নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

বর্ষার ফুল চাঁদ ভালোবেসে হয়ে গেছে একাকার চাঁদের আলো জড়িয়ে সে যে গড়েছে অলংকার ।

কথার ফুলঝুরি!

ও আমার চাঁদের আলো, আজ ফাগুনের সন্ধ্যাকালে ধরা দিয়েছ যে আমার পাতায় পাতায় ডালে ডালে॥

কথার ফুলঝুরি! › বিস্তারিত পোস্টঃ

সাত পাঁচ বার :|

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:৫০



"ভালোবাসা"- আমি কিন্তু ভালোবাসা মানে লাভ, তার কথা বলছি ভালো একটা বাসা না :P বাসা যেমনই হোক ভালোবাসা টা কিন্তু হওয়া চাই একদম মনের মত ভালো ;) সেটা অতিথির ভালোবাসা হোক, শিক্ষকের ভালোবাসা হোক আর হোক অন্য যে কোন ভালোবাসা ।
কে না চায় ভালোবাসা পেতে। আমরা সবাইই চাই আমাদেরকে সবাই ভালোবাসুক । তবে কেউ যদি বলে থাকে যে আমি চাইনা কেউ আমাকে ভালোবাসুক তাহলে বুঝে নিতে হবে সে তার জীবনে ভালোবাসা নিয়ে বড় ধরনের কোন অঘটন ঘটিয়েছে :-0
তবে ভালোবাসা বলতে আমরা সাধারণত যা বুঝি সেই ভালোবাসা ছাড়াও আরও অনেক ধরনের ছোটখাটো ভালোবাসা আছে সেই ভালোবাসাও যতই ভালো হোক না কেন তা যখন অতিরিক্ত হয়ে যাবে তখন কিন্তু আর সেই ভালোবাসা ভালো লাগবেনা :|| কিভাবে ? তাহলে নিচের লেখাগুলো তে একটু চোখ বুলিয়ে নেই ---------- -

১। কারও বাড়িতে অতিথি হয়ে গেলে তার ভালোবাসা – অতিথি পরায়ন জাতি হিসেবে আমাদের খুব সুনাম । বাড়িতে অতিথি এলে হয় নানা রকম খাবারের আয়োজন :D কিন্তু যার বাড়িতে আপনি অতিথি হয়ে যাবেন যতক্ষণ পর্যন্ত তিনি আপনাকে পরিমিত ভালোবাসবেন ততক্ষণ পর্যন্ত সব ঠিক কিন্তু ঝামেলাটা বাজবে তখনই যখন তিনি আপনাকে একটু বেশীই ভালোবাসবেন । ভালোবেসে খাওয়াতে খাওয়াতে আপনার পেটের অবস্থা খারাপ করে দিবেন তখন বুঝবেন সেই ভালোবাসা কত বিরক্তিকর । কিংবা আপনার হয়তো একটু বাসায় যাওয়ার তাড়া অথচ তিনি? আর একটু থাকেন আর একটু থাকেন বলে বলে আপনার বারোটা বাজিয়ে দিবে ।

২। আপনার বাড়িতে অতিথি – আপনি কারও বাড়িতে অতিথি হয়ে গেলে পরবেন এক রকম বিপত্তিতে আর যখন আপনার নিজের বাড়ীতেই অতিথি ? আপনার কিছু ভালোবাসার মানুষ দুইদিন পর পরেই আপনার বাড়িতে আসবেন অতিথি হয়ে আর আপনাকে করতে হবে বাড়তি ঝামেলা । রান্না বান্না থেকে শুরু করে ঘর গোছানো । আর সেই অতিথি যদি হয় এমন যে সে আপনার বাড়ীতে এসে থাকবে কিছুদিন তাহলে তো কথাই নেই । প্রতিদিনই সেই অতিথিকে আদর আপ্যায়ন করতে গিয়ে আপনার বাজবে বারোটা থেকে তেরটা।

৩। শিক্ষকের ভালোবাসা – ছাত্র জীবনে যখন কারও সাথে শিক্ষক শিক্ষিকাদের একটু বেশী খাতির থাকে তখন সেই মানুষটিরও একটু ভাব বেশী থাকে । কিন্তু যখন পরীক্ষার হলে থাকবেন পরীক্ষা দিতে আর আপনার সেই ভালোবাসার শিক্ষক আপনার পাশে থেকে নড়বেনই না তখন আপনিও আপনার ঘাড়খানি নাড়াতে পারবেন না কোন বিষয়ে বন্ধুর সাহায্য নেওয়ার জন্য আর তখনই বুঝবেন বেশী ভালোবাসার বিড়ম্বনা :-<

৪। অফিসের বসের ভালোবাসা-- অফিসে বসের ভালোবাসা একদিক দিয়ে আপনাকে দিবে সুবিধা আবার মাঝে মাঝে দিবে খুবই অসুবিধা । যেহেতু অসুবিধার কথা বলতে এসেছি তাই সুবিধার দিকে আর না হয় না গেলাম । বেশীরভাগ অফিসের বসেরা সাধারণত অফিস শুরু করে দেরীতে শেষও করে দেরীতে । কিন্তু বস যখন আপনাকে একটু বেশী ভালোবাসবে তখন সেও আপনাকে তাকে সঙ্গ দেবার জন্য আটকে রাখবে অফিস ছুটির পরেও । আবার ধরেন আপনি একটু কাজ ভালো পারেন বলে বস আপনাকে পছন্দ করেন কিন্তু যখন দেখবেন অন্য কারও কাজও আপনার উপর চাপিয়ে দিবে বস তখন বুঝবেন অতিরিক্ত ভালোবাসার কি জ্বালা ।

৫। পাড়ার ভাই ব্রাদারদের ভালোবাসা -
-- পাড়ার বড় ভাই কিংবা ছোট ভাইরা ভালো বাসলে একটু ভালো লাগাটাই স্বাভাবিক । কিন্তু ভালোবেসে তারা যখন হুট হাট দলবল নিয়ে হাজির হয়ে যাবে আপনার বাড়ীতে খাওয়ার জন্য আর তাঁদের জন্য রান্না করতে করতে বিরক্ত আপনার বউ বা মা এর বকা খেতে হবে আপনাকে তখন ?

-------------------------------------------------------------------------------------------------
গত জুন মাস থেকে লেখাটি নিয়ে বসে আছি :| লেখার আইডিয়াটা কেমন বুঝতে পারছিনা তবে খুব একটা ভালো বলে মনেও হচ্ছেনা আবার অনেক চিন্তা ভাবনা করে আর কোন পয়েন্ট মনেও আসছেনা । একবার মনে হচ্ছে লেখাটি অসম্পূর্ণ আবার এই লেখাটি নিয়ে আর বসতেও মন চাইছেনা আবার এত কষ্ট করে লিখেছি তা মুছে ফেলতে ও মন চায়না । সব মিলিয়ে একটি হযবরল অবস্থা :| আজ ভাবলাম যা থাকে কপালে দেই পোস্ট করে :P গত দুদিন ব্লগে একটু ক্যাচালের ঘ্রাণ পাচ্ছিলাম । সবাই মনে হয় খুব সিরিয়াস মুডে আছে এই অবস্থায় তাঁদের মন পাঠক যদি লেখাটিকে একটি ম্যাও প্যাঁও ক্যাও ম্যাও যা খুশী তাই পোস্ট হিসেবে নেয় লেখিকা কষ্ট পাইবেন নহে :(
লেখাটির কোন উপসংহার দিলাম না যারা পড়বেন নিজের মনের মত করে চিন্তা করে নিয়েন । স্কুলে থাকতে একটি ম্যাডাম ছিলেন। ক্লাসে তিনি লিখতে দিতেন এবং লেখার ভুমিকা ও উপসংহার সবাইকে চিন্তা ভাবনা করে নিজে থেকে লিখতে বলতেন এবং তার উপর সে নম্বর দিতেন । আমি সেই বিষয়টি খুব এনজয় করতাম । এখানেও এমন কিছু থাকলে খারাপ হতোনা B-)

মন্তব্য ৩২ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (৩২) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:০০

শায়মা বলেছেন: ভালোবাসা মানেই-

এই সুরে কাছে দূরে জলে স্থলে বাঁজায় বাঁশি........

এরপর অন্য সব ভালোবাসা আপুনি!!!!!!!

আর ব্লগে কে কাকে কেমন ভালোবাসে তা বুঝা কঠিন কিন্তু কিছু কিছু সামু প্রেমী আছি আমরা ব্লগটাকেই ভিষন ভালোবাসি......

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১০:৫২

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন:
@ভালোবাসা মানেই-
এই সুরে কাছে দূরে জলে স্থলে বাঁজায় বাঁশি........
------ শুভ সকাল শায়মা আপু 8-| আমার অনেক পছন্দের একটি গান এটি। প্রায়ই গুন গুন করে গাই ।

@এরপর অন্য সব ভালোবাসা আপুনি!!!!!!!
--- হ্যাঁ আপু, এরপর বাকী সব ভালোবাসা ।
আমি যে সকল ভালোবাসার কথা বলেছি সেগুলো আসলে ঐ ভালোবাসা না সাধারণত আমরা ভালোবাসা বলতে যা বুঝি । আমরা সাধারণত মাঝে মাঝে দুষ্টুমি করে ভালোবাসা শব্দটি ব্যাবহার করি আমিও তাই করেছি :P

@আর ব্লগে কে কাকে কেমন ভালোবাসে তা বুঝা কঠিন কিন্তু কিছু কিছু সামু প্রেমী আছি আমরা ব্লগটাকেই ভিষন ভালোবাসি...
-- হুম, যে যেমনই ভালোবাসুক আমরা সবাইই সামুকে ভালোবাসি । তবে আমি একটু মজা করেছি নাথিং সিরিয়াস হাহা ;)

২| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:২১

ইসিয়াক বলেছেন: EXCELLENT
চমৎকার পোষ্ট । আমি অভিভুত ।.....।

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১০:৫৫

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: @EXCELLENT
চমৎকার পোষ্ট । আমি অভিভুত ।.....।
--আসলেই ? :|| কি জানি কি লিখলাম নিজেও জানিনা পোস্ট এর শেষে বলেছি তারপরেও আপনার ভালো লেগেছে জেনে খুশী হলাম ইসিয়াক ভাইয়া 8-|

ধন্যবাদ ও শুভকামনা আপনার জন্য আর শুভ সকাল 8-|

৩| ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:২১

বলেছেন: ৭) মদন কুমারের ভালোবাসা................জাতি জানতে চায় ......।

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:০৫

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: হা হা হা ! সেই ভালোবাসাই যে সত্যিকারের ভালোবাসা আর বাবা মা এর ভালোবাসা 8-|

এটা একটা ফান পোস্ট । তাইতো এই ভালোবাসা ও বাবা মা এর ভালোবাসাকে অন্তর্ভুক্ত করিনি । কারন এইসব ভালোবাসা নিয়ে মজা নয় । ভালোবাসার মানুষের ভালোবাসা আর বাবা মা এর ভালোবাসা কখনও টক ঝাল তেঁতো যাই লাগুকনা কেন তা যে সবসময়ই মিষ্টি 8-|

৪| ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:৩৩

রাকু হাসান বলেছেন:


X( ,এটা ক্লাস না যে ভূমিকা টূমিকা লিখবো ......... :|

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:০৭

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: ওহে কাকু, কি অবস্থা B-) আমিতো ভুমিকা না উপসংহার লেখার কথা বলেছি :D

৫| ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:৪৭

নীল আকাশ বলেছেন: অনেক রাত হয়েছে। আপাতত ভালো ঘুম দিতে চাই।
আশা করছি লতিফ ভাইয়ের আশা এবং ইচ্ছে পূরণ হবে।
৩ নাম্বার কাকে বলেছেন বুঝা যাচ্ছে!!!

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:০৯

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: @আশা করছি লতিফ ভাইয়ের আশা এবং ইচ্ছে পূরণ হবে।--- আচ্ছা ! ষড়যন্ত্র ষড়যন্ত্র :P


@৩ নাম্বার কাকে বলেছেন বুঝা যাচ্ছে!!!
-- কি জানি ভাইয়া কি বুঝলেন আমি বুঝলাম না :| আমিতো কাউকে মিন করিনি তবে আমার সাথে একবার এমন হয়েছিলো তাই লিখেছি হা হা হা |-)

৬| ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:১২

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি আদর, যত্ন, স্নেহ, বন্ধুত্ব, কুটুম্বিতা, সবকিছুকে ভালোবাসার সাথে জগাখিচুড়ী বানাচ্ছেন, মনে হয়।

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:২২

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: হা হা হা ! এইটা এমনিতেও একটা খিচুড়ি পোস্ট :P


ভালোবাসা তো ভালোবাসাই । ভালোবাসার মানুষের ভালোবাসা, বাবা মা এর ভালোবাসা, পরিবারের ভালোবাসা । তবে এগুলো ছাড়াও আদর, যত্ন, স্নেহ, বন্ধুত্ব, কুটুম্বিতা এগুলোও কিন্তু এক কথায় ভালোবাসার আওতায়ই পরে । আপনি কারও বাড়িতে অতিথি হয়ে গেলে সে কিন্তু আপনাকে ভালোবেসেই অতিরিক্ত আপ্যায়ন করে আবার আপনার বাড়িতে অতিথিও কিন্তু আপনাকে ভালোবেসে আপন মনে করেই আসে বার বার । বাকীগুলো ও সেম ।

৭| ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:৫৯

রাজীব নুর বলেছেন: মানূষের জীবনে ভালোবাসাটাই সবচেয়ে বড়। ভালোবাসা কিন্তু সবচেয়ে বড় অস্ত্র। এই অস্ত্রের ব্যবহার অতি সাবধানে করতে হয়।

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:১০

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: @মানূষের জীবনে ভালোবাসাটাই সবচেয়ে বড়--- জ্বী, ঠিক কথা ভাইয়া । আপনি যাকে ভালোবাসবেন সে কিন্তু অনেক ক্ষমতা রাখে । সে চাইলেই আপনাকে যে কোন দিকে নিতে পারে তবে সেটা যদি ভালো হয় তাহলে তা আপনার জন্য আশীর্বাদ স্বরূপ ।
আর অস্ত্র হিসেবে বলতে গেলে বিষয়টি নেগেটিভ সেন্স হয়ে যায় ।

আমি লেখায় অন্য দু এক রকমের ভালোবাসার কথা বলেছি একটু মজা করে ;)

৮| ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:২৮

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: তিন নম্বরে ব্লগীয় ভালোবাসায় অন্তর্ভুক্ত হওয়াতে লজ্জায় চোখ মুখ লাল করে বিদায় নিলাম......

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৫

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: ওমা কেনো ভাইয়া :|| আমি কি এমন কিছু বলেছি, ভুল হয়ে থাকলে খুবই দুঃখিত ভাইয়া :(
আমিতো বলেছি যে যখন একের পর এক অপ্রাসঙ্গিক অপ্রয়োজনীয় মন্তব্য করা হয় তখনকার কথা । মাঝে মাঝেতো এমন হয়। সাধারণত কোন ক্যাচাল হলে তখনকার কথা বলেছি, তাও মজা করে বলেছি । কিন্তু এখন আপনার মন্তব্য দেখে মনে হল আমার মনে হয় এই পয়েন্টটা দেওয়া ঠিক হয়নি :(
যাক, মুছে দিলাম পয়েন্ট টা । কিছু মনে করবেন না ভাইয়া । বড় ভাই হিসেবে শুধরে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ অনেক ।

৯| ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৩১

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: এইরে! অংশটি বাদ দেওয়াতে আরও বিব্রতবোধ করছি। আসলে তখন ওই অংশটি পড়ে একরকম মনে হয়েছিল। কিন্তু তাই বলে বোনের ঐ অংশটি ডিলিট করাও মানতে পারছিনা। এবার আবার নিজেকে অপরাধী লাগছে।

শুভকামনা প্রিয় ছোট বোনকে।

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ২:০৮

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: কিন্তু আমার কাছে এখন শান্তি লাগছে ভাইয়া কারন আসলেই লেখার শিরোনাম ও সেই অংশটুকু ঠিক ছিলোনা । যে কেউ তাতে ভুল বুঝতো । আপনাকে অনেক ধন্যবাদ মন থেকে । আপনার জন্যই বোধোদয় হয়েছে বিষয়টি 8-|

১০| ০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৫৮

আহমেদ জী এস বলেছেন: কথার ফুলঝুরি!




তা জুন মাস থেকে বসে বসে এই অক্টোবরে এসে লেখার ডিমটি পেড়েই ফেললেন !!!! নিজের লেখার প্রতি ভালোবাসা থাকলে কিন্তু সে লেখাকে এভাবেই ভালোবাসার "হযবরল" অত্যাচারে পড়তে হয়। ;)

তা একটি ভালো বাসাকেও ভালোবাসার অনেক ধকল পোহাতে হয়। গায়ের চামড়া ( মেঝে ) ছিলে ছিলে ঘসামাজা করার কষ্ট সইতে হয় রোজ রোজ। এন্টেরিয়র ডেকোরেশানের পাল্লায় পড়ে এখানে ওখানে হাতুরী ছেনীর আঘাত বুক পেতে নিতে হয়। দিনের সূর্যের আলো যাতে দেখতে না পারে সে জন্যে ভারী বাহারী পর্দার আড়ালে জানালাগুলো ঢেকে দেয়ার জ্বালাটাকেও সইতে হয়.......... :(

৬ নম্বর প্রতিমন্তব্যের স্বপক্ষে এই লিংকটা আপনার জন্যে - “লভ এ্যান্ড রোমান্স” । সখি ভালোবাসা কারে কয়......

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০০

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: @তা জুন মাস থেকে বসে বসে এই অক্টোবরে এসে লেখার ডিমটি পেড়েই ফেললেন !!!! নিজের লেখার প্রতি ভালোবাসা থাকলে কিন্তু সে লেখাকে এভাবেই ভালোবাসার "হযবরল" অত্যাচারে পড়তে হয় -- আর বলবেন না ভাইয়া, কি যে এক বিপদে পড়েছিলাম লেখাটি নিয়ে :|| পোস্ট করার পরেও দুইবার শিরোনাম এডিট করেছি সাথে লেখাও । তবে অবশেষে এখন লেখাটিকে মোটামোটি ঠিকঠাক মনে হচ্ছে 8-|


@তা একটি ভালো বাসাকেও ভালোবাসার অনেক ধকল পোহাতে হয়। গায়ের চামড়া ( মেঝে ) ছিলে ছিলে ঘসামাজা করার কষ্ট সইতে হয় রোজ রোজ। এন্টেরিয়র ডেকোরেশানের পাল্লায় পড়ে এখানে ওখানে হাতুরী ছেনীর আঘাত বুক পেতে নিতে হয়। দিনের সূর্যের আলো যাতে দেখতে না পারে সে জন্যে ভারী বাহারী পর্দার আড়ালে জানালাগুলো ঢেকে দেয়ার জ্বালাটাকেও সইতে হয়........-- কঠিন কথা ।


@৬ নম্বর প্রতিমন্তব্যের স্বপক্ষে এই লিংকটা আপনার জন্যে - “লভ এ্যান্ড রোমান্স” । সখি ভালোবাসা কারে কয়......-- সখী ভালোবাসা কারে কয়, সেকি কেবলই যাতনাময়!

১১| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১০:০১

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: Good points.

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০১

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: আর একটু ভাবলে হয়তো আরও কিছু পেতাম তবে ভাবা হয়নি #:-S

১২| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩৪

মোহামমদ কামরুজজামান বলেছেন:
প্রতিটি জিনিস ঠিক আছে, এটি সীমা অতিক্রম না করা অবধি।
যদি এটি সীমা অতিক্রম করে তবে এটি প্রেম হলেও এর বেদনাদায়ক । ।।।

তারপরও ,
ভালবাসা অবিরাম ।।।

০৭ ই অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৭

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: @প্রতিটি জিনিস ঠিক আছে, এটি সীমা অতিক্রম না করা অবধি।
যদি এটি সীমা অতিক্রম করে তবে এটি প্রেম হলেও এর বেদনাদায়ক
--- হুম ঠিক, তবে কিছু ভালোবাসা সবসময়ই মিষ্টি 8-|

ভাইয়ার জন্য অনেক শুভকামনা 8-|

১৩| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩১

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন: তোমার প্রতি নানী হিসাবে আমার ভালুবাসা কিন্তু আমার কম না !! #:-S :)

০৭ ই অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:০৬

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: আরেহ! আজ সূর্য কোন দিকে উঠেছে :|| এ আমি কাকে দেখছি, হুম আমার নাতির মতই তো লাগছে :P

অনেকদিন নতুন কোন লেখা পাইনা আপনার । বিয়ে শাদী করে বিজি হয়ে গিয়েছেন বুঝি । তবে অনেকদিন পর মন্তব্যে পেয়ে ভালো লাগলো 8-|

১৪| ১৩ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




ভা্লোবাসা: - ১,৬০০-২,০০০ স্কয়ার ফিটের চার বেড চার বাথ সহ ডাইনিং ড্রইং, কিচেন ও কেবিনেট। ফুল ফ্লোর টাইলস/মার্বেল। আর বাসাটি হবে দক্ষিণমুখী, আর অবস্যই অবস্যই তৃতীয় তলায়, নিচে কার পার্কিং সুবিধা, সিকিউরিটি ও সিসি ক্যামেরা সহ ও ২৪ ঘন্টা নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস পানি বিদ্যুৎ ও জেনারেটর সাপোর্ট। প্রসস্থ সিড়ি। ছাদে ছেলেমেয়েদের খেলার জন্য ব্যাবস্থা ও পারিবারিক অনুষ্টানের জন্য উন্মুক্ত ছাদ। - আর কিছু বাদ পড়লো কি?

২১ শে অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:২১

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: আসল বিষয়ের কথাই তো বাদ পড়ে গেলো ভাইয়া, একটা ভালো বাড়ীওয়ালা যে কিনা রাত ১১ টায় গেটে তালা মেরে দিবেনা আর ভালো দারোয়ান যাকে যে কোন কাজের জন্য হাসিমুখে পাওয়া যাবে :D

১৫| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:১৫

নীল আকাশ বলেছেন: সুপ্রিয় কথার ফুলঝুরি,
শুভ জন্মদিন, ইনসাল্লাহ আপনার সামনের দিনগুলিতে আল্লাহ রাব্বুল আলামীন অনেক অনেক রহমত দান করবেন।
খ্রীষ্টিয় এই জন্মদিন পালনের নিয়মটাকে আমি ব্যক্তিগত ভাবে পছন্দ করিনা। ইসলামে বেশ কঠোর ভাবে এই বিষয়ে নিষেধ করার আছে। এটা যদি না থাকতো, তাহলে আজকে আমি অবশ্যই আপনার জন্মদিন উপলক্ষে ‘কথার ফুলঝুরিকে শুভ জন্মদিন’ জানিয়ে একটা পোস্ট দিতাম।

ধন্যবাদ এবং অফুরন্ত শুভ কামনা রইল।

২৬ শে অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৩

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: আমি কিন্তু জানতাম যে ভাইয়া ঠিক এসে আমাকে শুভ জন্মদিন জানিয়ে যাবে । দুইবার এসে খোঁজও নিয়ে গিয়েছিলাম । হাহা :P
যাই হোক, অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া এই বোনটির বিশেষ দিনটিকে মনে রেখে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য । !:#P

আর ব্লগে পোস্ট না দিয়ে ভালোই হয়েছে, শাই ফিল করতাম তাহলে হাহা :P

আপনার জন্যও অনেক শুভকামনা ভাইয়া ।

(একটি নতুন গল্প দেখেছিলাম আপনার কয়েকদিন আগে , বাট যখনই আপনি কিছু লিখেন আমার ব্যস্ততা তখন অনেক বেশি :(( । তবে পড়বো আজ অথবা কাল )

১৬| ০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৫৯

কাওসার চৌধুরী বলেছেন:



ব্লগে পাই না বললে ভুল হবে, আপনি একেবারেই আসেন না। মিস করি আপনার লেখাগুলো আর কমেন্ট। আশা করি, ভালো আছেন। এবার নিয়মিত লিখুন সসামুতে। সুন্দর হোক জীবনের বাকি দিনগুলো।।

০১ লা নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৫

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: কেমন আছেন ভাইয়া ? অনেকদিন পর আপনাকে মন্তব্যে পেয়ে খুবই আনন্দিত :-B
দুইদিন আগেই ভাবছিলাম আপনার কথা । ব্লগ উন্মুক্ত হল অনেককে দেখতে পাচ্ছি কিন্তু ভাইয়াকে পাচ্ছিনা । যাক অবশেষে পেয়ে গেলাম আজ আপনাকে নিজের ব্লগেই ।

আর আপনার গল্প মিস করছি খুব ভাইয়া । অতিসত্বর নতুন গল্প চাই :D

আমি মাঝে দু একটি লেখা দিয়েছি । সময় হয়ে উঠেনা তেমন । তবে চেষ্টা করি রেগুলার হবার, নিজের ভালোলাগা আর আপনাদের ভালোবাসা থেকেই !:#P

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.