নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

একজন সুখী মানুষ, স্রষ্টার অপার ক্ষমা ও করুণাধন্য, তাই স্রষ্টার প্রতি শ্রদ্ধাবনত।

খায়রুল আহসান

অবসরে আছি। কিছু কিছু লেখালেখির মাধ্যমে অবসর জীবনটাকে উপভোগ করার চেষ্টা করছি। কিছু সমাজকল্যানমূলক কর্মকান্ডেও জড়িত আছি। মাঝে মাঝে এদিক সেদিকে ভ্রমণেও বের হই। জীবনে কারো বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ করিনি, এখন তো করার প্রশ্নই আসে না। জীবন যা দিয়েছে, তার জন্য স্রষ্টার কাছে ভক্তিভরে কৃতজ্ঞতা জানাই। যা কিছু চেয়েও পাইনি, এখন বুঝি, তা পাবার কথা ছিলনা। তাই না পাওয়ার কোন বেদনা নেই।

খায়রুল আহসান › বিস্তারিত পোস্টঃ

উল্টো সোজা…

২১ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৪৮

মেয়েটি যখন শিশুকন্যা ছিলো,
তখন ওর খুব পছন্দের ছিলো
বড়দের জুতো পড়া,
তাও উল্টো করে…

মেয়েটি যখন কিশোরী হলো,
একটা ভুল ছেলের হাত ধরলো
উল্টো জুতো পড়লে যেমন হয়,
এখানে ওখানে আছড়ে পড়লো।

যখন সে নতুন নীড় বাঁধলো,
স্বামী হলো, সন্তান হলো,
ঘুম বকেয়া হলো,
ঘড়ি ও জীবনের গাঁটছড়া হলো।

আঁচলের চাবির ভারে একদিন
দেহ ন্যুব্জ হলো, চুল সাদা হলো।
অবশেষে ঘরে নাত-নাতনি এলে,
ওরাও বড়দের জুতো পড়তে লাগলো।

কালক্রমে স্বামী, সন্তান, নাত-নাতনি
এক এক করে সবার
উল্টো পথ চলা, উল্টো কাজ করা
সে নিপুণ হাতে সোজা করে নিলো…


ঢাকা
২১ মার্চ ২০১৬
সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।

মন্তব্য ২১ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (২১) মন্তব্য লিখুন

১| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১২:৩৮

কল্লোল পথিক বলেছেন:






বাহ!চমৎকার।

২১ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:০১

খায়রুল আহসান বলেছেন: ধন্যবাদ কবি, প্রীত হলাম।

২| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:০৮

শরনার্থী বলেছেন: তারপর?

২১ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:৩০

খায়রুল আহসান বলেছেন: তারপর পাঠকের কল্পনা...
মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ, শরনার্থী।

২১ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:১৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: শরনার্থী, আপনার প্রশ্নটা পেয়ে কবিতাটাকে আরেকটু দীর্ঘায়িত করলাম। জানিনা, এতে ভালো হলো, না খারাপ হলো।

৩| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:১২

সুমন কর বলেছেন: ভালো হয়েছে।

২১ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ২:১৬

খায়রুল আহসান বলেছেন: ধন্যবাদ, সুমন কর। মন্তব্যে অনুপ্রাণিত হ'লাম।

৪| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ বিকাল ৪:২৯

সোজোন বাদিয়া বলেছেন: সুন্দর, স্বপ্নের। সবার বেলাতেই যেন এমন হয়। ভাল থাকুন।

২৩ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১০:২২

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ, সোজোন বাদিয়া। মন্তব্যে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম।

৫| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ বিকাল ৪:৪০

এম মিজানুর রহমান বলেছেন: চমৎকার । আপনি দেখছি উলটো-সোজা নিয়ে অনেক এগিয়ে রইলেন । অনেক দিন পরে ফিরলাম । ভাল থাকবেন ।

২৩ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:০০

খায়রুল আহসান বলেছেন: আপনি দেখছি উলটো-সোজা নিয়ে অনেক এগিয়ে রইলেন -- তাই নাকি? মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ, এম মিজানুর রহমান।

৬| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ রাত ৯:২২

শামছুল ইসলাম বলেছেন: কবিতা ভাল লেগেছে।

ভাল থাকুন। সবসময়।

২৩ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:০২

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতার প্রশংসায় প্রীত ও অনুপ্রাণিত হ'লাম। অনেক ধন্যবাদ ও শুভেচ্ছা, শামছুল ইসলাম।
নিরন্তর শুভেচ্ছা...

৭| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৫১

দৃষ্টিসীমানা বলেছেন: সুন্দর ভাবনা । শুভ রাত্রি ।

২৩ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:২১

খায়রুল আহসান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাবনাটার প্রশংসার জন্য। মন্তব্যে অনুপ্রাণিত হ'লাম, দৃষ্টিসীমানা।

৮| ২১ শে মার্চ, ২০১৬ রাত ১০:৫৮

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন: ভাল হয়েছে। ধন্যবাদ ভাই
ভাল থাকুন।

২৩ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:২৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ জানাচ্ছি, কবিতাটি পড়ে এখানে মন্তব্য রেখে যাবার জন্য।
শুভেচ্ছা জানবেন, শাহরিয়ার কবীর।

৯| ২২ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ৯:২৫

আরজু নাসরিন পনি বলেছেন:
প্রথমে কবিতাটি সম্ভবত আরেকটু ছোট ছিল...কতোটুকু ছিল জানিনা।
মন্তব্যে দেখলাম আরেকটু দীর্ঘ করেছেন।

কবিতাটি পড়ে খুব ভালো লাগলো।

ঘুম বকেয়া হলো...পুরুষরাও তবে ভাবে...আপনার ভাবনার প্রতি শ্রদ্ধা রইল।
--------
কবিতাটি পড়তে গিয়ে একটা সিনেমার কথা মনে পড়ে যাচ্ছে...
"বেলাশেষে" সিনেমাটি দেখতে পারেন আপনার মিসেসকে সাথে নিয়ে...সিনেমা হলে গিয়ে দেখতে পারেন দু'জনে একসঙ্গে...আমি পিসিতে দু'বার দেখেছি।
ভাবছি বরকে সাথে নিয়ে সিনেমা হলে গিয়ে দেখবো।
অসাধারণ সিনেমা...ভাবাই যায়না গতানুগতিক সিনেমার বাইরে কাহিনী জীবনেরই অংশ যেনো।

শুভেচ্ছা রইল।

২৩ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৪৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: কবিতাটি পড়ে মন্তব্য রেখে যাওয়ার জন্য অনেক ধন্যবাদ, আরজু নাসরিন পনি।
পুরুষরাও তবে ভাবে -- না ভেবে উপায় নেই। মাকে দেখেছি, বোনকে দেখেছি, স্ত্রীকে দেখেছি যে!
মাঝখানে ক'টা দিন আমার স্ত্রী বলেছিলেন "বেলাশেষে"র কথাটা। ইচ্ছে হয়েছিল একসাথে বসে দেখবো। কিন্তু এটা ওটা ঝুট ঝামেলার কারণে আর তা শেষ পর্যন্ত হয়ে ওঠেনি। এবারে আপনার রিকমেন্ডেশন পেয়ে আবারো ইচ্ছেটা জাগ্রত হলো। ধন্যবাদ, কথাটা পাড়ার জন্য।
মন্তব্যে প্রীত হয়েছি।

১০| ২২ শে মার্চ, ২০১৬ দুপুর ১:৩৯

মোঃ সাইফুল্লাহ শামীম বলেছেন: খুবই গভীর উপলব্ধি!
গভীর ইংগিত ......
ঘুনেধরা সমাজের বিবেক জাগ্রত হোক।

২৩ শে মার্চ, ২০১৬ সকাল ১১:৫১

খায়রুল আহসান বলেছেন: খুবই গভীর উপলব্ধি! -- ধন্যবাদ, মোঃ সাইফুল্লাহ শামী আপনার এ উপলব্ধিটুকুর জন্য।
মন্তব্যে প্রীত ও অনুপ্রাণিত হয়েছি।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.