নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

বোকা মানুষের কথায় কিই বা আসে যায়

বোকা মানুষ বলতে চায়

আমি একজন বোকা মানব, সবাই বলে আমার মাথায় কোন ঘিলু নাই। আমি কিছু বলতে নিলেই সবাই থামিয়ে দিয়ে বলে, এই গাধা চুপ কর! তাই আমি ব্লগের সাহায্যে কিছু বলতে চাই। সামু পরিবারে আমার রোল নাম্বারঃ ১৩৩৩৮১

বোকা মানুষ বলতে চায় › বিস্তারিত পোস্টঃ

পনেরো হাজার টাকায় বাই রোডে কাশ্মীর - - (কম খরচে ভারত ঘোরাঘুরি)

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৪১



কাশ্মীর! স্বপ্নের কাশ্মীর, ভূস্বর্গ কাশ্মীর। প্রতিটি ভ্রমণপ্রিয় মানুষের অন্যতম স্বপ্ন গন্তব্য। গত কয়েক বছর আগেও বাংলাদেশ হতে কাশ্মীর ভ্রমণ করা টুরিস্টের সংখ্যা ছিল অনেক কম। কিন্তু বর্তমানে সেই সংখ্যা বেড়েছে বহুগুণ। বছর তিনেক আগে সামুতে অল্প খরচে কাশ্মীর ভ্রমণের একটি পূর্ণাঙ্গ পোস্ট লিখেছিলাম। অনেকেই সময় সময় ঢাকা থেকে পুরো যাত্রা বাই রোডে নিজে নিজে কাশ্মীর ভ্রমণ করার জন্য তথ্য চেয়ে থাকেন। তাদের জন্য আজকের এই লেখা। বাংলাদেশ থেকে যারা কাশ্মীর বেড়াতে যাবেন, এবং বাজেট ট্যুর হবে, যেখানে কোন অলটাইম ট্রান্সপোর্ট বুকিং থাকবে না, তাদের জন্য এই পোস্টটি তৈরি।

ঢাকা থেকে কলকাতা হয়ে বাই রোডে কাশ্মীর যাওয়ার জন্য দুটি কমন রুট রয়েছে। কলকাতা-দিল্লী-জম্মু-শ্রীনগর অথবা কলকাতা-জম্মু-শ্রীনগর যে কোন একটি রুটে আপনি কাশ্মীর যেতে পারবেন বাই রোড। তবে হাতে সময় থাকলে কম খরচে বাই রোড কাশ্মীর ভ্রমণ এর জন্য ঢাকা-কলকাতা-জম্মু-শ্রীনগর এই রুট হল বেস্ট অপশন। আসুন দেখে নেয়া যাক এই রুটে যাতায়াতের জন্য বাজেট ট্র্যাভেলার হলে আপনার খরচ হবে কেমন?

ঢাকা-কলকাতাঃ নানান ভাবে আপনি ঢাকা থেকে কলকাতা পৌঁছতে পারেন, সেক্ষেত্রে খরচ সর্বনিম্ন ৬০০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২,০০০ টাকা পড়বে। ঢাকা থেকে বেনাপোল এবং ইমিগ্রেশন শেষে বেনাপোল থেকে কলকাতা এই কমন রুটে নন-এসি বাস করে ১,০০০-১,২০০ টাকা খরচে আপনি মোটামুটি আরামেই ঢাকা হতে কলকাতা পৌঁছে যাবেন।

কলকাতা-জম্মুঃ এই রুটে হাওড়া থেকে দুটি ট্রেন পাবেন। একটি জম্মু তাওয়াই এক্সপ্রেস (Train: JAMMU TAWI EXP, No: 13151), সপ্তাহে সাতদিন চলে, হাওরা থেকে ছেড়ে যায় সকাল ১১ঃ৪৫ মিনিটে, প্রায় ৪৫ ঘণ্টার যাত্রা শেষে জম্মু পৌঁছায় তৃতীয় দিন সকাল ০৯ঃ৩৫ মিনিটে। ভাড়াঃ (প্রায়) স্লিপার ক্লাস ৮০০ রুপী, থ্রি-এসি ২,০০০ রুপী, টু-এসি ৩,০০০ রুপী। অপর ট্রেনটি হল হিমগিরি এক্সপ্রেস (Train: HIMGIRI EXPRESS, No: 12331), সপ্তাহে তিনদিন হাওরা থেকে ছেড়ে যায়, মঙ্গলবার, শুক্রবার এবং শনিবার; ছাড়ার সময় রাত ১১ঃ৫৫ মিনিট এবং প্রায় সাতত্রিশ ঘণ্টার যাত্রা শেষে জম্মু পৌঁছায় তৃতীয় দিন দুপুর ১২ঃ৩৫ মিনিটে। ভাড়াঃ (প্রায়) স্লিপার ক্লাস ৮৫০ রুপী, থ্রি-এসি ২,১০০ রুপী, টু-এসি ৩,২০০ রুপী এবং ফার্স্ট ক্লাস এসি ৫,৫০০ রুপী। (টিকেট মূল্য ভারতীয় রেলওয়ের নির্ধারিত ভাড়ার সাথে জিএসটি এবং এজেন্ট সার্ভিস চার্জযুক্ত করে রাউন্ড ফিগারে ধরা হয়েছে)

কলকাতা-দিল্লী-জম্মুঃ রাজধানী এক্সপ্রেসে কলকাতা থেকে দিল্লী, তারপর দিল্লী থেকে জম্মু। এতে করে সময় এবং কষ্ট কিছুটা কম লাগে। কলকাতা থেকে বেশ কিছু ট্রেন যায় দিল্লী পর্যন্ত, এর মধ্যে সেরা রাজধানী এক্সপ্রেস। এটা ছাড়া রয়েছে প্রভা এক্সপ্রেস, যুবা এক্সপ্রেস সহ আরও তিনটি ট্রেন। আমরা এই রুট ব্যবহার করলে রাজধানী এক্সপ্রেসেই করব, অন্যথায় উপরের কলকাতা-জম্মু রুটই ভাল। শিয়ালদহ ষ্টেশন থেকে ছেড়ে যাওয়া রাজধানী এক্সপ্রেস সপ্তাহের সাতদিনই চলাচল করে, হাওরা থেকে চলাচলকারী রাজধানী এক্সপ্রেস রবিবার ব্যতীত বাকী ছয়দিন চলে। উভয় রাজধানী বিকেল ৪ঃ৫০-৪ঃ৫৫ মিনিটে কলকাতা থেকে ছেড়ে গিয়ে পরদিন সকাল ১০ঃ০০-১০ঃ৩০ এর মধ্যে দিল্লী পৌঁছে যায়। (Train: SDAH RAJDHANIEX , No: 12313), সপ্তাহে সাতদিন চলে, (Train: KOLKATA RAJDHNI , No: 12301), সপ্তাহে ছয়দিন (রবিবার বন্ধ) চলে, ভাড়াঃ (প্রায়) থ্রি-এসি ৩,০০০ রুপী, টু-এসি ৪,৪০০ রুপী এবং ফার্স্ট ক্লাস এসি ৫,৫০০ রুপী। এরপর দিল্লী থেকে প্রায় ১৪টি ট্রেন যায় জম্মুর উদ্দেশ্যে, সবচেয়ে ভাল রাজধানী এক্সপ্রেস, সপ্তাহে সাতদিন চলাচল করে, দিল্লী থেকে ছেড়ে যায় রাত ০৮ঃ৪০ মিনিটে, জম্মু পৌঁছে পরদিন সকাল ০৫ঃ৪৫ মিনিটে। ভাড়াঃ ভাড়াঃ (প্রায়) থ্রি-এসি ১,৭০০ রুপী, টু-এসি ২,৫০০ রুপী এবং ফার্স্ট ক্লাস এসি ৩,০০০ রুপী। এছাড়া দুপুরে আছে শালিমার এক্সপ্রেস এবং শ্রিশক্তি এক্সপ্রেস; রাতের দিকে ঝিলাম এক্সপ্রেস, টাটা তাওয়াই এক্সপ্রেস এগুলোও পাবেন। (Train: JAMMU RAJDHANI , No: 12425)

জম্মু-শ্রীনগরঃ জম্মু থেকে সরাসরি শ্রীনগরের বাস ছেড়ে যায় সকাল সাড়ে ছয়টা থেকে সাতটা নাগাদ, ভাড়া ৩০০-৫০০ রুপীর মধ্যে। এছাড়া ভেঙ্গে ভেঙ্গে গেলে জম্মু থেকে আনাতনাগ (Anatnag) হয়ে সেখান থেকে শ্রীনগর, এই রুটে জম্মু এন্ড কাশ্মীর স্টেট ট্রান্সপোর্ট অথরিটির বাস চলাচল করে। ভাড়া পড়বে সব মিলিয়ে ২৩০ রুপী’র মত। এছাড়া আপনি চাইলে এখান থেকে ট্যাক্সি অথবা প্রাইভেট কার/জীপ ভাড়া করে শ্রীনগর যেতে পারেন, ভাড়া পড়বে ২,০০০ রুপী থেকে শুরু করে গাড়ীর ধরন এর উপর। এই নোটের শেষে একটি চার্ট ছবি আকারে দেয়া হল, সেখান হতে রিজার্ভ গাড়ীর ভাড়া সম্পর্কে একটা আনুমানিক ধারনা পেতে পারবেন।

শ্রীনগর হতে বিভিন্ন জেলাঃ সাধারণত আমরা পর্যটক’রা শ্রীনগর হতে যে এলাকাগুলোতে যাই সেগুলো হলঃ পাহেলগাঁও, গুলমার্গ, সোনামার্গ, ইয়ুসমার্গ। জম্মু এন্ড কাশ্মীর স্টেট ট্রান্সপোর্ট অথরিটির টুরিস্ট বাস সহ নানান ধরনের যান চলাচল করে এসব রুটে। নীচে প্রথম চার্টে জম্মু এন্ড কাশ্মীর স্টেট ট্রান্সপোর্ট অথরিটির বর্তমান রেট এবং তার পরের ছবিতে প্রাইভেট কোম্পানির রেট দেয়া হল।





থাকা-খাওয়াঃ শ্রীনগরে ডাল লেকের আশেপাশে একটু খোঁজ করলে ৫০০-১,০০০ রুপীতে থাকার জন্য ডবল রুম পেয়ে যাবেন। প্রতিবেলা খাবার ১০০-১৫০ রুপী আর সকালের নাস্তা ৫০-৭০ রুপী। একটু বুঝেশুনে প্ল্যান করলে বাই রোডে কাশ্মীর ভ্রমণ করতে হাজার পনের টাকা যথেষ্ট; কিন্তু সময় লাগবে বেশী। দেখা যাক একটি রাফ হিসেবঃ

দিন ০০ (৬০০ টাকা): ঢাকা-বেনাপল, নাইট কোচে যাত্রা।
দিন ০১ (২,০০০ টাকা): ইমিগ্রেশন শেষে কলকাতা পৌঁছে সোজা রেলস্টেশন গমন এবং হিমগিরি এক্সপ্রেস এর স্লিপার ক্লাসে চেপে বসে পড়ুন।
দিন ০২ (৩০০ টাকা): সারা দিন ট্রেনে
দিন ০৩ (১,৫০০ টাকা): সকালবেলা জম্মু পৌঁছে নাস্তা সেরে নিয়ে শ্রীনগর এর বাসে উঠে পড়ুন। বিকেলের মধ্যে শ্রীনগর পৌঁছে হোটেলে চেকইন করুন।
দিন ০৪ (১,৫০০ টাকা): শ্রীনগর ভ্রমণ।
দিন ০৫ এবং ০৬ ((৩,০০০ টাকা): পাহেলগাঁও ভ্রমণ।
দিন ০৭ (১,৫০০ টাকা): গুলমার্গ ভ্রমণ।
দিন ০৮ (১,৫০০ টাকা): সোনমার্গ ভ্রমণ।
দিন ০৯ (২,৫০০ টাকা): শ্রীনগর থেকে জম্মুর উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যান। রাতের ট্রেন ধরুন কলকাতার উদ্দেশ্যে।
দিন ১০ (৩০০ টাকা): সারাদিন ট্রেন জার্নি।
দিন ১১ (১,০০০ টাকা): কলকাতা পৌঁছে রাত কাটান।
দিন ১২ (১,০০০ টাকা): কলকাতা হতে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দিন।

সর্বমোটঃ ১৬,২০০ টাকা। (একটু হিসেব করে চলতে পারলে ১৫,০০০ টাকাতেও সম্ভব এই ট্যুর শেষ করা। ০৪-০৬ জনের দল হলে খুব সহজেই ১৫,০০০ টাকায় ঘুরে আসতে পারবেন কাশ্মীর, বাই রোডে।


কম খরচে ভারত ভ্রমণ সিরিজ এর আগের পোস্টগুলোঃ
(১) দিল্লী-হিল্লি (নিজে নিজে ঘুরে আসুন অল্প খরচে সমগ্র দিল্লী)
(২) কাশ্মীর ভ্রমণ পরিকল্পনা এবং বাজেট (একটি অপূর্ণাঙ্গ পোস্ট ;) :P )
(৩) এবার চলুন সিমলা (ঘুরে আসি কম খরচে)
(৪) চল যাই মানালি... (কম খরচে ঘোরাঘুরি) :)
(৫) এবার ঘুরে আসা যাক গোল্ডেন ট্রায়াঙ্গেল (দিল্লী-আজমীর-জয়পুর-আগ্রা) (কম খরচে ঘোরাঘুরি - পর্ব ০৫) :)
(৬) পনেরো হাজার টাকায় গোয়া ভ্রমণ!!! স্বপ্ন নয়, বাস্তব... (কম খরচে ঘোরাঘুরি)
(৭) ৩২,০০০ টাকায় দিল্লী-সিমলা-মানালি-লেহ-শ্রীনগর-পাহেলগাও-গুলমার্গ-সোনমার্গ ভ্রমণ এর বাজেট-প্ল্যান (কম খরচে ভারত ঘোরাঘুরি)
(৮) মাত্র দুই দিন আর ৩,৫৫০ টাকায় ঘুরে আসুন হালের ক্রেজ মেঘালয়ের “সোনাংপেডেং” এবং “ক্রাংসুরি ফলস” - (কম খরচে ভারত ঘোরাঘুরি)

মন্তব্য ১৬ টি রেটিং +৭/-০

মন্তব্য (১৬) মন্তব্য লিখুন

১| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৭

প্রামানিক বলেছেন: প্রথম হইছি আগে চা দেন পড়ে কাশ্মিরী বাদাম দিয়েন। ভালো লাগল। ধন্যবাদ

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৭

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন:

২| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:১০

রাজীব নুর বলেছেন: ভ্রমনে গেলে পকেট ভরতি করে টাকা নিয়ে যেতে হয়।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:০১

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন: পকেট ভর্তি! মনে হয় না। প্রয়োজন অনুসারে পর্যাপ্ত টাকাপয়সা নিয়ে গেলেই বুঝি হয়ে যায়। :)

৩| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:০৭

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন:




প্ল্যান যখন দিয়েছেন একটা ট্রাই করে দেখতে পারি ।

ভারতে ভিসা করা আছে । আর কি কিছু লাগবে ?

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৫০

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন: না ভাই, কাশ্মীর ভ্রমণের জন্য অন্য কোন অনুমতির দরকার নাই। পর্যাপ্ত বাজেট হলেই, "দে দৌড়..." :)

৪| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:৩৪

আখেনাটেন বলেছেন: চমৎকার। :D

৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৩৭

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন: ধন্যবাদ আখেনাটেন।

৫| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: কাশ্মীর যাওয়ার খুব ইচ্ছা....কিন্তু কেন জানি সেখানে একা যেতে ইচ্ছা করে না। এদিকে আমার বেড়ানোর স্টাইল আমার বউএর পছন্দ না। কি যে করি!! :(

দেখি, কোন কাফেলা পাইলে আপনার এই তথ্য কাজে লাগাবো। :)

০১ লা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:০৩

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন: সবচাইতে ভাল সমাধান, আপনার বেড়ানোর স্টাইল বদলে নিন। সহধর্মিণীকে সাথে নিয়ে কাশ্মীর ভ্রমণ এর চেয়ে ভালো আর কিইবা হতে পারে?

তাই দুজনে মিলে সহসাই বেড়িয়ে পড়ুন, মার্চ এর শেষ সপ্তাহ হতে মধ্য এপ্রিল কাশ্মীর ভ্রমণ এর সেরা সময়।

৬| ৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:১৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: বোকা মানুষ বলতে চায়,




খুব কাজের একটি পোস্ট। ভ্রমনপিপাসুদের পিপাসা মেটাবে।
অবশ্য আমি মনের চোখে বিনে পয়সায় কতোবার যে কাশ্মীর গেছি তার হিসেব নেই। জানিনে কোনওদিন চর্মচোখে দেখা হবে কিনা!
প্রিয়তে রাখলুম......

০১ লা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:২৬

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন: ধন্যবাদ ভাইয়া। খুব শীঘ্রই চর্মচক্ষুতে দর্শন হোক স্বপ্নরাজ্য কাশ্মীর। ভাল থাকুন সবসময়, শুভকামনা জানবেন।

৭| ০১ লা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:২০

খায়রুল আহসান বলেছেন: চমৎকার একটি পোস্ট সাজিয়েছেন। বেশ হোম ওয়ার্ক করতে হয়েছে এটা এত সুন্দর করে, তথ্যসমৃদ্ধ করে সাজাতে, এটা সহজেই বোঝা যায়।
পোস্টে প্লাস, এবং পোস্ট "প্রিয়"তে।

০১ লা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:২২

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া আপনার উৎসাহব্যঞ্জক মন্তব্যের জন্য।

শুভকামনা জানবেন, ভাল থাকুন সবসময়।

৮| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:১৫

অর্থনীতিবিদ বলেছেন: খুব ভালো লাগলো পোস্টটি। কাশ্মীর যাওয়ার পরিকল্পনা করছি অনেকদিন থেকে। আপনার তথ্যগুলো অনেক কাজে লাগবে।

১৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:৩৬

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ, আপনাদের কাজে লাগলেই কষ্ট করে লেখা এই পোস্ট সার্থক হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.