নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

মরুভূমির জলদস্যু

মরুভূমির জলদস্যু

মরুভূমির জলদস্যুর বাগানে নিমন্ত্রণ আপনাকে।

মরুভূমির জলদস্যু › বিস্তারিত পোস্টঃ

পাক-পাখালি - ১৭ : গাংচিল

১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ দুপুর ১২:৪২



মৃত্যু উজাগর – বাঁকা চাঁদ, শূন্য মাঠ, শিশিরের ঘ্রাণ -
কখন মরণ আসে কে বা জানে – কালীদহে কখন যে ঝড়
কমলের নাম ভাঙে – ছিঁড়ে ফেলে গাংচিল শালিকের প্রাণ
জানি নাকো;- তবু যেন মরি আমি এই মাঠ – ঘাটের ভিতর,

----- জীবনানন্দ দাশ -----

গাঙচিল (Gull, Seagull)

গাঙচিল মাঝারি আকারের পাখি। এরা সাধারণত নদী বা উপকূলীয় এলাকায় জলের ধারে বসবাস করে।




এদের গায়ের রং হয় ধূসর বা সাদা, মাথা ও পাখায় কালো ছোপ দেখা যায়। এদের পা গুলি মোটামুটি লম্বা এবং পায়ের পাতা হাঁসের পায়ের পাতার মতো জোড়া। এরা হাঁসের মতোই জলে স্বাচ্ছন্দে ভাসতে পারে এবং চমৎকার সাঁতার কাটতে পারে। একই ভাবে এরা আকাশেও অনায়াসে দীর্ঘক্ষণ উড়তে পারে। বাতাস থাকলে এক-দুইবার ডানা ঝাপটিয়ে স্বচ্ছন্দে আকাশে ঘুরে বেড়াতে পারে।



মাছ এদের প্রধান খাদ্য। উপকূলের আবর্জনা ঘেঁটে ছোট ছোট পোকামাকড় খায়। এরা মানুষকে খুব একটা ভয় পায় না। মানুষের দেয়া খাবার এরা অনায়াসে লুফেনে। টেকনাফ - সেন্টমার্টিনে চলাচল করা জাহাজের টুরিস্টরা জাহাজ থেকে চিপ্স ছুড়ে দেয় এদের খাওয়ার জন্য। এই চিপ্সের লোভে এরা প্রায় সারাটা পথ জাহাজের সাথে সাথে উড়ে যায় আর কর্কষ গলায় ডেকে যায়।








এদের বহু প্রজাতি রয়েছে। তাদের অধিকাংশই পরিযায়ী পাখি। শুকনো শেওলা দিয়ে এরা পাথরের খাঁজে বাসা বাঁধে। সাধারণত দু থেকে তিনটি ডিম পাড়ে। এদের ডিম খাদ্য হিসেবে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশেই সমাদৃত।



একদিন এই দেহ ঘাস থেকে ধানের আঘ্রাণ থেকে এই বাংলায়
জেগেছিল; বাঙালী নারীর মুখ দেখে রূপ চিনেছিলো দেহ একদিন;
বাংলার পথে পথে হেঁটেছিলো গাঙচিল শালিখের মতন স্বাধীন;

----- জীবনানন্দ দাশ -----



ছবি তোলার স্থান : বঙ্গোপসাগর, টেকনাফ, বাংলাদেশ।
ছবি তোলার তারিখ : ২৭/০১/২০১২ ইং
ঘোষনা : ছবিগুলিতে কালার টেম্পার করা আছে।


=================================================================
সিরিজের পুরনো পর্বগুলি দেখতে -
পাক-পাখালি - ০১
পাক-পাখালি - ০২
পাক-পাখালি - ০৩
পাক-পাখালি - ০৪
পাক-পাখালি - ০৫ : পায়রা
পাক-পাখালি - ০৬
পাক-পাখালি - ০৭ : চড়াই
পাক-পাখালি - ০৮ : ফিঙ্গে
পাক-পাখালি - ০৯ : সবুজ বাঁশপাতি
পাক-পাখালি - ১০ : চড়াই
পাক-পাখালি - ১১ : বন বাটান
পাক-পাখালি - ১২
পাক-পাখালি - ১৩
পাক-পাখালি - ১৪
পাক-পাখালি - ১৫ : পায়রা
পাক-পাখালি - ১৬

মন্তব্য ১০ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১০) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ দুপুর ২:৫৬

জুল ভার্ন বলেছেন: ভালো লাগলো।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৩:০১

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: শুকরিয়া

২| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৩:৫৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: কী সুন্দর পাখিগুলো
সমুদ্রে গেলে ইনশাআল্লাহ আমিও ছবি তুলবো পাখির

১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৪:০৭

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: সেন্টমার্টিন যাবার ও ফেরার পথে এই সুযোগ পেয়ে যাবেন।

৩| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৩:৫৭

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: বর্ণনা, ছবি এবং সেই সাথে কবিতার সংযোজন- সব মিলিয়ে দারুণ পোস্ট।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৪:০৮

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে মন্তব্যের জন্য।

৪| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৩:৫৭

রাজীব নুর বলেছেন: প্রতিটা ছবি সুন্দর।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ বিকাল ৪:১০

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে মতামতের জন্য।

৫| ১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৪

ইসিয়াক বলেছেন: খুব সুন্দর আয়োজন।

১৩ ই এপ্রিল, ২০২১ রাত ১১:৫৭

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.