নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

একজন সুখী মানুষ, স্রষ্টার অপার ক্ষমা ও করুণাধন্য, তাই স্রষ্টার প্রতি শ্রদ্ধাবনত।

খায়রুল আহসান

অবসরে আছি। কিছু কিছু লেখালেখির মাধ্যমে অবসর জীবনটাকে উপভোগ করার চেষ্টা করছি। কিছু সমাজকল্যানমূলক কর্মকান্ডেও জড়িত আছি। মাঝে মাঝে এদিক সেদিকে ভ্রমণেও বের হই। জীবনে কারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ করিনি, এখন তো করার প্রশ্নই আসে না। জীবন যা দিয়েছে, তার জন্য স্রষ্টার কাছে ভক্তিভরে কৃতজ্ঞতা জানাই। যা কিছু চেয়েও পাইনি, এখন বুঝি, তা পাবার কথা ছিলনা। তাই না পাওয়ার কোন বেদনা নেই।

খায়রুল আহসান › বিস্তারিত পোস্টঃ

তার কথা

২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২৫

সোনালী মুখের উপর তার ছড়ানো কেশ,
আষাঢ়ের কালোমেঘ যেন ঢেকে দিচ্ছে
ফাঁক ফোঁকর দিয়ে বিচ্ছুরিত কিরণরশ্মি,
চুলগুলো খোপায় বেঁধে নিল এলোকেশী।

মাথার চকচকে সিঁথিটা তার খুবই স্পষ্ট;
কালো মেঘের ঠিক মাঝ বরাবর যেন এক
বিজলিছটা, একটানে আঁকা বিভাজন রেখা।
খোপার পেছনে কাঁচাফুল কিছু গেঁথে রাখা।

কানে তার দোলে চঞ্চল ফুলের মত দুটি
কর্ণলতিকা। পুরনো একটি নথ, চঞ্চুসম
তার গর্বিত নাকে বসে হয়ে যায় আধুনিক!
মুচকি হাসির সাথে সাথে তার নথটাও নাচে।

মনটা তার ঘনসবুজ ছায়াঘেরা এক দীঘি।
চৌকষ কোন ডুবুরিও স্পর্শ করতে পারেনা
যার অতল তল। কাজল কালো দুটো চোখ
তার মনের সুনামি ঢেকে রেখে খালি হাসে!

(কবিতাটির দ্বিতীয় স্তবক সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই এর ৮ নং মন্তব্য পড়ার পর সম্পাদনা করেছি, সেই সাথে তৃতীয় স্তবকের শেষ চরণটিও নিজ ভাবনা অনুযায়ী সম্পাদনা করেছি। একজন সচেতন পাঠকের মন্তব্য কিভাবে একজন লেখক কে তার ভুল শুধরে নিয়ে লেখার মান উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে, এটা তার একটা উজ্জ্বল উদাহরণ হয়ে রইলো।)

ঢাকা, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৪

মন্তব্য ৩৪ টি রেটিং +১২/-০

মন্তব্য (৩৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩০

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: ছবির ন্যায় সুন্দর কবিতায় মুগ্ধতা.....

রূপের বর্ণনায় প্রাকৃতিক ছোঁয়া লাগবেই....
কেননা প্রকৃতি রূপে, গুণে অনন্য....

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৩৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: প্রথম প্লাস এবং প্রথম মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ। দুটোতেই অনুপ্রাণিত হ'লাম।
অনেক শুভকামনা...

২| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৪০

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুন্দর।+

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:০৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ, প্লাস এবং 'সুন্দর' কথাটার জন্য।
ভাল থাকুন, শুভেচ্ছা---

৩| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৪২

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: শ্রদ্ধেয় স্যার,


এলোকেশীরা বোধহয় সর্বযুগের মোনালিসা! তাই তারা অনায়াসে হৃদয়ের সুনামি ঢেকে তারা হাসি বিলাতে পারে অকাতরে । ঘন সবুজ ছায়া ঘেরা বীথিতে ; তাই তাদের মনের তল পাওয়া ডুবুরীর পক্ষেও অসাধ্য। ++


বিনম্র শ্রদ্ধা ও শুভকামনা স্যার আপনাকে।


২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:২৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: এলোকেশীরা বোধহয় সর্বযুগের মোনালিসা! তাই তারা অনায়াসে হৃদয়ের সুনামি ঢেকে তারা হাসি বিলাতে পারে অকাতরে । ঘন সবুজ ছায়া ঘেরা বীথিতে ; তাই তাদের মনের তল পাওয়া ডুবুরীর পক্ষেও অসাধ্য - আমার এ কবিতাটা পড়ে আপনার এ চমৎকার ভাবনাগুলো এখানে শেয়ার করে যাবার জন্য অনেক ধন্যবাদ, পদাতিক চৌধুরি। মন্তব্যে এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভেচ্ছা জানবেন।

৪| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৪৫

রাফা বলেছেন: বাহ্ সোনালী মুখ ,কৃষ্ণ বরণ কেশ।
মুচকি হাসির বিজলী,কাজল কালো চোখ ।
আর কিছু কি লাগে ,এমন একজনের কথা‘তো-
শেষ হবার নয় ।এক জনমে।

চমৎকার,খা.আহসান।ধন্যবাদ।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:৫৬

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ রাফা আপনাকে, কবিতা পড়ে একটা সুন্দর মন্তব্য এখানে রেখে যাবার জন্য।
ভাল থাকুন, শুভকামনা...

৫| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৪৭

রাজীব নুর বলেছেন: সহজ সরল সুন্দর কবিতা।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৩৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: ধন্যবাদ, সহজভাবে কথাটা এখানে বলে যাবার জন্য।
শুভকামনা...

৬| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৫০

একজন অশিক্ষিত মানুষ বলেছেন: খুব সুন্দর হয়েছে কবিতা ।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৫০

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতাটি পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ, একজন অশিক্ষিত মানুষ
কবিতার প্রশংসায় এবং প্লাসে অনুপ্রাণিত হ'লাম।
ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা---

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:২৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: আপনার প্রথম পোস্ট "আমি একজন সল্প লেখাপড়া করা ব্লগার" পড়ে একটা মন্তব্য রেখে এসেছি। সময় করে দেখে নেবেন।

৭| ২১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৫৯

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: সুন্দরের নাই বুঝি উপমা আর যে উপমায় সাজিয়েছেন বালিকার রূপ গুণ, তাতে কেবল ভালোবাসা দেখে গেলাম আমি।

শুভকামনা হে শ্রদ্ধেয় কবিবর

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:১৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতা পড়ার জন্য ধন্যবাদ। সুন্দর মন্তব্যে এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
শুভেচ্ছা জানবেন।

৮| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:০০

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: এক প্রেয়সী রমণীর রূপ ও হৃদয়ের বর্ণনা পাওয়া যায় কবিতায়। সাবলীল।

কিন্তু 'সিঁথি'র বর্ণনার জন্য পুরো একটা স্তবক যেমন 'অতিরিক্ত' মনে হয়েছে, তেমনি উপমাটাও সুন্দর হয়েছে বলে মনে হয় না। একটা রোমান্টিক কবিতায় এরূপ উপমা হতে পারতো - কালো মেঘে বিজলিরেখা, সবুজ মাঠের মাঝখান দিয়ে শাদা মেঠো পথ, সুফলা সবুজের মাঝখান দিয়ে বহমান ধবল নদীর মতো, ইত্যাদি।

শুভেচ্ছা রইল স্যার।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৫১

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতা পড়ে আপনার পর্যবেক্ষণটুকু খোলা মনে এখানে উল্লেখ করে যাবার জন্য অশেষ ধন্যবাদ, সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই। আমি আপনার মন্তব্যের সাথে শতভাগ একমত। আপনার সাজেশন অনুযায়ী দ্বিতীয় স্তবকটা আমূল বদলে দিয়েছি। আর নিজের ধারণা অনুযায়ী পরের স্তবকেও একটা চরণ সম্পাদনা করেছি। আশাকরি, সম্পাদিত কবিতাটি এবারে আপনার ভাল লাগবে।

৯| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৩৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: চমৎকার সব উপমায় লেখা তার কথা !
ভালোলাগা।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৩৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: উপমাগুলো আপনার ভাল লেগেছে জেনে প্রীত হ'লাম। মন্তব্যে অনুপ্রাণিত।
ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা...

১০| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৪৪

শায়মা বলেছেন: সে কি কৃষ্ণকলির বোন স্বর্ণকলি ভাইয়া???

একেবারেই তেমন তেমন কাব্য হয়েছে! :)

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:০৬

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতা পড়ে তো মনে হচ্ছে যে কবিতার নায়িকা একাই ছিল একাধারে স্বর্ণকলি, কৃষ্ণকলি, কুসুমকলি, হাস্যময়ী আর লাস্যময়ী! :)
মন্তব্য এবং প্লাসের জন্য অনেক ধন্যবাদ।

১১| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১:৪৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


৮ নং মন্তব্যটা ভালো লেগেছে

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:২২

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতা পাঠ এবং মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ।
৮ নং মন্তব্যটা আমারও খুব ভালো লেগেছে। এত ভাল লেগেছে যে মন্তব্য পাঠের পর কবিতাটির কিয়দংশ সম্পাদনা করে কবিতার নীচে একটি পাদটীকা জুড়ে দিয়েছি। আশাকরি, সেটা লক্ষ্য করে থাকবেন।

১২| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৩৬

হাবিব স্যার বলেছেন: কি রোমান্টিক কবিতা!!!
দারুন লাগলো।।।

২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:১২

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতার প্রশংসায় এবং প্লাসে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।
ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা!!

১৩| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২১

ধ্রুবক আলো বলেছেন: কবিতায় মুগ্ধতা।

২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:১৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: মুগ্ধতায় এবং প্লাসে অনুপ্রাণিত হ'লাম। ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা---

১৪| ২২ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:২৪

সুমন কর বলেছেন: সুন্দর হয়েছে।

২৩ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪২

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতার প্রশংসায় এবং প্লাসে অনুপ্রাণিত হ'লাম। ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা---

১৫| ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৩০

আহমেদ জী এস বলেছেন: খায়রুল আহসান,




যে ভাবে এলোকেশী নারীর রূপ বন্দনা করলেন তাতে কালীদাসের কয়েকটা লাইন যোগ করার লোভ সামলাতে পারলুম না----
তন্বী শ্যামা শিখরি দশনা
পক্ক বিম্বধরোষ্ঠি
স্তোকনর্মা স্তনাভাং


শুভেচ্ছান্তে।

০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:০৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: বাহ, চমৎকার!
এলোকেশী নারীর রূপ বন্দনার ষোলকলা পূর্ণ হলো।
ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা!!!

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: উপরোক্ত তিনটে লাইনের মধ্যে শেষের দু'লাইনের বর্ণনাটা মারাত্মক হয়েছে!

১৬| ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:৩০

জাহিদ অনিক বলেছেন: খুব সুন্দর কবিতা। ভালো লেগেছে।

০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:০৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ, সুপ্রিয় কবি।
কবিতা পাঠ এবং তা ভাল লাগায় অনুপ্রাণিত হ'লাম।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.