নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

আপনি কি চান? মসজিদ না টিকা?

১১ ই জুন, ২০২১ রাত ১২:১৭



বাংলাদেশে মসজিদের অভাব ছিলো কখনো?
দেশে চাকরির অভাব। টোকাইদের থাকা-খাওয়ার অভাব। পাবলিক টয়লেটের অভাব। ভাল চিকিৎসার অভাব। কিন্তু মসজিদের অভাব আমাদের নেই। আমি বলব, সরকারের অনেক অকাজের মধ্যে এটা হয়েছে সবচেয়ে বড় অকাজ। সরকারের ভাল কাজ হলো পদ্মাসেতু আর মেট্রোরেল। এত টাকা খরচ করে মসজিদ বানানোর কোনো মানে হয় না। বিলাসিতা আমাদের মানায় না। আমরা দরিদ্র। নামাজ তো মানুষ ঘরেও পড়তে পারে।

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ সরকারী টাকায় মসজিদ বানায় নাই।
মসজিদ হয় সব সময় দানের টাকায়। টিকা না কিনে মসজিদের পেছনে টাকা খরচ করাটা সরকারের বোকামো হয়েছে। বাংলাদেশে অনেক মসজিদ- কিন্তু মুসল্লীর অভাব। এসব মসজিদে যে 'চিল্লা' নাম দিয়ে জঙ্গি তৈরি হবে না- সেই গ্যারান্টি কে দিবে? তাছাড়া ঢাকা সহ সারা দেশেই যথেষ্ঠ পরিমানে মসজিদ রয়েছে। শুক্রবার ছাড়া মসজিদ খালি পড়ে থাকে। মসজিদের পেছনে সরকার যে টাকা খরচ করেছে তাতে এক লাখ বেকারের জন্য কাজের ব্যবস্থা করা যেত। পাঁচ লাখ টোকাইদের থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করা যেত। গার্মেন্টসের মেয়েদের করোনা কালে সহযোগিতা করা যেত।

এভাবে জাতির টাকা পানিতে ফেলা ঠিক না।
দরিদ্র দেশ আমাদের। সরকার মসজিদ বানিয়ে সে টাকা জলে ফেলছে। লাখ লাখ মানুষ প্রতিদিন শহরের রাস্তায় ঘুমায়, ওদের পড়ালেখা নেই, চিকিৎসা নেই, কিছুই নেই, টাকা ওদের জন্য খরচ করলে ভাল হতো। আপনার গ্রামের মানুষের নামাজের জন্য যায়গা সংকুলান না হলে, তাদের আয় থেকে তারা মসজিদের ব্যবস্থা করবে, এটাই নিয়ম। বহু গ্রামে পারিবারিক জায়গায় নিজস্ব মসজিদ দেখেছি। এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। স্বনির্ভর হচ্ছে বাংলাদেশ! ভাবতেই ভালো লাগছে। তবে মানুষের জীবন প্রথম, তারপর প্রার্থনা। মানুষ খেয়েপরে বেঁচে না থাকলে প্রার্থনা কে করবে?

আমাদের এলাকায় ৪/৫ টা মসজিদ।
সব গুলো মসজিদ একসাথে আযান দেয়। আমার খুবই বিরক্ত লাগে। একটা মসজিদের আযান ভাল করে শুনতে পারি না। পঞ্চাশ টা এলাকা ঘুরলে একটা লাইব্রেরী খুঁজে পাওয়া যাবে না। আমাদের দরকার মডেল স্কুল, মডেল ক্লিনিক, মডেল লাইব্রেরী। মডেল শিল্প কারখানা। মসজিদ নয়। মসজিদ, মন্দির করা সরকারের কাজ নয়। বেকারত্ব কমানোই সবচেয়ে বড় ইবাদত। জনগণের দরকার চাকুরী, টোকাইদের জন্য দরকার থাকার যায়গা ও পড়ালেখার খরচ। সব মানুষের জন্য দরকার টিকা। এলাকা ভিত্তিক শরীর চর্চাকেন্দ্র, পাঠাগার, বৃদ্ধাশ্রম, লংগরখানা, শিশু বিনোদন কেন্দ্র ইত্যাদি প্রতিষ্ঠার মাধ্যম শক্তিশালী জাতি গঠন করা যেত।

বাংলাদেশে প্রয়োজনের চেয়ে মসজিদ অনেক বেশী।
পাকিস্তানকে সৌদীরা সব সময় টাকা দিয়েছে মসজিদ, মক্তব ও মাদ্রাসা করতে। স্কুল করতে টাকা দেয়নি; ফলাফল, পাকিস্তান এখন জংগীস্তান। একজন বললেন, বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকীতে প্রধানমন্ত্রীর এটি সেরা কাজ। এতে বঙ্গবন্ধুর বিদেহী আত্মা শান্তি পাবে। দেশবাসীর পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধুর জন্য এটি সদকায়ে জারিয়া। আল্লাহ এই মসজিদের উসিলায় বঙ্গবন্ধুকে জান্নাতুল ফেরদৌস দান করুন।
ধর্ম হচ্ছে অপ্রয়োজনীয় আড্ডা, প্রয়োজনীয় কাজ হলো মানুষের অধিকার রক্ষা করা। এখন হিন্দুরা বলবে আমরা মন্দির চাই।

(তথ্যসুত্রঃ শ্রদ্ধ্যেয় ব্লগার চাঁদগাজী বাংলাদেশে মসজিদের অভাব ছিলো কখনো? নামে আজ একটি পোষ্ট দিয়েছেন। সেই পোষ্ট চুরী করে, কপি পেস্ট করে এই পোষ্টটি তৈরি করেছি। এখন এই পোষ্ট নিজের নামে চালিয়ে দিবো। পুরোনো অভ্যাস। চাঁদগাজী অন্য সবার মতো না। তিনি মোটেও এই বিষয় নিয়ে হাউকাউ করবেন না। কারন তিনি উন্নত মানুষ।)

মন্তব্য ৪২ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৪২) মন্তব্য লিখুন

১| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ১২:৪৯

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
বাংলাদেশ সরকারের চেয়ে আপনি বেশী বোঝেন এটা
প্রমাণ করতে যাবেন না। কারো ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত
দেবার বাসনা পরিত্যাগ করুন। মুসলিম সংখ্যা গরিষ্ঠদের
দেশে আজান যদি আপনার কানে যন্ত্রণা দেয় তা হলে
বায়ু নিরোধক কক্ষে বাস করুন।
মসজিদ নির্মাণ যদি হয় টাকা পানিতে ফেলা তা হলে
মুসলমানিত্ব বর্জন করে জঙ্গলে বসবাস করতে শুরু করুন
সেখানে অনেক প্রাণী পাবেন যাদের ধর্ম কর্মের কোন বালাই
নাই। আমার দৃঢ় বিশ্বাস এই লেখা যদি আপনার মা কিংবা
ভাই এমনকি আপনার স্ত্রী পাঠ করলেও তাদের প্রতিক্রিয়া
আমার মতো্ই হবে। আশা করি আমার কথায় কিছু মনে
করবেন না। কারণ আপনি স্বাধীন ভাবে আপনার মত ব্যক্ত
করেছন তেমনি আমিও !

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১২:৫৮

রাজীব নুর বলেছেন: আরেহ ভাই, দেশে বড় বড় সমস্যার অভাব নেই। সেগুলো না করে মসজিদ কেন/

২| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ১:১৩

কামাল১৮ বলেছেন: এই টাকাটা বাংলাদেশের না , ব্লগে একজন বলেছে এই টাকাটা সৌদী সরকারের অনুদান,অনেক আগে পড়েছিলাম ভুলেও গেছি।এখানে নতুন করে আর বলার কিছু নাই।বরং এখান থেকে কিছু টাকা বের করে ভাল কোন কাজে ব্যবহার করলে সেটা হবে ভালো কাজ।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০০

রাজীব নুর বলেছেন: সহমত।

৩| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ১:২৪

শূন্য সারমর্ম বলেছেন: এদেশে টিকা নিয়ে মসজিদে শোকর আদায় করার লোক অনেক বেশী।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০০

রাজীব নুর বলেছেন: দু;খজনক।

৪| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ১:২৪

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:

গোলাকার শূণ্য !! ভুল!
শুরুতে এই প্রকল্পে সৌদি সরকারের অর্থায়নের কথা থাকলেও
পরে তারা করেনি। এখন পুরো প্রকল্পটিই সরকারের অর্থে
বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। যেমন হচ্ছে পদ্মাসেতু

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০১

রাজীব নুর বলেছেন: তবে যাই বলেন, মসজিদ গুরুত্বপুর্ন কিছু না। নামাজ কালাম ঘরে বসেও করা যায়।

৫| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ১:৫৯

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
আজানের শব্দ যে পর্যন্ত পৌছায়, সেই পর্যন্ত কোন মসজিদ নির্মান করা যায় না।
কিন্তু ধর্মব্যাবসায়ীরা সেই হাদিস মানতে চায় না।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: এমনিতেই আমার ঘুমের সমস্যা।
ভোরের দিকে হালকা ঘুম আসে। তখন ৪/৫ টা মসজিদে একসাথে আযান দেয়। আমার মনে হয় হুজুরেরা মাইক আমার কানের কাছে নিয়ে চিৎকার দিচ্ছে। তাড়া আমাকে ঘুমাতে দিবে না। আর এত লম্বা আযান, শেষ হওয়ার নাম নেয় না।

৬| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ১:৫৯

আমি নই বলেছেন: বাংলাদেশে এযাবত কালে ধরাপড়া বা মারা যাওয়া জংগীদের বেশির ভাগই ভার্সিটি পড়ুয়া, কমভাগ মাদ্রাসা পড়ুয়া কিন্তু চিল্লা দিয়ে জংগি হওয়ার প্রমান নাই। আপনি প্রপাগান্ডা ছরাচ্ছেন।

জাতীর টাকা পানিতে ফেলুক আর বালুতে ফেলুক আপনার চুলকায় কেন? জাতীর সমস্যা হলে জাতীই প্রতিবাদ করবে, আপনার খুব সমস্যা হলে জার্মানী চলে যান।

মসজিদের আজান বিরক্ত লাগলে সাউন্ডপ্রুফ ঘর বানিয়ে নিন, আপনার বিরক্ত লাগাতে কারো কিছু যায়-আসেনা। সরকারের বিভিন্ন মেগা প্রকল্পে যখন ৫-১০-২০ গুন বেশি খরচ করে সরকারি অর্থের নিশ্চিত অপচয় করা হয় তখন আপনাদের টোকাই, মডেল স্কুল, হাসপাতাল এগুলার কথা মনে হয় না, যেই না একবার মসজিদের জন্য বরাদ্দ হয়েছে অমনি গায়ে জ্বালা ধরেছে? এখন টিকার কথা মনে পরেছে?

যে লোক সারাদিন সামুতে বসে থাকে সে আবার অপ্রয়োজনীয় আড্ডা শিখায়। আগে নিজেকে দেশের জন্য, পরিবারের জন্য প্রয়োজনীয় করে তুলুন তারপর আমাদের শিখাতে আসিয়েন ধর্ম প্রয়োজনীয় না অপ্রয়োজনীয়।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০৫

রাজীব নুর বলেছেন: রেগে এলেন কেন। দু;খজনক।
আজকাল এই এক সমস্যা সবাই রেগে যায়। সমস্যা পাস কাটিয়ে যায়।
যথেষ্ট মসজিদ আমাদের আছে। কাজেই আগামী ৩০ বছর নতুন কোন মসজিদের কোন প্রয়োজন নাই।

৭| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ২:৩০

কামাল১৮ বলেছেন: নূরু ভাই,আপনি এখানে ভুল করেছে।আমি কিন্তু লিখেছি ব্লগে একজন লিখেছে,এই টাকাটা সৌদির অনুদান আমি তাই লিখেছি এবং আমি আমার লেখায় সেটা উল্লেখ করেছি।এটা আমার বক্তব্য না।তবে যাচাই না করে আমার লেখা ঠিক হয় নাই।








১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০৬

রাজীব নুর বলেছেন: নুরু ভাইয়ের কাছে ৫ লাখ টোকাই এর চেয়ে গুরুত্বপুর্ন মসজিদ।

৮| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ২:৪৯

চাঁদগাজী বলেছেন:



মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হওয়া মুক্তিযোদ্ধাদের "এতিম সন্তানদের" কোলে নিয়ে শেখ সাহেব কিংবা তাজউদ্দিন সাহবে একবারও কাঁদেননি; শেখ হাসিনা করোনায় মৃত কোন বাবার এতিম বাচ্চার জন্য কাঁদবে না।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: প্রধানমন্ত্রীরা মনে হয় এরকমই হয়।

৯| ১১ ই জুন, ২০২১ ভোর ৬:১৩

নূর আলম হিরণ বলেছেন: তথ্যসূত্র ভালো হয়েছে।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ। এখন থেকে তথ্যসুত্র নিয়মিত দিব।

১০| ১১ ই জুন, ২০২১ সকাল ৭:০৭

অগ্নিবেশ বলেছেন: নুরুকার দাঁত নখ বাইর হইছে। ন্যাজাটা অবশ্য অনেক আগেই দেখে ফেলেছি।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: নুরু কাকুর কিছু সমস্যা আছে। উনি সবার আগে ধর্ম রাখেন। এদকে যে জাত গেল সেই হিসাব নেই।

১১| ১১ ই জুন, ২০২১ সকাল ৯:২৫

সাসুম বলেছেন: দেশে লাখ লাখ মসজিদ থাকার পরেও ৮ হাজার কোটি টাকা খরচ করে মডেল মসজিদ বানানো দরকার নাকি শিক্ষা জ্ঞান বিজ্ঞান আর গবেষণায় বরাদ্দ দেয়া দরকার এটা যাদের মাথায় ঢুকেনা তাদের লগে বাহাস করা আর ছাগলের লাদিকে ইব্রাহিম লোদির সাথে তুলনা করা একই কথা।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:১০

রাজীব নুর বলেছেন: সুন্দর মন্তব্য করছেন।

১২| ১১ ই জুন, ২০২১ সকাল ১০:৩১

আমি নই বলেছেন: @সাসুম এইটা সবার আগে সরকাররে বুঝান তারপর ব্লগে আইসা লেদাইয়েন।

শিক্ষা, জ্ঞান, বিজ্ঞান, গবেষণা, বাল, ছাল করাই যদি উদ্দেশ্য হত তাহলে সেটা প্রথম বছর থেকেই করত, বাজেটের সবচাইতে বড় বরাদ্দ শিক্ষা খাতেই থাকত। এটা যাদের মাথায় ঢুকেনা তারা ছাগলের লাদিই।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:১১

রাজীব নুর বলেছেন: দুই বছর ধরে শিক্ষাখাত বন্ধ। সবচেয়ে বেশী দুর্নিতি শিক্ষাখাতেই হয়। যত বরাদ্দ তত দুর্নিতি।

১৩| ১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:০৪

সাসুম বলেছেন: @আমি নইঃ লেদাইতেছে কারা এটা একদম ক্লিয়ার। আমার পোস্টে গিয়া একবার লেদাই আসছেন, এখানে আমার আমাকে টাইনা আইনা লেদাইতেছেন? ঠাকুর ঘরে কে রে ? আমি কেলা খাই না।

১১ ই জুন, ২০২১ দুপুর ১:১১

রাজীব নুর বলেছেন: চোখ আছে তবু আপনি অন্ধ।

১৪| ১১ ই জুন, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:০১

ফেনা বলেছেন: (তথ্যসুত্রঃ শ্রদ্ধ্যেয় ব্লগার চাঁদগাজী বাংলাদেশে মসজিদের অভাব ছিলো কখনো? নামে আজ একটি পোষ্ট দিয়েছেন। সেই পোষ্ট চুরী করে, কপি পেস্ট করে এই পোষ্টটি তৈরি করেছি। এখন এই পোষ্ট নিজের নামে চালিয়ে দিবো। পুরোনো অভ্যাস। চাঁদগাজী অন্য সবার মতো না। তিনি মোটেও এই বিষয় নিয়ে হাউকাউ করবেন না। কারন তিনি উন্নত মানুষ।) "
--- বেপক মজা পাইলাম। একবার চিনতা করেন যে মোশারোফ করিম এই লাইন গুলি পড়ছে....

১২ ই জুন, ২০২১ দুপুর ২:১০

রাজীব নুর বলেছেন: মজা দিতে চেয়েছি। তাই মজা পেয়েছেন।

১৫| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:৩২

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:

খানসাব কি আবার সামুর জালে বন্দি !!
আশা করি আবার মুক্ত আকাশে ফিরে
আসবেন। আপনাকে মিস করছি।

১২ ই জুন, ২০২১ দুপুর ২:১৫

রাজীব নুর বলেছেন: মনে হচ্ছে শ্রদ্ধেয় চাঁদগাজীর মতো অবস্থা আমারও হবে।
আমি নিজের বিবেকের কাছে সৎ থাকতে চেষ্টা করি।

১৬| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ৯:৩৮

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: টিকা কেনার টাকার ঘাটতি নাই বাংলাদেশ সরকারের। টাকা থাকলেই টিকা পাওয়া যাচ্ছে না। টিকার জন্য টাকা কোন সমস্যা না। বাংলাদেশের জন্য ৮ বা ৯ হাজার কোটি টাকা এখন বড় কোন টাকা না। এইরকম অনেক টাকা অপচয় করা হয় বিভিন্ন মেগা প্রজেক্টে।

১২ ই জুন, ২০২১ দুপুর ২:১৬

রাজীব নুর বলেছেন: যত যাই বলেন, এত টাকা খরচ করে মসজিদ বানানো টা আমার কাছে ভালো ঠেকছে না।

১৭| ১১ ই জুন, ২০২১ রাত ১১:০৪

সন্ধ্যা প্রদীপ বলেছেন: সরকারের মাথায় কি এটা নিয়ে সুদূরপ্রসারী প্লান আছে?
কে জানে?

১২ ই জুন, ২০২১ দুপুর ২:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: এটা অবশ্য সত্য- সরকারের চিন্তা ভাবনা সাধারণ মানুষ জানে না। বুঝেও না।

১৮| ১২ ই জুন, ২০২১ বিকাল ৫:৪২

জহিরুল ইসলাম সেতু বলেছেন: যে দেশে অনাচার বেশি, দুর্নীতি বেশি, পরের সম্পদ লুটেপুটে নিজের সম্পদের পাহাড় গড়ার প্রবণতা বেশি, সে দেশে মসজিদ বা ধর্মশালা নির্মাণের প্রবণতা বেশি থাকবে, এটাই স্বাভাবিক।
এসব দেশের দুর্নীতিগ্রস্থ মানুষ ধর্মাচারের মাধ্যমে পাপ স্খলনের পথ খোঁজে। তারা ঘটা করে মসজিদে যায়, মন্দিরে যায়, গির্জায় যায়। তারা নিজেদের স্বার্থসিদ্ধিতে সিদ্ধহস্ত, ন্যায়পরায়ণতা ও আপামর মানুষের কল্যান নিয়ে তাদের কোন মাথাব্যাথা নেই।
ধর্মের ঠুলিপরা লোকগুলো ধর্মের বাত্যাবরণে ধর্ম ব্যবসায়ী চক্রের কাছে নিজের বিবেকবোধ সমর্পন করে আছেন নিজেদের অজান্তেই। আপনার এই ব্লগ তাদের কাছে অস্বস্তিকর লাগবে সন্দেহ নেই। আপনি গিয়ে যান প্রিয় রাজীব নুর ভাই।
সুন্দর লিখেছেন, অভিনন্দন চাঁদগাজি ভাই এবং আপনাকে।

১৩ ই জুন, ২০২১ বিকাল ৩:০৬

রাজীব নুর বলেছেন: চমৎকার মন্তব্য করেছেন।
ভালোবাসা জানবেন।

১৯| ১২ ই জুন, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২৪

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: মসজিদের কোন ঘাটতি নেই।আরও অনেক সমস্যা ছিল যে গুলিকে অগ্রাধিকার দেয়া দরকার ছিল। মসজিদে টাকা দেয়ার লোকের অভাব নাই বাংলাদেশে তাই মসজিদের বদলে পথশিশু, বস্তিবাসী কিংবা আয়-রোজগারবিহীন পরিবারের আয়ের ব্যবস্থা করা উচিত ছিল। মসজিদের মাধ্যমে আসলে ধর্ম নিয়ে রাজনীতি হয়েছে। বাংলাদেশে পয়সাওয়ালারা পাল্লা দিয়ে মসজিদ বানায় নাম কামানোর জন্য।

১৩ ই জুন, ২০২১ বিকাল ৩:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: সহমত।

২০| ১৩ ই জুন, ২০২১ রাত ৩:৫৮

অনল চৌধুরী বলেছেন: বাংলাদেশের বেশীরভাগ লোক কোনোকালেই বই পড়তো না।
৮০'র দশকে সব এলাকায় ভিডিও লাইব্রেরী হয়েছিলো কিন্ত বইয়ের গ্রন্থাগার না।
ইন্টারনেট-ফেসবুক আসার পর বইপড়া আরো কমে গেছে।
সৃজনশীল বইয়ের প্রায় সব গ্রন্থাগারই উঠে গেছে।

১৩ ই জুন, ২০২১ বিকাল ৩:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: সহমত।

২১| ১৫ ই জুন, ২০২১ রাত ১২:৫০

Subdeb ghosh বলেছেন: ধর্মীয় ক্ষেত্রসমূহে প্রয়োজনোতিরিক্ত এই বিপুল
অর্থ বরাদ্দ কিসের?
কোনোইবা সরকারি অর্থের
অযৌক্তিক এই বরাদ্দ !

২২| ১৬ ই জুন, ২০২১ বিকাল ৪:২০

রানার ব্লগ বলেছেন: মসজিদ দেশের মোড়ে মোড়ে আছে , বাঁচতে হলে সুস্থ থাকতে হলে টিকা জরুরী!!! না বাঁচলে মসজিদে জেয়ে পাঁচ বার নামাজ কি ডাইনোসর এসে পরে যাবে?

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.