নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ডক্টর এ.বি.এম. রেজাউল করিম ফকির, অধ্যাপক, জাপানি ভাষা ও সংস্কৃতি বিভাগআধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় e-mail: [email protected]

রেজাউল করিম ফকির

অধ্যাপক, আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

রেজাউল করিম ফকির › বিস্তারিত পোস্টঃ

অনার্য নৃগোষ্ঠীসমূহের বৈষ্ণব ধর্মে দীক্ষিত হওয়ার নিদর্শন https://www.youtube.com/watch?v=WBGYvT9j7fI

০৩ রা জুলাই, ২০২১ বিকাল ৪:৪৪

চৈতন্য মহাপ্রভু (১৪৮৬ খ্রিঃ – ১৫৩৩ খ্রিঃ)-এর সময়ে অনার্য (সাঁওতাল ও মুণ্ডা) নৃগোষ্ঠীসমূহের বৈষ্ণব ধর্মের দীক্ষিত হওয়ার যে বর্ণনা রয়েছে, তার সাথে এই দৃশ্যটির মিল পাওয়া যায়। উল্লেখ্য যে, তখন ছিলো স্বাধীন বাঙ্গলা সালতানাতের আমল। এই যুগেই সর্বাধিক সংখ্যক অনার্য নৃগোষ্ঠী বৈষ্ণব ধর্মে দীক্ষিত হয়। এখন তাদের অনেকেই হিন্দু ধর্মের অঙ্গীভূত হয়েছে। আর যারা অঙ্গীভূত হয়নি তারা এখন উপজাতি আখ্যা পেয়েছে।
https://www.youtube.com/watch?v=WBGYvT9j7fI

মন্তব্য ৭ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৭) মন্তব্য লিখুন

১| ০৩ রা জুলাই, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৪৯

পুকু বলেছেন: কি সব আবোল তাবোল বকতে থাকেন ব্লগে।

২| ০৩ রা জুলাই, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৩৪

কামাল১৮ বলেছেন: বিজাতীয়রা যে দেশ শাসন করে,সে দেশকে স্বাধীন বলে না।

০৩ রা জুলাই, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৪৯

রেজাউল করিম ফকির বলেছেন: বিজাতীয় ধারণা তখনও জন্মায়নি। কারণ তখনও বাঙ্গালি জাতি জন্মায়নি। তখন সমাজ ছিলো বহুধা বিভক্ত অনার্য গোষ্ঠীতে বিভক্ত। আর বিদেশিদের মধ্যে ছিলো নানা দেশ ও প্রদেশের মানুষ। আর স্বাধীন বাঙ্গলা সালতানাত মুসলমানদের দেশ বলে মনে হলেও, এটি ছিলো সবার সম্মিলিত রাষ্ট্রব্যবস্থা। মুসলমান নাম থাকাতে বাঙ্গলা সালতানাত মুসলমানের দেশ - বিষয়টি এমন নয়। আর কোনো দেশও বিজাতীয় শাসন মুক্ত নয়। পৃথিবীর অনকে দেশেই (কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত) বিজাতীয় শাসন ব্যবস্থা রয়েছে। যেমন উত্তর-পূর্ব ভারত বা তামিলনাড়ু বা সিকিম জনগণের একটি বড় অংশ মনে করে যে, তা বিজাতীয়দের দ্বারা শাসিত।

৩| ০৩ রা জুলাই, ২০২১ রাত ৮:৩৪

কামাল১৮ বলেছেন: বাঙ্গালী জাতি রাষ্ট্র ছিল না কিন্তু বাঙ্গালী জাতি ছিল।বিভিন্ন জাতি দ্বারা বাঙ্গালী শাসিত ও শোষিত হয়েছে,স্বাধীন হয়েছে ১৯৭১ রে ।

০৩ রা জুলাই, ২০২১ রাত ১০:২৪

রেজাউল করিম ফকির বলেছেন: বাঙ্গলা সালতানাত প্রতিষ্ঠার পর, এ অঞ্চলের মানুষ বাঙ্গালী জাতির অংশ হয়েছে। এর আগে এই নামে কোনো জাতি ছিলো না। বাঙ্গলা সালতানাত প্রতিষ্ঠা পর্যন্ত ক্ষুদ্রক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী, ব্রাহ্মণ ইত্যাদি জনগোষ্ঠীতে বহুধা বিভক্ত ছিলো।

৪| ০৪ ঠা জুলাই, ২০২১ রাত ১:৪৬

কামাল১৮ বলেছেন: এই এলাকার জনগনের ভাষা কি ছিল সালতানাতের আগে।ব্রাহ্মণ কোন জনগুষ্ঠি না হিন্দু ধর্মের পুজারী।সবাই ছিল বাঙ্গাল জনগুষ্ঠির অংশ।

০৪ ঠা জুলাই, ২০২১ ভোর ৬:৩৬

রেজাউল করিম ফকির বলেছেন: ১০ বছর ধরে অধ্যয়ন ও গবেষণা সম্পাদন পূর্বক এই বিষয়টি নিয়ে এই ব্লগার একটি গ্রন্থ রচনা করেছে। গ্রন্থটি প্রকাশিত হলে, বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত লেখার ইচছা রইলো। তবে খুব স্পল্প কথায় বলা যায় যে,, বাংলা ভাষার বর্তমান ইতিহাসটির পুনর্লিখন সম্ভব।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.