নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

বিশ্বজোড়া পাঠশালাতে সবাই ছাত্র-ছাত্রী, নিত্য নতুন শিখছি মোরা সদাই দিবা-রাত্রী!

নীল আকাশ

এই ব্লগের সমস্ত লেখা সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। আমার অনুমতি ছাড়া এই ব্লগের লেখা অন্য কোথাও প্রকাশ করা যাবে না।

নীল আকাশ › বিস্তারিত পোস্টঃ

ব্লগে পোস্ট দেয়া বিভিন্ন লেখায় ছবি দেয়ার ব্যাপারে কিছু কথা

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ২:৫৭



[A picture is worth a thousand words - Frederick R. Barnard]
একটা সুন্দর ছবি সহস্র শব্দের বাক্যের চেয়ে বেশি বুঝাতে সক্ষম। আমি প্রথমেই যেই ছবিটা দিয়েছি সেটা দেশের বর্তমানে হাল হকিকত বুঝানোর জন্য সবচেয়ে সুন্দর উদাহরন। যা বুঝাতে চেয়েছি সেটা যদি লিখতে হতো তাহলে কত কিছু লিখতে হতো চিন্তা করুন!

ব্লগের বিভিন্ন বিষয়ভিত্তিক পোস্টে কি ধরনের ছবি দেয়া উচিত সেটা নিয়ে সুনির্দিস্ট কোন নিয়ম ব্লগে দেয়া নেই। তবুও বিভিন্ন ব্লগার তার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার উপর ভিত্তি করে নিজের পছন্দ মতো ছবি প্রায় প্রতিটা লেখাতেই সংযুক্ত করে থাকেন।

ব্লগে যে কোন পোস্টে যেভাবে ছবি যোগ করা যায় সেই দুটি পদ্ধতি হলোঃ
১। নতুন ব্লগ শুরু করার সাথে সাথেই এই অপশন আসবে…………


২। পরবর্তিতে এখান থেকেও ড্রাগ/ড্রপ কিংবা ক্লীক করে ছবি যুক্ত করা যায়……


ব্লগে নতুন কোন পোস্ট লিখতে গেলে সবসময় ছবি সংযুক্ত করার জন্য অনুরোধ করা হয়। দেখা গেছে, ছবি সহ পোস্ট ছবি ছাড়া পোস্টের চেয়ে পাঠক কিংবা ব্লগারদের বেশি দৃষ্টি আকর্ষন করতে পারে। অনেক ক্ষেত্রেই একটা দৃষ্টি নন্দন ছবি পাঠককে সহসাই সেই পোস্টে টেনে নিয়ে আসতে পারে।

ব্লগে ছবি কিভাবে দিতে হয় কিংবা পোস্টের সাথের সর্ম্পকিত ছবি কিভাবে বাছাই করতে হয় সেটা নিয়ে বেশিরভাগ নতুন ব্লগারই কিছুটা হলেও সমস্যার মধ্যে পড়ে যান। এই পোস্টে আমি এই
ব্যাপারে আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে কিছুটা সাহায্য করার চেস্টা করে যাব। আমার অনেকগুলি পোস্টে বিভিন্ন ব্লগার আমি কিভাবে ছবি নির্বাচন করি সেটা জানতে চেয়েছেন। অবশেষে একজন ব্লগারের অনুরোধের ভিত্তিতেই এই পোস্ট লেখা হয়েছে। এই পোস্টটা থেকে কারও যদি সামান্য একটুও উপকার হয় তাহলেও আমার কষ্টটা কাজে লেগেছে বলে ধরে নেব।

প্রথমেই ছবি ঠিক করার ক্ষেত্রে ব্লগের দেয়া নিয়মকানুন দেখে আসা যাক:
আপনার লেখা যদি ছবি সংযুক্ত করতে চান তাহলে ক্যামেরা চিহ্নিত বাটনে ক্লিক করুন। তারপর আপনার প্রয়োজনীয় ছবিগুলোকে (একসাথে সর্বোচ্চ ১০টি ছবি, প্রতিটি ছবির সাইজ সর্বোচ ১০ মেগাবাইট) ড্র্যাগ করে ছবি সংযুক্ত করার স্থানে নিয়ে আসুন।

যে সমস্ত কারনে ব্লগে দেয়া ছবি সম্মানিত মডারেটর যে কোন মুহুর্তে সরিয়ে দিতে পারেনঃ -
৩খ. যদি পোস্ট কিংবা ছবিতে ব্যক্তি আক্রমণ, হয়রানিমূলক, কুৎসা রটনামূলক, অশ্লীলতা, কুরুচিপূর্ণ, আপত্তিকর, গালিগালাজ এবং পর্ণগ্রাফি সম্বলিত বক্তব্য কিংবা বিষয় থাকে।
৩গ. যদি কোন পোস্ট কিংবা ছবিতে অন্য কারো ব্যক্তিস্বার্থ ক্ষুন্নকারী কিংবা একান্ত ব্যক্তিগত তথ্য থাকে।
৩চ. যদি কোন পোস্টে কোন ব্যক্তি বা গ্রুপের ছবি অনুমতি ব্যতিরেকে ব্যবহৃত হয় এবং সে বিষয়ক তথ্য আমাদের কাছে আসে, আমরা ছবি সরিয়ে দিবো বিষয়টির স্থায়ী কোন সমাধান না হওয়া পর্যন্ত।

আমরা প্রায় সবাই ছবি পছন্দ করার সময় ইন্টারনেট থেকে গুগল বা কোন সার্চ ইঞ্জিনের সাহায্যে সাধারনত ছবি পছন্দ করেই থাকি। একান্তই কোন ব্যক্তিগত ছবি দেয়া ছাড়া এটাতে কোন সমস্যা নেই, তবে কপিরাইটেড ছবি না দেয়াই উত্তম! কোন চিত্রশিল্পী যদি তার আঁকা কোন ছবি নিয়ে আপত্তি তুলেন তবে সেটা দ্রুতই মুছে দেয়াই উচিত।

ব্লগে নিজের কিংবা পরিবারের একান্ত কোন ছবি না দেয়াই উচিত। কারন অন্য সবকিছু বাদ দিলেও নিজের স্ত্রী কিংবা অন্যকোন মেয়ে বা মহিলার ছবি দিলে সেটা অবশ্যই আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দেয়া বিধি বিধান, পর্দা প্রথার বিরুদ্ধে চলে যায়।

পোস্টে ছবি নির্বাচনের ব্যাপারে আমি খুব খুঁতখুঁত করি। যে কোন পোস্টে ছবি নির্বাচনের ক্ষেত্রে আমি যেই নিয়মগুলি সবসময় মেনে চলিঃ-
1.লেখার বিষয়ের সাথে অবশ্যই মিল থাকতেই হবে, এটা বাধ্যতামূলক।
2.ছবি হতে হবে বির্মূত বা এর কাছাকাছি থীমের।
3.লেখার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ।
4.কোন মডেলের চেহারা কোনভাবেই দেখা যাবে না।
5.শালীনতা সর্বপর্যায়ে মেনে চলা হয়। পোস্টে দেয়া কোন ছবি নিয়ে যদি কেউ আপত্তি তুলে সেটা ভীষন লজ্জাজনক ব্যাপার।
6.অনেক লেখায় আমি পাঠকদেরকে সুনির্দিষ্ট মেসেজ দিতে চাই। ছবি যেন আমার হিডেন মেসেজ পাঠকের কাছ সহজেই পৌছে দেয়।
7.অনেক গল্পেই আমি কিছুটা সিম্বোলিক ছবি ব্যবহার করি, যেটা পাঠককে লেখাটা পড়া শুরু করার আগেই পাঠককে ভাবতে শুরু করায় কি হতে পারে এই লেখাটায়।

আমার লেখায় ছবি নির্বাচন সবসময়ই খুব গুরুত্বপূর্ণ। আর তাই ছবি পছন্দ করার ব্যাপারে আমি যথেষ্ঠ সময় নেই। হয়ত লেখা হয়ে গেছে অনেক আগেই কিন্তু ঠিক মতো ছবি পছন্দ হচ্ছে না দেখে পোস্টই দিচ্ছি না। লেখার সাথে সামঞ্জস্যতা না থাকলে ছবি দেয়ার কোন মানেই হয় না।


উদাহরন হিসেবে আমার পোস্ট করা একটা কবিতা “পূর্ণতা” এর কথাই ধরা যাক। এই কবিতার জন্য উপযুক্ত ছবি পছন্দ করতে আমার প্রায় দশদিনের উপর সময় লেগেছিল। এই ছবিতে পথের শেষে একটা উজ্জ্বল সূর্য দেখা যাচ্ছে। এটাই আমাদের লক্ষ্য আর এর কাছে পৌছানোর জন্যই আমরা পথ থেকে পথে ছুটে বেড়াই সারাজীবন, শুধুই পূর্ণতা অর্জনের জন্য।

খুব সুন্দর একটা গল্প লিখলেন, চরিত্র নির্মাণও খুবই চমৎকার হলো। এখন কি ধরনের ছবি পছন্দ করবেন? এসব ব্যাপারে আমি সাধারনত বিমূর্ত টাইপের ছবি দিতে ভালবাসি। আপনি এমন একটা একটা ছবি পছন্দ করুন যেটা হতে পারে-
-কোন শিল্পীর হাতে আঁকা / তোলা,
-কিংবা একটা মেয়ের সাইড ভিউ কিংবা ব্যাকসাইড ভিউ,
-কিংবা গল্পের থীমের সাথে মানানসই পটভূমিতে মেয়েটা / ছেলেটা,

তখন একে গল্পের নায়ক/নায়িকা ভেবে ছেলে/মেয়েটার না দেখা চেহারাটা দেখার জন্য একটা অনুভূতি পাঠকের হৃদয়ে সৃষ্টি হবে। চেহারা যখন দেখা যাবে না, তখন পাঠক নিজ থেকেই একটা চেহারা ভেবে নেবে। অনেক সময় দেখা যায় ব্লগাররা কোন দেশি বা বিদেশি নায়িকা/তারকার চেহারা সহ ছবি ব্যবহার করেন। এসব ক্ষেত্রে এই ধরনের ছবি ব্যবহার করলে লেখাটার চাইতে তারকাই বড় হয়ে যায়। অথচ আপনি এত কষ্ট করে এই লেখাটা লিখেছেন। এই সবক্ষেত্রে আপনার লেখার চাইতেও তখন ছবির প্রতি আকর্ষন বেশি হয় পাঠকের!

কোন ব্লগার যেই ছবি দিবেন, সেটার অনেক সময় ব্যাকগ্রাউন্ড থীমও অনেক কিছু স্পষ্ট করে তুলতে পারে। ফুটিয়ে তুলতে পারে সেই লেখার উদ্দেশ্য কিংবা হিডেন মেসেজ।


উদাহরন স্বরূপ আমার ভালোবাসার মরণ গল্পের ছবির কথাই ধরা যাক। শ্রদ্ধেয় ম.হাসান ভাই ঠিকই সেটা বুঝতে পেরেছিলেন। “ছবিতে চোখের জলে মনে হল আবছাভাবে মানুষের একটি মূর্তির বিম্ব দেখছি। জুম করে ও পরিষ্কার বুঝতে পারলাম না। এটা কি আমার চোখের দেখার ভুল? না কি আসলে কিছু আছে? চোখের উপরে আকাশ এর উপস্থিতি কি জীবনের বিশালতা বোঝানোর জন্য ব্যবহার করেছেন নাকি অন্য কোন অর্থ আছে?”। আমি উনার প্রশ্নের উত্তরে জানিয়েছিলামঃ “ছবিটা সিম্বোলিক। আপনি তো জানেনই আমি ছবির ব্যাপারে কত খুত খুত করি। এখানে ব্যাকগ্রাউন্ডে আকাশ দিয়ে হৃদয়ের ব্যাপ্তি বা বিশালতা বুঝানো হয়েছে। বুঝানো হয়েছে কত বড় আবেগ আর ভালবাসা বুকের ভিতর পাথর চাপা দিলে এভাবে চোখ ফেটে নোনা জল বের হয়ে আসে আর তৈরি করে এত বড় বিরহের সমুদ্র”।

পারতপক্ষে ব্লগে অন্য কোন ব্লগার যদি কোন ছবি ব্যবহার করেন সেটা এড়িয়ে যাবার চেস্টা করবেন। খুব কাছাকাছি সময়ে দুইটা পোস্ট হলে বড়ই দৃষ্টিকটু লাগে।

আরেকটা বিষয় না বিষয় না বললেই নয়, অনেক সময় নতুন ব্লগারদের জানা না থাকার কারনে কিংবা পুরাতন ব্লগারদের অনেকেই ভুল করে একই পোস্টে একের অধিক ছবি পরপর (ছবির মাঝে কোন ফাঁক না রেখে) পোস্টে দিয়ে থাকেন। এটা খুবই বিরক্ত এবং বিব্রতকর। কারন মাত্র একটা পোস্টই তখন ব্লগে প্রথম পাতা কিংবা পরের পাতায় প্রায় পুরো পৃষ্ঠার জায়াগাই দখল করে রাখে। প্রচন্ড দৃষ্টিকটু এই ভুল থেকে দূরে থাকার জন্য সবাইকেই অনুরোধ দিয়ে গেলাম।

আমি উপরে বিমূর্ত ছবি দেয়ার ব্যাপারে লিখেছি। এখন বিমূর্ত বলতে কি বুঝায় সেটা কিছুটা ব্যাখ্যা দেবার চেস্টা করবঃ-

বিমূর্ততা একটি ছবির মাঝে কল্পনাপ্রসূত যে চিত্রায়ন তার বাস্তবতার দিকে নির্দেশ করে। এই নির্দেশনা সামান্য, আংশিক বা সম্পূর্ণ হতে পারে। বিমূর্ততার অস্তিত্ব চলমান থাকে। ঊনবিংশ শতাব্দীর মাঝামাঝি সময়ের দিকে বিমূর্ত চিত্রকলার সূচনা। বিংশ শতাব্দীর প্রথম দশকে এই শিল্পকলায় ব্যাপক পরিবর্তন আসে। বিমূর্ত চিত্রকলাতেও উৎকর্ষের ছোঁয়া লাগে। বিমূর্ত চিত্রকর্ম কোনো সুনির্দিষ্ট অর্থ বহন করে না। প্রকৃতি থেকে বেছে নেওয়া একটি উপাদান/দৃশ্য শৈল্পিক উপস্থাপনের কারণে হয়ে উঠতে পারে একটি অনবদ্য চিত্রকর্ম। কয়েক ধরনের বিমূর্ত চিত্রকর্মের মধ্য গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ‘নন-অবজেকটিভ’, ‘কনসেপচুয়াল’, ‘এক্সপেরিমেন্টাল’ ইত্যাদি। বিমূর্ত চিত্র্রকর্ম অর্থের চেয়ে তা দর্শকের মনে কি বা কতটুকু প্রভাব ফেলল তা বেশি গুরুত্বপূর্ণ। বিমূর্ত চিত্রকলাকে কোনো নির্দিষ্ট সংজ্ঞার ছাঁচে ফেলা যায় না। আমার বেশ কিছু লেখাতেই আমি এই ধরনের ছবি ব্যবহার করেছি।

ব্লগে ছবি দেয়ার ব্যাপারে আমার বেশ পছন্দের ব্লগার হলেন কাজী ফাতেমা এবং স্বপ্নের শঙ্খচিল। এদের মধ্যে দ্বিতীয়জন সবসময়ই আমাকে মুগ্ধ করেন তার দুর্দান্ত প্রতিটা ছবি দিয়ে। তবে কাজী ফাতেমা আপুর ছবিগুলিও খুবই সুন্দর হয়।

সবশেষে ব্লগারদের জন্য আসল এবং কাজের জিনিস দিয়ে দিলাম। বেশ কিছু ফ্রী স্টক ফটো সাইটস। যদি আপনি ছবি ব্যবহার করে থাকেন, তবে অবশ্যই উচ্চ মানের ছবি দেয়ার চেষ্টা করবেন। ঘোলাটে ধরনের ছবি ব্যবহার করা এড়িয়ে চলুন। ভালো একটি ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলুন অথবা বিনামূল্যে ভালো মানের ছবি পেতে এই সাইটগুলোর যেকোন একটিকে বিবেচনা করতে পারেন। তবে আপনারা অনলাইনে সার্চ দিলে আরও ভালো কোন সাইট খুঁজে পাবেন।
https://pixabay.com/
https://unsplash.com/
http://compfight.com/
https://www.publicdomainpictures.net/
https://www.pikwizard.com/
https://www.alegriphotos.com/
https://www.dreamstime.com/free-images_pg1
https://littlevisuals.co/
https://deathtothestockphoto.com/join/
https://morguefile.com/
http://www.freedigitalphotos.net/
http://photopin.com/
https://commons.wikimedia.org/
https://www.stockphotosforfree.com/
https://freerangestock.com/
http://www.rgbstock.com/
http://imagefinder.co/
http://www.freephotobank.org/
https://freemediagoo.com


সৌন্দর্য্য ব্যাপারটা পুরোপুরি আপেক্ষিক। একটা জিনিস কারো কাছে হয়তো সুন্দর আবার কারো কাছে হয়তো সেটা ততটা সুন্দর না। সুতরাং আপনার লেখায় ছবি দেয়ার সময় কোন বিশেষ বিষয়ের ছবি কিভাবে উপস্থাপন করলে, সেটা দেখতে ভালো লাগবে এবং পড়ার সময় পাঠকের ‘চোখের উপর অত্যাচার’ মনে হবে না সেটা নির্ধারন করার দায়িত্ব কিন্তু আপনার!

আমি এই লেখাটা একদম নিজের মতো করে লিখেছি। জানি না কেমন লিখেছি! তাছাড়া আমি মনে করি এই ব্যাপারে ব্লগের শ্রদ্ধেয় অন্যান্য ব্লগারদের চিন্তাভাবনাও জানা দরকার। ব্লগে অনেক ব্লগারই আছেন যারা এই ব্যাপারে আরও চমৎকার ধারনা এবং বুদ্ধি দিতে পারবেন। আমি ব্লগের সবাই’কে এই পোস্টে মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহন করার জন্য বিনীত অনুরোধ রেখেই এখানেই শেষ করছি।


উৎসর্গঃ ব্লগার ইসিয়াক। উনার আগ্রহের প্রেক্ষিতেই এই লেখাটা লিখেছি।

সবাইকে ধন্যবাদ ও শুভকামনা রইল।
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত @ নীল আকাশ, অক্টোবর ২০১৯

মন্তব্য ৭৪ টি রেটিং +১২/-০

মন্তব্য (৭৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: দারুন সুন্দর একটা পোস্ট

আচ্ছা আমি যে ছবিগুলো দেই সেগুলো কী দৃষ্টিকটু লাগে কখনো ?

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:০০

নীল আকাশ বলেছেন: ১ম মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। আমি কিন্তু আপনার কিছু কিছু পোস্টে প্রথম আপনার ছবি নিয়েই কথা বলি আগে!!
কি যে দারুন লাগে! মাঝে মাঝে মুগ্ধ হয়ে শুধু ছবিই দেখি।

২| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: গুড পোষ্ট। অতি দরকারী।
নতুনদের জন্য তো খুবই কাজের, পুরানোরাও পড়তে পারেন.....ভালো টিপস পাবেন।

এমন একটা বিষয় তুলে ধরার জন্য ধন্যবাদ আপনাকে। :)

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৪

নীল আকাশ বলেছেন: ব্লগার ইসিয়াক বলেছিল এই বিষয় নিয়ে পোস্ট দিতে। তাই লিখলাম।

৩| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: @কাজী ফাতেমা ছবি আচ্ছা আমি যে ছবিগুলো দেই সেগুলো কী দৃষ্টিকটু লাগে কখনো? মাঝে-মধ্যে। যখন আপনি প্রচুর ফুটু দেন, আর তার মধ্যে অনেকগুলো প্রায় একই ধরনের ফুটু থাকে। :)

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৩

নীল আকাশ বলেছেন: কাজী ফাতেমা আপুর পোস্টের ছবিগুলি কিন্তু আসলেো দারুন হয়। আমিও নিজে এর সাক্ষী।

৪| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি বলেছেন যে, পোষ্টে নারীর ছবি দিলে, উহা আল্লাহের বিধানের বাহিরে চলে যায়; বেগম জিয়া ও শেখ হাসিনার উপর লেখা পোষ্টে ছবি কি বোরখা পরিহিত অবস্হায় দিতে হবে?

ব্লগ এসব অপদার্থ ভাবনা প্রচারের যায়গা নয়।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:১৭

নীল আকাশ বলেছেন: হযরত উম্মে সালামা (উম্মুল মু’মিনীন) রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা হতে বর্ণিতঃ আমি এবং মায়মুনা রাদ্বিয়াল্লাহু তা’আলা আনহা রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর নিকট উপস্থিত ছিলাম। ইতিমধ্যে অন্ধ সাহাবী হযরত ইবনে উম্মে মাকতুম সেখানে আসতে লাগলেন। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন “তোমরা তার থেকে পর্দা করো, আড়ালে চলে যাও।” আমি বললাম, এয়া রাসূলাল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইকা ওয়াসাল্লাম, তিনি তো অন্ধ, আমাদেরকে দেখতে পাচ্ছেন না। তখন রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন- তোমরাও কি অন্ধ? তোমরা কি তাকে দেখতে পাচ্ছনা?” [আবূ দাঊদ শরীফঃ ২/৫৬৮]

আল্লাহ রাব্বুল আলামীন বলেছেন “যারাই আমার আয়াতসমূকে অবজ্ঞা করবে, আমি তাদেরকে জাহান্নামের আগুনে নিক্ষেপ করবো। তাদের চামড়াগুলো যখন জ্বলেপুড়ে যাবে, তখন আমি সেখানে নতুন চামড়া দেব, যাতে তারা সে আযাব পূর্ণভাবে আস্বাদন করতে থাকে। নিশ্চয়ই আল্লাহ মহাপরাক্রমশালী, মহাজ্ঞানী। [সূরাতুন নিসা: ৫৬ নম্বর আয়াত]

আপনার মতো এত বড় নির্বোধের সাথে এই বিষয়ে আমি আর কোন তর্ক করবো না।

৫| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হ্যহ হ্যহ হাহাহাহাহাহাাহ চোখে চশমা পরিয়েন যে

হ্যহ হ্যহ হাহাহাহাহাহাাহ চোখে চশমা পরিয়েন যে

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৬

নীল আকাশ বলেছেন: হাসতে হাসতে আমার দম বন্ধ হবার উপক্রম!!!!

৬| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আরেকজন আইছে মাতব্বরি ফলাইতে এহ

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫২

নীল আকাশ বলেছেন: রাম ছাগলরা ৮০ বছর বাঁচলেও রাম ছাগলই থাকে।

৭| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


@কাজী ফাতেমা ছবি , "আরেকজন আইছে মাতব্বরি ফলাইতে এহ "

-গতকাল আপনার তথাকথিত হাউকাউ কবিতার লাইন বদলাতে হয়েেছে মাতব্বরির কারণে, ভুলে যাইয়েন না।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪২

নীল আকাশ বলেছেন: পোস্টের নামে যে বালছাল লেখেন পড়লে তো সবই ডাস্টবিনে ফেলে দিতে ইচ্ছে করে।

৮| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৫

বিজন রয় বলেছেন: বাহ! দারুন পোস্ট।
এখানে আপনার উল্লেখকৃত অনেক বিষয়ের সাথে আমি একমত এবং তা পালন করার চেষ্টা করি।

ব্লগ নিয়ে এমন কার্যকরী পোস্ট অনেক দিন পর পেলাম।

অনেক অনেক ধন্যবাদ।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৮

নীল আকাশ বলেছেন: দাদা,
আমি সবার জন্যই লিখি। ব্লগে পোস্ট দেয়া নিয়ে সবাইকে কিছুটা হলেও নিয়ম কানুন জানানো দরকার। যে যার মতো পোস্ট দিবে সেটা তো হতে পারে না।
ধন্যবাদ।

৯| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: #চাঁদ ভাই আপনার সাথে তর্কে যাই না । আপনার মত আমি এত জ্ঞানী না
বদলাতে হয়েছে কারণ কবিতার ম্যাসজটা বুঝাতে পারিনি। ফুলঝুরি পা ঠিক বুঝেছিলো শেষে। জিএস ভাইয়ার কথা বদলাইছি ।


#নীলাকাশ ভাইয়া চাঁদগাজীর মন্তব্যে লিইখ্যা দেন চিল্লাইয়া মার্কেট পাওন যাইতো না হাহাহাহাহাহ

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:২৭

নীল আকাশ বলেছেন:

১০| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:০৭

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: আমি এক বুদ্ধিজীবীকে চিনি, যে পিঁয়াজ নিয়া পোস্ট লিখে কিন্তু ডাবের ছবি দেয়।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:১৯

নীল আকাশ বলেছেন: এর মাথায় ডাবের মতো ফাকা জায়গা থাকলে আর কিসের ছবি দেবে বলুন?
মন্ডল ভাই পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

১১| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:১৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


@কাজী ফাতেমা ছবি ,

আপনার পদ্য অবশ্যই কবিতা হয় না; আমার ধারণা, আপনার কবিতায় যারা মন্তব্য করেন, তাঁরা আপনার কবিতা পড়েন না; ফুলঝরি ও আহমেদ জি এস'এর চোখে পড়েছিলো আমার মন্তব্য, সেখানে থেকে উনারা আপনার পদ্যের বিশ্রী সেক্স লাইনটা নিয়ে কথা বলেছিলেন; নিজের এলাকায় থাকুন, আমার মন্তব্য নিয়ে কথা বলার মতো মগজ আপনার নেই।

১২| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:২৭

চাঁদগাজী বলেছেন:

আমার ৪ নং মন্তব্যের উত্তরে আপনি হাদিস, সুরা ইত্যাদি দিয়েছেন।

ব্লগে নারীর ছবি দেয়ার উপর কোন হাদিস থাকতে পারে না, কোন সুরা থাকতে পারে না; এগুলো আপনার অপব্যাখ্যা; আপানরা ব্লগিংকে জংগীদের আস্তানা বানানোর চেষ্টা করছেন।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৩২

নীল আকাশ বলেছেন: আমি উপরের মন্তব্যে কি বুঝিয়েছি সেটা বুঝার মতো জ্ঞানবুদ্ধি থাকলে আবার এখানে এসে হাম্বা হাম্বা করতেন না।

১৩| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:২৮

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: Good morning

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪২

নীল আকাশ বলেছেন: আমার এখানে এখন অপরাহ্ন। আর তাই শুভ অপরাহ্ন প্রিয় ভাই।
লেখাটা নিয়ে কিছু বলবেন না???

১৪| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৫

জোছনাস্নাত রাত্রি বলেছেন: একটা নির্বোধ আপনার পোস্টে এসে সবসময় আজে বাজে কথা বলে কেন?

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৩০

নীল আকাশ বলেছেন: সারমেয়দের লেজ আপনি যতই টেনে সোজা করে দিবেন, ছেড়ে দিলেই সেটা কুন্ডলাকৃতির হয়ে যাবে।

১৫| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:২৭

ইসিয়াক বলেছেন: প্রিয় নীল আকাশ ভাই
অশেষ কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা জানাই ।
আপনার এই পোষ্টটি আমার জন্য এক অনন্য উপহার ।
আমার আগ্রহে আপনি আপনার মুল্যবান সময় ব্যয় করে এত সুন্দর [ ব্লগে পোস্ট দেয়া বিভিন্ন লেখায় ছবি দেয়া সম্পর্কিত]একটি দিক নির্দেশনা মুলক পোস্ট দেয়াতে আমার অনেক উপকার হলো।
শুভকামনা ও দোয়া রইলো।
আপনার আগামী দিন ভালো কাটুক এই কামনা করি।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:১৫

নীল আকাশ বলেছেন: আমি এমনিতেই ব্লগে সবার জন্য অনেক বিষয় নিয়ে লিখি। আপনি যখন জানতে চাইলেন, তখন মনে হলো মন্তব্যে না লিখে একবারে একটা পোস্ট দিয়ে দেই। আপনার মতো অনেকেই আমার কাছে জানতে চেয়েছে।
আপনার জন্য পোস্ট, আপনি খুশি হয়েছেন। কাজটা সার্থক।
ধন্যবাদ এবং শুভরাত্রী।

১৬| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


জোছনাস্নাত রাত্রি বলেছেন, " একটা নির্বোধ আপনার পোস্টে এসে সবসময় আজে বাজে কথা বলে কেন? "

-লেখক লিখেছেন যে, পোষ্টে মহিলার ছবি দিলে, আল্লাহের পর্দা প্রথার বিপক্ষে হবে; এই দেশ এখনো আফগানিস্তান হয়নি, ঠিক আছে?

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৮:০২

নীল আকাশ বলেছেন: আপনার মতো ধর্মীয় জ্ঞানশূণ্য আহাম্মক ব্যক্তির সাথে কথা বলা কিংবা উত্তর দেয়ার ব্যাপারে উনার কোন আগ্রহ নেই।
আলিফ বা তা ছা কি জানেন?

১৭| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৯

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: বিমূর্ততা একটা ছবির মাঝে কল্পনাপ্রসূত যে চিত্রায়ন তার বাস্তবতার দিক নির্দেশ করে। এ সম্পর্কে আরো অনেক কথাই লিখেছেন। সহমত আপনার সঙ্গে। তোর সাথে কথা বলতে চাই নামকরণের ক্ষেত্রেও একটি যথাযথ শিরোনাম ছবির মতোই পোস্টের যথাযথ বিষয়বস্তু উপস্থাপন করে। উল্লেখ্য বহু পোস্টেই ছবির মতই শিরোনামের সঙ্গে বিষয়বস্তুর কোন মিল পাওয়া যায় না। কাজেই এমন পোস্ট আমাদের মত অনেকেরই শিরোনাম ও ছবি নির্বাচনে কিছুটা চিন্তা করতে বাধ্য করবে বলে মনে হয়।
পোস্টে ভালোলাগা।
শুভকামনা প্রিয় নীল আকাশ ভাইকে।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:৫৬

নীল আকাশ বলেছেন: ভাই,
আপনার মন্তব্যের পুরো বক্তব্য ঠিক বুঝা যাচ্ছে না। আমি চেস্টা করেছি সবাই'কে পোস্টের বিষয়বস্তু এবং এর সাথে যৌক্তিক ছবি দেয়ার পদ্ধতি জানানোর। ব্লগে অনেকেই পোস্টে অপ্রয়োজনীয় ছবি পোস্ট করেন যেটা একদমই ঠিক না।
ভালো থাকুন ভাই, সব সময়, শুভ সকাল।
ধন্যবাদ।

১৮| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:

নীল আকাশ ভাই, চলুন মোহাম্মদপুর জেনেভা ক্যাম্পে ফালুদা খেয়ে আসি।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫০

নীল আকাশ বলেছেন: বড় ভাই,
ইনসাল্লাহ আল্লাহ রাব্বুল আলামীন যদি আমার রিজিকে রাখে, নিশ্চয়ই আপনার সাথেহ একদিন খেতে যাব।
ব্লগে অনেকেই না জেনে কিংবা ইচ্ছে করেই আজে বাজে অথবা অপ্রয়োজনীয় ছবি দেয়া। এটার ভুল ধরিয়ে দেবার জন্যই এই লেখার চেস্টা করেছি।
পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

১৯| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৬

ডার্ক ম্যান বলেছেন: শুধু ছবি দিলে আল্লার বিধান লঙ্ঘন হয়???
মেয়েদের জন্য পদে পদে আল্লার বিধান রয়েছে ।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:২৪

নীল আকাশ বলেছেন: ভাই,
না জেনে পর্দা প্রথা নিয়ে আমরা অনেক কথাই বলি। পর্দা শুধু মেয়েদের নয়, ছেলেদের জন্যও প্রযোজ্য।
আমি এই লেখায় মেয়েদের সরাসরি ছবি দিতে আমি মানা করেছি কারণ হাদিসে আছে, ভুল করে কোন মেয়ের চেহারা দিকে একবার তাকানো যায় কিন্তু ২য় বার হলে সেটা গুনাহ হবে। সবাই কে শুধু শুধু গুনাহের ভাগী হওয়া থেকে বাচানোর জন্যই এমনটা লিখেছি।

এক আবাল নাস্তিক ব্লগার কথা অর্থ না বুঝেই বাইন মাছের মতো লাফালাফি শুরু করে দিয়েছে। ধর্মের নাম শুনলেই এর চুলকানি শুরু হয়। কবরে যেদিন ঢুকবে সেদিন বুঝবে এই সব নাস্তিকতার ফলাফল কি?

সত্য কথা বলাও ঈমানের অঙ্গ। আমি কখনই সত্য বলা থেকে পিছিয়ে আসবো না।

ধন্যবাদ।

২০| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৮

রাকু হাসান বলেছেন:

নতুন ব্লগারদের জন্য উপকার হবে আমি নতুন তথ্য পেলাম । ইসিয়াক ভাইকে অভিনন্দন । অল্প দিনে ব্লগারদের মনে জায়য়া পাঁকা করে চলেছেন । ওয়েব সাইটগুলো মন্তব্যের ঘরে দিলে সহজে কপি করে সার্চ করতে সুবিধা হবে । উদাহারন<উদাহারণ

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:৫৩

নীল আকাশ বলেছেন: ঠিক আছে রাকু ভাই। কালকে আমি একটা মন্তব্যে সবগুলি ফ্রী সাইটের এড্রেস দিয়ে দেব।
উদাহরণ বানানোও ঠিক করে দেব।
সবার উপকার হয় এই ধরনের পোস্ট আপনি ছাড়া আর কে দেয় বলুন তো? আপনার কাছ থেকেই তো
এই ধরনের পোস্ট দেয়ার কনছেপ্ট পেয়েছি।
শুভ রাত্রী এবং শুভ কামনা রইল।

২১| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৩৫

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: স্যরি স্যরি স্যরি।
বলতে চেয়েছিলাম,
তার সাথে একথা বলতে চাই। কিন্তু উপরে অমন টাইপো হওয়ার জন্যে লজ্জিত....

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:৫৯

নীল আকাশ বলেছেন: অসুবিধা নেই।
টাইপো হয়ে গেলে আবার কপি করে সব ঠিক করে মন্তব্য করবেন এবং আগেরটা ডিলিট করে দিতে বলবেন। এটাই সঠিক পদ্ধতি।
ধন্যবাদ।

২২| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৮:০৭

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া রেফারেন্স ছাড়া অন্যের ছবি দিলে কেইস খেতে পারে মানুষ। এটা যেন জানা থাকে। মানে ডোন্ট কেয়ার স্টাইলে দেওয়া যাবে কিন্তু কেইস খেলে কিচ্ছু করার নাই .......

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:০৬

নীল আকাশ বলেছেন: প্রিয় আপু,
আপনার সাথে আমি একমত। সুনির্দিষ্ট রেফারেন্স থাকলে কোন ছবি সেটা অবশ্যই লিখে দেয়া উচিত।
কমপ্লেইন আসলে ডিলিট করে দেয়ার কথাও আমি বলেছি।
সবার ডোন্ট কেয়ার স্টাইলে দেওয়া নিয়েই তো এই পোস্ট।
শুভ সকাল।

২৩| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: এই রে---
লেখার সাথে আমি সঠিক ছবিটা কিছুতেই দিতে পারি না।
লেখার সাথে কোণ ছবি যাবে সেটা আমি বুঝি না। মাথা আউলায়ে যায়।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৩৭

নীল আকাশ বলেছেন: আমি কিন্তু আপনার সাথে একমত নই। ভাবীকে নিয়ে কিছু ছবি বাদ দিলে আপনি বাস্তব জীবনের নিজের হাতে তোলা ছবিই দেন যেটা লেখার সাথে অনেক সময়ই মিল থাকে।
এর পর থেকে আরও সর্তক থাকবেন ইনসাল্লাহ।

২৪| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:১৪

রাজীব নুর বলেছেন: আমি প্রতিদিন অনেক ছবি তুলি।
তাই লেখার সাথে অন্যের তোলা ছবি ব্যবহার করতে আমার ভালো লাগে না। তাই লেখার সাথে মিল না থাকলেও আমি আমার তোলা ছবি দিয়ে আণন্দ পাই।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:১৮

নীল আকাশ বলেছেন: অবশ্যই নিজের ছবি দিবেন। আপনার লেখার সাথে আপনার ছবি না হলে হবে?
আমরা ফাঁকিবাজ, কষ্ট করে ছবি না তুলে ইনটারনেট থেকে কপি পেস্ট করে দেই।
ভালো থাকবেন প্রিয় ভাই।
ধন্যবাদ এবং শুভ রাত্রী।

২৫| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:০৩

করুণাধারা বলেছেন: প্রথম ছবিটা অসাধারণ! কোথায় পেলেন?

পোস্টটা উপকারী নিঃসন্দেহে। তবে পোস্ট নিয়ে এখন আর কিছু বলতে ইচ্ছা করছে না। আপনার পোষ্টের একটা কথাকে বিকৃত করে আরেকজন পোস্ট দিয়ে দিলেন, এটা দেখে খুবই মেজাজ খারাপ হয়েছে। ইচ্ছে হয়েছিল আমিও একটা সাময়িক পোস্ট দিয়ে ব্যাপারটা খোলাসা করি। কিন্তু পরে আর ইচ্ছা করলো না।

ব্লগে নিজের কিংবা পরিবারের একান্ত কোন ছবি না দেয়াই উচিত। কারন অন্য সবকিছু বাদ দিলেও নিজের স্ত্রী কিংবা অন্যকোন মেয়ে বা মহিলার ছবি দিলে সেটা অবশ্যই আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের দেয়া বিধি বিধান, পর্দা প্রথার বিরুদ্ধে চলে যায়। স্বামী-স্ত্রীর একান্ত ছবি দেবার জায়গা যে ব্লগ নয়, এই কমন সেন্সের ঘাটতি ব্লগে দু-একজনের আছে। অযথা অপ্রাসঙ্গিকভাবে নিজের স্ত্রীর ছবি ব্লগে দেয়া অবশ্যই উচিত নয়। তবে যেকোনো মেয়ে বা মহিলার ছবি যা অন্তর্জালে ঘুরে বেড়াচ্ছে তা ব্লগে দিলে পর্দা প্রথার বিরুদ্ধে কেন যাবে? এই বাক্যটির জন্যই চাঁদগাজী এমন পোস্ট ফেঁদে বসতে পারলেন!!

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:৫৩

নীল আকাশ বলেছেন: আপু,
গতকালকে অনেক বড় একটা প্রতি মন্তব্য করলাম, পোস্ট দিলাম আর দেখি ভিপিএন কেটে গেছে। কেমন লাগে বলুন?

আমার কাছে বিভিন্ন বিষয়ের প্রচুর ছবির কালেকশন আছে। সিচুয়েশন বুঝে ছবি দেই।

ব্লগে একটা নির্বোধ বেকুবের কান্ডকারখানা দেখে আমি সহ সবাই চরম বিরক্ত। অন্য কোন ব্লগে হলে এই চরম বিরক্তিকর প্রাণিটাকে বহু আগেই পশ্চাতদেশে লাথি দিয়ে বের করে দিত। অন্য কোন ব্লগে এটা চান্সও পায়না।
চোখে কম, মাথায় কিছু নেই। এটা নিয়ে সবাই কে আবার উপদেশ বিতরন করে বেড়ায়।

পর নারী এবং পরস্ত্রীদের দিকে ২য় বার তাকানোর ব্যাপারে বিধি নিষেধাজ্ঞা আছে ইসলামে। আমি এটা নিয়ে ব্লগে পোস্ট দিন বিস্তারিত ভাবে।
ভালো থাকুন আপু, সব সময়।

২৬| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:১৬

নতুন বলেছেন: ব্লগ লিখতে হলে সাথে প্রাসাঙ্গিক ছবি যোগ করা উচিত।

a picture is worth a thousand words

ব্লগে সকল ধমের মানুষই আছে, তাই তাদের কে পদ`ার ব্যাপারে জ্ঞান না দিলেও চলে.... :)

ব্লগে সবার জন্য লেখা বিষয়টা সবার কাজে লাগে সেটা ভেবে লিখতে হয়। সাব`জানিন বিষয়ে নিজের ধমের মতামত দেওয়া উচিত না।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:০৪

নীল আকাশ বলেছেন: নতুন ভাই,
সুন্দর একটা মন্তব্য করার এবং ভালো সাজেশ ন দেয়ার জন্য ধন্যবাদ।
কিছুদিন আগেও একজন ব্লগে নিজেদের ব্যক্তিগত/নিজের গার্লফ্রেন্ডের ছবি দিয়েছিল। এইসব বন্ধ কার জন্যই এটা লিখেছি।
ধন্যবাদ।

২৭| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৩৯

মাহের ইসলাম বলেছেন: পোস্টটা উপকারী এবং ভালো লেগেছে।

তবে, এখন ফালুদা খেতে ইচ্ছে করছে। ফালুদার ছবির সাথে দোকানের একটা ঠিকানা নে দেয়াটা কি অন্যায় নয় ?

ভালো থাকবেন।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:৫২

নীল আকাশ বলেছেন: সুন্দর মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। কারও যদি উপকার হয় তাহলেই আমার কষ্টটা কাজে লাগবে।
যখন বুয়েটে পড়তাম তখন এসব খেতে ইচ্ছে করলে পুরান ঢাকায় নিরব কিংবা স্টার হোটেলে চলে যেতাম। জানি না এখন এরা এই সব বানায় নাকি?
শুভ সকাল।

২৮| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:৪৯

সুপারডুপার বলেছেন: ছবি নিয়ে আজকে চাঁদগাজী সাহেব ও 'নীল আকাশ' -এর মধ্যে তর্ক -বিতর্কের হাদিস অনুসারে সমাধান :

নিশ্চয়ই মানুষের মধ্যে ঐ ব্যক্তিকে আল্লাহ পাক কঠিন শাস্তি দেবেন, যে ব্যক্তি প্রাণীর ছবি তোলে বা আঁকে।” (বুখারী শরীফ) রেফঃ মাসিক আল বাইয়্যিনাত

চাঁদগাজী সাহেবের প্রোফাইল পিকচার ট্রাকটরের। কিন্তু নীল আকাশের প্রোফাইল পিকচারে মানুষ বা প্রাণী আছে। তাই হাদিস অনুসারে আল্লাহ পাক নীল আকাশকে কঠিন শাস্তি দেবেন কিন্তু চাঁদগাজী সাহেবকে দেবেন না।

ব্লগে ক্যান যে আজারে ব্যাপার নিয়ে মাঝে মধ্যে ক্যাচাল লাগে 8-|

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৯:৫৮

নীল আকাশ বলেছেন: ভালো কথা বলেছেন আমার প্রোফাইল পিকটাও বদলানো দরকার। ভুল যেই করুক সেটা সবসময়ই ভুল।
ইতিমধ্যেই পরিবর্তন করে ফেলেছি।
নিশ্চয়ই মানুষের মধ্যে ঐ ব্যক্তিকে আল্লাহ পাক কঠিন শাস্তি দেবেন, যে ব্যক্তি প্রাণীর ছবি তোলে বা আঁকে।” (বুখারী শরীফ) রেফঃ মাসিক আল বাইয়্যিনাত যারা পর নারীদের দেখবে তাদের কি হবে সেটাও তো বল্লেন না। ধর্ম পালন করবেন ১০০% ভাগ। ইসলামে আংশিক বলে কিছু নেই।
ধন্যবাদ ।

২৯| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:২৩

বলেছেন: আজকাল কোনটা আসল আর নকল ছবি বুঝা দায়।।।।

মানুষের ছবি দেখে তাকে সনাক্ত করা যায় না তাই ইউরোপ, আমেরিকায়, হাতের ছাপ, চোখের মণির ছাপ এগুলো নেয়া হয়।।। ছবির যুগ শেষ হলো বৈকি।।।।


সবকিছুতেই ভেজাল, ফটো রাজনীতি বন্ধ হোক।।।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১০:০১

নীল আকাশ বলেছেন: লতফ ভাই,
আজকাল কোনটা আসল আর নকল ছবি না বুঝা গেলেও কে নির্বোধ আর কে জ্ঞানপাপী নাস্তিক সেটা বুঝতে কষ্ট হয় না।
এদের কি কি বিষয়ে জ্ঞানের কোন অভাব নেই সেটার লিস্ট দিতে গেলে দিন রাত পার হয়ে যাবে! কিন্তু কোন কিছু দেখে কি কারনে লাফ ঝাপ দিচ্ছে সেটা জিজ্ঞেস করুন? তখন দেখবেন ভাগবে। নিজে কোন বিষয় লিখতে না পারলে কি হবে?
সবাইকে দিন রাত জ্ঞানের ভান্ডার থেকে অবিরত ***** বিতরন করে যান! এদের আসলে ইসলাম ধর্ম নিয়ে বড় ধরনের চুল্কানির রোগ আছে। অনেকটাই সারমেয়দের ঘি হজম করা বিষয়ক!

এইসব ভেজাল ব্লগারদের জন্যই ব্লগের পরিবেশ নষ্ট হয়।
ধন্যবাদ।

৩০| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১০:০৬

মোঃ ইকবাল ২৭ বলেছেন: হুম।ছিলাম অন্য সাইটে, তর্ক বিতর্ক দেখে খুঁজে নিলাম, জানলাম। ভালই লেগেছ, দরকারী পোস্ট সবার কাজে লাগার মতো।মাঝখানের কয়েকটি মন্তব্য/উত্তর গুলো ব্যতীত বাকিটা ভাল হয়েছে।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:০১

নীল আকাশ বলেছেন: আমার ব্লগ বাড়িতে স্বাগতম।
ব্লগে অনেকেই না জেনে কিংবা ইচ্ছে করেই আজে বাজে অথবা অপ্রয়োজনীয় ছবি দেয়া। এটার ভুল ধরিয়ে দেবার জন্যই এই লেখার চেস্টা করেছি।
পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

৩১| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:০২

নীল আকাশ বলেছেন: রাকু ভাইয়ের অনুরোধের প্রেক্ষিতে-
https://pixabay.com/
https://unsplash.com/
http://compfight.com/
https://www.publicdomainpictures.net/
https://www.pikwizard.com/
https://www.alegriphotos.com/
https://www.dreamstime.com/free-images_pg1
https://littlevisuals.co/
https://deathtothestockphoto.com/join/
https://morguefile.com/
http://www.freedigitalphotos.net/
http://photopin.com/
https://commons.wikimedia.org/
https://www.stockphotosforfree.com/
https://freerangestock.com/
http://www.rgbstock.com/
http://imagefinder.co/
http://www.freephotobank.org/
https://freemediagoo.com

৩২| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:৪৪

শায়মা বলেছেন: ২৮. ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:৪৯

সুপারডুপার বলেছেন: ছবি নিয়ে আজকে চাঁদগাজী সাহেব ও 'নীল আকাশ' -এর মধ্যে তর্ক -বিতর্কের হাদিস অনুসারে সমাধান :

নিশ্চয়ই মানুষের মধ্যে ঐ ব্যক্তিকে আল্লাহ পাক কঠিন শাস্তি দেবেন, যে ব্যক্তি প্রাণীর ছবি তোলে বা আঁকে।” (বুখারী শরীফ) রেফঃ মাসিক আল বাইয়্যিনাত

চাঁদগাজী সাহেবের প্রোফাইল পিকচার ট্রাকটরের। কিন্তু নীল আকাশের প্রোফাইল পিকচারে মানুষ বা প্রাণী আছে। তাই হাদিস অনুসারে আল্লাহ পাক নীল আকাশকে কঠিন শাস্তি দেবেন কিন্তু চাঁদগাজী সাহেবকে দেবেন না।

ব্লগে ক্যান যে আজারে ব্যাপার নিয়ে মাঝে মধ্যে ক্যাচাল লাগে



হা হা হা ভাইয়া তুমি আবার আসছো কেচালে আগুন দিতে!
আবার নীলভাইয়াকেই তো ফাসিয়ে দিলে!!!!! #:-S



:P

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৫

নীল আকাশ বলেছেন: ভুল যে কারও হতে পারে। আমিও ভুলের উর্ধে নই। উনি আমাকে ভুল ধরিয়ে দিয়েছেন আমি সাথে সাথেই চেঞ্জ করে দিয়েছি।
একমাত্র আহাম্মক আর গর্ধভরাই নিজেদের ভুল বুঝতে পারে না। আর তাই ছাগলের পাচ নাম্বার শাবকের মতো হুডাই লাফালাফি করে।
ধন্যবাদ।

৩৩| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:৪৯

হাবিব স্যার বলেছেন:
সবাই আছেন, শুধু আমিই নাই......... :|
আসবো ইনশাআল্লাহ অচিরেই। আশা করি ভালো আছেন।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:১০

নীল আকাশ বলেছেন: আপনাকে অনেক মিস করছিলাম।
স্বাগতম ভাই।

৩৪| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:১৭

ইসিয়াক বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া আমি লিঙ্কগুলো সেভ করে রাখলাম।
দোয়া রইলো।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৮

নীল আকাশ বলেছেন: সবাই যেন কপি করে নিতে পারে সেজন্যই আবার আলাদা করে মন্তব্যে দিয়ে দিয়েছি।
শ্রদ্ধেয় রাকু ভাই এই বুদ্ধি দিয়েছেন।
ধন্যবাদ।

৩৫| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:১২

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: আমি কিন্তু আপনার সাথে একমত নই। ভাবীকে নিয়ে কিছু ছবি বাদ দিলে আপনি বাস্তব জীবনের নিজের হাতে তোলা ছবিই দেন যেটা লেখার সাথে অনেক সময়ই মিল থাকে।
এর পর থেকে আরও সর্তক থাকবেন ইনসাল্লাহ।

ধন্যবাদ। আপনাকে। অবশ্যই সর্তক থাকবো ।

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৩

নীল আকাশ বলেছেন: ফিরে এসে আবার মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ।

৩৬| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২১

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: গুড ট্রপিক।

অনেকেই এটা মেনে চলে না।

আমি সাধারণগ আমার তোলা ছবিই ব্যবহার করি। ধন্যবাদ।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:৫০

নীল আকাশ বলেছেন: মাইদুল ভাই,
না জেনে কিংবা অপ্রয়োজনীয় ভাবে অনেকেই আজে বাজে ছবি পোস্টের সাথে দিয়ে দেয়।
ছবির সাথে পোস্টের কি সর্ম্পক থাকতে পারে সেটাই সুন্দর করে লিখে দিয়েছি।
পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

৩৭| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:১১

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: হুম, গুরত্বপূর্ণ বিষয় । আপনার লেখাটি আমাকে কাওসার ভাইয়ার কথা মনে করিয়ে দিলো কারন প্রথম ব্লগে আসার পর উনার কাছে থেকে এমন শিক্ষণীয় গুরত্বপূর্ণ পোস্ট ও মন্তব্য পেয়েছি ।

পোস্ট এর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং যেন প্রথম দেখাতেই যেন পাঠককে আকৃষ্ট করে কিংবা তাঁদের বিরক্তির কারন না হয় বিষয়টি নিয়ে আমিও ভাবি । সাধারণত আমরা গুগল থেকেই ছবি নেই কিন্তু সেখানে বেশীরভাগ ছবিই বাঙ্গালিয়ানা ভাব ছাড়া আই মিন আমি চাই আমার পোস্ট এর ছবিগুলো তে যেন আমাদের সংস্কৃতির একটা ছোঁয়া থাকে । সেক্ষেত্রে ছবি সিলেকশনে আমাকে একটু কষ্ট করতে হয় । যাই হোক ভালো কিছু চাইলে তো কষ্ট করতেই হবে ।

তবে হ্যাঁ, এটা সবারই অনুধাবন করা উচিত যে লেখার পাশাপাশি ছবিও অনেক ভাবার একটি বিষয় ।


০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩১

নীল আকাশ বলেছেন: শুভ অপরাহ্ন,
আপনার মন্তব্য আমি আগেই পড়েছিলাম কিন্তু ব্যস্ততার জন্য উত্তর দিতে দেরি হয়ে গেল।
আচ্ছা আপনার লাস্ট পোস্টের কি শিরোনাম চেঞ্জ করেছেন? অন্য একটা নাম দেখেছিলাম প্রথমে মনে হলো?

আমি ব্লগে নিয়মিতভাবেই এই ধরনের সাহায্যকারী পোস্ট দিয়ে থাকি। আপনি মনে হয় ভুলে গেছেন, কয়েকদিন আগেই ধর্মীয় পোস্ট দেয়ার ব্যাপারে একটা লেখা দিয়েছিলাম।

বেশ কিছুদিন অনিয়মিত থাকার পর আবার তাহলে নিয়মিত হচ্ছেন?

ছবি যে কোন লেখার জন্য প্রেজেন্টেশনে খুব গুরুত্বপূর্ণ একটা স্থান দখল করে থাকে। এই ব্লগে একটা ননসেন্স ডোডো পাখি ছাড়া বাকি সবাই চেস্টা করে ভালো সামঞ্জ্যস পূর্ণ ছবি দেয়ার জন্য। অনেকগুলো লিংক দিয়েছি, এইসব জায়গায় দেখতে পারেন ছবি খুঁজার জন্য।
আমি হাবীব ভাইকে ব্লগে আসতে বলেছিলাম, উনি ব্লগে ফিরত এসেছেন।
শুভ কামনা রইল।

৩৮| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৮

কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: এই ব্লগ সকল শ্রেনীর, সকল ধর্মের ধরনের মানুষের জন্য উন্মুক্ত। কে ধর্ম পালন করবে আর করবে না এটা নিতান্তই একটি ব্যক্তিগত বিষয়। আমাদের অনেকের সমস্যা হচ্ছে আমরা শুধু মাত্র নিজেদের প্রেক্ষাপট চিন্তা করি। আর যে সার্বজনীন চিন্তায় অন্যদের প্রতি চিন্তা থাকে না, ভাবনা থাকে না সেটা সার্বজনীন নয় এবং সেটাকে ত্যাগ করাই শ্রেয়। চমৎকার বিষয়ের উপর একটা পোস্টে অযাচিতভাবে ধর্মকে টেনে আনা খুবই দুঃখজনক এবং হাস্যকর। এটা ভালো কিছুর ইংগিত বহন করে না।

ব্যক্তিগত ছবি ব্লগে না প্রকাশের জন্য ধর্মকে টানার প্রয়োজন নেই ভাই। সব কিছুতে ধর্মকে টানার প্রয়োজন নেই। একজন মানুষ যখন কোন মাধ্যমে ব্যক্তিগত ছবি প্রকাশ করে তখন ধরে নিতে হয় সেই প্লাটফর্মে সবাই তার ঘনিষ্ঠ বন্ধু, যেখান থেকে তার অনিষ্ট হবার কোন সুযোগ নেই অথবা তিনি খুবই বোকা একজন মানুষ যিনি তাঁর আশেপাশের মানুষকে চিনেন না। ফলে উদহারন হিসেবে বলা যায়, আমি যদি আমার বন্ধুর স্ত্রী বা বোনের ছবি দেখে কামনা তাড়িত হই- সেটা আমার শারিরীক সমস্যা নয়, মানসিক সমস্যা নয় বরং সেটা আমার রুচিবোধের সমস্যা। ধর্ম দিয়ে আমি সব কিছু বিচার করব না। কারন আমি মানুষ। অন্য সব সৃষ্টি আর মানুষের মধ্যে পার্থক্য হচ্ছে তার বিবেক, বুদ্ধি এবং আবেগ।

১০ ই অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১১:৩২

নীল আকাশ বলেছেন: জাদিদ ভাই,
আমি বেশ কষ্ট করেই এই লেখাটা লিখেছিলাম। মাত্র কিছুদিন আগেই একট পোস্টে একজন ব্লগার একটা মেয়ের বেশ কিছু ব্যক্তিগত ছবি দিয়ে পোস্ট করেছি। সম্ভবত কোন এক শুক্রবার। আমি রির্পোটও করেছিলাম। একে মানা করতে যেয়েই এক্সট্রা একটা লাইন যোগ করেছিলাম। মাত্র একটা জায়গায় টোন কিছুটা অন্যরকম হয়ে গেছে। কোন জায়গায় সেটাও আমি বুঝতে পেরেছি। একদম আননোন টপিকের উপরে এভাবে লেখা খুব কঠিন। তবে এভাবে আপনি যদি ভুল ধরিয়ে দিতে পারেন তাহলে আমি নিজেও সাবধান হয়ে যাবো। ধন্যবাদ আপনাকে পড়ার এবং সুন্দর একটা মন্তব্য করার জন্য।

এই ধরনের পরবর্তি লেখার সময় আপনার কথাগুলি মাথায় রেখেই লিখবো।
খুব করে ধন্যবাদ নিবেন ভাই।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.