নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

প্রকাশিত কবিতার বই: জনারণ্যে শুনিনি সহিসের ডাক (কামরুল বসির)। অপরাহ্ণে বিষাদী অভিপ্রায় (কামরুল বসির)।

সোনালী ডানার চিল

বোদলেয়ারের আশ্চর্য্য মেঘমালা দেখে থমকে দাঁড়ানো জীবনানন্দের সোনালী ডানার চিল...

সোনালী ডানার চিল › বিস্তারিত পোস্টঃ

দূরবীন সমাচার

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৯



আমি সম্প্রতি একটি দূরবীন কিনেছি। কালো এবং হালকা নীলাভ মিশ্রণের।
রাতে এবং দিনে দেখার জন্য দু’রকম আলোকপ্রভার অস্বচ্ছ কাচের ফোকাস।
আমি সমুগ্রগামী জাহাজের মাস্তুল আর অস্পষ্ট ধোয়া দেখার জন্য দূরবীনটি কিনেছি।
আমি দূরবর্তী হাওয়াকলের শাদা পাখা স্পষ্ট দেখার জন্য দূরবীনটি কিনেছি।
একটি সমুদ্রচীল নীলাকাশে কতটা নিশ্চল তা দেখার জন্য দূরবীনটি কিনেছি।

তিন-চারটি ধূসর পানিহাস ঢেউয়ে দুলছে;
সবুজের সাথে ফসফরাসের মিশ্রণ একরকম বুদবুদ এনে দিয়েছে।
যেন আদীম মুনিসকল বিষ্ময়ে জড়ো হয়েছে মাঝসমুদ্রে,
তাদের তুন থেকে খসে পড়ছে জাগতিক ধেনু-

আমি দূরবীনে চোখ রেখে দুটি ডিঙি নৌকার চুম্বন দেখি।
রমনী আর লজ্জার মাঝখানে যে আব্রুর প্রভেদ তা আমার শক্তিশালী দূরবীনের স্পষ্টতায় নেই হয়ে যায়!
আমি জলের সাথে জলজ শুশুকের কামলীলা দেখি, হয়ত উত্তর সাগরে তাকে ডলফিন বলে।
যারা আমার মতো একাকী আর নি:সঙ্গ মানুষেরে অভিশাপ দেয় অপয়া বলে।

আমার দূরবীনে দিকনির্দেশক একটি কম্প্যাস আছে। ফ্যান্সিসের মতো আমি যদি কখনও হারিয়ে যাই,
কাঠে একটি পাটাতনে মাথা রেখে গলায় ঝুলানো দূরবীনটি তাক করলেই আমি পৌছুবো রত্নদ্বীপে!

দূরে একটি জাহাজ ভেপু দিয়ে প্রতিবেশী জাহাজটির মনযোগ আকর্ষণ করে।
আমার দূরবীনে জাহাজের প্রতিবিম্ব হয়ে তিনটি নারী অসংখ্য জ্বিহবা বের করে ভেংচি কাটে।
মিলনের যে অবিশ্বাস আমার জামার খোল পকেটে ছিল,
সেখান থেকে তামাটে একটি হলুদ জ্যোতি বের হয়ে দূরবীনের কাচ গলে দূরের জাহাজের দিকে নির্গত হয়।

আমি বুঝে নিই আমার বিষাদ মিশে গেছে আজ এখনি এই দূরবীনের রঙিন কাচে সহসা।
পাশ থেকে কালো ক্যানভাসের ব্যাগে দূরবীনটি মুড়ে উঠে দাঁড়াই ন্যুজ হয়ে।
ফিরতি পথে তখন শুধু নক্ষত্রের অনুগ্রহ।

মন্তব্য ১৪ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (১৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৪

ইসিয়াক বলেছেন: এক কথায় অনবদ্য।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৩২

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:

অনেক ধন্যবাদ কবি, আশা করি ভালো আছেন!

২| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫৪

নেওয়াজ আলি বলেছেন: চরম প্রকাশ ।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৩২

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:

অনেক ধন্যবাদ পড়ার জন্য!
শুভকামনা

৩| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৩৯

শের শায়রী বলেছেন: কি অসাধারন। আমি আসলেই মুগ্ধ প্রিয় ভাই।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৩৪

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:

কৃতজ্ঞতা বড় ভাই-
আপনার মুগ্ধতা আমার বিষ্ময়-
আশা করি কুশলে আছেন!

৪| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: ভালো একটা দূরবীনের আমার দীর্ঘদিনের শখ।
কোথাও পাওয়া যাবে? দাম কেমন??

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৩৭

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:

আসলেই আমার একটা শক্তিশালী দূরবীন আছে-
তারা দেখার জন্য টেলিস্কোপও আছে একটা -
দূরবীন অ্যামাজনে পাবেন- দাম ৬০/৭০ পাউন্ডেই ভালোটা পাবেন, তবে £৩০/৪০ এর টাও ভালো।

শুভকামনা সুপ্রিয় ব্লগার!

৫| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ২:০৫

অধীতি বলেছেন: কি দারুণ লিখেছেন। দূরবীন দিয়ে দেখেন আর লিখেন

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:১৯

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:

দূরবীন খুব দরকারী, দূরের জিনিস কাছে আছে-
যা খালি চোখে দেখা যায় না, তা স্পষ্ট করে;
আহা! মানুষের মন দেখার যদি কোন দূরবীন থাকতো!

ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা রইল!

৬| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ রাত ৯:৩২

আহমেদ জী এস বলেছেন: সোনালী ডানার চিল,




দৃশ্যকল্প দূরাগত চিলের ডানার মতোই সোনালী আলোয় আঁকা।
দারুন হয়েছে।

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:২১

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:


অনেক অনেক ধন্যবাদ।
দারুন মন্তব্যে কৃতজ্ঞতা জানাই। দৃশ্যকল্প আর শব্দসমীক্ষা ছাডা চিলের জন্য আর কিছু পড়ে নেই!

শুভকামনা

৭| ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:৫০

অজ্ঞ বালক বলেছেন: কবিতাটা টানলো না। আপনার লেখার ভক্ত হিসাবে জানাইয়া গেলাম।

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:০১

সোনালী ডানার চিল বলেছেন:


অনেক ধন্যবাদ মন্তব্যে-
আমি এটা ঠিক কবিতা লিখিনি; শব্দকল্পনা বলা যায়, ঐ যে কখনও যখন আমরা মিছেমিছি কিছু ভাবি;
এখন ফ্যান্টাসি বলে কেউ কেউ। ব্লগের একটা ভালো ব্যাপার হলো সব কিছু লিখে প্রকাশ করা যায়, নিরীক্ষা, উপলব্ধি, অভিজ্ঞতা কিংবা কল্পনার শব্দবর্ণনা; আমি সেই সুযোগটাই গ্রহন করেছি, আশা করি আপনার আশাভঙ্গের মার্জনা পাবো, এবং কবিতা লেখার চেষ্টা করবো!

ভালো থাকুন সবসময়। শুভকামনা রইল-

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.