নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সবাই যখন নীরব, আমি একা চীৎকার করি \n--আমি অন্ধের দেশে চশমা বিক্রি করি।\n

গিয়াস উদ্দিন লিটন

গিয়াস উদ্দিন লিটন › বিস্তারিত পোস্টঃ

আমাজন জঙ্গলের জংলী রানী বাংলাদেশি তরুণী সারা বেগম ! (গুণীগন-একের ভিতর পাঁচ)

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৫৫


প্রবাসে বাংলাদেশের রক্তের উত্তরাধিকারী গুণীগন- ৫৬,৫৭,৫৮,৫৯,৬০ ।



৫৬ / মুটে (কুলি) থেকে মিলিওনিয়ার , ফ্রান্সের শীর্ষস্তরের করপ্রদানকারী কাজী এনায়েত উল্লাহ



ফ্রান্সে একসময়ের মুটে (কুলি) প্রবাসী বাংলাদেশি কাজী এনায়েত উল্লাহ বর্তমানে মিলিয়নেয়ার। এখানকার শীর্ষ ব্যবসায়ীও বটে। একেবারে শূন্য থেকে শুরু করে প্যারিসের মূল স্রোতের রিয়েল এস্টেট, অ্যাভিয়েশন ও রেস্তোরাঁ ব্যবসায় তার এ উন্নতির পেছনে রয়েছে অধ্যাবসায় ও কঠোর পরিশ্রম।

১৯৭৮সালে ভাগ্যান্বেষণে পাড়ি জমান । টিকে থাকার জন্য প্রথম অবস্থায় গাড়ি থেকে মালামাল খালাস বা বোঝা টানতেন ।
ফ্রান্স তথা ইউরোপের বাণিজ্যজগত ও কমিউনিটি সেবায় এক পরিচিত নাম কাজী এনায়েত উল্লাহ।

পিগেল, আইফেল টাওয়ারে কাছাকাছি এবং অভিজাত এভিনিউ শাঁজালিজে এলাকায় রয়েছে তার একাধিক রেস্তোরাঁ । আছে রিয়েল এস্টেট ও কনসালট্যান্সি ফার্মও । উজবেকিস্তান এয়ারলাইন্সের গোটা ইউরোপের টিকিটও তার প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিকোচ্ছ ।
এছাড়াও আরো অসংখ্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান কাজী এনায়েত বিগত বছর গুলিতে ফ্রান্সের শীর্ষস্তরের করপ্রদানকারী ।
নিজের অসংখ্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান ছাড়াও তিনি বাংলাদেশ-ফ্রান্স ইকোনমিক ফোরাম, ইউরোপ প্রবাসীদের প্রাণপ্রিয় সংগঠন অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের (আয়বা) সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন।

ইউরোপে বাংলাদেশি কমিউনিটির সাহায্য সহযোগিতা এবং সমস্যা নিরসনে এনায়েতউল্লাহ স্বপ্রণোদিত হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েন ।

এনায়েতউল্লাহর জন্ম রাজধানীর বনানী চেয়ারম্যানবাড়ী এলাকায় । জন্মস্থানের নামেই গড়ে তুলেছেন বনানী গ্রুপ । ঢাকার পূর্বাচল এলাকায় এই গ্রুপের পক্ষ থেকে প্রবাসীদের জন্য বিশেষ সিটি গড়ে তোলার কাজ শুরু করেছেন তিনি ।

তথ্য সুত্র এখানে -


৫৭ / মালয়েশিয়া প্রকাশনী সংস্থার ৫০ ভাগ বাজার ‘বিএস প্রিন্ট মালয়েশিয়া’র নিয়ন্ত্রণে , যার মালিক বাংলাদেশের নিধীর সাহা



মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুরসহ এশিয়ার বিভিন্ন ম্যাগাজিনে তার সাফল্য তুলে ধরে বের হয় নানা প্রচ্ছদ প্রতিবেদন। মালয়েশিয়ার সুলতান তার সামাজিক ও ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডের সাফল্যের জন্যে রাষ্ট্রীয় সম্মানজনক স্বীকৃতি হিসেবে দিয়েছেন ‘দাতো’ উপাধী।

তিনি বাংলাদেশের দাতো নিধীর সাহা। বাবা সুধীর চন্দ্র সাহা (মৃত)। ঢাকার সাভারের দক্ষিণপাড়ার ছেলে। জন্ম ১৯৬৪ সালে। সাভার অধরচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের পাঠ চুকিয়ে ১৯৮১ সালে ভর্তি হন ঢাকার মোহাম্মদপুরের গ্রাফিক্স আর্ট ইনস্টিটিউটে। সেখানকার পর্ব শেষ করে উচ্চ শিক্ষার জন্য স্কলারশিপ নিয়ে ৮৫ সালে পাড়ি জমান স্বপ্নের দেশ মালয়েশিয়ায়। আজকের মালয়েশিয়া তখন এত উন্নত ছিলনা।

এসেছিলেন উচ্চ শিক্ষার জন্য। এখন তিনিই গড়ে তুলেছেন বিশাল প্রতিষ্ঠান। রাজধানী কুয়ালালামপুরের কুচাইলামায় জালান ইনরাহানা সড়কের পাশে প্রায় ৬০ হাজার বর্গফুট এলাকাজুড়ে গড়ে তুলেছেন ‘বিএস প্রিন্ট মালয়েশিয়া’ (সিনরিয়ান বারহাট) নামের আর্ন্তজাতিক মানের ছাপাখানা। যেখানে কাজ করছেন ত্রিশ বাংলাদেশিসহ ৮০ দেশি-বিদেশি। মালয়েশিয়া ছাড়াও তার প্রতিষ্ঠানে কাজ করছেন নেপাল,মিয়ানমারের নাগরিক।

স্কলারশিপে পাওয়া অর্থ জমিয়ে মাত্র দুই হাজার রিঙ্গিত দিয়ে শুরু করেন ব্যবসা। শুরুটা ছিল বেশ কঠিন। প্রথমে কাজের অর্ডার জোগাড় করে অন্য ছাপাখানা থেকে তা ছাপিয়ে সরবরাহ করতেন। বলতে গেলে ‘মিডলম্যান’। ১৯৯১ সালে ‘বিএস প্রিন্ট মালয়েশিয়া’ কারখানার নিবন্ধন নেন।

এরপর আর ফিরে তাকাতে হয়নি। বর্তমানে মালয়েশিয়ার প্রকাশনী সংস্থার ৪৫-৫০ ভাগ বাজার এখন এই প্রতিষ্ঠানের নিয়ন্ত্রণে। এছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, সিঙ্গাপুর এমনকি অস্ট্রেলিয়া থেকেও নিয়মিত কাজের অর্ডার পাচ্ছেন।

কারখানায় মুখোমুখি হয়ে দাতো এন সাহা জানান, আমি কখনো চাকরি করার কথা ভাবিনি। জানেনই তো, সাহা পদবীর লোক মানেই রক্তে ব্যবসা। কারণ জীবনের প্রথম লক্ষ্যটাই ছিল চাকরি করা নয়, চাকরি দেওয়া। বিশ্বের সর্বাধুনিক মেশিনে আমার প্রতিষ্ঠানে অনেকে কাজ করছেন, এটাই আমার আনন্দ। যে প্রতিষ্ঠানটি প্রিন্টিং সেক্টরে মালয়েশিয়ার প্রথম আইএসও সনদপ্রাপ্ত।

২০১৩ সালে পাহাং রাজ্যের সুলতান হাজী আহমেদ শাহ’র কাছ থেকে লাভ করেন বিশেষ উপাধী ‘দাতো’।

তথ্য সুত্র - এখানে


৫৮ / ‘বিবিসি সেরা ব্রিটিশ বেকার’ পুরষ্কারের জন্য মনোনয়ন প্রাপ্ত নাদিয়া হোসেন



ব্রিটেনের উদিয়মান টিভি তারকা , বিভিন্ন চ্যানেলে রান্না বিষয়ক অনুষ্ঠানের উপস্থাপিকা নাদিয়া হোসেন ‘বিবিসি সেরা ব্রিটিশ বেকার’ পুরষ্কারের জন্য মনোনীত হয়েছেন ।

নাদিয়ার স্বামী আবদাল একজন কারিগরি ব্যবস্থাপক । তিন সন্তান নিয়ে তাঁদের বেডফোর্ডশায়ার শহরে বসবাস ।
নাদিয়া স্থানীয় চালনি গার্লস হাই স্কুলে অধ্যয়ন কালে তার শিক্ষক জন মার্শালের কাছ থেকে পাচকের কাজ শিখার উৎসাহ পান ।
চালনি হাই স্কুলের পড়া শেষ করে নাদিয়া লুটন সিক্সথ ফর্ম কলেজে ভর্তি হন এবং ২০০৩ সালে ইংরেজি, মনোবিজ্ঞান এবং ধর্মীয় শিক্ষায় এ লেভেল অর্জন করেন ।

তথ্য সুত্র - এখানে]


৫৯ / ব্রাজিলের স্কুলে বাংলাদেশী মাধুরীর অভাবনীয় কৃতিত্ব



বিশ্বব্যাপী নারীর ক্ষমতায়ণের এই যুগে বাংলাদেশের অনুকুলে আরো একটি সাফল্যের অধ্যায় রচিত হলো ল্যাটিন আমেরিকার প্রাণকেন্দ্র ব্রাজিলে। রাজধানীর স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘ব্রাসিলিয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুল’ বিআইএস-এর স্টুডেন্টস ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশী মেধাবী ছাত্রী মাধুরী কায়েস। গোটা ল্যাটিন আমেরিকার কোন স্কুলে এই প্রথম কোন বাংলাদেশী বিশেষ এই গুরুত্ববহ সাফল্য অর্জন করলেন।

১৭ সেপ্টেম্বর বৃহষ্পতিবার ব্রাসিলিয়াতে অনুষ্ঠিত বিআইএস কাউন্সিলের তীব্র প্রতিদ্বন্দিতাপূর্ণ নির্বাচনে ব্রাজিলীয় ছাত্রী এদুয়ার্দাকে মাত্র ১৪ ভোটের ব্যবধানে হারিয়ে গৌরবের আসনে অধিষ্ঠিত হন মাধুরী। এসোসিয়েশন অব আমেরিকান স্কুলস অব ব্রাজিলের মেম্বার-স্কুল হিসেবে ব্রাসিলিয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুলটি পরিচালিত হয়ে আসছে বিশ্বখ্যাত ইন্টারন্যাশনাল ক্রিশ্চিয়ান্স স্কুলস নেটওয়ার্কের আওতায়। বিশ্বের ২৯টি দেশের ছাত্র-ছাত্রীরা পড়াশোনা করছে এখানে।

ব্রাজিলের রাজধানীর অত্যন্ত প্রেস্টিজিয়াস এই স্কুলের স্টুডেন্টস কাউন্সিলের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মাধুরী কায়েস মিজারুল কায়েস ও নাঈমা কায়েসের কনিষ্টা কন্যা।

তথ্য সুত্র এখানে


৬০ / আমাজন জঙ্গলের জংলী রানী বাংলাদেশি তরুণী সারা বেগম !



ছোট্ট কুটিরে হইহই করে আদিবাসীরা বিয়ে দিলেন সারা বেগম -গিংকটোর । রীতি মেনে শরীর অনাবৃত করে শুরু হয় বিয়ের মন্ত্রোচ্চারণ । বর কনে তো বটেই সকল আমন্ত্রিত অতিথিই নগ্ন । রাতভর চলে নাচ-গান । বীর যোদ্ধা গিংকটোকে বিয়ে করে সারা এখন আমাজন জঙ্গলের রানি । তাঁকে পরিয়ে দেওয়া হয়েছে ম্যাকাও পাখির পালক দিয়ে তৈরি মুকুট । কোমরে বাঁধা পাখির পালকের ক্ষুদ্র পোশাক ।

ইকুয়েডরের আমাজন জঙ্গলে ''হুয়ারোনি'' সম্প্রদায়ের উপর একটি তথ্যচিত্রের শুটিং করতে যান অ্যাডভেঞ্চার প্রিয় এই বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ ফিল্মমেকার সারা ।

বাঁধ সাধে জংলীরা । তারা সভ্য মানুষ দেখলেই হত্যা করে । সারার ডকুমেন্টরি গ্রুফের প্রত্যেক সদস্যকে জংলীরা ধরে নিয়ে যায় তাদের রাজা গিংকটোর কাছে । গিংকটো অল্প স্প্যানিশ বলতে পারে । সারার ক্যামেরাম্যানও স্প্যানিশ জানত ।
অনেক দেন দরবারের পর তাদের মুক্তি মেলে , মেলেনা কাজের ও থাকার অনুমতি । শেষে এক এক প্রবীণ আদিবাসী ফতোয়া দেন রাজা গিংকটোকে বিয়ে করলে তবেই সারাকে ইকুয়েডরের ওই জঙ্গলে থাকার এবং কাজ করার অনুমতি দেওয়া হবে ।
প্রস্তাবে রাজি হয়ে যান সারা ।

১৪ বছর বয়সে একবার দাদা-দাদীর সঙ্গে দেখা করতে বাংলাদেশে এসে ছিলেন সারাহ । প্রকৃতিপ্রেমী এই তরুণী মজেছিলেন বাংলাদেশের প্রকৃতিতে।

প্রকৃতির প্রতি সেই টানেই ছুটে গিয়েছিলেন আমাজানের গহীন জঙ্গলেও ।
ডেইলি মিরর লিখেছে, তথ্যচিত্র নির্মাণের জন্য হুয়ারোনিদের বিশ্বাস অর্জনের প্রয়োজনেই সারাহ সেখানে বিয়ে করেছিলেন ওই গোত্রের সেরা শিকারী হিসাবে পরিচিত গিংটোকে, যার বয়স সারাহর দ্বিগুণের বেশি ।


তথ্য লিঙ্ক ডকুমেন্টরী সহ


সকল পর্বের লিংক এখানে ।

মন্তব্য ৮৪ টি রেটিং +১২/-০

মন্তব্য (৮৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:১৪

হানিফুর রহমান হানিফ বলেছেন: ভালো লাগলো।

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:১৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: প্রথম মন্তব্যকারি হানিফুর রহমান হানিফ আপনাকে ধন্যবাদ ।

২| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:১৪

কামরুন নাহার বীথি বলেছেন: পঞ্চ রত্নের, রত্ন হয়ে ওঠার কাহিনী সত্যিই ভাল লাগল!!!
অনেক অনেক ধন্যবাদ ভাই!!!

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:২২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ কামরুন নাহার বীথি ।

৩| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


ভালো

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:২৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ধন্যবাদ চাঁদগাজী ।

৪| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:৩৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুন্দর পোস্ট ।তবে জংলী রানীর জন্য খারাপ লাগলো । ;) আরো তো রাজা ছিল !:#P

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:৪২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সেলিম ভাই , জংলী রানী ওখানে কয়েক মাস থেকে চলে এসেছিল । জংলীকেও আনতে চেয়েছিল , সে জঙ্গল ছেড়ে কোথাও জেতে রাজি নয় । জংলী রানী মাঝে মাঝে জঙ্গলে যায় । :D

৫| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১১:২৪

অগ্নি সারথি বলেছেন: আমাজন জঙ্গলে বাংলাদেশি তরুণী সারা বেগমের ঘটনাটি জানতাম। আবারো জানা হল। আপনার এই পোস্টের সাথে ছিলাম, আছি এবং থাকব। শুভ কামনা।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:২৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আন্তরিক মন্তব্যের জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ অগ্নি সারথি ।

৬| ১৮ ই অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১১:৪৮

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: ভাল তো লাগবেই,বাংলাদেশী যে।।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৪২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকে ধন্যবাদ সচেতনহ্যাপী ।

৭| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১২:১৫

গেম চেঞ্জার বলেছেন: সারা বাংলাদেশের কোন জেলার, জানলে ভাল হতো। পোস্টে পিলাস+

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৫৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: উনার মাতাপিতা বা জেলার নাম জানা যায় নি ।

৮| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১২:২০

ধমনী বলেছেন: পোস্টের ধারাবাহিকতার শুভকামনা।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:০০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অসংখ্য ধন্যবাদ ধমনী ।

৯| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১:৪৪

চ্যাং বলেছেন: মাইয়াডার শরম লুইজ্জা নাই-------------- B-)) B-)) B-)) B-)) B-)) B-)) B-)) B-)) B-)) B-))




পোস্টে পিলাচ হাকাইলাম---

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:০৩

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: মি চ্যাং , ''শরম লুইজ্জা'' অবশ্যই আছে , তার আগে জান বাঁচানো কর্তব্য ।
মন্তব্য ও ''পিলাচ হাকানো''য় আপনাকে ধন্যবাদ ।

১০| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ৮:০৫

কি করি আজ ভেবে না পাই বলেছেন: সারার ব্যাপারটি চমকপ্রদ,
তবে বুকের কোথাও কেনো জানি সূক্ষ ব্যাথা অনুভূত হচ্ছে।
ক্যান.........আমি ক্যামনে কমু?
বুইজঝা লন।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৪৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: কি করি আজ ভেবে না পাই, বিয়েটা ছিল কেবলই আনুষ্ঠানিকতা। গিঙ্কটোর সঙ্গে তার কোন যৌন সমপর্ক স্থাপন করতে হবে না বলে সারাকে আগেই জানানো হয়েছিল। এটা হচ্ছে, উপজাতিদের সঙ্গে বিশ্বাস স্থাপন করার জন্য সম্মানসূচক এক আনুষ্ঠানিকতা।
এই বিয়ের আইনগত বাধ্যবাধকতা নেই তাই ''সূক্ষ ব্যাথা অনুভূত'' হওয়ার কিছু নেই । আউগাইয়া জাইতে পারেন ;)

১১| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ৯:৫৬

মাঈনউদ্দিন মইনুল বলেছেন:

আরেকটি অনবদ্য পোস্ট। গর্বে বুকটা ফাডি যায় ;)

//ইউরোপে বাংলাদেশি কমিউনিটির সাহায্য সহযোগিতা এবং সমস্যা নিরসনে এনায়েতউল্লাহ স্বপ্রণোদিত হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েন।//

বিষয়টি ভালো লেগেছে। প্রবাসে সকলেই একটু দেশ প্রেমিক হয়ে যান। এটি দেশে থাকলে কত ভালো হতো।

সারার এডভেন্চার ভালো লেগেছে, বিয়ের বিষয়টি বাদে। যা হোক, হয়তো আর কোন বিকল্প খোলা ছিল না।


দেশের মানুষের এডভেন্চারাস প্রবাস জীবন নিয়ে চলতে থাকুক এই পর্বটি :)

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৩১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: মাঈনউদ্দিন মইনুল ভাই , আসলেই সারার কোন বিকল্প পথ খোলা ছিল না । এর পূর্বে জঙ্গলে প্রবেশ করতে চাওয়া ৫ জন
খৃষ্টান মিশনারিকে জংলীরা হত্যা করেছিল ।
আমি আমার এক ফ্রেন্ডের কাছ থেকে জেনেছি , এনায়েতউল্লাহ সাহেব নিজে প্লেন ভাড়া দিয়ে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে গিয়ে স্বদেশীদের অনেক বিবাদ মীমাংসা করে থাকেন ।
আপনাকে ধন্যবাদ ।

১২| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ৯:৫৬

রিকি বলেছেন: আমাজন জঙ্গলের জংলী রানী বাংলাদেশি তরুণী সারা বেগম !

এই ঘটনাটা পড়ে সব থেকে বেশি অবাক লাগছে ভাই। শেষ পর্যন্ত টারজানের আম্মা হতে মন চাইলো সারার !!! :(

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৪৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: শেষ পর্যন্ত টারজানের আম্মা হতে মন চাইলো সারার !!!
হাহাহাহাহা ।
ধন্যবাদ রিকি ।

১৩| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:০৯

ডাঃ মারজান বলেছেন: পোস্টে +++। জংলি রানী তো সুপার হিট!

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৩৩

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: প্লাসের জন্য ধন্যবাদ ডাঃ মারজান ।

১৪| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৪০

ইসু বলেছেন: সুন্দর পোষ্টের জন্য অনেক ধন্যবাদ

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৩৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকেও ধন্যবাদ ইসু ।

১৫| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৪২

ইসু বলেছেন: সুন্দর পোষ্টের জন্য অনেক ধন্যবাদ

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৩৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: :)

১৬| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৫৩

জুন বলেছেন: গিংকটোর বৌ এর জন্য শুভেচ্ছা রাশি রাশি =p~
এই পোষ্টের আর কাউকে নিয়ে আজ আর ভাবছি না গিয়াস্লিটন ।
জংলী রানী সারা বিশ্বে আমাদের মুখোজ্জ্বুল করেছে । সে ছাড়া আমাদের আর কেউ রানী হয়েছে এমন প্রমান কি কেউ দিতে পারবে ? হোক সে আমাজনের জংলী রানী B-)
প্রচন্ড গর্বের ইমো হবে /:)

পোষ্টের জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ :)

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৪২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সারা ব্রিটেনের এক জন হাইপ্রোফাইল তথ্যচিত্র নির্মাতা ।সে বাই ব্লাড বাংলাদেশী বিধায় , তাঁর কর্মে আমরা অবশ্যই গর্বিত ।
সুন্দর মন্তব্যের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ জুন ।

১৭| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:২০

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: অনন্য অসাধারন বাঙালীর জয়গাথার মালায় একের থেকে উজ্জ্বল এক নতুন নতুন মুক্তো মানিকের সমাহারে মুগ্ধ! গর্বিত!

আর মালাকার হিসাবে আপনিতো সর্বাকালীন উচ্চাসনে আছেন থাকবেন।

গাথতে থাকুন মালা
বাঙালীর অহংকার
বাঙালির শ্রেষ্ঠত্ব
বাঙালীর আপন পরিচয়ের!

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৪৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: বিদ্রোহী ভৃগু ভাই ,সুন্দর মন্তব্য , আর মালাকার হিসাবে আপনিতো সর্বাকালীন উচ্চাসনে আছেন থাকবেন।
এই লাইনে , বিরাট শরমের মধ্যে ফালাই দিলেন ।

১৮| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:৩২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন:
গত ১১ ই সেপ্টেম্বর নিজের ফেসবুক পেইজে দেওয়া সারার এক স্ট্যাটাস এ দেখা যায় ,বাংলাদেশি মিডিয়া ও কমিউনিটির উপর দারুন ক্ষিপ্ত হয়ে আছেন তিনি ।



নিচে তাঁর স্ট্যাটাস তুলে দিলাম -

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:৩৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আমার আমাজন এডভেঞ্চার নিয়ে কিছু সংখ্যক বাংলাদেশি মিডিয়ার নেতিবাচক শিরানাম আমি দেখেছি এবং শুনেছি। চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আমাজন এবং সারা বিশ্বে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যূ নিয়ে সচেতনতা তৈরির আমার প্রচেষ্টাকে যখন সারা বিশ্ব সমর্থন ও উৎসাহ জুগিয়েছে,তখন কিছু সংখ্যক বাংলাদেশি মিডিয়া নেতিবাচক শিরোনাম করে আমাকে আক্রমন করেছে।

আংশিক নগ্ন হয়ে আমাজানে আমার ভালো উদ্দেশ্যসম্পন্ন কাজকে যারা আক্রমন করেছে, তাদের সত্যিকার অর্থেই মন আরো উদার করা দরকার ।এই বিশ্বে আরো কতো কি আছে তা তাদের দেখা দরকার এবং সেগুলোর সঙ্গে যোগসূত্র করা দরকার। অন্যের ধর্ম এবং সংস্কৃতিকে সম্মান করতে শেখা দরকার।

তিনি বলেন, অনেকে এটাকে ধর্মীয় দৃষ্টিকোন থেকে নিয়েছে । আল্লাহ কেবল বাংলাদেশকেই নয়, আমাদের সবাইকেই সৃষ্টি করেছেন ।

তিনি আহ্বান জানিয়ে বলেন, ভূয়া গল্প নিয়ে দয়া করে আমার মাকে আর মানসিক চাপ দেবেন না। বাঙালী কমিউনিটির এই হীনমন্যতা প্রকাশ করতে আমার নিজেরও লজ্জা হচ্ছে । কিন্তু তারা যেহেতু আমাকে আক্রমন করেছে, আমিও বাধ্য হয়ে তাদের চেহারাটা তুলে ধরলাম ।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:৪৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ডকুমেন্টারি নির্মাতা সারা চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আমাজন এবং সারা বিশ্বে গুরুত্বপূর্ণ ইস্যূ ''তেল কোম্পানির মালিকরা কীভাবে আমাজনের জঙ্গল ধ্বংস করছে '' এ বিষয়ে বিশ্বের দৃষ্টি আকর্ষণ ও সচেতনতা তৈরির জন্য আমাজনে যান ।আমাজনের খনিজ পদার্থ সমৃদ্ধ এই অঞ্চলের আদিবাসীদের সঙ্গে বহির্জগতের সম্পর্ক কোনও দিনও ভাল ছিল না। ১৯৫০ সালে ৫ জন মিসনারিজ এই অঞ্চলে প্রবেশের চেষ্টা করলে আদিবাসীরা তাঁদের খুন করে।
পেশার প্রতি দায়িত্তশিল এই উদ্যমী তরুণী বাধ্য হয়ে এই অনারেবল বিয়েতে অংশ নেয় । লৌকিক এই বিয়ের কোনও আইনি স্বীকৃতি নেই ।
তার ডকুমেন্টরিটি ইতোমধ্যে কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হয়ে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে ।
বহির্বিশ্বে বাংলাদেশের মুখ উজ্জ্বল করা এই কৃতির ''এডভেঞ্চার অব অ্যামাজন'' কে জুন'আপুর মত ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখার জন্য সকলের নিকট সনির্বন্ধ অনুরোধ রইল ।

১৯| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:৪২

সাহসী সন্তান বলেছেন: আপনার এই সিরিজটা আমার কাছে ভীষণ ভাল লাগে! তবে আজকের সিরিজের প্রধান আকর্ষণ ছিল 'আমাজান জঙ্গলের জংলী রানী সারা বেগম'! যদিও খবরটা আমি আগেও জানতাম তবে আজ আবারও জানা হলো! তাছাড়া আমার কাছে আজ সব থেকে বেশি ভাল লেগেছে, 'মুটে থেকে মিলিওনিয়ার কাজী এনায়েত উল্লাহ'র ঘটনাটা পড়ে। অনেক টা জিরো থেকে হিরো বলা যায়!

ধন্যবাদ পোস্টের জন্য! শুভ কামনা জানবেন!

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:১১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: এই সিরিজ শুরুর দিকে আমি গুণীদের সম্পর্কে একটু বিশদ আলোচনা করেছি । পাঠক বোর ফিল করতে পারে ভেবে পরবর্তীতে
এক পোস্টে ৫ জনকে উপস্থাপন করেছি , এতে আর বিশদে আলোচনার সুযোগ থাকেনি ।
৫ জনের পোস্টে আমি শুধু গুণীদের সম্পর্কে কিঞ্চিৎ ধারনা দেয়ার চেষ্টা করেছি ।
কিঞ্চিৎ ধারনা থেকে পাঠক যদি কারো সম্পর্কে অধিকতর আগ্রহী হয় ,তাহলে নেটে একটু ঘাঁটাঘাঁটি করলেই পাঠক বিশদ জানতে পারবেন ।
ইচ্ছা করলে আপনিও এদের সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে পারেন । সুন্দর মন্তব্যের জন্য ও সিরিজটি ভাল লাগায় আপনাকে ধন্যবাদ সাহসী সন্তান ।

২০| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:৪৭

জুন বলেছেন: আমার মন্তব্যে মিজ সারার অনুভূতিকে আঘাত দিয়ে থাকলে আমি দুঃখিত গিয়াসলিটন । আপনি ইচ্ছে করলে আমার মন্তব্যটি ডিলিট করে দিতে পারেন । আমি ভেবেছিলাম উনি এখনো গিংটোর রানী হিসেবে আমাজনে আছেন । এটা যে তার এবং অন্যান্য ক্রুদের বেচে থাকার একটি প্রচেষ্টা ছিল জানা ছিল না ।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:৫৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: দুঃখিত হবেন কেন ? আপনি বিষয়টাকে এবং সারার কীর্তিকে ইতিবাচক দৃষ্টিতেই দেখেছেন । তাই উপরের এক কমেন্টে আপনাকে উদাহরণ হিসেবে এনেছি ।

২১| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:০৮

শতদ্রু একটি নদী... বলেছেন: কমেন্টে দেয়া সারার ফটো তো খারাপ না। আমি গিংকট হইলে ভালুই হইতো। ;)

পোস্টে ভালোলাগা রইলো। :)

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:১৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সারার জন্য গিংটো হতে চাওয়া ;) শতদ্রু ভাইএর জন্য শুভ কামনা ।

২২| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:১২

সাহসী সন্তান বলেছেন: লেখক বলেছেন: কি করি আজ ভেবে না পাই, বিয়েটা ছিল কেবলই আনুষ্ঠানিকতা। গিঙ্কটোর সঙ্গে তার কোন যৌন সমপর্ক স্থাপন করতে হবে না বলে সারাকে আগেই জানানো হয়েছিল। এটা হচ্ছে, উপজাতিদের সঙ্গে বিশ্বাস স্থাপন করার জন্য সম্মানসূচক এক আনুষ্ঠানিকতা।

-আমি আপনার এই কথার সাথে সম্পূর্ন একমত! কারণ যতদূর জানি বিয়ের আগে সারাকে বলা হয়েছিল যে; 'আপনি ইচ্ছা করলে বিয়ে করতে পারেন, ইচ্ছা না হইলে বিয়ে করার দরকার নেই! আমরা ইচ্ছা করেছি আপনাকে আমাদের রাণী বানাবো, আপনার যদি ইচ্ছা না হয় আমরা জোর করবো না! এটা শুধুমাত্র উপজাতিদের সম্পর্কে মানুষের ভুল ধারনা গুলোকে দূর করার জন্যই এমনটা করা হয়েছিল!'

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:২১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সাহসী সন্তান , সারা সম্পর্কে তথ্য নিতে আমি ব্রিটেনের কয়েকটি পত্রিকায় চোখ বুলিয়েছি ।
বেশির ভাগ পত্রিকায় সারার এই কর্মের ভূয়সী প্রশংসা করেছে , এবং পুরো সংবাদ ইতিবাচক ভাবে উপস্থাপন করেছে ।
শুধু একটা পত্রিকা লিখেছে , তার এই কর্মে তার কমিউনিটির লোক জন অস্বস্তি বোধ করছে ।
একটা পত্রিকায় আপনার উল্যেখিত কথাটাও লিখা হয়েছে । আপনাকে আবারও ধন্যবাদ ।

২৩| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:১৪

হামিদ আহসান বলেছেন: দারুন লাগছে সিরিজটি ....

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৪০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অসংখ্য ধন্যবাদ হামিদ আহসান ভাই ।

২৪| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:২১

জেন রসি বলেছেন: সারা বেগমের ব্যাপারটা ইন্টারেস্টিং। সবাই যেখানে বন ধ্বংস করে নগর বানাচ্ছে। সারাহ সেখানে নগর ছেড়ে বনে চলে গেছে। অনেক অজানা তথ্য শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ আপনাকে।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৫২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ জেন রসি ।

২৫| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১:৩৪

রাতুল_শাহ বলেছেন: আমার দেশের মানুষের এমন কথা জানতে পারলে ভালোই লাগে।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:০০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকে ধন্যবাদ রাতুল_শাহ ।

২৬| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১:৫৩

হাসান মাহবুব বলেছেন: এইবারের পর্বটা বেশ বৈচিত্রময়। বিশেষ করে জঙ্গলের রাণী সারার অংশটা। এটা নিয়ে আমার আরো বিস্তারিত জানার আগ্রহ আছে।
শুভেচ্ছা।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:০৩

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: হাসান মাহবুব ভাই , আমাজন সারা বেগম লিখে বাংলায় বা ইংরেজিতে এক্ষুনি সার্চ লাগান । আপনার আগ্রহ সৃষ্টি করতে পেরে ভাল লাগছে । আপনাকে ধন্যবাদ ।

২৭| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১:৫৪

মানবী বলেছেন: সারা'র গল্প জেনে সত্যি অবাক হলাম! কখনও চোখে পড়েনি এই কাহিনী!

নাদিয়ার অনুষ্ঠানের ফাইনালটা পুরো দেখেছি, আসলেই অসাধারন গুনীজন। তাঁর প্রত্যেকটি বেকড প্রডাক্ট ছিলো নিখুঁত আর বিচারকদের মতে অতুলনীয় স্বাদ!

তবে সবচেয়ে বেশি জানতে ইচ্ছে করছে গিয়াসলিটন এসব তথ্য কিভাবে সংগ্রহ করেন! :-)
এবং তিনি এই সিরিজের বাইরে অন্য কোন পোস্ট দিবেন কিনা!!

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:১২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: তবে সবচেয়ে বেশি জানতে ইচ্ছে করছে গিয়াসলিটন এসব তথ্য কিভাবে সংগ্রহ করেন! :-)
অবসরটা এই পোস্টের মাল মসলা সংগ্রহেই যায় , গিন্নি প্রায়ই বলে ল্যাপটপ টা নষ্ট হয়না কেন ? :) :)
আপনার সুন্দর মন্তব্য ভাল লাগলো ।
আমার এই সিরিজের ফাঁকে ফাঁকে আমি ( লো কোয়ালিটি হলেও) কিছু মৌলিক লিখা দেয়ার চেষ্টা করি । এই পোস্টের আগের
পোস্টটিও একটি মৌলিক পোস্ট । দেখার আমন্ত্রন রইল ।

২৮| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৩:৪৮

ডি মুন বলেছেন: খুব সুন্দর পোস্ট
অনেক কিছু জানা হল।

মইনুল ভাইয়ের মত আমারো বলতে ইচ্ছা করছে, গর্বে বুকটা ফাডি যায় :)

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:২৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সুন্দর মন্তব্য , অনেক ধন্যবাদ ডি মুন ।

২৯| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৪:৩১

এস কাজী বলেছেন: গিয়াস ভাই আরেকটা ভাল পোস্ট। ধন্যবাদ পোস্টের জন্য :)

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:৩০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অসংখ্য ধন্যবাদ এস কাজী ভাই ।

৩০| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ সন্ধ্যা ৬:২১

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন: ধন্যবাদ

৩১| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:১৬

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: আসল কথা হলো সুন্দরী মেয়ে পেয়ে হত্যার পরিবর্তে বিবাহের সাধ জেগেছে । নেটেতো তার নগ্ন ছবিও্ আছে নগ্ন রাজা নগ্ন রানীকে বিবাহ করছে । আবার বলছেন আনুষ্ঠানিকতা । লিটন ভাই সারা রানি কি আপনার কুটুম লাগে নাকি?তারে এত খাতির কেনু? নাকি আবার তারসঙ্গে ভাব হয়ে গেলো । এই মেয়ে আবার মাকে নিয়ে ভাবে নাকি? তারতো শুধু জঙ্গল আর জঙ্গলী রাজাকে নিয়ে ভাবার কথা । বিয়ে ছাড়াই কত কি হচ্ছে আর বিয়ে করে সে সাধু সেজে বসে থাকবে এটা কেউ বিশ্বাস করবে না ।


খাস দিলে রাজা রানী জন্য দোয়া করেন । সত্যি কারের টারজানের জন্ম দিতে সারা আপা ওখানে গেছে । রাজার চেহারা মাশাল্লাহ সুইট । বয়সও যথেষ্ট বেশি । সোনায় সোহাগা জুটি । প্রথম কমেন্টটা ঠিক হয়নি বোধ হয় । !:#P

২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:০৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সারা'র বিয়েটা সেলিম ভাই মেনে নিতে পারছেনা কেন আমাব বুঝে আসছেনা । ( নাকি কোন সফট কর্নার আছে :))
সারা অবশ্যই আমার কুটুম , আপনার ও । তাও আবার রক্ত সম্পর্কীয় :)
আসলে সেলিম ভাই , রূপবতী মেয়েটিকে গিঙ্কটোর পাশে সহ্য করতে পারছেন্ না ।
সেলিম ভাইর বউ হোক সারার চেয়েও রূপবতী =p~

৩২| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:০১

আহমেদ জী এস বলেছেন: গিয়াসলিটন ,



বরাবরেরই মতোই সুন্দর আর বিচিত্র ক্ষেত্রের গুণীগনদের কথা । চলুক ।

শুভেচ্ছান্তে ।

২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:১০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকেও অনেক শুভেচ্ছা আহমেদ জী এস ।

৩৩| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:১৬

প্রামানিক বলেছেন: বিশ্বের আনাচে কানাচে বাংলার এত গুণী মানুষ ছড়িয়ে আছে আমরা জানতাম না। এদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ ভাই গিয়াস লিটনকে। শুভেচ্ছা রইল।

২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৩৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ প্রামানিক ভাই ।

৩৪| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:৪৬

দর্পণ বলেছেন: এ্যনাদার গুড পোস্ট

২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:১৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ধন্যবাদ গল্পকার দর্পণ ।

৩৫| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:৫৯

তারছেড়া লিমন বলেছেন: চলতে থাকুক আর আমি জ্ঞান আহরন করতে থাকি..........................+++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++++

২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৪:৫২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সাথে থাকায় অসংখ্য ধন্যবাদ লিমন ভাই ।

৩৬| ২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১:৪৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: কবি সেলিম আনোয়ার ভাইয়ের সৌজন্যে সারা সম্পর্কে আরেক টু আলোক পাত -- কবি সেলিম আনোয়ার ভাইয়ের সৌজন্যে সারা সম্পর্কে আরেক টু আলোক পাত -- (নিচে)

২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১:৪৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন:

সারাহ বেগম ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্ট হিসেবে নিবিষ্ট এক শিকড়সন্ধানী সংবাদকর্মী ও চলচ্চিত্রকার। ব্রিটেনে জন্ম নেওয়া এ ব্রিটিশ বাঙালি একজন সমাজ নিরীক্ষক নৃতত্ত্ববিদও। তাঁর কাজের অংশ ভিন্নভাবে বেড়ে ওঠা, ব্রাজিলিয়ান আমাজান অঞ্চলে আদি জাতিসত্তা ও তাদের জীবনপ্রণালি নিয়ে গবেষণার পাশাপাশি সমসাময়িক বিষয়াবলির তথ্যানুসন্ধান ও মানবিক সহায়তা।

তাঁর এ অনুসন্ধান এক ধরনের অ্যাডভেঞ্চার। এ অ্যাডভেঞ্চার ও অনুসন্ধান নিয়ে নির্মিত ডকুমেন্টারি আমাজান সউল কান চলচ্চিত্র উৎসবে প্রশংসিত হয়। চলচ্চিত্রটি দর্শকদের প্রবল মনোযোগ আকর্ষণ করে।

২০১০ সালে সারাহ ভ্রমণ করেন ইকুডোরিয়ান গভীর রেইন ফরেস্ট এলাকা। হাওয়ারানি আদিবাসী সম্প্রদায়ের জীবনব্যবস্থা, তির-ধনুক দিয়ে শিকার, তেল উত্তোলনে বাধাদান, তাদের ভূমি রক্ষার সংগ্রাম ক্যামেরাবন্দী করেন সারাহ। সারাহর এ অ্যাডভেঞ্চারধর্মী কাজের স্বীকৃতি হিসেবে পেয়েছেন নামীদামি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অ্যাওয়ার্ড।

সারাহ জয় করেন স্কট সোসাইটির স্পিরিট অব অ্যাডভেঞ্চার অ্যাওয়ার্ড ২০১৪, ‘লাইফ ইন দ্য ডেরেইন গ্যাপ’ সায়েন্টিফিক এক্সপ্লয়রেশন সোসাইটির ইয়ার অব দ্য পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন লাভ ২০১৪, উইনস্টন চার্চিল মেমোরিয়েল ট্রাস্ট ফেলোশিপ অ্যাওয়ার্ড ২০১৪ ।

এ ছাড়া ত্রিডি ক্যামেরা ব্যবহারের মাধ্যমে অতীত, বর্তমান এবং ভবিষ্যৎকে ব্যাখ্যা করার নতুন ধারণাকে ‘অ্যাডভেঞ্চারিয়ন ত্রিডি ৩৬০ ’ আইডিয়ায় প্রকাশ প্রশংসিত হয়।

সম্প্রতি সারাহ তাঁর কাজের মাধ্যমে ২০১৪ সালে যুক্ত হন রাস মাকিনের অ্যাডভেঞ্চার ক্লাবে। যে ক্লাব মহিলাদের নতুন নতুন অ্যাডভেঞ্চার কাজে উৎসাহিত করে, যে স্বপ্ন অসম্ভব হলেও সত্য ও উপলব্ধি করার মতো।

৩৭| ২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ২:৪৮

বিদ্রোহী সিপাহী বলেছেন: বাংলার সম্মান বাড়াতে যারা প্রতিনিয়ত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন গিয়াস লিটন ভাইও সেইসব সুপ্রিয়দের একজন।
উপরোক্ত গুণীগনদের সমান্তরালে আপনাকেও সালাম।
চালিয়ে যান ভাই। ভাল লাগা রইল।

২০ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:২৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সুন্দর মন্তব্যের জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ বিদ্রোহী সিপাহী ।

৩৮| ২১ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ৭:০৮

মানবী বলেছেন: "এই পোস্টের আগের
পোস্টটিও একটি মৌলিক পোস্ট । দেখার আমন্ত্রন রইল । "
- আমন্ত্রন রক্ষা করতে পড়তে গিয়ে শুরুতেই ভয়ংকর এক ছবি দেখে পড়ার সাহস হয়নি :(
আমি হরর মুভি, হরর গল্প সব প্লেগের মতোই এড়িয়ে চলি।

পরবর্তী পোস্টের অপেক্ষায় আছি।।।

২১ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৪১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ছবিটা হরর হলেও , পোস্টটি হরর ছিলনা ।

কমেন্ট রিভিউ - =p~

শায়মা বলেছেন: হাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহহাহা


ভাইয়া সত্যিই আমি হাসতে হাসতে মারা যাবোই!!!!!!!!!!!!!!!!!!



জুন বলেছেন: অনেক দিন পর ভুতের গল্প পড়ে ভয় না পেয়ে অনেক হাসলাম গিয়াস লিটন ।

রোদেলা বলেছেন: লেখা মজার ,কনো সন্দেহ নাই।কিন্তু এইটা কি ছবি?আমার প্রান পাখি যায় যায়...

মাঈনউদ্দিন মইনুল বলেছেন:
হাহাহাহা!

ভুত নিয়ে ভয়ের লেখা পড়েছি, কিন্তু মজার লেখা এই প্রথম পড়লাম।

৩৯| ২১ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ৭:৫৯

লালপরী বলেছেন: ব্রাজিলের স্কুলে বাংলাদেশী মাধুরীর অভাবনীয় কৃতিত্ব এ গর্বিত

২১ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:১৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকে অনেক ধন্যবাদ লালপরী ।

৪০| ২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১:২৭

কিরমানী লিটন বলেছেন: জুন বলেছেন: গিংকটোর বৌ এর জন্য শুভেচ্ছা রাশি রাশি
এই পোষ্টের আর কাউকে নিয়ে আজ আর ভাবছি না গিয়াস্লিটন ।
জংলী রানী সারা বিশ্বে আমাদের মুখোজ্জ্বুল করেছে । সে ছাড়া আমাদের আর কেউ রানী হয়েছে এমন প্রমান কি কেউ দিতে পারবে ? হোক সে আমাজনের জংলী রানী
প্রচন্ড গর্বের ইমো হবে

অসাধারণ পোষ্ট -সত্যিই
সাথেই আছি হে সুন্দর
অনাবিল শুভেচ্ছা...

২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৫:১৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সাথে থাকার জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ মিতা কিরমানী লিটন ।

৪১| ২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ২:৩৬

কাবিল বলেছেন: অনেক কিছু জানা হল।

২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৫:৪৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অনেক অনেক ধন্যবাদ কাবিল ভাই ।

৪২| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:২৬

নিশাত সুলতানা বলেছেন: লাইইইইইইইইইইইইক !!!!

২৪ শে অক্টোবর, ২০১৫ সন্ধ্যা ৭:৫৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ধন্যবাদ্দদ্দদ্দদ্দদ্দদ্দদ্দদ্দদ্দ!!!!!!!

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.