নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ভুয়া মফিজ

ভুয়া মফিজের সাথে ভুয়ামি না করাই ভালো...

ভুয়া মফিজ › বিস্তারিত পোস্টঃ

এই আমি আর নেই সেই আমি!!!

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ১:১৫



আমার একটা অভ্যাস আছে। বদ অভ্যাসও বলতে পারেন। সেটা হলো, সুযোগ পেলে আমার পুরানো লেখাগুলোতে মাঝে মধ্যে চোখ বুলানো। তবে, লেখাতে যতোটা মনোযোগ দেই, তার চাইতে বেশী মনোযোগ দিয়ে পড়ি সেই লেখাকে ঘিরে মন্তব্যগুলিকে। অনেকদিন পর পড়লে নতুনভাবে পড়ার আনন্দ পাই। কিছুদিন আগে তেমনিভাবে একটা লেখা আমার কাব্যভীতিঃ কেন আমি এমন হইলাম পড়তে গিয়ে একটা মন্তব্যে আমার চোখ আটকে গেলো। মন্তব্যটা করেছিলেন, ব্লগের এবং আমার অন্যতম প্রিয় ব্লগার পদাতিক চৌধুরি।



পড়ে ভাবলাম, উনার মন্তব্যকে যেহেতু আমি একেবারেই রুল আউট করি নাই; তাই দেয়া যাক না হয় গোটা দুয়েক কবিতা!!! ব্লগের প্রিয় ব্লগারদেরও জানার অধিকার আছে, ঠিক কি ধরনের কবিতা আমার কলমের ডগা দিয়ে সেই দুঃসময়গুলোতে বের হতো।

প্রথমটা একটা ছড়া কবিতা। কবিতার নীচে রচনাকাল লেখা আছে ২৯/৫/১৯৮৯। কেন এটা লিখেছিলাম, বিশদ মনে নাই। শুধু মনে আছে, ভারতের হরিজনদের উপর কোন একটা নির্যাতনের খবর পত্রিকায় পড়েই এই কবিতার উৎপত্তি ঘটে।

হরিজন

বল ব্যাটা কুৎসিৎ, বানরের ছানা
এখানে আসতে না করেছি মানা!
তুই হলি হরিজন, নীচ অতিশয়
আমি কি তো দেখছিস, বড় অতিকায়!

আমাদের পদতল, তোদের মহল
সাগরের মতো যার নেই কোন তল!
আমাদের সাথে না করিস তুলনা
মনে না করিস তোরা খুব সেয়ানা।

ছোট ছোটই থাকে, বড় নাহি হয়
বড়রা বড়ই থাকে, নেই কোন ক্ষয়।
ছোট জাত, নীচু জাত, নীচেই থাকিস
দশ হাত দুরে থাক, ছোয়া হলে ইশ!!

এই জন্মেও ছোট, পরজন্মেও
যার কোন রদ নেই শত জন্মেও।
এটাই খোদিত আছে, কপালে লিখন
জেনে নিস; কভু এটা যাবেনা মোচন।

যারা বলে, জাত-পাত সবই বাহানা
তাদের মুখেতে ঝাটা, লাভ হবে না।

এর পরেরটা তথাকথিত আধুনিক কবিতা। কবিতায় যাওয়ার আগে দু'টা কথা বলে নেই। আমার বউ একটা খাবার খুব আগ্রহ নিয়ে খায়। খাদ্যটার নাম টফু। আদি উৎপত্তিস্থল সূদুঢ় চীনদেশে। বউ যেহেতু খায়, ভদ্রতার খাতিরে আমিও খাই। কিন্তু যখনই খাই, আমার ভিতর থেকে একটা দার্শনিক চিন্তা দীর্ঘশ্বাসের মতো বের হয়ে আসে। সেটা হলো, 'ইহা কি খাইলাম, কেন খাইলাম আর না খাইলেই বা জগৎ-সংসারের কি এমন লাভ-ক্ষতি হইতো!!!' কারন, এই খাবারটার আমি স্বাদ বা গন্ধ, কোন কিছুই পাই না। আর এই ভুমিকার কারন হচ্ছে, এই কবিতাটা বর্তমানে পড়ে আমার মনে হলো, ''ইহা কি লিখিয়াছিলাম, কেনই বা লিখিয়াছিলাম। আর না লিখিলেই বা জগৎ-সংসারের কি এমন লাভ-ক্ষতি হইতো!!!''

সত্যিই তাই। এই কবিতার কোন মাথামুন্ডু আমি অনেক চেষ্টা করেও বুঝে উঠতে পারি নাই। অযথাই সময় নষ্ট করেছিলাম। তখন আসলে বয়স অল্প ছিল, সময়ের মর্যাদা বুঝতাম না। অবশ্য এখনও যে বিশাল বুঝদার হয়ে গেছি, তাও না। সো, হিয়ার ইট গোওজ!

কবিতার নামঃ চন্দ্রাহত মানব মানবী
রচনাকালঃ ৭/৯/১৯৯১
চন্দ্রালোকে হেটে চলেছে দুই মানব মানবী
একে অপরের হাত ধরাধরি করে পরম নির্ভরতায়।
তাদের গন্তব্য তাদের নিজেদের কাছেই অজানা…
এই চলার পথের শুরু, কিংবা শেষ কোথায়?
প্রশ্ন করার জন্য কেউ জেগে নেই এই বিশ্ব-চরাচরে।

অসীমের পানে হেটে চলা দুই মানব মানবী।
এই সেই অসীমতা, যার কোন সীমানা কেউ দেয়নি বেধে!
কেন এই পথ চলা……?
এই দুই পথিকই বা তার কতোটুকু জানে?
শুধু জানে, যেতে হবে আরো অনেক দুর, বহুদুর, সেই সুদূরের পানে।

গন্তব্যহীন এই পথ চলার কি কোন শেষ নেই?
বিরতীহীন এই হেটে চলা কি শুধুই বিলাসিতা?
কিংবা এই বিলাসিতা কি কোন কষ্টের, নাকি আনন্দের?
দু‘জনের কাছেই এই প্রশ্নগুলো অপ্রাসঙ্গিকতায় ভরা মুল্যহীন।
তারা শুধু জানে এই পথচলাই তাদের নিয়তি।

তাই…….
চন্দ্রালোকে হেটে চলেছে দুই মানব মানবী
একে অপরের হাত ধরাধরি করে পরম নির্ভরতায়।


উল্লেখ্য, কবিতা প্রসব করার ক্ষমতা আমার আর এখন নাই। যতোদিন জীবিত ছিলাম, কবিতার প্রসব বেদনা উঠতো ক্ষণে ক্ষণে। যখন-তখন প্রসব করতাম; এমনকি বাসে, রিকশায় কিংবা গাড়িতে পথ চলতে চলতেও। বিবাহিত হওয়ার পর সেই ক্ষমতা চলে গিয়েছে। আমি নিজেই এখন টফু'র মতো হয়ে গিয়েছি। স্বাদ-বর্ণ-গন্ধহীন একটা কিম্ভুতকিমাকার কিছু।

আমাদের কাল্পনিক_ভালোবাসা ভাইজানকে বলছি, আমি জানি আপনাকে প্রতিদিন অনেক কয়টা কবিতা পাঠ করতে হয়। আমি নতুন করে আপনার যন্ত্রণার কারন হতে চাই না (অবশ্য আপনি কবিতা পাঠে আনন্দ পেলে ভিন্ন কথা!!)। কাজেই এই অখাদ্য টফু স্বাদের কবিতা পড়ার থেকে আপনাকে বিরত থাকতে সবিনয়ে নিবেদন জানাইলাম। ''আবেদন'' শব্দটা সচেতনভাবেই এড়িয়ে গেলাম।

আমার এই লেখাটা ব্লগার পদাতিক চৌধুরিকে উৎসর্গ করছি। আমরা সবাই জানি, উনি এখনও করোনার ধাক্কা শতভাগ সামলে উঠতে পারেন নাই। আমার এই অদ্ভুত কিসিমের কবিতা পড়ে করোনা-উত্তর এই দূর্বলতার সময়ে উনি যদি কিন্চিৎ পরিমানও আনন্দ পান, কিংবা ভালো অনুভব করেন, তাহলেই আমি নিজেকে ধন্য মনে করবো। অবশ্য কবিতা নামক বস্তুটার এহেন দূর্গতি দেখে উনার রাগও হতে পারে। সেক্ষেত্রে অগ্রীম দু্ঃখ প্রকাশ করছি।

কবিদের এলিট ক্লাসে উঠার বিন্দুমাত্র সম্ভাবনা যে আমার নাই, সেটা আমি খুব ভালো করেই জানি। কাজে কাজেই, সামু ব্লগে এটাই আমার প্রথম এবং শেষ কবিতা পোষ্ট। সবাই ভালো থাকবেন।

ছবিটা গুগলের থেকে ধার করা। রবার্ট ফ্রস্টের উক্তিটার গুরুত্ব আশাকরি সবাই বুঝতে পেরেছেন।

মন্তব্য ৮৬ টি রেটিং +২২/-০

মন্তব্য (৮৬) মন্তব্য লিখুন

১| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:০৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


পড়লাম, ব্লগিং ও ফেইসবুকিং এর দুরত্ব কমে আসচে।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:১৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনাকে এই আবিস্কারের জন্য অনেক অনেক কনগ্র্যাচুলেশান্স!!! ;)

২| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:১৭

ওমেরা বলেছেন: সময় পেলে এটা আমিও করি আমার পুরানো লিখা গুলো পড়ি। যখন লিখাটা লিখেছি বা পোষ্ট করেছি তখন যতটা ভালো লেগেছিল তার যেয়ে অনেক বেশী ভালো লাগে যখন পুরোনো লিখা গুলো পড়ি , কখনো অবাকই হই এত সুন্দর লিখাটা আমি লেখেছি ভেবে।!! :D :D

চন্দ্রহত মানব মানবী কবিতাটা খারাপ হয়নি।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:২১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: যাক.......সমচিন্তার একজন মানুষ পাওয়া গেল। তবে, বেশীরভাগ সময়ে নিজের পুরানো লেখা পড়ে আমার মনে হয়, তখন এসব ছাইপাশ কি লিখেছিলাম!! B-)

চন্দ্রহত মানব মানবী কবিতাটা খারাপ হয়নি।............এটা কোন কবিতাই হয়নি বলেই আমার ধারনা। :-B

৩| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:২৫

শায়মা বলেছেন: ঐ ভাইয়া তুমি নাকি কবিতা পড়ো না, লিখো না , জানোনা শুনো না বুঝোই না!!!!!!!!!

আজকে ধরা!!!!!!!!

একদা তুমিও কবিতা লিখিয়াছিলে...... তুমিও কবি ছিলে!!!!!!!!!

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:৩০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: একদা তুমিও কবিতা লিখিয়াছিলে...... তুমিও কবি ছিলে!!!!!!!!! কবি ছিলাম না নিশ্চিত, তবে ঠ্যালায় পড়িয়া কবিতা তো লিখিয়াছিলাম। এইটা তো পুরানো কথা। তুমি এইটা জানো না, দেখিয়া আশ্চর্য হইলাম। অনেকেই তো জানে!!! =p~

পোষ্টে দেয়া আমার লেখাটা পড়িলেই বুঝিতে পারিতে!! :P

৪| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:৩২

শায়মা বলেছেন: জানিবোনা কেনো???

সবই জানি ......

তুমি লিখিয়াছিলে কিন্তু এখন আর লেখো না সেও জানি.......

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:৩৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: হ্যা........চেক করে দেখলাম। ওই লেখাতে তোমার ফুটপ্রিন্ট তো আছে। :)

তাহা হইলে এমন মন্তব্য করিয়া আমাকে বিভ্রান্ত করার হেতুটা কি?

ওই পোষ্ট......আর এই পোষ্টে তো সবই খোলাসা করা হয়েছে। এখন লেখি না......বুঝিও না। অবশ্য তখনও বুঝতাম না, শুধু আবোল-তাবোল লিখতাম!! এই আর কি!!! :-B

৫| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:৫১

নেওয়াজ আলি বলেছেন: মরে যখন গেছেন সেখান হতে কিছু সবজি উপহার পাঠাতে চেষ্টা করবেন :-P । কবিতা সুন্দর

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:৫৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: বিদগ্ধজনেরা বলেন, পৃথিবীতে দুই ধরনের পুরুষ আছে। জীবিত এবং বিবাহিত। ;)
কোন ধরনের সব্জি আপনার পছন্দ জানায়েন।

কবিতা সুন্দর বলেন কি!!! :P

৬| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৩:১৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: প্রথম কবিতাটা হয়েছে দারুন , দ্বীতিয়টা মাথার উপড় দিয়ে গেছে :`>

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:২৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ২য়টা তো তাও আপনে বুঝতে পারছেন, আপনের মাথার উপ্রে দিয়া গেছে। আমার যে কোনদিক দিয়া গেল, টেরই পাইলাম না। :P

৭| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৩:১৯

রাজীব নুর বলেছেন: পদাতিক দাদার সাথে আমার কোলকাতায় দেখা হয়েছে। উনি অতি সজ্জন মানুষ।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:২৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: তো! আমি কিতা করতাম!!! :D

৮| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৩:২০

ঢাবিয়ান বলেছেন: আজকে কি হোরাসের মাদুলি সামনে রাখতে ভুলে গিয়েছিলেন? =p~

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:৩১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমার চাইরদিকে শয়তান আত্মার আনাগোনা বাইরা যাওনে জুন আপাও কয়দিন আগে একই প্রশ্ন করছিলেন। চেক কইরা দেখলাম, মাদুলীর ডেট এক্সপায়ার্ড! নতুন একটা অর্ডার দিতে হইবো। আইলসামী কইরা দিতাছি না। বিষয়টা জরুরী হয়া পড়ছে। =p~

৯| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৩:৪৫

শায়মা বলেছেন: আমি তো কিত্তু না বুঝেই লিখেই যাই লিখেই যাই.....

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:৩৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: তা তো ঠিকই.......তুমি তো বাত্তা, কিত্তু বুজো না। কি আর করবা, খালি লেইখাই যাও...... :-B

১০| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:০৭

নীল আকাশ বলেছেন: চন্দ্রাহত মানব মানবী বেশ ভাল লেগেছে।
তবে কবিতাটা পড়ার পর আবার ভাল করে চেক করলাম কার ব্লগ বাড়িতে আমি এখন!
ফাতেমা আপু কই? উনার দুস্ক কিছুটা কমবে এটা পড়ার পর।
এরপর কি ম।হাসানা ভাইও কবিতা লিখবে?

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:৩৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ফাতেমা আপু কই? উনি হাইবারনেশানে আছেন। শীতকালের আগমনে কিছু প্রজাতী একটু ভালনারেবল হয়ে পড়ে। কিছু করার নাই। পুরাই প্রাকৃতিক ব্যাপার। :P

আপনি ঠিক জায়গাতেই আছেন। তবে, এটাই প্রথম আর শেষ। আই মেন্ট ইট!!!

মাহা'র কাব্য প্রতিভা আপনাদের অচিরেই দেখার সৌভাগ্য হবে। জাস্ট অপেক্ষা করেন কয়টা দিন। B-)

১১| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:২৩

ইসিয়াক বলেছেন: আপনার কবিতা পড়ে হিংসায় আমার গা জ্বলে যাচ্ছে।এতো সুন্দর কবিতা লেখেন আপনি।গুরু মানতেই হবে।

@চন্দ্রাহত মানব মানবী কবিতাটি অসাধারণ লাগলো।সত্যি সত্যি বলছি।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:৪১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: কবিতা নিয়া কেউ হিংসা করে নাকি! এইটা কোন হিংসা করার জিনিস!!! =p~

আপনের কবিতা-জ্ঞান দেইখা তো আমি টাস্কি খাইলাম। এতো চেষ্টা কইরাও আমি কিছুই বুঝি নাই। অবশ্য আমার ধারনা, যখন লেখছিলাম, তখনও কিছু না বুইঝাই লেখছিলাম.....হে হে হে!

১২| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:৪৭

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: ত্রিশ বছর আগে কবিতা ভালই লিখেছিলেন। এই ত্রিশ বছর চর্চা চালিয়ে গেলে আরও কিছু পাওয়া যেত আপনার কাছ থেকে। যাই হোক কবি লিখতে না চাইলে জোর করা ঠিক না। এবারের মতো ভবিষ্যতেও নিজের ইচ্ছাতেই আরও কিছু কবিতা প্রকাশ করবেন এই কামনা করছি।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:৫৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ত্রিশ বছর দীর্ঘ সময়, যে কোনও চর্চা চালিয়ে গেলেই কিছু একটা অর্জন করার মতো।

যাই হোক কবি লিখতে না চাইলে জোর করা ঠিক না। সঠিক.....একদম মনের কথা।

এবারের মতো ভবিষ্যতেও নিজের ইচ্ছাতেই আরও কিছু কবিতা প্রকাশ করবেন এই কামনা করছি। সম্ভাবনা প্রায় শুন্যের কোঠায়। তারপরেও ভবিষ্যতের কথা কেই বা সঠিক করে বলতে পারে!!! :)

১৩| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৫:৫৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হরিজন ছড়া স্টাইলে হলেও বক্তব্য উঠে এসছে ঠিকঠাক!
চন্দ্রাহত পড়ে তো মিথী_মারজানের কথা মনে আসলো।
আমার ব্লগিং এ অবসর নেয়ার সময় চলে আসছে মাবুদ ;) যা দুই একটা মন্তব্য লাইক নিয়ে করেকেটে খাচ্ছিলাম, সে গেলো বলে।
মা হাসান কবিতা নিয়ে এলেই নিশ্চিন্তে মহাপ্রস্হানে যাবো।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: এইসব কি বলেন.....হাবিজাবি কথা। কই আমার কোবতে, আর কই আপনের কবিতা!! এক হইলো! তয় এই সুযোগে আপনে কবিতা বাদ দিয়া গল্প লেখা শুরু করলেই আমি বেজায় খুশী! অবসরের প্রশ্ন আসে কুনহানতে!!! :P

ভালো কথা কইছেন। মিথী_মারজানের দেখা নাই বহুদিন।

মা হাসান কবিতা নিয়ে এলেই নিশ্চিন্তে মহাপ্রস্হানে যাবো। হুনছি, তিনি নাকি কবিতার অনুবাদ নিয়া কাম করতাছেন। তয় আপনে ডরায়েন না। আপনের জন্য এইসব কোন থ্রেটের মইদ্দেই পড়ে না। B-)

১৪| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৫

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: সর্বনাশ!!!! করেছেন ক???? ব্লগের কবিকুল তো এখন সকলেই কেঁদেকেটে অস্থির হয়ে যাবেন। ইসিয়াক ভাই সমানে কাঁদছেন। মনিরা আপু অবসরের কথা ভেবে ফেলেছেন। ছবি আপুও আমার মনে হয় নতুন কবিতা পড়ে হিমালয়ের উদ্দেশ্য অগ্রসর হয়েছেন। থাকলো এখন বিদ্রোহী ভৃগু ভাই। উনি প্রবীণ মানুষ। আশা করি নতুন কবিকে সামলেই কিছুটা ধাতস্ত হওয়ার চেষ্টা করবেন। জানিনা জুনাপুর মাহা আর মাহার কুমির ভাই মিলে কবিতা লেখার নামে, শৈশবে পড়া কুমির আর শিয়াল মিলে আলু চাষ করতে যাবেন কিনা.... এটাতো গেলে আশঙ্কার কথা..

কবিতার প্রসঙ্গে পরে আসছি.....

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:০৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সর্বনাশের কিছু নাই। আমি রিটায়ার্ড, নিরীহ গোবেচারা মানুষ! আমার দিক থেকে কারো কোন আশঙ্কা নাই। নেহায়েত আপনে কইছিলেন দেইখা দুইটা কোবতে দিলাম। :-B

১৫| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৭

আহমেদ জী এস বলেছেন: ভুয়া মফিজ,




এই আমি আর কখনই সেই আমি থাকেনা কিম্বা সেই আমি আর এই আমি হয়ে ওঠেনা! তাই তো মানুষ খুঁজে মরে নিজেকে। যেমন আপনি, খুঁজেছেন নিজেকে চমৎকার এই লেখার মধ্যে দিয়ে!!
দিন বদলায়, আমরাও সাপের খোলস বদলানোর মতো নিজেদেরও বদলে নিই। কিন্তু সবটাই কি আমূল বদলে যায় ? চামড়া, বদলে গেলেও তো হাড়-মাংশ ক'খানা থেকেই যায় আগের মতোই।
সেই পুরোনো হাড়-মাংশের গন্ধ তো বদলায় না। তেমনি বদলে যান নি আপনিও, "হরিজন" এর মতো ছড়া লিখে যেন বলে গেলেন - " আমিও ছিলাম...."
আর সত্যিকারের প্রেমিক যুগলদের পরিনতি তো চন্দ্রাহত'র মতোই হয় (বেশীর ভাগটাই)। সেটাই তো তাদের নিয়তি।

আবারো বলি - চমৎকার নিজেকে উল্টেপাল্টে দেখা।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:১২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: চমৎকার মন্তব্য জী এস ভাই। অবশ্য আপনার সব মন্তব্যই অনেক গভীর আর চমৎকার। এদিকে আমি শ্যালো মাইন্ডের মানুষ। আপনার মন্তব্য পড়া আর হিংসা করা ছাড়া আমার আর কিছুই করার নাই। :P

আমার কোবতের ব্যবচ্ছেদ ভালো লেগেছে বলাই বাহুল্য। অনেক অনেক ধন্যবাদ জানবেন।

১৬| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫১

রামিসা রোজা বলেছেন:
আমি বলবো দুটো কবিতাই দু'রকমের সুন্দর হয়েছে।
তাছাড়া হেভিওয়েট ব্লগাররা যা লিখেন তাই পড়তে ভালো
লাগে । আপনাকে এবং উৎসর্গদাতাকে শুভেচ্ছা রইলো।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:১৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: না রে ভাই.....আমি হেভিওয়েট কোন ব্লগার না। আমাকে হেভিওয়েট ব্লগার বললে প্রকৃত হেভিওয়েট ব্লগারদের ছোট করা হয়ে যায়। আমি নিতান্তই একজন হরিপদ পাল টাইপের ব্লগার। ইন ফ্যাক্ট, কেউ কেউ তো আমাকে ব্লগার হিসাবে স্বীকারই করে না!!! =p~

আপনার জন্যও অনেক অনেক শুভেচ্ছা।

১৭| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৮

সম্রাট ইজ বেস্ট বলেছেন: খেলমু না।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:২০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আরে খেলেন খেলেন.........আমি রিটায়ার্ড, আবার খেলার কোন সুযোগ নাই। আপনের লেখা পাই না বহুদিন। আগে কি দারুন দারুন লেখা দিতেন (কবিতার কথা কই নাই কিন্তু :P ), কই গেলো সেইসব!!

অতি শীঘ্র একটা গল্প লিখেন। :)

১৮| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৮

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: হরিজন কবিতাটি পড়ে রীতিমত সত্যেন্দ্রনাথ দত্তের মতো ছন্দের জাদুকর লাগলো। কবির হাতে সোনা আছে। এখন থেকে আমরা নিয়মিত কবিতা ফিরে পেতে চাই। যার চিন্তা শক্তির লেভেল এই পর্যায়ের তার প্রতিভাকে মূল্য দিতে কবিতা না লেখা অন্যায়। ++
কাজেই কবিতা চর্চা চলতে থাকুক.....

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:২৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সত্যেন্দ্রনাথ দত্তের মতো! এইটা কিন্তু বেশী হয়া গেছে কইলাম।

বাঙ্গালীরে নিয়া এই এক সমস্যা। খাইতে দিলে শোয়ার চিন্তা করে। ন্যাড়া বেলতলায় বারে বারে যায় না। কাজেই আপনের ইন্ধনে আমি আর সাড়া দিচ্ছি না। কবির হাতে সোনা থাকলে প্রয়োজনে সেটা বিক্রি করা হবে, তবুও কবিতা......নো চান্স!!! :-B

এতো কষ্ট করলাম। আপনে শতভাগ সুস্থ হইছেন কিনা জানাইলেন না তো কিছু!!

১৯| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:৩৬

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: চন্দ্রাহত মানব-মানবী পড়ে আমি বিমোহিত।
ভীষণ সুন্দর একটা কবিতা।এই কবিতার মান অনুযায়ী কবিতাটি উৎসর্গ করায় নিজেকে খুব লজ্জিত অনুভব করছি। আমি গরু/নদীর রচনা কিম্বা বটগাছের আত্মকথন লিখতে পারি। আমার ব্লগে আপনারা তারই পরিচয় পান।সেইস্থানে এমন একটা বিদগ্ধ পোস্ট পড়ে ও উৎসর্গ করায় কৃতজ্ঞতা জানানোর ভাষা নেই। তবুও জানাই মম হৃদয়ের কৃতজ্ঞতা।

চন্দ্রাহত মানব মানবী পড়ে বাস্তবে মনে হলো আমি যেন চন্দ্রালোকে হেঁটে চলেছি।একা নই। পাশে তো সেজন আছেই।ভালোই লাগছে হাঁটতে।সময়টা যদি ভিক্টোরিয়ান প্রিরিয়ডে হতো তাহলে হয়তো চন্দ্রলোক থেকে মহাশূন্যের দিকে গন্তব্যহীন পথে এগিয়ে যেতাম তো যেতাম..... মনে মনে অবশ্য গাইতাম এই পথ যদি না শেষ হয়......

অফটপিক:-এখন সপরিবারে অনেকটাই সুস্থ।আজি পৌরসভা থেকে বাড়িতে লোক এসছিল। একটা ফর্মে সই করিয়ে নিয়ে গেছে। কয়েকদিনের মধ্যেই ফিট সার্টিফিকেট পাবো বলে প্রাথমিক কথাবার্তায় জানতে পেরেছি।

ভালো থাকুন সব সময়।





২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:৪৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনার লজ্জা রাঙ্গা একটা ছবি দেখলে বুঝতে পারতাম, কতোটা লজ্জা পাচ্ছেন! =p~
চন্দ্রাহত মানব মানবী পড়ে কল্পনায় মহাশুন্যের পথে উড়াল দেন, কোন অসুবিধা নাই। কল্পনায় সবকিছুই পারমিটেড। শুধু জার্নিটা ওয়ানওয়ে না হলেই হলো।

যাক, আপনারা সপরিবারে সুস্থ আছেন জেনে শান্তি পেলাম। ফিট সার্টিফিকেট পেলে সেই খুশীতে একটা গল্প দিয়েন (আবার ধারাবাহিক না!!! :P )

২০| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:৪০

আমি সাজিদ বলেছেন: বেশ লিখতেন কবিতা। দুটো কবিতাই বয়সে আমার বড়।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:৪৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: এজন্যেই কবিতা দু'টার চুল-দাড়ি কেমন যেন সাদা সাদা লাগছে। প্রথমে কারনটা বুঝতে পারছিলাম না। :-B

একসময়ে না বুঝে তো কতোকিছুই করেছি, এখন জ্ঞান (?) বেড়েছে.......জেনে শুনে দুর্বোধ্য জিনিস নিয়ে নাড়াচাড়া করতে ভালো লাগে না। :)

২১| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:৫১

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: ওকে। ফির সার্টিফিকেট পেলে আপনার উদ্দেশ্য একটা ছোট গল্প থাকবে।

২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:৫৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ওয়াও! আশ্বাসে টাইট হয়ে বসলাম। হে আল্লাহ, ফিট সার্টিফিকেট যেন খুব দ্রুত চলে আসে। :)

২২| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:০৭

ইসিয়াক বলেছেন: ভাবছি হাবি জাবি ছাই পাশ যা লিখি তা আর লিখবো না । আপনার কবিতা এখন থেকে নিয়মিত চাই্। পড়ে পড়ে নয়ন মন স্বার্থক করি। আমি আবার কবিতা দুটো পড়তে এলাম।


সাধু! সাধু!!

৩০ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ২:৩৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: কোন লেখাই হাবিজাবি কিংবা ছাইপাশ না। আপনার মনের ভাব তো অন্য কেউ প্রকাশ করতে পারবে না, আপনাকেই করতে হবে। আপনার গল্প এখন যথেষ্ট ভালো হচ্ছে। লিখতে থাকেন। বেশী বেশী গল্প লিখবেন। পারলে সমকালীন বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পর্যালোচনা লিখতে পারেন, রম্য লিখতে পারেন.......কতো কিছুই তো আছে!!!

ভালো কথা, আমার উত্তর দিতে দেরী হচ্ছে ঠিকই, কিন্তু আমি সব মন্তব্যের উত্তর না দিয়ে নতুন পোষ্ট দেই না। কারন, এভাবে নতুন পোষ্ট দেয়ার মানে হলো, আমার নতুন পোষ্ট দেয়ার সময় আছে, কিন্তু যারা কষ্ট করে আমার পোষ্টে এসে মন্তব্য করে গেলো তাদেরকে প্রত্যুত্তর না দিয়ে ইগনোর করলাম। খুবই খারাপ প্র্যাকটিস এটা, আমার মতে। আপনার ''স্বার্থের পৃথিবী'' গল্পটা একটু
দেখেন আর ভাবেন! :)

২৩| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১১:১২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অ্যাজ আ হোল, পোস্টটা খুব ভালো লেগেছে। আপনার রসবোধ ও রম্যরস বরাবরই উঁচু মানের। ডায়েরি থেকে তুলে আনা পুরোনো কবিতা দুটোও সুন্দর। ৪/৫ বছর বয়সে অনেক ভালো কবিতা লিখেছেন। ও-বয়সে লেখা গভীর প্রেমের কবিতা থাকলে সেগুলোও শেয়ার করুন প্লিজ। ব্যাপার না, প্রেম না করেই আমি প্রেমের কবিতা প্রচুর লিখেছিলাম।

পদাতিক চৌধুরী ভাইয়ের জন্য দোয়া করি, আল্লাহ তাকে সপরিবারে দ্রুত সুস্থ করে দিন।

৩০ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:৪৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: পোষ্টটা ভালো লেগেছে জেনে ভালো লাগলো। ৪/৫ বছর বয়সে অনেক ভালো কবিতা লিখেছেন। ওই বয়সে লেখাপড়াই ঠিকমতোন শিখেছিলাম কিনা মনে নাই; কবিতা লেখা তো অনেক দুরের কথা। টাইপো বুঝতে পারছি। :)

বাঙ্গালী কবিতা লিখলে প্রেমের কবিতা লিখবে না, এটা মোটামুটি অসম্ভব ব্যাপার। ওই সময়টাতেই যেহেতু প্রেম করেছি, আমিও লিখেছিলাম। তবে কবিতা আর পোষ্টাবো না। ব্লগে আমি কবি হিসাবে পরিচিত হতে চাই না। তাছাড়া টু বি অনেস্ট, কবিতা আমার এখন আর ভালো লাগে না। আশাকরি কিছু মনে করবেন না।

পদাতিক চৌধুরী ভাইয়ের জন্য দোয়া করি, আল্লাহ তাকে সপরিবারে দ্রুত সুস্থ করে দিন। আমিন।

২৪| ২৭ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১১:২০

সামিয়া বলেছেন: ব্লগে লেখা উৎসর্গ করার খুব চল হয়েছে বুঝি আজকাল? অনেক কজনের পোষ্ট ই যার যার প্রিয় ব্লগারদের উৎসর্গ করা দেখলাম।

৩০ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:৪৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ব্লগে লেখা উৎসর্গ করার খুব চল হয়েছে বুঝি আজকাল? কি জানি, খেয়াল করি নাই তো! আমার ১২০টা পোষ্টের মধ্যে চার/পাচটা লেখা উৎসর্গ করেছি, প্রাসঙ্গিক মনে হয়েছে সেজন্যে। প্রত্যেকেরই নিজস্ব চিন্তাধারা থাকে। আমি আমারটা জানি, তবে অন্যরা কে কি জন্য উৎসর্গ করে জানিনা।

আপনি কখনও কোনও পোষ্ট কাউকে উৎসর্গ করেছেন? :)

২৫| ২৮ শে অক্টোবর, ২০২০ সকাল ১১:৩২

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: এ আমি কি দেখিলাম!!!
চোখ রগড়ে নিলাম
উপর নীচ উলট পালট করিলাম! হা ভুয়া মফিজ ভায়াইতো!

হা হা হা
আমি জানতাম, যারা একবার কবিতায় ছ্যাক খায় তারাই কবিতা বিমূখ হয় ;)
আজ হাতেনাতে প্রমাণ পাইলো জাতি!

তবে যতযাই বলেন- ঐ সময়গুলো অতুলনীয়!
সেই আবেগ, সেই কাঁচা শংকা কাঁচা লংকার চেয়ে বেশী জ্বালানো
সেই শিহরণ, সেই ভয়, সেই সূখ . . . আহা

সেই সময়ের লেখাও তেমনি। একেবারে আনকোড়া! কড়কড়ে. . .
দারুন অমূল্য অনুভব শেয়ারে ধন্যবাদ ভায়া
আহা এই প্রতিভা কোন অগ্নিগিরির লাভায় চাপা পড়িল?
জাতি বঞ্চিত হইলো সম্ভাবনাময় এক কবি হইতে!!!




৩০ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:৫৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: টেনশান পইড়া গেছিলেন, বুঝতে পারছি। তবে ঠিক জায়গাতেই আসছেন। পরিস্থিতি যে ধাক্কা খাওয়ার মতো…...অস্বীকার করার জো নাই। :P

ভালো কথা কইছেন, সেই আবেগ, সেই কাঁচা শংকা কাঁচা লংকার চেয়ে বেশী জ্বালানো সেই শিহরণ, সেই ভয়, সেই সূখ . . . আহা আবেগটাও তখন কাচাই ছিল। ছোটখাটো ব্যাপারে কতো বড় জিনিস ভাবতাম, এখন মনে পড়লে হাসি আসে। ঝগড়া হইলে ভাবতাম, ''শালার এই জীবনই আর রাখুম না!'' সেইখানে কবিতা লেখা কোন ছাড়!!!!! =p~

আমাদের কপালপোড়া জাতি বহু কিছু থেকেই তো বন্চিত! সেইখানে কাব্য প্রতিভা কোন ব্যাপারই না। আর এইটারে 'প্রতিভা' কইবেন, নাকি 'পতিবা' কইবেন; ভাবার দরকার আছে। আমার তো 'প্রতিভা' নিয়া যথেষ্ট সন্দেহ আছে। এখন আর ওইসব আবেগ-টাবেগ নাই, পূর্ণিমার চাদরে এখন ঝলসানো রুটির মতোই লাগে!

২৬| ২৮ শে অক্টোবর, ২০২০ দুপুর ১২:৩৬

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: তো! আমি কিতা করতাম!

না। কিছু করতে হবে না।

৩১ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:১০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: যাক, বাচাইলেন! আমি তো ভাবছিলাম, আমার বোধহয় কিছু করতে হবে!!! :P

২৭| ২৮ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৯

জাফরুল মবীন বলেছেন: আমি ছিলাম বাংলা সাহিত্যের দূর্বলতম ছাত্র।যার কবিতা পড়ে বুঝতে পারি তিনি আমার কাছে কবি আর যার কবিতা পড়ে বুঝেও বুঝতে পারি না তিনি এলিট কবি।প্রখম কবিতাটি বুঝেছি কিন্তু দ্বিতীয়টি বুঝেও বুঝলাম না। =p~

৩১ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:১২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমি ছিলাম বাংলা সাহিত্যের দূর্বলতম ছাত্র। না মবীন ভাই, নিজের প্রশংসা নিজে করা যাবে না। ;)

কবিতা পড়ে যারা বুঝেও বুঝে না, এদেরকে বলা হয় একধরনের জাগ্রত বুদ্ধিজীবি। যেমন, ঘুমায় গিয়াও ঘুমায় না যারা, তাদেরকে বলে জাগ্রত জনতা!! এটা অনেকটা ধরি মাছ, না ছুই পানির মতো; অন্য কথায় গভীর জলের মাছ। এখন আপনি ঠিক করেন, আপনি জাগ্রত বুদ্ধিজীবি নাকি গভীর জলের মাছ!! :-B

২৮| ২৮ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৭

জুন বলেছেন: সেই আমির দরকার নাই, এই আমিই ভালো ;)
আমিও একসময় দুই চাইরটা কবিতা লিখছিলাম /:)
তবে তা নিয়া প্রচার করতে চাই না ভুয়া :||
সুরকি রাইখা গেলাম, বুঝেন না মোবাইলে তো আর ইট আনা যায় না তাই =p~

মাহারে আবার ধন্যবাদ দিয়েন, সে দাওয়াত না দিলে আমি তো জানতামই না B:-/

৩১ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:১৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সেই আমির দরকার নাই, এই আমিই ভালো পুরাই একমত। এক্কেরে আমার মনের কথাটাই কইছেন। তয় এইটা কিন্তু আমি কি লেখছিলাম তা প্রচার করার লাইগা না। কারন তো পোষ্টেই কইছি…….হঠাৎ কইরাই মনে হইলো, দিলাম। আল্লাহ আমারে এমন বানাইছে, কি করমু কন! ঝোকের মাথায় জীবনে বহু আজাইরা কামই করছি। নট প্রি-প্ল্যানড এ্যট অল!!!

সুরকি রাখেন, ইটা রাখেন, যা খুশী রাখেন। আপনে যে আইছেন, এই জন্যই আমি বেজায় খুশী। :)

মাহারে আবার ধন্যবাদ দিয়েন, সে দাওয়াত না দিলে আমি তো জানতামই না উনারে আর ধন্যবাদ দিয়া ছোট করতে চাই না। এই ঋণ শোধ করা আমার পক্ষে সম্ভব না। :-B

২৯| ২৮ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪০

জুন বলেছেন: আর লাইক দিতে গিয়া দেখি বিশাল লম্বা লাইন :``>>
আপ্নের মত চাইয়া চাইয়া লাইক নিলে আমারও অনেক লাইক হইতো :-0
আর হোরাসের চক্ষুর জন্য আরেকবার রিমাইন্ডার দিয়া গেলাম /:)

০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৩২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমারটাতে যদি বিশাল লম্বা লাইন হয়, আপনেরটা কি? সুবিশাল লম্বা লাইন? B-)

হোরাসের চক্ষুর রিমাইন্ডারের জন্য ধন্যবাদ। আমরা আবার লকডাউনে যাইতাছি আগামী বৃহসপতিবার থেইক্কা। অর্ডার দেওনের আগে চেক করন লাগবো, ডেলিভারী দিতে পারবো কিনা!

৩০| ২৮ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১০:৫০

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: বেচারা মাহা ভাই সেই সেদিন থেকে কি খাটুনি না খাটছেন।কুমির ভাইয়ের কবিতা পোস্টে আমন্ত্রণ পত্র নিয়ে জুনাপুকে নিয়ন্ত্রণ জানাতে গেছিলেন। দুলাভাই আবার না খাইয়ে ছাড়বেননা। আগের দিনে বাজার থেকে আনা ভোলা মাছের বেলি পরিষ্কার করতে বললেও দুলাভাই ঠিকমতো বুঝতে পারেননি। যাইহোক নুতন করে মাছের বেলি পরিষ্কার করে খাইয়ে তবেই মাহা ভাইকে ছেড়েছেন। এদিকে ফিরে এসে দেখেন ছবি আপু এখনও আসেননি। আবার পত্র মারফত আমন্ত্রণ জানানোর দায়িত্ব পড়লো ‌মাহা ভাইয়ের কাঁধে। আহারে! মানুষটার দু'দণ্ড বসে বিশ্রাম করার সময় নেই। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত আপুর কাছে বার্তা পৌঁছে গেছে। এবার অবশ্য আমরা আশাবাদী ছবি আপুকে সঙ্গে নিয়ে মাহা ভাই যেকোনো মুহূর্তে এসে পড়লেন বলে।
ব্লগের কবি বিশ্ব এখন দ্বিখণ্ডিত। বাইপোলারে কুমির ভাইকে যোগ্য সম্মান দিতে মাহাভাইয়ের কবিতা প্রসব এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা...

দর্শকাসনে আমরা মাহা ভায়ের কবিতার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় রইলাম.....


০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৩৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: মাহা পেটুক মানুষ, তবে জুন আপা মনে হয়না উনারে কিছু খাওয়াইছে। বরং ঘুম ভাঙ্গানোর জন্য মনে মনে বিরক্ত হইছে বইলা মনে হয়।'ভোলা মাছ'' কোন মাছ, যেই মাছ কেউ কাউরে খাওয়াইতে ভুইলা যায়? :P

এদিকে ফিরে এসে দেখেন ছবি আপু এখনও আসেননি। সবুরে মেওয়া ফলে। নীচে দেখেন, ফটোক আপায় ফলছে।

দর্শকাসনে আমরা মাহা ভায়ের কবিতার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় রইলাম ঠিক…...তবে টেনশানে আছি। কবিতার নামে কি না কি আমদানী করে!!! :(

৩১| ২৯ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ১:১৩

মা.হাসান বলেছেন: কাউরে দাওয়াত দেয়ার পর তার অপেক্ষা না করে মাহফিলে বসে যাওয়া অভদ্রতা। বিদেশি ডিগ্রি না থাক দেশি আদব-কায়দাও কি দেখাবো না?

আর লাইক দিতে গিয়া দেখি বিশাল লম্বা লাইন

আমি তো দেখি পোস্টের বাইরে কুনু কুনু কমেন্টের ভিত্রেও লাইকের লাইন। B:-)

যার কবিতা পড়ে বুঝতে পারি তিনি আমার কাছে কবি আর যার কবিতা পড়ে বুঝেও বুঝতে পারি না তিনি এলিট কবি।


আপনি তো এলিট কবি হয়া গেলেন। কবিদের হাহাকার, হিংসা, দুঃখ, রাখ এবং (ছবি আপার) এমনকি বর্জন দেইখা আমার ভালোই লাগলো। আমার জন্য কি রকম রিসিপশন অপেক্ষা করতেছে তার আভাস পাইলাম।

কবিতার বড় শর্ত নাকি প্রেম। তা বিভিন্ন জনের হিসাবে আপনার তো প্রেমে হাবুডুবু অবস্থা চলছে। তাইলে এইটাই প্রথম আর এইটাই শেষ কেনো হবে? (১৯৮৯-১৯৯১ এর কবতে এখনো সংরক্ষনে কেনো রাখছেন :``>> এইটা আর বললাম না-- মনিরা আপা, জুন আপা সহ আর যারা আছেন তারা কি কিছুই বোঝে না মনে করেন B:-/ )

আপনার কবিতা পইড়া মডু বিলাতের ভিসার জন্য অ্যাপ্লাই কইরা অ্যাপয়েন্টমেন্ট পান নাই। আরো অনেকের নজরই নাকি আপনার কবিতার খাতার উপর। এখন ফ্রেঞ্চ এম্বাসির মতন ব্রিটিশ হাই কমিশন ঘেরাও হবার আগেই যদি ডিএইচএলে কবতের খাতা খানা পাঠায়া দেন, তা হইলে দেশ (দুইটাই) রক্ষা পায়।

গুনি জনেরা যেমন বলেন- আমার শিক্ষার অভাব - এটা কি মেজাজের কারনে নাকি বিশ্বাসের কারনে তা জানার খুব আগ্রহ হইতেছে। ছবির ভদ্রলোক কোন ব্লগে লেখে জানাইলে ঐ ব্লগে যাইয়া ওনার কাছে জিজ্ঞাসা করিয়া আসিতাম।

এত উচ্চমার্গের কবিতার বিষয়ে আলোচনা করিয়া পাপ বাড়াইতে চাইনা, এই বিষয়ে নিশ্চুপ থাকিলাম।

০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৪১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: যার বিদেশী ডিগ্রী নাই, সে সভ্য হইতে পারে না। আর সভ্য না হইলে আদব-কায়দা দেখাইবো কেমনে? আপনে যে আকারে-ইঙ্গিতে আপনের বিদেশী ডিগ্রী আছে বুঝাইতে চাইতেছেন, সেইটা বুঝতে কারো বাকী নাই। ;)

আমি তো দেখি পোস্টের বাইরে কুনু কুনু কমেন্টের ভিত্রেও লাইকের লাইন। ওর মইদ্দে একটা আপনের লাইকও আছে; আমি নিশ্চিত!!

মবীন ভাইয়ের মন্তব্য ভালো কইরা পড়েন। উনি কবি আর এলিট কবি'র মাঝামাঝি কিছু একটা মিন করছেন, ঝুলন্ত টাইপের। আর জানেনই তো, ঝুলন্ত কোন কিছুতে কোন ভরসা নাই।

কবিতার ডায়েরী আমার বউ যত্ন কইরা রাখছে। ওইটার ব্যাপারে আমার কোন ইন্টারেস্ট নাই। আপনে মনের মাধুরী মিশায়া যা খুশী ভাবতে পারেন, হু কেয়ার্স!!! আর দেশ উদ্ধারের টেনশান আপনের, আমার না। ওই ডায়েরী আমার দখলেও নাই, কাজেই আমি পাঠাইতে পারুম না। যথাযথ কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ জানানো হইলো।

ছবির ওই ভদ্রলোক অতিরিক্ত ঠান্ডায় ফ্রস্টেড হয়া কি কইতে কি কয়া ফালাইছে; অতো গুরুত্ব দেওনের কিছু নাই। তবে উনি যেহেতু আম্রিকান, উনার ব্যাপারে কোন কিছু জানতেও যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করতে হবে। ব্লগে একজনই আছেন যার মাধ্যমে আপনে এই কাজ করতে পারবেন; ওনার কাছ থেইকা দিক-নির্দেশনা চান। :P

আমার কোবতে নিয়া কিছু না কওনের জন্য অনেক অনেক কৃতজ্ঞতা!! :)

৩২| ২৯ শে অক্টোবর, ২০২০ সকাল ৭:১৬

সোহানী বলেছেন: হায় আল্লাহ আফনিও কবি ???????????????????????????????????????????????????

০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৪৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: নারে ভাই, আমি কবি না। এতোবড় দুঃসাহস আমার নাই! ছুডকালে মনের ভুলে ভুল কইরা ফালাইছিলাম, নাদান মনে কইরা মাফ কইরা দিয়েন! :``>>

৩৩| ২৯ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:২১

ইসিয়াক বলেছেন: এদিক ওদিক ঘুরেন ফিরেন, উত্তর দেন না ক্যান ;)? আর আইতে পারুম না হাইট্যা হাইট্যা পা ব্যাথা করতাছে B:-)

২৯ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:৪৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: এদিক-ওদিক না, খালি নীল আকাশের পোষ্টে কমেন্ট করছি আইজকা। আচ্ছা, ভুল বুঝাবুঝি এড়াইতে আপনেরে বিস্তারিত ভাইঙ্গা কই।

সোম/মঙ্গল কামের চাপ একটু কম থাকে। খেয়াল করছেন নিশ্চয়ই, আমি বেশীরভাগ পোষ্ট দেই সোম/মঙ্গলে। বুধ/বৃহসপতি/শুক্র দম ফেলার উপায় থাকে না। আগে অফিসে লোক বেশী ছিল, চাপ কম ছিল। এখন লোক কম (করোনায় ছাটাই হইছে), চাপ বেশী। আমার ডিপার্টমেন্টের চার্জে আমি। আগে আমার উপ্রে একজন ছিল। কাজেই আগে ব্লগাইতে পারতাম ইচ্ছামতোন, সারাদিন লগডইন থাকতে পারতাম। এখন আমি আমার কাম কম থাকলে যদি ব্লগাই, তাইলে অন্যরাও আমারে দেইখ্যা কামে ফাকি দিবো। প্রতিষ্ঠানের ডিসিপ্লিন দেখনটা জরুরী। কাজেই খুব দরকারী মন্তব্য না হইলে করি না। আর কইরাই লগ আউট করি। কারন, আমার কাছে কেউ আইলে সে কম্পিউটার দ্যাখে। এই হালারা জানে আমি ব্লগাই, কাজেই মিনিমাইজ কইরাও লাভ নাই।

আমার এখন বাজে সকাল ১০:৪৫। আপনেগো বিকাল ৪:৪৫। আমি আইজকা কাম থিকা বাইর হমু সন্ধ্যা ৭ টায়। দেশে তখন রাত ১টা। বাসায় গিয়াও কাম থাকে। জীবন কঠিন হয়া গ্যাছে। ডরে থাকি, কুনদিন প্রতিষ্ঠান বন্ধই না কইরা দেয়। অহন বুঝছেন? উত্তর যতো তাড়াতাড়ি পারি দিমু.........আমার কি আর সারাদিন ব্লগাইতে ইচ্ছা করে না!!! কিন্তু উপায় নাই গোলাম হোসেন। :(

৩৪| ৩০ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৮

আমি সাজিদ বলেছেন: ভুম ভাই, ইসিয়াক ভাইকে দেওয়া কমেন্ট পড়লাম। সংক্রমণ তো বাড়ছে সেখানে। অফিস ও ঘর সবখানেই সাবধান ও নিরাপদ থাকেন এই দোয়াই করি।

০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৪৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমি তেমন একটা সাবধানে থাকি না। আল্লাহ ভরসা। অদৃশ্য জিনিস নিয়ে টেনশান করতে ভালো লাগে না। আগামী বৃহসপতিবার থেকে আমরা আবার লকডাউনে যাচ্ছি। দেখা যাক, কোথাকার কোভিড কোথায় যায়! :)

আপনিও নিরাপদে থাকবেন।

৩৫| ৩০ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৯:২১

মিরোরডডল বলেছেন:



৮৯ এ ভুম এত ম্যাচিওর্ড যে হরিজনদের ওপর নির্যাতনে একেবারে কবিতাও লিখে ফেলা হয়েছিল #:-S
রেসিজম নিয়ে ছড়া ভালো লেগেছে । টফু আমার প্রিয়, লাকসাতে টফু দিয়ে খুব মজা !

মানব মানবী এটাও জোস হয়েছে । এটাই প্রথম আর শেষ। কেনো ভালইতো চলছে, চলুক ।

একবার ট্রাই করেছিলাম তিন লাইন :|




০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৫১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনাদের মতো কিছু মানুষ টফু খায় বলেই তো আরো কিছু মানুষ খেয়ে পড়ে বেচে আছে। লাকসাতে টফু দিয়ে খুব মজা! দেখি, যথাযথ কর্তৃপক্ষের কানে কথাটা তুলতে হবে। B-)

কেনো ভালইতো চলছে, চলুক। না না.....চলাচলির মধ্যে আমি আর নাই। বাঙ্গালীর এক কথা।

বাংলা কবিতাই বুঝি না, তার মধ্যে আবার ইংরেজি! একেবারে মাথার দশহাত উপর দিয়ে ঝড়ের বেগে চলে গেল। আমি শুধু চেয়ে চেয়ে দেখলাম! কিছুই বুঝি নাই…….অনেস্টলি!!! :((

৩৬| ৩১ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:৪৩

সামিয়া বলেছেন: আমি সেদিন পর পর ৪টা পোস্ট পড়েছি উৎসর্গ করা। তাই বলেছিলাম , এর মধ্যে কোন প্যাঁচ কিংবা খোঁচা ছিলনা। আমি জানি প্রতিউত্তরে আপনি এরকম কিছু মিন করেন নি তবু বললাম। আপনার লেখার মান এবং প্রেজেন্টেশন এত ভালো যে পাঠক আপনার পোষ্টের অপেক্ষায় থাকে। আর উৎসর্গ একটা আবেগীয় ব্যাপার।

আমি তেমন ভাবে লেখা কখনো উৎসর্গ করিনি। ভালো থাকুন।

০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৫৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: না না…...এর মধ্যে খোচাখুচির কিছু নাই। আমি যেমন জানি, আপনি খোচা দিয়ে কিছু বলেন নাই; তেমনি আপনিও জানেন। ওসব কথার পিঠে কথা, নাথিং সিরিয়াস। আর আপনি যেই কমপ্লিমেন্ট দিলেন, তেমন যোগ্যতা আমার এখনও হয় নাই। এটা কিন্তু আমি মনে-প্রাণে বিশ্বাস করি। আমি খুব চিন্তা-ভাবনা করে, আয়োজন করে কিছু লিখি না। হঠাৎ করেই কোন একটা বিষয় মাথায় আসে, লিখে ফেলি। আপনারা অনেকেই পছন্দ করেন; ব্যাস…..এটাই আমার বিশাল পাওয়া।

আপনাকে একটা তথ্য দেই। আমার বেশীরভাগ লেখার খোরাক আসে গোসল করতে করতে। মনে হয়, মাথায় পানি ঢাললে আমার মাথা খোলে!!!

এইখানে শীতের আগে প্রকৃতি আরেকবার রং বদলায়। দুই সপ্তাহ আগে তোলা আমাদের শহরের কোন এক রাস্তার ছবি।

৩৭| ০১ লা নভেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:০৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ইন্নালিল্লাহ এগ্লা কী দেখলাম আমি
। চোখ কচলাইয়া দেখি আমাদের কবিতা প্রেমী ভুয়া ভাইয়ার লেখা মাশাআল্লাহ।

এত সুন্দর কবিতা লিখেও যে বলে কবিতা ভালোবাসি না
তারে আমরার ডোবায় চুবামো কইলাম। ভাবীরে ডরাইতাম না।

আপনাকে একটা কবিতা উৎসর্গ করুম
রাজী?

০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:৫৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আরে কি কন এইগুলান! আপনে যে আইছেন, এতেই আমি কৃতার্থ। কবিতা উৎসর্গ করন লাগতো না। আমি তো কইছিই, সেই আমি আর এখন নাই। তিরিশ বছর পার হইছে…….কবিতার ধারে-কাছে আমারে পাওয়া যাইবো না অহন। ঝোকের মাথায় দুইখান পুরান কবিতা দিয়া ফালাইছি। মাফ কইরা দিয়েন। আমি আমার বর্তমানের ফর্ম বদলাই নাই কইলাম কিন্তু!

ঢাকার অনেক ডোবায় হুনছি আফ্রিকান মা‍গুরের চাষ হয়। আপনেগো ডোবায় হইলে চুবায়েন না। এইগুলি নাকি মানুষও খায়া ফালায়!!! :((

উৎসর্গ করতে চাইছেন, এতেই অনেক সন্মানীত বোধ করলাম। আপনের জন্যও আমাগো শহরের এক রাস্তার ফটো। আগেরটার লগে এইটাও তুলছিলাম।

৩৮| ০১ লা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আমাদের ডোবায় মাগুর মাছ নাই। কেবল হাসেরা খেলা করে। অনেক ফটো তুলে আনছি একদিন আপলোড করবো। কিন্তু নেটের যে হাল অবস্থা। আমার মনে হয় না আর কোনো দিন কিছু আপলোড করতে পারবো। অফিস সব লকড করে দিছে আমার নেট দিছে স্লো করে :(

০৩ রা নভেম্বর, ২০২০ ভোর ৪:২৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ও.....আমি তো ভুইলাই গেছিলাম যে আপনে কবি মানুষ। আপনের ডোবায় মাগুর মাছ না, হাসই থাকার কথা। পদ্ম বা শাপলা নাই? না থাকলে লাগায়েন। কবির ডোবায় ফুল না থাকা অনেকটা ইজ্জতের উপর হামলার মতোন একটা বিষয়!! :P

অফিস সব লকড করে দিছে আমার নেট দিছে স্লো করে ইস্পেশালী আপনের নেট স্লো করার কারন কি? বাংলাদেশ ব্যাঙ্ক কি এখন আর ব্লগিং সাপোর্ট করে না? অফিস থিকা আপলোড না করতে পারলে বাসার থিকা করবেন......সমস্যা কি?

৩৯| ০২ রা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:৫৪

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
আপনি ধরেই নিয়েছিলেন যে আপনাকে দিয়ে কবিতা হবেনা তাই বাদ দিয়েছেন কিন্তু চর্চা কররে ঠিকই হতো। +++++++

০৩ রা নভেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:১৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: হয়তো হতো, হয়তো না; কিন্তু কোন একটা বিষয়ের প্রতি আগ্রহ আর মমত্ববোধ না থাকলে কোন একজন চর্চাই বা করবে কিভাবে? ৩০ বছর অনেক লম্বা সময় যে কোনও কিছু বদলানোর জন্য। টাইম ইজ ওভার। এই আমি‘র আর অন্য কোন আমি হওয়া এখন আর সম্ভব না।

সময় করে পোষ্টে আসার জন্য অনেক ধন্যবাদ। :)

৪০| ০২ রা নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:০৩

করুণাধারা বলেছেন: হরিজনদের উপর নির্যাতনের পত্রিকার খবর পড়েই কবিতা লিখে ফেললেন- বিশাল কাব্য প্রতিভা আর বিশাল সহানুভূতিশীল হৃদয় ছাড়া এমনটা লেখা সম্ভব না!! চন্দ্রাহত কবিতাও ভালো, লাইক দিলাম।

কিন্তু একটা বিষয় নিয়ে প্রশ্ন আছে। ৮৯-৯১ সময়কাল ২৯-৩১ বছর আগের। এত বছর ধরে কবিতাগুলো টিকে রইল, মনে হচ্ছে সাধারণ ক্লাসের খাতায় এই কবিতা লিখেন নাই, ক্লাসের খাতা কবেই তো কাগজওয়ালার কাছে চলে যাবার কথা। এই কবিতাগুলো মনে হচ্ছে শক্ত মক্ত ডায়রির পাতায় লেখা...

আরেকটা কথা, আপনি দেশে থাকলে ভাবতাম বাক্সের নিচে বা আলমারির কোনায় ডায়রিটা পড়ে ছিল, হঠাৎ খুঁজে পেয়ে আমাদের দুটা কবিতা শোনালেন। কিন্তু আপনি থাকেন বিদেশে, উড়োজাহাজে বেশি জিনিস নিতে দেয় না, তাহলে এই ডায়রিখানা নিয়ে যাবার একমাত্র কারণ হতে পারে এটা আপনার কাছে মহামূল্যবান, স্মৃতি বিজড়িত অনেক কবিতা এ ডায়রির পাতায় পাতায় লেখা আছে।

অনুরোধ থাকলো সেখান থেকে মাঝে মাঝে কিছু কবিতা শেয়ার করার জন্য; তিরিশ বছর আগের কবিতা না, দুই চার বছর আগে লেখা কবিতা। মনে হচ্ছে ডায়রি খুলে মাঝে মাঝেই দুই চার লাইন আপনি এখনও লেখেন...

শুভকামনা রইল, বই মেলায় কবিতার বই বের হলে অবশ্যই জানাবেন, নিশ্চয়ই এক কপি কিনবো। :)

০৩ রা নভেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:২৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমার 'পতিবা' নিয়ে সন্দেহের কোন অবকাশই নাই আপা। ;)

এমন অনেক কবিতা লিখেছিলাম সে'সময়ে। আসলে তখন একটা ভাবের জোয়ার এসেছিল মনেহয়। তখন কবিতা লিখতাম সব জায়গায়, কোন ঠিক-ঠিকানা ছিল না। এমনকি খালি সিগারেটের প্যাকেটেও লিখেছি বাসে বসে বসে। আমার আম্রিকা প্রবাসী সেজো মামা আমাকে একটা ডায়েরী দিয়েছিলেন। সুন্দর, শক্তপোক্ত আর তার পাতাগুলিও অনেক পুরু আর ভারী। চমৎকার একটা জিনিস। প্রতিমাসের শেষে একটা করে ফুলপেইজ প্রাকৃতিক দৃশ্যের ছবি, সেই মাসের সাথে সম্পর্কিত। তো, এদিক-সেদিক লেখা যেসব কবিতা আমার মনে ধরতো, সেই ডায়েরীতে আমি আবার লিখে রাখতাম।

বিয়ের পরে যখন আস্তে আস্তে কবিতা লেখা বন্ধ হলো, আমার কবিতা-প্রেমী বউ ওই ডায়েরীর দখল নিয়ে নেয়। ওই কোন একবার সেটা এখানে নিয়ে এসেছে, কারন এখান থেকে যখন আমরা দেশে যাই, স্যুটকেইস একদম ঠাসা থাকে। ফেরার সময় প্রায় খালিই থাকে। ও এমনকি একবার শিলপাটাও নিয়ে এসেছিল......সেখানে ডায়েরী তো কোন ব্যাপারই না। :-B

আমি শেষ কবিতা লিখেছিলাম ১৯৯৫ সালে (ডায়েরী অনুযায়ী), দুই চার বছর আগে লেখা কবিতা কিভাবে দিবো!!! :(

মনে হচ্ছে ডায়রি খুলে মাঝে মাঝেই দুই চার লাইন আপনি এখনও লেখেন... ভুল!! ওই পাট চুকিয়ে ফেলেছি বহু আগে। কবিতার প্রতি এখন কোন আকর্ষণই বোধ করি না। বরং বলা যায় বিকর্ষণভাব প্রবল।

শুভকামনা রইল, বই মেলায় কবিতার বই বের হলে অবশ্যই জানাবেন, নিশ্চয়ই এক কপি কিনবো। কোন ধরনের বই বের করারই কোন পিলান নাই। তবে, দুনিয়াতে আমার বইয়ের অন্ততঃ একজন কাস্টোমার আছেন জেনে ভালো লাগলো। =p~

৪১| ০৩ রা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:৫৯

ইসিয়াক বলেছেন: একদিন পোস্ট না দিলে কেমন জানি ছটফট লাগে। পোস্টের পিছনেই বেশি সময় চলে যায়। কি করবো। আমারে মারেন বকেন আমি এমনই তো। কুঁড়ে আর কি B:-)

০৩ রা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনে কি রাজীব নূর যে প্রত্যেকদিন পোষ্ট দিতে হইবো? কুইড়ামি বাদ দিয়া মন্তব্যের উত্তর না দিলে মানুষজন আপনের পোষ্টে যাওন বন্ধ কইরা দিবো কইলাম!!! :D

৪২| ০৩ রা নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২৯

ইসিয়াক বলেছেন: আমারো একটা ছবি চাই :-B না হলে রাগ হয়ে যাবে কিন্তু :P

০৪ ঠা নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৫০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: নেন দিলাম। আর কান্নাকাটি কইরেন না, এইবার রাগ পানি করেন। B-)

আমার বাসার পিছনের পেভমেন্টে গোলাপের ঝাড়!

৪৩| ১০ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:২৭

ইসিয়াক বলেছেন: আমি কিন্তু গুগল সার্চ দিয়ে আপনার বাসা পর্যন্ত পৌছে যেতে পারি হা হা হা হা .....।

১০ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৩২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: পৌছান। পৌছায়া দরজায় নক কইরেন। চা-কপি খাওয়ামু নে!! =p~

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.