নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পদহীনদের জন্য শিক্ষাই সম্পদ

চাঁদগাজী

শিক্ষা, টেকনোলোজী, সামাজিক অর্থনীতি ও রাজনীতি জাতিকে এগিয়ে নেবে।

চাঁদগাজী › বিস্তারিত পোস্টঃ

বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়নের নামে গোজামিল টোজামিল হচ্ছে নাকি?

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৪৯



বেগম রওশন এরশাদকে বিরোধীদলের নেত্রী, সাহারা বেগমকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, কি একজন শিরীনকে সাহেবাকে স্পীকার বানানোটা, ঠিক নারীর ক্ষমতায়ন বলে মনে হচ্ছে না; মনে হয়, ইহা নারী ও পুরুষদের সমানভাবে ক্ষতি করার অপর নাম, কিংবা মমতায়ন। নারীর ক্ষমতায়ন হতে হবে, দেশের পুরুষদের যোগ্যতার সাথে স্কেল ঠিক রেখে, সেই স্তরেই নারীকে সঠিক পদ দেয়া; হঠাৎ করে, কোন এক বিশাল পদে যেকোন এক মহিলাকে বসিয়ে দিলে উহা ক্ষমতায়নের মাঝে পড়ে না। আগে একবার দীপুমনি'কে ফরেন মিনিষ্টার বানানো হয়েছিলো, তখন হয়তো কারণ ছিলো, শেখ হাসিনা জেলে থাকার সময় দীপুমণি উনাকে দেখতে যেতেন; এবার কি কারণে উনাকে শিক্ষামন্ত্রী করা হয়েছে, সেটা জানতে হলে 'রাশি গণনাকারীদের' কাছে যেতে হবে, হয়তো।

টেকনাফ অন্চলে, ২ জন মানুষ বসবাস করেন: বদি সাহেব ও উনার স্ত্রী; বদি সাহেব এবার ওমরা হজ্জ করতে যাওয়ায় , মনে হয়, উনার স্ত্রী এমপি হয়ে গেছেন; এটা নারীর ক্ষমতায়ন হিসেবে উল্লখযোগ্য হতে পারে; উনাদের স্বামীস্ত্রীর মাঝে যোগ্যতার মিল থাকা সম্ভব! মহিলার নামটা কি, তাও জানি না; একজন এমপি'কে বদির বউ বদির বউ ডাকছি; ইহা ভালো শোনায় না।

ভারতের মতো যায়গায়, ১ম বার ইন্দিরা গান্ধীর মন্ত্রীত্ব লাভ ছিল ভারতের নারীদের পক্ষে ক্ষমতায়ন, উনি নারীদের জন্য কতটুকু করেছিলেন, ভারতীয় মহিলারা বলতে পারবেন; তবে, দলিত থেকে মলিত সবাইকে ২ হাত জোড় করে, নমস্তে বলতেন ইন্দিরা গান্ধী সব সময়। ইন্দিরা গান্ধী জন্মছিলেন সেলোয়ার কামিজের এলাকায়; কিন্তু তিনি শাড়ী পরতেন; দেখলে, নারীর মতন লাগে!

মার্কেলের চ্যানচেলর হওয়া নারীর ক্ষমতায়ন হিসেবে নেয়া যায়; উনার যোগ্যতা, সফলতা বিরাট; উনার অবস্হা দেখলে, মনে হয়, জার্মানীতে পুরুষের ক্ষমতায়ন দরকার।

আমাদের গরীবদের মেয়েদের ক্ষমতায়ন হয়েছে: সবাই গার্মেটস কর্মী, না হয় বুয়া, কিংবা চাকরাণী; গার্মেন্টস কর্মীদের সৌভাগ্য নিয়ে সবাই খুশী: এখন গার্মেন্টস'এ কাজ করে ভালো আছে, না হয়, ঘরের চাকরাণী হতো! কি সুন্দর সৌভাগ্যের কাহিনী!

উপারে যাঁর ছবি দেখছেন, উনি আমাদের শ্রম-প্রতিমন্ত্রী; উনি আমাদের গার্মেন্টস'এর ৪০/৪৫ লাখ মেয়ের বেতন নির্ধারণ করবেন; সবাই দোয়া কলেমা পড়তে থাকেন, উনার যেন বিদ্যাবুদ্ধি বাড়ে, ও উনার কলমের নিব যেন বড় বড় সংখ্যার জন্ম দেয়।

মন্তব্য ৮৮ টি রেটিং +১১/-০

মন্তব্য (৮৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৫৬

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: Excellent

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৩৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


নারীরা যেন তাঁদের নাগরিক অধিকার থেকে বন্চিত না হন; দেশ চালনায়, পরিবার চালনায় সমসুযোগ বা ভালো সুযোগ যেন পান, সেটাই নারীর ক্ষমতায়ন; কিন্তু বাউন্ডুলে দিপুমনি'কে শিক্ষামন্ত্রী, কিংবা মিলিটারী ক্লাবের ভাবীকে বিরোধীদলের নেত্রী বানানো জাতির বিপক্ষে কাজ করার সমান।

২| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:০৮

আখ্যাত বলেছেন: ভালো লেগেছে

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৪০

চাঁদগাজী বলেছেন:


এর ২য় পর্ব লিখার দরকার আছে?

৩| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:১২

রাজীব নুর বলেছেন: আপনার চোখের কি স্থায়ী সমাধান হবে না?
আমি আপনাকে নিয়ে চিন্তিত।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:


চোখের কারণে, ব্লগে কম আসা হচ্ছে; পোষ্ট পড়া হচ্ছেনা, কমেন্ট করা হচ্ছে না; মনে হচ্ছে, এটার সমাধান তেমন নেই, বয়সও একটা ফ্যাক্টর।

৪| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:২২

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: ইহাকে নারীর ক্ষমতায়ন বলেনা। ইহা হলো - আমাকে ভালো লেগেছে তাই তোমাকে ঐ চেয়ারে বসিয়ে দিলাম এখন আমার গুনগান গাইতে গাইতে মুখে ফেনা তোলো। :(

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৪৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


বেকুব বন্ধুর চেয়ে জ্ঞানী শত্রু ভালো

৫| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:৫১

শরীফ আতরাফ বলেছেন: দীপু মণিকে দেওয়া হয়েছে শিক্ষাব্যবস্থার দায়িত্ব অথচ তিনি ব্যস্ত ঘর ঝাড়ু দেওয়ার ছবি ফেসবুকে দিতে।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৪৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


জীবনে হয়তো ১মবার ঝাড়ু দিয়ে ছবি তুলেছেন; উনার বৃদ্ধা মাতা সব করেন।

৬| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:১১

মারুফ আল মাহমুদ বলেছেন: চমৎকার! ক্যারি অন!

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৪৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


উপরের ছবির মহিলা গার্মেন্টস'এর মেয়েদের বেতন স্কেল ঠিক করে দেবেন? মন্ত্রণালয়, নাকি বাবা ভান্ডারীর দরবার শরীফ?

৭| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:২০

ঢাবিয়ান বলেছেন: ডাকাত দলের সভা যেমন হবার কথা তেমনই হয়েছে।এর মাঝে নারীর ক্ষমতায়ন ফায়ন জাতীয় কোন ব্যপার নাই। আছে কেবল কে কত চরিত্রহীন, কে কত অনৈতিক, কে কত বড় মিথ্যূক তার অসুস্থ প্রতিযোগিতা।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৪৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনাদের কথা ভাবলে, উনাকে গ্রেনেড ফ্রেনেড ইত্যাদি নিয়ে মাথা ঘামাতে হয়, উনি মোস্তাক আহমেদ পুষতে চাননা, সেটা অন্য সমসয়া

৮| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:২৪

ঢাবিয়ান বলেছেন: পোস্টে +++++++

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৫১

চাঁদগাজী বলেছেন:


এমন কিছু না, মানুষের চোখে পড়ার কথা, এরা কিসের, ও কাহাদের জন্য উন্নয়ন করে যাচ্ছে সোনার বাংলায়; বডি'র বউ হয়তো আগামী ৫ বছর ফ্রি ইয়াবা দেবেন টেকনাফে!

৯| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৩৭

আরইউ বলেছেন: "নারীর ক্ষমতায়ন" ইটসেল্ফ "পলিটিকালি কারেক্ট" টার্ম - এর বাস্তব জীবনে গুরুত্ব আছে; কিন্তু বিশ্বব্যাপী এর প্রয়োগ কতটুকু হয়েছে আমি জানিনা। বাংলাদেশ প্রেক্ষাপটে আপতদৃষ্টিতে মনে হয় বিশ্বের অনেক দেশ থেকে নারীরা "ক্ষমতায় আছে"। কিন্তু নারীর সত্যিকারের ক্ষমতায়ন তখনই হবে যখন আমরা নারীকে শুধু নারী নয় একজন মানুষ হিসেবে দেখবো, সন্মান করবো।

আপনার মানুষকে তুচ্ছ্য-তাচ্ছিল্য করার অভ্যাসটা "সাইকোপ্যাথিক"; ভালো অভ্যাস নয়, মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য হানীকারক!

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৫৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার মানসিক অবস্হা আকাশের মতো স্বচ্চ, আপনি মানুষকে অনেক ভালোবাসেন, ১০/২০টা বিয়ে করতে পারবেন।

১০| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৩৮

জাতির বোঝা বলেছেন: মির্জা সা‌হেব কখ‌নো নৌকায় ভোট দেন‌নি। ডঃ কামাল সা‌হেব সপ‌রিবা‌রে ধা‌নের শী‌ষে ভোট দি‌য়ে‌ছেন।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৫৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


ড: কামাল হয়তি বয়সজনিত সমস্যায় ভুগছেন; উনার পদক্ষেপের পরিস্কার কোন কারণ, বা লজিক নেই। মির্জা হলেন, বেগম জিয়ার পালিত শেষ গাধা।

১১| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৪৯

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ রম্য আকারে হলেও গুঢ় কিছু কথা চমকারভাবে তুলে ধরেছেন । এটা যতার্থই যে, উদ্দেশ্যমূলক ( যথা চোখে আঙ্গুল দিয়ে নারীর ক্ষমতায়নের জন্য মমতা করে একটি চিত্র দেখানোর জন্য এ পোষ্টে দেয়া কতক উপমা অনুযায়ী ) ব্যবহারের কারণে নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়টি তার স্শস্টতা হারিয়েছে । তবে দেশে সত্যিকার অর্থেই নারীদের ক্ষমতায়ন কিছুটা হচ্ছে যাকে দেশের মৌলবাদী ও সেকুলারিজমের দৃস্টিভঙ্গিতে বিভিন্ন গোষ্ঠি বিভিন্নভাবে তাদের মতামতে ও লেখনীতে তুলে ধরছেন । এ বিষয়ে দেশী বিদেশি গবেষক কতৃক প্রচুর গবেষনা হয়েছে । দেশে নারীদের ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে সকলেরই একটি স্শ্ট ধারনা থাকা প্রাসঙ্গীক বলে মনে করি । অনেক গবেষনা প্রতিবেদনেই মুল্যবান তথ্য উপাত্ত দেয়া হয়েছে । এর সবগুলিতেই দেখা যায় নারীদের ক্ষতায়ন পর্বটি বেশ জোরে সুরেই দেশ এগিয়ে চলেছে, যদিও অনেক জায়গায় পুরুষদের হাতে তাদের নিগৃহিত ও নির্যাতীত হওয়ার খবর প্রতিনিয়তই সংবাদ মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে । যাহোক, এ প্রসঙ্গে সাম্প্রতিককালে জাহাঙ্গীর নগড় বিশ্ব বিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক আইনুন নাহার ও মুক্ত গবেষক মাহমুদুল হাসান প্রনীত নারীর ক্ষমতায়ন : বিবিধ প্রবনতা , সমস্যা ও সম্ভাবনা শীর্ষক তথ্যসমৃদ্ধ গবেষনা মুলক প্রবন্ধটি এ পোষ্ট পাঠে আসা পাঠকদেরকে এ বিষয়ে বেশ গুরুত্বপুর্ণ তথ্য দিতে পারে । চেষ্টা করেও প্রতিবেদনটির ওয়েব লিংক এখানে দেয়া গেলনা , তবে গুগল সার্চ করে যে কেও এই মুল্যবান গবেষনা প্রতিবেদনটি দেখে নিতে পারেন ।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:০৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


দেশের নারী পুরুষকে দেশ-গঠনে সম-সুযোগ দিলে, কাজ করার সুযোগ দিলে, এসব শব্দই ব্যবহার করার দরকার হতো না; নারী পুরুষ যেভাবে সংসার চালাচ্ছেন, সেভাবে সোনার বাংলা গড়ে তুলতেন; বেগম রওশন, সাহারা খাতুন, দিপুমণি সোনা ধরলে উহা ধুলায় পরিণত হওয়ার কথা; এগুলো নারী ও পুরুষ-বিরোধী ক্ষমতায়ন; বদি'র বউ'এর কাজ কি হবে, সেটা নিয়ে পুরো জাতির মাথা খারাপ হওয়ার কথা, উনার একমাত্র কাজ থাকতে পারে "উন্নয়ন করা"।



১২| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:২৭

মিঃ আতিক বলেছেন: বাংলাদেশের মেয়েরাও শাড়ী ছেড়ে সেলোয়ার কামিজ কেন পড়তে শুরু করেছে বুঝিনা,ছোটকাল থেকে শারীপড়া দেখে অভ্যস্ত অনেক মায়ের বয়সী মহিলাদের নতুন করে সেলোয়ার কামিজে দেখে দৃষ্টি কটুও লাগে। বাংলার মা বোনদের কাপড়ের ঐতিহ্য শাড়ী।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:০৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



বিহারী রিফিউজীরা এসেছিলো ১৯৪৮ সালে, বাংগালী বানরেরা ১মবার সেলোয়ার কামিজ দেখেছিলো

১৩| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:৪১

অগ্নি সারথি বলেছেন: নগরের বস্তিতে কিংবা কুড়িগ্রামের অষ্টমীর চরে বাস করা কোহিনুর চাচী, মনোয়ারা আপা কিংবা সালেহা খালারা, উনাদের মত নারীদের মন্ত্রীত্ব লাভে কিভাবে ক্ষমতায়িত হতে পারলেন কিংবা তাদের নারীত্বের কি উন্নয়ন হল?

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:০৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা দলের বাউন্ডুলে ও অদক্ষদের চাকুরী দিচ্ছেন; নাগরিকদের কি অবস্হা হবে, দেশের কি অবস্হা হবে, তিনি সেটা বুঝেন না।

১৪| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:৪৩

ইসিয়াক বলেছেন: ভালো লেগেছে

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:০৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



বেগম জিয়াকে জামিন দিলে, আপনার কেমন লাগবে?

১৫| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:২১

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: জায়গামত দিয়েছেন...

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:০৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা অদক্ষদের বড় চাকুরী দিয়ে বিশ্বের দরবারে বাংগালীদের মুখ উজ্বল করছেন

১৬| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৪৮

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: রম্য টম্য ভালো হয়েছে B-))

অঞ্চল বানান ভুল....
এলাকয় নয় এলাকায় হবে....
চ্যান্সেলর হবে....

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:১১

চাঁদগাজী বলেছেন:


ধন্যবাদ, বানান ঠিক করে দেবো, তারপর পোষ্ট বুঝতে পারবেন তো, নাকি টিউটরের কাছে যেতে হবে?

১৭| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:০৭

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: আমাদের গার্মেন্টস শিল্পটা টিকে আছে শ্রমিক শোষণের মধ্যে দিয়ে। শ্রমিকের ন্যায্য মজুরী দিতে গেলে গার্মেন্টস শিল্প অন্যান্য দেশের সাথে প্রতিযোগিতায় লাল বাতি জ্বালাবে, তাতে কোন সন্দেহ নাই।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:১৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


গার্মেন্টস এই দেশের দরিদ্রদের মেয়েদের চাকুরীর নামে ক্রীতদাসী বানায়েছে, ২ লাখের বেশী হাজার কোটীর মালিক বানায়েছে; একা গার্মেন্টস'এর কারণে গরীবের মেয়েদের প্ল্যান করে স্কুলে যেতে দেয়নি ব্যুরোক্রেটরা; ড: কামালের বিলিয়ন ডলারের মেয়েকে বড় করতে ২০ জন চাকরাণী লেখেছে; উনার মেয়েকে জুরিখের লোকজনও চেনেন, ২০ জন চাকরাণী এখন নিশ্চয় বস্তিতে।

১৮| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:১৬

একজন অশিক্ষিত মানুষ বলেছেন: কিছু বলতে পারবোনা আমাদের দেশের রাজনীতি নিয়ে। আমরা নিজেরাই এখন এদেশের আবর্জনা মনে হচ্ছে ।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:২১

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি কি রাজনীতি বুঝেন? আপনি আবর্জনা রি-সাইকেল করার ব্যবসা নিয়ে ভাবতে পারেন।

১৯| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:২৩

আরইউ বলেছেন: মানসিক স্বাস্থ্য অবহেলা করার মত বিষয় নয়, চাঁদগাজী!
এ সমস্যা পুষে রাখলে তা বাড়তেই থাকবে... অনেস্টলি স্পিকিং, প্রফেশনালদের সাহায্য নিন।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪১

চাঁদগাজী বলেছেন:


অনেক বাংগালী ডাক্তার হয়ে জন্ম নেন; ৩ বছরে ৩টি পোষ্ট করেছেন, সেটাও একটি লক্ষণ; কথা কম বললে সুবিধা হবে: আলোকের গতি শব্দের গতির চেয়ে অনেক অনেক বেশী, মানুষের ইম্প্রেসান ধরে রাখেন।

২০| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪০

আরইউ বলেছেন: ডাক্তার হলেতো আমিই আপনার ডায়াগোনোসিস করতাম; বলতাম না আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের "আপনার মানুষকে তুচ্ছ্য-তাচ্ছিল্য করার অভ্যাসটা "সাইকোপ্যাথিক"; ভালো অভ্যাস নয়, মানসিক স্বাস্থ্যের জন্য হানীকারক!" অথবা "প্রফেশনালদের সাহায্য নিন"!! সরাসরি বলতাম "আপনি মানসিকভাবে অসুস্থ্য"!

বাই দ্য ওয়ে, মানসিক অসুস্থ্যতা কোন ট্যাবু নয় বা এর জন্য স্টিগমাটাইজড হবারও কোন প্রয়োজন নেই। জ্বর-হাচি-কাশি, ডায়াবেটিস এট মত শারিরীক সমস্যা নিয়ে যেরমন ডাক্তার দেখানোতে কোন লজ্জা নেই, মানসিক সমস্যা নিয়ে প্রফেশনালদের কাছে যাওয়াও কোন লজ্জার বিষয় নয়।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


চাঁদগাজীর পোষ্টে এলে অনেকের জ্ঞানের নহরে স্রোত বহে; এখানে ম্যাঁওপ্যাঁও কম করে, ২/১ টা পোষ্ট লেখার চেষ্টা করেন।

২১| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৪

একজন অশিক্ষিত মানুষ বলেছেন: সেটা ঠিক বলছেন। তবে আমার মনে হয় আপনাকে বেশি বেশি হলুদ শাক সবজি খাওয়ানো উচিৎ । B:-/ আপনার কথার ভিতর প্রচুর ভিটামিন আর পুষ্টির অভাব আছে। :)

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি পুই শাক কিনব, আপনার চেহারা দেখে মনে হচ্ছে, আপনার শরীরে লৌহের অভাব আছে হয়তো, লোহার রড, সাইকেলের চেইন ই্ত্যাদি খেয়ে দেখতে পারেন।

২২| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৯

আরইউ বলেছেন: আরে মশাই, আগে বলুন আমার কথায় ভুল কোথায়! জ্ঞানের নহরে স্রোত ভানো নিয়ে কথা না বলে আমার কথায় ভুল আছে কোথায় তা বলুননা জনাব, চাঁদগাজী।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৫৩

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনার কথায় কোন ভুল আমি খুঁজে পাইনি; আরো ২/১ টা পোষ্ট লেখেন, তখন নিজের জ্ঞানের কেরামতি বুঝতে পারবেন।

২৩| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৫৮

একজন অশিক্ষিত মানুষ বলেছেন: আপনার চেহারা দেখে মনে হচ্ছে, আপনার শরীরে লৌহের অভাব আছে হয়তো, লোহার রড, সাইকেলের চেইন ই্ত্যাদি খেয়ে দেখতে পারেন।
চাপাচাপি কলের পানিতে আর কচু শাকে সম্ভবত বেশ আয়রন আছে । আর এগুলো বাংলাদেশের যে সকল ব্যক্তিরা দেশের বাহিরে
থাকেন তাদের মধ্যের অনেকের প্রয়োজন হতে পারে।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমার পোষ্টে নতুন এলে, অনেকে এখানে থেকে যেতে চান, আপনি সেই ধরণের একজন।

২৪| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৫৬

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: একদম এভাবে বলাটা ঠিক হয়নি এতে তাদের কষ্ট লাগতে পারে ।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২০

চাঁদগাজী বলেছেন:



টং দোকানের মতো কমেন্ট হচ্ছে, আরেকটু চেষ্টা করেন।

২৫| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:২৮

আলাপচারী প্রহর বলেছেন: দীপুমনি পররাষ্ট্র মন্ত্রী থাকা কালে তাকে নিয়ে একবার আওয়ামী পন্থী সাংবাদিক পীর হাবিবুর রহমান বাংলাদেশ প্রতিদিনে সমালোচনা মূলক একটি লেখা লিখেছিলেন। লিখেছিলেন, " দীপুমনি শতাধিক বার বিদেশ ভ্রমণে আমরা কিছুই পেলাম না। "

পরদিন দীপুমনি প্রতিবাদ পত্র পাঠালেন পত্রিকায়। "আমি শতাধিক বার বিদেশ ভ্রমণ করি নাই, মাত্র ৯৬ বার বিদেশ ভ্রমণ করেছি।"

উত্তরে পীর হাবিবুর রহমান লিখেছিলেন, " একেই বোধ হয় বলে, উনিশ/বিশ" !!!

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২২

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনি বিদেশে যেতেন টাকা( দান, অনুদান) আনতে, লোকজন উনাকে টাকা দিতো বলে মনে হয় না।

২৬| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৩২

আলাপচারী প্রহর বলেছেন: আজকে ডঃ মুহম্মদ ইউনুসের সঙ্গে শেখ হাসিনার বিপর্যয় কর সম্পর্কের কারন এই দীপু মণি ও তাঁর স্বামী। যাকে গ্রামীণ ব্যাংক থেকে ডঃ ইউনুস বরখাস্ত করেছিলেন। প্রতিশোধের জের আজকের হাসিনা - ইউনুস সর্ম্পক।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



সেটা হয়তো ফ্যাক্টর হতে পারে; ড: ইউনুস গত ভোটের (২০১৪) আগে মেজর মেজর কয়েকটা ভুল করেছিলেন।

২৭| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৫২

আলাপচারী প্রহর বলেছেন: "একজন এম পি কে বদির বউ ডাকছি, এটা ভালো শোনায় না" -- খুব মজা পেলাম।

পরিহাস হচ্ছে, রাজার চপ্পল রাজার প্রতিনিধিত্ব করে। উত্তর সুরীরা তো করেই।
বদির বউও তাই। বদির প্রতিনিধিত্ব করে। আপনি আমি সবাই এগুলো জানি, বুঝি। এটা নারীর ক্ষমতায়ন নয়।

খালেদা কোনো মানদন্ডেই একটা দেশের প্রধান মন্ত্রী হতে পারে না। জিয়া উত্তর বি এন পির উপরের সারির পদধারীরা (নেতা বললাম না), যেমন মওদুদ ভার্সাস সালাউদ্দিন কাদের, ফালু ভার্সাস বরকতউল্লাহ্ ভুলু ইত্যাদি ইত্যাদিরা কুকুরের মতো নিজেদের মধ্যে এতো কামড়া কামড়ি করতো যে, বাধ্য হয়ে খালেদাকে হাল ধরতে হয়েছে। খালেদার ছায়ার সবাই লুটে পুটে খেয়েছে। তার গুনধর ছেলেরাও বাদ দেয় নি। এটা নারীর ক্ষমতায়ন নয়।

তোফায়েল, রাজ্জাক, আমু, জলিল, নাসিম, জিল্লুর, ডঃ কামাল কেউ কাউকে মানতো না। সবাই দলের দন্ডমুন্ড হওয়ার জন্য রক্তাক্ত অর্ন্তকোন্দলে জড়িয়েছিল। এ থেকে পরিত্রাল পেতে স্বয়ং ডঃ কামাল নিজ আইডিয়ায় হাসিনাকে আমদানী করে। হাসিনার ছায়াতলে সবাই করে টরে খাচ্ছিল। হাসিনা কিছুটা হলেও রাজনীতির সিলসিলা পাওয়ায় বি এন পির মতো অবস্থা হয় নি দলের। শেষ বিচারে হাসিনার আগমনও নারীর ক্ষমতায়ন নয়।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনাকে আমদানী করার মত বেকুব আওয়ামী লীগে ছিলো না; শেখ হাসিনা নিজের যায়গা করে নিয়েছিলেন।

২৮| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৫৭

আলাপচারী প্রহর বলেছেন: গ্রামীণ ব্যাংককে যতই গালাগালি করি না কেন, নারীর ক্ষমতায়নে এই প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা সুদূর প্রসারী।

ডঃ ইউনুসের নাতি ছাত্র হলেও (অর্থাৎ তাঁর ছাত্র ডঃ বাকী খলিলীর আমরা ছাত্র) আমরা গ্রামীণ ব্যাংকের বহু সীমাবদ্ধতা দেখতে পাই। তাই বলে নারী ক্ষমতায়নে তাঁর ধারনার বাস্তবায়ন অস্বীকার করা যাবে না।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৭

চাঁদগাজী বলেছেন:



ড: ইউনুস নারীকে আয় করতে দিয়েছইলেন; দরিদ্রদের মেয়েদের পড়তে দেননি।

২৯| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৫

ঢাবিয়ান বলেছেন: এত ভাল একটা পোস্ট যেখানে কমেন্টে চলতে পারত সুন্দর আলোচনা। অথচ আপনি অযথা আপনার পোস্টে কমেন্টকারীদের প্রতি তীব্র অশ্রদ্ধা দেখিয়ে প্রতিউত্তর করলেন!!!!বিশেষ করে একজন অশিক্ষিত মানুষ এর কমেন্টে আপনি যেই প্রতিউত্তর করলেন তাতো সকল প্রকার ভদ্রতা সভ্যতার সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি ভদ্রতায় কম বিশ্বাস করি।

৩০| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:২০

হাসান জাকির ৭১৭১ বলেছেন: নারীর ক্ষমতায়নের জন্য নারীদেরও প্রস্তুত হতে হবে।
তবে, তাদেরকে সুযোগ দিতে হবে।

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩০

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা তেলে মাথায় তেল দিচ্ছেন; উনি জানেন যে, গরীবের মেয়েরা, বস্তীর মেয়েরা ঘুরেফিরে গার্মেন্টস'এ যাবে, দিপুমনিরা কিছু একটা করে, বড় বড় দখল করে রাখবে।

৩১| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:২১

আরইউ বলেছেন:

চাঁদগাজী, আমি আরো পোস্ট করি বা না করি সেটা বিষয় নয়; বিষয় হচ্ছে আপনার মানসিক সুস্থ্যতা। কথায় কথায় মানুষকে হেয় করার অভ্যাসটা ভালো নয়। জাতীয় সংসদের স্পিকারকে "কি একজন" বলে ছোট করার কোন মানে নেই, তেমনি গার্মেন্ট শ্রমিকদের হেয় করায় আপনার নিজের জাঁত উপরে উঠছে না। আপনি এই কাজ আজকে করছেন এমন নয়, আপনি এটা শুরু থেকে করে আসছেন।

আপনি যেভাবে লেখেন তাকে অন্য রম্য বলতে পারে, কেউ সর্কাজম বলে উড়িয়ে দিতে পারে; আমিও একসময় সম্ভবত এড়িয়ে গিয়েছি। কিন্তুু, অনেকদিন দেখার পরে মনে হচ্ছে আপনি একজন আপাদমস্তক "বুলি"!

১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩০

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমার পোষ্টে গ্লু আছে নাকি, আপনি আটকা পড়লেন কিভাবে?

৩২| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫০

নয়ন বিন বাহার বলেছেন: Grow with Dream

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


ইংরেজী ২য় পত্রের প্রশ্নফাঁসের প্রস্তুতি নিচ্ছেন?

৩৩| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫১

আরইউ বলেছেন: সেটা আমিও ভাবছি - কী জাতের গ্লু ব্যবহার করেছেন পোস্টে! আসলে হয়েছে কি, পোস্টে মন্তব্য আকারে না বললে আলাদা পোস্ট দিতে হয়, সেটা চাচ্ছিনা!

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৬

চাঁদগাজী বলেছেন:



আলাদা পোষ্ট দেন, দেখেন কয়জনে পড়ে; পাঠক কম হলে, উহাকে পদ্যে দেবেন।

৩৪| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৪৪

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: গার্মেন্টস শ্রমিকদের জন্য যে মজুরী ঠিক করা হয়েছে, সেটা এই মহিলার একদিনের খরচের চাইতেও কম হবে।
১ মাসের সময় নিয়ে কমিটি করা হয়েছে; এই ১মাস বেতন ভাতা বাড়ানোর চেস্টা করা হবে নাকি যারা বাধ্য হয়ে রাস্তায় নেমেছিলো তাদের শায়েস্তা করার প্লানিং হবে - বুঝতেছি না।

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:



শেখ হাসিনার "নারীর ক্ষমতায়ন" ও উন্নয়ন আসলে রূপকথার মতো

৩৫| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:১৩

এম আর তালুকদার বলেছেন: আমি আপনার লেখা পড়ি কিন্তু জ্ঞানের স্বল্পতার কারনে মন্তব্য করিনা। আজকের লেখাটি আমার কাছে খুব ভাল লেগেছে তাই জানিয়ে দিলাম।

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৭

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনার জন্য শুভকামনা রলো, ব্লগ আপনাকে ভাবার সুযোগ করে দেবে সব সময়।

৩৬| ১০ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:০১

মোঃ মঈনুদ্দিন বলেছেন: এ দেশে পুরুষেরই ক্ষমতা নেই। আবার নারীর ক্ষমতায়ন! নারীর ক্ষমতায়নে সবার আগে দরকার নারীর নিরাপত্তা, পরিবারের মজবুত গঠন, সামাজিক মূল্যবোধ আর নৈতিক শিক্ষা। শুধু চেয়ারে বসিয়ে দিলেই ক্ষমতায়ন হয়ে যায় না; আপনার ভাষায় হয় মমতায়ন। ধন্যবাদ আপনার পোস্টের জন্য।

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



নারীর ক্ষমতায়ন মানে, নারী ফ্রি শিক্ষা দেয়া ও চাকুরী দেয়া; এটা দীপুমনি বা রওশন পারবে না।

৩৭| ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১:২৩

রাফা বলেছেন: আরোপিত কোন কিছুই বাস্তবতার প্রতিফলন নয়। তবে এতে আগ্রহ সৃষ্টি করা সম্ভব।এবং ধিরে হলেও তা হোচ্ছে।কখনও কি ভেবেছিলেন একটি আন্তর্জাতিক রুটের বিমানের এ টু জি সকল ক্রু নারী হবে।বাংলার মেয়েরা সেটা করে দেখিয়েছে।অনেক সেক্টরেই যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োজিত হইতেছে।প্রাথমিক পর্যায়ে কিছুটা অসামনজস্যপুর্ণ হলেও এগিয়ে নেওয়ার জন্য জরুরী।

তবে দিপু মনি যথেষ্ট শিক্ষিত হলেও তাকে নিয়ে আমি খুব বেশি আশাবাদি নই।শিক্ষা মন্ত্রনালয়ে অধিক গুরত্ব দেওয়া প্রয়োজন।তা না হলে এগোনোর বদলে আরও পিছিয়ে যাবো আমরা।

ধন্যবাদ,চাঁদগাজী।

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৫০

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংলার সমস্যা হলো আপনাদের মতো মানুষ, নিজে ভালো থাকলে, বাকীদের জন্য কিছুর দরকার নেই।

৩৮| ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৩:৫৩

সোহানী বলেছেন: হাহাহাহা........ আমি হাসতে হাসতে শেষ আপনার লিখা পড়ে। শতভাগ সহমত আপনার লিখায়। দিপুমনি বা সাহারা তাদের সুনাম রাখতে পারেনি। তাই তাদেরকে আবার ডেকে আনা কোন বুদ্ধিমানের কাজ বলতে নারাজ। নতুন কাউকে দরকার। আর বদির বউদের কোন নাম থাকে না। তারা সবসময়ই বদির বউ হিসেবেই থাকে। তাকে বসানোই হয়েছে বদির ক্ষমতা কন্টিনিউ করার জন্য। এটা বুঝতে ঘিলু লাগে না।

যাহোক, সামিয়া. সোহানী বা শায়মার সাথে পার্থক্য বুঝতে সমস্যা হলে বলবেন আমি সবার ডিটেইলস দিয়ে দিবো.... হাহাহাহা ১১ বছর ধরে ব্লগে আছি বলে কিছুটা সবাইকে জানি।

অনেক ভালো থাকেন, সুস্থ্য থাকুন।

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪১

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি কিছুতেই কেয়াল রাখতে পারি না, কোনটা সোহানী, কোনটা সামিয়া! সামিয়ার কাছাকাছি আরো একটি ছিলো মনে হয়; আপনি কি বই লিখছেন এবার, নাকি সামিয়া লিখছেন?

শেখ হাসিনা চেষ্টা করেন, উনার থেকে কমবুদ্ধিমানদের প্রশাসনে ও কেবিনেটে রাখতে; এদিকে, এসব কমবুদ্ধিমানরা জাতিকে শেষে গুহামানবে পরিণত করবে।

৩৯| ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:৫৬

রাফা বলেছেন: আপনি কি আমার কমেন্ট পড়ে রিপ্লাই করেছেন ?
নাকি গড়পরতা যা মনে আসলো তাই বলে দিলেন ?

আমিও সমাজ ও দেশেরই অংশ ।আমাকেও ভালো থাকতে হবে অবশ্যই ।এবং আমি ভালো থাকার অর্থ হইতেছে আমার উপর নির্ভরশীল প্রতিটি মানুষকে ভালো রাখতে পারা।কাজেই আপনার ধারণা সম্পুর্ণ ভুল যে আমি ভালো থাকলে আর কারো কথা ভাবার অবকাশ নেই।পক্ষান্তরে আমি ভালো থাকার অর্থ আরও অনেকের ভালো থাকা।

১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:১২

চাঁদগাজী বলেছেন:


বদিও আপনার মতো ভাবে

৪০| ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:০৬

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন:



স্যার প্লিজ

আশা করি ডাক্তারের কাছে যাবেন । যদিও অধিকার নেই । কারন আপনি এবং আপনার মত অনেকেই দেশকে অনেক কিছু দিয়েছেন । তাই আর চাইবার অধিকার রাখি না ।

আমাদের দেশের নারীর ক্ষমতায় হচ্ছে ইভটিজিং হলে প্রতিবাদ করো । কাউকে উচু পদে বসিয়ে দাও । সমনা অধিকার নিয়ে চিল্লাও ।

কেউ বলে না যোগ্যতা নিয়ে ভাবো । অথচ নারীবাদীরা সারাদিন এসি রুমে বসে নানা বক্তব্য দিয়ে থাকেন । অথচ মাঠে গিয়ে দেখেন না আসলে নারীর ক্ষমতায়ন কি হচ্ছে । পদ বসলেই সেটা নারীর ক্ষমতায়ন হয় এটাই তাদের ধারনা ।

১২ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:২৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


যমুনা শিল্পগোষ্টীর সালমা, এরশাদ'এর বউ, স্পীকার শিরীনরা হলেন, নারী; যাঁরা গার্মেন্টস এ কাজ করেন, তাঁরা হলেন মেয়ে; এজন্য নারীর ক্ষমতায়ন হচ্ছে।

আমি অনেকটা ডাক্তারের অফিসেই বাস করছি; এখনি যেতে হচ্ছে এক ডাক্তারের কাছে; হঠাৎ করে কেন অনেককিছু বদলে গেছে; আশাকরি, ভালো হয়ে যাবো।

৪১| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ২:০১

অনল চৌধুরী বলেছেন: দক্ষিণ এশিয়ায় নারীরা ক্ষমতায় গেলে নিজেদের পুরুষ মনে করতে চায়।নারীদের কথা ভাবে না।
ব্যাস্ত থাকে যেকোন উপায়ে নিজেদের স্বার্থ উদ্ধারে।
ইন্দিরা,বেনজির,গডমাদার কবরী-সবাই।
তাই তাদের অামলে মহিলারা বেশী নীপিড়িত হয়।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৪:০২

চাঁদগাজী বলেছেন:


নারীরা নারীদের ভালো চাহে না, তাদের চাকরাণীর দরকার পড়ে; চাকরাণী চাইলে ঝাড়ুপেটা করার দরকার।

৪২| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:২২

কামরুননাহার কলি বলেছেন: নারীর ক্ষমতায়ন বলতে আমি কিছুই বুঝিনা। কারণ নারীর ক্ষমতা আর পুরুষের ক্ষমতা একই। এতে কোন কম বেশি না ক্ষমতার। যদি কেউ বলে কম বেশি আছে তাহলে সেই স্রষ্টার উপর কথা বলল! স্রষ্টা কখনোই কাউকে কম বেশি ভাবেননি। কিন্তু নারীদের ক্ষমতাহীন বানিয়ে রেখেছে যুগে যুগে পুরুষশাসিত সমাজ। তাই এই পুরুষশাসিত সমাজের উপর আমার ঘৃর্ণা সৃষ্টি হয়েছে।
আপনি যেটা বলেছেন দিপু-মনি আর রওশন এরশাদের কথা । এ ব্যপারে আমি একমত, এদের এই ধরনে ক্ষমতা দেওয়া ভুল হয়েছে। তাদের থেকে যোগ্য ব্যক্তিকেই বেচে নেওয়া উচিত ছিলো। সেই যেই হোক পুরুষ কিংবা মহিলা।
আসল কথা হলো আমাদের দেশে এখন সবাই রাজনীতির ফায়দা লুটে, বড় বড় গদি খোজে, আর নিজের কয়েকটা বাড়ি-গাড়ি খোজে। তাই এই ধরণের মানুষদের কোন ক্ষমতা বা যোগ্যতা বলে কিছুই নাই। যারা নিজের জন্য ভাবে তারা কখনো দেশের জন্য কিছুই করতে পারে না।

৪৩| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:৫১

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আমি পুই শাক কিনব, আপনার চেহারা দেখে মনে হচ্ছে, আপনার শরীরে লৌহের অভাব আছে হয়তো, লোহার রড, সাইকেলের চেইন ই্ত্যাদি খেয়ে দেখতে পারেন। - সাত সকালে হাসলাম, চাঁদগাজী ভাই ধন্যবাদ, আবারো ধন্যবাদ।

মন্ত্রনালয় ভরে গেছে সব খালি কলসিতে - এখন এইসব বাজবেও বেশী !!! কি করা, আরো পাঁচ বছর দেখি যদি সুশিক্ষিতজন রাজনিতিতে আসেন কেও !!! বাংলাদেশের পরিবর্তনের জন্য আরেকবার পয়গম্বর আসতে হবে - সহমত ( আপনার পূর্বের মন্তব্য)

৪৪| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:৫৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়ণ “ফেয়ার এন্ড লাভলী, পন্ডস, ফ্যাশন শো, অমুক আইডল, তমুক রান্না ও পাকঘরের মিস্ত্রীতে সিমাবদ্ধ বা হ্যাং হয়ে আছে !!!

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৩০

চাঁদগাজী বলেছেন:



দোষ পড়ছে শেখ হাসিনার উপর।

৪৫| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১:৫৯

ফেনা বলেছেন: জনাব আপয়ানার লেখাটা খুবই ভাল লেগেছে।
চমতকার।
আপনার এই লেখাটা জানাও ডট কম এ সম্পাদকীয়তে দিতে চাই। জানাবেন।


ধন্যবাদ।
ভাল থাকবেন সতত।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৩৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


দেন।

আপনার জন্য শুভ-কামনা রলো

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.