নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ডক্টর এ.বি.এম. রেজাউল করিম ফকির, অধ্যাপক, জাপানি ভাষা ও সংস্কৃতি বিভাগআধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় e-mail: [email protected]

রেজাউল করিম ফকির

অধ্যাপক, আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

রেজাউল করিম ফকির › বিস্তারিত পোস্টঃ

অস্বস্তির নাম ঘুষের বাজার

১৬ ই জুলাই, ২০২১ রাত ৮:৪৫


ছবিটি একটি বাজারের একাংশ। বাজারটির নাম ঘুষের বাজার। এই বাজারটি নেত্রকোণা শহরে অবস্থিত। বাজারটির পাশ ঘেঁষে বয়ে চলেছে মগড়া নদী। বাজারটির অনতিদূরে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়, জেলা বিচরালয় ও সার্কিট হাউজ অবস্থিত। এর এক কিলোমিটারের মধ্যে রয়েছে জেলা হাসপাতাল আরও অনেক সরকারি দপ্তর। বাজারটির এরূপ নামকরণের কারণ কী- জানতে চাইলে স্থানীয় অধিবাসীরা জানান যে, আশপাশের সরকারি দপ্তরে নিয়োজিত ঘুষখোর কর্মচারী-কর্মকর্তাদের কল্যাণে এই বাজারটি গড়ে উঠেছে। তাই এই বাজারের এরূপ নামকরণ করা হয়েছে। ঘুষখোর কর্মচারী- কর্মকর্তাদের দাম বাড়িয়ে কৃষিপণ্য ও অন্যান্য জিনিসপত্র কেনার প্রবণতার কারণে স্থানীয় অধিবাসীদের কেনাকাটায় অসুবিধা কেনাকাটা করতে অসুবিধা হয়। এই অসুবিধা দ্বারা অতিষ্ঠ হয়ে এরূপ নামকরণ করেছে। বাজারের এরূপ নাম স্থানীয় কর্মচারী-কর্মকর্তাদের কাছে অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ বাজারের নামটি যেন তাঁদেরকে সর্বদা অভিসম্পাত বর্ষণ করে চলেছে। এই বাজারটির এরূপ নাম ঘুষ বিরোধী আন্দোলনের প্রতীকী বিজয় এনে দিয়েছে। আগামীতে দেশে কোনো ঘুষ বিরোধী আন্দোলন শুরু হলে, এখানে তার সদর দপ্তর স্থাপন করা যেতে পারে।

মন্তব্য ৩ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৩) মন্তব্য লিখুন

১| ১৬ ই জুলাই, ২০২১ রাত ৮:৫৭

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: নামকরণের জন্য জনগণকে সাধুবাদ।

২| ১৬ ই জুলাই, ২০২১ রাত ৯:০৪

হাবিব বলেছেন: দেশের সব বাজারই এই নামে নামকরণ করা হোক।

৩| ১৬ ই জুলাই, ২০২১ রাত ১০:৪৫

কামাল১৮ বলেছেন: কৃষকের উপকার ,বেশি দামে পন্য বিক্রয় করতে পারছে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.