নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি এম. বোরহান উদ্দিন রতন, জন্ম : বাংলাদেশের ফেনী জেলায় দাগনভুঁইয়া উপজেলায়, পেশায় একজন প্রফেশনাল আইটি এনালিষ্ট এবং গ্রাফিক্স ডিজাইনার ও চিত্রশিল্পী । সেই সাথে সামাজিক, ক্রীড়া ও রাজনৈতিক সংগঠনের সাথে যুক্ত আছি ।

এম. বোরহান উদ্দিন রতন

মানুষ হয়ে ওঠাই বড় চ্যালেঞ্জ

এম. বোরহান উদ্দিন রতন › বিস্তারিত পোস্টঃ

যে দল ও জোটে ৫০+ বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রার্থী থাকে সে দল ও জোটকে বিভাবে স্বাধীনতার বিপক্ষের শক্তি বলে বিভক্ত করে ?

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৫

আসন্ন নির্বাচনে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ৩০০ আসনের প্রার্থীর ভিতর ৫০ জনই বীর মুক্তিযোদ্ধা
জেনে নিন তাদের নাম সহ ঠিকানা :

আবারও প্রমাণিত হলো বিএনপি তথাকথিত মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তি নয়...।। মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দেওয়া বীর সৈনিকদের দল ।।

ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে ঐক্যফ্রন্ট ৪৮ জন বীর মুক্তিযুদ্ধা নির্বাচন করছে তারা হলেন ।
১। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ঠাকুরগাও-১
২। কর্নেল অলি আহমেদ বীর বিক্রম চট্টগ্রাম -১৪
৩। সৈয়দ ইব্রাহীম বীর প্রতীক। -চট্টগ্রাম-৫।
৪। আবদুস সালাম-ঢাকা-১৩।
৫। আ স ম আব্দুর রব-লক্ষ্মীপুর-৪।
৬ ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীর প্রতীক-ঝালকাঠি-১।
৭। ইঞ্জিনিয়ার শামসুদ্দীন-ময়মনসিংহ-৬।
৮। খুররম খান-ময়মনসিংহ-৯।
৯। শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন-মুন্সীগঞ্জ-১।
১০। মেজর অবঃ হাফিজ উদ্দিন বীর বিক্রম।-ভোলা-৩।
১১। আবু সাইয়িদ-পাবনা-১।
১২। সরদার সাখাওয়াত হোসেন বকুল-নরসিংদী-৪
১৩ মনিরুল হক চৌধুরী-কুমিল্লা-১০।
১৪। ভিপি জয়নাল-ফেনী-২।
১৫। মনিরুজ্জামান মন্টু-নীলফামারী-২।
১৬। ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ-নোয়াখালী-৫।
১৭। জয়নাল আবেদীন ফারুক-নোয়াখালী-২।
১৮। নিতাই রয় চৌধুরী-মাগুরা-২।
১৯। মো আখতারুজ্জামান মিয়া-দিনাজপু-৪।
২০। মোস্তফা মহমিন মন্টু-ঢাকা-৭।
২১। ইঞ্জিনিয়ার মুসলিম উদ্দিন-ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৪।
২২। গয়েশ্বর চন্দ্র রায়-ঢাকা-৩।
২৩। মজিবর রহমান সরোয়ার-বরিশাল-৫।
২৪। মেজর অবঃ আক্তারুজ্জামান-কিশোরগঞ্জ-২।
২৫। ড খন্দকার মোশারফ হোসেন-কুমিল্লা-১-২।
২৬। শাহাজাহান মিয়া-চাঁপাই নবাবগনজ-১।
২৭। আলমগীর কবীর-নওগাঁ-৬।
২৮। নজির হোসেন-সুনামগঞ্জ-১।
২৯। নাছির চৌধুরী-সুনামগঞ্জ-২।
৩০। কাজী মনিরুজ্জামান-নারায়ণগঞ্জ-১।
৩১। মোহাম্মদ ইউনুস-কুমিল্লা-৫।
৩২। আব্দুল আলিম বাগেরহাট ০৪।
৩৩।মো: ফজলুর রহমান কিশোরগঞ্জ-৪
৩৪।খোন্দকার আবু আশফাক ঢাকা-১
৩৫।মো: আহসান উল্লাহ হাসান ঢাকা-১৬
৩৬।সরদার এ কে এম নাসিরউদ্দিন কালু শরীয়তপুর-১
৩৭।মো:রেজাউল করিম খান চুন্নু কিশোরগঞ্জ-১
৩৮।সরদার সরফুদ্দিন আহমেদ বরিশাল-২
৩৯।শাহ মোহাম্মদ আবু জাফর ফরিদপুর -১
৪০। দেওয়ান মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ঢাকা-১৯
৪১। তমিজ উদ্দিন ঢাকা-২০
৪৩। আবদুল্লাহ আল নোমান-চট্টগ্রাম-১০।
৪৪। সুব্রত চৌধুরী
৪৫/ মিজা আব্বাস ঢাকা- ৯ ।
৪৬ । নাসিরুল হক সাবু -রাজবাড়ী ২ ।
৪৭/সুলতান মনসুর মৌলবীবাজার ।
৪৮/মাহমুদুর রহমান মান্না বগুড়া ।
৪৯। গাজী নজরুল ইসলাম সাতক্ষীরা
৫০। আবদুল হাই ( মুন্সিগঞ্জ জেলা )

এড়াও যেসব বীর মুক্তিযোদ্ধারা ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন পরিচলনা করছেন নির্বাচন করছেন না তারা হলেন
৫১ । ড কামাল হোসেন
৫২ । ড জাফরুল্লাহ চৌধুরী
৫৩। বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী
৫৪। সৈয়দ নজরুল ইসলাম খান

এতে প্রমাণিত হয় বিএনপি এবং ২০ দলীয় জোট ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে মুক্তিযুদ্ধে স্বপক্ষের শক্তি নয় বরং বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মানিই মুক্তিযোদ্ধাদের দল ও জোট ।

এবং ১৯৭১ সালে দুই ছোট পুত্র সন্তান সহ আপোসহীন দেশনেত্রীকে গ্রফতার করে ক্যান্টনমেন্টে বন্দি করে পাকিস্তানি হানাদাররা যাতে মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ জিয়া পরিবার ও ছেলেদের মায়ায় মুক্তিযুদ্ধ থেকে সরে আসেন ।


এবার আপনার বিবেককে প্রশ্ন করুন যারা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি দাবি করে ৪৭ বছর পর দেশকে বিভক্ত করতে চায় সে দলে মাত্র ২১ জন মুক্তিযোদ্ধা এবং ১১ জন কুখ্যাত রাজাকার ও যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সদস্যকে নমিনেশন দেয়া হলো নৌকা প্রতীকে । পরবর্তী তাদের তথ্য তুলে ধরা হবে ।

মন্তব্য ১৪ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: আমার ভোট, আমি কাউরে দিমু না।

২| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:১৩

এম. বোরহান উদ্দিন রতন বলেছেন: আর এটাকেই বলে গণতন্ত্র, আমি আপনার পছন্দের প্রতি শ্রদ্ধাশীল

৩| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:১৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


যেসব মুক্তিযোদ্ধা বিএনপি'র হয়ে রাজনীতি করেছেন, তাঁরা মুক্তিযুদ্ধে অবদানের বিনিময়ে দেশের সম্পদ ও সুবিধাগুলো দখল করেছেন; উনাদের শাস্তির দরকার আছে।

৪| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:১৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিএনপি'তে ৫০ জন মুক্তিযোদ্ধা ও ৫৫ হাজার রাজাকার আছে! আপনি ৫০ জনের একজন, নাকি ৫৫ হাজারের একজন?

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৪২

এম. বোরহান উদ্দিন রতন বলেছেন: কারো বাংলা ভাষা সম্পর্কে বেসিক ধারণা না থাকলে তার উল্টাপাল্টা প্রশ্নের উত্তর না দেয়াই ভালো। আমার লিখার কোন জায়গায় বলছি বিএনপিতে শুধু ৫০ জন মুক্তিযোদ্ধা আছে ? বিএনপিতে মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা আমার জানা নেই তবে তা লক্ষ ছাড়িয়ে যাবে ।

পুরো বিএনপিই তো মুক্তিযোদ্ধার দল, আমি বুঝিয়েছি সারাদেশে আসন্ন নির্বাচনে ৩০০ জন প্রার্থীর মধ্যে ৫০ এর উপরে মুক্তিযোদ্ধা যারা পরীক্ষিত বীর মুক্তিযোদ্ধা অপর দিকে আওয়ামীলীগে ৩০০ জনের ভিতর মুক্তিযোদ্ধা ২৩ জন ।

৫| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৮:২৯

নীল আকাশ বলেছেন: দেশে এখন নব্য এক দল রাজাকার তৈরী হয়েছে। এরা পথে ঘাটে বাথরুমে সব জায়গায় মুক্তিযুদ্ধ বিক্রি করে পেটের ভাত যোগার করে। আপনি যদি এই সব সত্য কাহিনী এভাবে তুলে দেন তো এদের মরিচ পোড়ার জ্বালা হবেই। জনগনের চোখ খুলে গেলে ধাপ্পাবাজি ব্যবসা তো শেষ!
আমি সাধারন মানুষ, যদি মিলিটারী হতাম, তাহলে এই পোষ্ট দেবার জন্য আপনাকে স্যালুট দিতাম।
খুব করে আন্তরিক ধন্যবাদ নেবেন ভাই। দেশে আজকাল সত্য কথা বলার লোক দিন দিন কমে যাচ্ছে....
শুভ কামনা রইল!

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৪২

এম. বোরহান উদ্দিন রতন বলেছেন: আপনার জন্য থাকলো অকৃত্রিম শুভ কামনা

৬| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ৯:০০

জগতারন বলেছেন:
চাঁদগাজী বলেছেন:
বিএনপি'তে ৫০ জন মুক্তিযোদ্ধা ও ৫৫ হাজার রাজাকার আছে!
আপনি ৫০ জনের একজন, নাকি ৫৫ হাজারের একজন ?


ব্লগার এম. বোরহান উদ্দিন রতন উত্তর দেয়া না ক্যা ???

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৪০

এম. বোরহান উদ্দিন রতন বলেছেন: কারো বাংলা ভাষা সম্পর্কে বেসিক ধারণা না থাকলে তার উল্টাপাল্টা প্রশ্নের উত্তর না দেয়াই ভালো। আমার লিখার কোন জায়গায় বলছি বিএনপিতে শুধু ৫০ জন মুক্তিযোদ্ধা আছে ?

পুরো বিএনপিই তো মুক্তিযোদ্ধার দল, আমি বুঝিয়েছি সারাদেশে আসন্ন নির্বাচনে ৩০০ জন প্রার্থীর মধ্যে ৫০ এর উপরে মুক্তিযোদ্ধা যারা পরীক্ষিত বীর মুক্তিযোদ্ধা অপর দিকে আওয়ামীলীগে ৩০০ জনের ভিতর মুক্তিযোদ্ধা ২৩ জন ।

৭| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৩৫

সাইন বোর্ড বলেছেন: যারা চেতনার ফেরিওয়ালা তারা অন্যদের ভাগ দেবেনা, এটাই স্বাভাবিক ।

৮| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ রাত ১০:৪৩

এম. বোরহান উদ্দিন রতন বলেছেন: একদম উচিত মন্তব্য করেছেন # সাইন বোর্ড

৯| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ৯:২৭

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: নিজের পক্ষে না হলেই স্বাধীনতার বিপক্ষ শক্তি!!!!! :(

১০| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ৯:৩১

খাঁজা বাবা বলেছেন: বি এন পি মুক্তিযুদ্ধের রণাঙ্গনের দল, তারা স্বপক্ষের শক্তি নয়।
আওয়ামীলিগ স্বপক্ষের শক্তি বলে নিজেদের দাবি করে। তারা শুধু সাইড বেঞ্চে বসে স্বপক্ষে তালি দেয়া দল।
আর তাদের মধ্যে যারা দাবি করেন মুক্তিযুদ্ধ করেছেন, তারা সোনাগাছির যোদ্ধা, এদের মধ্যে অনেকে সোনাগাছির রনাঙ্গনে পুলিশের কাছে আটক হওয়ার পর বাংলাদেশ সরকারের ঘনিষ্টজন হিসেবে পরিচয় দিয়ে পার পেয়েছিলেন বলে শোনা যায়।

১১| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৮ সকাল ১০:৩৩

বাংলার মেলা বলেছেন: ৬। ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীরপ্রতীক না, উনি বীরোত্তম।
১৫ নম্বরে মনিরুজ্জান মন্টু এবং ৪৯ নম্বরে গাজী নজরুল ইসলাম যদিও খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা, তবুও তারা জামায়াত করার কারণে রাজাকার হয়ে গেছেন।

থিওরীঃ একজন রাজাকার চিরদিনই রাজাকার, কিন্তু একজন মুক্তিযোদ্ধা সারা জীবন মুক্তিযোদ্ধা নন। হাওয়ার সাথে সাথে স্ট্যাটাস বদলায়।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.