নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

একান্ত ব্যক্তিগত কারণে ব্লগে আর পোস্ট দেওয়া হবে না। আপাতত শুধু ব্লগ পড়বো। বিশেষ করে পুরানো পোস্টগুলো। কোন পোস্টে মন্তব্য করবো না বলে ঠিক করেছি। আমি সামহোয়্যারইন ব্লগে আছি এবং থাকবো। ভালো আছি। ভালো থাকুন সকলে।

ইসিয়াক

আমি অযত্ন অবহেলার আপনি ফোটা এক ফুল।

ইসিয়াক › বিস্তারিত পোস্টঃ

অনু গল্পঃ দাসত্বের জীবন

১১ ই অক্টোবর, ২০২২ বিকাল ৪:১৯


মধ্যরাতে চাপা অস্বস্তি নিয়ে  মিলির ঘুম ভেঙে গেল।আতঙ্ক নিয়ে চোখ মেলল কিন্তু তেমন কিছু লাভ হলো না। ঘুটঘুটে অন্ধকারে কিছুই দেখতে পেল না সে।একটু থিতু হতে মিলি অনুভব করলো তার সারা শরীর ঘামে ভেজা।মনে হচ্ছে কে যেন একটু আগে  তার গলা টিপে ধরেছিল।সেজন্যই হয়তো সে শ্বাস নিতে পারছিল না।মনে হচ্ছিল এখনই মরে যাবে।এখনই।
বুকের মধ্যে এখনও  আনচান আনচান ব্যাথা করছে। মিলি ঢোক গেলার চেষ্টা করলো।গলা শুকনো কাঠ।খুব পানি পিপাসা পেয়েছে।অন্ধকারের মধ্যে সে এদিক ওদিক তাকালো,যদি একটু পানি পাওয়া যায় ।এখন খানিকটা চোখ সয়ে এসেছে কিন্তু কাছাকাছি কোথাও পানি নেই।পানি খাওয়ার একমাত্র উপায়  একা একা উঠে কল তলায় যেতে হবে কিন্তু মিলির ভয় লাগছে।হাতটা যদি আবার এগিয়ে আসে তার দিকে।তখন?
সে থম মেরে বসে রইলো কিছুক্ষণ  একটু থিতু হতে  মন কেমন করতে লাগলো । মা'র কথা মনে পড়ছে মা'কে খুব  দেখতে ইচ্ছে করছে। কতদিন মাকে দেখে না সে। কিন্তু সমস্যা হল এখন মধ্যরাত।মা'তো থাকে সেই দুর গায়ে।তাকে সকাল অবধি অপেক্ষা  করতেই হবে।
কেমন একটা অভিমান এসে গলার কাছটায় দলা হলো। মিলি সিঁড়ি তলায়  এই ঘন ঘোর অন্ধকারে বসে একা একা  নিঃশব্দে  কাঁদতে লাগলো।
কেঁদে কেটে মন একটু হালকা হলে সে ঠিক করলো ভোরের আলো ফুটলে  মায়ের সাথে দেখা করতে যাবে।যদিও কড়া নিষেধ আছে তবুও সে যাবে।
তারপরও কি দেখা হবে মায়ের সাথে?  না হবে না।মা নিজে থেকে না এলে আর কখনও দেখা হবে না।আচ্ছা মায়ের কি তার সাথে দেখা করতে ইচ্ছে হয় না?
হবে কি করে! জীবন্মৃত মা যে তার জনম দুঃখীনি। বুকের মধ্যে চাপা ব্যাথাটা ক্রমশ বাড়ছে মিলি কি দম বন্ধ হয়ে মারা যাবে! সে গলায় আলতো করে হাত বুলালো তারপর আকাশের দিকে তাকিয়ে বিড়বিড় করে কি সব বলতে লাগলো।
তার সব অভিযোগ ওই ওপরওয়ালার  কাছেই।তার যে আপন বলতে কেউ নেই।

একসময় ভোরের আলো ফুটল। একটা একটা করে পাখি জেগে উঠলো পূর্ব আকাশ রঙ ছড়ালো।মৃদু বাতাস আন্দোলিত হলো।
মিলির ভীষণ ইচ্ছে করে এই ভোরের বেলায় পায়ে শিশির লাগিয়ে মার হাত ধরে হাঁটতে। হাঁটতে হাঁটতে খোলা মাঠের শিশির জড়ানো ঘাসে পা ডুবাতে আর দুষ্টুমি করতে।
ইচ্ছে হয় তার ভীষণ ইচ্ছে হয়।তবে তার ইচ্ছেগুলো সব মরে গেছে আজকাল । প্রতিবন্দী মেয়ের আবার ইচ্ছে অনিচ্ছে কি? মায়ে তাড়ানো বাপে খেদানো বাচ্চাদের কোন সাধ আহ্লাদ থাকতে নেই।
ঘোষ বাড়ির বড় শিউলি ফুল গাছটা মিলির অত্যন্ত প্রিয়। তার তলায় চোখ বুজে দু'হাত বাড়িয়ে  দাঁড়াতে মিলির অনেক দিনের সাধ, টুপটাপ ঝরে পড়া শিউলির আদর মাখতেও খুব সাধ।ঝরা শিউলি কোচ ভরে কুড়াতেও সাধ । মন চাইলেই কি আর সব সাধ পূরণ হয়? হয় না।
তার যে অনেক কাজ। হোক কাজ হোক অগুনিত দায়িত্ব। সব ফেলে আজ সে মায়ের কাছে যাবেই। 

ভোরের আলো ফুটতে মিলি একাই পথ চলল। রোদ চড়ে যাবার আগে পৌঁছাতে হবে। তার কাছে ভ্যান  ভাড়ার টাকা নেই তবে হাঁটা পথের শর্টকাট চেনা আছে। ধানি জমির আল পথ ধরে এগিয়ে যায় সে। শুনেছে মায়ের ভীষণ শরীর খারাপ হয়েছে। মিলি অবশ্য জানতো না।গতকাল ই রসুল কাকার কাছে শুনেছে। এখন কি করছে মা? জ্বর হলে কি মা তার কথা মনে করে কাঁদে? যেমন সে কাঁদে মা মা করে।  এক জীবন মায়ের কাছ থেকে কত কিছুই জানার ছিল।কত ভালোবাসা নেবার ছিল।কিছুই তো হলো না।  বিধাতা কেন সামান্য এটুকু ইচ্ছে পূরণে বাঁধ সাধলেন? কেন?

© রফিকুল ইসলাম ইসিয়াক

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১১ ই অক্টোবর, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:৩৩

পবিত্র হোসাইন বলেছেন: আবেগের গল্প।
গল্পের প্লটটা আরো শক্তিশালী হতো যদি আরেকটু লিখতেন।

১১ ই অক্টোবর, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৫৫

ইসিয়াক বলেছেন: পাঠ ও মন্তব্যে কৃতজ্ঞতা রইলো।
গল্পটি আরো কয়েকটি পর্ব আছে প্রিয় ব্লগার। দীর্ঘ লেখার পাঠক ব্লগে নেই বলে এখন আর গল্প পোস্ট করা হয় না।

শুভকামনা রইলো।

২| ১১ ই অক্টোবর, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:১৮

ফুয়াদের বাপ বলেছেন: গলায় দলা বাধা কষ্ট মাখা গল্প।

১৯ শে অক্টোবর, ২০২২ রাত ৮:৫২

ইসিয়াক বলেছেন: ধন্যবাদ প্রিয় ব্লগার। পাশে থাকার জন্য কৃতজ্ঞতা রইলো।

৩| ১৩ ই অক্টোবর, ২০২২ বিকাল ৪:৫৬

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: আহারে! বেচারার সাধ আহ্লাদ।

১৯ শে অক্টোবর, ২০২২ রাত ৮:৫৫

ইসিয়াক বলেছেন: সবার সব সাধ কি পূর্ণ হয়? কত কিছু ই তো ঘটে পৃথিবীতে। কারো জীবন পরিপূর্ণ আবার কারো না পাওয়ার হতাশায় আকন্ঠ নিমজ্জিত।
শুভকামনা রইলো প্রিয় ব্লগার।

৪| ১৯ শে অক্টোবর, ২০২২ বিকাল ৩:২৩

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: এই যে মিয়া ভাই,
একদম সব ভুলে গেলেন আমাদের কথা?

১৯ শে অক্টোবর, ২০২২ রাত ৮:৫৭

ইসিয়াক বলেছেন: এতো ব্যস্ততা কি বলবো।মাঝে মাঝে মনে হয় এ জীবন আমি চাই না। আমি এমন জীবন চাই যেখানে শুধু পড়া আর লেখা।সাথে প্রিয় সব গান ও মুভি!
হবে কি ইচ্ছে পূরণ?

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.