নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

চলে গেলে- তবু কিছু থাকবে আমার : আমি রেখে যাবোআমার একলা ছায়া, হারানো চিবুক, চোখ, আমার নিয়তি

মনিরা সুলতানা

সামু র বয় বৃদ্ধার ব্লগ

মনিরা সুলতানা › বিস্তারিত পোস্টঃ

ডাহুকী বিলাপ

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৩৮



বুকের চাতালে দিনমান কিসের বাদ্যি বাজাও !
কইলজার মইধ্যে ঘাইদেয় সেই বাজন গো বাজনদার।
চোরকাঁটার মতন মাঠঘাট পার হইয়া অন্দরে সিধাও ক্যান কইতে পারো
নিজের বিছনায় ও আমার আরাম নাই।

হইলদা বনে রাইতচড়া পক্ষী হইয়া কোন বাসরের ফুল টোকাও !
হিজলা তলে কোষা নাও ফেইল্লা মাতার উপ্রে ঘন নীলের উদার আসমানে কার মুখ দেহো কও!
ঝুম বাইসস্যা কালে? কার লাইগ্যা পরান ডা পুড়ল গো কবিয়াল !
ভোরবিয়ানে গুড় চাবানের লগে কি উত্তরের বাবনি ডোবার ক্ষেতে রওনা অইলা
আর বছরের মতন দানের ভিডায় কাঁচি গুইজ্জা কিন্তু খেলতে যাইও না।

মাইনসে কয় হ শইল্যের জোরেই মাডি কাঁপায় আমাগো চাঁন!
আগুন মাসে গোলায় ধরে না তার ধান
এইবার নব বইশাকে পিতলা কলসি আনছে ঘরে;
কও নাগো চাঁনমিয়া কাঙ্ক্ষের মাপ, মনে ধরছিল কারে ?

কোলার জমিনে লাল শাক চাষ দিলা বুঝি?
পুঁইমাচা বাইন্ধো পোক্ত কইরা
জিঙ্গার ফুল আইল না যে অহনও!
কলমি দাম মাইজ পুকুরে যাইতে দিও না আর
সে বড়ই শরমের কথা ভিজা কাপড়ে শাক টোকানি ।

ঘাটলার পাত্থরে পাও ঘষি রোজ জিঙ্গার ছাবায় বাকিরে
হিজলগোটায় চুলে ফেনা তুলে, মিশকালা জলে নিজেরে
চন্দনে আঁকলাম কপালের ফোডা, চম্পপা বুকের ভাঁজে
পুঁই গোঁটা দিয়া ঠোট রাঙাইলাম, চাঁন বুজি ঐ উডে!
টিয়া রঙ ফুলে কানের দুল, খোঁপায় জুমকা জবা।
আমারে তোমার দরেনা নাকি মনে, আইজ তয় কইয়া যাইবা।

ডাহুকীর বেলা ডোবে না যে আর, আকুলি বিকুলি মন
আউজগা কি নওপাড়া হাট বইছে, গেছে কি সেইহানে চাঁন?
আজান হইল সুজ্য ডুবল, ক্যান নাই তার দেহা
ডাহুকীর বিলাপ আউজকা না হুনলে
কইলাম হইবা একদিন একলা।



ছবি কৃতজ্ঞতাঃ ইন্টারনেট।

মন্তব্য ৮০ টি রেটিং +২৭/-০

মন্তব্য (৮০) মন্তব্য লিখুন

১| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৫১

কাজী আবু ইউসুফ (রিফাত) বলেছেন: পরানের গহীন ভিতর-এর সাথে ছন্দের মিল পাওয়া যায়! চমৎকার লেখনি-তে সোঁদা মাটির গন্ধ নাকে আসে! এইতো প্রকৃতি এইতো জী্বন।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:১১

মনিরা সুলতানা বলেছেন: কাজী আবু ইউসুফ (রিফাত)
হ্যাঁ পরানের গহীন ভিতরে ও এমন কথ্য ভাষায় লেখা।
ইশ কী সুন্দর করেই না বললেন চমৎকার লেখনি-তে সোঁদা মাটির গন্ধ নাকে আসে । আপনার ভালোলাগার প্রকাশে অনেক অনেক ভালোলাগা।
আপনাকে আমার লেখায় স্বাগত, আশা করছি দারুণ কিছু সময় কাটবে আপনার ব্লগে।
শুভ কামনা।

২| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৫৩

মোঃমোস্তাফিজুর রহমান তমাল বলেছেন: গ্রাম্য জীবন,প্রকৃতি, প্রিয় মানুষের সান্নিধ্য কামনা ও সান্নিধ্য না পাওয়ার বিরহ একাকার হয়ে গেছে।প্রকৃতি, দৈনন্দিন জীবন ও মানুষের মনের মিথস্ক্রিয়া খুব ভালো লেগেছে। কবিতাটা সুন্দর।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:১৬

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আমার লেখায় আপনাকে স্বাগত মোঃমোস্তাফিজুর রহমান তমাল!
আমার এই একেবারে সাধারণ গ্রাম্য ভাষায় লেখা আপনার ভালো লেগেছে জানতে পেরে আমি আনন্দিত! এমন সব ভালোলাগার প্রকাশ লেখায় অনুপ্রেরণা দেয়।
আপনার জন্য ভালো থাকার শুভ কামনা।

৩| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৫৮

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:

কি অপরূপ কথা শুনাইলেগো আপু
কানের ভিতর দিয়া, মরমে পশিল গো,
আকুল করিল মোর প্রাণ।।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:১৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বাহ বাহ নূর মোহাম্মদ নূর ভাই অনেক সুন্দর ছন্দে মন্তব্য করে গেলেন।
ভালো থাকবেন।

৪| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৫৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অসম্ভব সুন্দর কবিতা
শুভ কামনা আপি

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:২৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ ছবি আপু
আপনার সহজিয়া মন্তব্য সব সময় মন ছোঁয়।
আপনার জন্য ও শুভ কামনা।

৫| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:০০

শেরজা তপন বলেছেন: ‘আজান হইল সুজ্য ডুবল, ক্যান নাই তার দেহা
ডাহুকীর বিলাপ আউজকা না হুনলে
কইলাম হইবা একদিন একলা। ... শ্যাষের এই বিলাপ-ডা কইলজ্যায় ঘা দেয় গো বইনে!!
এই বয়ানে আপনি কবিতা লিখেন আগে জানা ছিলনা। চমৎকার

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৪৬

মনিরা সুলতানা বলেছেন: এই বয়ান এি প্রথম চেষ্টা, বুঝে উঠতে পারছিলাম না কেমন হচ্ছে। আপনাদের মত সুলেখকদের মন্তব্য পেয়ে ভরসা পেলাম।
একটি বাক্যে এই যে বলে গেলেন চমৎকার !! এটুকুই আমাকে নতুন ভাবে কিছু লেখার উৎসাহ হয়ে থাকবে।

ধন্যবাদ মিশুভাই থুক্কু প্রিয় লেখক।

৬| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:০১

খায়রুল আহসান বলেছেন: 'পরানের গহীন ভেতর' থেকে উঠে আসা খুবই চমৎকার কবিতা!
ঘাটলার পাল্থরে জিঙ্গার ছাবা দিয়া পাও ঘষা আর হিজলগোটায় চুলে ফেনা তোলার কথাচিত্রটি মনোরম হয়েছে, বাকিগুলোও খুব সুন্দর।
কবিতায় ভাল লাগা + +।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:০২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আপনার করা চিত্ররুপ বেশ মনে ধরলো ! মানে আমি যেমন ভেবে লিখেছিলাম, পর্যায়ক্রম হিসেবে। আপনি তারমাঝের নির্যাস টুকু তুলে আনলেন। নিমগ্ন চিত্তে নিজেকে ভালোবেসে স্নানরত এক রমণীর চিত্ররুপ।
কবিতায় ভালোলাগার প্রকাশে এবং++ এ অনুপ্ররনা পেলাম।

৭| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:০৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


হিজল ফুলে মন উতলা

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: একদম !

৮| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৩৮

শোভন শামস বলেছেন: ছন্দবদ্ধ লেখনি নিঃসৃত সাবলীল কথামালা

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০৬

মনিরা সুলতানা বলেছেন: এক লাইনে দারুণ ভাবে প্রশংসা করে গেলেন !!
অনেক অনেক ধন্যবাদ।

৯| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৪৬

ওমেরা বলেছেন: এমন কবিতায় কেমন করে কমেন্ট করি গো আপুনি ——- শুধুই ভালোলাগা আর ভালোলাগা কবিতায়।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: তুমি যেমন মিষ্টি ঠিক তেমন করেই করো তোমার মন্তব্য !!
তোমার জন্য ও অনেক অনেক ভালোলাগা আর ভালোবাসা।

১০| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:০০

নিয়াজ সুমন বলেছেন: সবুঝ শান্ত গ্রামের বিরহ ব্যাথা কথ্য ভাষায় চমৎকার উপস্থাপন।
আচ্ছা আপুনি- এইটা কোন অঞ্চলের কথ্য ভাষা..?

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:১২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হ্যাঁ কথ্য ভাষা কেমন সুরেলা হয়।
ধন্যবাদ নিয়াজ সুমন চমৎকার মন্তব্যের জন্য।

এইটা বৃহত্তর ঢাকা'র বিক্রমপুরের ভাষা!

১১| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৪

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: চমৎকার কবিতা।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:১৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ দেশ প্রেমিক!
আপনাকে লেখায় পেয়ে ভাললাগলো, মন্তব্যে ও ভালোলাগা।

১২| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:২২

রাজীব নুর বলেছেন: অত্যন্ত মনোমুগ্ধকর।
যান দশে সাত দিলাম। সাত সাধারনত আমি কাউকে দেই না।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:২৬

মনিরা সুলতানা বলেছেন: নুর ভাই আপনি যে একজন দুর্দান্ত পাঠক আমরা সবাই জানি; আপনার বর্ণিল পাঠের অভ্যাস ই আপনাকে সমালোচক এবং বোদ্ধা বানিয়েছে। আমি আপনার সাবলীল ভাবে লিখতে পারা কে বেশ ঈর্ষার চোখে দেখি। আমার লেখায় আপনার এই দারুণ গ্রেডিং এর জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ। এবং লেখা যে সাধারণের চেয়ে আলাদা হয়েছে সেটা জানতে পারা ও আমার জন্য আনন্দের।

সব সময় ভালো থাকার শুভ কামনা।

১৩| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:১০

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: ডাহুকির বিলাপ চান নিশ্চয়ই শুনবে একদিন আশা করি। এরকম ব্যাকুলভাবে ডাকলে ডাহুকীর কাছে চানকে আসতেই হবে। পল্লী বালার মনের গহিনের কথা কথ্য ভাষাতে সুন্দরভাবে ফুটে উঠেছে। আঞ্চলিক ভাষায় মনের ভাবের পুরোটাই প্রকাশ পায়। কবিতা লিখতে গিয়ে নিশ্চয়ই আপনাকে পল্লী বালার মনের গভীর প্রবেশ করতে হয়েছে। ভালো মানের কবিতা নিঃসন্দেহে।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হ্যাঁ আঞ্চলিক ভাষায় ছোটখাট অনুভব ও শব্দে তুলে আনা যায় বেশ;
আসলে গ্রামে তো বেশ অনেক সময় কাটিয়েছি , তাছাড়া পৃথিবীর সমস্ত বালা' র মনের ভাব কমবেশি একই। সেই সার্বজনীন অনুভবে ই লেখা। ভালো মানের কবিতা নিঃসন্দেহে। এই এইটুকু এক লাইনে প্রশংসা আমার লেখার জন্য বেশ বড় কিছু। অনেক অনেক ধন্যবাদ লেখার সাথে থাকার জন্য।

শুভ কামনা।

১৪| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩৮

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সাবলীল প্রকাশ ,অনেক অনেক ভালো লাগলো

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: লেখায় স্বাগতম নেওয়াজ আলি!
সুন্দর করে আপনার ভালোলাগা জানিয়েছেন। ধন্যবাদ আপনাকে।

১৫| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪১

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




আপা, আমার কাছে একঝাঁক মনের কষ্টগাথা কথামালা মনে হয়েছে। আমাদের জীবন থেমে থাকে না, থেমে থাকে না পথচলা। আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বাহ ! আপনার কাছে একঝাঁক কষ্টের কথামালা মনে হওয়াতে, বেশ শান্তি পেলাম; যাক যা লিখতে চেয়েছি উঠে এসছে তাহলে শব্দে! ঠিক বলেছেন, আমাদের জীবন কখনোই থেমে থাকে না, থেমে থাকে না পথ চলা ও। তবে যদি সান্ত্বনা বাক্য হিসেবে জীবনের এর বাস্তবতা আমাকে বুঝিয়ে থাকেন, কষ্টের কথামালার কবিতা লিখেছি বলে। তাহলে বলতেই হবে এ লেখার চরিত্র বা কাহিনীর সাথে আমার জীবনের বাস্তবতার তিলমাত্র যোগাযোগ নেই। লিখিতে পারছিলাম না অনেকদিন তাই লেখার ধাঁচে একটু পরিবর্তন আনার চেষ্টা করলাম।

আপনার শুভ কামনা আমার লেখক জীবনের পথের পাথেয় হোক।

১৬| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫৩

করুণাধারা বলেছেন: চমৎকার... ছবির পর ছবি, একলা ডাহুকের কাছে চান ফিরে এলে সব ছবিগুলো হেসে উঠবে।

ফররুখ আহমদের ডাহুকের জন্যও মন কেমন করে।

ডাহুকের ডাক...
সকল বেদনা যেন সব অভিযোগ যেন
হয়ে আসে নির্বাক।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ডাহুকের ডাক...
সকল বেদনা যেন সব অভিযোগ যেন
হয়ে আসে নির্বাক।

আপু ব্যাপারটুকু মনে হয় ঠিক তাই ! ডাহুকের ডাক কে আমার সবসময় ই বেদনার মনে হয়েছে। তাই একটু বিরহ নিয়ে লিখতে ডাহুক নিয়ে এলাম। যেমন শালিক কে আনন্দের প্রতীক মনে হয়।
ফিরে আসুক চানেরা সব আসমানিদের কাছে তবেই ই লেখার পূর্ণতা।

ধন্যবাদ আপু চমৎকার কিছু লাইন তুলে আনার জন্য। ফররুখ আহমেদের এই লেখা আমি আজই পড়লাম। সেজন্য আরও একটু কৃতজ্ঞতা।

ভালো থাকবেন আপু।

১৭| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১৯

মিথী_মারজান বলেছেন: কি যে সুন্দর!
কত যে মায়াঘেরা!
এমন সহজ সরল গ্রামীণ আবহ বহুদিন অনুভব করিনি আপু।
চাঁন মিয়ার সত্যি সত্যি চাঁন কপাল এত নির্মল এক ভালোবাসা তাকে এভাবে ছুঁয়ে আছে।
কবিতায় প্রচন্ড ভালোলাগা রইল।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ও আল্লা এইটা কে !!!!
অনন্ত জলিল নয় এখন তো দেখছি আসমানি আর চাঁনমিয়া অসম্ভব কে সম্ভব করে তুলছে :) আনন্দ !!! আনন্দ !!
তুমি ব্লগে ফিরেছ এই আমার অনেক পাওয়া সাথে এমন সুন্দর মন্তব্য নিয়ে !!
সত্যি ই ব্লগিং এর আনন্দ কয়েকগুণ বেড়ে গেলো।

তোমার প্রচণ্ড ভালোলাগায় ভালোবাসা রইলো।

১৮| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৫১

রাজীব নুর বলেছেন: বোন সুন্দর মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ। ভালো থাকুন। সুস্থ থাকুন। করোনা ভাইরাস থেকে সাবধান থাকুন।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৪১

মনিরা সুলতানা বলেছেন: দোয়া করবেন, আরও অনেক অনেক লিখুন আপনার অভিজ্ঞতা।

১৯| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৫৬

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন:

ডাহুক সমাচার ভালো লেগেছে আপু। ++
শুভেচ্ছা জানবেন।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৪৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ চৌধুরি ভাই !
ডাহুক সমাচারে ভালোলাগার প্রকাশে কৃতজ্ঞতা। আচ্ছা আপনি এই ভাষা বুঝতে পারছেন তো ?

২০| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৫৬

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: আপু আপনি তো তেমন শক্ত করে লেখেননি। পড়তে বরং মজা পাইলাম। আপনাদের ঢাকা-বিক্রমপুরের ভাষা কতক বুঝতে পারলেও সিলেটের বা চিটাগাং এর হলে কিছুই বুঝতে পারতাম না।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:০১

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হ্যাঁ ঢাকার ভানু তো আপনাদের কে অনেককিছু ই শিখিয়ে গেছেন। না আসলেই শক্ত করে লিখি নাই। তবে একেবারেই আঞ্চলিক কিনা তাই জিজ্ঞেস করেছি। সিলেট বা চিটাগাং ইভেন নোয়াখালী হলে আমিও বুঝতে পারতাম না।

২১| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ২:৩০

কালো যাদুকর বলেছেন: মনে হল নানু বাড়ির উত্তরমুরা দিয়ে "কাজলা" দিদরি হাত ধরে ঘুরে এলাম। ভাল থাকবেন।

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৩১

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বাহ ! চমৎকার যাদুকরী মন্তব্যে ভালোলাগা !
ধন্যবাদ কালো যাদুকর।

২২| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ভোর ৪:৪০

সোহানী বলেছেন: তোমার এ স্টাইলের লিখা মনে হয় আগে পড়িনি। ভালোলাগলো।

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৩৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আঞ্চলিক ভাষায় ছন্দবদ্ধ লেখা অবশ্য এই প্রথম।
অনেকদিন পর আপনাকে লেখায় পেয়ে ভালো লাগলো আপু :)

২৩| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:০৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: মনিরা সুলতানা,




চান্দের মতোই ফকফকা কইরা এমুন মনের কতা সাজাইয়া গেলেন ক্যান ?
এই পোড়া মনে এহোন তো আর ডাহুক ডাকেনা, চিলের চিক্কুর ডাকে। পুঁই গোটা দিয়া ঠোট রাঙাইন্না সোমায় কই ? কই হেই গাও গেরাম যেহানে চানমিয়ার লইগ্যা মনডা আনচান আনচান করে? সবখানেই তো দেহি কাউয়া ওড়ে। এই পোড়ার চউক্কে আর কতো যে লষ্ট ছবি দেকমু , বেশুমার! আমাগো মোনডার ভিত্রেই যে বড় পাপরে বাজান , বড় পাপ.................

আর কোনও ভাষা খুঁজে পেলুম না এই গাঙের স্রোতের মতো কলকল করে চলা কবিতাটির যোগ্য সম্মান দিতে।

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৪৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: একদম ঠিক বলেছেন, আজকাল আর ডাহুক নয় চিল শুকুনের রাজত্ব পল্লী গ্রামে ও !
কিন্তু একটা সময়ে যা দেখেছি, সেটুকু লিখে রাখতে ইচ্ছে করে বলেই পাতায় তুলে না।
খুব খুব ভালোলাগা আপনার নিজস্বতায় লেখার চমৎকারিত্ব প্রকাশে।

২৪| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:২৫

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
গ্রাম্য ভাষায় অগ্রাহায়ণ মাসকে আগুর মাসে বলে। অত্যন্ত আদের এদিকে আগুন মাস নয়। এখানে আগুন মাস কি চৈত্র কে বুঝানো হয়েছে।

একলা ডাহুক তোমায় পাইনি খুজে উদাসী দুপুরে
দিলে না দেখা নীলিমা অপরাহ্নে.......................


++++

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:০০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: একলা ডাহুক তোমায় পাইনি খুজে উদাসী দুপুরে
দিলে না দেখা নীলিমা অপরাহ্নে.......................
সুন্দর !!!!

মুখের ভাষা তো একেক মুখে একেক রকম শোনায় মনে হয়; আমি আগ্রহায়ন ই বুঝিয়েছি মাইদুল ভাই !

মন্তব্য এবং প্লাসের জন্য ধন্যবাদ :)

২৫| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৪৫

শায়মা বলেছেন: বাপরে!! কবিতার কন্যা তো পুরাই প্রেমিক পাগলী!!!!

অনেক অনেক মজার আর সোন্দর হয়েছে আপুনি!!!!!!!!!!!

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১১

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হাহাহা যে কবিতার কন্যা যত প্রেমিক পাগলী সেই কবিতা তত বেশি লুমান্তিক।
থ্যাংকু থ্যাংকু শায়মা :)

২৬| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:০৫

শায়মা বলেছেন: হা হা সে কি আর বলতে!!! বুঝাই যাচ্ছে কন্যা এখনও রোমান্টিক তখনও রোমান্টিক!!!


লুমান্তিক কাব্য তো অলওয়েজ ভালোবাসা!!! :)

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: লুমান্তিক কাব্য তো অলওয়েজ ভালোবাসা!!! :) একদম তাই !

২৭| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:০৮

জুন বলেছেন: পরানের গহীন ভেতরে ঘাই দিয়ে যাওয়া কবিতা মনিরা।
কি বলে প্রশংসা করি বলো এই অসাধারণ কাব্যের।
অনাবদ্য।
+

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৬

মনিরা সুলতানা বলেছেন: প্রিয় জুনআপু! লেখায় আপনার উপস্থিতি ই অনেক বড় প্রেরণা !! সাথে এই যে ভালোলাগার প্রকাশ এটুকুই আমার লেখার আনন্দ।
অনেক অনেক ধন্যবাদ আপু লেখার পাশে থাকার জন্য।

২৮| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:৩০

মা.হাসান বলেছেন: আজকালকার কবিতা না। আজকাল আর ডাহুকির বিলাপ না শুনলে কেউ একলা হয় না, আরেকটা ডাহুকি জোগাড় করে নেয়। ডাহুকিও মনে হয় বিলাপ করে না, আরেকটা ডাহুক জোগাড় করে নেয়। পুরাতন দিনে আটকা পড়ে আছি বলেই কষ্ট পাই। মন খারাপ করিয়ে দেয়ার কাজটা ভালো করলেন না। মন ভালো করা আরেকটা কবিতা লেখার কাজটা আপনাকেই করতে হবে।

ছবির পুকুরটা অসাধারণ সুন্দর (তাই বলে কবিতার চেয়ে মোটেও বেশি নয়)। এরকম লাল-গোলাপি কচুরিপানা আগে দেখি নি। নাকি এটা কচুরিপানা না, অন্য কিছু? মনে হচ্ছে ডাহুকির ঠোটের পুই গোঁটার রঙে রাঙানো।

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৩৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আমি নিজেই তো আর আজকালকার নই, সেই সে ভিক্টোরিয়ান যুগের। তাই পুরানো যুগেই আটকে আছি। কষ্ট !! মাঝে মাঝে কষ্টের ফেরিওয়ালা হয়ে যাবেন দেখবেন সব ঠিক। আপনি সব সময় এত আনন্দ নিয়ে লিখেন আর মন্তব্য করেন মনে ই হয় মন খারাপ নামের কিছুর সাথে আপনার পরিচয় আছে :) আর নতুন কবিতা ? আহা ! চাইলেই যদি লিখতে পারতাম !!!

থ্যাংকু কিরপিন ভাই এত চমৎকার ভাবে আমার লেখা নিয়ে বলার জন্য! এমন লাল- গোলাপি কচুরিপানা আপনি পাবেন ভরা বর্ষায় সুনাম গঞ্জের হাওড়ে আড়িয়াল বিলে হিজল গাছের তলায়। ও হ্যাঁ গুলশানে যে পেয়ালা রেস্টুরেন্ট টা আছে সেটার সামনে একটা হিজল গাছ আছে নিশ্চয়ই সে কংক্রিট ও এমন লাল- গোলাপি হয় ভরা বর্ষায় হিজল ফোটে যখন। ঠিক ধরেছেন মাঝের সবুজ গুলো কচুরিপানা আর লাল -গোলাপি সব হিজলের ঝরা ফুল। হ্যাঁ লেখা শেষ হবার পর নেটে ছবি খুঁজতে যেয়ে এই দুইটা ছবি এত চমৎকার ভাবে কবিতার লাইনগুলো কে চিত্ররূপ দিলে যে আমার মন ভালো হয়ে গেছিল। এই যে ডাহুকীর পুঁই গোঁটায় রাঙানো ঠোটের কথা আপনি উল্লেখ করলেন। আর একটা স্তবক আছে না -
হইলদা বনে রাইতচড়া পক্ষী হইয়া কোন বাসরের ফুল টোকাও !
হিজলা তলে কোষা নাও ফেইল্লা মাতার উপ্রে ঘন নীলের উদার আসমানে কার মুখ দেহো কও!
ঝুম বাইসস্যা কালে? কার লাইগ্যা পরান ডা পুড়ল গো কবিয়াল !

প্রথম ছবিটা ঠিক এ ক' লাইন এর চিত্ররূপ !! ভরা বর্ষা! হিজল গাছের তলায় কোষা নৌকা এবং ঝরে পরা হিজলের ফুল।

বেশ বড় উত্তর হয়ে গেল দেখছি :`> অনেক অনেক ধন্যবাদ কবিতায় অতখানি সম্পৃক্ততার জন্য।

২৯| ৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১১

খায়রুল আহসান বলেছেন: আপনার কবিতায় মা.হাসান এর এমন কাব্যিক মন্তব্য দেখে আমি প্রথমতঃ হতবাক, অতঃপর মুগ্ধ, অভিভূত!

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৭

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আমি নিজেও প্রথমে ভেবেছিলাম উনার স্বভাব সুলভ রিভার্স মন্তব্য কিনা ? উত্তর ও সেভাবে দিয়েছিলাম। পরে মনে হল হয়ত আমাদের কিরপিন এ কবিতায় এসে অনুভূতি প্রকাশে আর কৃপণতা করেন নাই। সত্যি খায়রুল আহসান ভাই মুগ্ধ আমিও ! মাঝে মাঝে মনে হয় এই সামু ব্লগ আর আপনাদের মত সহ- ব্লগার ( যারা সবসময়ে অতখানি উদারতায় আমার লেখার সাথে থাকেন ) না পেলে আমি যে কোনদিন কবিতা লিখব সে টুকু ও বুঝে উঠতে পারতাম না।

ব্লগ এবং ব্লগারদের কাছে আমি কৃতজ্ঞ।

৩০| ০১ লা অক্টোবর, ২০২০ ভোর ৬:২৯

এম ডি মুসা বলেছেন: নিজের ভাষায় সুন্দর কবিতার ছাপ ভালো লাগার মত

০১ লা অক্টোবর, ২০২০ সকাল ৯:২২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে এম ডি মুসা !
লেখালিখির আনন্দ হচ্ছে নতুন পাঠকের মন ভাবনার সাথে পরিচয়।
ভালো লাগলো লেখায় পেয়ে। শুভ কামনা

৩১| ০১ লা অক্টোবর, ২০২০ সকাল ৮:৫১

নিঃশব্দ অভিযাত্রী বলেছেন: কথ্য ভাষায় লেখা কবিতা খুব ভাল লাগলো। অন্য রকম।

০১ লা অক্টোবর, ২০২০ সকাল ৯:২৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: হয়ত কথ্যভাষা আমাদের হৃদয়েক খুব কাছের! তাই আলাদা ও মন ছোঁয়া !!
আমার লেখায় আপনার আনন্দময় সময় কাটুক।

ধন্যবাদ অভিযাত্রী !

৩২| ০১ লা অক্টোবর, ২০২০ রাত ১১:০৭

ঢুকিচেপা বলেছেন: খুবই সুন্দর হয়েছে আপু।
মনে হচ্ছে গ্রাম বাংলার কোন পরিবারের বাস্তব চিত্র চোখের সামনে দেখতে পাচ্ছি।

০২ রা অক্টোবর, ২০২০ সকাল ৯:৩৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ ঢুকিচেপা !!
গ্রাম বাংলায় আপনার ভ্রমন আনন্দের হোক।

ভালো লাগার প্রকাশ এবং প্রশংসনীয় মন্তব্যে আনন্দিত আমি।

৩৩| ০২ রা অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৮

ইসিয়াক বলেছেন: খুব সুন্দর কবিতা।

০২ রা অক্টোবর, ২০২০ রাত ১১:২৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বাহ ! কবি ইসিয়াক যে !!
আশা করছি ভালো আছেন? লেখায় আপনাকে পেয়ে খুশি হলাম। ধন্যবাদ পাঠে এবং মন্তব্যের জন্য।

৩৪| ০২ রা অক্টোবর, ২০২০ রাত ১১:০৭

স্বরচিতা স্বপ্নচারিণী বলেছেন: অনেক সুন্দর লিখেন আপনি আপু। আমি কবিতা কম পড়ি কারণ খুব একটা ভালো বুঝি না। আপনার কবিতাটা পড়ে বেশ ভালো লেগেছে। ঝরঝরে সুন্দর অভিব্যক্তি।

০২ রা অক্টোবর, ২০২০ রাত ১১:২৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আরেয়ে বাহ !! স্বাগত সুস্বাগত স্বরচিতা স্বপ্নচারীণী !!!
হ্যাঁ ব্লগে যখন আমি আসি তখন কবিদের এড়িয়ে চলতাম; মনে হত কিছুই বুঝি না। বহুদিন পাঠক ছিলাম, পরে কিছু ভ্রমণ লিখলাম। কবে থেকে জানি না এমন ক' লাইনে কবিতা লেখা শুরু করলাম। ( মনে হয় ব্লগের কবিদের অভিশাপে :P ) হাহাহা যাইহোক যা ভালো লাগবে তাই পড়বেন, ব্লগের মজাই এটা এখানে সবার জন্যই কিছু না কিছু আছে পড়ার মত।
হুম প্রথমবার এসেই দারুণ এক মন্তব্য রেখে গেলেন ! খুব ভালো লাগছে।

সব সময় ভালো থাকার শুভ কামনা আপনার জন্য।

৩৫| ০৩ রা অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৩:১২

মিরোরডডল বলেছেন:



নিজের বিছনায় ও আমার আরাম নাই
ঝুম বাইসস্যা কালে ? কার লাইগ্যা পরান ডা পুড়ল গো কবিয়াল !
ডাহুকীর বেলা ডোবে না যে আর, আকুলি বিকুলি মন
আজান হইল সুজ্য ডুবল ক্যান নাই তার দেহা


উফ ! মনিপু ...... অদ্ভুত সুন্দর একটা লেখা !
ওপরের চারটা লাইন বুকের ভেতরে স্পর্শ করেছে । অস্থির আর মন খারাপ লাগছে ।
কি যেনো নেই, শূন্যতা !
তুমি এখন আমাকে আদর দাও আপু :(

এটা সত্যি যে এ লেখাটায় পরানের গহীন ভেতর এর ভাইব আছে কিন্তু তোমার লেখাটা বেশী ভালো লাগলো ।


০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২০ সকাল ১০:৪৬

মনিরা সুলতানা বলেছেন: তুমি হচ্ছে আমার চোখে এক উচ্ছল প্রজাপতি ! সারাক্ষণ ব্লগে উড়েউড়ে তোমার বর্ণীল ডানায় রঙ ছাড়াও আনন্দ বিলাও ! তুমি হচ্ছে ছোট্ট ঘাসফুলে ঠিকরে পরা রোদেলা হাসিতে আনন্দ খুঁজে নেয়া ঘাসফড়িঙ ! তুমি হচ্ছে মৌরি ফুলের সুবাস ! এই যে নেই নেই শূন্যতা, বুকের মধ্যে কেমন করা অনুভূতি ! এসব আছে বলেই তুমি অনন্যা ! আমি জানি এ শূন্যতা কেও তুমি উপভোগ করে জানো বলেই জীবন সব সময় তোমার কাছে লাইফ ইজ বিউটিফুল।

ভালোবাসা ডল !

৩৬| ০৩ রা অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:৩৭

রামিসা রোজা বলেছেন:
বুকের ভেতর কেমন করে যেন কেঁপে উঠলো ।
অনেক ভালোভাবে বেঁচে থাকলেও,তারপরও নিজের জন্য
কাটানো নিজস্ব একা কোনো মুহূর্তে বলতে ইচ্ছে করে,

ডাহুকীর বিলাপ আউজকা না হুনলে
কইলাম হইবা একদিন একলা। ----- এটাই সত্য।

সহজাত স্বভাব মানুষের ভেতর রাগ-ক্রোধ ভালোবাসা
মান অভিমান ছবি সুন্দর করে উপস্থাপন করেছেন।
কবিতায় ভালোবাসা ও ভালোলাগা রইলো ।

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২০ সকাল ১০:৪৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: লেখায় স্বাগত রামিসা রোজা !
আমার একটু খানি দুলাইনে আপনার অনুভবে লেখার সার্থকতা অনেকখানি ই খুঁজে পাচ্ছি! অনেক অনেক ধন্যবাদ আপনার চমৎকার ভাষায় লেখার এমন সমৃদ্ধ প্রশংসা বাক্যের জন্য।

সব সময় ভালো থাকার শুভ কামনা আপনার জন্য।

৩৭| ০৫ ই অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৫

মিরোরডডল বলেছেন:



মনিপু, সো সুইট অভ ইউ ! থ্যাংকস ফর ইউর নাইস ওয়ার্ডস :)








০৭ ই অক্টোবর, ২০২০ রাত ১২:১৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ভালোবাসা তোমার জন্য !

৩৮| ০৫ ই অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৫

উম্মে সায়মা বলেছেন: ইশ মন ছুঁয়ে যাওয়া কবিতা মনি আপু।

০৭ ই অক্টোবর, ২০২০ রাত ১২:২১

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ধন্যবাদ উম্মে সায়েমা!
তোমাদের মিষ্টি মন্তব্য গুলো লেখার প্রেরণা !

৩৯| ০৮ ই অক্টোবর, ২০২০ রাত ১০:৫৪

বুর্জোয়া বলেছেন: "হিজল তলে কোষা নাও ফেইল্লা মাতার উপ্রে ঘন নীল উদার আসমানে কার মুখ দেহো কও!
একলা ডাহুকীর বেখায়ালি বক্যুলতার উপমা শুধুই আঁধার নামা ঝিঝি-পোকার স্বরে!
এখন এ পর্যন্তই, ফিরে আসছি শীঘ্রই......।

০৯ ই অক্টোবর, ২০২০ রাত ১২:৩০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: কবিতার প্রশংসায় কাব্যিক উপমায় ভালোলাগা বুর্জোয়া !!
আমার লেখায় আপনার কিছু চমৎকার সময় কাটুক।
ফিরে আসার আগে পর্যন্ত ভালো থাকুন।

৪০| ২৪ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৪৯

মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন বলেছেন: চমৎকার ভাবনার রং মিশিয়ে অনন্য কাব্যিক বহিঃপ্রকাশ। আমার দারুণ ভালো লেগেছে।

২৫ শে নভেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৫৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: লেখায় স্বাগত মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন !
আপনার ভালোলাগার বহিঃ প্রকাশ ও আমাকে প্রেরণা জুগিয়েছে।

শুভ কামনা।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.