নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আরইউ

আরইউ › বিস্তারিত পোস্টঃ

সহজ ভাষায়ঃ কপি-পেস্ট দোষের কেন [একটি গল্প ফাও]

১৩ ই জুন, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২৯




একটা গল্প বলিঃ ৯০ এর দশকের কোন এক সময় হবে, তখনকার। গ্রামের নাম নীলগন্জ। ঢাকা থেকে অল্প দূরে -- ধরা যাক ২৫ কি ৫০ কিলোমিটার হবে -- ছোট একটা গ্রাম। গ্রামের বেশিরভাগ বাড়িঘর মাটির; কিছু ছনের, কাঠের, টিনের, দু' একটা দুই রুমের বাসা ইটের তৈরী তাও আবার টিনের চালা। গ্রামের সবচেয়ে বড় বাড়িটা চেয়ারম্যানের ইট, কাঠ আর টিনের চালায় তৈরী।

হঠাৎ কোন এক সকালে দিনের কাজ কর্মে বের হয়েছে যখন সবাই, লোকজন দেখলো গ্রামের মাটির রাস্তা দিয়ে একটা ট্রাক ইট নিয়ে ফেলছে চেয়ারম্যানের বাড়ির দুই ক্ষেত পরে এক জমিতে। গত মৌসুমেও ঐ জমিতে ধান হয়েছে, এবার ওটা ফাকা পরে ছিল। এই গ্রামে ট্রাকে করে ইট আসা মানে বিরাট বিষয়। ইটের পরপর আরো নির্মান সামগ্রী আসটে লাগলো।

দেখতে দেখতে ঐ জমিতে বিরাট একটা বাড়ি হয়ে গেল। বাড়ির উপরে পানির ট্যাংকি; সেই পানি পাইপ হয়ে রান্নার ঘরে, গোসলখানায়, শৌচাগারে, বাগানে যাবে। বাড়ির ফার্নিচার আসলো; আসলো সোফা, টিভি, ফ্রিজ। সেই বাড়িতে লোক থাকা শুরু করলো কিছুদিনের ভেতর। তাদের একটা লাল রঙএর গাড়ি ছিল, সম্ভবত নিসান সানি। ঐ বাড়িতে লোকজন যেতনা খুব একটা, ঐ বাড়ির লোকজন বাইরের মানুষের সাথে মিশতোওনা। ছোট ছেলেপেলেরা বাড়িটা এড়িয়ে চলতো কারণ ঐ বাড়িতে দুটো কুকুর ছিলো।

বাড়ির মালিক করিম সাহেব। তার সম্পর্কে কেউ খুব ভালো করে কিছু জানেনা। তবে কয়েক বছর পর এর মুখে ওর মুখে জানা গেল করিম সাহেব কোন এক সরকারী প্রতিষ্ঠানে ৪র্থ শ্রেনীর একজন কর্মচারী এবং ওনার বাসাবাড়ি, গাড়ি, কুকুর সবই ঘুষের টাকায়। করিম সাহেবের হয়ত লজ্জা ছিলো তিনি নিজেকে কিছুটা লুকিয়ে রাখতেন, হয়তবা ঘুষের বিষয়টার জন্যই। কিন্তু, সময় পাল্টেছে। ঘুষ দেয়া-নেয়া এখন আর লজ্জার কোনো বিষয় নয়, ঘুষের টাকায় করা বাড়ি, ঘুষের টাকায় গড়া ভুঁড়ী এখন খুব নরমাল। সময়ের সাথে সাথে ঘুষ নেয়া-দেয়ার মত একটা অপরাধকে স্বাভাবিকিকরণ করা হয়েছে।

এই গল্পের সাথে "কপি-পেস্ট"এর সম্পর্ক কী? সম্পর্ক আছে। মন্দকে, অন্যায়কে মেনে নিলে সেই অন্যায় প্রতিষ্ঠা পায় সমাজে, আমাদের জীবণে। কপি-পেস্ট বিষয়টা যে একটা অন্যায় এটা স্বীকার না করলে, এটাকে অন্যায় বলে নিরুৎসাহিত না করলে অন্যায়টিই একসময় মূল ধারায় মিশে যাবে।

এখন কথা কপি-পেস্ট অন্যায় কেন? অন্যের লেখা ভালো লেগেছে তাই ব্লগে পোস্ট করেছি সমস্যাটা কোথায়? ১০ টা লেখা থেকে এক প্যারাগ্রাফ করে নিয়ে সম্পাদনা করেছি, ভুল কোথায় হলো? বইয়ে লেখা আছে সেটা ব্লগে টাইপ করেছি; কষ্ট করে টাইপ করেছিতো!!

ছোট একটা প্রশ্ন করি। ধরুণ আপনি বিয়ে করলেন, আপনার বাচ্চা হলো, বাচ্চা ইসকুলে যায়। একদিন বাচ্চাকে ইসকুল থেকে আনতে গিয়ে দেখেন আপনার পাড়ার কিবরিয়া সাহেব আপনার বাচ্চাকে নিজের বাচ্চা হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে। কেমন লাগবে বিষয়টা বলুনতো? আপনি যার লেখা কপি-পেস্ট করছেন সেই লেখাটা অন্য কারো সৃষ্টি আর সৃষ্টি সন্তানের মত, ওখানে আপনার কোনো অধিকার নেই!

হ্যাঁ, বাচ্চার উদাহরণটা সরলীকরণ করা হয়েছে, কিন্তু মূল বিষয়টা হয়ত অনেকে বুঝতে পেরেছেন। লেখালেখিতে তথ্য বিভিন্ন জায়গা থেকে নিতে হয়। যদি কোন তথ্য নেয়া হয়, তবে সেই তথ্যসূত্র উল্লেখ করা একজন ব্লগার হিসেবে, লেখক হিসেবে, মানুষ হিসেবে আপনার নৈতিক দায়িত্ব। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতা ব্লগে নিজের নামে পোস্ট করলে, ঠাকুর বাবু পরোকাল থেকে এসে আপনার নামে হয়ত মামলা ঠুকবেননা, আদতে সেটা তাঁর পক্ষে করা সম্ভব হবেনা। কিন্তু, আপনার নৈতিক জায়গা থেকে কাজটা করা কী ঠিক হবে!

শেষ করার আগে দু'টো কথা। অনেকে বলছেন, কপি-পেস্ট বিষয়ে লেখালেখি ব্লগের স্বাভাবিক পরিবেশ নষ্ট করছে, এটা একটা "ক্যাচাল" আর যারা এটা করছেন তারা ক্যাচাল করছেন। দুঃখিত, আপনারা অন্যায়টার মাত্রাই বুঝতে পারছেননা। একটা অন্যায়কে ধরিয়ে দেয়া, সেটা শোধরাতে বলা, সেটা নিয়ে প্রতিবাদ করা ক্যাচালহতে পারেনা।

অনেকে বলছেন, যাদের নিয়ে কথা হচ্ছে তারা পুরোনো ব্লগার, তারা ব্লগকে জমিয়ে রাখেন, অন্যের পোস্টে মন্তব্য করেন। তাদের ছাড়া ব্লগ ঝিমিয়ে পরবে... ... দুঃখিত, সামহোয়ারইন ব্লগ একটা প্রতিষ্ঠান; আর সামহোয়ারইনের মত প্রতিষ্ঠান কখনো ব্যক্তিনির্ভর হয়না।

সবার মঙল কামনায়...

-----------------------
আ.র.ইউ
দুপুর ১:২৯
১৩ জুন ২০২১

মন্তব্য ৩৯ টি রেটিং +১০/-০

মন্তব্য (৩৯) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই জুন, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৫১

নজসু বলেছেন:


আপনারা আলোচনা করবেন আর আমি সব পড়বো ইনশায়াল্লাহ।

১৩ ই জুন, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৫৫

আরইউ বলেছেন:



অবশ্যই পড়বেন। ধন্যবাদ!

২| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৮:০৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: মূল বক্তব্যের সাথে একমত। নিজের বাচ্চাকে অন্য একজনের নিজের বাচ্চা বলে পরিচয় করিয়ে দেয়ার উদাহরণটা ঠিকই আছে। বরং আরেক ডিগ্রি বাড়িয়েও উদাহরণ দেয়া যায়- একজনের বাচ্চাকে যখন অন্য ব্যক্তি নিজের বাচ্চা বলে বাড়ি নিয়ে যায়।

যারা এই অন্যায়কে সাপোর্ট করেন, তারা আসলে অসৎ ব্যক্তি এবং অনৈতিকতার পূজারি। তাদের বড়ো সম্পদ হলো অসততা এবং অ্যারোগ্যানস বা ঘাওড়ামি। আমি মর্মাহত হই এবং অবাকও হই, যখন দেখি যাদের আমি ভালো মানুষ বলে জানি, আদতে তারা ভালো মানুষ নন।

১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৮:১২

আরইউ বলেছেন:



ধন্যবাদ, সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই। আমি সত্যি অবাক হয়েছি এবং কিছুটা আহতও হয়েছি এটা দেখে যে অনেক “ব্লগার” বিষয়টা এড়িয়ে যেতে পারলেই বাঁচেন।

৩| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৮:১৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: কপি পেস্ট এর কিছু বিষয়ে একমত নই আপনার সাথে। আরেকজনের লেখা, সুত্র উল্ল্যেখ না করে পোস্ট করাটা অনুচিত কারন সেটা চৌর্যবৃত্তি। কিন্ত সুত্র উল্ল্যেখ করলে সেটায় কোন সমস্যা দেখি না। আবার স্বরচিত গল্প , কবিতা পুরোপুরি মৌলিক হতেই হবে, সেখানে কপি পেস্ট কোনভাবেই গ্রহনযোগ্য নয়। কিন্ত সমসাময়িক ইস্যূ নিয়ে যারা লেখেন তারা পত্রিকার থেকে অনেক অংশ নিয়ে কিছুটা সম্পাদনা করে লেখেন। সেটাতে আমি কোন সমস্যা দেখি না। তবে সংবাদপত্রের সুত্রটুকু উল্লেখ্য করা উচিত।

১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৮:২১

আরইউ বলেছেন:



কোনো সমস্যা নেই, ভিন্নমতকে স্বাগতম। আমি নিজেই একনলেজ করেছি লেখাটা সরলীকরণ দোষে দুষ্ট। আমি সহজ ভাষায় মূল কথাটা বলতে চেয়েছি, বিভিন্ন টেকনিকালিটিতে না যেয়ে।

ভালো থাকুন!

৪| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:০৭

সামিউল ইসলাম বাবু বলেছেন: তবে কথা থেকে যায় কেও যদি কোন লেখা কপি-পেস্ট করে, লেখকের অনুমতি নেয় অথবা লেখকের নাম উল্লেখ করে তবে দোষের কিছু আছে বলে মনে করি না।

পোস্টে অন্য লেখা আসতেই পারে। তবে তথ্য সূত্র থাকতে হবে।

১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:১৯

আরইউ বলেছেন:


১। লেখকের অনুমতি নেয়া — অনুমতি নিয়ে যেখানে প্রকাশ করছেন, সেখানে ডিসক্লেইমার দিতে হবে যে মূল লেখকের (পরিচয়/নাম সহ) অনুমতি নিয়ে প্রকাশিত।
২। মূল লেখকের নাম উল্লেখ করলেন, কিন্তু, অনুমতি নিলেননা, এটা ঠিক না। প্রথাগত প্রকাশনায় এটা অন্যায় ও শাস্তিযোগ্য। যদি মূল লেখক উল্লেখ করেন যে চাইলে অন্যরা অনুমতি ছাড়া ব্যাবহার/ পুনঃপ্রকাশ করতে পারবে তাহলে ভিন্ন কথা।

লেখায় সূত্র দিতে হবে, নিজের মত করে লিখতে হবে, অনেক টেকনিক্যাল বিষয় আছে।

ভালো থাকুন, ধন্যবাদ!

৫| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:৩৪

এস এম মামুন অর রশীদ বলেছেন: একটি লেখার মূল অংশে অনুমতি সাপেক্ষে অন্যের লেখা হুবহু আসতে পারে ১০%। তার বেশি আসলে সেগুলো সংযুক্তিতে পাঠানো উচিত। আবার সব সংযুক্তি মিলে যদি পুরো রচনার শতকরা ৩০ ভাগের বেশি খেয়ে ফেলে, তা হাস্যকর। এরূপ লেখা খুব জরুরি ও তাৎক্ষণিক হলে মানা যায়, যেমন কেউ জরুরি রক্ত চায় মরণাপন্ন রোগীর জন্য, এ অনুরোধ স্থানভেদে হুবহু শেয়ার করা যেতে পারে। এছাড়া কপিপেস্ট পরিত্যাজ্য হওয়া উচিত।

১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:৪১

আরইউ বলেছেন:



আপনি যেমনটা বললেন বিশেষ পরিস্থিতিতে কপি-পেস্ট, হুবহু একই পোস্ট শেয়ার করার বিষয়টা আলাদা, কখনো অত্যাবশ্যকও বটে। কিন্তু, নিজেকে জাহির করার জন্য কপি-পেস্ট অন্যায়। এটা আসলে একটা কমনসেন্সের বিষয়—কিন্তু এখন কমনসেন্সেরই অভাব।

ধন্যবাদ। ভালো থাকুন, এস এম মামুন!

৬| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:৩৮

মিরোরডডল বলেছেন:



ছোট একটা প্রশ্ন করি। ধরুণ আপনি বিয়ে করলেন, আপনার বাচ্চা হলো, বাচ্চা ইসকুলে যায়। একদিন বাচ্চাকে ইসকুল থেকে আনতে গিয়ে দেখেন আপনার পাড়ার কিবরিয়া সাহেব আপনার বাচ্চাকে নিজের বাচ্চা হিসেবে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে। কেমন লাগবে বিষয়টা বলুনতো? আপনি যার লেখা কপি-পেস্ট করছেন সেই লেখাটা অন্য কারো সৃষ্টি আর সৃষ্টি সন্তানের মত, ওখানে আপনার কোনো অধিকার নেই!

চমৎকার সহজ সরল উদাহরণ ।

অভিযুক্ত জনৈক ব্লগার শুধু যে অন্যের লেখা কপি পেস্ট করতেন তাই না , আমাদের মতো সাধারণ মানুষ যে ব্লগ পড়তে আসি আর কমেন্ট করি, সেই কমেন্টের অংশবিশেষ হুবুহু কপি করে নিজের পোষ্টের টেক্সট বলে চালিয়ে দিয়েছেন বহুবার ।
প্রথমদিকে একাধিকবার বলেছিলাম এরকম করতে নেই, কিন্তু কে শোনে কার কথা !



১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:৪৭

আরইউ বলেছেন:



হা হা হা, এটা কী শোনালেন, মিরোরডডল! দুঃখিত হাসার জন্য, কিন্তু, মন্তব্য কপি-পেস্ট!! খেয়াল করিনি কখনো। কান্ট স্টপ লাফিং।

ধন্যবাদ; ভালো থাকুন।

৭| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:৫৫

সোনালি কাবিন বলেছেন: সামান্য কয়টা কমেন্ট, লাইক আর প্রথম পাতায় নিজের নাম দেখানোর জন্য কয়েকজন যেভাবে কপি করেন - আর যদি পোস্ট প্রতি পাত্তির ব্যবস্থা থাকত, তাইলে কপি পেস্টের জোয়ার কী রকম হইত আল্লাহ মালুম।

১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ১০:০০

আরইউ বলেছেন:



মন্দ বলেননি। পোস্ট প্রতি ১০০ টাকা। হা হা হা!!
ধন্যবাদ।

৮| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:৫৯

মিরোরডডল বলেছেন:



দুঃখিত হবার কিছু নেই । এটা হাস্যকর ঘটনাই । খুবই সিলি ।
শুধু আমার নাহ, আরও দুজনের লেখার অংশবিশেষ আমি দেখেছি তার মেইন পোষ্টের টেক্সটে।
আমি বলেছিলাম, বোল্ড করে বা ইনভার্টেড কমার ভেতরে দিয়ে মেনশন করে দিতে কোটেড ।
আনসার ছিলো ‘জি আচ্ছা’ । কিন্তু ওই পর্যন্তই । বাট নেভার বিন চেঞ্জড ।



১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ১০:০৫

আরইউ বলেছেন:



হ্যাঁ, উনি কপি-পেস্টের অভিযোগের বিপরীতে “জ্বি আচ্ছা“ “রাইট” “ভুল হয়েছে“ এসব বলেই শেষ। কখনো পোস্ট এডিট করার মত কার্টেসিটুকু দেখাননি। সিলি কিন্তু দুঃখজনক এবং ডিসরেসপেক্টফুল।

শুভকামনা।

৯| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ১০:৫৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: একেবারে যুগোপযোগী লেখা। সহজ করে এর চেয়ে আর ভালোভাবে লেখা সম্ভব না। তবে, আমার কেন জানি মনে হচ্ছে এই কপি/পেষ্টের ব্যাপারটাকে ব্লগে আরো সিম্প্লিফাইড করা উচিত। ভাবছি, এটা নিয়ে একটা পোষ্ট দিবো। :)

১৪ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১২:৪৭

আরইউ বলেছেন:



ব্লগে লেখা আর সায়েন্টিফিক/একাডেমিক রাইটিং এর লেখায় পার্থক্য আছে। একজন ব্লগার একজন গবেষকের চেয়ে অনেক বেশি ক্রিয়েটিভ স্বাধীনতা পাবেন (মাত্রার ভেতরে থেকে, লেখার বিষয়বস্তুর উপর নির্ভর করে)। প্লিজ লিখুন। এই বিষয়ে লেখা চলুক।

ধন্যবাদ ও শুভকামনা।

১০| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ১১:২০

অপু তানভীর বলেছেন: যত সহজেই বোঝান না কেন যাদের মাথায় ঢোকাতে চাচ্ছেন তাদের মাথায় ঢুকবে না। দেখছেন না কপিপেস্ট আর করতে পারবে না জেনে কতিপয় মানুষ পাগল হয়ে যাচ্ছে। কবিতাটবিতা লিখে হাহাকার জানাচ্ছে।


ভুয়া মফিজকে বলবো যে, লেখা আসুক।

১৪ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১২:৪৮

আরইউ বলেছেন:




মন্দ বলেননি, অপু। তারপরও চেষ্টাটা চালিয়ে যেতে হবে।
ধন্যবাদ!

১১| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ১১:২২

খায়রুল আহসান বলেছেন: এত সহজ করে ব্যাখ্যা করার কোনই প্রয়োজন নেই। এটা নৈতিকতাবোধ থেকে আসে। কোন কাজটা নৈতিকতার দিক থেকে বর্জনীয়, আর কোনটা গ্রহণীয়, সেটা যিনি ব্লগ লেখার মত শিক্ষা অর্জন করেছেন, তার সহজেই বোঝার কথা। যার কোন শিক্ষা দীক্ষাই নেই, তিনিও বোঝেন, চুরি করা পাপ, অন্যের জিনিস বিনা অনুমতিতে নিজের দখলে নিয়ে সেটাকে নিজের বলে চালিয়ে দেয়াটাও পাপের মত একটা গর্হিত কাজ। আসলে এসব যারা করে তারা জ্ঞানপাপী। তাদেরকে নসিহত করা অরণ্যে রোদন মাত্র।

একটা পোস্টে অন্য লেখকের কোন বক্তব্য, মন্তব্য কিংবা পর্যবেক্ষণ সূত্র উল্লেখ করে জুড়ে দেয়াটাই যথেষ্ট নয়। লেখকের পোস্টে সে সূত্রোল্লিখিত অংশটুকুর প্রাসঙ্গিকতা থাকতে হবে, সে বিষয়ে লেখকের নিজস্ব আলোচনাও থাকতে হবে। তা না হলে তো লিও টলস্টয় বা মোপাসাঁর গল্পগুলো নীচে ছোট্ট করে তাদের নামোল্লেখ করেই ব্লগে প্রতিদিন একটা করে পোস্ট করা যায়।

একটা পোস্টে রেফারেন্স বা সূত্র কিভাবে উল্লেখ করতে হয়, তার একটা দৃষ্টান্ত পাওয়া যাবে ড. এম এ আলী এর আজকের পোস্টটিতে। এর আগে সম্ভবতঃ অপু তানভীর তার লেখায় বলেছিলেন ব্লগার জাফরুল মবীন এর পোস্টগুলোর কথা। তিনিও খুব সুন্দর করে সূত্র উল্লেখ করে তার পোস্ট লিখে থাকেন।

১৪ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১২:৫৫

আরইউ বলেছেন:



আমি আপনার মন্তব্যের মূল ভাবনার সাথে একমত, ধন্যবাদ। তবে, আমার মনে হয় কপি-পেস্টের অন্যায়ের বিষয়টা অনেকে জানেনা। আমাদের শিক্ষা ব্যাবস্থাটাই দেখুননা — “জার্নি বাই বোট” রচনা লিখতে হচ্ছে গাইড বই / চোথা থেকে মুখস্ত করে, কখনো নৌকায় না চড়েই। যে যত গাইড বইয়ে যা লেখা আছে সে তত ভালো নাম্বার পাবে। কপি-পেস্টকে আমাদের ভেতর ঢুকিয়ে দেয়া হচ্ছে ছোটবেলা থেকেই।

কপি-পেস্ট বিষয়ে আমার মতে লেখা চালিয়ে যাওয়া উচিত। যদি কেউ আগ্রহী হয়ে শেখে!

ভালো থাকুন, খায়রুল!

১২| ১৪ ই জুন, ২০২১ রাত ১২:০৬

জটিল ভাই বলেছেন:
যাদের সন্তানদানের ক্ষমতা নাই, তাদের জন্যে দত্তকের ব্যবস্থা করা যায় না? =p~

১৪ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১২:৫৭

আরইউ বলেছেন:



তাওতো একটা আইনী ব্যাবস্থা হয়ে আসতে হবে!!

১৩| ১৪ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১২:৫৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ব্লগে লেখা আর সায়েন্টিফিক/একাডেমিক রাইটিং এর লেখায় পার্থক্য আছে। আপনি ব্যাপারটা ধরে ফেলেছেন। এজন্যই ইংরেজিতে বলে 'wise man think alike'। =p~

সময় বের করা আজকাল আমার জন্য একটা বিশাল দিগদারি বিষয়। তবে একটু সময় নিলেও লিখে ফেলবো ইন শা আল্লাহ।

১৪ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০১

আরইউ বলেছেন:



রাজীব নুরের বিষয়টা আলাদা; সে গো ধরে বসে আছে সে ঠিক হবেনা। কিন্তু, অনেকের মন্তব্য প্রতিক্রিয়া দেখে মনে হয়েছে কপি-পেস্ট বিষয়টা কী এবং কীভাবে তা এড়ানো যায় তা অনেকই বোঝেননা। তাই এ নিয়ে লেখালেখি হওয়া উচিত।
আপনার লেখার অপেক্ষায় থাকবো।

১৪| ১৪ ই জুন, ২০২১ দুপুর ২:০১

নীল আকাশ বলেছেন: কপি করে নিয়ে লেখায় যারা মূল সূত্র উল্লেখ করেন না তারা চোর। এবং চোরদের কোন যুক্তি গ্রহণযোগ্য নয়।

১৭ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:১৯

আরইউ বলেছেন:



আপনার সাথে শতভাগ সহমত! ভালো থাকুন।

১৫| ১৪ ই জুন, ২০২১ বিকাল ৩:৩৫

আখেনাটেন বলেছেন: এই লেখায় গুরু শিষ্যের মন্তব্য দেখছি না। মুছে দিয়েছেন নাকি। :D

অন্যের লেখা নিজের নামে চালিয়ে দেওয়া যে একটি মহা অন্যায়, সেটা এ জাতির না বুঝতে পারাটাও দেশের সামাজিক-সাংস্কৃতিক হাওয়ার সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। গতকাল মনে হয় দেখলাম, ঢাবির আর একজন শিক্ষক ধরা খেয়েছে এই অপরাধে।

লেখাচুরির বিষয়ে আলোচনাকে যারা ক্যাচাল বলে তারা হয়ত এর গুরুত্বটুকু বুঝার মতো অবস্থায় নেই।

১৭ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:২২

আরইউ বলেছেন:



এটা যে ক্যাচাল নয়, বরং প্রতিবাদ তা বুঝলেতো হতোই!
ওনাদের সামহোয়ারইন শাস্তি দিয়েছেন। তাই দেখতে পাচ্ছেননা।
ভালো থাকুন, আখেনাটেন!

১৬| ১৪ ই জুন, ২০২১ বিকাল ৩:৩৯

রানার ব্লগ বলেছেন: কপি হলে অবশ্যই তথ্য সুত্র দেয়া জরুরী।

১৭ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:২৪

আরইউ বলেছেন:



একদম প্রয়োজন না হলে বা বিশেষ পরিস্থিতি না হলে কপি করার দরকারটাই বা কী! যদি নিতান্ত প্রয়োজন হয়ই, তবে সূত্র দিতেই হবে।
ভালো থাকুন সবসময়।

১৭| ১৪ ই জুন, ২০২১ বিকাল ৫:০৮

সোনালি কাবিন বলেছেন: @ আখেনাটেন, গুরু শিষ্য আপাতত সামুর খোঁয়াড়ে বন্দী

১৮| ১৪ ই জুন, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২১

শেরজা তপন বলেছেন: আমার অনুরোধ একটুখানি হলেও রক্ষা করেছেন বলে ধন্যবাদ

লেখার উদ্দেশ্য ও ভুমিকা যাই হোক না কেন একটুখানি গল্পতো পেলাম :)

১৭ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:২৬

আরইউ বলেছেন:



ধন্যবাদ। প্রথমে গল্প ছাড়া লিখতে চেয়েছিলাম। পরে আপনার কথা মনে হলো, ভাবলাম একটা গল্পের লেজ জুড়ে দেই। লেখার চেয়ে লেজ বড় হয়েছে অবশ্য!
ভালো থাকুন, শেরজা।

১৯| ১৪ ই জুন, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৫০

মোহামমদ কামরুজজামান বলেছেন: ভাই,দুনিয়ায় অনেক কিছুই দোষের তারপরেও আমরা মানুষ সেগুলি আবলিলায় করে থাকি।তবে আমার মনে হয় নূন্যতম নৈতিকতা বোধ মানুষের থাকা উচিত।কারন, নূন্যতম নৈতিকতা যদি আমাদের মাঝে না থাকে তাহলে মানুষ হিসাবে এ বড় লজ্জার।

এখন কথা হলো, ১।আদি আমার সন্তান জন্ম দানের ক্ষমতা না থাকে তাহলে আমি কি অন্যের সন্তানকে নিজের বলে পরিচয় দিতে পারি ? - জবাব হল না। তবে দত্তক নেয়া যেতে পারে যথাযথ পদক্ষেপ অনুসরন করে।তাতে আমার নিঃসন্তান হিসাবে পরিচয় লোপ পাবে এবং একটি অসহায় মানব শিশু পাবে সমাজে তার পরিচয়।

এখন, কথা হলো - এ অনেক ঝামেলার কাজ ।অনেকেই " সর্টকার্ট মেরে/ছাতি দিয়ে বাঘ মেরে " বাপ বনতে চায় ,এটা কি গ্রহনযোগ্য ? জবাব না । সময় নিয়ে ,যথাযথ পদ্ধতি অনুসরন করে বাবা হওয়া ভাল ।অন্যের সন্তান চুরি করে বা অবৈধ উপায়ে নয়। এ সাধারন কথাটা কেন আমরা বুঝতে চাইনা ,এটাই বড় সমস্যা।

লিখায় +++ আর সন্তানের বৈধতা যেমন জরুরী তেমনি বাবা-মায়ের নৈতিকতাটাও সমান জরুরী সন্তানের জন্মদান বা দাবির ক্ষেত্রে।

১৭ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:২৮

আরইউ বলেছেন:



ধন্যবাদ, মোহামমদ। আমি সহজ করে লিখেছি, টেকনিকাল বিষয়গুলো বাদ দিয়েছি।
ভালো থাকবেন।

২০| ১৫ ই জুন, ২০২১ রাত ১২:৪১

ঢুকিচেপা বলেছেন: মূল বিষয়টা খুব সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন।

১৭ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:২৮

আরইউ বলেছেন:



ধন্যবাদ, চুকিচেপা।
ভালো থাকুন!

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.