নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ঘুনে পোকা

এই পোলা ব্লগিং করা ও শুরু করল......কোন কিছু আর বাদ দিব না!!!!!!!!!

ঘূণে পোকা

লিখতে পছন্দ করি তাই যা মনে আসে তাই লিখি

ঘূণে পোকা › বিস্তারিত পোস্টঃ

চারিদিকে বকধার্মিকদের আস্ফালন!!

১৯ শে জুন, ২০১৯ সকাল ১১:৩৭

জাতি হিসেবে দিনে দিনে আমাদের মধ্যে এক অদ্ভুত মানসিকতা গড়ে উঠছে।
আমরা নিজ নিজ অবস্থান থেকে অন্যকে বিচার করার এক অসাধারন দক্ষতা অর্জন করতে শিখে গেছি। আমাদের এই জাজমেন্টাল মেন্টালিটির কারনে নিজের কর্মকান্ডকে চূড়ান্তভাবে গ্রহনযোগ্য ও অন্যের আচরনকে নিম্নশ্রেণীর ভেবে নিতে বিন্দুমাত্র দ্বিধা করছিনা।
ক্যারিয়ারে সফল মানুষটি তার চেয়ে পিছিয়ে থাকা মানুষটিকে ব্যর্থ বলে ধরে নিচ্ছে। সুযোগ পেলে তারে উপদেশ বা জ্ঞান বিতরন করছে। যে মেয়েটি ক্যারিয়ার গুছাতে গিয়ে সময় মত বিয়ে করতে পারেনি একই বয়সি অন্য একটা মেয়ে তার বিয়ে পরবর্তী এক্টিভিটিস দেখিয়ে সেই মেয়েটিকে বুঝিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছে জীবনে সে আসলে কতটা ব্যর্থ।
গাড়িতে চড়া মানুষ গুলা রিকশাওয়ালাকে ছোট লোক বলে গালি দিচ্ছে।,যার নিজের চরিত্রের ঠিক নেই সে অন্যের চরিত্র নিয়ে কথা বলছে, যার যেটাতে জ্ঞান নেই সে সেটাতে বিশেষজ্ঞ হয়ে যাচ্ছে, যার দুর্নীতি কে দূর করার কথা সেই দুর্নীতি করছে, এক ধার্মিক ভিন্ন ধর্মকে গালি দিচ্ছে। এক সার্ভিসের মানুষ অন্য সার্ভিসের মানুষকে ছোট করে দেখছে। আমাদের মধ্যে সর্বময় একটা ডাবল স্ট্যান্ডার্ড বিরাজমান। নিজের ক্ষেত্রে যেটা গ্রহন করে নিতে পারি অন্যের ক্ষেত্রে সেটা পারিনা।
বাংগালী হিসেবে যেটা আমরা সবচেয়ে ভালো পারি, এই যে আমার মত ব্যর্থ মানুষটাও দুই কথা লিখে নিজেকে একটা একজন উচ্চমার্গীয় চিন্তাবিদ হিসেবে প্রকাশ করে ফেলতে।
আমাদের চিন্তায়,কথায় এবং কাজ তিনটাতেই চরম পরিমান ভণ্ডামি মিশ্রিত।
জাতি হিসেবে আমরা ভন্ড ছাড়া কিছু নই।
দিন শেষে আমিও একজন প্রাউড বাংলাদেশি।
সেই ভালো।

মন্তব্য ৩৭ টি রেটিং +৬/-০

মন্তব্য (৩৭) মন্তব্য লিখুন

১| ১৯ শে জুন, ২০১৯ সকাল ১১:৫৫

মেঘ প্রিয় বালক বলেছেন: সমস্যা হলো আমরা নিজেরাই সর্বপ্রথম পরিবর্তন হতে পারিনি,নিজে পরিবর্তন না হয়ে অন্যকে পরিবর্তন হওয়ার চেষ্টা করছি। আর দ্বিতীয় কথা হলো যে মানব অন্য মানবের ধর্মকে শ্রদ্ধা করতে জানেনা সে মানব জমিনে একজন অবিশ্বাসী মানব বলেই গণ্য হবে। ধর্ম হলো শ্রদ্ধা,ভক্তি,বিশ্বাস,একজন অরেকজনের ধর্ম নিয়ে বাজে কথা বলা আমাদের কারোরয়ি কাম্য নয়,আমরা এটা গ্রহন করতে পারিনা।

১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৩৩

ঘূণে পোকা বলেছেন: সহমত ভাই

২| ১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:০১

খায়রুল আহসান বলেছেন: অল্প কথায় 'বাঙালি-চরিত' তুলে ধরেছেন!
কথাগুলো অনেকাংশে সত্য হলেও, সুখের কথা যে ব্যতিক্রমের সংখ্যা, যা অতি নগণ্য ছিল, তা বাড়ছে বলে লক্ষ্য করেছি। এই যেমন ধরুন, আপনি এসব কথা নিয়ে ভেবেছেন, ভাবতে পেরেছেন, এটাই একটা ইতিবাচকতার ইঙ্গিত দেয়। এমনটি ভাবার পর নিশ্চয়ই আপনার মধ্যেও কোন ভন্ডামি থেকে থাকলে তা থেকে বেরিয়ে আসতে সচেষ্ট হবেন।

১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৭

ঘূণে পোকা বলেছেন: আপনার মূল্যবান মতামতের প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি!

৩| ১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:০৬

ওমেরা বলেছেন: বাস্তব সত্যকথন ।

১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৭

ঘূণে পোকা বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই

৪| ১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:১২

লাল মাহমুদ বলেছেন: এই সমাজে একদিন পরিবর্তন আসবে, আসতেই হবে।

১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৭

ঘূণে পোকা বলেছেন: আশায় রইলাম সেই দিনটি দেখার জন্য।

৫| ১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:২৭

মোগল সম্রাট বলেছেন: মুল্যবোধের অবক্ষয়, আর এই অবস্থা যেমন বহুযুগের তাই সেটা পরিবর্তন এতো দ্রুত হবেও না।

১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:৪০

ঘূণে পোকা বলেছেন: চলুন আজ থেকেই শুরু করে দেই, আগে নিজে বদলাই, আস্তে আস্তে সবাই নিজেকে বদলালে এই সমাজ বদলে যাবেই সেটা দুমাস পরে হোক আর দুই বছর পরেই হোক, বা দুই যুগ পরেই হোক!

৬| ১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১:২৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: একটা সমাজের পচন শুরু হয় মাথা থেকে, তারপর সেটা পুরো সমাজে ছড়িয়ে পরে। দেশের সমাজের বর্তমান চিত্র তুলে ধরেছেন খুব অল্প কথায়, সার্বিকভাবে এবং সার্থকভাবে। নৈতিকতার স্খলন আর কতোটা হবে.....কিংবা এর শেষ কোথায়, কে জানে?

তবে, এরপরও....... দিনশেষে আমিও কিন্তু একজন প্রাউড বাংলাদেশী!!! ;)

১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৩২

ঘূণে পোকা বলেছেন: প্রতিটি ব্যক্তির নিজস্ব মূল্যবোধ ও বিবেকবোধ জাগ্রত করার মাধ্যমে এই ঘুনে ধরা সমাজের পরিবর্তন আনা সম্ভব বলে আমি মনে করি!

৭| ১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৪১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: প্রতিটি ব্যক্তির নিজস্ব মূল্যবোধ ও বিবেকবোধ জাগ্রত করার মাধ্যমে এই ঘুনে ধরা সমাজের পরিবর্তন আনা সম্ভব বলে আমি মনে করি! এটা হলে তো খুবই ভালো, কিন্তু বাস্তবে তা সম্ভব না। পরিবর্তনের শুরু হতে হবে মাথা থেকে। মাথা যদি নৈতিকতা-বিবর্জিত হয়....তাহলে নীচের দিকে শত চেষ্টা করলেও ভালো কিছু পাবেন না। সুতরাং আমজনতা তথা 'প্রতিটি ব্যক্তি' এখানে গুরুত্বপূর্ণ না। গুরুত্বপূর্ণ হলো, মাথায় অধিষ্ঠিত ব্যক্তিবর্গ।

আর মাথা যদি ঠিক থাকে তাহলে সমাজে শৃংখলা, নৈতিকতা প্রতিষ্ঠিত হতে বাধ্য, আজ আর কাল.....যে কোনও সময়!

১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৪৫

ঘূণে পোকা বলেছেন: দাদা আমি আপনার মতামতের উপর শ্রদ্ধা রেখেই বলছি, ঐ মাথা কেও নিজের মত করে চিন্তা করে তারপর কাজে মনোনিবেশ করলে ফলাফল আশা করা যায়। আপনার আমার কথায় এদেশে কেউ কিছু করবে না।

৮| ১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ২:৪৩

করুণাধারা বলেছেন: এই অবস্থার পরিবর্তন হবে এমন আশা করিনা। :( আমাদের ভোগবাদের স্পৃহা বেড়েই চলেছে, এই অবস্থায় সমাজে বকধার্মিকের সংখ্যা বাড়াটাই স্বাভাবিক।

১৯ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ২:৫৫

ঘূণে পোকা বলেছেন: হোক বা নাই হোক আশা তো করতেই হবে। এর জন্যই কবি বলে গিয়েছেন আশাই জীবন, জীবনের শ্রী!

৯| ১৯ শে জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


সমাজকে ঘুণে পোকায় ধরেছে?

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৮:৫১

ঘূণে পোকা বলেছেন: আপনার কি মনে হয়?

১০| ১৯ শে জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৬

চাঁদগাজী বলেছেন:



কেহই বকধার্মিক হতে চায় না; সময়ের কারণে, ধর্ম এখন এতটুকুই

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৮:৫৩

ঘূণে পোকা বলেছেন: কেহই যদি বকধার্মিক হতে না চাইতো তাহলে সমাজের বৈপ্লবিক পরিবর্তন দেখা দিত। নিজের বিবেক কে সদা জাগ্রত রাখতে না পারলে সময়ের দোষ দিয়েই আমাদের চলতে হবে।

১১| ১৯ শে জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:১৬

কাছের-মানুষ বলেছেন: সঠিক বিশ্লেষনে তুলে ধরেছেন বর্তমান আমাদের সমাজের নোংরা একটা দিক।

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৮:৫৪

ঘূণে পোকা বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই :)

১২| ১৯ শে জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৬

রাজীব নুর বলেছেন: বিশ্বাস করুন এই বক ধার্মিকেরা দেশটার বারোটা বাজাচ্ছে।

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৮:৫৬

ঘূণে পোকা বলেছেন: সহমত ভাই

১৩| ১৯ শে জুন, ২০১৯ রাত ৮:৫০

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: প্রিয় সিনিয়র ভায়া দারুন বলেছেন- বাঙালী চরিত!
হুম চলমান চরিতে এ হাল হলেও এটা কিন্তু আগে এমন ছিল না। এটাও আমাদের একটা ভরসার স্থান!
আমাদের অতীতে বা নিকট অতীতেও এমন অবক্ষয়ের মড়ক লাগেনি । অথচ এখন একেবারে বানের জলে ভাসার মতো অবস্থা!

বহুবিধ কারণের মাঝে ধর্মকে অবহেলা আর স্বৈরাচারিতার ক্রম চর্চা বড় কারণ!
আমি যখন দেখছি -আমার সততা ন্যায়নিষ্ঠতা নিয়ে আমি পিছিয়ে পড়ছি, সামাজিক, পারিবারিক নিথ্য চাপে ভেঙ্গে পড়ছে দুর্বল নীতিবোধ!
ন্যায়ের জন্য সম্মাননার বদলে পেটানো হচ্ছে শিক্ষকদের, ভাল মানুষদের, অসহায়দের, । মানুষের কাছে অজান্তেই ম্যাসেজ চলে যাচ্ছে -টিকতে হলে বদলাতে হবে!!
নেগেটিভ পজিটিভ উহ্য হয়ে যাচ্ছে। কারণ রাষ্ট্র যখন নেগেটিভকে প্রায়োরিটি দেয় তখন পজিটিভ ব্যাকফুট চলে যায়!
সমাজের সকল স্তর থেকে তখন তা পিছনে সরতে থাকে।

বক ধার্মিকদের কথা আর কি বলব? ধর্মের বারোটা বাজিয়ে তারা ধর্মকেই কলংকিত করেছে। ধার্মিকের দোষে মানুষ ধর্মকেই দূরে ঠেলে রেখেছে।

মুক্তির জণ্য সকলেরই জাগ্রত হতে হবে। অন্তরের গহন থেকে সত্যের টানে।

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৮:৫৮

ঘূণে পোকা বলেছেন: নিজের বিবেককে সদা জাগ্রত রেখে সততা ও নিষ্ঠার সাথে কাজ করে মানুষের বিশ্বাস অর্জন করতে হবে। আর এভাবেই একটা নতুন ভোরের সূচনা হতে পারে।

১৪| ১৯ শে জুন, ২০১৯ রাত ৯:১৭

সুমন কর বলেছেন: মানুষের বিবেক ঠিক না হলে কোন ভাবেই পরিপূর্ণ মানুষ হয়ে উঠতে পারবে না। ভালো লিখেছেন।
+।

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৮:৫৯

ঘূণে পোকা বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই

১৫| ১৯ শে জুন, ২০১৯ রাত ৯:৫৪

আহা রুবন বলেছেন: নিজেকে উচ্চ-স্থানে নিয়ে যাওয়া খুব সহজ নয়। তাই সহজ রাস্তা হিসেবে অপরকে ছোট করে নিজেকে উঁচুতে তুলে ধরার চেষ্টা।

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৮:৫৯

ঘূণে পোকা বলেছেন: যথার্থ বলেছেন ভাই

১৬| ১৯ শে জুন, ২০১৯ রাত ১১:২৬

নাসির ইয়ামান বলেছেন: আত্মবিস্মৃতিই 'আত্মাহমিকার মূল'!

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৯:০০

ঘূণে পোকা বলেছেন: জি ভাই

১৭| ২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৭:৪৮

রাজীব নুর বলেছেন: দেশে ধার্মিক লোক দরকার নেই। দরকার ভালো মানুষ।

২০ শে জুন, ২০১৯ সকাল ৯:০৩

ঘূণে পোকা বলেছেন: কোন ধর্মই কখনো অমানবিক হতে বলে নাই। তাই মানবিকতার চর্চা করলে দেশ ও জাতির উন্নতি হবেই।

১৮| ২০ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৮

পুলক ঢালী বলেছেন: খুব সুন্দর বলেছেন, কিন্তু এ অবস্থা থেকে বেড়িয়ে আসার জন্য পথ প্রদর্শকদের কোন নমুনা দৃষ্টিগোচর হচ্ছেনা। জানিনা আরো কতযুগ এভাবে পাড় করতে হবে।

২০ শে জুন, ২০১৯ দুপুর ১:১৫

ঘূণে পোকা বলেছেন: তবে দাদা পরিবর্তন আসবেই!

১৯| ২০ শে জুন, ২০১৯ রাত ১০:২৫

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: এসব থেকে বেরিয়ে আসতে হবে, যত দ্রুত সম্ভব।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.