নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

হাজার হাজার অসাধারন লেখক+ব্লগারের মাঝে আমি এক ক্ষুদ্র ব্লগার। পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া লেখালেখির গুণটা চালিয়ে যাচ্ছি ব্লগ লিখে... যখন যা দেখি, যা মনে দাগ কাটে তা লিখি এই ব্লগে।

সোহানী

আমি অতি বিরক্ত হয়ে আমার অনেক লিখাই ড্রাফটে নিয়েছি কারন সামুতে আমার কিছু ভাবনা শেয়ার করছি, আর এ ভাবনা গুলো আমার অনুমতি ব্যাতিরেকে কপি না করার অনুরোধ করেছিলাম কিন্তু যত্রতত্র আমার লিখার কপি পেস্ট দেখেই যাচ্ছি দিনের পর দিন।

সোহানী › বিস্তারিত পোস্টঃ

কেরিয়ার কাউন্সিলিং বা বেকার বন্ধুদের জন্য ফ্রি উপদেশ (যারা স্বকার তাদের জন্য ও) ........ পর্ব-২

১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ সকাল ১১:৩১



বিদেশে একজন তরুন সর্বোচ্চ ২১ থেকে ২২ বছরে গ্রাজুয়েশান শেষ করে প্রফেশনাল লাইফে ঢুকে। আর আমরা প্রায় ২৫ থেকে ২৭ বছর বয়সে ইউনিভাসিটি থেকে বের হয়ে চাকরির পিছনে যখন দৌড়াই তখন দেখি দুনিয়া অনেক কঠিন। বড় জোর ৩০বছর বয়স সীমায় ২টা বিসিএস এটেন্ড করতে পারি আর বিসিএস সোনার হরিণ ধরতে না পারলে তো চাকরির বাজার যে কতটা খারাপ তা হাড়ে হাড়ে টের পা্ই তখন।

আজ যদি আমরা ২২/২৩ বছরে প্রফেশনাল লাইফে ঢুকতে পারতাম তাহলে আমাদের হাতে থাকতো ৭/৮ বছর আর বিসিএস এটেন্ড করতে পারতার ৬/৭ টা, জীবনটা স্টাবলিশ করতে সময় পেতাম অনেক। এখন দেখুন আমার আপনার জীবনের ৪ থেকে ৬ টা বছর কিভাবে নস্ট হয়ে গেল আর তার জন্য আমরা নিজেরা কোনক্রমেই দায়ী নই অথচ তার মাশুল গুনতে হচ্ছে আমার আপনার প্রতিটি মুহূর্তে। বাবার পকেটের টাকা, আপনার আমার হতাশা, আত্বীয় স্বজনের কটাক্ষ, প্রেমিক/প্রেমিকার ধাক্কা (আর মেয়ে হলে তো কথাই নেই.... বাড়তি চাপ হিসেবে আইবুড়ো খেতাবের ধাক্কা....... ) সবই কিন্তু আপনার আমার জন্য অথচ আপনি বা আমি এর জন্য দায়ী নয় কিছুতেই।

আমার কাছে অনেকেই আসে কেরিয়ার কাউন্সিলিং এর জন্য....... হতাশার মাঝে একটু আশার বাণী শুনতে............ আর তাই আমার অভিজ্ঞতার আলোকে এ ধারাবাহিক লিখা যাতে তোমাদেরকে কিছুটা হলেও আলোর দিশা দিতে পারি।

আমার আগের উপদেশ :
http://www.somewhereinblog.net/blog/belablog/29904526

যা বলছিলাম,

পাবলিক বা ভালো প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে যদি ঢুকতে পারো তাহলে ও কথা আছে, কোন সাবজেক্ট পেলা তা একটা বড় বিষয়। কারন বাংলাদেশে চাকরীর বাজার ভয়াবহ, ইউনিভার্সিটি থেকে পাশ করলেই যে চাকরী পাবা তার কোন গ্যারেন্টি নেই কোনক্রমেই। অনেক ভালো সাবজেক্ট থেকে ভালো রেজাল্ট করেও মামা চাচার রেফারেন্স না থাকলে চাকরী পাওয়া কঠিন। তাই তোমাদের যাদের মামা চাচার রেফারেন্স নাই তাদের জন্য উপদেশ, আজকের লিখা;

এক : চোখ বন্ধ করে বিসিএস এর জন্য ট্রাই করো। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবা আর বিসিএস প্রিলিমিনারি ও মেইন গাইড কিনবা। সময় পেলেই পড়বা, প্রয়োজনীয় নোট করবা, প্রতিদিন পেপার পড়বা আর নিজেকে যেকোন নিউজে আপটুডেট রাখবা। বিসিএস হয়ে যাবে আশা করি।

দুই: যদি বিসিএস না হয় প্রথমবারে তাহলে অবশ্যই হতাশ হবে না। আবার চেস্টা করবা অবশ্যই সঙ্গে প্রাইভেট জবের চেস্টা করবা। যেকোন জবকেই ছোট করে দেখবা না। যেকোন অভিজ্ঞতাই জীবনে কোন না কোন কাজে লাগে। আগে চাকরী তারপর হিসাব তা ছোট না বড়।

তিন: কাজের ক্ষেত্রে.... পরিশ্রম, সততা, কাজের প্রতি ডেডিকেশান, সিনসিরিয়াটি, সদ্বব্যবহার, সবার সঙ্গে সুস্ম্পর্ক তোমাকে অবশ্যই ভালো জায়গায় নিয়ে যাবে। সব প্রতিষ্ঠানেই অনেক পলিটিক্স থাকে আর নিজেকে তার থেকে দূরে রাখাই বুদ্ধিমানের কাজ।

চার: চাকরী জীবনের প্রথমেই টাকার পিছনে দৌড়াতে হয় না। আগে নিজেকে এ ফিল্ডে প্রতিস্ঠিত কর দেখবে টাকা তোমার পিছনে এমনিতেই দৈাড়াবে। কারন বাংলাদেশে এখনো অভিজ্ঞতার দাম আছে। ভালো কাজ জানলে চাকরীই কিছুদিন পর তোমার পিছনে ছুটবে।

এবার আসি আসল কথায়... চাকরী খুঁজলেই যে চাকরী হবে তা কিন্তু না। কাজেই হতাশ হবে না কিছুতেই। ওয়েব সাইট, পেপার, অনেকভাবেই চাকরীর খোঁজ তুমি পাবা। তবে ভালো হয় বিভিন্ন প্রতিস্ঠানে তোমার সিভি ড্রপ করা। নেক্সট্ লিখায় তোমাদের জন্য কিছু ওয়েব সাইট এড্রেস নিয়ে আসবো, সেখানে তোমরা সিভি ড্রপ করে রাখলে প্রয়োজনে তারা তোমাকে ডাকবে।

এর পর আসি সিভি প্রসঙ্গে, অবশ্যই একটি চমৎকার সিভি তৈরী করবা তোমরা। নেক্সট্ কোন লিখায় তোমাদের জন্য সিভি তৈরীর গাইড লাইন নিয়ে আসবো আশা করি।

চাকরীর বিকল্প অনেক কিছুই আছে...... সেটা তোমাকেই খুজেঁ দেখতে হবে... .............।

আজ এটুকুই থাক......... চাকরীর বিকল্প ও ওয়েব সাইট এড্রেস নিয়ে পরের পর্ব লিখি ......... কি বলো.........

মন্তব্য ১৮ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ দুপুর ১২:১৫

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: আপনার লেখাটি সময়ের চাহিদার সংগে সংগতিপূর্ণ সুন্দর একটি লেখা।






ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন।

১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ দুপুর ১২:৪১

সোহানী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ... আমি চাই আমাদের তরুনরা সবসময় যেন ভালো থাকে...

২| ১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ দুপুর ১২:২১

ট্যটলার বলেছেন: ভালো উপদেশ

১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ দুপুর ১২:৪২

সোহানী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ.......

৩| ১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ দুপুর ১২:২৮

আরজু পনি বলেছেন:

আমাদের জীবনের অনেকখানি দরকারী সময় ফাউ নষ্ট হয়ে যায় চাকুরীর পেছনে দৌড়াতে যেয়ে ...

খুব কাজের পোস্ট...প্রিয়তে রাখলাম ।।

১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ দুপুর ১২:৪৩

সোহানী বলেছেন: অনেকটা সত্য.......... চাকুরীর পেছনে দৌড়ায়ে ও যদি ভালো কিছু জোটে.............

অনেক ধন্যবাদ.........

৪| ১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ সন্ধ্যা ৬:১৮

শুঁটকি মাছ বলেছেন: পাবলিক বা ভালো প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে যদি ঢুকতে পারো তাহলে ও কথা আছে, কোন সাবজেক্ট পেলা তা একটা বড় বিষয়। কারন বাংলাদেশে চাকরীর বাজার ভয়াবহ, ইউনিভার্সিটি থেকে পাশ করলেই যে চাকরী পাবা তার কোন গ্যারেন্টি নেই কোনক্রমেই। অনেক ভালো সাবজেক্ট থেকে ভালো রেজাল্ট করেও মামা চাচার রেফারেন্স না থাকলে চাকরী পাওয়া কঠিন। তাই তোমাদের যাদের মামা চাচার রেফারেন্স নাই তাদের জন্য উপদেশ, আজকের লিখা;

এক : চোখ বন্ধ করে বিসিএস এর জন্য ট্রাই করো। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবা আর বিসিএস প্রিলিমিনারি ও মেইন গাইড কিনবা। সময় পেলেই পড়বা, প্রয়োজনীয় নোট করবা, প্রতিদিন পেপার পড়বা আর নিজেকে যেকোন নিউজে আপটুডেট রাখবা। বিসিএস হয়ে যাবে আশা করি।

পড়ি একখান বিশ্ববিদ্যালয়ে,সাবজেক্ট খারাপ না।কিন্তু কথা হইল বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার পরেই পড়ালেখায় আর মন বসে না।এদিকে তেমন মামা চাচাও নাই। :-< এক আত্মীয়ের কাছ থেকে দুনিয়ার বই জোগার করে এনেছি। সেগুলো এখন বুক সেলফে পরে আছে।একটুও ধরতে ইচ্ছা হয়না।জানি না কপালে কি আছে।দুই বছর পরের কথা ভাবলেই দুঃশ্চিন্তা হয়,কিন্তু পড়ালেখা করতে ইচ্ছা করেনা। :((
বেশ ভাল পোস্ট দিয়েছেন আপু।ভাল থাকবেন।

১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৩ সকাল ১০:৪৬

সোহানী বলেছেন: কিন্তু পড়ালেখা করতে ইচ্ছা করেনা... এ ইচ্ছাটা কিন্তু ভয়াবহ। শুধু মনে রেখ, তোমার জীবন শুধুই তোমর অন্য কারো নয়। এর ভালো মন্দ দেখার দায়িত্ব কিন্তু তোমার, এর গড়ার দায়িত্বও কিন্তু তোমার। আজ যে সময় ন্স্ট করছো তা কিন্তু আর ফিরে পাবা না।

ভালো থেকো আর নিজেকে বোঝাও............

৫| ১৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৩ সন্ধ্যা ৭:২১

নিষ্ঠুর পৃথিবী বলেছেন: চমৎকার ...................
ভালো লাগলো।

১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৩ সকাল ১০:৪৭

সোহানী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ... তোমাদের ভালো লাগাই আমার লেকার স্বার্থকতা...

৬| ১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৩ ভোর ৪:৩০

রেজওয়ানা আলী তনিমা বলেছেন: কাজের পোষ্ট , পরেরটার অপেক্ষায় রইলাম........।

১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৩ সকাল ১০:৪৭

সোহানী বলেছেন: হুম........ ঠিক আছে...........

৭| ১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৩ দুপুর ২:০৪

নাজিম-উদ-দৌলা বলেছেন: চমৎকার উদ্যোগ নিয়েছেন। অনেকের উপকারে আসবে এই পোষ্টগুলো।

১৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৩ দুপুর ২:০৬

সোহানী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ...........

৮| ২০ শে ডিসেম্বর, ২০১৩ সন্ধ্যা ৬:৪১

অস্পিসাস প্রেইস বলেছেন:

চমৎকার উদ্যোগ নিয়েছেন। অনেকের উপকারে আসবে এই পোষ্টগুলো।কাজের পোষ্ট , পরেরটার অপেক্ষায় রইলাম........।

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৩ সকাল ১০:১২

সোহানী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ...........

৯| ১০ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:১৮

খায়রুল আহসান বলেছেন: কোন জবকেই ছোট করে দেখবা না - এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ কথা বলেছেন। যে সাম্রাজ্যে একদিন সূর্য অস্ত যেত না, সেই ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী এক সময় বাসের কন্ডাক্টর হিসেবে কাজ করেছিলেন। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টার এক সময় চিনাবাদাম বিক্রী করতেন।
চাকুরী জীবনের প্রথমেই টাকার পেছনে দৌড়াতে হয় না - এটাও আরেকটা ভাল উপদেশ। যে কোন চাকুরীর প্রারম্ভিক সময়টাতে নিজেকে মেলে ধরতে হয় কর্মদক্ষতা, সততা, নিষ্ঠা আর অধ্যবসায় দিয়ে।
পোস্টে প্লাস + +

১৪ ই ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ১০:৪৪

সোহানী বলেছেন: প্রিয় খায়রুল ভাই, আমার পুরোনো পোস্টে আপনার মন্তব্যগুলো দেখলে কি যে ভালোলাগে.....। অনেকদিন পর নিজের লিখাগুলো পড়ার সুযোগ পাই।

বিশ্বাস করেন, দেশের বেকার সমস্যা নিয়ে আমি খুব কষ্ট পাই। কি অসাধারন মেধাবী কর্মঠ এ যুব সমাজের কি অপচয় করছি আমরা। একটু যদি কেউ এদিক তাকাতো তাহলে দেশকে কোথায় নিয়ে যেতো এ তরুন তরুনীরা। কেউ ভাবে না ওদেরকে নিয়ে, কেউই না...।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.