নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

আসুন ভুটান দেশটি সম্পর্কে জানি

০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:০৫



ভুটানের জনসংখ্যা প্রায় আট লাখ।
সার্কভুক্ত দেশের নাগরিকদের জন্য ভুটানে যেতে ভিসার দরকার হয় না। কেবল টিকিট কাটুন আর চলে যান। ভুটানে সবকিছুরই দাম অবিশ্বাস্য। ওদের নিজেদের পণ্য নেই বললেই চলে। সব ভারতীয়, চীনা, তিব্বতি বা নেপালি। ভুটানের রাস্তাঘাটে অনেক বেওয়ারিশ কুকুরের দেখা মিলবে। কারণ ওরা প্রাণী হত্যা করে না। ভুটানীদের সবচেয়ে জনপ্রিয় খাবার 'থুপকা'। এ এক অদ্ভুত জিনিস; ভাত-নুডলস-মাছ-মাংস-সবজি-তরকারি-ঝোল সবকিছু একসাথে ঘ্যাঁট পাকিয়ে বানানো হ-য-ব-র-ল এক খাবার। অর্থনৈতিকভাবে ভুটান সম্পূর্ণই ভারতের উপর নির্ভরশীল। এই নির্ভরশীলতার পরিমাণ এতটাই যে, দেশটিতে তার নিজের মুদ্রা 'গুলট্রাম' এর চেয়ে ভারতীয় রুপিই বেশি চলে!



ভূটান হল একটি রাজতন্ত্র বিশিষ্ট দেশ।
ভূটানের আকার, আকৃতি ও পার্বত্য ভূ-প্রকৃতি সুইজারল্যান্ডের সদৃশ বলে দেশটিকে অনেক সময় এশিয়ার সুইজারল্যান্ড ডাকা হয়। কৃষি ও বনজ সম্পদ নির্ভর অর্থনীতি। জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গকিলোমিটারে ৪৭ জন। ভূটানের বাসিন্দারা মূলত বৌদ্ধ ধর্মে বিশ্বাসী। ভূটানের সাক্ষরতার হার প্রায় ৬০%। জনগণের প্রায় ৯৪% শতাংশ কৃষিকাজে নিয়োজিত। সপ্তম শতাব্দীতে বৌদ্ধরা প্রথম ভুটানে আসে। চীন ও ভুটানের মধ্যে আজ পর্যন্ত কোনও ফর্মাল কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই, ফলে দুই দেশের মধ্যে কোনও দূতাবাসও নেই। শুধু প্রাকৃতিক দৃশ্য বা বৌদ্ধধর্ম নয়, ছোট্ট এই দেশ আমাদের শেখায় বেঁচে থাকার মানেও।



ভূটান এশিয়ার সবচেয়ে সুখি দেশ।
পাহাড় ঘেরা পারোর বিমানবন্দর ভুটানের একমাত্র এয়ারপোর্ট— ‘দ্য মোস্ট ডিফিকাল্ট কমার্শিয়াল এয়ারপোর্ট অব দ্য ওয়র্ল্ড’। লোককথা, বৌদ্ধগুরু পদ্মসম্ভব বাঘের পিঠে চড়ে তিব্বত থেকে সোজা উড়ে এসেছিলেন এখানে। ভুটানের মেয়েরা যেমন সুন্দরী, তেমনই স্বাধীনচেতা। ছোট থেকে বৃদ্ধ... সকলেই সব সময়ে পরেন জাতীয় পোশাক। ভুটান বিশ্বের একমাত্র কার্বন নেগেটিভ দেশ, এই দেশ য্ত না কার্বন বাতাসে ছাড়ে তার চেয়ে বেশি কার্বণ শোষণ করে। ভুটানের শহর আর পথঘাট মুগ্ধ করার মতো। উঁচু-নিচু পথ, দু’ধারে প্রাচীন রীতির বাড়ি। একে পরিচ্ছন্ন তাতে যানজট নেই। ট্রাফিক পুলিশ ১০০ বছর আগের মতো হাতের ইশারায় নিয়ন্ত্রণ করে যানবাহন।



ভূটানের আয়তন ৪৬,৫০০ বর্গকিলোমিটার।
ভুটান ভারতীয় উপমহাদেশে হিমালয় পর্বতমালার পূর্বাংশে অবস্থিত। ভূটানের উত্তরে চীনের তিব্বত অঞ্চল ও পশ্চিমে ভারতের সিকিম অবস্থিত। ভূটান সার্কের একটি সদস্য রাষ্ট্র এবং মালদ্বীপের পর দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে কম জনসংখ্যার দেশ। ভুটানের রাজধানী ও বৃহত্তম শহর থিম্পু। ১৯৫০-এর দশক পর্যন্ত ভূটান একটি বিচ্ছিন্ন দেশ ছিল। ১৯৬০-এর দশকে ভারতের কাছ থেকে অর্থনৈতিক সাহায্য নিয়ে দেশটি একটি আধুনিক রাষ্ট্রে রূপান্তরিত হতে শুরু করে। ১৯৪৭ সালে ভারত স্বাধীনতা লাভের পর ভূটানকে একটি স্বাধীন দেশ হিসেবে গণ্য করে। ভূটানের রাজা, যার উপাধি ড্রাগন রাজা, হলেন রাষ্ট্রের প্রধান।



ভুটানের ৬০ শতাংশজুড়ে বনভূমি।
আশির দশকে ভুটানের ৯৫ শতাংশই ছিল গ্রামীণ এলাকা। এখন তা কমে দাঁড়িয়েছে ৬০ শতাংশ। আধুনিকতার স্পর্শে জেগে উঠেছে রাজধানী থিম্পু। সেলফোন নিয়ে রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন দলে-দলে মানুষ। তরুণদের যথাযথ কাজের ব্যবস্থা করাটাই এখন সবচেয়ে বড় সমস্যা ভুটান সরকারের কাছে। তরুণ প্রজন্মের ছাত্রছাত্রীরা পড়াশোনা করতে অনেকেই বিদেশ পাড়ি দিচ্ছেন। এর বেশিরভাগই পড়তে যান ভারতে। ডিগ্রি নিয়ে দেশে ফেরার পরেই দেখা দেয় সমস্যা। উপযুক্ত কাজ নেই। ভুটানে সৌন্দর্য দেখার জন্য আপনাকে কোন বিশেষ জায়গায় যেতে হবে না। আপনি যেই জায়গাটিতে দাঁড়িয়ে থাকবেন সেই জায়গাটিই অপরূপ সুন্দর। ১৯৯৯ সালে প্রথম দেশটিতে ইন্টারনেট ও টেলিভিশনের অনুমতি দেওয়া হয়। ১৯৭০-এর দশকে প্রথমবার বিদেশ পর্যটকদের প্রবেশে অনুমতি দেওয়া হয়।



অধিকাংশ ভুটানবাসী তার জীবন নিয়ে সুখী।
১৯৯৯ সাল থেকে পলিথিন নিষিদ্ধ করা হয়। তা ছাড়া তামাক সেখানে পুরোপুরি অবৈধ। রাষ্ট্রধর্ম বৌদ্ধ। গড় আয়ু পুরুষের ৬৬ বছর এবং নারীর ৭০ বছর। ১৯৫৮ সাল পর্যন্ত দাসপ্রথা প্রচলিত ছিল। ভুটানের বর্তমান রাজা আমেরিকা ও ব্রিটেনে লেখাপড়া করেছেন। ২০১১ সালে তিনি বিয়ে করেছেন। ভুটানের বর্তমান রানি জেটসান পেমা। এই দুজন মানুষ গোটা ভুটানে সবার ভালোবাসার পাত্র। চমৎকার একটা তথ্য দিয়ে লেখা শেষ করছি- ভুটানবাসী প্রচুর গাছ লাগাতে পছন্দ করেন। রাজা-রানির প্রথম সন্তানের জন্ম জনগণ পালন করে ১ লাখ ৮ হাজার গাছ লাগিয়ে। গাছ তাদের কাছে দীর্ঘ জীবন, সৌন্দর্য এবং সহমর্মিতার প্রতীক। ২০১৫ সালে মাত্র ১ ঘণ্টায় ৫০ হাজার গাছের চারা লাগিয়ে ভুটান গিনেস রেকর্ড বুকে স্থান করে নেয়।



(এই পোষ্টে আমার কোনো ভূমিকা নেই। সম্পূর্ন নেট থেকে নেওয়া)

মন্তব্য ৩৮ টি রেটিং +৪/-০

মন্তব্য (৩৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:১৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি ভুটানে গিয়ে মসলার চাষ করতে পারেন।

০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:২০

রাজীব নুর বলেছেন: জায়গা জমি থাকলে দেশেই চাষবাস করতাম।
ভুটান যাবো কেন?
চাষবাস যদি করতেই হয় নিজের দেশে করবো।
তবে ভুটান বেড়াতে যাবো।

২| ০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:৩৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



বাংলাদেশে জমি নেই; ভুটানে জমি আছে, মানুষ কম

০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৫১

রাজীব নুর বলেছেন: ও ---
জ্বী ঠিক আছে। চেষ্টা নিব।

৩| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ২:৩৮

জহিরুল ইসলাম সেতু বলেছেন: সুন্দর লিখেছেন রাজীব নুর ভাই। ভুটান সম্পর্কে যেটুকু জানতাম তাতে সেখানে বেড়াতে যাবার ইচ্ছে ছিল। আপনার লেখাটা পড়ে ইচ্ছেটা আরো বেড়ে গেল, চলেন একসাথেই বেড়িয়ে আসি।
শুভেচ্ছা।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২২

রাজীব নুর বলেছেন: যাওয়ার ইচ্ছা আছে।

৪| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ ভোর ৫:০৫

ঢাকার লোক বলেছেন: আরো একটা তথ্য যোগ করতে পারতেন, ভুটানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী আমাদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে পড়া একজন ডাক্তার যিনি এই কিছুদিন আগে সরকারী ভ্রমণে এদেশে এসে বাংলায় চমৎকার বক্তৃতা দিয়ে সবার মন জয় করেছিলেন।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২৩

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ তথ্য দেওয়ার জন্য।

৫| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ ভোর ৬:৪৯

ইমরান আশফাক বলেছেন: ভুটানীজ মেয়েদের কিছু ছবি দিতে পারতেন, চাঁদগাজী ভাই মনে হয় দেখতে চাচ্ছেন।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২৪

রাজীব নুর বলেছেন: হা হা হা -----------

৬| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৭:০৯

ইমরান আশফাক বলেছেন: বাংলাদেশ থেকে কলকাতায় যাওয়া বন্ধ হয়ে গেলে ( স্রেফ বেড়ানো বা টুরিষ্ট হিসাবে, চিকিৎসা, অন্য প্রদেশে যাওয়ার ট্রানজিট হিসাবে ব্যবহার করা, মার্কেটিং ইত্যাদি) ওরা না খেয়ে মরবে। আপনি একবার কলকাতা ঘুরে এলেই ব্যাপারটা বুঝতে পারবেন (অবশ্যই সাম্প্রতিককালে)।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২৫

রাজীব নুর বলেছেন: গতমাসে আমি কোলকাতা গিয়েছি। কোলকাতা নিয়ে সামুতে পোষ্টও দিয়েছি।

৭| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৭:১২

ইমরান আশফাক বলেছেন: রাজিব ভাই, অনুগ্রহ করে ৬ ও ৭ নং মন্তব্য ২টি হাইড বা ডিলিট করে দিন, দূর্ঘটনাবশত: এখানে পোষ্ট হয়ে গেছে। :`>

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২৫

রাজীব নুর বলেছেন: আছে থাক না।
সমস্যা তো কিছু নেই।

৮| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:৪৭

সোহানী বলেছেন: সার্কের পরে ভুটান সম্পর্কে আমরা অনেক কিছু জানতে পারি। যাহোক ভুটান আমি যেহেতু যাইনি তাই প্রাকৃতিক সৈান্দর্য সম্পর্কে ভালো বলতে পারবো না কিন্তু মানুষ ভুটানীকে আমি কাছ থেকে দেখে ভুটানের মানুষদের সম্পর্কে এক রকমের খারাপ ধারনা তৈরী হয়েছে। দেশে আমার একজন বস ছিলেন ভুটানী। তারমত দূর্নীতিবাজ স্বার্থপর মানুষ দেখে আমি খুব অবাক হয়েছিলাম। নিজের স্বার্থে কয়েক মিলিয়ন ডলারের প্রজেক্টকে সে বন্ধ করে দিয়েছিল। নিজের মাসিক ১০ লাখ টাকা বেতন যোগানোর জন্য অর্ধেক লোকের চাকরী খেয়েছিল।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১০:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: দুঃখজনক।

৯| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১০:৪৭

ইসিয়াক বলেছেন: চলো না ঘুরে আসি অজানাতে,
যেখানে নদী এসে মিশে গেছে।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: !

১০| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১১:৩০

ইসিয়াক বলেছেন: ল্যপটপ ঠিক হইছে?

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:১০

রাজীব নুর বলেছেন: না।

১১| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১১:৪০

নিয়াজ সুমন বলেছেন: সুন্দর প্রকৃতির সাথে সুন্দর ললনাদের কিছু ছবি দিলে মন্দ হতো না !

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:১০

রাজীব নুর বলেছেন: না থাক।

১২| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১১:৫৮

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: ভুটানে কোনদিন যাওয়া হয়নি। যাওয়ার ইচ্ছা আছে।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:১১

রাজীব নুর বলেছেন: আমারও যাওয়ার ইচ্ছা আছে।

১৩| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১২:২৯

জুন বলেছেন: আমি যত দেশ ঘুরেছি তার ভেতর ভুটান তার অসাধারণ সৌন্দর্য আর আপন মহিমায় মহিমান্বিত একটি দেশ । সারা জীবন গরীব দেশের কাতারে সিকিম ভুটান আর বাংলাদেশের নাম শুনেছি। কিন্ত এয়ারপোর্টে নেমে যতই এগিয়েছি ততই আমার ধারণা কতখানি ভ্রান্ত তা বুঝতে পেরে লজ্জিত হয়েছি সে দেশের মানুষের পরিচ্ছন্নতা আর সৌন্দর্য জ্ঞ্যান দেখে। একটা পলিথিন ছেড়া কাগজের টুকরো কোথাও নজরে পরেনি।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:১২

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ জুন। সুন্দর মন্তব্য করেছেন।

১৪| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:৪৪

জুল ভার্ন বলেছেন: ভালো লেগেছে ভুটানের কুষ্ঠি। +

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:২৬

রাজীব নুর বলেছেন: শুকরিয়া।

১৫| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:২০

মোঃমোজাম হক বলেছেন: ভাল লেগেছে।
ভুটান যেতে ভিসা লাগেনা, যুক্ত করে দিলে ভাল হতো।

০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:২৬

রাজীব নুর বলেছেন: দেই নাই??

১৬| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৭

রিদওয়ান হাসান বলেছেন: হ্যা। দেশটা ভুটান।
নিরীহচোদা মানুষের দেশ।
দেশটার প্রেসিডেন্ট এমনই এক হোঁতকা লোক
যাঁর নাম বিশ্ব রাজনীতিতে চিরটাকালই অনুচ্চারিত।
হ্যা, এই অনুচ্চারিত হোঁতকা প্রেসিডেন্টের দেশেই
ঘটবে এক মহাবিস্ফোরণ। হঠাৎ-ই, শোনা যাবে
একদিন, থিম্পু থেকে পঁচাত্তর কিলোমিটার দূরে,
পুনাখায় আবিস্কৃত হয়েছে ইউরেনিয়ামের খনি।
মুহূর্তেই খবর হ’য়ে যাবে আমেরিকা থেকে রাশিয়া,
রাশিয়া থেকে চীন-ভারত-বৃটেন-জার্মানি,
তুরস্ক থেকে ফ্রান্স সকলেই জড়ো হবে থিম্পুতে।
আসবে বিশ্ব মিডিয়ার একপাল কুকুর। ঘেউ ঘেউ
থেমে যাবে ডিনারের আগে। ঠিক তখন, আমেরিকা, তোমার পোঁদের মধ্যে আমি পারমানবিক ঢুকিয়ে দেবো। প্রচণ্ড শব্দে বিস্ফোরিত হবে তুমি।
তোমার আর ডিনার করা হবে না।

সাইয়েদ জামিলের কবিতা। আমার কোনো ভূমিকা নাই।

০৬ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১২

রাজীব নুর বলেছেন: এটা আবার কেমন কবিতা??

১৭| ০৫ ই জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১১:৩৬

ইউসুফ হাওলাদার শাওন বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে, জানার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য, তবে কার্বন নেগেটিভ দেশ তা আগে থেকেই জানতাম ও সর্বশেষ নিচের ১ লাখ গাছ লাগনোর খবরটি ও

০৬ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: আমাদের দেশের মানুষ জন গাছ লাগাতে চায় না কেন?

১৮| ০৬ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:২১

ইউসুফ হাওলাদার শাওন বলেছেন: গাছ কেটে অর্থ উপার্জন করবে, বসতভিটা বানাবে বাগান পরিষ্কার করে, আর উৎস কম গাছ লাগানোর

০৬ ই জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:৪৩

রাজীব নুর বলেছেন: ইয়েস।

১৯| ০৬ ই জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:২০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
ভুটান সম্পর্কে আরেকটি চমকপ্রদ তথ্য হলো ভুটানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী পড়াশোনা করেছেন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে।

০৬ ই জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:০০

রাজীব নুর বলেছেন: জানি।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.