প্রবলেমো" জাতীয় অসুখ বিসুখ থাকলে ভবলীলা তাড়াতাড়িই সাঙ্গ হওয়ার কথা ..... :P

থাকুন অনন্তকাল এই ব্লগেই, সকলের একজন হয়ে , জ্ঞানে -গরিমায়-সুশীলতায়-সুস্থ্যতায়!

১৪| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৩:৪২

নীল আকাশ বলেছেন: আপনাদের মতো অল্প কিছু ব্লগারদের জন্য বার বার এখানে ফিরে আসি। শেখার জন্য, জানার জন্য।
ধন্যবাদ।

২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:৪৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: নীল আকাশ,





শুধু শেখার জন্য, জানার জন্যই নয় - শেখানোর জন্য, জানানোর জন্যেও ব্লগ সমুদ্রের মতো বিশাল একটা হৃদয় পেতে বসে থাকে। সেখানে ডুব দিয়ে মুক্তো তোলা যায় ...............................

১৫| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:১০

মৃন্ময়ী শবনম বলেছেন: অনন্তকালের যাত্রা শুভ হোক। যুগ যুগ ধরে ব্লগে লিখে যাবেন এই প্রত্যাশা করছি। আমাদেরও যাত্রা শুরু হবে কিছুক্ষনের মধ্য। বাড়ি থেকে ঢাকা আসছি। যদিও বাড়িতেই থেকে যেতে মন চাইছে। বাড়ির মানুষটি আমাদের সাথেই ঢাকা আসছেন তাই এ যাত্রা রক্ষা। দাদু আমাদের সাথে না আসলে মনটা বাড়িতেই পরে থাকতো। আমাদের যাত্রার জন্যও দোয়া করবেন। খোদা হাফেজ।


২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:২৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: মৃন্ময়ী শবনম,




দেশে নেই বলে সবসময় ব্লগে হাজিরা দেয়া হয়ে ওঠেনা। তাই প্রতিমন্তব্য দিতে দেরী হয়ে গেলো। ক্ষমাপ্রার্থী।

এর মধ্যে নিশ্চয়ই দাদু সহ নিরাপদে ঢাকা এসে পৌঁছেছেন !
মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ।
ভালো থাকুন , আর আনন্দে.......

১৬| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:৪৫

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
আসলেই ব্লগ ছাড়া মুশকিল। চলতেই থাকে এর পথ চলা নিত্য নতুন প্রেমে।

২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৪৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: মোঃ মাইদুল সরকার,





মুশকিল মানে কি শুধুই মুশকিল ? ব্লগ তো ফেভিকলের আঠা। তাই ব্লগের চাকায় আটকে গিয়ে চলতেই হচ্ছে .... চলতেই হচ্ছে......

১৭| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:২০

ঢাবিয়ান বলেছেন: আপনারা এই ব্লগের অলংকার ।

২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৫০

আহমেদ জী এস বলেছেন: ঢাবিয়ান ,




" আপনারা" নয়, ব্লগের সকল সদস্য ব্লগারগণই ব্লগের - অলঙ্কার।

১৮| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:২৬

ফয়সাল রকি বলেছেন: ব্লগে নিয়মিতভাবে এক দশক পার করাটাকে অনন্তকাল বলা যেতে পারে!
শুভকামনা।

২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:১১

আহমেদ জী এস বলেছেন: ফয়সাল রকি ,




আমি কিন্তু আমার ব্লগীয় জীবন এক দশক পার হওয়াটাকে সামনে রেখে এটা লিখিনি। নেহাৎই কাকতালীয় ভাবে এটা আমার দশক পূর্তির কাছাকাছি সময়ের হয়ে গেছে।
লিখেছি সামু ব্লগটার প্রতি ভালোবাসা থেকে। বিদেশ এসেছি বেশ কিছু দিন হয়েছে, ব্লগটাকে তেমন করে পাচ্ছিলুম না। তখন মনে হলো এমন কথাগুলো।

মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ । শুভকামনা আপনার জন্যেও ।


১৯| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:১০

চাঁদগাজী বলেছেন:



বাংলা ব্লগিং কোন দিকে যাচ্ছে?

২৮ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:৩৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: চাঁদগাজী,




বাংলা ব্লগ, ব্লগারদের মতিগতি নিয়ে আপনিইতো অনেক কিছু লিখছেন, অনেকদিন ধরে। তাই উত্তর, দক্ষিন, পূব, পশ্চিম, উর্ধ, অধো এর কোনদিকে যাচ্ছে ব্লগ তা তো আপনারই ভালো জানার কথা!
এ নিয়ে আমার গবেষণা করা নেই।

২০| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৩৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনন্তকালের ব্লগ[/sb - ঠিক তাই। এখানে কোন ব্লগারই অনন্তকাল ধরে থাকবেন না, কিন্তু তাদের লেখাগুলো সম্ভবতঃ এখানে তাদের চেয়ে অনেক, অনেক বেশি দীর্ঘায়ু হবে। প্রায় দশ বছর ধরে এ ব্লগের সাথে নিজেকে নিয়মিতভাবে বেঁধে রেখেছেন, এটা মোটেই সহজসাধ্য নয়। কি নিজের লেখায়, কি অন্যের লেখায় মন্তব্যের ঘরে কিংবা নিজের লেখায় প্রতিমন্তব্যে, আপনি নিজস্ব স্বকীয়তা, সততা এবং স্বচ্ছতার স্বাক্ষর রেখে চলেছেন। এ কারণেই আপনি অনেক ব্লগারের পছন্দের তালিকায় শীর্ষে অবস্থান করে আছেন। আপনাকে এই অসামান্য অর্জনের জন্য অভিনন্দন!

এই অনন্তকালের ব্লগে আপনার উপস্থিতি অনন্তকাল না হলেও যেন সুদীর্ঘকাল হয়, সে কামনা করছি।

পোস্টে ত্রয়োদশতম ভাল লাগা + +।

০১ লা মার্চ, ২০২১ রাত ১০:৪৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: খায়রুল আহসান ,




অসম্ভব সুন্দর সাজানো একটি মন্তব্য। অফুরান ধন্যবাদ।
" কোন ব্লগারই অনন্তকাল ধরে থাকবেন না, কিন্তু তাদের লেখাগুলো সম্ভবতঃ এখানে তাদের চেয়ে অনেক, অনেক বেশি দীর্ঘায়ু হবে।" যদি তা শোভনীয়-শালীন-সাহিত্য মন্ডিত- হয়!

ব্লগে আমার দশ বছর পূর্তির কথা উল্লেখ করেছেন কিন্তু আমি তো ব্লগে এক দশক পার হওয়াটাকে সামনে রেখে এটা লিখিনি। লিখেছি সামু ব্লগটার প্রতি ভালোবাসা থেকে। দেশের বাইরে এসেছি বেশ কিছু দিন হয়েছে, ব্লগটাকে তেমন করে পাচ্ছিলুম না। তখন মনে হলো এমন মনের কথাগুলো লিখে রাখি। নেহাৎই কাকতালীয় ভাবে এটা আমার দশক পূর্তির কাছাকাছি সময়ের হয়ে গেছে মাত্র।

দেশের বাইরে আছি বলে সবসময় ব্লগে হাজিরা দেয়া হয়ে ওঠেনা। তাই প্রতিমন্তব্য দিতে দেরী হয়ে গেলো। ক্ষমাপ্রার্থী।

২১| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:০২

মা.হাসান বলেছেন: যে কারণে ব্লগে এসেছিলেন তার কি হলো? ঐ শায়েরি ওয়ালা গল্প/উপন্যাস কোথায় পাবো?

একজন নতুন ব্লগারের জন্য তিন মাস অনন্ত সময়। আপনার অসীম ধৈর্য তাই থাকতে পেরেছেন। অনেকেই ব্লগ ছেড়ে চলে যায়। আমার অভিমত সবাইকে শুরু থেকে প্রথম পাতায় অ্যাক্সেস দিলে অনেক ব্লগার ঝরে না পড়ে বেড়ে উঠতে পারতেন। কারো লেখার মান ভালো না হলে তার প্রথম পাতার অ্যাক্সেস রহিত করার সুযোগ তো রয়েই যায়।

আপনার পোস্টে প্রথম কমেন্টকারি নাইফা চৌধুরীকে ধন্যবাদ। অনেকের মতো উনিও হারিয়ে গেছেন। আমরা সবাই হারাবো, আগে আর পরে। ব্লগ অনন্তকাল চলতে থাকুক।

০২ রা মার্চ, ২০২১ রাত ১২:০৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: মা.হাসান,





আগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি , প্রতিমন্তব্য দিতে দেরী হয়ে যাওয়াতে। দেশের বাইরে আছি বলে সবসময় ব্লগে হাজিরা দেয়া হয়ে উঠছেনা, তাই।

যে কারণে ব্লগে এসেছিলেন তার কি হলো?

তখন তখনই তার কিছু হয়নি। সামুর বিশাল সমুদ্রে ঝাঁপ দিয়ে খেই হারিয়ে ফেলেছিলুম সাঁতার কাটতে কাটতে! তবে কিছু পরে একটি উপন্যাসিকা লিখে এখানে পোস্ট করেছিলুম।
ধারাবাহিক ছিলো সেটা। ধারাবাহিক লেখা পড়ার ব্লগার কম। তাই তেমন সাড়া মেলেনি। তবে যারা সাড়া দিয়েছেন তারা সমাদর করেছেন লেখাটির।
ধারাবাহিক লেখার পরের অংশের লিংক যে লেখার সাথে দিতে হয় তা জানা ছিলোনা তখন। পরেও আর ঠিক করা হয়নি আমার হোশ না ফেরা পর্যন্ত। দু'একটি লিংক দিলুম খুঁজে খুঁজে-----
শুদ্ধতম পরকীয়া ( উপন্যাসিকা ) এক / প্রথম অংশ

শুদ্ধতম পরকীয়া (উপন্যাসিকা) এক / দ্বিতীয় অংশ

দুই / প্রথম অংশ

দুই / দ্বিতীয় অংশ

দুই / সম্পূর্ণ একত্রে

তৃতীয় অধ্যায়

এখানটাতে সব পাবেন মনে হয়-
শুদ্ধতম পরকীয়া (উপন্যাসিকা)


আমরা সবাই হারাবো, আগে আর পরে।
নিরেট সত্য ।
মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ।

২২| ২২ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:১৩

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: পশে বসা গুণীজন কথা বলেন। অনেকেই থাকেন সেখানে কেবল মাথা নাড়ানোর জন্য। হ্যা, হ্যা। আমি আপনার পোস্টে তেমনি অনুভূতি প্রকাশ করছি হৃদয় থেকে। হয়ত পাশে বসা নিকম্মা ভাইলোকের মত। বলতে বাধ্য হচ্ছি, আপনার গল্পের ভেতর আমার ব্লগে আগমনের কারণ কিছুটা সাদৃশ্যপূর্ণ। স্মৃতির পাতা নেড়ে জাগিয়ে দিলেন প্রথম দিনগুলোর মেহনতের কথা। ধন্য হোক আমাদের জন্য আপনার সঙ্গ।


আসলেই সামু ব্লগটা এমন। এখানে ভালোবাসা জমে উঠে অন্য ব্লগারের হৃদয়ে। ভালোবাসার কাঙাল থাকে না এমন কাউকে খোজে পাওয়া অসম্ভব প্রায়। সেই ভালবাসায় তৃপ্ত হতে গেলে একজন ব্লগারকে তার হৃদয়ে আরেকজন ব্লগারকে আমন্ত্রণ জানাতে হয়। ব্যস্ততায় কাঠিন্যে হয়ত কিছু দিন দূরে থাকা যায়, কিন্তু বেশি দিন না। যেমন আমি....

০২ রা মার্চ, ২০২১ রাত ১১:০৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: সৈয়দ তাজুল ইসলাম,





ব্লগে আসার পেছনে সকলেরই কিছু না কিছু কারন থাকে। আমার সাথে হয়তো আপনার আসার সাদৃশ্য যেহেতু আছে , সেহেতু একটা লেখা হয়ে যাক!
শেষের প্যারাটিতে সুন্দর বলেছেন। ভালোবাসাকে সহজে ফিরিয়ে দেয়া যায়না......

২৩| ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০২

ঢুকিচেপা বলেছেন: ব্লগে আসার ব্যাপারটা এত চমৎকারভাবে উপস্থাপন করেছেন তা পড়ে খুব ভালো লাগলো।
আগে ২৪/২৫ টা পোস্ট করতেন আর এখন গড়ে ১টাও হচ্ছে না।

০২ রা মার্চ, ২০২১ রাত ১১:৩২

আহমেদ জী এস বলেছেন: ঢুকিচেপা,




দেশের বাইরে আছি বলে সবসময় ব্লগে হাজিরা দেয়া হয়ে উঠছেনা, তাই ক্ষমা চাচ্ছি প্রতিমন্তব্য দিতে দেরী হয়ে যাওয়াতে।

প্রথম প্রথম হাটতে শিখলে বাচ্চারা সারা ঘর হাটি হাটি পা পা করে । আমার বেলাতেও হয়েছিলো তেমনটাই মনে হয়। ;)

২৪| ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ২:০২

কল্পদ্রুম বলেছেন: আপনার প্রথম পোস্টটি পড়লাম। অনেক দীর্ঘ আলোচনা। মন্তব্যগুলো আরো সময় নিয়ে চললে ভালো হতো। যে কোন বিষয়ে চিন্তার জগত নিয়ে আলোচনার সূত্রপাত হিসেবে খুবই উপযুক্ত পোস্ট। এরকমটাই হওয়া উচিত। সুস্থ শরীর ও মন নিয়ে আরো অনেকদিন থাকবেন এই ব্লগে।

০৩ রা মার্চ, ২০২১ রাত ১:০১

আহমেদ জী এস বলেছেন: কল্পদ্রুম,




প্রথম পোস্টটি পড়া আর পোস্টটির বিশেষ উপযুক্ততা নিয়ে বলার জন্যে ধন্যবাদ।
"যে কোন বিষয়ে চিন্তার জগত নিয়ে আলোচনার সূত্রপাত হিসেবে খুবই উপযুক্ত পোস্ট।" এ কথা অনুভব করার মধ্যে
দিয়েই আপনার প্রজ্ঞার দেখা মিললো।
আসলে, আমরা কেন যে নিজের ইগোকে অনড় রেখে সব বিষয়ে আলোচনা করি, বুঝিনে! এতে না হয় আলোচনা , না ফোটে আলো!

ভালো থাকুন, সুস্থ্য থাকুন...............

২৫| ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ২:৩২

সোহানী বলেছেন: অনন্তকাল আছেন কারন ব্লগ শব্দটা আষ্টেপৃষ্টে জড়িয়ে আছে জীবনের প্রতিটি বাঁকে। আর এরকম ব্লগে অনন্তকাল থাকা মানুষগুলোর জন্য অনেকেই আছেন ব্লগে অনন্তকাল।........ সেরকম আমিও একজন।

ব্লগে ঢুঁ না দিলে দিন শেষে মনে হয় কি যেন করিনি। তাইতো শত ব্যাস্ততায়ও ফিরে আসি।

চমৎকার ব্লগ শুরুর কাহিনীতে ভালোলাগা।



তারপরও ১০ বছর পূর্তির এডভান্স শুভেচ্ছা।

০৩ রা মার্চ, ২০২১ রাত ১:১৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: সোহানী,





প্রতিমন্তব্য দিতে দেরী হয়ে যাওয়াতে আগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি । দেশের বাইরে আছি বলে সবসময় ব্লগে হাজিরা দেয়া হয়ে উঠছেনা, তাই।

"ব্লগ" হলো একটি ভালোবাসার নাম। একটি অতলান্ত দীঘি। এখানে যতোই ডুব দেয়া যায় ততোই যায় পরিশুদ্ধ হওয়া, চেনা যায় নিজেকে ।
এই দীঘির এক অমোঘ টানও আছে । সবাই-ই এই ঘোর লাগা টান এড়াতে পারেননা। আপনার কথাতেই বোঝা গেলো আপনি তেমনই একজন। আমিও তেমন একজন মনে হয়।

শুভেচ্ছান্তে।

২৬| ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ৩:২৭

কবিতা ক্থ্য বলেছেন: শত ব্যস্ততার মাঝেও ১০ বছর সময় অতিবাহিত করা এই ব্লগে নি:সন্দেহে প্রসংসার দাবীদার।
অনেক শুভেচ্ছা এবং শুভ কামনা।

০৩ রা মার্চ, ২০২১ রাত ১০:৩৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: কবিতা ক্থ্য,




প্রতিমন্তব্য দিতে অনিচ্ছাকৃত ভাবে দেরী হয়ে যাওয়াতে আগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি ।

ব্লগে আমার দশ বছর পূর্তির কথা উল্লেখ করেছেন কিন্তু আমি তো ব্লগে এক দশক পার হওয়াটাকে সামনে রেখে এটা লিখিনি। লিখেছি সামু ব্লগটার প্রতি ভালোবাসা থেকে। দেশের বাইরে এসেছি বেশ কিছু দিন হয়েছে, ব্লগটাকে তেমন করে পাচ্ছিলুম না। তখন মনে হলো এমন মনের কথাগুলো লিখে রাখি। নেহাৎই কাকতালীয় ভাবে এটা আমার দশক পূর্তির কাছাকাছি সময়ের হয়ে গেছে মাত্র।

মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ।

২৭| ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:০৭

রোকসানা লেইস বলেছেন: অনন্তকাল ধরেই থাকা হোক ব্লগে।
আনন্দ বিলিয়ে আনন্দ নিয়ে থাকা হোক সুখে

০৩ রা মার্চ, ২০২১ রাত ১১:২৬

আহমেদ জী এস বলেছেন: রোকসানা লেইস,




জবাব দিতে অনিচ্ছাকৃত দেরীর জন্যে দুঃখিত ।

আনন্দ বিলিয়ে, আনন্দ নিয়ে থাকুক সকল ব্লগার সুখে.............

২৮| ২৩ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ২:৩৯

অন্তরন্তর বলেছেন: এক যুগ আর এমন অনেক অনেক যুগ থাকুন এ ব্লগে এটাই কামনা। খুব সুন্দর লিখেছেন। শুভ কামনা।

০৪ ঠা মার্চ, ২০২১ রাত ১২:৫৬

আহমেদ জী এস বলেছেন: অন্তরন্তর,




জবাব দিতে অনিচ্ছাকৃত ভাবে দেরী হয়ে যাওয়াতে আগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি ।

একযুগই তো অনেক সময় ! তারপরেও অনেক অনেক যুগ ? সুন্দর কামনা!
এমন কামনা রইলো আপনার ও সকল ব্লগারদের জন্যে।

২৯| ২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:২৯

করুণাধারা বলেছেন: ব্লগে আপনার আগমনের কাহিনী ভালো লাগলো! সামুর সাথে পরিচয়ের পর কি আপনার শায়রী নিয়ে আগ্রহের অবসান হয়েছিল? যদি না হয়ে থাকে, ওমর খৈয়ামের শায়রী অন্তর্জালে খুঁজে পেয়ে থাকেন, তবে সে নিয়ে কোন পোস্ট দিয়েছিলেন সামুতে? বলছেন একসময় মাসে ২৪/২৫টি পোস্টও করেছেন; এখন কিন্তু আপনি বেশ অনিয়মিত...

চমৎকার ভাবে লেখার সমাপ্তি টেনেছেন। শেষের কবিতার এই কবিতা আমার বড় প্রিয়। আপনার লেখা পড়ে মনে পড়ে গেল লাবণ্য, কেটী, অমিট্রেকে... জীবন কখন যে কোনদিকে বাঁক নেয়... হায়...

চমৎকার সব লেখা নিয়ে আরও দীর্ঘকাল সামুতে থাকুন- প্রার্থনা।

০৯ ই মার্চ, ২০২১ রাত ১০:২৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: করুণাধারা,





দেশের বাইরে আছি বলে সবসময় ব্লগে হাজিরা দেয়া হয়ে উঠছেনা, তাই ক্ষমা চাচ্ছি প্রতিমন্তব্য দিতে দেরী হয়ে যাওয়াতে।

না, শায়রী নিয়ে আমার আগ্রহ আগেও যেমন ছিলো , আছে এখনও। শায়রী নিয়ে লেখার মতো যোগ্যতা আমার নেই । এখনও নেই তাই সামুতে এ নিয়ে লেখার ধৃষ্টতা করিনি।
হ্যা; আগে মাসে ২৪ / ২৫ টি লিখেছি বটে তখন সামুতে আমার যৌবন উত্তুঙ্গে। ধীরে ধীরে তাতে ভাটা না পড়লেও ঘন ঘন লেখার প্রসব বেদনা নিতে চাইনি। নিলে লেখাগুলোর স্বাস্থ্য ভালো হতোনা, গায়ে গতরে শীর্ণ আর প্যাকাটি চেহারা হতো। এখনও যে লেখার স্বাস্থ্য ভালো, তা নয় !

শেষের কবিতা উপন্যাসের শেষ কবিতাটির কোনও তুলনা নেই যদি সৌমিত্রর কন্ঠের আবৃত্তিটি কেউ শোনেন। মনখানা শিরশির করে ওঠে, উথাল পাতাল হয়। মনে ধ্বনিত হতে থাকে প্রতিটি লাইনের কথা অন্যরকম এক একটা অনুভূতি নিয়ে। যেমন-
দূর হতে যদি দেখ চাহি
পারিবেনা চিনিতে আমায়

আবার -
ওগো বন্ধু-
সেই ধাবমান কাল
জড়ায়ে ধরিলো মোরে - ফেলি তার জাল.....


কোনটা রেখে কোনটা বলবো ! সবটাই হৃদয়ের গহীনে ঘাঁই মেরে যাওয়ার মতো।

তবে আপনাকে প্রশংসা করতেই হয়, আমার লেখার সমাপ্তিতে সেই ছোঁয়ার আমেজ পেয়েছেন বলে ।

ভালো থাকুন। নারী দিবসের শুভেচ্ছা।

৩০| ২৪ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৩৭

ওমেরা বলেছেন: কত আবেগ আর ভালোলাগা নিয়ে লিখেছেন লিখাটা পড়ে বুঝতে পারলাম। খুব ভালো লাগলো আপনার স্মৃতিচারন মূলক লিখাটা।
ভালো থাকুন ভাইয়া।

০৯ ই মার্চ, ২০২১ রাত ১০:৫৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: ওমেরা,





নিজের লেখার প্রতি কার না আবেগ আর ভালোবাসা থাকে !!!!!!!
নিজের কথা লিখতে পারছি "সামু"তে সেটাই তো একটি আবেগের জায়গা। আর ভালোবাসার মাঠটি তো "সামু"ই................

নারী দিবসের শুভেচ্ছা। ভালো থাকুন।

৩১| ২৭ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১২:১২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




প্রিয় আহমেদ জী এস ভাই,
আপনি ব্লগে “অনন্তকালের ব্লগ” নামে যে পোস্টটি দিয়েছেন আমার মনে হচ্ছে এ যেনো আমারই মনের কথা অক্ষরে অক্ষরে লিখে গিয়েছেন।

আজ থেকে প্রায় আট বছর আগে কোনো এক ক্লান্ত দুপুরে ব্লগে নাম রেজিস্টার করি, তারপর আজোও আছি। আমি নিজের আনন্দে লিখি, যারা আমার লেখা পড়েন তাদের ধন্যবাদ। আর যারা না পড়েন তাদেরও ধন্যবাদ। আমি আপনার পোস্টটি পড়েছি কিন্তু মন্তব্য দিতে দেড়ি হওয়ার কারণ - আমি বাড়িতে ছিলাম কিছু জমিজমার কাজে ও ঢাকা ফিরেও খানিকটা ব্যস্ততার কারণে আর লগইন হইনি।

ব্লগিং আনন্দময় হোক।

০৯ ই মার্চ, ২০২১ রাত ১১:৪০

আহমেদ জী এস বলেছেন: ঠাকুরমাহমুদ ,





প্রতিমন্তব্য দিতে অনিচ্ছাকৃত দেরী হওয়াতে দুঃখিত।
হুমমমমমম...ব্লগে আসার পেছনে সবারই কিছু না কিছু কারন থাকে। আপনার মনের কথা অক্ষরে অক্ষরে আমার লেখার সাথে মিলে তো যাবেই কারন ব্লগকে যারাই ভালোবাসেন, ভালোবাসেন লিখতে তাদের মনের কথাই যে এমনটা।

ব্যস্ততা কেটেছে এখন নিশ্চয়ই! আপনার ব্লগিংও আনন্দময় হোক।

ভালো থাকুন।

৩২| ২৭ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১:২০

মলাসইলমুইনা বলেছেন: আহমেদ জিএস ভাই,
অনেকেই অনেক সময় বলে অনেক ভালো গুণী ব্লগাররা ব্লগ থেকে চলে গেছেন । তাদের সবার লেখার সাথে যেহেতু পরিচয় নেই তাই এই কথাগুলো কতটা জেনারালাইজড করা যায় সেটা নিয়ে আমার সন্দেহ আছেই খানিকটা । কিন্তু বড় বড় নক্ষত্রের বিদায়ের পরেও ব্লগ আকাশটা যে এখনো পূর্ণিমা আলোর মতোই জ্বলজ্বল করে আছে অমাবস্যার নিকষ কালো দূর করে সেটা আপনি আর আপনার মতো আরো কয়েকজন আছে বলেই। ব্লগের আজকের অস্তিত্বটা নড়বড়ে কুঁড়ে ঘর হয়ে নয় জমাট একটা প্রাসাদের মতোই হয়ে আছে আপনাদের লেখার কারণেই।এই লেখার প্রত্যেকটা লাইনেই ব্লগের জন্য আপনার ভালোলাগা,যত্নের কথাটা পড়া যাচ্ছে। আরো অনেক দিন,অনেক বছর ব্লগটাকে একই যত্নে, ভালোলাগায় আর ভালোবাসতে ভরিয়ে রাখুন আপনার লেখা দিয়ে । লেখায় অনেক ভালো লাগা।

১০ ই মার্চ, ২০২১ ভোর ৬:০৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: মলাসইলমুইনা,




"বড় বড় নক্ষত্রের বিদায়ের পরেও ব্লগ আকাশটা যে এখনো পূর্ণিমা আলোর মতোই জ্বলজ্বল করে আছে অমাবস্যার নিকষ কালো দূর করে সেটা আপনি আর আপনার মতো আরো কয়েকজন আছে বলেই। ব্লগের আজকের অস্তিত্বটা নড়বড়ে কুঁড়ে ঘর হয়ে নয় জমাট একটা প্রাসাদের মতোই হয়ে আছে আপনাদের লেখার কারণেই।"
বড় সত্য-সুন্দর বলেছেন।
আসলেই ব্লগটাকে ভালো না বেসে উপায় থাকেনা যারা পড়তে ও লিখতে ভালোবাসেন তাদের জন্যে। নীচে ব্লগার ডঃ এম এ আলী
জীবনানন্দের কবিতায় যেমন বলে গেছেন --

"হাজার বছর ধরে আমি পথ হাঁটিতেছি পৃথিবীর পথে,
সিংহল সমুদ্র থেকে নিশীথের অন্ধকারে মালয় সাগরে
অনেক ঘুরেছি আমি; বিম্বিসার অশোকের ধূসর জগতে
সেখানে ছিলাম আমি; আরো দূর অন্ধকারে বিদর্ভ নগরে;
আমি ক্লান্ত প্রাণ এক, চারিদিকে জীবনের সমুদ্র সফেন,
আমারে দুদণ্ড শান্তি দিয়েছিলো নাটোরের বনলতা সেন।"


সফেন জীবন সমুদ্রের মাঝে ব্লগখানি যেন দুদণ্ড শান্তি পাওয়ারই একটা জায়গা! তাই সময় ক্লান্ত হয়ে এলেই ডুব দিয়ে যাচ্ছি ব্লগ সমুদ্রে। আমার লেখাতে তেমনটাই তুলে ধরতে চেয়েছি।

চমৎকার এই বিশ্লেষণী মন্তব্য লাইকড......................

৩৩| ১০ ই মার্চ, ২০২১ রাত ১২:২০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:



প্রিয়তে তুলে নিলেও লেখাটিতে ফিরতে বেশ বিলম্ব হয়ে গেল ।
ফিরতি পথে দেরী হওয়ার ছোট্ট একটি কারণও ছিল ।
দিন কয়েক পুর্বে বুকে Like a flash of lightning
ধরনের ছোট একটি ব্যথা নিয়ে হসপিটালে কাটিয়ে এলাম ।
ইসিজি , এক্সরে , ব্লাড টেষ্ট রিজাল্ট নরমাল পাওয়ায় দিন
দুয়েক অবজারবেসনে রেখে হসপিটাল হতে ছেড়ে দেয় ।
ডাক্তারের পরামর্শে জীবনটা অবশ্য হয়ে যায় অনেকটা নিয়ন্ত্রিত ।
যাহোক, ঘরে ফিরেই সামুতে এসে আপনার ব্লগর এলাম
আসমাপ্ত কর্মটি নিয়ে খানিকটা এগিয়ে যাওয়ার জন্য ।
প্রথমেই
কতো কাল ! কতো কাল ধরে আছি এখানে ! এই ব্লগে!
এই লাইনটি পাঠের সময় মনে পড়ল জীবনানন্দের বনলতা সেন কবিতার কথা
যেখানে কবি বলেছেন -
হাজার বছর ধরে আমি পথ হাঁটিতেছি পৃথিবীর পথে,
সিংহল সমুদ্র থেকে নিশীথের অন্ধকারে মালয় সাগরে
অনেক ঘুরেছি আমি; বিম্বিসার অশোকের ধূসর জগতে
সেখানে ছিলাম আমি; আরো দূর অন্ধকারে বিদর্ভ নগরে;
আমি ক্লান্ত প্রাণ এক, চারিদিকে জীবনের সমুদ্র সফেন,
আমারে দুদণ্ড শান্তি দিয়েছিলো নাটোরের বনলতা সেন।


তেমনি পোষ্টের লেখা পাঠে এগিয়ে দেখি শেষ লাইনে হয়েছে বলা -
অতীতের দূসর রাত্রীর তমশা ছিঁড়ে এ যেন এক নবযাত্রা – আন্তকালের পথে ……
এটা সাথে পোষ্টের ভিতরের লেখা পাঠে মনে হলো অনন্তকালের পথে হাটলেও
অনেক কাজের ভিড়ে দুদন্ড শান্তি দেয় কিছুটা সময় সামুর পাতায় বিচরণকালে ।
অনন্তকালে পথ চলা মসৃন হোক , আনন্দদায়ক হোক
এ কামনাই রইল ।

১০ ই মার্চ, ২০২১ ভোর ৬:৫৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: ডঃ এম এ আলী ,




স্বস্তি পেলুম এটা জেনে যে, অসুস্থ্যতা কাটিয়ে উঠে আবার পৃথিবীর পথেই হাঁটছেন। আপনার এই হাঁটা যেন অনন্তকাল ধরে হয় সুস্থ্যতার সাথেই।
প্রার্থনা, সৃষ্টিকর্তা আপনাকে সুস্থ্য ও সম্পূর্ণ নীরোগ রাখুন আজ এবং আগামী দিনগুলোতেও।

"অনন্তকালের পথে হাটলেও অনেক কাজের ভিড়ে দুদন্ড শান্তি দেয় কিছুটা সময় সামুর পাতায় বিচরণকালে ।"
একটি আবেগীয় উপলব্ধি। ঠিক যেন -
আমি ক্লান্ত প্রাণ এক, চারিদিকে জীবনের সমুদ্র সফেন,
আমারে দুদণ্ড শান্তি দিয়েছিলো নাটোরের বনলতা সেন।

অসম্ভব সুন্দর একটি মন্তব্য।

৩৪| ১০ ই মার্চ, ২০২১ রাত ১২:৩৮

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:


আন্তকালের হবে অনন্তকাল
কিযে হবে চোখেও ভাল দেখিনা
বুড়াকালের জ্বালা মনে হয়
শুরু হয়েছে !


৩৫| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৪:৫৯

জুন বলেছেন: আহমেদ জী এস,
আপনার ইমেইল এড্রেসটা কি দেয়া যাবে? দরকার ছিল।

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ রাত ৮:৩৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: জুন,




শুনেই বুক কাঁপছে, আবার কোন দরকারে আমার ঠিকানা চাইছেন ! :|
ব্লগের ইবনে বতুতা, কতো ঠিকানাতেই তো ঘুরেছেন; এবার না হয় এই অধমের ঠিকানাতে ঘুরে আসুন । এই নিন -
[email protected]


৩৬| ০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ রাত ৯:৪৭

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: এরেই বলে আহেমদ জি এস ভায়া !

জিনিয়াস অলোওয়েস জিনিয়াস! :)
আপনার পোষ্ট পড়তে গিয়ে প্রথম বাড়ীতেই কেটে গেল দীর্ঘ সময়।
পদচিহ্ণ রেখে এসেছি :)

অনন্তকাল আক্ষরিক হোক ব্লগে, ভালবাসায়, বন্ধুত্বে আর প্রজ্ঞায়

++++++++++

০৩ রা এপ্রিল, ২০২১ রাত ১০:১৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: বিদ্রোহী ভৃগু,





অনন্তকাল আক্ষরিক হোক ব্লগে, ভালবাসায়, বন্ধুত্বে আর প্রজ্ঞায়
এমনটাই তো সবাই চান।
মাঝেমাঝে ক্ষনকাল ব্লগ থমকে যায় কারো কারো বালখিল্যতায়, নোংরামীতে। যা কাম্য নয় ।

৩৭| ১০ ই এপ্রিল, ২০২১ রাত ৯:২৮

মিরোরডডল বলেছেন:




১০ বছর পূর্তির শুভেচ্ছা !
ব্লগে আসার গল্পটা জেনে ভালো লাগলো ।
সময় কিভাবে চলে যায় !
ব্লগটা আসলেই একটা নেশা ।
জি এসের অনেক লেখা পড়লেও মন্তব্য লেখা হয়নি ।
কারনটা কিছুটা আলসেমি আর কিছুটা ভুলে যাওয়া ।
অফলাইন থেকে অনেকের লেখা পড়ি কিন্তু অনলাইন আসলে মন্তব্য করতে আর মনে থাকেনা :(
ব্লগ চলার পথ আরও আনন্দময় হয়ে উঠুক এই প্রত্যাশা ।



১০ ই এপ্রিল, ২০২১ রাত ৯:৫৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: মিরোরডডল,




হ্যা .... সময় বয়ে যায় তার ঢংয়েই। তারপরেও মানুষ সময়টাকে ধরে রাখতে কতো কিছুই না করে! এই যেমন আমরা ব্লগিং করি। ব্লগে ক্যাচাল করি। আবার মিলেমিশে যাই! এসব নেশার মতো তন্দ্রাচ্ছন্ন করে রাখে আমাদের - বুদ্ধি, বিবেক লোপ পেয়ে যায়। তবুও ব্লগটাকে ছেড়ে যেতে বড় কষ্ট!
দশ বছর আগে যে বীজটি পুঁতে ছিলুম এখানে, তাতে মাঝে মাঝে আপনাদের জল ঢালাতে তা ডালপালা মেলে এখন বেশ ডাঙর হয়ে উঠেছে। মায়াটা তাই বড্ড বেশী!

জী.এস কে পড়ুন , মন্তব্যও করুন। জী.এস এর ভালো লাগবে।

আসছে বৈশাখের তান্ডব শুভেচ্ছা.................

৩৮| ১০ ই এপ্রিল, ২০২১ রাত ১০:২৭

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

যত দিন এই পৃথিবীতে সুস্থ্য-সবল আছেন, তত দিন পর্যন্ত ব্লগের সাথে যুক্ত থাকবেন এমনই কামনা করি।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.