নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

চলে যাব- তবু যতক্ষণ দেহে আছে প্রাণ, প্রাণপণে পৃথিবীর সরাব জঞ্জাল।

হাবিব স্যার

বিশ্বজোড়া পাঠশালা মোর, সবার আমি ছাত্র।

হাবিব স্যার › বিস্তারিত পোস্টঃ

ছড়াগুচ্ছ:- গৃহহীন

০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:০২



আম্মা আমায় আদর দিয়ে বলে
শিক্ষার আলো জ্বালতে হবে ঘরে,
দুষ্টুমিতে থাকবে নাকো মজে
লেখাপড়া করবে ভালো করে।

চোঙের ভেতর মাথা গোঁজার ঠাঁই
কেমন করে জ্বালবো ঘরে আলো?
ভাবছি আমি মায়ের কথাখানি
ঝাপসা চোখে সামনে দেখি কালো।




ময়লা বেঁচে খাবার আনে খোকা
রাস্তা থেকে কুকুর বসে পাতে,
ক্ষুধার জ্বালা সবার পেটে একি
টোকাই খোকা মান করেনা তাতে।

বাড়তি খেয়ে কেউবা সকালবেলা
পার্কে হেঁটে কমাতে যায় পেট,
কেউবা হাঁটে খাদ্য খোঁজার তরে
এসব দেখে হয় না মাথা হেট?



দিন কেটে যায় ময়লা ঘেটে ঘেটে
নইলে পরে ক্ষুধা পেটে রই,
আমারও তো ইচ্ছে কিছু আছে
বায়না ধরার মানুষ পাবে কই?

জন্ম নিয়ে দুনিয়াতে এসে
মা দেখেছি বাবার খবর নাই,
একলা কি আর এলাম পৃথিবীতে
কোথা গেলে বাবার দেখা পাই?

মন্তব্য ৪২ টি রেটিং +১৩/-০

মন্তব্য (৪২) মন্তব্য লিখুন

১| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:১২

চাঁদগাজী বলেছেন:


মা-বাবাহীনদের মা-বাবা হওয়ার কথা শেখ হাসিনা, উনি জানে কিনা কে জানে?

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৪৩

হাবিব স্যার বলেছেন: বিটিভিতে উন্নয়ন ছাড়া আর কিছুই দেখায় না। ওনি দেখবেন কিভাবে এসব?

২| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৩১

নুরহোসেন নুর বলেছেন: কবিতার ছন্দে করুণ বাস্তবতা ফুটিয়ে তুলেছেন,
চমৎকার সাজিয়েছেন।
শুভ কামনা রইলো।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৪৪

হাবিব স্যার বলেছেন: রাস্তাঘাটে এসব দেখে দেখে আর সহ্য হয়না নুর হোসেন। টাকা থাকলে এদের মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করতাম

৩| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৫০

ওমেরা বলেছেন: ধনী , গরীব সবাই স্বপ্ন দেখে । স্বপ্ন আছে বলেই মানুষ বেচেঁ থাকে তবে কারো স্বপ্ন সাততলা অট্টালিকার কারো স্বপ্ন একটুখানি মাথা গুজার ঠাঁই ।
মানুষের কষ্ট দেখলে আমার ভালো লাগে না। আল্লাহ সবাইকে ভালো রাখুন সুন্দর রাখুন ।

সুন্দর কবিতায় ভালোলাগা ।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৪৫

হাবিব স্যার বলেছেন: ওমেরা আপু, আমাদের দেশে উন্নয়ন হয়, রোহিঙ্গারা ফ্রিতে খাবার পায়, তবুও বস্তীবাসেদের কেন কোন আবাসন হয় না?

৪| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৫০

নার্গিস জামান বলেছেন: সুন্দর:)

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৪৬

হাবিব স্যার বলেছেন: শুভসকাল নার্গিস আপু

৫| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৪১

কবীর হুমায়ূন বলেছেন: আপনার লেখায় ছড়ার সার্থকতা খুঁজে পেলাম। সমাজের অসঙ্গতিকে ছন্দের দোলায় খুবই সুন্দর করে তুলে এনেছেন। শুভ কামনা কবি হাবিব।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৪৭

হাবিব স্যার বলেছেন: কবীর ভাই, স্বার্থকতা তো তখন আসবে যখন অন্নহীনরা অন্ন পাবে, বস্ত্র পাবে। শিক্ষার উপযুক্ত রিবেশ পাবে। আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ

৬| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৫১

রাজীব নুর বলেছেন: তিনটা ছবিই মন খারাপ করা/।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৪৮

হাবিব স্যার বলেছেন: এদের জন্য ভাবেন নিশ্চয়। তাইতো আপনার মন খারাপ হয়। আমি জানি আপনার টাকা থাকলে আপনি একটা ব্যবস্থা করতেন!

৭| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১:৫১

রুদ্র কারণ বলেছেন: বেশ ছিলো!

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৪৮

হাবিব স্যার বলেছেন: শুভ সকাল রুদ্র। ভালো থাকবেন

৮| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৩:৩০

বাকপ্রবাস বলেছেন: ছড়ায় বিবেক জাগ্রত হোক মানুষ হোক মানুষ
গরীব দুঃখীর পাশে দাড়াক মানবতার ফানুস।
"
ছড়া সুন্দর হয়েছে।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৫০

হাবিব স্যার বলেছেন:





মানবাধিকার আছে মানবতা নেই
খাদ্য আর বাসস্থানের জন্য নেই।

অনেক দিন পর আপনার দেখা পেলাম। ভালো আছেন নিশ্চয়।

৯| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ ভোর ৫:২৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:



খুব সুন্দর ভাবে তুলে এনেছেন সমাজের কিছু দুর্দশাগ্রন্ত মানুষের কথা । এদের নীজেদেরকেই প্রতিবাদী হতে হবে । নীজেদের অবস্থার পরিবর্তন করতে হবে তাদের মত দেরকেই নিয়ে সমবেতভাবে । অন্য কেও তাদের অবস্থা পরিবর্তন করে দিতে পারলে অনেক অনেক আগেই হয়ে যেত তাদের অবস্থার পরিবর্তন । শত বছর ধরে কত বড় বড় নেতা ও দলইতো এল গেল ক্ষমতার মসনদে, তাদের অবস্থার পরিবর্তনের কথা বলে, কই কিছুইতো ঘটলনা তাদের কপালে। তাদের ভিতর থেকে যতদিন পর্যন্ত না নেতৃত্ব গড়ে তুলতে পারবে, ততদিনই তাদেরকে এমনিভাবে কাটাতে হবে। নীজেদের ভালটা নীজেরা না বুঝলে কে বুঝাবে তাদেরকে । নীজের ভালটা না বুঝে পরের টাকায় মিছিলে গিয়ে তাদেরকে যারা শোষন করে তাদেরকেই জিন্দাবাদ দিয়ে আসলে তাদের অবস্থা জিন্দেগীতেও পরিবর্তন হবেনা । কারো ইন্ধন ব্যতিত নীজেরা যদি একবার নীজেদের নেতৃত্বে কোন প্রতিবাদী মিছিল করতে পারে তাহলে তাদের অবস্থার পরিবর্তনে বেশী সময় লাগবেনা ।

মনে পরে প্রায় অর্ধশতাব্দি আগের কথা, ঢাকা হতে ট্রেনে চেপে গিয়েছিলাম ময়মনসিংহে । তখন সেটা ছিল মিউনিসিপিলিটি শহড়, ট্রেন ষ্টেশন হতে বের হয়ে দেখি ষ্টেশন রোডে এক বিশাল ঝাড়ু মিছিল , হরিজনদের( মেথরদের ) মিছিল। গগন বিদারী শ্লোগান চলছে হামাদের দাবী মানা হোক, নইলে চেয়ারম্যান ছাহেবের কল্লা চাহা হোক (মিইনিসিপেলিটির চেয়ারম্যান) । উল্লেখ্য মহাত্মা গান্ধী দলিতদের মেথর, সুইপার না বলে 'হরিজন' বলার অমোঘ বাণী দিয়ে গেছেন। যাহোক, পরে শুনেছি ময়মনসিংহের হরিজনদের কিছু দাবী মানার জন্য তারা নীজেরাই নিজেদের উদ্যোগে সেই মিছিলের আয়োজন করেছিল।চেয়ারম্যান সাহেবও তাদের মিলিত শক্তির কাছে নতি স্বীকার করে দাবী মেনে নিয়েছিলেন।

তাই কামনা করি তারা নীজেরাই জেগে উঠুক আপন ক্ষমতা বলে।আর তা যদি না হয় তাহলেতো আছেই কবি গুরুর বচন
ওরে নবীন, ওরে আমার কাঁচা,/ওরে সবুজ, ওরে অবুঝ,/আধ-মরাদের ঘা মেরে তুই বাঁচা।/রক্ত আলোয় মদে মাতাল ভোরে/আজকে যে যা বলে বলুক তোরে,/সকল তর্ক, হেলায় তুচ্ছ ক'রে/পুচ্ছটি তোর উচ্চে তুলে নাচা।/আয় দুরন্ত, আয় রে আমার কাঁচা।” কেবল চোঙ্গার মধ্যে সীমার মধ্যে আবদ্ধ থেকে জীবন কাটালে চলবেনা তাদেরকে শুনাতে হবে মুক্তির বারতা ।

ধন্যবাদ এদের জন্য মুক্তির বারতাময় এমন সুন্দর একটি কবিতা লেখার জন্য ।

কবিতাটির গুরুত্ব বিবেচনায় একে নিয়ে গেলাম প্রিয়তে।

শুভেচ্ছা রইল

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:২৭

হাবিব স্যার বলেছেন:





ওরে নবীন, ওরে আমার কাঁচা,
ওরে সবুজ, ওরে অবুঝ,
আধ-মরাদের ঘা মেরে তুই বাঁচা।
রক্ত আলোয় মদে মাতাল ভোরে
আজকে যে যা বলে বলুক তোরে,
সকল তর্ক, হেলায় তুচ্ছ ক'রে
পুচ্ছটি তোর উচ্চে তুলে নাচা।
আয় দুরন্ত, আয় রে আমার কাঁচা।


এমন করে বলার পরও কয়জন এগিয়ে এসেছে বলুন। সবাই তো নিজের পেট ভরতেই ব্যস্ত।

কাগজ কলমে হরিজন এখনো বলা হয় না আমাদের দেশে। পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি হলে দেখবেন লেখা থাকে পদের নাম "সুইপার'। বড় সাহেবরাও সুইপার বলে।

আপনার মন্তব্য মানেই নতুন কিছু জানা যায়। আপনার মূল্যায়ন আমার লেখাটিকে অনন্য করে তুলল।
ভালো থাকবেন সবসময়। শুভসকাল।

১০| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৮:১৮

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
ধন্যবাদ সুন্দর মন্তব্যের জন্য ।
ঘুম জড়ানো চোখে লেখা । ৯ নম্বরে বেশ বানান প্রমাদ ছিল,তাই ১০ নম্বরে কিছুটা সংশোধন
করে দিয়েছি । মুছতে চাইলে উপরের ৯ নম্বরটি মুছে দিয়ে আপনার প্রতিমন্তব্য ১০ নম্বরের
সাথে জুরে দিলে ভাল হয় ।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪০

হাবিব স্যার বলেছেন: ধন্যবাদ আলী ভাই, ভালো থাকুন। সুস্থ থাকুন। আমার জন্য দোয়া করবেন।

১১| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৪৯

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: ছাড়াটা বেশ ভালো লেগেছে, আগামীতে আরো লিখা পড়ার প্রত্যাশায় থাকছি।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৪

হাবিব স্যার বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ইফতেখার ভাই, সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকুন।

১২| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:১১

জুন বলেছেন: ছড়া আর ছবি দুটোই বেদনাদায়ক হাবিব স্যার।
+

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৬

হাবিব স্যার বলেছেন:





বেদনার নীলরেখা ধুঁয়ে মুছে যাক
ক্ষুধার যাতনা তবু ছাড় পেয়ে যাক।

ধন্যবাদ আপু সাথে থাকার জন্য। ভালো থাকুন।

১৩| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৯

রূপম রিজওয়ান বলেছেন: কমলাপুরে যেতে আসতে এরকম অনেক বাচ্চাকে দেখি। ওদের জীবনগুলো সত্যিই...। জন্মানোটাই ওদের পাপ!
কবিতায় অনেক অনেক ভালোলাগা এবং মুগ্ধতা++

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৮

হাবিব স্যার বলেছেন:





ওরা তো আসতে চায়নি দুনিয়াতে
তবু কেন অনুপ্রবেশকারী ভাবা হয় ওদের?
খাদ্যের খোঁজে কেন কুড়াতে হয় অখাদ্য

সাথে থাকার জন্য অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া। ভালো থাকুন

১৪| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:০৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: সুন্দর হয়েছে খুব
বাস্তবতার মিশেলে কবিতাগুলো

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৯

হাবিব স্যার বলেছেন:
ধন্যবাদ ছবি আপু, আপনার সুমন্তব্যের জন্য।
আশা করি ভালো আছে পরিবার নিয়ে।

১৫| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:১৭

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: ছবিটি গত বছর ডিসেম্বরে ঘুরতে যাওয়া পুরুলিয়া আদ্রা জংশন থেকে তোলা।
ভয়ঙ্কর সুন্দর হয়েছে ছড়াটি, ছবিগুলোও ততটাই.... ++
শুভকামনা প্রিয় হাবিব ভাইয়ের গোটা পরিবারবর্গকে।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৯

হাবিব স্যার বলেছেন:




নিদারুণ কষ্টের একটি ছবি দিলেন ভাই। অপরপক্ষে ভালোবাসা, বন্ধুত্বের প্রতিকও বটে।
সবসময় সাথে থাকার জন্য অনেক ধন্যবাদ প্রিয় ভাই। ছবিটা দেখে একখান ছড়া মনে পড়লো।

নাইবা থাকুক বালিশ তোশক
নরম তুলার লেপ কাঁথা
তোমার সাথে আমার জীবন
এক সুতাতে তবুও বাঁধা।

হাতটি আমার বালিশ হবে
কোলের মাঝে বিছনা-পাতি
অর্থের লোভ নাই তো কোন
তুমি আমার বন্ধু খাঁটি।

ভালো থাকুন পরিবারের সাবাইকে নিয়ে।

১৬| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৬

সম্রাট ইজ বেস্ট বলেছেন: অথচ আমাদের একটু সচেতনতাই এদেরকে বেঁচে থাকার রসদ জোগাতে পারে। ঢাকার নামীদামি রেস্টুরেন্টগুলোতে যে পরিমাণ খাবার নষ্ট হয় সেগুলো দিয়েই ঢাকার এসব পথশিশুর সংকুলান হয়ে যাওয়ার কথা।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৮

হাবিব স্যার বলেছেন: ব্লগার নীলসাধু ভাইয়ার মতো আছন অনেক হৃদয়বান। তবে আমরা মানবিক হলে পথশিশুও পারে একটা সুন্দর জীবনে ফিরতে। সুন্দর মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া

১৭| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৬

সম্রাট ইজ বেস্ট বলেছেন: আর আবাসনও খুব বড় কোন ফ্যাক্টর নয়।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫০

হাবিব স্যার বলেছেন: ঠিক বলেছেন। কর্তাব্যক্তিরা চাইলেই এর সমাধান করতে পারেন।

১৮| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: এদের জন্য ভাবেন নিশ্চয়। তাইতো আপনার মন খারাপ হয়। আমি জানি আপনার টাকা থাকলে আপনি একটা ব্যবস্থা করতেন!

অবশ্যই আমি ওদের জন্য কিছু করবো। আমার ওদের নিয়ে বিরাট পরকল্পনা আছে।
দোয়া করবেন।

০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩০

হাবিব স্যার বলেছেন: দোয়া করি, আপনার মনোবাসনা পূর্ণ হোক। যেদিন আপনি ওদের জন্য কিছু করতে পারবেন সেদিন আপনি পত্রিকার শিরোনাম হবেন

১৯| ০৩ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:২৭

তারেক ফাহিম বলেছেন: মন খারাপ করার মন পোষ্ট।

ডাঃ এম আলীর মন্তব্য ভালো লাগছে।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৮:২৯

হাবিব স্যার বলেছেন:





তারেক ফাহিম ভাই, সরকার চাইলেই এদের সুব্যবস্থা করতে পারেন।
এতো এতো রোহিঙাদের ব্যবস্থা হয়, ঘর পায়...... আর এরা?

আসলেই ডাঃ এম আলী ভাইয়ের মন্তব্য ভালো ছিলো।
ধন্যবাদ এবং শুভ সকাল.........

২০| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:১২

সাজ্জাদ শুভ বলেছেন: ছবিগুলো দেখে মনে করি, আসলে কি নিয়ে আফসোস করি। আফসোস করা উচিত এই জন্য যে, কেনো এদের কারো জন্য কিছু করতে পারি না।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৮:৩২

হাবিব স্যার বলেছেন: আপনার মন্তব্যটা পড়ে সেই কবিতা মনে হলো, " একদা ছিল না জুতা চরণযুগলে......" আসলেই তো, নিচু তলার মানুষদের দেখলে নিজেদেরকে মহারাজা মনে হয়। চমৎকার মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ সাজ্জাদ ভাইয়া। শুভ সকাল ভালো থাকুন।

২১| ০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৪৫

সাইফ নাদির বলেছেন: অসহায় এই মানুষ ও শিশুগুলোর জন্য কিছু করা উচিত। তাহলেই মনে শান্তি পাবো আমরা।

০৪ ঠা ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৫২

হাবিব স্যার বলেছেন: জ্বি ভাই, ওদের জন্য কিছু করা সামর্থ্যবানদের নৈতিক দায়িত্ব।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.