নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ভুয়া মফিজ

ভুয়া মফিজের সাথে ভুয়ামি না করাই ভালো...

ভুয়া মফিজ › বিস্তারিত পোস্টঃ

রঙ্গে ভরা বঙ্গ

০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৯



আমাদের বাসায় অনেক বছর আগে আমার এক ফুপাতো ভাই থাকতেন, জামাল ছিল উনার নাম। আর্থিক অবস্থা বেশী ভালো না হওয়ায় আব্বা উনাকে বাসায় নিয়ে এসেছিলেন একটা কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দেয়ার জন্যে। অত্যন্ত সাদাসিদা, বোকা কিসিমের মানুষ।

একদিন দেখি খাটে বসে ঘুটা দেয়ার ভঙ্গিতে মাথা নাড়ছেন। হাতে কানায় কানায় ভর্তি একটা গ্লাস। আমি বললাম, জামাল ভাই, কি করেন? এইভাবে মাথা নাড়ছেন কেন?

উনি লজ্জা লজ্জা হাসি দিয়ে বললেন, একটু চিনির শরবত খেতে মন চাইলো। চিনি গুলাচ্ছি!

আমি বললাম, তো পানি না নাড়াবেন; মাথা নাড়লে কি চিনি গলবে?

উনি এক ঢোক খেয়ে বললেন, গলেছে; পানি তো দেখি মিষ্টি মিষ্টি লাগে!

আরেকদিনের ঘটনা। বাইরে থেকে এসে দেখি উনি ফুল স্পীডে ফ্যান ছেড়ে দিয়ে বসার ঘরে বসে আছেন। আমাকে বললেন, গেটে কোন রিক্সাওয়ালাকে দেখলা? ঘটনা হলো, উনি বাজার থেকে রিক্সায় এসেছেন। দশ টাকা ভাড়া, উনার কাছে ছিল একশত টাকার নোট। এদিকে রিক্সাওয়ালার কাছে এতবড় নোটের ভাংতি নাই। উনি রিক্সাওয়ালাকে বললেন, ভাই, বাইরে গরমে টেকা যাচ্ছে না। আমি ভিতরে গিয়ে বসি। তুমি টাকা ভাংতি করে তোমার টাকা রেখে আমার টাকা দিয়ে যাও।

বলাই বাহুল্য, ওই রিক্সাওয়ালাকে আর কোনদিন এলাকায় দেখা যায়নি। তখন ছোট ছিলাম। স্কুলে পড়তাম। উনার কাজকারবারের কারনে উনি সেসময়ে ছিলেন আমার আনন্দের অন্যতম উৎস। উনি ছিলেন বোকা মানুষ, তবে এখন দেশে গেলে চালাক মানুষদের কাজ-কারবার দেখেও বিমলানন্দ উপভোগ করি। দু'টা ঘটনা বলি।

বছর দু'য়েক আগে দেশে গিয়েছি। দেশে রাস্তার ধারের টং দোকানের চা খাওয়া আমার বহু পুরানো অভ্যাস। বাসার কাছাকাছি একটা ট্রাফিক সিগন্যালের মোড় আছে। একদিন দুপুরবেলা বসে বসে চা খাচ্ছি, খেয়াল করে দেখলাম; সিগন্যালে সবুজ বাতি জ্বললে ট্রাফিক পুলিশ সাহেব সবকিছু থামিয়ে দিচ্ছে, আর লাল বাতি জ্বললে ছেড়ে দিচ্ছে। একটু পর উনি দোকানে এলেন পানি খেতে। আমি বললাম, ভাই, আপনি যদি হাত দিয়েই কাজ করবেন, তাহলে বাতি জ্বালানোর দরকার কি? ওটা বন্ধ রাখেন না কেন? কিছু ইলেক্ট্রিসিটি তো অন্ততঃ বাচবে! উনি ইশারায় একদিকে দেখিয়ে বললেন, যান, স্যারকে গিয়ে জিজ্ঞেস করেন।

দেখলাম মোড়ে মোটর সাইকেলের পাশে দু'পা ফাক করে এক ট্রাফিক সার্জেন্ট দাড়িয়ে আছে। ক্যালিফোর্ণিয়া হাইওয়ে পেট্রলের স্মার্ট অফিসারের মতো টাইট আউটফিট! কোমরে পিস্তল। একহাতে ওয়াকিটকি, আরেকহাতে জ্বলন্ত সিগারেট। সানগ্লাসটা চোখের উপরে তোলা। দেখে মনের মধ্যে ডলি সায়ন্তনীর পুরানো একটা গানের কলি গুনগুনিয়ে উঠলো….হে যুবক!! ভাবলাম, এই আমার প্রশ্নের সঠিক জবাব দিতে পারবে। প্রশ্ন শুনে সার্জেন্ট নিতান্ত অবহেলায় আমার আপাদমস্তক নিরীক্ষণ করে বলল, এই দুপুরবেলা এইখানে কি করেন, কোন কাজ-কাম নাই? গ্রাম থিকা নতুন আসছেন?

আমি বললাম, না দেশের বাইরে থাকি। কয়েকদিনের জন্য বেড়াইতে আসছি।

আমার আসল প্রশ্নের উত্তর না দিয়ে আবার প্রশ্ন, কই থাকেন, দুবাই?

না সৌদি থাকি। আমি জানালাম।

বললো, এই জন্যই জানেন না। কাজ-কাম না থাকলে ঘরে যান। আমার কামে ডিস্টার্ব কইরেন না।

ইংল্যান্ডে পুলিশের সাথে কথা বললে তাদের আচরণে বোঝা যায় যে তারা জনগনের কর্মচারী। এর সাথে কথা বলে মনে হলো, আমিই এর কর্মচারী। বুঝলাম, উত্তর পাওয়ার আশা এখানে এক কষ্ট-কল্পনা। মনে মনে বললাম, সানগ্লাস কপালে তুইলা চেগায়া দাড়ায়া আছো। তুমি কাম কি করতাছো, তাইতো বুঝলাম না। বিনোদন!! সিগন্যাল বাত্তি, ট্রাফিক কন্ট্রোল, চেগায়া দাড়ানো…..সবই দেখি বিনোদন!!

সে বারেই শোনা আরেকটা ঘটনা বলি। ঢাকায় আমাদের বাসার সামনের রাস্তার দু‘পাশ ছিল খোলা, ঢালু। বৃষ্টির পানি বেশিক্ষণ আটকা থাকতো না। বছর পাচেক আগে ফুটপাথ ঠিক করার সময় সেগুলো ঢেকে দেয়া হলো। এলাকার মুরুব্বীরা তখন আপত্তি জানিয়ে কন্ট্রাক্টরকে বলেছিলেন, বাবা, তুমি এমনেই বিল করে দাও। এটা ঢেকো না। কে শোনে কার কথা। যা হোক, পরবর্তী দু'বছর সেই ঢেকে দেয়া ড্রেন ব্লক হয়ে একটু বৃষ্টিতেই রাস্তা ভেসে যেতো। তৃতীয় বছরে এসে এলাকাবাসীর অভিযোগের মুখে আবার সেটা ভেঙ্গে আগের মতো করে দেয়া হয়েছে।

এটা যেন সেই পুকুর ভরাট করে আবার কেটে পুরানো অবস্থায় নিয়ে আসার মতো। তফাত শুধু, পুকুরে হাতই দেয়া হয়নি, আর এক্ষেত্রে দু‘বার কাজ করে জনগনের পকেট হাল্কা করা হয়েছে। পুরো ঘটনাটা শুনে খুবই বিনোদিত হয়েছিলাম। দেশে বিনোদনের বড়ই অভাব, এগুলোই এখন ভরসা। বালিশ বিনোদন, পর্দা বিনোদনের পর এখন চলছে ক্যাসিনো বিনোদন!

আজ পত্রিকায় পড়লাম, আগামীতে হজযাত্রীদেরকে জামাই আদরে হজ করাতে চান ধর্ম প্রতিমন্ত্রী। প্রতিবছরই আশ্বাসের বন্যা বয়ে যায়, তারপরে যেই লাউ, সেই কদু। তবে প্রতিমন্ত্রীর এবারের আশ্বাসে অভিনবত্ব আছে নিঃসন্দেহে; যদিও এতে জেন্ডার ডিসক্রিমিনেশান সুস্পষ্ট! উনি শুধু পুরুষ হজযাত্রীদের কথা বলেছেন। মহিলা হজযাত্রীদের আদরের ধরন সম্পর্কেও একটু আলোকপাত করা উচিত ছিল, নয় কি? আপনারা কি বলেন?

অরেকটা খবর। অভিজ্ঞতা না থাকায় মেগা প্রকল্পে অর্থের 'মিস ইউজ', বলেছেন অর্থমন্ত্রী। তিনি বলেন, আমরা এখানে পদ্মা সেতু করব, কর্ণফুলী টানেল করব বা আমরা এমআরটি (মেট্রোরেল) প্রজেক্ট করব-এগুলো তো স্বপ্ন। এগুলো বাস্তবায়নে কারও বাস্তব অভিজ্ঞতা ছিল না। সুতরাং এখানে ডিসটরশন (নড়চড়) হবে এবং মিস ইউজও (অপব্যবহার) হবে, এটাকে ধরে নিতে হবে। এটা ইন্দোনেশিয়ায় হয়েছে, মালয়েশিয়ায় হয়েছে, অন্যান্য দেশেও হয়েছে।

অর্থমন্ত্রীকে অভিনন্দন। আগেই উনি খোলাসা করে দিয়েছেন যে, টাকা-পয়সার নয়ছয় হবে এবং এটাকে মেনেও নিতে হবে। কাজেই এ'ব্যাপারে কারো কিছু বলার থাকতে পারে না। সত্যিই তো। উনি তো রাতের আধারে কিছু করছেন না। দিনে-দুপুরে মিডিয়ার সামনেই বলেছেন। এরপরে তো আর কোন কথা থাকতে পারে না!

সদ্য দেশ থেকে ফেরত আসা বন্ধু জানালো, দেশে বিনোদনের নাকি খুবই অভাব, তাই লোকজন বাইরের খাবার বেশী বেশী খায়। এটাই এখন বিনোদন। রাত ৯টার পর নাকি দোকানগুলোতে খাবার-দাবার ঠিকমতো পাওয়া যায় না। তবে আমি এটা মানতে পারি নাই। সারা বিশ্বেই এখন দিন দিন স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ানদের চাহিদা বাড়ছে। দেশে আমাদের মাননীয় মন্ত্রীদের মুখ নিঃসৃত বানীগুলোই তো অনেক বড় বিনোদন। খুব বেশী হলে, উনারা 'স্ট্যান্ডআপ' নাকি 'সিটডাউন' কমেডিয়ান এটা নিয়ে বিতর্ক হতে পারে। কারন, কমেডিগুলো উনারা তো বেশীরভাগ সময় বসে বসেই করেন!!!

এখন বলেন, পরিবেশটা সুন্দর না! আমি কি কাহারো মনে আঘাত দিয়েছি!! ভুল কিছু বলেছি!!! এরপরে আপনারা বলবেন, ভুয়া মফিজ ভালা না….......তাইলে আপনেরা ভালা লইয়াই থাইকেন!!!! :P

ছবি ও তথ্য: ইন্টারনেট!!

মন্তব্য ৬১ টি রেটিং +১৫/-০

মন্তব্য (৬১) মন্তব্য লিখুন

১| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৮:২১

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: ঢেলে দেই !

০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৮:২৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: বাটি নিয়া খাড়ায়া আছি......দ্যান!! :P

২| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৮:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: বেশ রসকস দিয়ে লিখেছেন।
মাওলানাদের মতোণ ওয়াজ করতে মন চায়।

০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:২৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: মাওলানাদের মতোণ ওয়াজ করতে মন চায়। করেন, আমরাও শুনি! :D

৩| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:১৯

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন:
আমি ত কাউয়া না কাউয়া লইয়া থাইকো


এদেশের রাজনিতিবিদদের কাছে জনগণ হচ্ছে তাদের পরিবার, পরিবারের সাথে সংযুক্ত পরিবার ছাড়া আর কেউ না।



আর রিয়েলি এরা হচ্ছে জনগণের কাছে উন্মাদ।



বিনোদন সবার......

০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৩২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: এদেশের রাজনিতিবিদদের কাছে জনগণ হচ্ছে তাদের পরিবার ঠিক.....তবে ভোটের আগের কয়েকটা মাস বাদে দিয়ে। এখন তো আবার আপনেরা কইবেন, ভোটই হয় না, আর আপনে ভোটের কথা কন!!

কই যাই!!! :((

৪| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৪৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: অসাধারণ একটি পোস্ট।

০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৩৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ধন্যবাদ।

৫| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:৫৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: মনে হলো , অনেক দিন পরে সৈয়দ মুজতবা আলীর একটি রচনা পাঠ করলাম। খুবই বিনোদিত হওয়ার মত একটি রচনা।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৩:৪৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: কি যে বলেন না বলেন, ঠিক-ঠিকানা নাই।

বিলাইও বাঘ, আর আমার লেখাও..........!!! :)

৬| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:১১

বলেছেন: বুঝলে বুঝপাতা......… না বুঝলে ................


চিললাইয়া কি মারকেট ফাওন জাইবো..........................ভুয়া মফিজ যা লেখে তাই মারকেট ফায়

০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৩৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: হে হে হে...............অট্টহাসির ইমো খুজলাম, পাইলাম না।

সামু'র ইমো সার্ভিসটা খুবই ব্যাকডেটেড। আপডেট করা খুবই জরুরী, কি বলেন!! B-)

৭| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:০৪

মাহের ইসলাম বলেছেন: পরিবেশটা সুন্দর।

সৌদিতে টং ঘরের চা আছে?

ভালো থাকবেন, শুভ কামনা রইল।

০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৪৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: পরিবেশটা খুবই সুন্দর। সৌদিতে টং ঘরের চা আছে কিনা জানা নাই। :)

আপনিও ভালো থাকবেন।

৮| ০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:১১

আহমেদ জী এস বলেছেন: ভুয়া মফিজ,




"রঙ্গে ভরা বঙ্গ" নয় বরং "বঙ্গ ভরা রঙ্গে" । যেই লাউ হেই কদু না পার্থক্য কিন্তু আছেই। যেমন "বিড়াল বাঘ" আর " বাঘ বিড়াল" :P ( পোস্টের ছবি )

০১ লা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১১:৪৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সবটাতেই পার্থক্য আছে জী এস ভাই....আবার নাইও।

ল বলেছেন: বুঝলে বুঝপাতা......… না বুঝলে ................ এইটাই আমার কথা। ;)

৯| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:৩৪

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: কই যাই কয়ে আপনি যে কান্নার ইমো দিলেন তাতে কি আমাদের জাতির সাথে মসকারি করা হলো না?
X( X((

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৩:৩১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সেই দুঃসাহস কি আমার আছে? আমিও যে এই অভাগা জাতির এক দুর্ভাগা অংশ!!

নাকি মিছা কইলাম!!! :)

১০| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:২৩

মোঃ সাকিবুল ইসলাম বলেছেন: ছোটবেলায় সামাজিক বিজ্ঞান দেশে বিনোদনের অভাব বলে জনসংখ্যা বাড়ছে :P , এখন দেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার নিয়ন্ত্রিত, এর প্রধান কারণ এইসব সুস্থধারার অসুস্থ বিনোদন। :D ব্যাপারটা পজিটিভভাবে নেন #:-S

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৪:৪২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আচ্ছা যান, পজিটিভলিই নিলাম।
দেশে জনসংখ্যা বৃদ্ধি ঠেকাতে যখন এটা ভূমিকা রাখছে, তখন পজিটিভলি না নিয়ে উপায় কি? :)

১১| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৫:০৩

আমি তিতুমীর বলছি বলেছেন:



আপনার লেখা বরাবরই চমৎকার এবারও তাঁর ব্যতিক্রম হয় নাই। আপনার সেই ভাই কি এখনো বেঁচে আছেন? বেঁচে থাকলে উনি কি আগের মতই বোকাসোকা আছেন?

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ ভোর ৫:৫০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: উনি শহরে কিছুই করতে পারেন নাই।

আব্বা পরে উনাকে গ্রামে পাঠিয়ে দেন, দু'টা গরু কিনে দেন। এখন উনার বিরাট গরু-ছাগল, মাছ, হাস-মুরগীর খামার। এখনও বেচে আছেন, আগের মতই বোকাসোকা আছেন.....তবে সেখানে তাতে কোন অসুবিধা হয় নাই। গ্রামে উনাকে সবাই এক নামে চিনে।

আপনার আগ্রহের জন্য ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন।

১২| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:৩৬

রাজীব নুর বলেছেন: ওয়াজ শিখের কি কিছু আছে?? নাকি ইউটিউব দেখে দেখেই শিখতে হবে।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:০৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: দেশের টিপিক্যাল ওয়াজ স্টাইল শিখতে হলে ইউটিউবই বেস্ট। গুলিস্তানের, বাসের হকারদের কাছ থেকেও অনেক কিছু শিখতে পারবেন। বিশেষকরে যেসব হকাররা বিভিন্ন বটিকা বিক্রি করে। :D

১৩| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ৭:৫২

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: আমার কিন্তু ট্রাফিক সার্জেন্টের ঘটনাটা বেশ লেগেছে। হতে পারে রম্য কিন্তু মোটামুটিভাবে উপমহাদেশের পুলিশের চালচিত্র এক হিসেবে তুলে ধরলেন। পোস্টে ভালোলাগা।

শুভকামনা জানবেন।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:১১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: একটু রম্য স্টাইলেই লেখার চেষ্টা করেছি......কিন্তু ঘটনাটা মোটামুটি এরকমটাই ছিল। আপনাদের ট্রাফিক সার্জেন্টরাও এমন!! তাহলে তো ইন্টারেস্টিং! :)

আপনার জন্যও শুভকামনা।

১৪| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ সকাল ১০:১২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: চমৎকার লেখা

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:১২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ব্যস.....আর কিছু কইবেন না! মৌনব্রত পালন করতাছেন নাকি? :P

১৫| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১২:৫২

নীল আকাশ বলেছেন: এই দেশে থাকা এবং আমাদের সশ্রদ্ধেয় রাজনৈতিক নেতার কথাগুলি শুনাও ব্যাপক বিনোদন।
আর কেউ না হোক ব্লগের লোকজন সেটা ঠিকই টের পাচ্ছে। ভিপিএন দিয়েই মন্তব্য করছি।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:১৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ঠিক......ব্যাপক বিনোদন।
ভিপিএন দিয়েই মন্তব্য করছি। ভিপিএন ছাড়া তো দেশে গতি নাই। :)

১৬| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: ওয়াজ শিখতে চাই।
ওয়াজে আমি বিগাপনের কথা বলব। আধুনিকতার কথা বলব।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:১৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনি কি সিরিয়াস??? :|

১৭| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:২৩

নীল আকাশ বলেছেন: @ রাজীব ভাই নিয়মিত youtube দেখুন। হুজুরদের কোন অভাব নেই সেখানে.....

১৮| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:১৯

জগতারন বলেছেন:

বাসায় মেহমান এসেছিল আম্মু বললো মেহমানের জন্যে চা নিয়ে যেতে, মেহমানের সামনে এসে সালাম দিয়ে বললাম,
"আমি এখন চা খাব

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: চা খাবেন? ঢেলে দেই.......নাকি নিজেই ঢেলে নিবেন!!! :)

১৯| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২১

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন: ওয়াজ ভাল হইছে।

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনের পছন্দ হইছে! ভালো!! ;)

২০| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২২

জগতারন বলেছেন:


তাহেরি গল্প..
বাসায় মেহমান এসেছিল আম্মু বললো মেহমানের জন্যে চা নিয়ে যেতে, মেহমানের সামনে এসে সালাম দিয়ে বললাম,
"আমি এখন চা খাব

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: বুঝতে পারলাম! :)

কাউকে ঢেলে দেন নাই তো!!!!

২১| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৫

জগতারন বলেছেন:
মন্তব্যে যাহা লিখতে চেয়েছিলাম তা পারলাম না।
কারন কি ?

০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমি বুঝতে পেরেছি....চলবে না এতে? :)

২২| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৮:৩৫

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: আহা এ যে চেতনার রঙ্গ!
তাইতো নিরব বঙ্গ! মাথা গুজে সব করে সঙ্গ!ত

ঢেলে দিয়েছে! সব ঢেলে দিয়েছ!
রাতের বেলা ভোট দিয়েছে কেউ কিছু বলেছে?
তাইতো জাতিসংঘে দাড়িয়ে চলে মিথ্যার রঙ্গ! আমি জনগণের ভোটে নির্বাচিত বলে!

এত সব রঙ্গে পঙ্গু হয়ে গেছে জাতি! এখন আর কি একটা ধাক্কার অপেক্ষা-

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১২:৪৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: কোন কিছুতেই আর কিছু হবে বলে মনে হয় না। স্বাধীনতার এত বছর পরও হয় নাই, আর কবে হবে?

আশায় আশায় দিন যে গেল...
আশা পূরণ হলো না।
কোন সিনেমার গান যেন?

২৩| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:১৯

রাজীব নুর বলেছেন: ওয়াজ শেখা আমার খুব শখ ছোটবেলা থেকেই।

শীত কালে আমাদের দেশের বহু গ্রামে ওয়াজ হয়। সেই সব ওয়াজ আমি রাত জেগে শুনেছি। ইউটিউবে ঘন্টার পর ঘন্টা আমি ওয়াজ শুনি। এই জন্য সুরভি আমার উপরে বিলা।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:২৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনের বউ বিলা হইলে ওয়াজ শোনা বাদ দেন।

আপনেগো সোনার সংসারে অশান্তি কইরা লাভ কি? ওয়াজ শেখা জরুরী কিছু না। আপনের তো নিশ্চয়ই তাহেরী জাতীয় কিছু হওনের শখ নাই.....নাকি আছে? :D

২৪| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:১৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ঘুরিয়ে পেচিয়ে কথা বলতে পারার ধরনগুলি উঠে এসেছে দারুনভাবে ।
সংবাদ মাধ্যমে নব্য মাল বাবুর বক্তব্য দেখে বুজতে পেরেছি একটি বাচালের সংঘা কি হওয়া উচিত।
আহমেদ জী এস যতার্থ বলেছেন বঙ্গ ভরা রঙ্গে ।

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১:৪৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমি বরাবরই স্ট্রেইট ফরোয়ার্ড টাইপের মানুষ। ঘুরিয়ে পেচিয়ে কথা বলতে পারি না, প্র্যাকটিস করছি। আপনার মন্তব্যে মনে হচ্ছে পারফরমেন্স খারাপ না। :P

আমাদের মন্ত্রীবাবুরা সকলেই আল্লাহর রহমতে বাচাল টাইপের। এটা মনে হচ্ছে মন্ত্রী হওয়ার অন্যতম প্রাইম যোগ্যতা।

এই পোষ্টে আপনাকে দেখে ভালো লাগলো আলী ভাই। ভালো থাকবেন।

২৫| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:৩৪

করুণাধারা বলেছেন: রঙ্গে ভরা বঙ্গ- শিরোনামটা একেবারে ঠিকঠাক! গতকালকে এই বঙ্গ দেশের রঙ্গ দেখতে দেখতে আমি আর মন্তব্য করার সময় করতে পারলাম না।

গতকাল আরেকবার পানির উপর দিয়ে গাড়ি চড়ার অভিজ্ঞতা লাভ করলাম। সে এক রুদ্ধশ্বাস অভিজ্ঞতা। আপনার ইস্তাম্বুল গিয়ে জাপান প‍্যারিস ঘুরেও এমন অভিজ্ঞতা পাবেন না। পাঁচ কিলোমিটার ভ্রমন করলাম তিন ঘন্টায়। সহিসালামতে তারপর ঘরে ফিরে যে আনন্দ পেলাম, তার সাথে কোথায় লাগে আপনার দেশ বিদেশ ভ্রমণের আনন্দ!! আমন্ত্রণ রইল, একবার বর্ষাকালে এসে এই অভিজ্ঞতা অর্জন করুন...

কি বলিব আর অধিক- পোস্টে লাইক!

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ১:৩৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনি, মানে বাংলাদেশে যারা থাকে তারা সবাই ভাগ্যবান। আপনারা এমন সব অভিজ্ঞতা প্রতিনিয়ত লাভ করেন যেটা আমরা একেবারেই পাই না। তার একটা হলো, পানির উপর গাড়ীতে চড়ার অভিজ্ঞতা। এমন উভচর যান আমাদের এ'খানে নাই। পানির উপর দিয়ে চলতে হলে জলযানই এখানে ভরসা! :((

একবার ভাবেন, যদি এই যানে চড়ার কোন অভিজ্ঞতা কোন পর্যটক একবার লাভ করে.....তাহলে কি হবে? পর্যটন শিল্পে বিপ্লব হয়ে যাবে।

আর তিন ঘন্টায় পাচ কিলোমিটারও তেমনি একটা ব্যাপার। তাড়াতাড়ি বাসায় গিয়ে কি করবেন? সেইতো ফেসবুক না হয় ব্লগে ঘাটাঘাটি! তার চেয়ে ভালো বাইরে বঙ্গমায়ের সৌন্দর্য উপভোগ করেন! আপনাদের দেশপ্রেম দ্রুত জাগ্রত হবে এর ফলে! :P

২৬| ০২ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:৪৩

আনমোনা বলেছেন: এত ভঙ্গ বঙ্গদেশ তবু রঙ্গে ভরা

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ২:১৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সত্যিই তাই। আমাদের রঙ্গের শেষ নাই।
রঙ্গিলা মন নিয়ে কতিপয় আদম সন্তান বাকীদেরকে রাঙ্গিয়ে যাচ্ছে। ;)

২৭| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ২:১৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:



মনে হয় বুঝাতে কিংবা বলতে গিয়ে কোথাও একটু আমার হয়েছে ভুল
ঘুরিয়ে পেচিয়ে বলতে আমি সেই মন্ত্রী বরেষুদের কথাই বলতে চেয়েছি ।
আপনার লেখা স্ট্রেইট ফরোয়ার্ড না হয়ে যায় কোথায়। শুধু এ পোষ্ট কেন
সময় পেলে ভাল লাগার সকল পোষ্টেই আমি সমভাবে যাই ।
শুভেচ্ছা রইল

০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ দুপুর ২:২৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনার আগের মন্তব্যটাই তো ভালো ছিল। আমি আসলেই ঘুরিয়ে পেচিয়ে কথা বলার প্র্যাকটিস করছি।

যাইহোক, আমাকে না বলে মন্ত্রীমহোদয়দেরকে যখন বলেছেনই, কি আর করবো। দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে মেনে নিলাম। :)

আবার ফিরে এসে মন্তব্য করার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ।

২৮| ০৩ রা অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫০

আরোগ্য বলেছেন: ভুয়া ভাই,
গতকালই পোস্ট পড়েছি কিন্তু লগইন করতে পারিনি। বাড়ির বাইরে ছিলাম তাই মন খুলে হাসতে পারিনি :(

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: লগইন করার পর মন খুলে হেসেছিলেন? জানেন তো, হাসি চেপে রাখা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। :)

২৯| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৩:৪৯

গড়ল বলেছেন: সবচেয়ে বড় কমেডি হইল জনগণ না চাইলেও উনারা জংণের জন্য কাজ করবেনই, এইটা তারা শপথ নিয়েছেন। তাই কোন কাজ না পাইলে কাজ একটাই, জনগণের প্যান্ট খুইলা দেওয়া।

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:১৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: তাই কোন কাজ না পাইলে কাজ একটাই, জনগণের প্যান্ট খুইলা দেওয়া। কোন কাজ না পাইলে না, আসলে তাদের কাজ একটাই। যেমনটা বলেছেন......জনগণের প্যান্ট খুইলা দেওয়া। :P

দেখবেন, রাজনীতিবিদদের বহুল প্রচলিত একটা ডায়ালগ, ''জনগণ আমাদের সাথে আছে''।
কোনদিক দিয়া তাদের সাথে আছে, এইটাই আজ অবধি বুঝলাম না। :)

৩০| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৮:৩৪

পুলক ঢালী বলেছেন: হীরক রাজার দেশে আমরা বসবাস করছি।
কারো কারো ক্ষেত্রে শুধু বসে থাকাটাও কাজ (যদি ক্ষমতা দেওয়া থাকে তাহলে জনগন প্রজা)
ভাল লিখেছেন।

০৫ ই অক্টোবর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: কারো কারো ক্ষেত্রে শুধু বসে থাকাটাও কাজ সব সম্ভবের দেশ হলো হীরক রাজার দেশ!

৩১| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ৯:০০

আমি তুমি আমরা বলেছেন: দেশে এখন এমন হাওয়ার উপরেই উন্নয়ন হচ্ছে। পুকুরে হাতই দেয়া হয়নি, অথচ একবার পুকুর ভরাট আর আরেকবার পুকুর খননের বাজেট করে পুরো টাকাটাই মেরে খাচ্ছে চোরের দল।

০৭ ই অক্টোবর, ২০১৯ রাত ১০:০৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সব সম্ভবের দেশ বাংলাদেশ এখন চোরে ভরপুর। উন্নয়নের মহাসড়ক দাপড়ে বেড়াচ্ছে বিরাট বিরাট সব চোর! :(

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.