নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif অথবা Abdur Rob Sharif

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

ভালবাসার আরেক নাম মাশরাফি

১৮ ই মে, ২০২০ বিকাল ৩:৪০



কতটা ভালবাসা থাকলে একটি ব্রেসলেট ৪২ লাখ টাকা দিয়ে কিনে সেটি আবার তাকেই গিফট দিয়ে দেওয়া হয়!
.
যতটুকু ভালবাসা থাকলে সকল নিরাপত্তা ভেদ্ করে ছুটে যায় একজন ভক্ত খেলার মাঝে, একটু মোলাকাত করা যেনো তার সেরা জীবনের শখ্,
.
কে বলে মানুষ ভালবাসতে জানে না! প্রশ্নটা হলো, ভালবাসা পাওয়ার জন্য তুমি কি করেছো ৷
.
একবার বলেছিলাম, পাগলটাকে জোর করে ধরে ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ানো উচিত ৷ হাঁটুতে কেবলি এফোঁড়-ওফোঁড় করা সেলাইয়ের আঁচড়। ছিঁড়ে যাওয়া লিগামেন্টের আর্তনাদ! ফর্ম ছিলো না, চারদিকে সমালোচনা তবুও কেউ তাকে জোর করে মাঠ থেকে নামিয়ে দেওয়ার সাহস করতেছিলো না!
.
আমি খুশি হয়েছি যখন তার নেশা অনেকটা কেটেছিলো, না হলে তাকে হুইল চেয়ার চালিয়ে বোলিং করতে দেখতাম ৷ তবুও কেউ সাহস করে বলতে পারতেছে না, ক্রিকেট ফর্মের খেলা ৷ ভাই নামেন ৷
.
একবার বাংলাদেশ ম্যাচ হারলো ৷ বুড়োটা কিছু করতে পারতেছিলো না! কড়া করে সমালোচনা করে এক্কান লেখা লেখার পর বুঝতে পারলাম বুকে চিনচিন করে ব্যথা করতেছে, চোখ ঝাপসা হয়ে আসতেছিলো,
.
মানুষটা হৃদয়ে কেমন করে যেনো বসে থাকে ৷ সত্যি ভাই, কেমন করে যেনো.....!
.
একটা সোজা কথা বলি, মুশফিকের ব্যাট সতের লাখ টাকা দিয়েও যখন কেবলি অফ্রিদি এগিয়ে এলো তখন মাশরাফির একটা পুরনো জরাজীর্ণ ব্রেসলেট ৪২ লাখ টাকা দিয়ে কিনে আবার সে সমস্ত আবেগ দিয়ে তা অধিনায়ককে ফিরিয়ে দিয়েছে,
.
ম্যাশের চেয়ে হয়তো সে আরো বেশী খুশি হয়েছে ৷
.
১৮ বছর ধরে ব্যবহার করা একটি ব্রেসলেট যেনো নব যৌবন পেয়েছে, সবকিছু পুরনো হয় না, ভালবাসা মিশে গেলে বরং দিন থেকে দিন্ দামী হতে থাকে ৷
.
উল্টো গল্প হচ্ছে, আঠারো বছর ধরে রাখা প্রিয় জিনিসটি তিনি আঠারো কোটি মানুষের বিপদে ছেড়ে দিতে একটু পিছপা হননি, এটাই নড়াইল এক্সপ্রেস ৷
.
এই যে দেশের মানুষের জন্য সবকিছু উজাড় করে দেওয়ার যে মানসিকতা, চেষ্টা, উদ্যম, প্রচেষ্টা জনগন তা ই তাকে ফিরিয়ে দিয়েছে বার বার,
.
সাতবারেরও বেশী সার্জারি করে ফিরে আসা ম্যাশের নেতৃত্বে যত ভালো অর্জন বাংলাদেশ ক্রিকেটের কিংবা তিনি ই পথ দেখিয়েছেন বড় বড় দলকে হারানোর ৷
.
আমরা যারা নব্বই দশকে জন্মেছি তারা দেখেছি মাশরাফিকে কিভাবে মানুষ আপন করে নিয়েছে, কতটা আবেগের জায়গা এই একটি নাম,
.
'ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাস্টিক' একবার বলেছিলেন, 'আমি নিজেকে খুব সস্তা মনে করি না। তাই নিজেকে কখনো একটা ট্রফি দিয়ে বিচার করতে চাই না।'
.
কতটা মোটিবেশনাল তার চিন্তগুলো,'ব্যক্তি মাশরাফিকে আপনি ট্রফি দিয়ে বিচার করলে সেটা আপনার ব্যাপার। কিন্তু আমি নিজেকে এত সস্তা ভাবি না।'
.
বিচার হবে ভালবাসা দিয়ে ৷ সার্টিফিকেটে থেকে লাভ নেই মানুষের হৃদয়ে থাকতে হবে ৷ যে মানুষদের হৃদয় কেড়ে নিতে জানে তার ট্রফি কিংবা স্বীকৃতি কেড়ে নেওয়ারও প্রয়োজন হয় না ৷
.
আতাহার আলী খান বলেছিলেন, অনুপ্রেরণার আরেক নাম মাশরাফি ৷ এগুলো বলে শেষ করা যাবে না, একটা সময় ছিলো বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা ব্যাটিং করতে নামতো আর আউট হয়ে প্যাভেলিয়নে ফিরে আসতো, সেখান থেকে একটি দলকে উঠিয়ে নিয়ে এসেছেন তিনি ৷
.
সৌরভ গাঙ্গুলিরাও স্বীকার করে বলেছেন কতটা উপভোগ্য মাশরাফির নেতৃত্ব বিপক্ষ দলে বসেও,
.
ভঙ্গুর একটি দল ৷ আসা যাওয়ার লড়াই চলছে ৷ নির্বাক ভাবলেশহীন বসে মাশরাফি হঠাৎ চিৎকার দিয়ে বলতে লাগলো, 'রান না করলে মরবি না, ব্যাটিং কর। এটা জীবন না, খেলা। খেলা ৷ এতো ভয়ের কিছু নেই!' মুহুর্তে দৃশ্যপট পাল্টে গেলো!
.
ঠিক আঠারো বছর আগে, হাত নেড়ে নেড়ে এভাবে বলে যাচ্ছে 'এটা, জীবন না, খেলা, জাস্ট খেলে দিয়ে আয়' সাথে ঝুলছে একটি ব্রেসলেট, সব সময় হাতে থাকতো এটি, নাম হয়ে গিয়েছে ভাগ্য লক্ষী!
.
আঠারো বছর পর, সেটি খুলে নিলাম তুলে দিলেন ৷ বার বার ইশারা করে দেখাচ্ছিলেন, হাত খালি ৷ সত্যি দিয়ে দিচ্ছি, আমাদের এই যুদ্ধ মোকাবেলা করতেই হবে ৷
.
একবার তো বলেই ফেললেন, আর কখনো এটি হাতে পরবো না ৷
.
কে যেনো বলেছিলো, ক্রিকেটাররা নাকি পুরনো জিনিস বিক্রী করে ঘর পরিষ্কার করছে তবে কি মাশরাফিও কি হাত পরিষ্কার করলেন?

মন্তব্য ১০ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (১০) মন্তব্য লিখুন

১| ১৮ ই মে, ২০২০ বিকাল ৫:৫৬

রাজীব নুর বলেছেন: কিছু মানুষ আছে তারা শুধু ঝামেলা পাকায়। ভালোর মধ্যেও খারাপ দেখতে পায়।

১৯ শে মে, ২০২০ রাত ১২:১৮

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: অদ্ভুতভাবে তারা সবকিছু নিজস্ব দৃষ্টিকোণ থেকে ভাবে, মনে করে তারাই ঠিক, এমন মানুষ ব্লগেও আছে ৷

২| ১৮ ই মে, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৪

নুরুলইসলা০৬০৪ বলেছেন: লাখ কথার এক কথা,ভালবাসা পাওয়ার জন্য তুমি কি করেছ

১৯ শে মে, ২০২০ রাত ১২:১৯

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: প্রেমিকার গুন্ডা মার্কা বড় ভাইয়ের মাইর না খেয়ে ই আমরা ভালবাসা পেতে চাই ৷

৩| ১৮ ই মে, ২০২০ রাত ৮:০৫

নেওয়াজ আলি বলেছেন: ভালোবাসা । ভালো কাজ করতেছে

১৯ শে মে, ২০২০ রাত ১২:২০

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: না করলেও তো পারতো ৷

৪| ১৮ ই মে, ২০২০ রাত ৮:৩০

সোহানী বলেছেন: সত্যিই মাশরাফি মাশরাফিই। একজন সফল মানুষ বলবো আমি। অনেককেই চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছেন বোগে নয় ত্যাগেই প্রকৃত সুখ।

১৯ শে মে, ২০২০ রাত ১২:২১

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: ওনারা চাইলেও তো চুপ করে থাকতে পারতেন ৷

৫| ১৮ ই মে, ২০২০ রাত ১০:২৩

শুভ্রনীল শুভ্রা বলেছেন: ভালোবাসার জায়গা থেকেই হয়তো তাঁকে পুনরায় গিফট দেয়া হয়েছে কিন্তু এখানেও দেখছি দ্বিধা -বিভক্ত !
ডয়চে ভেলে বাংলা বিভাগ প্রধান, খালেদ মুহিউদ্দীন এর ''মাশরাফীর গয়না ফিরে পাওয়া ও আমার বেদনা'' শিরোনামে লেখাটি পড়ে দেখতে পারেন। উনি একটু অন্যভাবে ভেবেছেন।

view this link

১৯ শে মে, ২০২০ রাত ১২:২২

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: তারা কি আসলে মনে করেছে, ম্যাশকে ভালবাসা ফিরিয়ে দিয়েছে! আসলে ওদের জ্বলে কারণ ওরা ভাবে ওরাই সেরা ৷

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.