নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

“Those who have the privilege to know have the duty to act.”― Albert Einstein

মোস্তফা কামাল পলাশ

"সকলের তরে সকলে আমরা, প্রত্যেকে আমরা পরের তরে"

মোস্তফা কামাল পলাশ › বিস্তারিত পোস্টঃ

কোন কোম্পানির করোনা ভ্যাকসিন কত টাকা ও কোন তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করতে হবে?

১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ ভোর ৪:৩২



কোন কোম্পানির করোনা ভ্যাকসিন কত টাকা ও কোন তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করতে হবে?


১) ফাইজার ও বায়ো এন টেক এর ভ্যাকসিন ২ ডোজ (প্রথম ডোজের ২১ দিন পরে দ্বিতীয় ডোজ দিতে হবে) এর মূল্য ৩৯ আমেরিকান ডলার (আমেরিকান সরকার এই দামে ১০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন ক্রয় এর চুক্তি করেছে ও ৫০ কোটি ভ্যাকসিন দরাদরি এর মাধ্যমে ক্রয়ের সুযোগ রেখেছে। ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন চুক্তি করেছে ৩০ কোটি ডোজ কেনার জন্য যার মূল্য গোপন রেখেছে। জাপান ১২ কোটি, ও কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, চিলি, যুক্তরাজ্য প্রত্যেকে কমপক্ষে ১ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন ক্রয়ের চুক্তি করেছে এই কোম্পানির সাথে)

২) মডার্না এর এর ২ ডোজ ভ্যাকসিন এর মূল্য ৩২ থেকে ৩৭ ডলার। এই ভ্যাকসিন বাসার সাধারণ ফ্রিজে সংরক্ষণ করা যাবে ৩০ দিন ও মাইনাস ১৬ ডিগ্রী তাপমাত্রায় ৬ মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে। আমেরিকা ১০ কোটি, কানাডা ৫ কোটি ৬০ লক্ষ, যুক্তরাজ্য ৫ কোটি, ও সুইজারল্যান্ড ৪৫ লক্ষ ভ্যাকসিন ক্রয়ের চুক্তি করেছে।

৩) অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও আজট্রোজেনাকার এর ভ্যাকসিন ২ ডোজ এর মূল্য ৩ থেকে ৪ ডলার। আমেরিকা ও ইন্ডিয়া প্রত্যেকে ৫০ কোটি, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ৪০ কোটি, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ৩০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন ক্রয়ের চুক্তি করেছে। যুক্তরাজ্য, জাপান, ইন্দোনেশিয়া ও দক্ষিণ আমেরিকার দেশগুলো (ব্রাজিল ব্যতীত) প্রত্যেকে ১০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন ক্রয়ের চুক্তি করেছে।

৪) জনসন এন্ড জনসন এর ভ্যাকসিন হবে ১ ডোজ এর ও যার সম্ভব্য মূল্য ১০ ডলার। এই ভ্যাকসিন সাধারণ ফ্রিজেই সংরক্ষণ করা যাবে। বর্তমানে ৬০ হাজার মানুষের উপর ৩য় পর্যায়ের কার্যকারিতা পরীক্ষা করা হচ্ছে। (ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন ২০ কোটি; আমেরিকা ১০ কোটি, যুক্তরাজ্য ৩ কোটি, ও কানাডা ৩ কোটি ৮০ লক্ষ ডোজ ভ্যাকসিন ক্রয়ের চুক্তি করেছে)।





একমাত্র অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও আজট্রোজেনাকা কোম্পানি ঘোষণা দিয়েছে যে তারা তাদের আবিষ্কৃত করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন থেকে তারো কোন লাভ করবে না। ফাইজার ও মডার্না কোম্পানি তাদের আবিষ্কৃত ভ্যাকসিন শতকরা ৯৫ ভাগ কার্যকর বলে ঘোষণা দিয়েছে। ফাইজার কোম্পানির ভ্যাকসিন ডিসেম্বর মাসের ১০ তারিখের পরে যে কোন দিন বাজারে চলে আসবে। তার ১ সপ্তাহের মধ্যেই মডার্না কোম্পানির ভ্যাকসিনও চলে আসবে। তবে বেশি দামের জন্য ফাইজার ও বায়ো এন্ড টেক এর ভ্যাকসিন এর জন্য তাদের গালি দেওয়া সুযোগ কম কারণ এই কোম্পানি সরকারের কাছ থেকে প্রায় কোন আর্থিক সাহায্য পায় নাই; অন্যান্য কোম্পানি গুলো বিভিন্ন সরকার এর কাছ থেকে শত-শত মিলিয়ন কিংবা বিলিয়ন ডলার আর্থিক সাহায্য পেয়েছে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরির গবেষনার জন্য।



কানাডার চেয়ে গরিব দেশ গুলোর জন্য অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও আজট্রোজেনাকার ভ্যাকসিন এর জন্য অপেক্ষা করা ছাড়া আর কোন উপায় দেখতেছি না। তবে কানাডার চেয়ে উন্নত দেশের সরকার (যেমন বাংলাদেশ সরকার) তাদের দেশের জন গন এর জন্য উপরোক্ত ৪ টি কোম্পানির ভ্যাকসিনই ক্রয় করার যোগ্যতা রাখে।

তথ্য সূত্র: সিএনবিসি সংবাদ মাধ্যম।

Covid vaccine front-runners: How much they cost, who’s bought them and how they’re stored


মন্তব্য ১০ টি রেটিং +৬/-০

মন্তব্য (১০) মন্তব্য লিখুন

১| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ ভোর ৫:৫৯

রাবেয়া রাহীম বলেছেন: যাদের ইতিমধ্যে করোনা পিজিটিভ হয়ে ভালো হয়ে গেছে তাদেরও কি ভ্যাকসিন নিতে হবে ?

আসলে এই ব্যাপারটা জানা নেই তাই জানতে চাওয়া

ধন্যবাদ মুল্যবান তথ্যের জন্য

২| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ ভোর ৬:১৬

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: ভালো তো।

৩| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৭:২৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: @ রাবেয়া রাহীম , ড: বিজন কুমার শীল ( যিনি গনস্বাস্থে ছিলেন ) এর গতকালের একটি লাইভ টকশোতে আপনার প্রশ্নটা করা হয়েছিল। তিনি জানিয়েছেন যে , করোনা হবার পর যাদের শরীরে এন্টিবডি তৈরী হয়ে যায় তারা আর দ্বীতিয়বার করোনায় আক্রান্ত হবে না। তবে কোন মেডিসিন , লো ইমিউন সিস্টেম বা মেডিকেল কন্ডিশনের কারনে অনেকের শরীরে এন্টিবডি তৈরী হয় না, ফলে তাঁদের পুনর্বার করোনায় আক্রান্ত হবার ঝুকি থেকেই যায়। এই কারনেই করোনা থেকে মুক্ত হলে এন্টিবডি টেস্ট করিয়ে নেয়া উচিৎ। সাম্প্রতিক গবেষনায় এমনও দেখা গেছে যে ২০০৩ সালে যাদের সার্স হয়েছিল তাঁদের কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়নি। সার্স এর কারনে যে এন্টিবডি শরীরে তৈরী হয়েছিল , সেটা করোনা ভাইরাসকে প্রতিরোধ করেছে। তাই শরীরে এন্টিবডি থাকলে আসলে আর টিকার দরকার নাই।

টিকা বাজারে আসলে হয়ত এই ইস্যূগুলো নিয়ে আরো ব্যপক আলোচনা হবে।

৪| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৩৭

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:

গরীব দেশগুলো কি কিনতে সক্ষম হবে?

৫| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:০৮

ফয়সাল রকি বলেছেন: আমাদের আর কত দিন অপেক্ষা করতে হতে পারে?

৬| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:১৮

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: ‌আমাদের সিরিয়াল কবে আসবে?

৭| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:১৬

রাজীব নুর বলেছেন: দাম কোনো সমস্যা নাই। লাখ টাকা হলেও বাঁচতে হলে- ভ্যাকসিন লাগবে।

৮| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৩৪

নেওয়াজ আলি বলেছেন: ফাইজারের টিকা ৯৫ ভাগ সফল। সামনে শুভ দিন আসছে

৯| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:৩৪

মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন বলেছেন: দারুণ, আশাজাগানিয়া পোস্ট। ধন্যবাদ ভাইয়া। ভালো থাকবেন।

১০| ২৩ শে নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৭:০৭

সোহানী বলেছেন: ..... আমরা অনেক ধনী। এটা নিয়ে চিন্তার কিছু নাই। যথাসময়ে কিনে ফেলবো............ ;)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.