নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আলহামদুলিল্লাহ। যা চাইনি তার চেয়ে বেশি দিয়েছেন প্রিয়তম রব। যা পাইনি তার জন্য আফসোস নেই। সিজদাবনত শুকরিয়া। প্রত্যাশার একটি ঘর এখনও ফাঁকা কি না জানা নেই, তাঁর কাছে নি:শর্ত ক্ষমা আশা করেছিলাম। তিনি দয়া করে যদি দিতেন, শুন্য সেই ঘরটিও পূর্নতা পেত!

নতুন নকিব

যবে উৎপীড়িতের ক্রন্দল-রোল আকাশে বাতাসে ধ্বনিবে না, অত্যাচারীর খড়্গ কৃপাণ ভীম রণ-ভূমে রণিবে না- বিদ্রোহী রন-ক্লান্ত। আমি সেই দিন হব শান্ত।

নতুন নকিব › বিস্তারিত পোস্টঃ

জিলান্ডিয়া: সাগরতলে নিমজ্জিত আরেক মহাদেশ

০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৪২


মানচিত্রে সাগরতলে হারিয়ে যাওয়া জিলান্ডিয়া

জিলান্ডিয়া কি সাগরতলে নিমজ্জিত অষ্টম মহাদেশ?
স্কুলে, ছোট বেলায় আপনাকে সম্ভবত সাতটি মহাদেশ সম্পর্কে পড়ানো হয়েছিল — আফ্রিকা, এশিয়া, অ্যান্টার্কটিকা, অস্ট্রেলিয়া, ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা এবং দক্ষিণ আমেরিকা। তবে আপনি কি জানতেন, ভূতাত্ত্বিকদের মতে, আরও একটি লুকানো মহাদেশ রয়েছে? ১৯৯৫ সালে প্রথম তৈরি করা হয় 'জিল্যান্ডিয়া' নামটি, অস্ট্রেলিয়ার উপকূলে একটি ডুবে যাওয়া মহাদেশীয় সাবক্রাস্টের নাম এটি। সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে, বিজ্ঞানী এবং গবেষকরা বলছেন যে একটি মহাদেশের স্বীকৃতি পেতে যা যা দরকার, জিলান্ডিয়া তার সবকটিই পূরণ করেছে। এখন আমাদের জানা দরকার একটি ভূখন্ডকে মহাদেশের খাতায় নাম লেখাতে কি কি শর্ত পূরণ করতে হয়। আসুন, দেখে নিই কি কি শর্তে একটি বৃহত্তর অঞ্চলকে মহাদেশ বলে শনাক্ত করা যায়-

১. আশেপাশের অন্যান্য অঞ্চল থেকে উঁচু হতে হবে।
২. সুস্পষ্ট কিছু ভূপ্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য থাকতে হবে।
৩. একটি সুনির্দিষ্ট সীমারেখা থাকতে হবে।
৪. সমূদ্র তলদেশের চেয়েও পুরু ভূস্তর থাকতে হবে।

কোথায় এর অবস্থান?
এই মহাদেশটির অবস্থান দক্ষিণ-পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরে। পানিতে তলিয়ে যাওয়া এই মহাদেশটির নাম দেয়া হয়েছে জিলান্ডিয়া (নিউজিল্যান্ড+ইন্ডিয়া)। আকারে নাকি এটি প্রায় ভারতীয় উপমহাদেশের সমান। বিজ্ঞানীরা বলছেন, ২,৬৮,৬৮০ কিলোমিটার আয়তনবিশিষ্ট দেশ নিউজিল্যান্ড আসলে এই মহাদেশের জেগে থাকা একটি অংশ। নিউজিল্যান্ডকে তাই বলা যেতে পারে এই মহাদেশের পবর্তচূড়া।


নিউজিল্যান্ড এর উচ্চতম পর্বত মাউন্ট কুক, কোনো দিন যদি জিলান্ডিয়াকে মহাদেশের স্বীকৃতি দেয়া হয়, তাহলে এটিই হবে সে মহাদেশের সর্বোচ্চ স্থান

চলছে মহাদেশের স্বীকৃতি আদায়ের চেষ্টা:
বিজ্ঞানীরা এখন চেষ্টা করছেন তাদের এই নবআবিস্কৃত তলিয়ে যাওয়া ভূখন্ডের জন্য মহাদেশের স্বীকৃতি আদায়ে। ‘জিওলজিক্যাল সোসাইটি অব আমেরিকা’ Geological Society of America -য় প্রকাশিত এক গবেষণা নিবন্ধে বিজ্ঞানীরা বলছেন, ‘জিলান্ডিয়া’র আয়তন পঞ্চাশ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার, যা পার্শ্ববর্তী অস্ট্রেলিয়ার প্রায় দুই তৃতীয়াংশের সমান।

কিন্তু এই মহাদেশের প্রায় ৯৪ শতাংশই তলিয়ে আছে সাগরের পানিতে। মাত্র অল্প কিছু অঞ্চল পানির ওপর মাথা তুলে আছে; যা নিউজিল্যান্ডের নর্থ এবং সাউথ আইল্যান্ড এবং নিউ ক্যালেডোনিয়া নামে পরিচিত।


নিউজিল্যান্ড এর উচ্চতম পর্বত মাউন্ট কুক এর আরেকটি ভিউ

উক্ত ‘জিওলজিক্যাল সোসাইটি অব আমেরিকা’ Geological Society of America -য় প্রকাশিত গবেষণা নিবন্ধের প্রধান লেখক নিউজিল্যান্ডের ভূ-তত্ত্ববিদ নিক মর্টিমার বলেন, 'জিলান্ডিয়াকে কেন মহাদেশ বলা যাবে না, প্রশ্নের উত্তর খুঁজছিলেন বিজ্ঞানীরা প্রায় গত দু্ই দশক ধরে চালানো গবেষণায়'।

তিনি আরও বলেন, 'পৃথিবীর মহাদেশের তালিকায় আরেকটি নাম যুক্ত করাটাই কেবল তাদের লক্ষ্য নয়, এর একটা বিরাট বৈজ্ঞানিক তাৎপর্য রয়েছে। একটি মহাদেশ যে সাগরে তলিয়ে যাওয়ার পরও তা অখন্ড থাকতে পারে, এই বিষয়টি বুঝতে সাহায্য করার পাশাপাশি একইসাথে কিভাবে পৃথিবীর উপরিভাগের স্তর ভেঙ্গে মহাদেশগুলো তৈরি হয়েছিল তা উদঘাটনেও সহায়ক হবে গবেষনা কর্ম'।

শেষ পর্যন্ত জিলান্ডিয়া কি আরেকটি মহাদেশ হিসেবে যুক্ত হবে পাঠ্য বইতে?
শেষ পর্যন্ত জিলান্ডিয়ার নাম আরেকটি মহাদেশ হিসেবে কি যুক্ত হবে ভূগোলের পাঠ্য বইতে? সেটা দেখার জন্য আমাদের অপেক্ষায় থাকতে হবে হয়তো আরও কিছু দিন। কারণ, মহাদেশের স্বীকৃতি দেয়ার জন্য কোন আন্তর্জাতিক ফোরাম বা অর্গানাইজেশন কাজ করে না। বেশিরভাগ বিজ্ঞানী যদি মেনে নেন যে জিলান্ডিয়া আরেকটি মহাদেশ, তাহলে হয়তো কোন একদিন আমাদের সন্তানরা শিখবে, পৃথিবীতে মহাদেশের সংখ্যা সাতটি নয়, বরং আটটি।


নিউজিল্যান্ড এর উচ্চতম পর্বত মাউন্ট কুক এর সুন্দর দৃশ্য

তথ্য সূত্র:
১. Click This Link
২. বিবিসি।
৩. https://allthatsinteresting.com/zealandia
৪. https://en.wikipedia.org/wiki/Zealandia
৫. https://www.geosociety.org/
৬. Click This Link

ছবি: অন্তর্জাল।



মন্তব্য ৯ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৯) মন্তব্য লিখুন

১| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:০২

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: দেখুন পানির নিচে মানে সাগর বৃহৎ অর্থে তা । এটা একটা প্লেট বলা যেতে পারে অথবা সাব প্লেট। পানিতে নিমজ্জিত হলে বিচ্চিন্ন হয়না । না হওয়াটা স্বাভাবিক। ওটা মহাদেশ না হওয়া শ্রেয় এ ক্ষুদ্র ভূবিজ্ঞানীর মতে। :)

২| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৭

রাকিব আর পি এম সি বলেছেন: জিলান্ডিয়া সম্পর্কে শুনেছি কয়েকবার। লেখাটি পড়ে আরো নতুন কিছু জানলাম। আপনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

৩| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১২

রাজীব নুর বলেছেন: জিলান্ডিয়া যাওয়ার উপায় কি?

৪| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:২৬

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: রাজীব নুর বলেছেন: জিলান্ডিয়া যাওয়ার উপায় কি

৫| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৩০

নীল আকাশ বলেছেন: আমি তো জানতাম আটলান্টিক নামে একটা নিমজ্জিত মহাদেশ আছে। জিলান্ডিয়া আবার কোথা থেকে আসলো?

ব্লগ থেকে চাদা তুলে রাজীব ভাইকে জিলান্ডিয়াতে সাম্পান ভাড়া করে পাঠিয়ে দিলে কেমন হবে? উনি বসে ছবি তুলবেন আর চাদগাজী সাম্পান চালাবেন!

৬| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২২

ইসিয়াক বলেছেন: নীল আকাশ বলেছেন: আমি তো জানতাম আটলান্টিক নামে একটা নিমজ্জিত মহাদেশ আছে। জিলান্ডিয়া আবার কোথা থেকে আসলো?

ব্লগ থেকে চাদা তুলে রাজীব ভাইকে জিলান্ডিয়াতে সাম্পান ভাড়া করে পাঠিয়ে দিলে কেমন হবে? উনি বসে ছবি তুলবেন আর চাদগাজী সাম্পান চালাবেন!

দারুন বলেছেন।সাথে শেখ হাসিনা বাদ থাকবে কেন ............হা হা হা

৭| ০৩ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:১৩

ইসিয়াক বলেছেন: আরো একবার আসলাম আপনার ব্লগ বাড়িতে।
পড়িতে বেশ লাগছে । আপনার পোষ্টগুলো অন্য টাইপের।বেশ ভালো ।
ধন্যবাদ ।

০৩ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:২৪

নতুন নকিব বলেছেন:



আপনার পোষ্টগুলো অন্য টাইপের।

পুনরায় এসে সুন্দর মন্তব্য রেখে যাওয়ায় অনি:শেষ কৃতজ্ঞতা। 'অন্য টাইপের' কথাটার অর্থটা যদি আরেকটু বুঝিয়ে বলতেন!

৮| ০৩ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৩০

ইসিয়াক বলেছেন: আলাদা ধরনের মানে যা সাধারণত আমরা জানিনা বা খুব একটা শুনিনি হয়তো । তার উপস্থাপনা ।নতুন কিছু আরকি ।
ধন্যবাদ

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.