নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সবাই যখন নীরব, আমি একা চীৎকার করি \n--আমি অন্ধের দেশে চশমা বিক্রি করি।\n

গিয়াস উদ্দিন লিটন

গিয়াস উদ্দিন লিটন › বিস্তারিত পোস্টঃ

পৃথিবীতে আলোড়ন সৃষ্টিকারী আবিষ্কার- ভরহীন কণা- ভাইল ফার্মিয়ন , আবিষ্কারক বাংলাদেশী পদার্থ বিজ্ঞানী জাহিদ হাসান (গুণীগন-একের ভিতর পাঁচ)

২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৪০

প্রবাসে বাংলাদেশের রক্তের উত্তরাধিকারী গুণীগন- ৬১,৬২,৬৩,৬৪,৬৫ ।

৬১ / সারা বিশ্বে আলোড়ন সৃষ্টিকারী আবিষ্কার- ভরহীন কণা- ভাইল ফার্মিয়ন , আবিষ্কারক বাংলাদেশী পদার্থ বিজ্ঞানী জাহিদ হাসান



নতুন এক আবিষ্কারে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়ে নতুন ইতিহাস গড়লেন বাংলাদেশী পদার্থবিজ্ঞানী জাহিদ হাসান। যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ে তার নেতৃত্বে একদল গবেষক ৮৫ বছর পর আবিষ্কার করেছেন ভরহীন কণা- ভাইল ফার্মিয়ন। এর ফলে আগামী প্রজন্মের জন্য ইলেক্ট্রনিক পণ্য তৈরিতে আসবে যুগান্তকারী বিপ্লব। তাই বাংলাদেশী এই পদার্থ বিজ্ঞানীকে নিয়ে বিজ্ঞানবিশ্ব সরগরম।

এ নিয়ে প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটির ওয়েবসাইট, বিজ্ঞান বিষয়ক ম্যাগাজিন সায়েন্স-এ প্রকাশিত হয়েছে প্রতিবেদন । এতে বলা হয়েছে, নতুন এ আবিষ্কারের ফলে ইলেকট্রনিক্স-এ দ্রুত ও অধিক কার্যকর উত্থান ঘটবে । কারণ, এই কণার রয়েছে কোন ক্রিস্টালের ভিতর দিয়ে ম্যাটার ও এন্টিম্যাটারের ভিতর দিয়ে চলার অস্বাভাবিক সক্ষমতা ।

আগামী প্রজন্মের সামনে যে ইলেকট্রনিক পণ্য আসবে তার ভেতর দিয়ে বাধাহীন ও কার্যকরভাবে বিদ্যুৎ প্রবাহ হতে দেবে । এ প্রযুক্তি ব্যবহার করা হবে বৃহত্তর শক্তি, বিশেষ করে কম্পিউটারে, মোবাইল ফোনে ।

আইনজীবী রহমত আলী ও গৃহিণী নাদিরা বেগমের দুই পুত্র এবং এক কন্যার মধ্যে সবার বড় জাহিদ হাসান । ধানমন্ডি সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি ও ঢাকা কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন জাহিদ ।

পরে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের অস্টিনে ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাসে পড়াশোনা করেন । সেখানে কাজ করেছেন নোবেল বিজয়ী পদার্থ বিজ্ঞানী স্টিভেন ভাইনবার্গের সঙ্গে । তার আগ্রহেই তিনি কাজ শুরু করেন পরীক্ষা নির্ভর পদার্থ বিজ্ঞান নিয়ে । পড়ালেখা শেষ করে প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটিতে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন । বর্তমানে তিনি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞানের অধ্যাপক ।

লিঙ্ক খুজছেন ? ক্লিক হিয়ার !



৬২। যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের প্রখ্যাত র‍্যাম্প মডেল কামরুজ্জামান মিন্টো



পূর্ব থেকেই যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের মুলধারার মিডিয়ায় আলোচিত এক বাংলাদেশি মডেল কামরুজ্জামান মিন্টো ।
১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ বোস্টনের সামারভীলের হলিডে ইন হোটেলে অনুষ্ঠিত এক ফ্যাশন শো’তে দেশীয় ঐতিহ্য ও পোশাক বিদেশিদের মাঝে উপস্থাপন করে বাংলাদেশি মডেল মিন্টো আবারও আলোচনায় আসে । বোস্টনের স্থানীয় টেলিভিশন ও বিভিন্ন মিডিয়া ওই ফ্যাশন শো’র সংবাদ প্রচার করে ।

একটি ফ্যাশন শো'তে অংশ নিয়েও বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরা সম্ভব বলে মনে করেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী কামরুজ্জামান মিন্টু । সে বোধ থেকেই জড়িয়ে পড়েন মডেলিং এ । বিভিন্ন নামী প্রতিষ্ঠানের আয়োজনে এ পর্যন্ত অনেক গুলি ফ্যাশন শো এ অংশ নিয়েছেন ।
কাজ করেছেন অ্যামেরিকার প্রায় ২৭ জন সহ মডেলের সাথে ।

অধিকাংশ বিদেশি নাগরিক আমাদের দেশের নামের সাথে পরিচিত নন । তাদের কাছে বাংলাদেশকে পরিচিত করে তুলে ধরা এবং আমাদের দেশীয় পোশাক আর সংস্কৃতিকে তুলে ধরার সহজ উপায় এ ধরনের মডেল শো’তে অংশ নেয়া ।

প্রবাসে নতুন প্রজন্মের বাংলাদেশি যুবক বা যুবতীরা যদি বিদেশিদের মাঝে এ ধরনের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যবাহী অনুষ্ঠানে অংশ নেয় তাহলে স্বল্প সময়েই বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে পরিচিত করে তোলা সম্ভবপর হবে বলে মিন্টো মনে করেন । দেশীয় ঐতিহ্য ও পোশাক বিদেশিদের মাঝে ফ্যাশন শো’র মাধ্যমে উপস্থাপন করতে পেরে কামরুজ্জামান মিন্টো নিজেকে গর্বিত ও ধন্য মনে করছেন ।

মেহেরপুর জেলা শহরের রাজাপুর গ্রামের সন্তান মিন্টোর জন্য শুভ কামনা ।

লিঙ্ক খুজছেন ? ক্লিক হিয়ার !


৬৩/ ক্যানাডায় টেলিভিশন নৃত্য জগতে উজ্জ্বল জ্যোতি ছড়ানো- নক্ষত্র



নাম তার নক্ষত্র । পুরো নাম আনযালা মুরতাজ। জন্ম মুন্সিপাড়া, রংপুর । বাড়িতে সাংস্কৃতিক আবহ আর দাদু মিসেস সুফিয়া হোসেন ও মা রুবিনা ইয়াসমিন এর উৎসাহে নৃত্য জগতে পদার্পণ । ও যখন সেই ছোট্টটি মানে মাত্র ৩ বছর তখন থেকেই তার নাচের সঙ্গে সখ্যতা শুরু হয় শিক্ষক রানার কাছে। পাশাপাশি শিশু একাডেমীতেও শুরু করে ক্লাস । স্কুল সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সবার কাছে পরিচিত হয়ে ওঠে ।

২০০৬ এ ক্যানাডা চলে আসে বাবা অমিয় মুরতাজ এর কাছে । কিন্তু থেমে থাকেনি তার নৃত্য চর্চা । শুরু হয় তার ওড়িশি নৃত্যচর্চা এবং পাশাপাশি ক্যালগেরি’র বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করে শিশুবয়সেই সবার নজর কাড়তে সক্ষম হয় । বিদেশে থেকেও বাংলার সংস্কৃতি তথা নৃত্যশৈলী দিয়ে একধরনের মুগ্ধতা তৈরি করে নক্ষত্র – যে কারনে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশান ক্যালগেরি সহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে ও হয়ে ওঠে অপরিহার্য।

এ ছাড়াও স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেল এর বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সে সবার প্রশংসা কুড়িয়েছে । বিভিন্ন Multicultural program এ অংশ নিয়েও হয়ে ওঠে নন্দিত। অন্য ভাষাভাষীদের একই সুরে বলতে শোনা যায় কথা না বুঝলেও ওর নাচের তাল , লয় , মুদ্রাই বুঝতে সাহায্য করে নাচের মুল ভাব। আমার মনে হয় এটাই ওর সার্থকতা ।

লেখাপড়ার পাশাপাশি নিয়মিত নৃত্যচর্চা ওকে দক্ষ করে তোলে। এখন Crescent heights High School এ Grade 11 এ পড়ছে –কিন্তু নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে এবং নিয়মিত শিখছে ভরত নাট্যম। নক্ষত্র বিদেশে থেকেও বাংলা সংস্কৃতির গগন কে আলোকিত করছে ... দেশকে ভালবেসে নিজের নৃত্য দ্যুতি ছড়িয়ে। খুব ইচ্ছে সুযোগ করে দেশে গিয়ে নাচের উপর আরও কাজ করার । বিদেশের মাটিতেও বাংলা নাচ তথা সংস্কৃতিকে জনপ্রিয় করার স্বপ্ন দেখে নক্ষত্র। দেশীয় সংস্কৃতি বিকশিত হোক ওর নৃত্য ভঙ্গিমায় আর আলোকিত করুক আমাদের সংস্কৃতির পরিমণ্ডল। জয়তু নক্ষত্র!

লিঙ্ক খুজছেন ? ক্লিক হিয়ার !



৬৪/ নিউজিল্যান্ডে গানের স্কুল ‘গীতসুধা’র প্রতিষ্ঠাতা সিঁথি সাহা



বাংলাদেশে ও নিউজিল্যান্ডের বাংলা সঙ্গিতাঙ্গনে অত্যান্ত জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী সিঁথি সাহা নিউজিল্যান্ডে একটি গানের স্কুল চালু করেছেন । এর নাম রেখেছেন ‘গীতসুধা’। প্রবাসী বাংলাদেশিদের পাশাপাশি সেখানে গান শিখছে ভিনদেশি শিশুরাও ।

সিঁথি বলেন, ‘গত বছরের শেষের দিকে আমি নিউজিল্যান্ডে একটি গানের স্কুল দিয়েছি । আমার এ স্কুলে অনেক ভিনদেশি শিশুরা গান শিখছে । তারা বাংলা কথা বলতে ও বুঝতে পারে না , তবে বাংলা গান বেশ উপভোগ করে । তবে এসব শিশুদের বাবা-মা আমার গান শুনেছেন । তাই তারা আমার স্কুলে ছেলে-মেয়েদের গান শেখাতে পাঠিয়েছেন ।’
প্রবাসে বাংলার প্রতিনিধিত্বকারী সিঁথি সাহার জন্য শুভ কামনা ।

লিঙ্ক খুজছেন ? ক্লিক হিয়ার !


৬৫ / বাংলাদেশি ছাত্র মনিরের সততায় মুগ্ধ মাহাথির কন্যা



প্রবাসে বাংলাদেশিদের সুনাম ও বিশ্বাসের পাল্লাটা এবার ভারী করেছেন বাংলাদেশি এক ছাত্র । তবে এবার এ সাধুবাদ এসেছে মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী খোদ মাহাথির মোহাম্মদের মেয়ের কাছ থেকে ।

মনির হোসেন নামে ওই ছাত্র মাহাথির কন্যার কয়েক লক্ষাধিক টাকার জিনিস কুড়িয়ে পেয়ে তা ফেরত দিয়ে গড়েছেন নতুন এ সততার দৃষ্টান্ত ।
জিনিষগুলি ফেরত নেয়ার সময় মাহাথির কন্যা মারিয়ানা মাহাথির মনিরকে আর্থিক পুরস্কার দিতে চাইলেও মনির তা নিতে অস্বীকার করেন । এর পর মারিয়ানা মনিরের ছবি তুলে চলে যান ।

এবিষয়ে মারিয়ানা তার ফেসবুকে ওয়ালে মনিরের ছবি আপলোড করে মনিরের সততার বিবরণসহ স্ট্যাটাস দেন । তিনি লেখেন, মনির এক জন সৎ ছেলে । শত পরিশ্রম করেও তার কোনো লোভ জাগেনি । সত্যি বাংলাদেশিরা অনেক সুন্দর ।

২০১৩ সালে মালয়েশিয়ায় পড়তে আসা মনির ,মালয়েশিয়ার সেরেম্বান নাইটিঙ্গেল কলেজের ডিপ্লোমা ইন বিজনেসের ছাত্র।

তিনি লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার চরলক্ষ্মী গ্রামের আব্দুল মোতালেবের একমাত্র ছেলে ।

প্রবাসে দেশের মুখ উজ্জ্বল করা মনিরের জন্য শুভ কামনা ।

লিঙ্ক খুজছেন ? ক্লিক হিয়ার !



সকল পর্বের লিংক এখানে ।



মন্তব্য ৬০ টি রেটিং +১১/-০

মন্তব্য (৬০) মন্তব্য লিখুন

১| ২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:০০

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন:
বিশ্বের বুকে মাথা উচু করে দেয়া হে বীর বাঙালী
লহ সহস্র সালাম
তোমরা হয়ে রবে পাথে অদূরের
আসবে যারা তোমাদের পথে বিশ্বের বুকে
গর্বে লেখাবে একটি নাম- বাংলাদেশ!!!!

২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:০২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: প্রথম ও চমৎকার মন্তব্যের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ বিদ্রোহী ভৃগু ।

২| ২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:১৪

প্রামানিক বলেছেন: বাংলাদেশের গুনীদের সম্পর্কে আরো কিছু জানা হলো, এবার সামনের পোষ্টের অপেক্ষায় রইলাম।

২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:১৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আমার নিয়মিত সুহৃদ প্রামানিক ভাইকে ধন্যবাদ ।

৩| ২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:২১

কানিজ রিনা বলেছেন: আমাদের ছেলেরা সুযঁ ছেলে আমাদের প্রিয় দেশটাকে আলো করে রাখবে। ভোরের আলো
সন্ধাতারা পুরনিমার চাঁদ। সোনামনিরা। ধন্যনাদ।

২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:২৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: kanizrina , আপনাকে আমার ব্লগে প্রথম পেলাম , সুন্দর মন্তব্য ভাল লাগলো ,

পোস্ট দেয়ার অনুরোধ রইল । শুভ কামনা জানবেন ।

৪| ২২ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১১:০৩

হামিদ আহসান বলেছেন: অামাদের লোকজনের সাফল্যের খবর জানতে সব সময় মুখিয়ে থাকি৷ ধন্যবাদ অাপনাকে এমন কিছু শেয়ার করার জন্য ..

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:০৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সাথে থাকায় আপনাকেও ধন্যবাদ হামিদ আহসান ভাই ।

৫| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১২:১৩

কামরুন নাহার বীথি বলেছেন: ভাল লাগে আপনার সিরিজটা পড়তে!!
গর্ব হয় এদের জন্য,বাংলাদেশকে এরা উজ্জ্বল থেখে উজ্জ্বলতর করছে বিশ্বের দরবারে!!

অনেক অনেক শুভেচ্ছা গিয়াসলিটন ভাই!!!

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১১:১১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ''কাশ বনের কন্যা'' B-) কামরুন নাহার বীথি আপনাকেও অনেক অনেক শুভেচ্ছা ।

৬| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১২:২২

নতুন বলেছেন: চমতকার একটা সিরিজ। খুবই ভাল লাগে এবং মনটা ভাল হয়ে যায়।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:০৩

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকে অনেক ধন্যবাদ নতুন ।

৭| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১২:৪৮

প্রবাসী পাঠক বলেছেন: প্রবাসে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করা সবার জন্য রইল অনেক অনেক শ্রদ্ধা এবং শুভ কামনা।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:১৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: প্রবাসী পাঠক আপনার জন্যও শুভ কামনা ।

৮| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১:৪১

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: মুকুটে পালকের সংখ্যা ক্রমশই বাড়ছে।। বাড়ছে অহংকারও।।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:২২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: একটু ওয়েট করেন সচেতনহ্যাপী , মুকুটে পালকের সংখ্যা বাড়তে বাড়তে এক সময় আর মুকুটই দেখা যাবে না । B-)B-)

৯| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১:৪২

প্রবাসী ভাবুক বলেছেন: প্রবাসীদের এমন সাফল্যে বিশ্ব দরবারে দেশের নাম উজ্বল ভাবে ফুটে উঠুক সেই কামনা করি৷

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৩৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: প্রবাসীর সাফল্যে উৎফুল্ল আরেক প্রবাসী , প্রবাসী ভাবুক আপনাকে একাধিক ধন্যবাদ ।

১০| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ২:২১

আহসানের ব্লগ বলেছেন: বাহ বাহ বাহ ।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৩৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ধন্যবাদ আহসানের ব্লগিং

১১| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ ভোর ৬:১৫

ধমনী বলেছেন: বেশিরভাগ লোকের ব্লগিং কমেন্ট থাকে - আমরা বাঙালী তো .....অমুক তমুক। আশার কিছু নাই, এই জাতির কিচ্ছু হবে না টাইপ। আপনার এই সিরিজ দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনে ভূমিকা রাখবে বলে আমি আশাবাদী।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৩৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার এই সিরিজ দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনে ভূমিকা রাখবে বলে আমি আশাবাদী।

ধমনী আপনার সুন্দর মন্তব্যে আনন্দিত !!

১২| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ৭:৫২

ক্যান্সারযোদ্ধা বলেছেন: প্রকৃত বাঙালি সব পারে। ধন্যবাদ।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৩৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: প্রকৃত বাঙালি সব পারে।

সঠিক বলেছেন , ক্যান্সারযোদ্ধা । আপনাকে ধন্যবাদ ।

১৩| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:১৩

বঙ্গভূমির রঙ্গমেলায় বলেছেন:
বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন:
বিশ্বের বুকে মাথা উচু করে দেয়া হে বীর বাঙালী
লহ সহস্র সালাম
তোমরা হয়ে রবে পাথে অদূরের
আসবে যারা তোমাদের পথে বিশ্বের বুকে
গর্বে লেখাবে একটি নাম- বাংলাদেশ!!!!

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৪১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সাথে থাকায় আপনাকে ধন্যবাদ বঙ্গভূমির রঙ্গমেলায় ।

১৪| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:২২

মানবী বলেছেন: পোস্টের জন্য ধন্যবাদ গিয়াস লিটন :-)

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৩২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাদের পদচারনায় পোস্টের সার্থকতা খুজে পাই , ধন্যবাদ জানবেন মানবী ।

১৫| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৪৯

সাহসী সন্তান বলেছেন: চমৎকার একটা সিরিজ! সেই ব্লগিং লাইফের শুরু থেকেই আপনার এই সিরিজটার সাথে আছি! জানছি বিদেশে বাঙালীর কৃতির্তের কথা! অনেক ভাল লাগে যখন শুনি আমাদেরই উত্তরসূরিরা বিদেশের মাটিতে থেকে কত অসামান্য অবদান রেখে চলেছে!

সুন্দর পোস্টের জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ! শুভ কামনা জানবেন!

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৩০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সুন্দর মন্তব্যের জন্য আপনাকেও ধন্যবাদ সাহসী সন্তান ।

১৬| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ সকাল ১০:৫১

দুর্মর একলব্য বলেছেন: দেশের বাইরে যেয়ে গুনী হয়ে লাভ কি??

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৫২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সহস্র গুণী দেশে থেকেই গুণের বিকিরণ ঘটাচ্ছেন । দেশে কি বিদেশে গুণীরা যেখানেই থাকুন , তাদের সার্ভিসে সমগ্র বিশ্ব উপকৃত হয় । তাছাড়া আমাদের দেশ অনেক গুণীর সার্ভিস নেয়ার মত প্রস্তুতি এখনো গ্রহন করেনি ।
যেমন নাসার বাংলাদেশি বিজ্ঞানীরা দেশে সার্ভিস দিতে চাইলে , তাঁদের কাজের ক্ষেত্র কোথায় ?
মন্তব্যের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ ।

১৭| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১২:৫৫

শতদ্রু একটি নদী... বলেছেন: ভালোলাগলো পড়ে। প্রিন্সটনে চান্স পাওয়াই অনেক বড়ো ব্যাপার, আর উনি তো অধ্যাপক। আমার ভাস্তে মাস দুয়েক হবে পড়তে গেছে প্রিন্সটনে। এই পড়তে যাওয়ার ব্যাপারেই গর্বিত। কিন্তু ওরা কোনদিন দেশে স্থায়ী হবেনা এটা ভাবলে কস্টও লাগে।

পোস্টে প্লাস।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৩:৪৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: প্রিন্সটনে চান্স পাওয়া চাট্টি খানি কথা নয় , আপনার ভাতিজা দেখছি দারুন মেধাবী ! মাশাল্লাহ ।
সে কি বুয়েটিয়ান ?
ভাতিজার জন্য শুভ কামনা , আপনার জন্যও ।

১৮| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ১:০৫

আমি ময়ূরাক্ষী বলেছেন: গিয়াসভাই দারুন পোস্ট। ওদের জন্য আর আপনার জনয় শুভকামনা।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৩:৫১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার জন্যও শুভ কামনা আমি ময়ূরাক্ষী ।

১৯| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ দুপুর ২:৪৭

শুভ৭১ বলেছেন: শুভকামনা সেইসব গুণীজন দের জন্য, শুভ কামনা গিয়াস ভাইয়ের জন্য।।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৪:৩৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: শুভ'র জন্য শুভ কামনা ।

২০| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ সন্ধ্যা ৭:৫৪

তারছেড়া লিমন বলেছেন: আহারে সিঁথি সাহা কখনও তার সিঁথি সাহা হয়ে ওঠার স্থানের নাম পর্যন্ত মুখে আনেন না। তবে ভাল লাগল তার স্কুলের কথা জেনে তার স্বপ্ন গুলো এগিয়ে যাক এই কামনায় করি।।।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:২৪

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: লিমন ভাইর প্রথম লাইনটা বুঝিনি , চিনেন নাকি উনাকে ?

২১| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:০৯

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন: খবরগুলো জেনে খুব ভাল লাগে ।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৩২

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনাকে ধন্যবাদ কথাকথিকেথিকথন ।

২২| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:২৪

গেম চেঞ্জার বলেছেন: বিজ্ঞানী জাহিদের ব্যাপারটা জানতাম। আপনার সাথে এ নিয়ে বাতচিতও হয়েছিল। সিরিজ খুব ভাল হচ্ছে। বরাবরের মতই পিলাচ খিলান।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৩৬

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: পাঠ ও পিলাচের জন্য ধন্যবাদ গেম চেঞ্জার ।

২৩| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৩৬

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: জাহিদ হাসানের অংশটা বেশি ভাল লেগেছে ।পোস্টে ++

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৩৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: অসংখ্য ধন্যবাদ সেলিম ভাই ।

২৪| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৪৪

জুন বলেছেন: কৃতি বাংলাদেশিদের খবর জেনে অনেক ভালোলাগছে গিয়াসলিটন।
শেয়ারের জন্য অনেক ধন্যবাদ :)

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৪৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার মন্তব্যে অনুপ্রাণিত , আপনাকে ধন্যবাদ জুন।

২৫| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৪৬

তারছেড়া লিমন বলেছেন: হাঁ ভাই কুষ্টিয়ার আনাচে কানাচেতে বেড়ে ওঠা এমন অনেক গুণীজনদের চিনি যারা একটু নাম কামালেই কুষ্টিয়ার কথা ভুলে যান। যে মাটি তাদের বেড়ে উঠতে সাহায্য করেছে তাকে অস্বীকার করতে, ইনি ও তাদেরই একজন। এদের জন্য বড্ড করুনা হয়। তাই যেমন অবগ্যা করি বিউটি/সালমাদের তারচেয়ে বেশি শ্রদ্ধা করি টুটুল ভাই, পিয়াস ভাই,ফরীদা আপাদের।

তবে মিন্টু ভাইকে স্যালুট তার কাজের জন্য।।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৫৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ব্যস্ততার কারনেও এমন হতে পারে , তার পরও দেশ মাতৃকার কথা ভুলে যাওয়া কারুরই উচিত নয় ।

২৬| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:৪৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: গিয়াস উদ্দিন লিটন ,



সাথে আছি , জানছি অনেক না জানা কিছূ ।

২৩ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:০৩

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আহমেদ জী এস ভাই , সাথে থাকায় আনন্দিত ।

২৭| ২৪ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:১২

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: দেশে এবং প্রবাসে যারা আমাদের জন্য করছেন তাদের সবাইকে আন্তরিক শুভেচ্ছা......ধন্যবাদ লিটন ভাই

২৪ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:২৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সাদা মনের মানুষ , আপনাকেও আন্তরিক শুভেচ্ছা ।

২৮| ২৪ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:০০

কিরমানী লিটন বলেছেন: প্রামানিক বলেছেন: বাংলাদেশের গুনীদের সম্পর্কে আরো কিছু জানা হলো, এবার সামনের পোষ্টের অপেক্ষায় রইলাম।

আহমেদ জী এস বলেছেন: গিয়াস উদ্দিন লিটন ,



সাথে আছি , জানছি অনেক না জানা কিছূ ।
সতত শুভকামনা ...

২৪ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ১০:২৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার জন্যও শুভ কামনা মিতা ।

২৯| ২৬ শে অক্টোবর, ২০১৫ বিকাল ৩:৫১

হাসান মাহবুব বলেছেন: আরো একটি গর্বে বুক ফুলিয়ে দেয়া পর্ব।

২৬ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:৫৮

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: হাসান মাহবুব ভাইএর মন্তব্য পেয়ে ভাল লাগলো । আজকের পোস্ট টাও দেখার আমন্ত্রন রইল ।

৩০| ২৬ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৮:১৬

কাবিল বলেছেন: হে হে হে লিটন ভাইয়েরও গুন আছে বলে আমি এদের গুনের কথা জানতে পারলাম :)

২৬ শে অক্টোবর, ২০১৫ রাত ৯:০০

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: আপনার মজার কমেন্টে অনুপ্রাণিত , আজকের পর্বেও চোখ বুলিয়ে যাওয়ার অনুরোধ রইল কাবিল ভাই ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.