নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ব্লগিং করার মতো জ্ঞান নেই। পড়তে মন চাই কিন্তু নেট অার ফোন কাছে থাকলে সে ইচ্ছে হারিয়ে যাই। আমি খুব অলস। কিন্তু অনলাইনে অক্লান্ত। এটাকে কি বলবেন জানিনা, অনেকে নেশা বলে...

সামিউল ইসলাম বাবু

আত্মনিয়ন্ত্রণ + পরিকল্পনা + পরিশ্রম + মুখ বন্ধ রাখা = সফলতা

সামিউল ইসলাম বাবু › বিস্তারিত পোস্টঃ

লাভজনক ব্যবসাঃ আত্মঘাতী ব্যবসা

০৯ ই মে, ২০২১ রাত ৯:২৬



লাভজনক ব্যবসা এবং আত্মঘাতী ব্যবসা। কথা দুটি বিপরীত হলেও একই ব্যবসার জন্য ব্যবহৃত হচ্ছে।
সেটা কেমন কথা?
হ্যাঁ, আমি ঔষধের ব্যবসার কথা বলছি। যদিও এটা সেবা মূলক, তবে এখানে অনেক অপেন সিক্রেট বিষয় আছে। যার কিছু লিখার চেষ্টা করছি।

ফার্মেসী থেকে অনেক ঔষধ কিনে থাকেন। ধরুন আপনি একটা গ্যাস্টিক এর ঔষধ চাইলেন। এখন আপনাকে যদি ওমিপ্রাজল গ্রুপের "সেকলো ২০" (৬/=MRP)দেয় তবে ১পিস ঔষধে ৫২পয়সা লাভ পাবে। কিন্তু যদি "সেকলোজেন ২০" দেয় আর ৬টাকার পরিবর্তে ৫টাকাও নেয়, তবে লাভ হবে ৪টাকা। রোগী দেখছে তাকে ১টাকা ছাড় দেওয়া হলো। আসলে কি তাই?
তাই, ঔষধের ব্যবসা সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা।

এজিত্থ্রমাইছিন ৫০০ ট্যাবলেটের মূল্য ৩৫ টাকা। আর ৭০/৮০ টাকায় ভ্যাজাল এন্টিবায়োটিক পাওয়া যায় ১ বক্স। এমন অনেক উদাহরণ দিতে পারবো।

এরকম নকল ঔষধ ড্রাগরেজিসটেন্স তৈরী করবে। তাই নয়কি?
এজন্য ঔষধের ব্যবসা সবচেয়ে আত্মঘাতী ব্যবসা।

এখন কথা হলো, গ্যাসটিক জনিত সমস্যায় নরমাল ঔষধ দিলেও ধরে নিলাম সমস্যা নেই। কিন্তু যদি এন্টিবায়োটিক এর ক্ষেত্রে নরমাল বা ভ্যাজাল এন্টিবায়োটিক দেয় তবে কি হবে? এই প্রশ্নটা রইলো পাঠক হিসেবে আপনার কাছে। আর কর্তা ব্যক্তি হিসেবে ঔষধ প্রশাসন মন্ত্রণালয়ের কাছে।

ড্রাগ রেজিসটেন্স নিয়ে সারা বিশ্ব যখন চিন্তিত তখন আমাদের কত্তা ব্যক্তিরা কি করছেন, জান্তে ইচ্ছে হচ্ছে।

মন্তব্য ৪ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৯ ই মে, ২০২১ রাত ১১:৩৫

রাজীব নুর বলেছেন: আমাদের দেশের সরকার এদের বিরুদ্ধে ব্যবসা নিচ্ছে না কেন?

২| ১০ ই মে, ২০২১ রাত ১২:১২

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: এই সব আমাদের গায়ে লাগে না।
আবার আব্বার সডিয়াম কমে যাওয়ার কারণে এটি সেলাইন পুষ করতে হতো। সেটি আনতে হতো মহাখালির কলেরা হাসপাতাল থেকে। দাম সম্ভবতো ৪২ বা ৪৭ টাকা।
আব্বার চিকিৎসা চলছিলো ইউনাইডেট হাসপাতালে।মহাখালির ওদেরকাছে জানতে চাইলাম এইটা বেসরকারি হাসপাতালে নাই কেন?
বললো ইউনাইডেট হাসপাতালে নাকি এক রোগির কাছে এইটার দাম রেখেছিলো ১০ হাজার টাকা। এরপর থেকে আর কোনো বেসরকারি হাসপাতালে দেয় না। ডাক্তারের পেসক্রিপশন থাকলে রোগির লোকেরা এসে নিয়ে যেতে পারে।
সত্যি মিথ্যা জানা নাই।

৩| ১০ ই মে, ২০২১ রাত ১২:২৪

নতুন বলেছেন: মানুষের ভেতরে মানবতা বোধ ফিরিয়ে আনতে হবে। তখন ভালো জিনিসের মাঝে খারাপটা টেনে আনবেনা।

৪| ১০ ই মে, ২০২১ বিকাল ৩:১১

মরুর ধুলি বলেছেন: আমরা খুবই অমানবিক।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.