নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সব কিছুর মধ্যেই সুন্দর খুঁজে পেতে চেষ্টা করি............

জুল ভার্ন

সামু, আমার প্রিয় সামু-প্রত্যাশা পুরণে ব্যার্থতার ভারে নূহ্য! বর্তমান সামু কোনো দিন প্রত্যাশিত ছিলনা-তাই আপাতত সামু চর্চা বন্ধ। আপাতত সামু নষ্টদের দখলেই থাকুক। যদি মডারেটর চান-তাহলেই সামু আবার ফিরে আসবে স্বমহিমায়, ফিরে আসবো আমিও অনেকের মতই। ভালো থেকো প্রিয় বন্ধুরা। সকলের জন্য শুভ শুভ কামনা। * প্রানবন্ত কল্পনাশক্তির প্রয়োগে স্বচ্ছ ভাবনা আর বাস্তবতার মিশেলে মানুষ ক্রমশই সংকীর্ণ আর ক্ষুদ্র গন্ডিতে আবদ্ধ হয়ে যাচ্ছে।সব কিছু ছোট হয়ে যাচ্ছে, ছোট হয়ে যাচ্ছে আমাদের চিন্তা শক্তি-ছোট হয়ে যাচ্ছে আমাদের মন। আসুন পারস্পরিক মূল্যবোধ বিনিময়ে নিজ নিজ ভুল্গুলো শুধরে নিয়ে নিজেকে বিকশিত করি।

জুল ভার্ন › বিস্তারিত পোস্টঃ

কোলকাতার একটি দৈনিকে একটি বিজ্ঞাপনঃ

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ভোর ৬:০৫

কোলকাতার একটি দৈনিকে একটি বিজ্ঞাপনঃ

“আমি ৭০ বছরের একলা মানুষ। তবে এখনো সক্ষম, নিজের সব কাজ, বাজার হাট, রান্নাবান্না ও নিজের দেখাশোনাটাও নিজেই করতে পারি। তেমন কোন রোগব্যাধিও নেই। অবসরপ্রাপ্ত, মাসিক রোজগার ২০,০০০ টাকা।……….”।

না এটা কোন 'পাত্রী চাই' এর বিজ্ঞাপন নয়। এটা এক বৃদ্ধের অসহায় নিঃসঙ্গতার বহিঃপ্রকাশ যেখানে উনি চাইছেন কেউ ওনাকে দত্তক নিয়ে ওনার বাকি জীবনের নিঃসঙ্গতা দূর করুক। ভরণ পোষণের দায়িত্ব নয়, সে সামর্থ্য তার আছে। যা নেই তা হল সহচর্য্য। স্ত্রী গত হয়েছেন, ছেলেও দূরদেশে- প্রায় যোগাযোগ হীন। তাই তিনি চান একটা সুন্দর পরিবার, যারা দেবে তার শেষের কটা দিনের জীবন থেকে হারিয়ে যাওয়া পরিপূর্ণ পারিবারিক সঙ্গ সুখ, অসুস্থতায় একটু সহমর্মিতা। বিনিময়ে তিনি তার তিন বেডরুম ফ্ল্যাটের দুটি বেডরুম শেয়ার করতেও রাজী। নার্সিং হোমের পেশাদারি আয়াকে তার বড় ভয়। ভয়, একলা পরিজনহীন মরণকে বরণ করতে। বন্ধ দরজার আড়ালে মরে কাঠ হয়ে থাকা!

হ্যাঁ এটাই এখন বাস্তব। কোথাও অসহায় বৃদ্ধ-বৃদ্ধা বা কোথাও সাথী হারা এককের দীর্ঘশ্বাস। ছেলে-মেয়েরা তাদের ক্যারিয়ারের চাপে অন্যত্র বা প্রবাসী। এরা এক অদ্ভুত প্রজন্ম, যেনতেন প্রকারে নিজেকে প্রজেক্ট করে সিঁড়ি ভাঙ্গা ওপরে ওঠার তাগিদে তাদের সময় নেই এনাদের সঙ্গ দেবার।

একাকী মানুষের একেকটা দুপুরকে মনে হয় নির্জন দ্বীপ। বিষণ্ণ দুপুরে মনের আয়নায় উঁকি দিয়ে যায় কাল্পনিক উঠোনে খেলে বেড়ানো নাতি নাতনিদের হৈচৈ, প্রয়োজনে বিছানার পাশে প্রিয়জনের উপস্থিতি। দীর্ঘ নিশ্বাসে ভারি হয়ে ওঠে বাতাস। শুকনো প্রতিশ্রুতি আর সমবেদনাতে আরও বেশি জ্বালা ধরায়।
অতীত জীবনের রঙিন ক্যানভাসটাকে মনে হয় অযত্নে পড়ে থাকা ধুলোয় ভরা কালো মলিন একটা ছবি। যেখানে অস্পষ্ট কিছু সোনালি আলোর ফুলকি জোনাকির মত ফুটে উঠে সপ্তাহ শেষে মুঠোফোনে নাতির “হাই দাদু” সম্বোধনে আবার হারিয়ে যায় বর্তমান স্মৃতির অন্ধকারে।

প্রশ্ন জাগে এরজন্য কি আমরাই দায়ি নই?
যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে যৌথ পরিবার থেকে ছিন্ন হয়ে অনু পরিবার হয়ে এখন এই পরমাণু জীবনে বাধ্য হয়েছি। ছোটবেলা থেকে সন্তানদের জীবন থেকে শৈশব কেড়ে নিয়ে জীবনে ইঁদুর দৌড় প্রতিযোগীতার পাঠ দিয়ে এক একটা রোবট তৈরী করেছি! বারে বারে স্মৃতিতে ভেসে ওঠে সংসারে ছবি।

মন্তব্য ৩৬ টি রেটিং +৭/-০

মন্তব্য (৩৬) মন্তব্য লিখুন

১| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ভোর ৬:৩৪

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: সারা বিশ্বের প্রেক্ষাপটে পরিবার প্রথাই চাপের মুখে।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৫৮

জুল ভার্ন বলেছেন: রাইট।

২| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ভোর ৬:৫৬

কামাল১৮ বলেছেন: নিজের পরিবারকেই যে (স্ত্রী না) ধরে রাখতে পারে নাই,অন্যের পরিবারে যেয়ে সে কিছুতেই সুখী হতে পারবে না।মরে গেলে সে আর কিছুই টের পাবে না।সে ঘরে একা আছে না দশ জনের সাথে আছে।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:০০

জুল ভার্ন বলেছেন: মৃত্যুকে কে ঠেকাতে পারে?

৩| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ৮:২১

চাঁদগাজী বলেছেন:



কলিকাতায় কিংবা বাংলাদেশে ইহা ভয়ংকরও হতে পারে।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:০১

জুল ভার্ন বলেছেন: বিষয়টা মনে করি আন্তর্জাতিক হয়ে গেছে।

৪| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ৯:৪৭

শেরজা তপন বলেছেন: নিঃসঙ্গতা ভয়ঙ্কর!!!

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:০২

জুল ভার্ন বলেছেন: জীবমৃত্যু।

৫| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৩৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: আমাদের জীবন এখন হয়ে গেছে রবোটিক জীবন, ঘড়ির পেছনে ছুটে চলা জীবন।। এ জীবনে ধীরে ধীরে বিলুপ্ত হয়ে যাবে মায়া দয়া, স্নেহ মমতা, পারস্পরিক সমঝোতা, সামাজিক দায়বদ্ধতা। জীবন হয়ে গেছে, বা অচিরেই হয়ে যাবে আত্মকেন্দ্রিক, ব্যক্তিকেন্দ্রিক।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:০৩

জুল ভার্ন বলেছেন: কী ভয়াবহ সময় আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে!

৬| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:০১

নতুন নকিব বলেছেন:



বিজ্ঞাপনটা পড়ে সত্যি আপ্লুত হলাম। আপনার লেখার গুণে আবেগটা ধরে রাখা আরও কঠিন হয়ে উঠেছে। ধন্যবাদ।

কালচারের নামে মূলতঃ ওয়েস্টার্ণ অপকালচারের অন্ধানুকরণের ফলে এখন পারিবারিক বন্ধনহীন, প্রেম প্রীতি মায়ামমতাহীন এই ভয়ার্ত পরিবেশ আমাদের পারিবারিক বন্ধনগুলোকে ক্রমেই ঠুনকো করে দিচ্ছে। ওদের শেখানো অপকালচারের ব্যাপকতার ফলে এসব এখন এতদঞ্চলেও ছেয়ে যাচ্ছে ক্রমশঃ।

কোন কিছুতে অস্বাভাবিকতা দেখলেই ইদানিং অনেককে বলতে শুনি, তারা সুন্দর দু'টি শব্দ ব্যবহার করেন, মূল্যবোধের অবক্ষয়। বলি, মূল্যবোধের অবক্ষয় তো খুবই শালীন শব্দ। বেশ শ্রুতিমধুরও। কিন্তু এই শ্রুতিমধুর শব্দের প্রয়োগটা একটু হ্রাস করে চরিত্রহীনতা বা দুশ্চরিত্র এই টাইপের সোজাসাপ্টা কথা বলা যায় না? যে শব্দ বা কথা অপরাধীগণের গায়ে গিয়ে তীরের মত বিদ্ধ হতে পারে! সত্যোচ্চারণে আমাদের এত সংকোচবোধের কারণ বুঝি না!

যাই হোক, মূল্যবোধের অবক্ষয় বলি আর সামাজিক অবক্ষয় বলি, প্রেম-প্রীতি, ভালোভাসা, মায়ামমতা, আন্তরিকতা ও হৃদয়হীনতার এই অবস্থা থেকে বাঁচতে হলে, বৃদ্ধাশ্রম চিন্তা মাথা থেকে সরাতে হলে, সমাজ-সংসারে শান্তির সুবাতাসের প্রত্যাশা অন্তরে পোষন করলে পথ একটাই খোলা, ইসলাম ধর্মের পূর্ণাঙ্গ অনুশাসন পুরোপুরিভাবে, সঠিকভাবে, সত্যিকারার্থে বাস্তবিকভাবে ব্যক্তি জীবন, পারিবারিক জীবন, সমাজ জীবন এবং রাষ্ট্রীয় ও আন্তর্জাতিক পরিসরে মেনে চলা। এটা আমার অভিমত।

শুভকামনা জানবেন।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:০৪

জুল ভার্ন বলেছেন: সহমত।

৭| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:১২

জুন বলেছেন: আমরাও সেদিকে যাচ্ছি :(

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:০৪

জুল ভার্ন বলেছেন: কী কষ্ট!

৮| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:৩২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আমাদের সামগ্রিক জীবন ও সেদিকে এগুচ্ছে :(

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:০৫

জুল ভার্ন বলেছেন: ভয়াবহ অবস্থা।

৯| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ২:৪২

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: কিছু বলার নেই ভাই।
এমন দিন কারো না আসুক।
যদি আল্লাহ বুড়ো বয়স পর্যন্ত বাঁচিয়ে রাখে, তাই সেই সময়ের জন্য এখন থেকেই কিছুটা প্রস্তুতি নিচ্ছি একটু একটু করে।
তবে কোনো প্রস্তুতিই যথেষ্ট নয়, আল্লাহর অনুমোদন ব্যাতিতো।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:০৬

জুল ভার্ন বলেছেন: তেমন পরিস্থিতি এড়াতে আগে থেকেই প্রস্তুতি থাকা ভালো।

১০| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:২৩

ইসিয়াক বলেছেন: এসবের জন্য বর্তমান সমাজের মানুষের চরম আত্মকেন্দ্রিকতা দায়ী। যে বাচ্চাকে পারিবারিক দায়বদ্ধতা না শিখিয়ে নিজের স্বার্থ হাসিল করার কসরত শেখানো হয় সে তো তেমনই হবে। আবার আমরা বেশির ভাগ সময় বাচ্চাকে সময় দেই না নিজেকে নিয়ে মেতে থাকি এমনকি নিজের পিতা মাতার দিকেও তাকাবার ফুরসত নেই। বাচ্চারা তো দেখেই শেখে। ফলাফল একসময় তারাও নিজের স্বার্থের কারনে বাবা মাকে ছেড়ে যেতে মোটেও দ্বিধা করে না। ফলাফল শেষ বয়সে সেই বৃদ্ধ বা বৃদ্ধার জন্য রয়ে যায় অসীম শূন্যতা। সাময়িক ভালো থাকার জন্য একটা যৌথ পরিবার থেকে বেরিয়ে যাওয়া চরম ভুল।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:২৭

জুল ভার্ন বলেছেন: সহমত।

১১| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:৩৫

শাহ আজিজ বলেছেন: এই ব্যাপারটা আমি টের পাচ্ছি হাড়ে হাড়ে । সারাদিন একা থাকি । সন্ধ্যায় কন্যা ফিরবে , সে এলেও আড্ডাবাজী ব্যাপারটা হয়ে ওঠে না । পুত্র দেশ ছেড়েছে । একটা সার্কেল গড়ে তোলা কঠিন এই করোনা কালে । করোনার আগে বেঙ্গলে নাস্তা খেয়ে , বা শাহবাগে আড্ডা , মার্কেট ঘুরে ভালই ছিলাম । করোনার ভয়ে কাউকেই ঘরে ডাকিনা । জামাইয়ের সাথে যতই বিবিধ বিষয় নিয়ে আলাপ পাড়তে যাই সে শুধু ইয়েস স্যার ইয়েস স্যার বলে হতাশ করে দেয় । কষ্ট ,বড্ড কষ্ট বলে বুঝাতে পারব না ।

সামুই এখন একান্ত সঙ্গী ।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:২৯

জুল ভার্ন বলেছেন: কী দুঃসহ জীবন! আসলে আমরা ষাটোর্ধরা সবাই কমবেশি এই যাতনা সয়েও হাসিমুখে জীবন যাপন করছি।

১২| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:৪৭

নাহল তরকারি বলেছেন: এর জন্য দায়ী কি? কোন জিনিস এর জন্য দায়ী। ভাবতে হবে।

২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:৩০

জুল ভার্ন বলেছেন: অল্প কথায় বলতে গেলে -দায়ী আমাদের পারিবারিক, সমাজ ব্যবস্থা এবং অর্থনৈতিক অবস্থা।

১৩| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:৪২

রাজীব নুর বলেছেন: কর্পোরেট সমাজের ফল এই বিজ্ঞাপন।

২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:২২

জুল ভার্ন বলেছেন: একমত।

১৪| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:৪৭

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: খুবই দুঃখজনক এবং দুর্ভাগ্যজনক বটে।

২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:২৩

জুল ভার্ন বলেছেন: একমত।

১৫| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১০:১১

কামাল১৮ বলেছেন: আমিতো মৃত্যুক্ ঠেকানোর কথা বলিনাই।

২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:২৪

জুল ভার্ন বলেছেন: আপনি লিখেছিলেন-"নিজের পরিবারকেই যে (স্ত্রী না) ধরে রাখতে পারে নাই,অন্যের পরিবারে যেয়ে সে কিছুতেই সুখী হতে পারবে না"।

১৬| ২৪ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১১:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: বসুন্ধারার বুকে বরষার'ই ধারা...
ধারা ভরা হাহাকার...

২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:২৪

জুল ভার্ন বলেছেন: ধন্যবাদ।

১৭| ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১২:৪৪

নেওয়াজ আলি বলেছেন: যৌথ পরিবারে মা- বাপ মধ্যমনি আমাদের। সবাইকে নিয়ে ভালোই আছি

২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:২৪

জুল ভার্ন বলেছেন: আলহামদুলিল্লাহ।

১৮| ২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ৮:০৪

জ্যাকেল বলেছেন: যৌথ পরিবার প্রথাই সব মিলিয়ে সমাজ, মানুষগুলার জন্য ভাল।

২৫ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:২৫

জুল ভার্ন বলেছেন: ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.