নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

হাজার হাজার অসাধারন লেখক+ব্লগারের মাঝে আমি এক ক্ষুদ্র ব্লগার। পৈত্রিক সূত্রে পাওয়া লেখালেখির গুণটা চালিয়ে যাচ্ছি ব্লগ লিখে... যখন যা দেখি, যা মনে দাগ কাটে তা লিখি এই ব্লগে।

সোহানী

আমি অতি বিরক্ত হয়ে আমার অনেক লিখাই ড্রাফটে নিয়েছি কারন সামুতে আমার কিছু ভাবনা শেয়ার করছি, আর এ ভাবনা গুলো আমার অনুমতি ব্যাতিরেকে কপি না করার অনুরোধ করেছিলাম কিন্তু যত্রতত্র আমার লিখার কপি পেস্ট দেখেই যাচ্ছি দিনের পর দিন।

সোহানী › বিস্তারিত পোস্টঃ

বেকার বন্ধুদের জন্য ফ্রি উপদেশ (সিভি রাইটিং) ........ পর্ব-৭

১৮ ই মার্চ, ২০১৪ সকাল ১১:৪৫

অনেক অনেক দু:খিত দেরি করে লিখার জন্য। আবার ফিরে আসলাম তোমাদেরকে কিছু উপদেশ দেয়ার জন্য। আমার এবারের পর্ব সিভি রাইটিং এর উপর। পরে আরো ব্যস্ত হয়ে পড়বো তাই চাকরীর বাজারের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় অধ্যায় নিয়ে এবার আমার কিছু কথা কিছু সাজেশান।

তুমি যখন কোথাও চাকরীর জন্য এপ্লাই করো তখন তারা যেমন তোমাকে চিনে না তেমনি তুমিও তাদের চিনোনা। তোমাদের পরিচয়ের মাধ্যম একমাত্র সিভি। তাই সিভি একটি অসম্ভব প্রয়োজনীয় অধ্যায় চাকরীর বাজারে। সিভির মাধ্যমেই ব্যাক্তি তুমিকে যেমন পরিচয় করাবে তেমনি একাডেমিক ছাত্র হিসেবেও তোমার পরিচয় তুলে ধরতে হবে। তাই সিভি তৈরীতে হতে হবে সতর্ক।

সিভি রাইটিং এর ক্ষেত্রে আমার কিছু উপদেশ অবশ্যই মনে রাখবা;

১. ইচ্ছাকৃত ভুল বা মিথ্যা তথ্য কখনই সিভিতে দিবে না। সিভিতে যদি কখনো কোন মিখ্যা তথ্য দাও হয়তো কোন এক সময় সেই মিথ্যা তথ্য তোমার জীবনকে বিষিয়ে তুলতে পারে, তোমার ক্যারিয়ার ধ্বংস করতে পারে। তাই আমি মনে করি, তুমি যা তাই তুলে ধরার চেস্টা করবা সিভিতে। মনে রেখ সত্যের কোন বিকল্প নেই। চেস্টা করলে জীবনে তুমি সফল হবেই তাই মিথ্যা দিয়ে জীবন শুরু করো না কখনোই।

২. প্রয়োজনের অতিরিক্ত তথ্যও দিবে না। যেটা অপ্রয়োজনীয় সে ধরনের তথ্য কখনই দিবে না তুমি সিভিতে। অনেকে সিভি ভারী করার জন্য অপ্রয়োজনীয় তথ্য দেয় যা নিয়োগকারীর কাছে বিরক্তিকর। তোমার হবি, ভালো লাগা, মন্দ লাগা এসব তথ্য খুব একটা প্রয়োজনীয় নয় তাই অযথা সিভিতে লিখা কেন??? সিভি হবে সর্ট বাট তথ্যবহুল।

৩. ভাষা হবে মার্জিত, সাবলিল, ভুল বিহীন। ভুল ইংরেজী কোনক্রমেই ইউজ করবে না। সিভিতে ভুল ইংরেজী, যা তোমার সম্পর্কে ইনিশিয়াল ইম্প্রেশান খারাপ করে দিবে। সিভি লিখার পর ইংরেজীতে ভালো কাউকে দেখিয়ে নিবা। গ্রামার/ স্পেলিং চেক করে নিবা।

৪) লিখার ফন্ট ও সাইজ একই হতে হবে। বিভিন্ন সাইজ বা বিভিন্ন ফন্ট ইউজ করলে দৃস্টিকটু লাগে । খুব কালার ইউজ করবে না, ব্লাক এন্ড হোইট বেস্ট। অযথা ডিজাইন করবে না। ফন্টের সাইজের ক্ষেত্রে ১০ থেকে ১২ আর ফন্ট এরিয়াল বা টাইমস্ নিউ রোমান ইউজ করতে পারো।

৫) এক কপি পার্সপোর্ট সাইজের ছবি ডান সাইডের একবারে উপরে স্কেন করতে পারো। অনেক ক্ষেত্রে ছবি চায় না তাই সিভির ছবিই উপযুক্ত তবে যারা ছবি চাই তাদের জন্য সিভিতে অবশ্যই এক কপি পার্সপোর্ট সাইজের ছবি এটাচড্ করবা।

৬) বাড়তি কাগজ যেমন সার্টিফিকেট যদি না চায় তাহলে দেয়ার কোন প্রয়োজন নেই। শুধুমাত্র চাইলেই দিবা। সরকারী বিজ্ঞাপনগুলোতে সব সাটিফিকেট চাই কিন্ত ইর্ন্টান্যাশানাল জবের ক্ষেত্রে শুধুমাত্র সিভিই যথেস্ট। ইনিশিয়াল সিলেক্ট হলে দেন সার্টিফিকেট দেখলেও দেখতে পারে।

এবার আসি সিভি তৈরী করবা কিভাবে বা সিভি তৈরীর বেসিক কিছু অধ্যায়:

আজ থাক ... বাকী কথা পরের পর্বে বলি .. কি বলো...........

.. আগের পর্ব যাদি পড়তে চাও.........
http://www.somewhereinblog.net/blog/belablog/29915625

মন্তব্য ১৯ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (১৯) মন্তব্য লিখুন

১| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১২:০০

হাসিব০৭ বলেছেন: গুড সাজেশন

১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১২:১১

সোহানী বলেছেন: মেনি থ্যাংকস্..........

২| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১২:০১

ঢাকাবাসী বলেছেন: ভাল জিনিস অনেকের কাজে লাগবে।

১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১২:১১

সোহানী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ..............

৩| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১:২৬

উজবুক ইশতি বলেছেন: ধন্যবাদ, সামনের বছর পাস করে বের হব, তখন অনেক কাজে লাগবে

১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১:৩০

সোহানী বলেছেন: ঠিক তাই.....................

৪| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১:৫২

রাশেদ অনু বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে এমন গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়ের উপর আলকপাত করার জন্য।
কর্মজীবনের প্রাথমিক ধাপ অতিক্রমে অনেকেই আশা করি আপনার এই সিরিজের পোস্ট থেকে উপকৃত হবেন।
শুভেচ্ছা সতত।

১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১:৫৬

সোহানী বলেছেন: হুম.... কিছু করার চেস্টা করছি ওদের জন্য। সরকার পর্যায়তো মাথাব্যাথা নেই তাই ব্যাক্তি পর্যায়ে ছাড়া ওদের পাশে কে দাড়াবে বলুন .......

৫| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ১:৫৪

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: প্রায় ১ মাস পর আবার কোন একটা কাজের পোষ্ট নিয়ে এলেন। আপনার পোষ্টটি আমার ভাল লেগেছে।

১৮ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:০০

সোহানী বলেছেন: মাঝে মাসখানেক দেশের বাইরে ছিলাম.... এসেই দৈাড়ের উপর ছিলাম তাই দেরি হলো লিখতে.....

অনেক অনেক ধন্যবাদ ভালোলাগার জন্য............

৬| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৩:২৩

আহমেদুল আরেফিন আসিফ বলেছেন: B-)) B-)) B-)) B-)) B-))

১৮ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৪:০২

সোহানী বলেছেন: মানে কি... এতো গুরুগম্ভীর পোস্টে দাঁত কেলিয়ে হাসার কি ঘটনা ঘটলো.........................................

৭| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৪:৪৭

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: চমৎকার!! দিয়ে যান যত উপদেশ যদি কাজে লাগে বেকারদের।

১৯ শে মার্চ, ২০১৪ সকাল ১০:৩৭

সোহানী বলেছেন: কাজে তো কোন না কোন সময় লাগবেই...... আজ না হয় কাল ....

৮| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ৮:৩৫

শুঁটকি মাছ বলেছেন: আপনার পোস্টগুলা আসলেই ভাল্লাগে আপু!!!

১৯ শে মার্চ, ২০১৪ সকাল ১০:৩৮

সোহানী বলেছেন: অনেক অনেক ধন্যবাদ.... কিনতু এতো নাম থাকতে আপনার নাম শুটকি মাছ কেন !!! এটা কি আপনার খুব প্রিয় ???

৯| ১৮ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ৯:১৩

নিশাত তাসনিম বলেছেন: ধন্যবাদ।

১৯ শে মার্চ, ২০১৪ সকাল ১০:৩৯

সোহানী বলেছেন: আপনাকে ও ধন্যবাদ উপদেশগুলো পড়ার জন্য.....

১০| ৩১ শে মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৩:৩৮

সরকার পলাশ বলেছেন: ছবি সংযুক্ত করার ক্ষেত্রে কি করা উচিত? ছবি সহ কি সিভি প্রিন্ট করবো নাকি আলাদা ভাবে ছবি সিভিতে লাগিয়ে দিব?

০১ লা এপ্রিল, ২০১৪ সকাল ১১:০৫

সোহানী বলেছেন: এটা ডিপেন্ড করে রিকোয়ারমেন্ট এর উপর। যদি কিছু বলা না থাকে তাহলে ছবির উপর প্রিন্ট করাই ভালো, আলাদা ছবি দেয়ার যুক্তি নেই আর যদি স্পেসিফিক বলে দেয় ছবি লাগবে তাহলে অবশ্যই দিতে হবে। সাধারনত সরকারী সার্কুলারগুলিতে আলাদা ছবি চায়....

অনেক ধন্যবাদ............

১১| ০৯ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:১৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: জীবনের আর সকল ক্ষেত্রে যেমন, "অনেস্টি ইজ দ্য বেস্ট পলিসি" কথাটা তেমনি সিভি লিখনের ক্ষেত্রেও সমভাবে প্রযোজ্য।
পাঠকের জন্য উপকারী এ পোস্টে +

১০ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৩০

সোহানী বলেছেন: অনেক অনেক ধন্যবাদ প্রিয় খায়রুল ভাই।

হাঁ, সত্য কথন, সত্য পথে চলাই শ্রেষ্ঠ পথ। সাক্সেস জীবনে হয়তো আসবে কিন্তু মিথ্যা দিয়ে জীবন শুরু করা তা মিথ্যে দিয়ে জীবন চলা আমি কোনভাবেই বিশ্বাস করি না।

অনেক অনেক ভালো থাকেন। বরাবরের মতই বিজি তাই নিয়ম করে ব্লগে আসতে পারি না। তাই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

১২| ১০ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৪৪

সুপারডুপার বলেছেন: আপনি অনেক ভালোই গাইড করেছেন।

§ একটা চাকরির বিজ্ঞাপনে দেওয়া সব প্রয়োজনীয় দক্ষতা হয়তো মেলানো সম্ভব হয় না। তাই কিছু দক্ষতা, বিজ্ঞাপনে দেওয়া সব প্রয়োজনীয় দক্ষতার সাথে মিলিয়ে লিখতে হয়।পরে ওই দক্ষতার উপর প্রয়োজনীয় স্টাডি করে নিতে হয়। না হলে ইন্টারভিউ-এর ডাক-ই পাওয়া যাবে না। এটা একভাবে ধরলে মিথ্যা। অন্যভাবে ধরলে এটা জব ওরিয়েন্টেড সিভি।

§ আর বাংলাদেশের মত মুখ গোমরা করা পাসপোর্ট ছবি না দিয়ে , ইর্ন্টান্যাশানাল সিভির মত ফটো দেয়া উচিত।

§ সর্বোপরি বেকার থেকে উদ্ধার পাওয়ার উপায় একটায় : Never Give Up / জব ওরিয়েন্টেড সিভি দিয়ে প্রতিনিয়ত দরখাস্ত করে যাওয়া।

১০ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৩৪

সোহানী বলেছেন: আপনি হয়তো ভেখয়াল করবেন এটি ২০১৪ এর লিখা। আর এখন ২০১৯!! ২০১৪ তে যেভাবে লিখেছি তা ২০১৯ অঅমি কোনভাবেই লিখতাম না। অনেক কিছুই চেইন্জ হয়েছে।

লিখাটা শেয়ার করেছিলাম প্রিয় খায়রুল ভাই এর আগ্রহে। আর হাতে যথেষ্ট সময় না থাকার কারনে এডিটও করতে পারছি না। হয়তো এক সময় করবো...........

ভালো থাকেন সুপারডুপার। আপনার সাজেশান অবশ্যই ভালো।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.