নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

মিঃ হাসান

যুক্তি আর আবেগের গ্যাঁড়াকলে আটকে থাকি আর ভাবি চলছে তো মন্দ নয়, না হোক কেউ বিজয়ী । দিনশেষে জয়টাই কি সব?

মিঃ হাসান › বিস্তারিত পোস্টঃ

মায়াবতী - কোয়েল পাখি

২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:৩৮

পড়ার অভ্যাসটা ছেলেবেলা থেকেই । প্রতিবছর বেশ উৎসাহ নিয়ে পরিবারের সবাই যেতাম বইমেলায় । কিশোর বয়সে জাফর ইকবাল, জুল ভার্ন, একটু পরিণত হতেই শীর্ষেন্দু, সমরেশ, আর বয়সের নিষেধাজ্ঞা কেটে যেতেই রুদ্র, গোস্বামী আর বুদ্ধদেব বসুতে প্রবেশ । আর যখন সুনীলে ডুবলাম, তখন পড়ার সাথে সাথে অল্প-বিস্তর লিখতেও শুরু করলাম । কেমন লিখতাম জানিনা-তবে অভ্যাসটা টিকে গেলো । গ্র্যাজুয়েশনের পর পড়ার সাথে সমানুপাতে ভরতে থাকলো আমার স্টাডির ছোট্ট টেবিলের ডানদিকে সযত্নে সংরক্ষিত সাহিত্য-স্ক্র্যাপবুকের পাতাগুলো । সাহিত্যের বেশ ভালোই সমঝদার বলে মনে হত নিজেকে । সব ঠিকই ছিলো-তবে ২০১৬ এর আগস্টের আগে পর্যন্ত । সাহিত্য-প্রতিভা নামক ফুলটি যবে আমার মধ্যে কেবল ধীরে ধীরে বিকশিত হতে শুরু করছিলো, তখনই হঠাৎ এক গজদন্তী হাসি ঝড় হয়ে এসে সব ভেঙ্গেচুরে খানখান করে দিলো । প্রতিটি পদ্য, প্রতিটি উপন্যাস একজন লেখকের ব্রেইনচাইল্ড । যে মস্তিষ্ক থেকে আমার সেই পদ্যশিশু জন্ম নিবে, যে হৃদয় থেকে নিংড়ে নিংড়ে রস বের করে সাধারণ কথামালায় প্রাণ সঞ্চারিত হয়ে তৈরি হবে একটি উপন্যাস; সেই হৃদয়ে, সেই মস্তিষ্কে সারাক্ষণের জন্য জেঁকে বসলো এক মায়া ভরা মুখশ্রী । সেই হাসি, সেই মুখ আমি যে এক মুহূর্তের জন্যও ভুলতে পারিনা । আমার পৃথিবী, আমার সাহিত্য ভাবনা তখন থেকে শুধু সেই মায়াবতীকে ঘিরে আবর্তিত হতে লাগলো । আর ২১/০২/২০১৭ থেকে ধীরে ধীরে বুঝতে শিখলাম সাহিত্য যে আসলে কী-তা এতোদিন আমি বুঝিনি তিলমাত্রও । যাকে এতোদিন পদ্য ভেবেছি, তা আসলে পদ্য নয়; যেটিকে উপন্যাস ভাবতাম, উপন্যাস নয় আদতে সেটিও । বরং সেই মায়াবতীর প্রতি নিবেদিত আমার প্রতিটি চাহনি একেকটি কবিতা, তার সাথে বলা আমার কথামালা একেকটি গান, যাতে সুরারোপিত হয় আমাকে দেয়া তার দুষ্টু-মিষ্টি গজদন্তী হাসিতে । তার সাথে ব্যয়িত মহাকালের এই ক্ষুদ্র সময়টুকু একটি মহাকাব্য । যে মহাকাব্যের কেবল চতুর্থ অধ্যায় শেষ হলো, এ অনন্ত, অনিঃশেষ মহাকাব্যের উৎসর্গ পাতায় শুধু একটি নামই লেখা-“কোয়েল পাখি”। আর নিঃসন্দেহে বুঝতে পারি এটিই হতে যাচ্ছে আমার শ্রেষ্ঠতম সৃষ্টি । কারণ, সাহিত্য কী-তা এখন আমি জানি !

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ভোর ৬:৩৪

কবিতা ক্থ্য বলেছেন: আপনাকে এবং আপনার মায়াবতীকে শুভেচ্ছা।

২৭ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০৫

মিঃ হাসান বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই ।

২| ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সকাল ১১:২৯

মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন বলেছেন: দারুণ লিখেছেন ভাইয়া।

২৭ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০৫

মিঃ হাসান বলেছেন: ধন্যবাদ ।

৩| ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৪:২১

রাজীব নুর বলেছেন: বেশ কিছু আপনার লেখকদের নাম বললেন। এখন তাদের লেখা এবং আপনার পড়া তাদের বই গুলো নাম বলুন।

২৭ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০৪

মিঃ হাসান বলেছেন: "আপনার লেখকদের" নাম বলি নি । তারা সবার লেখক । তাদের লেখা অনেক বই এর মাঝে আমার সবচেয়ে পছন্দের বইগুলো হলো - তিথিডোর, সেই সময়, দূরবীন, কালবেলা, ক্রোমিয়াম অরণ্য, সেইসব শেয়ালেরা, ছোবল ইত্যাদি । এর মধ্যে কোনটা রয়েছে, যা আপনারও প্রিয় ? মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ ।

৪| ২৬ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:০১

নেওয়াজ আলি বলেছেন: লেখা এবং ছবি দুইটিই ভালো লাগলো

২৭ শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০৬

মিঃ হাসান বলেছেন: ধন্যবাদ । ছবিটি সেন্ট মার্টিনের, আমার নিজেরই তোলা । আপনার ভালো লেগেছে জেনে খুশি হলাম ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.