নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ভুয়া মফিজ

ভুয়া মফিজের সাথে ভুয়ামি না করাই ভালো...

ভুয়া মফিজ › বিস্তারিত পোস্টঃ

মোহনীয় রমণীয় প্যারিস (পর্ব ১)

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:০৮



ক’দিন ধরে বেশ ব্যস্ততা যাচ্ছে। মাথার মধ্যে বিভিন্ন আইডিয়া ঘোরফেরা করে, কিন্তু কেন জানি লিখতে ইচ্ছা করে না। একদিকে সময় পাইনা, অন্যদিকে লেখার জন্য যদিও বা বসি, বসলে মনে হয় কে যেন চেয়ার থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়ার চেষ্টা করে! এটা কি রাইটার্স ব্লক? কি জানি? যাইহোক, শেষে ভাবলাম অনেকদিন ধরে কোন বেড়ানোর পোষ্ট দেয়া হচ্ছে না, আবার বিতং করে কিছু লিখতেও যেহেতু ইচ্ছা করছে না, তাই ছবি ব্লগই দেই একটা। এটা প্রথম পর্ব। ইচ্ছা আছে, তিনটা পর্বে এটা সম্পূর্ণ করবো। দেখা যাক।

এই পোষ্টের ছবিগুলোর একটা ইতিহাস আছে। আমার বেশ আগের নষ্ট হওয়া একটা ল্যাপটপ ঘরে পরে ছিল বহুদিন। বিভিন্ন সময়ে বেড়ানোর সময় তোলা প্রচুর ছবি ছিল সেটাতে। মাসদুয়েক আগে সেটার হার্ডডিস্ক খুলে একজনকে দিয়েছিলাম, যদি কিছু রিকোভারী করা যায়, এই আশায়। সে বলতে গেলে প্রায় সবই উদ্ধার করেছে। তার মধ্যে আমার প্যারিস ভ্রমনের খুবই প্রিয় ছবিগুলোর বেশীরভাগই আছে। এই পোষ্ট দেয়ার পিছনে সেই আনন্দটাও বলতে পারেন দায়ী....বহুলাংশে!

প্যারিস আমার খুব পছন্দের একটা জায়গা। ঢাকা থেকে চিটাগাং যাওয়ার মতো, লন্ডন থেকে প্যারিস বহুবার গিয়েছি, বিভিন্ন সময়ে; বিভিন্ন কারনে। তার মধ্যে বিশুদ্ধ বেড়ানো যাকে বলে, সেই উদ্দেশ্যে গিয়েছি মাত্র দু’বার। প্রথমবার ২০০৭ এ একা। দ্বিতীয়বার ২০১১ তে; বউ জেদ ধরাতে আর একা যেতে পারি নাই, সাথে নিতে হয়েছিল। ছবিগুলো সে সময়ের। তখন আমার ক্যামেরা ছিল কম মেগাপিক্সেলের, একেবারে বেসিক। তাই ফটো কোয়ালিটি খুব একটা সুবিধার না। কষ্ট করে দেখেন, কি আর করবেন।

এবার ছবি প্রসঙ্গে আসি। প্যারিসে আমার খুব পছন্দের একটা বেড়ানোর রুট আছে, পায়ে হাটা রুট। প্যারিস গেলেই আমার একটা চেষ্টা থাকে এই রুটে একটা চক্কর মারার। এর শুরু আইফেল টাওয়ার দিয়ে, আর শেষ হয় নটরড্যাম গির্জায় গিয়ে। ছবিগুলো আমি এই রুট অনুযায়ীই সাজালাম। প্রথম পর্ব মোটামুটি আইফেল টাওয়ারের উপর। পৃথিবীর সপ্তম আশ্চর্যের অন্যতম একটা স্থাপনা তো এটুকু দাবী করতেই পারে, কি বলেন!

প্যারিসের শ্যাম্পস ডি মার্সে ১৮৮৯ সালে স্থাপিত রট আয়রনের তৈরী এই টাওয়ারটিকে বহুযুগ ধরেই ''প্যারিসের আইকন'' হিসাবে গন্য করা হয়। কেন এটি তৈরী করা হয় জানতে হলে অতি সংক্ষেপে একটু পিছনে ফিরে যাই। ১৭৮৯ সালের ১৪ জুলাই বিপ্লবীদের হাতে বাস্তিল দূর্গের পতন ঘটে। সেই বিপ্লবটা ছিল ফরাসী রাজতন্ত্রের স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে আর বাস্তিল দূর্গ ছিল তৎকালীন রাজকীয় স্বৈরাচারিতার একটি অন্যতম প্রতীক। ১৮৮৯ সাল ছিল সেই বিপ্লবের শতবর্ষ উদযাপনের বছর। সিদ্ধান্ত হয়, রাজতন্ত্র-পরবর্তী ফ্রান্সের শৌর্য-বীর্য আর উন্নতি একটি মেলা আয়োজনের মাধ্যমে বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরা হবে। মেলাটির নাম দেয়া হয়, 'এক্সপোজিশান ইউনিভার্সাল অফ ১৮৮৯'। আরো সিদ্ধান্ত হয়, ফরাসী বিপ্লবকে স্বরনীয় করে রাখতে এবং ফ্রান্সের বর্তমান অবস্থানকে তুলে ধরতে একটি টাওয়ারও তৈরী করা হবে। দুই ফরাসী ডিজাইনার মরিস কোচলিন এবং এমিল নুগুয়ের এই টাওয়ারটির ডিজাইন করেন। সিদ্ধান্ত মোতাবেক ১৮৮৭ সালে প্রকৌশলী গুস্তাভ আইফেল এর তত্বাবধানে এর নির্মানকাজ শুরু হয় আর উনার নামেই টাওয়ারটির নামকরন করা হয় 'আইফেল টাওয়ার'।

আইফেল টাওয়ারের তিনটা ফ্লোর বা লেভেল রয়েছে। প্রথম এবং দ্বিতীয় লেভেলে যেতে সিড়ি বা লিফ্ট; যে কোনটা ব্যবহার করা যায়। আমি অবশ্য সিড়ি বেয়েছি! তৃতীয় বা টপ ফ্লোরে যেতে কোন সিড়ি নেই। আবার টিকেট কেটে লিফটে করে যেতে হয়।

এবার কিছু ছবি দেখা যাক। প্রথম ছবিটা টাওয়ারের নীচে দর্শনার্থীদের লম্বা লাইনের।


লোহা-লক্করের স্তুপ না, টাওয়ারের পেটের ভিতর থেকে তোলা।



বিভিন্ন লেভেল থেকে পাখীর চোখে প্যারিস। সেইন নদী, প্যারিস নগরী এবং চিল্লট প্রাসাদের বিভিন্ন ছবি।









সব ফ্লোরেই একটা করে রেস্টুরেন্ট আছে। টপ ফ্লোরেও 'বিশেষ' একটা আছে। বিশেষ এ’জন্যে যে, বিভিন্ন জুটিরা সেখানে গিয়ে শ্যাম্পেন খায় আর রোমান্টিক ছবি তোলে। এটা হলো একটা ট্র্যাডিশান। ২০০৭ এ একা ছিলাম, কোন ঝামেলায় পরি নাই। ২০১১ তে আমার বউ বায়না ধরলো, আমরাও শ্যাম্পেন খাবো আর রোমান্টিক ছবি তুলবো। কি আর করা। পরেছি মোগলের (পড়েন, বউয়ের) হাতে, খানা (পড়েন, শ্যাম্পেন) খেতে হবে সাথে। শ্যাম্পেনের গ্লাস হাতে নিয়ে রোমান্টিক ছবি তুললাম। ঘরের কথা প্রচার করা ঠিক না, তাই সেই ছবি দিলাম না। বরং আরো অধিকতর আকর্ষনীয় ছবি দেখেন।

টপ ফ্লোরে একটা এপার্টমেন্ট আছে, যেটা গুস্তাভ আইফেলের অফিস ছিল। ওটাকে সেভাবেই রাখা হয়েছে। উনার আর উনার মেয়ে ক্লেয়ারের মোমের মূর্তি দেখুন।


আমেরিকান আবিষ্কারক থমাস এডিসন সেই এপার্টমেন্টে গুস্তাভ আইফেলের সাথে দেখা করেন এবং একটি গ্রামোফোন উপহার দেন। উনার মোমের মূর্তিও সংরক্ষণ করা হয়েছে।


এই ছবিটা নেট থেকে নিয়েছি। আমার তোলা এমন কিছু ছবিও ছিল, কিন্তু সেগুলো আর উদ্ধার করা যায়নি।


টপ ফ্লোরে আরেকটা আকর্ষনীয় চেম্বার আছে যেখানে আইফেল টাওয়ার থেকে বিভিন্ন বড় বড় নগরীর দুরত্ব দেয়া আছে। আমাদের প্রিয় ঢাকার দুরত্ব দেখুন।


টাওয়ার থেকে নেমে রাস্তা পার হলেই সেইন নদীর উপর একটা ব্রীজ। আমার রুট অনুযায়ী সেই ব্রীজ পার হয়ে চিল্লট প্রাসাদের দিকে এগুতে হবে। এই প্রাসাদের চত্ত্বর থেকে আইফেল টাওয়ারের সবচাইতে সুন্দর ভিউ পাওয়া যায়। তিনটা দিলাম।




প্রতিরাতে সুর্যাস্তের পর রাত একটা পর্যন্ত আইফেল টাওয়ারে আলোর খেলা চলে। এটা অবশ্য চলমান না; প্রতি ঘন্টার শুরুতে কিছুক্ষণ থাকে। দু’টা ছবি দিলাম। কোনটাই বেশী ভালো আসে নাই।



আইফেল টাওয়ারের এখানেই সমাপ্তি। আশারাখি আমার রুট ধরে আরো এগিয়ে যাবো সামনের দিনগুলোতে। সঙ্গী যতো বেশী হয়, ততোই আনন্দ আর উত্তেজনা!:)


ছবিঃ আমার ক্যামেরা
তথ্যঃ নেট এবং বিভিন্ন গাইড বুকলেট।

মন্তব্য ৫৭ টি রেটিং +১৮/-০

মন্তব্য (৫৭) মন্তব্য লিখুন

১| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:১১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: প্রথম হইছি

পরে আসতেছি আবার

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:১৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: কনগ্র্যাচুলেশানস!!! চা দিমু? :)

২| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:২১

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: রূপে রূপবতী আইফেল টাওয়ার সম্পর্কে জেনে সমৃদ্ধ হলাম। ধন্যবাদ আপনাকে। ঘরের কথা পরকে নাইবা বললেন। কিন্তু যে টুকু বললেন তাতে আপনার গৃহযুদ্ধ শুরু হবে না তো । হাহাহাহাহা
শুভকামনা জানবেন।

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:২৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: রূপে রূপবতী আইফেল টাওয়ার দারুন বলেছেন।

যতোটুকু বলেছি তাতে গৃহযুদ্ধ শুরুর সম্ভাবনা কম। গলায় দড়ি পরানো আছে। কতোদুরের ঘাস খেতে পারবো তা কি আর আমি জানিনা মনে করেছেন!! :P

৩| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:২৬

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: ফ্রান্সের সবকিছুই ভালো লাগে। কেবল ভাষাটা লাগে অনেক জটিল।

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:২৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: না জানলে সব ভাষাই জটিল।
তবে অনেকে 'জটিল' শব্দটাকে 'দারুন' অর্থেও ব্যবহার করে। আপনি কোন অর্থে করলেন? :)

৪| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:২৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ইফতার পাঠায়েন ....... চা খামু না

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৩০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ইফতার??? আপনে রোযা নাকি?

নাকি......টু আর্লি ফর নেক্সট ইয়ার!! :(

৫| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:২৭

করুণাধারা বলেছেন: সঙ্গী হলাম!! বাস্তবে তো হল না, আপনার ছবির মাধ্যমেই প্যারিস ভ্রমণ হোক।

আইফেল টাওয়ারের ছবিগুলো দেখে আর ইতিহাস পড়ে মুগ্ধ হলাম। আর একটু মুগ্ধ হতাম, যদি টপ ফ্লোরে তোলা শ্যাম্পেন হাতে যুগল- রোমান্টিক ছবিখানা দেখতে পারতাম! ;)

মোমের মূর্তিগুলোর ছবি মনে হচ্ছে একেবারে কাছে গিয়ে তুলেছেন, এভাবে ছবি তুলতে দেয়? পরের পর্বে কি আসছে তা যদি প্রতি পর্বের শেষে "আসিতেছে অমুক" বলে শেষ করতেন, তবে মনে হয় একটু শান্তি পেতাম।

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৩৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আর একটু মুগ্ধ হতাম, যদি টপ ফ্লোরে তোলা শ্যাম্পেন হাতে যুগল- রোমান্টিক ছবিখানা দেখতে পারতাম! =p~ =p~

ওগুলো রুমের ভিতরে। জানালা দিয়ে ছবি তুলেছি। পরের পর্বেরটা রহস্য থাকুক। আসিলেই দেখিবেন। আপনাকে শান্তি দিতে পারলাম না......ক্ষমাপ্রার্থী!

৬| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৫২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ছয় রোজার কবলে আছি আপাতত

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ২:০৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: রমজানের ৩০ রোযাসহ এই ছয়টি রোযাও আল্লাহর দরবারে কবুল হোক এই প্রার্থনা করি। আমিন।

৭| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ২:০৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: প্যারিস যাতি চাই ভাই
নিয়ে যাবেন আমায়
এত্ত বড় বিল্ডিং দেখে
শরীর ডরে ঘামায়।

লোহা লক্কর স্তুপ পেরিয়ে
উঠবো উঁচু তলায়
ভয়ের চোটে ডুক গিলি ভাই
ডর আটকাইছে গলায়।

খুব সুন্দর পোস্ট

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ২:১১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনের ছড়াও মচতকার হইছে। সপরিবারে আইসা পরেন, গাইড রেডি।
ডরের কিছু নাই, লাখ লাখ মানুষ উঠতাছে দিন-রাইতে! :)

৮| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ২:০৮

নতুন নকিব বলেছেন:



মনে হচ্ছে সশরীরে ঘুরে এলুম আইফেল টাওয়ার। সুন্দর লিখেছেন। অবশ্য আপনার প্রতিটি লেখাই যথার্থ মানসম্পন্ন। +

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ২:১৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ধন্যবাদ নকিব ভাই। আপনাদের প্রশংসার জন্যই একটু-আধটু লিখতে পারি, উৎসাহ পাই। :)

৯| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ২:২৫

মা.হাসান বলেছেন: গরিবের প্যারিস দেখা ( :-P )নিয়ে আমি এই মাসেই একটা পোস্ট দিতে চাই , যদি সময় বের করতে পারি।
চেয়ার থেকে কে ফালায়ে দিতে চায়? ভাবি হলে তাবিজ আছে, Argos এর ক্যাটালগ হাতে ধরায়ে দেন (ব্যাঙ্ক কার্ড ধরালে কিন্তু খবর আছে)।
carry coals to Newcastle প্রবাদের ফরাসি অনুবাদের বাংলা অনুবাদ নাকি 'প্যারিসে বান্ধবী নিয়ে যাওয়া' । আপনার কপাল আরো খারাপ, বউ নিয়ে গেছেন। এমন ভুল মানুষ করে?
পরের যে কোন পর্বে রাতের Rue St Denisএর ছবি চাই।

১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ২:৩৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনার দারুন একটা পোষ্টের অপেক্ষায় থাকলাম। চেয়ার থেকে কে ফালায় বুঝতে পারি না....খালি ধাক্কাটা অনুভব করি!
Argos এর ক্যাটালগ হলো ওর সবচেয়ে প্রিয় 'বই'। আমার ধরানোর জন্য কি আর বসে আছে! :((

আমি বান্ধবী পামু কই....বউ-ই ভরসা।
আর বান্ধবী নিয়ে গেলে প্যারিস কি আর আমাজনের জঙ্গলই কি....সবই আকর্ষনীয় হয়ে ওঠে! :P

দেখি, আপনার চাওয়া পূরণ করতে পারি কিনা.....বেশীরভাগ হলেও অনেক ছবিই উদ্ধার হয় নাই।

১০| ১২ ই জুন, ২০১৯ দুপুর ২:২৬

জুন বলেছেন: আহা সেই নতরদাম গির্জা কিছুদিন আগেই না আগুন লেগে ভস্মীভূত হলো। জানি ওরা আবার আগের মতই তাকে গড়ে তুলবে। কিন্ত ন্যাপথলিনে মোড়ানো পুরনো সেই গন্ধ কি ফিরে আসবে ভুয়া! আপনার সাথে আইফেল টাওয়ারে উঠে সিন নদী পেরিয়ে যাচ্ছি কিন্তু :)
পুরনো ছবিই ভালোলাগে। বড় সাদামাটা নিজেদের ঘরের মানুষ জনের মতই আটপৌরে।
চলার সাথী হোলাম ভার্সাই প্রাসাদ পর্যন্ত।
+

আজ রাতে আপনার প্যারিস ভ্রমণের পাশাপাশি আমি বড়ই দীনহীন একটি লেখা দিচ্ছি।
আপনার ছি চরণের পদধূলির অপেক্ষায় ;)

১২ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: গির্জা পুরোটা পুড়ে নাই। তবে, যতোটুকু পুড়েছে....সেই ক্ষতিও অপূরণীয়।
কিন্ত ন্যাপথলিনে মোড়ানো পুরনো সেই গন্ধ কি ফিরে আসবে এটা দারুন বলেছেন। নতুন করে বানালেও অনেকেই সেই আগের মতো আগ্রহ আর পাবে না।

আপনার সাথে থাকার আশ্বাসে ভরসা পাচ্ছি।
আপনার লেখা দীনহীন??? তাহলে আমার লেখা তো এতোই গরীব যে, একেবারে বস্ত্রহীন!! :)

১১| ১২ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৪:১৮

পবিত্র হোসাইন বলেছেন: ভুয়া ভাই, আমি প্যারিস গিয়ে শ্যাম্পেন না খেলে জাতি কি আমাকে মেনে নিবে? :D

১২ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৪:২১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনে প্যারিস গিয়া শ্যাম্পেন খাইলেই কি.....আর না খাইলেই কি! ঝাতির এতে কিছুই যায় আসে না। :P

১২| ১২ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৪:২০

বলেছেন: Excellent

১২ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৪:২২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: Thanks a lot!!! :)

১৩| ১২ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: প্যারিসে কি এই জীবনে যাওয়া হবে!!!

১২ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: চাইলেই হবে। মন-প্রাণ দিয়ে চাইতে হবে। :)

১৪| ১২ ই জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৮

পুলক ঢালী বলেছেন: ভুয়া ভাই ছবিগুলি খুব সুন্দর (আপনি ভুয়া হলেও ছবি গুলি কিন্তু ভুয়া না আসল :D ) আপনার সাথে আইফেল টাওয়ার ঘুরে এলুম। পদব্রজে হাটা চলুক সাথে সাথে আমরাও দর্শনীয় স্থানগুলি দেখতে দেখতে এগিয়ে চলি। কখনো লুভরে গেলে বা ছবি থাকলে শেয়ার করার অনুরোধ রইলো।
ভাল থাকুন।

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:০৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনি ভুয়া হলেও ছবি গুলি কিন্তু ভুয়া না আসল বুঝতে পারার জন্য ধন্যবাদ। :)

কখনো লুভরে গেলে বা ছবি থাকলে শেয়ার করার অনুরোধ রইলো। সাথে থাকেন। মিললেও মিলতে পারে। ;)

১৫| ১২ ই জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৫

শায়মা বলেছেন: আমার বাবার আনা একটা সোনালী রঙ আইফেল টাওয়ারের স্যুভেনিয়র ছিলো। আচ্ছা এই টাওয়ারের সত্যিকারে রং কি ছিলো?

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:১৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আইফেল টাওয়ারের রং পুরো সোনালী কখনওই ছিল না। ওটা স্যুভেনিয়রওয়ালাদের উর্বর মস্তিষ্কের কল্পনা। আমারও একটা সোনালী আইফেল টাওয়ার আছে। :)

আইফেল টাওয়ারের রং এর পুরোটা ইতিহাস তুলে দিলাম,

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:২০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: পড়া যাচ্ছে? নাকি আরেকটু বড় করবো?

১৬| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:২৪

জুন বলেছেন: আমার পোষ্টটা ছবি নির্ভর ভুয়া। কিন্ত একটা ছবিও আপলোড করতে পারছি না ভিপিএন দিয়েও :(
তবে কি আজ আমার লেখাটি পাবলিশ হবে না !!
:( :((

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৩২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: দেশে সবাইতো ভিপিএন দিয়েই ছবি আপলোড করে। কেন হচ্ছে না? :(
ব্লগার আর্কিওপটেরিক্স এর এই পোষ্টটা দেখতে পারেন। যদি কিছু হয়। যতোদূর জানি, উনি এ'ব্যাপারে বিশেষভাবে অজ্ঞ
view this link

১৭| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:২৬

আরোগ্য বলেছেন: অনেক দিন যাবৎ আপনার পোস্টেে আসা হয়নি। এজন্য দুঃখিত।

ছবিব্লগ অসাধারণ হয়েছে। মাঝের ছবিগুলি কি ড্রোন দিয়ে তোলা?

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৩৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আরে ভাই দুঃখের কি আছে। আমিও তো মাঝে-মধ্যেই আসতে পারি না। সবারই আরো কাজ আছে। কেউ তো আর ফুলটাইম পেশাদার ব্লগার না। :)

মাঝের ছবিগুলি কি ড্রোন দিয়ে তোলা? প্রায় সেরকমই। তফাৎ হলো, ড্রোন আকাশে উড়ে তারপর ছবি তোলে। আর এ'ক্ষেত্রে আমিই ড্রোন। :P
আসলে টাওয়ারের উপর থেকে তোলা। :)

১৮| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:২৮

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: মনে বড় সাধ ছিল একদিন প্যারিস যাব।

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৪১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: অবশ্যই যাবেন, কেন নয়?

১৯| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:২৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: দারুণ !!!
আপনার মত একজন টুরিস্ট গাইডের সাথে ভ্রমণের আনন্দ আলাদা :)

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৪৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: যে যে যাবেন, আইসা পরেন......চান্দের গাড়ী রেডি! ;)

দুবাই থেকে তো বেশী দুরে না। ঘুরে আসেন। আর টাওয়ারের মাথায় গিয়ে শ্যাম্পেন খেতে আর রোমান্টিক ছবি তুলতে ভুলবেন না কিন্তু! :P

২০| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৪৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হুম প্ল্যান ড্রেস সব রেডি খালি স্পন্সরের অপেক্ষায় :P
খুব খুব মোঘল হইতে ইচ্ছা করে ;)

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৫৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: প্ল্যান ড্রেস সব রেডি খালি স্পন্সরের অপেক্ষায় স্পন্সর রেডি করুম?

খুব খুব মোঘল হইতে ইচ্ছা করে হন.....মানা করছে কে? তার ঠিকানাটা দিয়েন সময় কইরা! :)

২১| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৫০

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: অদেখাকে দেখার স্বাধ জাগে সাধ্য যে নেই। তবে আপনার সাথেই দুধের স্বাদ গুলে মিটাই যাই। ধন্যবাদ আপনাকে। পরের পর্বের অপেক্ষায়।

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৫৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: এসব বললে মনে কষ্ট পাই। আমি চাই সবাই দুনিয়াব্যাপি ছড়ানো-ছিটানো আকর্ষনীয় স্থানগুলো দেখুক। ইনশাআল্লাহ, আপনিও একদিন দেখবেন। শুধুমাত্র তীব্র ইচ্ছাশক্তি দিয়েও এই দুনিয়ায় অনেক কিছুই সম্ভব।

২২| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৮:৫৫

মুক্তা নীল বলেছেন:

চমৎকার সব ছবি ,আপনার ঘুরে বেড়ানোর বর্ণনা এবং সেই সাথে আইফেল টাওয়ার । ভালো লাগা ও মুগ্ধতা একই সাথে।

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৯:০১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আশাকরি পরের পর্বগুলোও আপনাকে একই রকমের ভালোলাগা দিবে। :)
ভালো থাকবেন।

২৩| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৯:২২

আহমেদ জী এস বলেছেন: ভুয়া মফিজ,




ভুয়া কিছু নয়, একবারেই আসলি ছবি ও লেখা। অবশ্য ফরমালিন মাখানো ছিলো বলেই অতো পুরোনো ছবিগুলো টসকে যায়নি, তাজা মনে হচ্ছে। :P

কতো কিছুই যে দেখার আছে প্যারিসে! আপনার রুট ধরে এগিয়ে যাওয়ার পথে সে সবের কিছু কিছু কি আসবে পরের পর্বে?

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৯:৫৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ফরমালিন না মাখলে তো আবার দেশের কেউ কোন কিছুই পছন্দ করে না। তাই একটু দিয়ে রেখেছিলাম। ;)

আপনার রুট ধরে এগিয়ে যাওয়ার পথে সে সবের কিছু কিছু কি আসবে পরের পর্বে? অবশ্যই আসবে। শুধু শুধু আপনাদের মতো সেলেবদেরকে রাস্তায় রাস্তায় ঘোরানোর কোন মানে তো নাই। :)

২৪| ১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ৯:৩৬

রাকু হাসান বলেছেন:


দারুণ তো । না ভূয়া নয় আপনি । দারুণ কিছু ছবি দেখালেন । আচ্ছ । নামের পেছনে ভূয়া ট্যাগ লাগানোর রহস্যটা কি জানতে পারি ? ;)

১২ ই জুন, ২০১৯ রাত ১০:০২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ভূয়া ট্যাগ লাগানোর কাহিনীটা তো অনেক পুরানো। অনেকবার অনেকজনকে বলেছি।

ওকে, আপনিই বা বাদ থাকবেন কেন? লিঙ্কের ৫নং মন্তব্য/উত্তর দেখুন। :) view this link

২৫| ১৩ ই জুন, ২০১৯ ভোর ৪:১৫

ওমেরা বলেছেন: আমি কিন্ত যাইছিলাম ওখানে ভুয়া মানুষের মত ঢাকা- চিটাগাং এত না হলেও দুই বার তো গিয়েছি। পরিচিত জায়গার ফটো দেখে ভাল লাগল।

ধন্যবাদ নিবেন তবে ভূয়া না আন্তরিক ভাবে।

১৩ ই জুন, ২০১৯ সকাল ৯:৩৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনি ওখানে গিয়েছিলেন জেনে আনন্দিত হলুম।
প্যারিসে আমার দিকের আর আমার শ্বশুরবাড়ির দিকের বেশকিছু ঘনিষ্ঠ আত্মীয়স্বজন আছে। তাই বিভিন্ন কারনে যেতে হয়। তাছাড়া আমার কার্যোপলক্ষেও যেতে হয়। সে'সঙ্গে বেড়ানো তো আছেই। সবমিলিয়ে প্রায়ই যেতে হয়। ব্যক্তিগতভাবে লন্ডনের চেয়ে প্যারিস আমার বেশী ভালো লাগে।

আপনার আন্তরিক ধন্যবাদের জন্য আমার পক্ষ থেকেও ভূয়া না, আন্তরিক ধন্যবাদ। :)

২৬| ১৩ ই জুন, ২০১৯ ভোর ৬:০১

হাবিব স্যার বলেছেন: আচ্ছা, আইফেল টাওয়ার কেন বানানো হয়েছিলো?

১৩ ই জুন, ২০১৯ সকাল ৯:৫২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমার এই পোষ্টে ছবি বেশী, লেখা কম। সেটুকু লেখাও মনোযোগ দিয়ে পড়লে আপনার এই প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যেতেন।

খুবই কি ব্যস্ত? :)

২৭| ১৩ ই জুন, ২০১৯ সকাল ৯:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: চাইলেই হবে। মন-প্রাণ দিয়ে চাইতে হবে।


শুকরিয়া।

১৩ ই জুন, ২০১৯ সকাল ৯:৫৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: শুকরিয়ার জন্য শুকরিয়া। :)

২৮| ১৩ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৫:২৯

নীল আকাশ বলেছেন: আপনি লুভর এর মিউজিয়াম এ যাননি। শুনেছি সেটাই নাকি সবচেয়ে আকর্ষনীয়!
ছবিগুলি ভাল লেগেছে।
ধন্যবাদ।

১৩ ই জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আইফেল টাওয়ার পৃথিবীর সপ্তাশ্চর্যের একটা। আমার কাছে ল্যুভর এর চেয়ে ওটাই বেশী আকর্ষণীয়। তবে প্যারিসে গিয়ে আইফেল টাওয়ার আর ল্যুভর মিউজিয়াম না দেখাটা একধরনের অপরাধ।

ল্যুভর মিউজিয়ামে অবশ্যই গিয়েছি। তবে এবার আমি আমার রুটের বাইরে যাবো না। ল্যুভর মিউজিয়াম যদি রুটে পরে, আসবে। ;)
ছবিগুলি ভাল লেগেছে জেনে ভালো লাগছে। :)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.