নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পদহীনদের জন্য শিক্ষাই সম্পদ

চাঁদগাজী

শিক্ষা, টেকনোলোজী, সামাজিক অর্থনীতি ও রাজনীতি জাতিকে এগিয়ে নেবে।

চাঁদগাজী › বিস্তারিত পোস্টঃ

এসব গর্দভদের নিয়ে জাতি কতটুকু এগুতে পারবে?

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৪:৪১



*** কোন ১ ইডিয়ট পোষ্টটিকে রিফ্রেশ করছে ***

রাজনীতিবিদ হিসেবে ড: কামাল সাহেব সব সময় জাতির স্বপ্নের উপর সামর্থানুসারে লাথি মেরে চলেছেন; জাতির বেশীরভাগ মানুষের রাজনৈতিক প্রজ্ঞা না থাকায়, উহারা সেটা অনুধানবন করতে পারেনি। তবে, ঢাকার মানুষ উনাকে ভোট না দিয়ে, উনাকে কিছুটা বুঝাতে চেষ্টা করেছেন বরাবরই; সেটা উনার জন্য যথেষ্ট নয়, এখন নিজের গালে নিজেই চপেটাঘাত করছেন: উনার কোয়ালিশনে নাম লেখায়ে বিজয়ী-হওয়া ২ অপ্রয়োজনীয় এমপি'র শপথ গ্রহন নিয়ে, তিনি নিজকে জাতির সেরা বেকুব হিসেবে প্রমাণ করতে উঠেপড়ে লেগে গেছেন।

শেখ হাসিনার উচিত, উনার সামান্য লালনীল সুতা বের করা, উনি অবশ্যই কর ফাঁকি দিয়েছেন; উনার লেজ ধরা কোনভাবেই কঠিন কাজ হওয়ার কথা নয়।

১ জনএমপি'র দায়িত্ব হলো, আইন প্রনয়ন: নিজে বিল এনে, সেটাকে পাশ করানো, কিংবা অন্যের বিলে ভোট দিয়ে সেটাকে পাশ করানোর মাধ্যমে; কিংবা অন্যের আনা বিলের বিপক্ষে ভোট দিয়ে, বিলটিকে পরাজিত করে; এটাই এমপি'দের মুল দায়িত্ব ও কাজ; এর বাহিরে, এরা মন্ত্রী হতে পারে, কিংবা সংসদীয় কমিটিতে থেকে কাজ করতে পারে।

এমপি'রা স্হানীয় সরকারের অংশ নন, এরা স্হানীয় সরকারের মতো নিজ এলাকার সরকারী কাজের সাথে যুক্ত হয়, যথাসম্ভব শুধুমাত্র চুরি করার জন্য। নিজ এলাকার স্হানীয় সরকারের উপর নজর রাখা, নিজে কিছু করা, ইত্যাদি ভলটিয়ার হিসেবে করতে পারেন, সরকারীভাবে এগুলোও উনার দায়িত্ব নয়।

১ পুরাতন আওয়ামী লীগার, কি এক আবুল না বাবুল মনসুর ও অন্য আরো কিছু একজন গত ভোটে কিভাবে যেন বিজয়ী হয়ে গেছেন; উনারা বিএনপি'র বা অন্য কারো প্রতীক ব্যবহার করেছিলেন; বিজয়ী মানে ভোট যোগাড় করতে পেরেছে, এর থেকে তেমন বড় কিছু নয়। ভোটে জয়ী হলে, পরবর্তী পদক্ষেপ হলো, শপথ নিয়ে পার্লামেন্টের সদস্য হওয়া; উনারা আওয়ামী লীগের কলাগাছদের সাথে শপথ নেয়নি; এখন নিয়েছে। এতদিন শপথ না নেয়াটা অন্যায় ছিলো।

এরা ভোট নিয়ে, গণতন্ত্র নিয়ে শেখ হাসিনাকে অভিযুক্ত করছে সব সময়; কিন্তু নিজের খবর নেই; অন্যের অন্যায়'এর বিপক্ষে দাঁড়াতে হলে, নিজকে যথাসাধ্য ন্যায়ের এলাকায় রাখতে হয়; নিজে অন্যায় করে, অন্যের অন্যায় সংশোধন করা যায় না; এটুকু না জেনেই এমপি ভোটে জয়ী হয়ে গেছে এরা। আবার, ভোটে জয়ী হওয়া এমপি'কে পার্লামেন্টের বাহিরে রাখা যে অন্যায়, সেটা ড: কামাল হোসেনের মতো মানুষ বুঝে না; এসব গর্দভদের নিয়ে জাতি কতটুকু এগুতে পারবে?

মন্তব্য ৩৮ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৩৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:১৯

রাজীব নুর বলেছেন: আজ স্বাস্থ্য দিবস।
টিভিতে হাসপাতাল গুলোর খুব করুন অবস্থা। বছরের পর বছর নাকি এই বাজে অবস্থা।
তাহলে আগের স্বাস্থ্য মন্ত্রী কি কোনো কাজ করেন নি??

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


প্রেসিডেন্ট, প্রাইম মিনিষ্টার, ওবায়দুল কাদের যদি দেশের বাইরে চিকিৎসা করায়, দেশের হাসপাতালে মুহিত কেন টাকা ব্যয় করবে?

২| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:২১

রাজীব নুর বলেছেন: আজ স্বাস্থ্য দিবস।
টিভিতে নিউজ দেখলাম হাসপাতাল গুলোর খুব করুন অবস্থা। বছরের পর বছর নাকি এই বাজে অবস্থা।
তাহলে আগের স্বাস্থ্য মন্ত্রী কি কোনো কাজ করেন নি??

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:২৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


নাসিমেরা দক্ষ নন, এরা বাবার নামে যায়গা দখল করেছে মাত্র।

৩| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৪

হাবিব স্যার বলেছেন: আমাদের দেশের রাজনীতি কাঁদা ছুড়াছুড়ির রাজনীতি। উন্নয়ন নিয়ে মাথা ঘামানোর সুযোগ কম।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৫২

চাঁদগাজী বলেছেন:


রাজজীতির নামে ড: কামাল হোসেনরা যা করেছেন, তাতে উনার ৩ গোষ্ঠি চলে যাবে; কিন্তু জাতীয় ঐক্যকে যেভাবে ভেংগে দিয়েছেন, তাতে প্রতি বছর ২০/৩০ হাজার মেয়ে আরব দেশে কাজ করতে যাবে আরো ১০/২০ বছর।

৪| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৭

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
স্যার, আপনারএই পোস্ট খুবই যুগোপযোগী।
সাহসী পোস্ট।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০২

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা দরকারী অনেক পদক্ষেপের সাথে ভয়ংকর কিছু অন্যায়ও করে যাচ্ছেন; কিন্তু বিএনপি ও ড: কামাল হোসেন সাহেবদের ভুল ও অন্যায়ের ফলে, শেখ হাসিনার অন্যায়গুলো অনেক মানুষের কাছে 'প্রয়োজনীয় অন্যায়' হিসেবে গণ্য হচ্ছে।

৫| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০০

হাবিব স্যার বলেছেন: @ সাজ্জাদ হোসেন, চাঁদগাজী সাহেবের সাহস সবসময় ছিলো।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


সমসাময়িক জাতীয় বিষয়গুলোকে বুঝার দরকার, সঠিবভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করা ব্লগিং'এর অংশ।

৬| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৫

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
হাবিব স্যার বলেছেন: @ সাজ্জাদ হোসেন, চাঁদগাজী সাহেবের সাহস সবসময় ছিলো।

প্রবাসে বসে নিক নামে ব্লগ লিখলে সাহস একটু বেশীই দেখানো যায়।
আপনি একটু সাহস দেখান তো ভাই!
ব্লগ সহ ব্যান হয়ে যেতে পারে।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি অবশ্য পুরোপুরি প্রবাসী নই; আমি দেশে প্রচুর সময় থাকি; গত ২ বছরে লম্বা সময় থাকা হয়নি; সামু আমারো ৭ নিক হজম করে ফেলেছে।

৭| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৩৫

তীর্থক বলেছেন: বাংলাদেশে নির্বাচন কবে হল আর সে নির্বাচনে পাশ ফেল, তারপরে আবার শপথ, হাসালেন গুরু :) জাতী আজ নির্বাচনের জঞ্জাল মুক্ত :)

ডঃ কামাল যখন বঙ্গবন্ধুর আওয়ামীলীগের প্রান ছিলেন তখন উনার দেশ প্রেম নিয়ে কারো মুখে একটি শব্দও ছিল না, শেখ হাসিনার আওয়ামীলীগে উনি বড়ই অপাংতেয় :) এভাবেই অপাংতেয় হয়েছেন কাদের সিদ্দিকি, এ কে খন্দকার সহ আরও অনেকেই। আবার তাজ উদ্দিনের চাইতে খন্দকার মোস্তাক যেমন বঙ্গবন্ধুর বেশি আপণ হয়ে গিয়েছিলেন তেমনি ইনু, মেনন, মতিয়ারা আজ শেখ হাসিনার বেশি আপন। সুতরাং, রাজনীতির এসব ফালতু গল্প শুনে লাভ নেই।

শেষ কথা বলি, "এসব গর্দভদের নিয়ে জাতি কতটুকু এগুতে পারবে?" , দেশে আজ আওয়ামীলীগ ছাড়া সবাই গর্দভ এবং জাতি তরতর করে এগিয়ে যাচ্ছে ইয়াহিয়ার পাকিস্তানের মত যেখানে গণতন্ত্র নয় উন্নয়নই ছিল মুল মন্ত্র। সুতরাং, এসব গর্দভদের নিয়ে আপনার বা আমার ভাবার কিছু আছে বলে আমি আন্তত মনে করি না!!!

ধন্যবাদ!

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৫৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার কথানুসারে নির্বাচন হয়নি; তবে, সম্প্রতি ড: কামাল সাহেবের ঐক্য ফোরাম থেকে বিজয়ী ২ জন এমপি শপথ নিয়েছেন, আমি উনাদের কথা বলছি, এটুকু মিল আছে কিনা দেখেন।

শেখ সাহেব জীবিত থাকাকালীন ড: কামাল হোসেনের ভুমিকা দেশবাসীর কাছে পরিস্কার ছিলো না; কারণ, তখন ফোকাস ছিল শেখ সাহবের উপর; এখন, উনার দীর্ঘ ভুমিকার পোষ্ট-মর্টেম হচ্ছে; পোষ্ট-মর্টেম সব সময় সোজা।

ভেড়া যখন দলে থাকে, উহার আসলে কোন ভুমিকা থাকে না, যেটা সমানে থাকে, উহার ভুমিকা থাকে; আপনার দলীয় অবস্হান কোথায়, সামনে নাকি মাঝখানে?

৮| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৪৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: যাক স্বমুর্তিতে ফিরলেন আবার। মাঝরাতের নির্বাচনকে বৈধতা দিতে বেশ লম্বা সময় নিলেন বলা যায়।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৫৯

চাঁদগাজী বলেছেন:



আমার স্বীকৃতি র জন্য শেখ হাসিনা বসে নেই; আপনি আমাকে যত বড় মনে করছেন, আমি ঐ ধরণের কোন আবর্জনা নই আসলে।

৯| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৫০

তীর্থক বলেছেন: নির্বাচন এখন থেকে রাতেই হবে। কেঊ সারারাত কষ্ট করে ব্যলট বাক্স ভরবে আর বাকিরা নাকে তেল দিয়ে ঘুমিয়ে বেলা ১২টায় ঘোরতে, খুশিতে, ঠ্যালায় ভোট কেন্দ্রে যাবে, এসব ইয়ারকি আর চলবে না ;)

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:০১

চাঁদগাজী বলেছেন:


মনে হচ্ছে, সেটাই ঘটছে; দেশে রাজনীতিবিদ না থাকায় এই অবস্হার সৃষ্টি হয়েছে; আপনার জানামতে কোন রাজনীতিবিদ থাকলে, উনার নামটা জানাবেন।

১০| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:০৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: ডঃ কামাল কর ফাকি দেয়ার মত বিড়াট অপরাধ করেও উচু গলায় আওয়ামিলীগ সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিনয়ত বক্তব্য দিচ্ছেন কিন্ত তারপরেও সরকার তার টিকিটাও ছোয়নি!!!।মানবতার আম্মার এহেন মানবতা দেখে আমরা শকড। নেত্রীকে বোঝান যে এতটা দয়ার সাগর হওয়া ঠিক নয়।

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১:৫৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা উনার বাবার সময়ের রাজনীতির লোকদের প্রতি অকারণে সহানুভুতিশীল।

১১| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:১৪

তীর্থক বলেছেন: আমার কথানুসারে নির্বাচন হয়নি, আপনার কথানুসারে কি? নির্বাচন হয়েছে?
ডঃ কামালের ঐক্য ফোরাম থেকে যারা শপথ নিয়েছেন তাদের গল্প যদি বলেন তাহলে বলব ১৯৮৬ তে শেখ হাসিনার আওয়ামীলীগ এরশাদের সাজানো নির্বাচনেও অংশ নিয়েছিল সারা দেশের বিরুদ্ধে যেয়ে। সুতরাং এগুলো কোন গল্প না, এগুলো জাতীর সাথে বেঈমানি। সবাই করেছে এখনো করছে।

বঙ্গবন্ধু জীবিত থাকা কালে যারা মুক্তি যোদ্ধা ছিল তাদের অনেকেই পড়ে রাজাকার হয়েছে, আর ইনু, মেনন, মতিয়ারা হয়েছে দেশ প্রেমী। সুতরাং কখন কার ওপরে ফোকাস ছিল আর কখন কে রাজাকার বা দেশ প্রেমী হয়ে গেছে সেগুলো আমরা হিসাব করে মেলাতে পাড়ব না, ওগুলো বড় বড় নেতারা খাতা কলমে রোজ মেলাচ্ছে।

পোষ্ট-মর্টেম সোজা নাকি? তনু হত্যার পোষ্ট-মর্টেমের কথা মনে আছে? ওটা অবশ্য অন্য পোষ্ট-মর্টেম, শুধু বলার জন্য বললাম :)

ভেড়ার উদাহরণ টা টেনে ভাল করেছেন। এরশাদের ৯ বছরের শাসন টিকত না যদি আওয়ামীলীগ ১৯৮৬এ জাতীর সাথে বেঈমানি না করত। আওয়ামীলীগের ১০ বছরের শাসন টিকত না যদি এরশাদ ২০১৪র নির্বাচনে আওয়ামীলীগের সাথে জোট না করত। মিল কোথায় বলেন ত? বেঈমানিতে! এখন সিদ্ধান্ত নেন, আপনি এরশাদ নাকি আওয়ামীলীগ ;)

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ২:০৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি যেভাবে বিশ্লষণ করেছেন, এগুলো অনেকের জন্য হয়তো সঠিক; আমি শেখ হাসিনাকে একটু অন্যভাবে দেখি; শেখ হাসিনাকে শেখ সাহেব রাজনীতি আনতে চাননি, উনাকে বিয়ে দিয়ে হাউস-ওয়াইফ করে, রাজনীতি-বিমুখ ড: ওয়াজেদের সাথী করে দিয়েছিলেন।
শেষ সাহেবকে হত্যা করার পর, শেখ হাসিনাকে আসতে হয়েছে; শেখ হাসিনা বাংলাদেশে রাজনীতিতে প্রবেশের আগে, ৫ বছর প্রস্তুতি নিয়েছেন; উনি ক্যান্টনমেন্ট ও জামাতকে পরাজিত করার জন্য বিবিধ কৌশল নিয়েছেন: এতে ভালো ও খারাপ অনেক কিছু ঘটেছে, জাতি তেমন লাভবান হয়নি; তবে, তিনি ক্যান্টনমেন্ট, বিএনপি ও জামাতকে কিছু সময়ের জন্য থামায়েছেন।

১২| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:১৬

তীর্থক বলেছেন: আমার জানামতে একজন রাজনীতিবিদ আছে, চাঁদগাজী :)

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১:৫৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি রাজনীতি বুঝার চেষ্টা করছি, আপনারা চেষ্টা করছেন বলে মনে হয় না; আপনারা রাজনীতি বুঝার পর জন্ম গ্রহন করেছেন।

১৩| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:২৯

অনুভব সাহা বলেছেন:

# "অন্যায়'এর বিপক্ষে দাঁড়াতে হলে, নিজকে যথাসাধ্য ন্যায়ের এলাকায় রাখতে হয়; নিজে অন্যায় করে"
এটা কি একাদশ জাতীয় সংসদের সম্মানিত সাংসদদের জন্যও প্রযোজ্য? কিংবা শেখ হাসিনা? (লাঠি হাতে শোডাউন মারা নির্বাচন যা দেখেছি)




ওল্ড ম্যান! ব্লগের লিলিপুটিয়ান ব্লগারদের সামনে বুদ্ধিজীবী সাজা সহজ। চালিয়ে যান....

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ২:১০

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনার লাঠি হাতে নির্বাচন নিশ্চয় ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্টের রাতের গণতান্ত্রিক নির্বাচন থেকে ভালো।

১৪| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১০:৪৫

বলেছেন: ভেটে পাস করা এমপি এটা শিউর হলেন কিভাবে???

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১:৫৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি শিউর হয়েছি ইলেকশান কমিশনের ঘোষণায়; আপনার কি নিজস্ব পদ্ধতি আছে?

১৫| ০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১২:৫৭

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
বাংলাদেশ ৭০ বছরের ইতিহাসে সব থেকে ভালো নির্বাচন ছিল ২০০৮ এ
প্রথম বারের মত ছবিসহ ভোটার তালিকা, আইডিকার্ড।
সেই নির্বাচনে ভোট প্রদানের হার ছিল ৮৭.১৩%। ২০০৮ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জোট (জাতীয় পার্টি ছাড়া) আসন পেয়েছিলো ২৩০

এবার আওয়ামী লীগের প্রিপারেশন ছিল বছরব্যাপি ব্যায়বহুল শক্ত সুদুরপ্রসারি পরিকল্পনা। তারা যথেষ্ট পেশাধারি
আর এবার একতরফা সুবিধা পেয়ে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়ে নেমেছিল। অনেক বিম্পি সমর্থক বলছিল হাসিনার আরোএক টার্ম থাকা উচিত।

বিম্পি এবার ছিল ২০০৮ এর চেয়ে অনেক বিধ্বস্ত, জামাতকে নিয়ে লেজেগোববে অবস্থায়।
নির্বাচনের মাত্র ৪ দিন আগে অপ্রস্তুত নির্বাচন প্রচার শুরু করে, কেন্দ্রে এজেন্ট পর্যন্ত দিতে পারেনি।
আগেরবারের চেয়ে মাত্র ২৩টি আসন কম পেয়েছে, খুব অবাক হওয়ার কিছু আছে?

এই নির্বাচনে জিততে কারচুপি লাগে নাকি?

রাতের ভোটের শুটিং - বিবিসির ফরমায়েসি প্যাকেজ নাটক। ভিডিওটি খুব ভাল করে লক্ষ করুন।
অভিনেতা ক্যামেরার দিকে বাক্স দেখেয়ে দেখিয়ে ক্যামেরা দিকে তাকিয়ে তাকিয়ে যাচ্ছে। নাটক শুটিং ছাড়া কি?

যেমন আরেকটা নাটক ছাড়া হয়েছিল নির্বাচনের পর পর। "খুশির ঠেলায় ঘোরতে"
মানে ভোটাররা বার বার জাল ভোট দিচ্ছে তার প্রমান।
পরে প্রমান হয়েছে সেটা ভোটের অনেক আগে অভিনয় করে তৈরি করা। এরা কেউ ভোটার না, সাংবাদিক না, এমেচার অভিনেতা।

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ২:১৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিএনপি'র এই সঠিক অবস্হায়, আমরা চেয়েছিলাম, শেখ হাসিনা শুধু শিক্ষিত ও দক্ষ লোকদের এনে, জীবনে একবার বিশ্বের সবচেয়ে বড় ও দামী পার্লামেন্টটাকে চালু করুক; উনি নিয়ে এসেছেন বদি বউকে।

এই শেখ হাসিনা বিএনপি জামাতকে পরাজিত করেছেন, সেটা ঠিক; তবে, উনি জাতিকে জয়ী হতে দেননি।

১৬| ০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৭:৩৫

তীর্থক বলেছেন: আপনি শেখ হাসিনাকে অন্যভাবেই দেখার কথা, জাতীয় বেইমানেদের চেহারা একরকমই হয় এবং তাদের অন্যভাবেই দেখতে হয়। আমি শেখ হাসিনা আর এরশাদ দুজনকেই অন্যভাবে দেখি।

জামাত-বিএনপি এদের সাথে শেখ হাসিনার আওয়ামীলীগের খুব বেশি তফাৎ দেখি না, কারন, ঠিক যে কারনে আমরা জামাতকে ঘৃণা করি সেই জামাতের সাথে আওয়ামীলীগেরও আতাত হয়েছিল কিন্তু। আর বিএনপি ত সেই জামাতের মোহে অন্ধ হয়ে আছে, "লাত্থি খাব, তবু গাট্টি ছাড়ব না" দশা।

ক্যান্টনমেন্ট কে থামায়েছেন, নাকি ক্যান্টনমেন্টকে কবরস্থান বানিয়েছেন সেটা সময়ই বলবে।

রাজনীতি বুঝি কি না সেই তর্কে আপনার সাথে যাব না, কারন, অন্ধকে হাতি চেনানোর গল্পটা আমি জানি ;)

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৮:৫২

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি বলেছেন, "অন্ধকে হাতি চেনানোর গল্পটা আমি জানি"।

-এটা কমপক্ষে গরুর রচনা জানা থেকে ভালো; আপনি রাজনীতিতে অনারারী পিএইচডি পাবেন কোন এক সময়।

১৭| ০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:১৯

নতুন নকিব বলেছেন:





৮. ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৪৬
ঢাবিয়ান বলেছেন: যাক স্বমুর্তিতে ফিরলেন আবার। মাঝরাতের নির্বাচনকে বৈধতা দিতে বেশ লম্বা সময় নিলেন বলা যায়।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৫৯
লেখক বলেছেন: আমার স্বীকৃতি র জন্য শেখ হাসিনা বসে নেই; আপনি আমাকে যত বড় মনে করছেন, আমি ঐ ধরণের কোন আবর্জনা নই আসলে।


--- এর জন্য 'বিশাল বড় আবর্জনা' হওয়ার প্রয়োজন নেই। কোনো কিছুর স্বীকৃতি দেয়া অথবা না দেয়ার অধিকার যে কারোরই থাকতে পারে।

০৯ ই এপ্রিল, ২০১৯ ভোর ৫:১২

চাঁদগাজী বলেছেন:


এগুলো একটু জটিল ঠেকতে পারে আপনার কাছে।

১৮| ০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:০২

নীলপরি বলেছেন: অন্যায়'এর বিপক্ষে দাঁড়াতে হলে, নিজকে যথাসাধ্য ন্যায়ের এলাকায় রাখতে হয়
-- এই লাইনটা খুব ভালো বলেছেন ।
অভিযোগ অনেক । সমাধানের প্রচেষ্টা নেই কারোর বোধহয় ।

০৯ ই এপ্রিল, ২০১৯ ভোর ৫:১৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা এই দেশের মানুষের কাছে বিবিধভাবে দেনা আছেন; কিন্তু এই দেশের রাজনীতিবিদদের কাছে উনার কোন দেনা নেই।

১৯| ০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:০৭

অন্তরা রহমান বলেছেন: রাজনৈতিক পোস্টে, পোস্ট ম্যাটার করে না। আসল হইলো কমেন্ট সেকশন। বাইরে বৃষ্টি না হইলে মোড়ের থেকে পপকর্ণ নিয়ে আসতাম খেতে খেতে পড়ার জন্য। আর কিছু বলিব না।

০৯ ই এপ্রিল, ২০১৯ ভোর ৫:১৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগে, রাজনীতি নিয়ে আলোচনা খুব একটা জমছে না আজকাল।

২০| ০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩৩

তীর্থক বলেছেন: লেখক বলেছেন:

আপনি বলেছেন, "অন্ধকে হাতি চেনানোর গল্পটা আমি জানি"।

-এটা কমপক্ষে গরুর রচনা জানা থেকে ভালো; আপনি রাজনীতিতে অনারারী পিএইচডি পাবেন কোন এক সময়।



দোয়া করবেন ;)

০৯ ই এপ্রিল, ২০১৯ ভোর ৫:১৬

চাঁদগাজী বলেছেন:

শুভকামনা রলো

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.