নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ছিলাম বইয়ের পোকা, এখন ইন্টারনেটের ।

সাদা মনের মানুষ

বিশ্ব জোড়া পাঠশালা মোর সবার আমি ছাত্র --নানা ভাবে নতুন জিনিস শিখছি দিবা রাত্র 'মুর্খরা সব শোন, মানুষ এনেছে গ্রন্থ, গ্রন্থ আনেনি মানুষ কোন'

সাদা মনের মানুষ › বিস্তারিত পোস্টঃ

কিশোরগঞ্জের নিকলী হাওর

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৭:৪১


কিশোরগঞ্জ জেলা মূলত হাওর এলাকা। নিকলী হাওর ছাড়াও কিশোরগঞ্জে আরও অনেক হাওর রয়েছে। যেমন হুমাইপুর হাওর (বাজিতপুর), সোমাই হাওর (অষ্টগ্রাম), বাড়ির হাওর (মিঠামইন), তল্লার হাওর (বাজিতপুর-নিকলী-অষ্টগ্রাম), মাহমুদুর হাওর (নিকলী), সুরমা বাউলার হাওর ইত্যাদি। আমার আজকের পোষ্ট শুধু নিকলী হাওরের কিছু ছবি নিয়ে।

হাওর মূলত সাগর শব্দের অপভ্রংশ মাত্র। উচ্চারণ বিকৃতিতে সাগর থেকে সায়র এবং সায়র থেকে হাওর হয়েছে বলে ব্যাখ্যায় বলা আছে। বর্ষাকালে বিশাল হাওর এলাকায় অথৈ জলরাশি দেখলে সাগরের কথাই মনে করিয়ে দেয়। হাওর আর কিছু নয়, এটা অপেক্ষাকৃত বড় জলাভূমি।

শীতকালে যে প্রান্তর ফসলে পূর্ণ বা শুকনো মাঠ কিংবা বালুচর, বর্ষাকালে সেখানে এমন জলধারা যে চারদিক প্লাবিত করতে পারে, তা না দেখলে বিশ্বাস করা যায় না। শুধু পানির প্রবাহ নয়, প্রচণ্ড ঢেউ আর দিগন্ত বিস্তৃত জলরাশি সাগরের বিশালত্বের কথাই মনে করিয়ে দেয়। আর মাঝে মাঝে দ্বীপের মতো গ্রামগুলো যেন ভেসে আছে যেন পানির বুকে। একে তো স্বর্গই বলা যায় নাকি? তো আসুন দেখে নেই নিকলীর সৌন্দর্য্য।


(২/৩) নিকলী বাধে পৌছেই দেখলাম ছোট ছোট বাচ্চা এভাবে মাছ ধরছে।



(৪) নিকলী বেড়ি বাধের পাশে গ্রাম, এখান থেকেই আমরা ট্রলার নিয়ে বেড়িয়ে পড়ি হাওরের অথৈ জলে।


(৫/৬) নানা রকম জাল দিয়া হাওরে জেলেরা মাছ ধরছে।



(৭) জলে ফুটবল খেলে নিলে কিছুক্ষণ মন্দ কি?


(৮) হাওরের কিছু এলাকায় রয়েছে এমন করচের বন।


(৯/১০) কিছু পাল তোলা নৌকাও এখানে দেখা যায়।



(১১/১২) ইঞ্জিনের নৌকা তো এখন সর্বত্র।



(১৩/১৪) ঝিম মারা দুপুরে চকচকে হাওর।



(১৫) কারেন্ট জাল দিয়াও অনেকে মাছ ধরছে এখানে।


(১৬/১৭) জলের মাঝে এক টুকরো মাঠ, সেখানেই চলছে বাচ্চাদের খেলা, ওটা গরু ছাগলদের চারণভুমিও বটে।



(১৮/১৯) বেলা শেষে ঘরে ফেরা।



(২০) নিকলীতে আমাদের ভ্রমণ বাংলাদেশ টিম (টিম ভিভি)।

মন্তব্য ৭০ টি রেটিং +১৩/-০

মন্তব্য (৭০) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৭:৫৪

রাজীব নুর বলেছেন: সুন্দর সব ছবি।
ছবি দেখে ভালো লাগলো।
আপনি বেশ ভালো আছেন। খুব ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৭:৫৭

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ভালো আছি কিনা সেটা বলা বেশ কঠিন, তবে ভালো থাকার চেষ্টা করি সব সময়, আপনি কেমন আছেন রাজীব ভাই?

২| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৭:৫৯

হাবিব স্যার বলেছেন:




অসাধারন সব মন কাড়া ছবি...।
অসম্ভব ভালো লাগা ছবিতে..।
ধন্যযোগে কাছে থাকলাম..।

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:০১

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: শুভ সকাল, কেমন আছেন স্যার?

৩| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:১৪

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: সুন্দর!! মনোমুগ্ধকর । ++

শুভকামনা প্রিয় সাদা মনের ভাইকে।

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:১৫

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: আমার সব পোষ্টে উপস্থিত হয়ে উৎসাহিত করার জন্য আপনাকেও আন্তরিক শ্রদ্ধা

৪| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:৩৫

আব্দুল্লহ আল মামুন বলেছেন: সত্যি, খুব সুন্দর ছবি। হাওর এলাকায় আমিও ঘুরে বেড়িয়েছি, সুনামগঞ্জে। তবে কিশোরগঞ্জে কখনো যাওয়া হয়নি। বিশাল আকাশ, বিশাল জলরাশি আর বিশাল খোলা প্রান্তর দেখলে মনটাও বুঝি বিশাল হয়ে যায়।

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:৫৬

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: বিশাল আকাশ, বিশাল জলরাশি আর বিশাল খোলা প্রান্তর দেখলে মনটাও বুঝি বিশাল হয়ে যায়। সুন্দর বলেছেন মামুন ভাই........শুভ কামনা জানবেন।

৫| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:৩৭

হাবিব স্যার বলেছেন: আপনার সাদা মনের রঙিন ছবি দেখে কি খারাপ থাকা যায়?

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:৫৭

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: সব জায়গায়ই দেখছি আপনি কাব্য করেন ভাই :D

৬| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:৪৮

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
ওয়াও দারুণ মজা হয়েছে তাহলে হাওরে।

ছবিতে++++++++++

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৯:৫৮

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: হুমম, সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওর আরো বেশী সুন্দর, শুভ সকাল

৭| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ১০:২৭

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: ছবি গুলো দেখে অনেক ভাল লাগল ভাইয়া।ছবি ব্লগে ++

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ১:১৮

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: আপনার মন্তব্যেও প্লাস :D

৮| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ১২:১৭

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: আহা!
কতদিন খোলা জলে স্নান করিনা!!!!!!!!!!

মনটা আইটাই করছে দৌড়ে একটু ডুব দিয়ে আসতে!
ডুব ডুব আর ডুব
বল খেলা,
সাতার!
আর সবশেষে খোলা গলুইয়ে শুয়ে
উদার আকাশে চেয়ে উদার মনে ভাটিয়ালীর টান-
মাঝি বাইয়া যাওরে - - - -

হায়! শেকলবদ্ধ জীবনে স্বপ্নরা কি অধরাই থেকে যাবে!!!!!!!!

অনেক অনেক ভাল লাগা রইল। দারুন একং ভ্রমন পোষ্টে ++++++

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ১:১৯

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: এতো দেখছি কবিতা হয়ে গেল ভাই, মনের আকুলতা মাখানো কবিতা..........বিদ্রোহী কবিতা কি একেই বলে? :)

৯| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ১:২৪

মোছাব্বিরুল হক বলেছেন: যাওয়া হয়না অনেকদিন।

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ১:৪৪

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: আমি জীবনে এই একবারই গিয়েছি ভাইজান, ধন্যবাদ।

১০| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ২:০৬

রাকু হাসান বলেছেন:


নিকলী’র ছবি তো ভিষণ মুগ্ধতা দিল । বিশেষ করে ১৫/১৬ নং ছবিটা অনেক ভালো লাগলো । হাওর অঞ্চলে ঘুরার অনেক দিনের ইচ্ছা । হাওরে অনন্ত এতটি পূর্ণিমার রাত কাটানোর ইচ্ছা । সম সুযোগ হচ্ছে না । শেয়ার করার জন্য অনেক ধন্যবাদ । সাদা মনের ভ্রমণ পিপাসু মানুষ । :)

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:২৬

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: পূর্ণিমার রাতে হাওরে রাত কাটানোর অভিজ্ঞতা আমারও হয়নি, ওটা নিশ্চয়ই স্বর্গীয় একটা রাত হতে বাধ্য.....শ্রদ্ধা জানবেন হাসান ভাই।

১১| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ২:০৭

স্রাঞ্জি সে বলেছেন:
প্রতিটি ছবি দেখে যেমন অভিভূত হয়ছি। তেমন ৭ নং ছবিটা দেখে না হাসতে পারলাম না...... =p~

ওখানে পানি কতটুকু আছে....

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:৫২

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ঐ বুক অবধি পানি হবে ওখানে, শুভ কামনা সব সময়।

১২| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ২:৩০

ব্লগার_প্রান্ত বলেছেন: আমি কখনো হাওড় দেখিনি, ঢাকায় থাকি, সর্বপ্রথম কোন হাওড়, কখন দেখতে গেলে ভালো হয়, জানালে উপকৃত হই B-)

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১১

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: হাওর দেখার জন্য তো অবশ্যই বর্ষাকাল, অন্য সময় তো বেশীর ভাগ হাওরই পরিণত হয় ধানি জমিতে......ধন্যবাদ প্রান্ত ভাই, ভালো থাকুন, সব সময়।

১৩| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৩:০২

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুন্দর।+

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১১

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: শুভেচ্ছা

১৪| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৪:৪৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: সব সময়ের মত দুর্দান্ত ছবি ব্লগ :)

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৩

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: চেষ্টা করি সুন্দর ছবি তোলার, এটা আমার নেশা........শুভ কামনা জানবেন আপু।

১৫| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:৪১

সনেট কবি বলেছেন: মনোমুগ্ধকর ++

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৪

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: শ্রদ্ধা জানবেন ফরিদ ভাই।

১৬| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:৪৭

কাজী আবু ইউসুফ (রিফাত) বলেছেন: সাথে মোনা ভাই ও ভাবী আছে দেখছি- ফুটো চমৎকার হইছে-

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৮

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: হুমম, এই ট্যুরে মনা ভাই ও মিনি ভাবীও ছিলেন। ভ্রমণ বাংলাদেশের বাঘা বাঘা ক্যামেরাম্যানদের তুলনায় আমার ছবি মোটেও ভালো হয়না সেটা আমি জানি। শুভেচ্ছা জানবেন রিফাত ভাই।

১৭| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:৫৯

বিজন রয় বলেছেন: দারুন!!

আপনার কল্যাণে ঘরে বসে অনেক কিছু জানতে ও দেখতে পারি।
+++

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:০৫

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: আসেন সুর মিলাই, থাকবো নাকো বদ্ধ ঘরে...........


শুভ কামনা সব সময়

১৮| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৭

তারেক ফাহিম বলেছেন: হাওর এলাকায় কখনো যাওয়া হয়নি।

অনেক দিনের ইচ্ছে আছে।
সময় সুযোগ হচ্ছে না তাই যাওয়া হয়নি।

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:৫৪

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ঢাকা থেকে একদিনেই নিকলী হাওর দেখে আসা যায়, সুতরাং বেড়িয়ে পড়তে পারেন কোন এক বর্ষায়

১৯| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:০৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: সাদা মনের মানুষ ,




শুরুর ছবিটাই নয়নকাড়া । বাকীগুলোও সেই লাইনের !
ভ্রমন বাংলাদেশ টিমের সবাইকে শুভেচ্ছা ।

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:১২

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ধন্যবাদ বড় ভাই, আপনাকে আন্তরিক শুভেচ্ছা

২০| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৪৪

বলেছেন: ভিষণ মুগ্ধতা

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৮:১৪

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: শুভ কামনা জানবেন ভাই।

২১| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৫৫

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: সুন্দর হয়েছে ছবিগুলো। আপনি ভাগ্যবান। এই বাংলাদেশকে আপনি ঘুরে ঘুরে দেখতে পাচ্ছেন...

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৮:১৬

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: সেটা আমিও মনে করি ভাই, তবে ইচ্ছে থাকলে কম বেশী দেশের ভেতরে এমন ঘুরে বেড়ানোটা খুব কঠিন কিছু না।

২২| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১০:৫৪

এ.এস বাশার বলেছেন: খুব খুব উপভোগ করলাম।
শুভকামনা রইলো আপনার জন্য।

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৮:১৭

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: হুমম, আমরাও তাই করেছিলাম বাসার ভাই।

২৩| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১১:৩০

ওমেরা বলেছেন: ছবিও ভাল টিমও ভাল।

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৮:১৮

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ছবি খুব একটা ভালো নাও হতে পারে, তবে আমাদের ভ্রমণ বাংলাদেশ টিমটা সব সময়ই দূর্দান্ত

২৪| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১২:৫৫

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: সুন্দর সব ছবি!

দারুন!

জলের ছবিগুলো সাতার কাটার লোভ জাগাচ্ছে খুব! :)

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ১:২২

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: এই গরমে এমন জলে সাতার কাটতে কার না ইচ্ছে করে? মনে হয় বেশ কিছুদিন পরে আপনাকে পেলাম, কেমন আছেন বিলিয়ার ভাই?

২৫| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৩:০৫

বিদ্যুৎ বলেছেন: সত্যিই অবাক লাগে কত দেশ বিদেশ দেখলাম কিন্তু নিজের দেশে অনেক সুন্দর এখনও দেখা হয়নি। ধন্যবাদ আপনাকে কিশোরগঞ্জ নিকলী হাওড় ঘুরে দেখানোর জন্য।
কবিগুরু রবীন্দ্রনাথের এই কবিতাংশ মনে পড়ে গেল আপনার এই সুন্দর পোস্ট দেখে।

বহু দিন ধ’রে বহু ক্রোশ দূরে
বহু ব্যয় করি বহু দেশ ঘুরে
দেখিতে গিয়েছি পর্বতমালা,
দেখিতে গিয়েছি সিন্ধু।
দেখা হয় নাই চক্ষু মেলিয়া
ঘর হতে শুধু দুই পা ফেলিয়া
একটি ধানের শিষের উপরে
একটি শিশিরবিন্দু।

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:০৬

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: সত্যি বলেছেন ভাই, রবী ঠাকুর কবিতাটা সত্যিই অনন্য, ভালো থাকবেন ভাই।

২৬| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৮:২৫

সৈকত জোহা বলেছেন: আপনি বেশ ভালই আছেন। সমগ্র বাংলাদেশ ঘুরছেন

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:০৭

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: এখনো অনেক বাকী ভাই, তবে কোন এক সময় হয়তো কিছুই বাকী থাকবে না, শুভ কামনা জানবেন।

২৭| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ দুপুর ১২:২৯

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: বড়ই সৌন্দর্য!

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:০৭

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: হে হে হে, না হইলে আর বলি কি? :-B

২৮| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১৪

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: নিচের ছবি দুইটাও বড় সৌন্দর্য। ফেসবুক থাইকা টোকাইয়া আনলাম। আশা করি, আপনার ভালো লাগব।



নিচের ছবি দুইটাও বড় সৌন্দর্য। ফেসবুক থাইকা টোকাইয়া আনলাম। আশা করি, আপনার ভালো লাগব।




হুজুর তার বিবিদের ছবি তুলছেন।

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:০৫

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: আপনার এমন কার্যক্রমে মুগ্ধ আমি :-B

২৯| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১৭

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: প্রথম ছবিটা ভুলে দুইবার পোস্ট হইছে। বাঁশ কিন্তু একবারই দিছে।

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:৩২

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: বাঁশের ব্যাপারটা আপনারই ভালো টের পাওয়ার কথা ভাই। B-)

৩০| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১১:৫৪

ফারিহা হোসেন প্রভা বলেছেন: সুন্দর পোষ্ট। কেমন আছেন স্যার?

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৭:২১

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ভালো আছি আপু, স্যার ডাকাটা কেমন যেন বেমানান

৩১| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:৩৮

জসীম অসীম বলেছেন: এতো সুন্দর ছবি, না গেলে বিশ্বাসই করা কঠিন। সত্যি অপূর্ব। আমি 2002 সালের শরৎকালে অষ্টগ্রামে গিয়েছিলাম। ফিরে এসে লিখেছিলাম পাখি নিয়ে গল্প ‘গুলিবিদ্ধ ডাহুক’। গল্প যেমনই হোক, ওই গল্পের বর্ণনায় হাওরের প্রকৃতির বর্ণনা আপনার ভালো লাগতে পারে। অশেষ ধন্যবাদ এমন সুন্দর পোস্টের জন্য।

২৪ শে অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:০০

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ধন্যবাদ জসিম ভাই, পরের দেখে নেবো।

৩২| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:৩০

মলাসইলমুইনা বলেছেন: বাংলাদেশে অল্প কয়টা বড় হাওর এলাকার এটা একটাI ভাইয়ের চাকুরীর কাৰণে অনেক শোনা নিকলী. মিঠা মইনের হাওরের কথা I কিন্তু কখনো যাওয়া হয়নি I আমি একবার কিশোরগঞ্জে গিয়ে থাকলামও একমাস কিন্তু তবুও যাওয়া হয়নি কেন যেন I ভালো লাগলো ফটোগুলো দেখে I

২৬ শে অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:০৫

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই, মিঠামইন হাওরে প্রচন্ড ডেওয়ে নৌকা ডুবে মরতে বসেছিলাম প্রায়।

৩৩| ২২ শে অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৪:০৭

হাসান রাজু বলেছেন: আমার ছেলেবেলার একটা অংশ কেটেছে হাওর বেষ্টিত এলাকায়। বর্ষায় পানি আর পানি, আর শুষ্ক মৌসুমে বিস্তীর্ণ হাওরজুড়ে ধান ক্ষেত এর দুই রূপ অন্য রকম একটা ভালো লাগা মনের ভেতর এখনো ছড়িয়ে যায়। আপনার ছবিগুলতে সেই অনুভূতির কিছুটা আবার পেলাম। মিঠামইন, বাজিতপুর, নিকলী, অষ্টগ্রাম, মন্দরি, কাগাপাশা, মক্রমপুর, সুজাতপুর, আজমেরিগঞ্জ,পৈলারকান্দি এমন অনেক অনেকবার শুনা নামগুলো আবার মনে করিয়ে দিয়ে নস্টালজিক করে দেয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ আপনাকে ।

২০ শে নভেম্বর, ২০১৮ সকাল ৮:০৪

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: ধন্যবাদ রাজু ভাই, আমিও অল্প কিছু হাওর দেখার সৌভাগ্য অর্জন করেছি।

৩৪| ১৯ শে নভেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৪

প্রামানিক বলেছেন: হাওরের ছবি দেখলেই যাইতে মন চায়।

২০ শে নভেম্বর, ২০১৮ সকাল ৮:০৫

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: যান না কেরে?

৩৫| ১৭ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:১৪

রাকু হাসান বলেছেন: নিকলী’র ছবি তো ভিষণ মুগ্ধতা দিল । বিশেষ করে ১৫/১৬ নং ছবিটা অনেক ভালো লাগলো । হাওর অঞ্চলে ঘুরার অনেক দিনের ইচ্ছা । হাওরে অনন্ত এতটি পূর্ণিমার রাত কাটানোর ইচ্ছা । সম সুযোগ হচ্ছে না । শেয়ার করার জন্য অনেক ধন্যবাদ । সাদা মনের ভ্রমণ পিপাসু মানুষ । :)
১৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:২৬০
লেখক বলেছেন: পূর্ণিমার রাতে হাওরে রাত কাটানোর অভিজ্ঞতা আমারও হয়নি, ওটা নিশ্চয়ই স্বর্গীয় একটা রাত হতে বাধ্য.....শ্রদ্ধা জানবেন হাসান ভাই।


কিছু দিন আগে ঘুরে আসলাম । ভালো লেগেছে । আপনার ছবিগুলো সুন্দর । আমাদের যাওয়ার দিনটি ম্যাচ খায়নি । আকাশ মেঘলাটে ছিল ,বৃষ্টিও হয়েছে। তবে আনন্দ কম করেনি । ১৫/১৬ নং ছবির জেগে উঠা চরটি সত্যিই হৃদয় কাড়া । ফুটবল খেলায় মেতে উঠছিলাম । মাঠে যে গাছটি আছে সেটি বাড়তি সৌন্দর্য দিয়েছে । কিন্তু গাছটি আমরা দেখতে পায়নি । হয়তো কেটে ফেলছে ।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৮:০২

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: মেঘলা আকাশ থকলে সৌন্দর্য্যের অনেকটাই ঘাটতি হওয়ার কথা, হিজল গাছটি কেটে ফেলা হয়েছে জেনে মনটা খারাপ হল...... ভালো থাকুন, সব সময়।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.