নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি লেখক নই, মাঝে মাঝে নিজের মনের ভাবনাগুলো লিখতে ভাল লাগে। যা মনে আসে তাই লিখি,নিজের ভাললাগার জন্য লিখি। বর্তমানের এই ভাবনাগুলোর সাথে ভবিষ্যতের আমাকে মেলানোর জন্যই এই টুকটাক লেখালেখি।

তারেক_মাহমুদ

পৃথিবীর সব ভাল টিকে থাকুক শেষ দিন পর্যন্ত

তারেক_মাহমুদ › বিস্তারিত পোস্টঃ

সহযাত্রী

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৫৮

ঘটনাটা ২০১১-১২ সালের, পড়াশোনা শেষ করে সবেমাত্র জবে ঢুকেছি। একবন্ধুর সাথে ঢাকার মহাখালী ওয়ারলেস গেটের একটি ফ্ল্যাট বাসার ছাদের একটি রুমে ভাড়া থাকি। বাড়িওয়ালা আংকেলের কাছে বহুত কাকুতি মিনতি করে সাততলায় ছাদের এই রুমটি ভাড়া নিয়েছে আমার বন্ধু। ছাদের এই রুমটি পেয়ে আমরা দুজনেই খুব খুশি। ছাদে বসে সন্ধ্যার ঝিরিঝিরি বাতাসে চাদের অপরুপ সৌন্দর্য কিংবা তারার মেলা দুটোই দারুণ উপভোগ্য। প্রতি মাসে অন্তত একবার বাড়ি যাই, বৃহস্পতিবার হাফবেলা অফিস করে ছুটি নিয়ে বাড়ি যাই আবার শনিবার বিকেল তিনটেই বাড়ি থেকে রওনা হই রাত দশটা এগারোটা অব্দি ঢাকার ফিরে আসি।


এমনি এক সন্ধ্যায় গ্রামের বাড়ি থেকে ঢাকা ফিরছিলাম। গুলিস্তান থেকে লোকাল বাসে মহাখালী আসছিলাম। মগবাজারে বেশ কিছু যাত্রী নেমে গেল আবার বেশ কয়েকজন বাসে উঠলো, তাদের মধ্যে খুব সুন্দর চেহারার ২০-২২ বছরের একটা ছেলেও বাসে উঠলো এবং আমার পাশেই বসলো। আমি তখন প্রায় ৭/৮ ঘন্টার জার্নি করে ঢাকায় এসেছি তাই খুবই ক্লান্ত, একবার শুধু ছেলেটাকে দেখলাম তারপর পুনরায় ঘুমিয়ে পড়লাম। ঘুমিয়ে পড়ার আগে মনে হচ্ছিল ছেলেটা আমাকে কিছু একটা বলতে চাইছে।

ঘুম ভাঙলো নাবিস্কো এসে। ঘুম ভাঙার পরও মনে হল পাশে বসে থাকা ছেলেটা আমার সাথে কথা বলতে চাইছে। আমি জিজ্ঞাসা করলাম,
- আপনি কি আমাকে কিছু বলতে চান?
ছেলেটি একগাল হাসি দিয়ে বললো
-ভাইয়া আপনি তো খুবই হ্যান্ডসাম।
কোন ছেলে এভাবে অন্য ছেলের প্রসংশা করতে পারে এটা আমি কোনদিনই শুনিনি।
আমিও তার প্রসংশা করে বললাম
-আপনিও তো বেশ হ্যান্ডসাম।
কথায় কথায় নিজের পরিচয় দিল, নামটা অবশ্য মনে নেই, তাই তার নাম দিলাম রাসেল। সে বললো
-আমি আপনার চেয়ে বয়সে অনেক ছোট আপনি আমাকে তুমি করে বলবেন।
আমি বললাম
-আচ্ছা ঠিক আছে।
না জিজ্ঞেস করতেই সে তার ব্যাক্তিগত বিভিন্ন তথ্য আমাকে দিতে লাগলো, এই যেমন
সে ব্রোকেন ফ্যামেলিতে বড় হয়েছে, খুব বেশিদুর পড়াশোনা করতে পারেনি, তার পড়াশোনা এস এস সি পর্যন্ত সীমাবদ্ধ, কয়েকবার ইন্টার পরিক্ষা দিয়েও পাশ করতে পারেননি, তাই পড়াশোনা ছেড়ে দিয়েছে।
‌ছেলেবেলা থেকেই তার সখ ছিল মডেলিং করার। এখন সে ফ্যাশন মডেলিং করে,ভবিষ্যতে নিজেকে একজন দেশ সেরা মডেল হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করতে চায়। বাস ততক্ষণে মহাখালী আমতলী পৌঁছেছে এবং আমার নামার সময় হয়ে গেছে। আমি বাস থেকে যখন নামতে যাবো তখন সে বললো
-ভাইয়া আপনার নম্বরটা কি পেতে পারি?
‌আমি আমার মোবাইল নম্বর তাকে দিলাম তবে তার নম্বর নেওয়ার প্রয়োজন মনে করলাম না।

বাসায় পৌঁছে ফ্রেশ হয়ে খেয়েদেয়ে ভাবলাম একটু ঘুমিয়ে নি, অনেক বড় জার্নির ধকল গেছে শরীরের উপর দিয়ে। কিছুক্ষণ পরই একটি আননোন নাম্বার থেকে ফোন এল, একরাশ বিরক্তি নিয়ে ফোনটা রিসিভ করলাম।

-হ্যালো ভাইয়া আমি রাসেল, ঐ যে বাসে আপনার সাথে পরিচয় হল। আমি বললাম
-ও হ্যা
সে বললো
- আপনি ঠিক মত পৌছেছেন, খাওয়া দাওয়া করেছেন?
আমি সবগুলো প্রশ্নের উওর একসাথে দিলাম
-'হ্যাঁ '
- এখনি ঘুমিয়ে পড়ুন বেশি রাত জাগবেন না অনেক জার্নি করে এসেছেন সে বললো।
আমি বললাম
-আচ্ছা, আমি এখন খুবই টায়ার্ড আর কথা বলতে পারবো না আমি রাখছি, বলে ফোনটা রেখে দিলাম।

এরপর থেকে প্রায় প্রতিদিনই দিনই সে আমাকে ফোন করতো,
অফিসের কাজে যখন আমি প্রচণ্ড ব্যস্ত, তখনও ফোন করে বলতো,
-সকালে কি খেয়েছেন? দুপুরে কি খাবেন? এইসব ফালতু প্যাচাল।
আমি বললাম
-তুমি কেন আমাকে এতবার ফোন করছো?
সে বললো
-আপনি আমাকে একদিন সময় দেন সামনাসামনি বলবো।
আমি বললাম
-তোমাকে আমি কেন সময় দেবো? তুমি আমার এমন কেউ নও যাকে সময় দিতে হবে। যা বলার মোবাইলে বল।
তখন সে বললো
-আপনি যদি রাগ না করে ধৈর্য ধরে আমার কথা শুনেন তবেই আমি বলবো।
বিষয়টা জানার জন্য আমার খুবই কৌতুহল হল, তাই বললাম
-আচ্ছা ঠিক আছে তুমি কি বলতে চাও বল আমি শুনবো।

তখন সে শুরু করলো
- আসলে আমার চেহারা ছেলেদের মত হলেও আমি নিজেকে ছেলে মনে করি না। মেয়েদের প্রতি আমার কোন আকর্ষণবোধ নেই। আমার আকর্ষণ ছেলেদের প্রতি। আপনাকে আমার খুবই ভাল লেগেছে, আমি আপনাকে ভালবেসে ফেলেছি। এরপর যা বললো সেটা আর বলতে চাই না, নিজের মত বুঝে নিবেন।
এবার আমার মেজাজ খারাপ হয়ে গেল, যাচ্ছেতাই গালিগালাজ করলাম।
আমার এমন ব্যবহারে সে বললো
- আপনি রাগছেন কেন? আমিতো আর আপনাকে জোর করছি না?
আমি বললাম
-আর কোনদিন আমাকে ফোন করবে না।
তার শেষ কথা
-আপনার যদি কোনদিন ইচ্ছে হয় তবে এই নম্বরে ফোন দিয়েন।
সঙ্গে সঙ্গে নম্বরটা ব্লক করে দেই।

এরপর আর কোনদিন রাসেল আমাকে ফোন করে বিরক্ত করেনি। আমাদের সমাজে এমন রাসেলদের সংখ্যা কম নয়।

নোটঃ হাবিব স্যার ভায়ের সমকামী বুড়োর খপ্পরে গল্পটি পড়ে এই ঘটনাটা মনে পড়লো।







মন্তব্য ৪৮ টি রেটিং +১০/-০

মন্তব্য (৪৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:৩৯

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: আহারে! সকাল বেলা কি গল্প লিখলেন! হাহাহা এখন তাহলে হাবিব স্যারের হামলায় আক্রান্ত হয়েছে ব্লগে। জীবনের পথে পথে এমন হাজারো ঘটনা প্রতিনিয়ত ঘটে থাকে। সেগুলোর বেশ কিছু আমাদের মনে রেখাপাত করে যায় । এভাবে চলতে থাকুক .....

শুভকামনা প্রিয় তারেক ভাইকে।

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৭

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হুম, একবার ভেবেছিলাম লিখবো না আবার লিখেই ফেললাম।অনেক ধন্যবাদ পদাতিক ভাই।

২| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১৮

আখেনাটেন বলেছেন: ছোকরা তরতাজা পাখি শিকারে নেমেছিল। পেয়েওছিল মনে হচ্ছে। দিলেন তো কেঁচে গুন্ডুস করে। :P

এই ধরণের চরিত্রের সংখ্যা বেশি না হলেও কমও নয়। আমি নিজেও ছোটকালে এরকমই একটি ঘটনার মুখোমুখি হতে চলেছিলাম। পার পেয়েছি উপস্থিত বুদ্ধি খাটিয়ে।

সমকামীতা এক ধরণের মানসিক সমস্যা। হরমোনাল ব্যাপার-স্যাপার। এখানে ব্যক্তির কিছু করার নেই।

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৪২

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: খুবই গুরুত্বপূর্ণ মন্তব্য করেছেন, এটা হয়তো খুবই সাধারণ ঘটনা এরচেয়ে অনেকের জীবনে অনেক বাজে বাজে ঘটনা ঘটে থাকে যেগুলো কোনদিনই প্রকাশিত হয় না। পাঠ ও মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ ।

৩| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৪১

কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: ভাইয়া আপনি তো খুবই হ্যান্ডসাম! ;)

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৪

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হা হা হা।

৪| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৪১

মা.হাসান বলেছেন: খারাপ কি, পজিটিভলিই নিলাম, আমাদের কারো কারোর তো এমন অবস্থা ছেলে- মেয়ে--কেউই পাত্ত দেয় না। /:)
মন্দ কি, কারোর কারো জীবনে অপশন তো আছে। প্রতিবেশির কপাল দেখে আমি হিংসা আর করলাম না।

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৩

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হা হা হা বেশ।

৫| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:০০

পবিত্র হোসাইন বলেছেন: কেন রাগ করছেন সেতো জোর করেনি? B-))

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৪

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হুম তা ঠিক।

৬| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:৫৪

রাজীব নুর বলেছেন: হায় হায়----
ভয়াবহ অবস্থা।

কয়েকদিন আগে আমি রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলাম। এক হুজুর বাইক চালিয়ে আসছিলেন আমাকে বললেন- আপনি তো দারুন স্মার্ট। হুজুরকে আমি আর বেশী কিছু বলার সুযোগ না দিয়ে হেসে চলে গেলাম।

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৪

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: সাবধান ভাই ।

৭| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:১৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগার হাবিব সাহেবের পোষ্ট পড়েছিলাম; জীবনের কিছু অভিজ্ঞতা নিজের কাছেই রাখতে হয়।

০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৩

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: এটা সত্যি কিছু অভিজ্ঞতা নিজের কাছে রাখতে হয়, তবে এটাকে তেমন গুরুত্তপূর্ণ অভিজ্ঞতা মনে হয় নি, তাই নিজের কাছে রাখলাম না।

৮| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৪:১৩

নতুন বলেছেন: কিছু মানুষ এমন হয় .. এবং তার এই অবস্হার জন্য মনে হয় সে দায়ী না... বেশির ভাগ মানুষের বিপরীত লিঙ্গের প্রতি আকষ`ন থাকে... কিন্তু কিছু মানুষের সেটা থাকেনা.... ।

আরেকটা বিষয়...









ভাইয়া আপনি কিন্তু খুবই হ্যান্ডসাম... ;)

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৮:২২

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: আমার মনে হয় ওদের কাউন্সিলিং প্রয়োজন।

৯| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৪:১৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: যাক, ভালো। যেখান থেকেই হোক, হ্যান্ডসামের একটা সার্টিফিকেট তো পেলেন! এটাই বা কম কি!!! :P

দেশে এ'ধরনের মানুষ ভালো সংখ্যাতেই আছে, বোঝা যাচ্ছে। দেশের সামাজিক আর ধর্মীয় প্রেক্ষাপটে এরা ঠিকমতো বিকশিত হতে পারছে না। পশ্চিমা বিশ্বের মতো হলে খবরই ছিল!

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৮:৩১

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: মানসিক বিকারগস্ত লোকের সার্টিফিকেটের কোন মুল্য নেই।

প্রশ্রয় পেলে সমকামীতা মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে তাই একে প্রশ্রয় দেওয়া মোটেই উচিত হবে না, এটা প্রকৃতি বিরুদ্ধ ।

১০| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৪:১৮

জাহিদ অনিক বলেছেন: হুম !!! সেদিন হাবিব স্যারের পোষ্টে আপনার মন্তব্য দেখে বুঝেছিলাম এমন একটা পোষ্ট আসবে ;)

এখন থেকে ২০ ২২ বছরের সুন্দর দেখতে ছেলেদের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। ;) হা হা

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৫৫

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হা হা হা আপনার সাবধান হওয়া জরুরি, :)

১১| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:০২

বলেছেন: সমলিঙ্গের প্রতি আকর্ষণ থাকাটা কি অপরাধ ?

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৫৬

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: আমি এটা প্রকৃতি বিরুদ্ধ মনে করি।

১২| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৪০

আহমেদ জী এস বলেছেন: তারেক_মাহমুদ,



অদ্ভুত তো!!!!!!!!!!!

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৫৭

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: আসলেই।

১৩| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৮:৫৭

হাবিব স্যার বলেছেন: ভাইয়, আমি কিন্তু আপনাকে ভালোবেসে ফেলেছি...........

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৫৭

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: :)

১৪| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:১৪

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: সমকামিতর ব্যাপ্তি বেশ বেড়েছে ! রংধনুর সমাবেশ, মিছিল দেখে শংকিত হতে হয় বৈকি!

আমার অফিসে একজন জোকের মতো লেগেছিল বেশ ক দিন!
পরে তাকে নিরস্ত করতে সফল হওয়া সে এক মজার ইতিহাস!

কওমে লুত বা লুত নবী যে সময়ে এসেছিলেন যাদের কাছে এসেছিলেন তারা ছিল সমকামী সম্প্রদায়!
খুব কম মানুষ ঈমান এনেছিল নবীর আহবানে। পরে তাদের গন্ধক বৃষ্টি, জমিন উল্টে দেয়া সহ নানাবিধ আযাবে ধ্বংস করা হয়েছিল। যা এখন ডেড সি নামে পরিচিত!

আল্লাহ আমাদের দেশকে, প্রজন্মকে সমকামিতার বিষাক্তকা থেকে মুক্ত রাখুন।

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:০১

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: এরা আমাদের সমাজে ঘাপটি মেরে আছে রঙধনু সমাবেশ তারই প্রমাণ । সুন্দর মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

১৫| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:১৯

সুমন কর বলেছেন: হাহাহাহা..............এমন হয় বুঝি !! বাসে ভুলেও ঘুমিয়ে যাবেন না............

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:০৩

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: প্রথমদিন আমিও ভাবতে পারিনি আসলেই এমনটা ঘটে।

১৬| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১০:০৭

নতুন নকিব বলেছেন:


এরা কি অসুস্থ? এদের মানুষ করার উপায় কি?

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:০৯

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: একদম সত্যি, কেউ নিজে সংশোধিত না হলে তাকে সংশোধনের কোন উপায় নেই।

১৭| ০২ রা এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১০:৫৭

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন:





ইয়ে মানে ভাইয়ায়ায়ায়্যা

আপনি অনেক হ্যান্ডসাম !!!!

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:১০

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হা হা হা

১৮| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ ভোর ৬:৪১

নাসির ইয়ামান বলেছেন: বিদ্রোহী ভৃগু!

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:১০

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: ধন্যবাদ

১৯| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:৫০

তারেক ফাহিম বলেছেন: ছোট বেলায় আমিও এক বুড়োর খপ্পরে পড়েছিলাম X((

পরে পাশ কেটে চলে আসলাম।

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৪

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হা হা হা ফাহিম ভাই হাবিব ভাইয়ের মত দেখি আপনারও একই অবস্থা।

২০| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আল্লাহ বাচাইছে ! আমি হ্যান্ডসাম নই :P :P

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৪২

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হা হা হা কে বলেছে আপনি হ্যান্ডসাম নন? নিজে বললে তো হবে না লিটন ভাই?

২১| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:২৬

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: ছেলে বেলায় আমিও এমন ঘটনার সম্মুখীন হয়েছিলাম।

প্রকাশ করাটা মনে হয় ঠিক হবেনা।

মানুষ সত্যি বড় অদ্ভুত।

০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৭

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: হায় হায় সবারই দেখি একই অবস্থা ।

২২| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৫

নীল আকাশ বলেছেন: কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: ভাইয়া আপনি তো খুবই হ্যান্ডসাম! - আপনার ফোন নাম্বার আছে নাকি কাভা ভাইয়ের কাছে?? :P
দেরি করে আসার জন্য লজ্জিত। ব্লগে ঢুকা আর পড়া খুব কঠিন হয়ে প্টেছে আজকাল।
খুব সুন্দর ভাষায় শালীনতা বজায় রেখে দারুন ভাবে পুরো বিষয়টা উপস্থাপন করেছেন।
আমি মুগ্ধ আপনার প্রেজেন্টেশনের স্কীল দেখে। ধন্যবাদ আবারও শালীন ভাষা ব্যবহার করার জন্য।
কথপোকথন ভাল লেগেছে।
সময় করে আপনার বাকি লেখা গুলিও পড়তে হবে।
আজকে এই পর্যন্তই থাক তারিক ভাই।
শুভ কামনা রইল!!

১০ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:০৮

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ নীল আকাশ ভাইয়া, আপনার এমন মন্তব্য সত্যি অনুপ্রেরণা দায়ক

অনেক অনেক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা।

২৩| ০৩ রা এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩০

নতুন বলেছেন: ভাই বাইরের দেশে এই রকমের মানুষগুলি সমাজে সমস্যা সৃস্টি করেনা.... তারা তাদের মতন জীবন যাপন করে... আমাদের দেশে সমস্যা সৃস্টি করে।

আরেকটা জিনিস মনে হয় এটা প্রাকৃতিক... যেমনটা মানুষ বা হাতী হয়....তেমনি মানুষের পছন্দ ভিন্ন হতেই পারে... যেমন আপনি কম্পিউটারে উইনডেস বা এপ‌্যাল বা লিনেক্স ওপারেটিং ব্যবহার করলেন... হয়তোবা শরিরটা ছেলেদের কিন্তু পছন্দ মেয়েদর মতন...

১০ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:১১

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: এটাকে সমস্যা মনে করে চিকিৎসা করে নেওয়াই ভাল , আসলে প্রাকৃতিক নিয়মের বাইরে গিয়ে কোন কাজের ফল শুভ হয় না।

২৪| ২৮ শে এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩১

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: পড়লাম...

২৯ শে এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:০৫

তারেক_মাহমুদ বলেছেন:

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.