নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

একজন সুখী মানুষ, স্রষ্টার অপার ক্ষমা ও করুণাধন্য, তাই স্রষ্টার প্রতি শ্রদ্ধাবনত।

খায়রুল আহসান

অবসরে আছি। কিছু কিছু লেখালেখির মাধ্যমে অবসর জীবনটাকে উপভোগ করার চেষ্টা করছি। কিছু সমাজকল্যানমূলক কর্মকান্ডেও জড়িত আছি। মাঝে মাঝে এদিক সেদিকে ভ্রমণেও বের হই। জীবনে কারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ করিনি, এখন তো করার প্রশ্নই আসে না। জীবন যা দিয়েছে, তার জন্য স্রষ্টার কাছে ভক্তিভরে কৃতজ্ঞতা জানাই। যা কিছু চেয়েও পাইনি, এখন বুঝি, তা পাবার কথা ছিলনা। তাই না পাওয়ার কোন বেদনা নেই।

খায়রুল আহসান › বিস্তারিত পোস্টঃ

হ্রস্ব জীবনের দীর্ঘ প্রতিবিম্ব

২২ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:২৪



ঝুলে থাকে সে ঝুলে থাকা কোন পাতায়,
কিংবা কখনো নিশ্চুপ বসে থাকে
কোন সবুজ ঘাসের উঁচু করে থাকা মাথায়।
কখনো শিশির বিন্দু হয়ে, ধানের শীষে...
নয়তো জলে ভাসমান কোন পদ্মপাতায়,
কিংবা হিল্লোলিত কোন পুষ্পকোরকে।

যেখানেই থাক, যেভাবেই থাক,
সে থেকে যায় এক মুগ্ধ কবির নয়নে।
মৃদুমন্দ বাতাসে আন্দোলিত হতে হতে,
একটা সময় সে টুপ করে ঝরে পড়ে,
কিংবা বাতাসে বিলীন হয়ে যায় খরতাপে।
কতই হ্রস্ব জীবন,
অথচ কতটা দীর্ঘক্ষণ
তার স্মৃতি মানুষের মনে ছায়া ফেলে রাখে!

(জগতের যে কোন সৌন্দর্য মানুষের মনকে প্রফুল্ল করে। সে সৌন্দর্যের স্থায়ীত্ব ক্ষণিক হতে পারে, তবে মানব মনে তার প্রভাব দীর্ঘস্থায়ী।)

ছবিসূত্রঃ গুগল

ঢাকা
২২ জুলাই ২০১৮
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।



মন্তব্য ৭৪ টি রেটিং +২১/-০

মন্তব্য (৭৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৪৫

ভ্রমরের ডানা বলেছেন:


একফোঁটা জলে কতই না স্নিগ্ধতা তবুও তার ক্ষণস্থায়ী রূপ!! কবিতায় সেই একফোঁটা জলের পরিণতি মানুষের জীবনের রূপকে ফুটে উঠেছে।

২২ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৪৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: প্রথম মন্তব্য এবং প্রথম প্লাসের জন্য অশেষ ধন্যবাদ। মন্তব্যে অনেক অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভেচ্ছা জানবেন।

২| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৫১

আহমেদ জী এস বলেছেন: খায়রুল আহসান ,





তবুও দেখা হয়না চক্ষু মেলিয়া ঘাসের ডগায় একটি শিশির বিন্দু ......................

২২ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩২

খায়রুল আহসান বলেছেন: ঘর হতে শুধু দুই পা ফেলিয়া....
কবিতা পড়ার জন্য ধন্যবাদ। মন্তব্যে অনুপ্রাণিত।
শুভেচ্ছা!!!

৩| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:০০

ওবায়দুল হক বলেছেন: সুন্দর

২২ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। ভাল থাকুন।

৪| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:১৭

ঋতো আহমেদ বলেছেন: বাহ্,, সামান্য জলবিন্দুকে কবিতায় অসামান্য করে তুলেছেন। ভাবনার গভীরতা ছুঁয়ে যাচ্ছে মানব জীবন-সময়ের হ্রস্যতাকেও।+++

২২ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ৮:৩৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: ধন্যবাদ, আপনার এই অসামান্য মন্তব্যটির জন্য। অনেক অনুপ্রাণিত হ'লাম।
ভাল থাকুন, শুভকামনা---

৫| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:২১

আকিব হাসান জাভেদ বলেছেন: শিশিরের বিন্দু ফোটায় আমাদের ক্ষণস্থায়ী জিবন । এক কোণায় জমে থাকা জ্বল বিন্দু নিমেশে মিশে যায় অজানায় ।যাকে ভালোবেসিছি সে ও শিশিরের জ্বলের মতো ।

২২ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ৮:৪৬

খায়রুল আহসান বলেছেন: যাকে ভালোবেসিছি সে ও শিশিরের জ্বলের মতো - কথাটা বোধহয় "জ্বলের মতো" না হয়ে জলের মতো হবে।
কবিতা পড়ে মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ। প্রীত হ'লাম।

৬| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:২১

আহমেদ জী এস বলেছেন: খায়রুল আহসান ,



আপনার দেখিয়ে দেয়া পথটা ধরে ১৩ ই মার্চ, ২০১১ বিকাল ৩:০৩টাতে আমার পোস্ট "কি কথা তাহার সাথে ..." তে করা আপনার মন্তব্যের জবাব দিয়ে এসেছি ।

২৩ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:৪৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ, দেখে এলাম আপনার প্রতিমন্তব্যটা। নোটিফিকেশন না পাওয়ার এ সমস্যাটার আশু সমাধান একেবারে আশু জরুরি হয়ে পড়েছে। ডিজিটাল যুগে এমন এ্যানালগ পদ্ধতিতে বাড়ী বাড়ী গিয়ে মন্তব্য প্রতিমন্তব্যের খবর দিয়ে আসতে আর ভাল লাগছে না।

৭| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:২৫

:):):)(:(:(:হাসু মামা বলেছেন: চমতকার হয়েছে কবি।

২৩ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:০২

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ, হাসু মামা। কবিতার প্রশংসায় যারপরনাই অনুপ্রাণিত হ'লাম।

৮| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:২৯

এ.এস বাশার বলেছেন: অসামান্য কবিতা......

২৩ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:০৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: অসামান্য প্রশংসা। ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা!!!

৯| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:৪৪

বাকপ্রবাস বলেছেন: খুবই সুন্দর।

২৩ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৫:৪০

খায়রুল আহসান বলেছেন: প্রশংসায় অনুপ্রাণিত হ'লাম। মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।
আমার কোন লেখায় আপনি এই বুঝি প্রথম এলেন, - সুস্বাগতম!
শুভকামনা---

১০| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:৪৮

জুন বলেছেন: এটা জেনেও আমাদের মাঝে কি হিংস্র প্রতিযোগিতা ৷
আরো অনেককে পায়ে মাড়িয়ে আরো উপরে ওঠার!
অনেক ভালোলাগা রইল কবিতায়৷
+

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ৯:৪০

খায়রুল আহসান বলেছেন: দিনে দিনে এ হিংস্র প্রতিযোগিতা প্রবলতর হচ্ছে, কর্পোরেট কালচারের বিস্তৃতির কারণে।
মন্তব্যে এবং প্লাসে অনেক অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভেচ্ছা জানবেন।

১১| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:০২

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: কবিতা ভাল লেগেছে ভাইয়া।

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ৯:৫৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। মন্তব্যে এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভেচ্ছা জানবেন।

১২| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:১২

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: রেসপেক্টেডস্যর,

আমরা যদি সবাই জীবনকে এমনভাবে ভাবতে পারতাম তাহলে পৃথিবীটা আরও মধুর হয়ে উঠতো। ক্ষনস্থায়ী চিন্তা আমাদের মনের হিংসা দ্বেষ প্রভৃতি কুপ্রবৃত্তিগুলিকে দূর করে সুকুমার প্রবৃত্তিকে বড় করে তুলে ধরতো। কবিতায় অনেক ভালো লাগা। ++

অফুরান শুভেচ্ছা স্যর আপনাকে ।

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:০৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতাটা পড়ে আপনার চমৎকার ভাবনাগুলো এখানে শেয়ার করে যাবার জন্য ধন্যবাদ। আপনার ভাবনার সাথে আমি একমত।
মন্তব্যে এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভেচ্ছা জানবেন।

১৩| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৫৭

সুমন কর বলেছেন: বিষয়বস্তু আর কবিতা ভালো লাগল। +।

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:১৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। মন্তব্যে এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভকামনা রইলো....

১৪| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৫৭

কাওসার চৌধুরী বলেছেন: কবিতার শেষ দুটি লাইন মনে দাগ কাটলো। মানুষের জীবটাও শিশির বিন্দুর মতো। কবিতায় ভাল লাগা।

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৪৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: মানুষের জীবনটাও শিশির বিন্দুর মতো - ভাল লাগলো আপনার এ দার্শনিক ভাবনাটা।
কবিতা সম্পর্কে আমি একটা পাদটীকা আজ জুড়ে দিলামঃ
" জগতের যে কোন সৌন্দর্য মানুষের মনকে প্রফুল্ল করে। সে সৌন্দর্যের স্থায়ীত্ব ক্ষণিক হতে পারে, তবে মানব মনে তার প্রভাব দীর্ঘস্থায়ী।"
(‘A thing of beauty is a joy for ever’- however short lived that ‘thing’ may be! - আক্ষরিক অনুবাদ নয়!)
মন্তব্যে এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা....

২০ শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বিকাল ৩:৫৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: আপনার একটি চমৎকার পুরনো পোস্ট পড়ে এলাম, একজন মেয়র আনিসুল হক (স্বরণ/ব্যক্তিত্ব) শিরোনামে। খুব সুন্দর শ্রদ্ধাঞ্জলি। সেখানে আমার তিনটে মন্তব্য রেখে এসেছি। একবার সময় করে দেখে নেবেন বলে আশা করি।

১৫| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:৫১

নীলপরি বলেছেন: খুব সুন্দর লাগলো কবিতা । ++

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:২৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতার প্রশংসায় প্রীত হ'লাম। প্লাসে অনুপ্রাণিত।
অনেক অনেক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা!!!

১৬| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:০৭

বিদ্যুৎ বলেছেন: খুবই চমৎকার। ভাল লাগলো আপনার কবিতাটি পড়ে তবে আরও বেশি ভাল লাগলো এই জন্য যে অনেক ব্লগার/পাঠক পড়ে বিভিন্ন ভাবে তাঁদের ভাল লাগা জানিয়েছেন। সত্য কথা বলতে কি কবিতা পড়া মানুষের খুবই আকাল। আমি দেখেছি অনেক সুন্দর সুন্দর কবিতা এখানে প্রকাশ পায় কিন্তু তেমন কোন পাঠক অথবা মন্তব্য দেখা যায় না। অথচ একটা আজেবাজে পোস্টে শত শত মন্তব্য বা পাঠক দেখা যায়। আপনার কবিতার মাধ্যমেই কবিতার পাঠক সঞ্চার আরও বৃদ্ধি পাবে এমনটাই আশাকরি। অভিনন্দন সুন্দর কবিতা পাঠকদের উপহার দেওয়ার জন্য।

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:৫৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: আমি দেখেছি অনেক সুন্দর সুন্দর কবিতা এখানে প্রকাশ পায় কিন্তু তেমন কোন পাঠক অথবা মন্তব্য দেখা যায় না - আপনি ঠিকই বলেছেন, আমিও তা দেখেছি। কবিতা মানব মনের শুদ্ধতম অনুভূতির একান্ত নিজস্ব প্রকাশ। কবি পাঠকের কথা চিন্তা করে কবিতা লেখেন না, মনের অনুভূতি বা বক্তব্য প্রকাশই কবিতার অন্তর্নিহিত প্রেরণা। এটা কবি করে থাকেন তার নিজস্ব ভাষায়, নিজস্ব চিন্তা শৈলী্তে।
আপনার কবিতার মাধ্যমেই কবিতার পাঠক সঞ্চার আরও বৃদ্ধি পাবে এমনটাই আশাকরি - ভীষণ প্রেরণাদায়ক একটা মন্তব্য রেখে গেলেন; এত উদার একটা মূল্যায়নের জন্য আন্তরিক কৃতজ্ঞতা।
কবিতার পাঠক যেমন কম, কবিতা পড়ে মন্তব্য রেখে যাওয়া পাঠকের সংখ্যাটা আরও কম। আর তার উপর তো প্রায় শোনা একটা মন্তব্য রয়েছেই- "আমি কবিতা কম বুঝি"- যা কবিকে নিরুৎসাহিত করে।
উজ্জ্বল মন্তব্য। অনেক ধন্যবাদ।

১৭| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:৩৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


সব মানুষের মনে একজন কবি বাস করেন

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:৫২

খায়রুল আহসান বলেছেন: সব মানুষের মনে একজন কবি বাস করেন - অসাধারণ একটা কথা বলেছেন, যা সর্বৈব সত্য।
অনেক ধন্যবাদ।

১৮| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:০৬

রাজীব নুর বলেছেন: আসলে আপনি একজন অভিজ্ঞ মানুষ।
আপনার লেখা পড়লেই তা পরিস্কার বুঝা যায়।

আমার নিজের একটা অভিজ্ঞতার কথা বলি-
তখন সোনিয়া ছিল বড়লোকের বখে যাওয়া সুন্দরী মেয়ে। রাস্তায় দাড়িয়ে আমার সাথে চা খেত, স্লেযিং করতো, রাজনীতি করতো, খুব আড্ডা দিতে পছন্দ করতো এবং আমার জীবনে দেখা প্রথম সিগারেট খাওয়া মেয়ে ।
৪বছর আগের সোনিয়ার সাথে এখন সোনিয়ার আকাশ পাতাল তফাত, ও এখন আইনের ছাত্রী, দিনরাত বই নিয়ে পড়ে থাকে, নামাজ পড়ে।

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:০৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: মন্তব্যের দ্বিতীয় অংশের প্রাসঙ্গিকতা আমার বোধগম্য হয়নি। তবে মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

১৯| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৫:০৮

কাইকর বলেছেন: খুবই সুন্দর কবিতা

২৪ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:২৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। কবিতার প্রশংসায় অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভেচ্ছা রইলো---

২০| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৫:১৫

শায়মা বলেছেন: জীবনটা এক পদ্মপাতায় শিশিরবিন্দু....

মনে পড়ে গেলো ....

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:২৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: ঠিক তাই, এবং ঐ পদ্মপাতায় শিশিরবিন্দুটি কতো সুন্দর!
মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

২১| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:২২

নিভৃতেনৈঃশব্দে বলেছেন: অনবদ্য !

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৪১

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। কবিতার প্রশংসায় অনুপ্রাণিত হ'লাম।

২২| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫০

মলাসইলমুইনা বলেছেন: খায়রুল ভাই, কবিতা পরে যা মনে হলো :

"দিন যায় ক্ষণ যায়, সময় কাহারো নয়
বেগে ধায় নাহি রহে স্থির,
সহায় সম্পদ বল, সকলি ঘুচায় কাল,
আয়ু যেন পদ্মপত্র নীর ।"


যা বলতে ইচ্ছে করছে :
ক্ষণস্থায়ী সব কিছুর মধ্যেও কবিতাটা দীর্ঘস্থায়ী ভালোলাগায় ভরা থাকবে।

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৫৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: আপনার কাছ থেকে চমৎকার এ কাব্যিক মন্তব্যটি পেয়ে অনেক অনুপ্রাণিত হ'লাম।
ব্লগে নিয়মিতভাবে ফিরে আসার অনুরোধটি পুনর্ব্যক্ত করছি, মলাসইলমুইনা
ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা!

২৩| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ৮:১৬

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন:
কত শিশির কত বিন্দু জল
মাড়িয়ে গেছি পেরিয়ে গেছি অবহেলায়
কবির স্নিগ্ধ চোখ কি অসীম মমতায়
হ্রস্ব জীবনের দীর্ঘ প্রতিবিম্ব এঁকে যায় :)

চারচরণে মুগ্ধতা আর ভাল লাগা ফুটানোর ক্ষুদ্র চেষ্টা ;)

+++

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১২:১৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: চারচরণে মুগ্ধতা আর ভাল লাগা ফুটানোর ক্ষুদ্র চেষ্টা - এ চেষ্টাটুকু বৃথা যায়নি। কবি মুগ্ধ হয়েছেন!, অনুপ্রাণিত হয়েছেন। :)
অনেক, অনেক ধন্যবাদ ও আন্তরিক শুভেচ্ছা....

২৪| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ৮:১৯

সনেট কবি বলেছেন: কবিতা পড়ে মুগ্ধ হলাম।

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ১:৫১

খায়রুল আহসান বলেছেন: আমিও মন্তব্যটা পড়ে মুগ্ধ হ'লাম। ধন্যবাদ, সনেট কবি, আমার এ কবিতার প্রশংসা এবং প্লাসের জন্য।
শুভকামনা....

২৫| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:২৮

তারেক ফাহিম বলেছেন: জীবনটা এক শিশিরবিন্দু।


২৫ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:০৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: জীবনটা এক শিশিরবিন্দু - একদম ঠিক কথা। সুন্দর পাত্রে পড়লে শিশিরবিন্দুটিকে খুব সুন্দর দেখায়!!!!

২৬| ২২ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ১১:৫৩

খাঁন কামাল বলেছেন: সুন্দর কবিতা

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ দুপুর ২:৩৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। কবিতার প্রশংসায় এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।

২৭| ২৩ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ১২:১২

শরিফ নজমুল বলেছেন: বেশ সুন্দর!

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:১৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতা পড়ার জন্য ধন্যবাদ। প্রশংসায় প্রীত হ'লাম।

২৮| ২৩ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১০:১৭

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: ভালো লিখেছেন।

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:৩১

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। কবিতার প্রশংসায় এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভকামনা---

২৯| ২৩ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ১১:৩৯

পদ্ম পুকুর বলেছেন: ইদানিং বেশ কবিতা লিখছেন। যদিও কবিতা বোঝা আমার কম্ম না, তবু পড়তে ভালো লাগলো।

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৩:৪৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: তবুও কবিতাটা পড়ার জন্য অশেষ ধন্যবাদ। ভাল লেগেছে জেনে প্রীত হ'লাম, আর প্লাসে অনুপ্রাণিত।

৩০| ২৩ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১০

বলেছেন: হৃদয়স্পর্শী

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:০৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: অশেষ ধন্যবাদ। ভাল থাকুন!

৩১| ২৫ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ১২:১২

ইফতেখারুল মবিন বলেছেন: অসম্ভব সুন্দর আর হৃদয়স্পর্শী!!

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:১২

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতার উদার প্রশংসায় প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
অনেক, অনেক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা!

৩২| ২৫ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ২:০১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: মনে হল ক্ষনকাল সুন্দরীর লাবন্য মিশে আছে কবিতাটিতে । ক্ষনকালের কোন সুকৃতির যুগল সিন্দুর টিপ যেন কবিতাটিতে সুরে সুরে ঝরে, দীর্ঘায়িত হওয়ার প্রবল মানসে ।একজন খেটে খাওয়া মানুষ কিংবা কৃষক যে ভাঙনের বিরুদ্ধে লড়তে লড়তে তার দারিদ্র পিড়িত অনাহারী অর্ধাহারী স্বল্প জীবনেই অনেক সময় ভাঙনের জলে ভেসে যায়, আর তার ফলনকে ঘরে তোলে বা ফলনের স্বাদ উপভোগ করে আমাদেরই মত লোকজন জীবনকে বিবিধভাবে দীর্ঘ করে যায় । তারপরেও তেমনভাবে কামনা করিনা কভু কিভাবে তাদের জীবনটাকেও স্বল্পতার আবর্ত হতে টেনে দীর্ঘায়িত করা যায় ।
ধন্যবাদ মুল্যবান ভাবগাম্বির্যময় কবিতাটির জন্য ।

শুভেচ্ছা রইল

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ বিকাল ৪:২৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: বরাবরের মতই অনেক সুন্দর মন্তব্য করেছেন, ডঃ এম এ আলী। মন্তব্যে এবং প্লাসে অনেক অনুপ্রাণিত হ'লাম।
অনেক, অনেক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা!

৩৩| ২৫ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:০৩

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুন্দর।+

২৫ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। মন্তব্যে এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভেচ্ছা জানবেন।

৩৪| ২৫ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ১০:৪৩

ধ্রুবক আলো বলেছেন: মানুষের জীবনটা সত্যি অনেক ছোট, আর এই ছোট জীবনে অনেক কিছুর প্রতিবিম্ব রেখে যায়!

কবিতাটা প্রথম দিন পড়ে আমি বেশ ভাবনায় পরে গিয়েছিলাম। কি কমেন্ট করবো। আজকে আবার পড়ে মন্তব্য করার সাহস করলাম।

২৬ শে জুলাই, ২০১৮ ভোর ৬:৫৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতাটা একাধিকবার পড়ার জন্য ধন্যবাদ, ধ্রুবক আলো । মন্তব্যে এবং প্লাসে অনুপ্রাণিত হ'লাম।
বাহ্যিকভাবে কবিতার মূল বক্তব্য কবিতার শেষে ব্রাকেটের কথাগুলোতে বলা হয়েছে। কবিতার অন্তর্নিহিত অর্থঃ সুন্দরের ধারক ক্ষণস্থায়ী, কিন্তু সৌন্দর্য দীর্ঘস্থায়ী। মানুষকে মানুষ ভুলে যায়, কিন্তু তার সুকীর্তিকে মানুষ দীর্ঘদিন স্মরণে রাখে। তাই জীবন যত ছোটই হোক, সুন্দর জীবন যাপন একান্ত কাম্য।

৩৫| ২৬ শে জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৪

সোহানী বলেছেন: অসাধারন ভাবনা।

কোন সৈান্দর্য্যই দীর্ঘস্থায়ী হয় না বাস্তবে কিন্তু এর স্থায়িত্ব থাকে মনে............. আহ্ একটা ভাবনার খোরাক পেলাম।

২৬ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ৮:১৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: একদম ঠিক ধরেছেন কবিতার মূল কথাটি। কবিতা পড়ে আপনার নিজস্ব ভাবনাটি এখানে শেয়ার করে যাবার জন্য ধন্যবাদ।
মন্তব্যে এবং প্লাসে অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভকামনা---

৩৬| ২৭ শে জুলাই, ২০১৮ রাত ১১:৫২

মিথী_মারজান বলেছেন: নতুন করে মুগ্ধ হলাম আপনার ভাবনার প্রকাশে।
খুব সত্যি বলেছেন, সামান্য সৌন্দর্যও মাঝে মাঝে স্হায়ীভাবে খুব গভীর ভালোলাগার জন্ম দেয়।
পরিচিত মুখের ছোট্ট একটা হাসি, অচেনা কারোর এক পলক চাহনী, ভালোলাগার সামান্য কোন কথা অথবা হতে পারে ছোট্ট কোন কবিতার লাইনও কোন কোন সময় স্হায়ীভাবে মস্তিষ্কে গেঁথে স্মৃতিতে অবিনশ্বর হয়ে ওঠে।
কবিতার থিমটা খুব সুন্দর আর শিরোনামটাও বেশ চমৎকার।:)

২৮ শে জুলাই, ২০১৮ সকাল ৮:৩৬

খায়রুল আহসান বলেছেন: সামান্য সৌন্দর্যও মাঝে মাঝে স্হায়ীভাবে খুব গভীর ভালোলাগার জন্ম দেয়।
পরিচিত মুখের ছোট্ট একটা হাসি, অচেনা কারোর এক পলক চাহনী, ভালোলাগার সামান্য কোন কথা অথবা হতে পারে ছোট্ট কোন কবিতার লাইনও কোন কোন সময় স্হায়ীভাবে মস্তিষ্কে গেঁথে স্মৃতিতে অবিনশ্বর হয়ে ওঠে
- অত্যন্ত চমৎকার একটা বিশ্লেষণ করেছেন কবিতা পড়ে; মন্তব্যে মুগ্ধ হ'লাম।
কবিতার থীম আর শিরোনামের প্রশংসায়ও প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা!!!

৩৭| ৩১ শে আগস্ট, ২০১৮ সকাল ১১:৩৬

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন:
কবিতাটি পড়ে অনেক ভালো লেগেছে+

৩১ শে আগস্ট, ২০১৮ সকাল ১১:৫২

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপনাকে, আমার এ ঈষৎ পুরাতন কবিতাটি পিছু হেঁটে পড়ে যাবার জন্য। কবিতাটি আপনার ভাল লেগেছে জেনে প্রীত হ'লাম।
শুভেচ্ছা জানবেন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.