নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পদহীনদের জন্য শিক্ষাই সম্পদ

চাঁদগাজী

শিক্ষা, টেকনোলোজী, সামাজিক অর্থনীতি ও রাজনীতি জাতিকে এগিয়ে নেবে।

চাঁদগাজী › বিস্তারিত পোস্টঃ

একটু ভেবেচিন্তে লিখুন, আমরা আপনার পোষ্ট পড়তেছি

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৩৪



চোখের সমস্যা নিয়ে ২ বছর ঘরে বসেছিলাম, এখন চাকুরী করছি; বয়সের এমন এলাকায় প্রবেশ করেছি, যেখানে চাকুরীর সংখ্যা কম; ফলে, চাকুরী পেতে বেগ পেতে হয়েছে; এতে কম বয়সীদের উপর কিছুটা ক্ষেপে গেছি এবার; আগে তরুণ তরুণীদের অকারণে ভালোবাসতাম, এখন থেকে কারণ খুঁজতে হবে, মনে হচ্ছে! যাক, কাজ করে ঘরে ফিরলে এখনো ব্লগে আসি প্রথমে: ১ম পাতা দেখি, ২য় পাতা, ৩য় পাতা; দ্রুত দেখা হয়ে যায়; শিরোনাম ও শুরুর ৫/৬ লাইন পড়ার পর, অনেক পোষ্ট আর পড়া হয় না; যাঁরা লিখছেন, ভেবেচিন্তে লিখুন, শুধু নিজের জন্য লিখবেন বা, ব্লগে পাঠকও আছেন, সবাই সুখীমানুষ, রেজাঘটক, কিংবা আফরোজ সোমা নন।

আপনি নাটক দেখেছেন, সেজন্য কবিতা লেখার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললে, আমাদের অবস্হা কি রকম হবে? আপনি ব্লগার হাবিব স্যারের কবিতা পড়ার পর, উনার কবিতায় উৎসাহিত হয়ে কবিতা লিখলে, পাঠকদের অবস্হা কি হতে পারে! কবিতারা যদি নতুন কবিতার জন্ম দেয়, সেগুলো তো কবিতার ছেলেমেয়ে, নাতিপুতি হয়ে যাবে! নাকি আপনারা কবিতা নিজেদের জন্য লিখছেন?

ধর্মীয় বিষয়ে লিখুন, ভেবেচিন্তে লিখুন: জিব্রাইল (আ: )'এর ৬০০ ডানা থেকে হীরা, মনিমুক্তো ঝরছে লিখলে, আমাদের মনে অবশ্যই প্রশ্ন আসবে, হীরা, মনিমুক্তোগুলো ঝরে কোনদিকে পড়ছে? মনিমুক্তো কোনদিকে ঝরে পড়ছে সেটা জানলে আমার হয়তো চাকুরী করার দরকার হবে না, কি দরকার তরুণ তরুণীদের সাথে প্রতিযোগিতা করার? জিব্রাইল (আ: )'এর শরীর নাকি এত বড় যে, সেই শরীর দ্বারা পৃথিবীকে আচ্ছাদন করে দেয়া সম্ভব! তা'হলে পাঠকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে, উনি হেরা পর্বতের গুহায় কিভাবে প্রবেশ করলেন? লেখেন, তবে পাঠকের কথাও মনে রাখেন, লেখাগুলোকে একটু লজিক্যাল করার চেষ্টা করেন; যা শুনেছেন, শুধু তা লিখলে, বিশ্বে নতুন ভাবনা আসবে কোথা থেকে; বিশ্বে সবকিছু বদলে যাচ্ছে প্রতিদিন! আগে যেসব এলাকার লোকজন লেখাপড়া জানতেন না, যা'তা বলতেন; এখন তারা লেখাপড়া শিখছেন, ভেবেচিন্তে কথা বলছেন!

বিয়ে নিয়ে এক ব্লগার ৫ লাইনের পোষ্টে সিদ্ধান্তে এসে গেছেন, বিয়ে করে লাভ নেই! সারা বিশ্বে মানুষ জাতির প্রসারণ ঘটছে বিয়ে আছে বলেই, আপনি হঠাৎ করে ৫ লাইনে নতুন থিওরী সৃষ্টি করলে, উহা বিরক্তিকরই হওয়ার কথা; মাথায় কিছু একটা এলে, উহা নিয়ে ভাবেন, দেখেন, উহার মুল্য আছে কিনা!

ব্লগে রাজনীতি, দেশের মানুষের অবস্হা, চলমান ঘটনাপ্রবাহ, শিক্ষানীতি নিয়ে অনেক লেখা আসে; তবে, বেশীরাগ লেখায় নতুন কোন ভাবনা থাকে না, পত্রপত্রিকায় অদক্ষদের মতামতহীন খবরের মত এগুলো লেখা হচ্ছে, অনেক লেখায় বিশ্বে যা ঘটছে, সেটাকেও উপেক্ষা করা হয়; আমরা মানব সভ্যতার অংশ, বিশ্বে কি হচ্ছে, সেগুলোর সাথে মিলায়ে লেখার দরকার আছে!

ব্যক্তিগত অভিজ্ঞা নিয়ে লেখাগুলো আমি ভালোবাসি; তাই বলে, ন্যাকামী বোকামী পড়ার জন্য কিন্তু ব্লগে আসি না; এক ব্লগার একবার লিখেছিলেন, উনি বিশ্বব্যপী কিসব প্রোজেক্ট করে বেড়াচ্ছেন, কিন্তু ফুলকপি কাটতে জানেন না! ইহা আনন্দজনক অভিজ্ঞতা হতে পারে না। আরেকজন লিখেছিলেন, আমাদের পাশের দেশের কোন আন্ডারগ্রেড ছাত্রের সাথে কথা বলেছেন, যেই ছাত্র বাংলাদেশের নাম শুনেনি! উহার সাথে তা'হলে কি নিয়ে কথা হতে পারে, যা ব্লগে লেখা যায়?

আরেক ব্লগার বই বের করেছেন, বইয়ের ফ্লেপে এমন কিছু লিখেছেন, যা ভালো শোনাচ্ছিলো না; আমি উনাকে সেটা জানাতে উনি জানালেন, উনার বড় ভাই, কিংবা অন্য একজন সেটা লিখে দিয়েছেন! তা'হলে, বইটা কে লিখেছে? একটু ভেবেচিন্তে লিখুন!

মন্তব্য ১০২ টি রেটিং +১৭/-০

মন্তব্য (১০২) মন্তব্য লিখুন

১| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৪

জুন বলেছেন: শিরোনামটা এমনই চমকপ্রদ চাঁদগাজী যা দেখে আমিও পোষ্ট পড়তে আগ্রহী হোলাম :)

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


ভেতরে কি অন্তসার একবারেই শুন্য?

২| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৫

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: পড়লাম......
শব্দের ঝংকার উঠুক পোস্টে পোস্টে.....

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫১

চাঁদগাজী বলেছেন:


শব্দগুলো যেন স্বাধীন না হয়ে, বাক্যের অংশ হয়; এবং বাক্য যেন কিছুকে ধারণ করে

৩| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৭

রেজাউল করিম সাগর বলেছেন: ব্লগে যার যা ভালো লাগে তাই শেয়ার করে। আপনার পোস্ট হয়তো সবার দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে পারবেনা , তবুও লিখতে তো হবেই কাউকে।

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগের লেখকেরাই পাঠক; ফরমালিন দিয়ে মাছ বিক্রয় করে, ফরমালিনযুক্ত ফল খাওয়া বুদ্ধিমানের কাজ নয়।

৪| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫১

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: আসলেই আজকাল ব্লগে ভালো লেখা আসছে না। চিন্তা ভাবনা করে লেখার পরিবর্তে যেনতেন ভাবে লিখে পোস্ট দেওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। আপনি একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। ধন্যবাদ।

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৫৬

চাঁদগাজী বলেছেন:



অনেকেই ইনস্ট্যান্ট কফির মতো পোষ্ট ছাড়ছেন, মাথায় এলো, ৫ লাইন লিখে ফেললেন, ভাবার জন্য সময় নিচ্ছেন না।

৫| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৬

ব্লগার_সামুরা বলেছেন:
সিনিয়র ব্লগাররা ইহা নিয়ে চুপ থাকে। আপনি সাহস করে অবতারণা করেছেন। দেখবেন অনেকের পশ্চাৎদেশে আগুন ধরে যাবে।

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:১৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার অবস্হা কি রকম, আগুন ধরার সম্ভাবনা আছে?

৬| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৮

কাওসার চৌধুরী বলেছেন:



খুব সুন্দর করে বিষয়টি লিখেছেন আপনি। ব্লগ "বাঁধ ভাঙার আওয়াজ" হলেও ব্লগারদের পাবলিক প্লাটফর্মে কি লিখছেন, কেন লিখছেন, কাকে উদ্যেশ্য করে লিখছেন এই বিষয়গুলো সেলফ সেন্সর করার প্রয়োজন আছে। শুধু লেখার জন্য লেখলে আর যাই হোক লেখক হওয়া/লেখার উন্নতি সম্ভবপর নয়। গুরুত্বপূর্ণ কোন বিষয় নিয়ে লেখার আগে বিষয়টি নিয়ে বিস্তর পড়াশোনার দরকার; ভাবনার দরকার আছে। না হলে হাস্যকর দেখায়।

গত কয়েক মাস থেকে ব্যস্থতা বেড়ে যাওয়ায় মনোযোগ দিয়ে পোস্ট লিখতে সমস্যা হচ্ছে। কতটুকু ভাল লিখি জানি না, তবে প্রতিটি লেখা কত যত্ন আর গভীর ভাবনা থেকে লিখি তা বলে বুঝাতে পারবো না। তবে চাইলে প্রতিদিন একটা করে পোস্ট লেখতে সমস্যা হতো না; তবে মন মতো হবে না বলে অফ থাকি।

ভাল থাকুুন সব সময়, চোখের যত্ন নেবেন।

২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:১৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


যে যেটা নিয়ে লিখেন, সেই দিকটা নিয়ে ভাবার দরকার: লেখায় কি আছে, ইতিমধ্যে এসব ব্যাপারে কি লেখা হয়েছে, পাঠকের জন্য নতুন কিছু থাকছে কিনা লেখায়!

৭| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২৪

হাবিব স্যার বলেছেন: ভালো বলেছেন, ভালো লাগলো আপনার কথা।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


নতুন কবিরা কবিতা লেখা কিভাবে প্র‌েকটিস করেন আমার জানা নেই; তবে, নাটক দেখে কেহ যদি প্ল্যান করে কবিতা লেখেন, আমাদেরকে সেই কবিতা বুঝার জন্য নাটক দেখতে হবে, মনে হছে!

৮| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: চাঁদগাজী ভাই,
ব্লগে এমন বিষয় নিয়ে পোষ্ট হবে যেখানে পক্ষে বিপক্ষে মতামত হবে যুক্তি তর্ক বিতর্ক হবে - এতে ব্লগের একটা আমেজ আনন্দ পাওয়া যায় । কিন্তু এখন ব্লগে কবিতা (যেখানে নারী শরীরেরে এডাল্ট বর্ণনা) সহ বাসার তরকারী রান্নার ছবি আর বেড়ানোর ছবি যেসব তিনি দুই তিনটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যেমে ইতিমধ্যে ছড়িয়েছেন তারপর আগমন করলেন ব্লগে *এখানেও বাদ যাবে কেনো* তারপর শুরু হয় মন্তব্যর ঝর ! - বাহঃ, বেশ, চমৎকার, রুচিবোধের প্রশংসা করতে হয়, সেইরাম হইছে, অচাম হইছে - এইসব কি ! এইসব ব্লগিং !! - নাকি ফেসবুকের নাদান নাবালক নাবালিকার উৎপাত !!!

***আজকে ব্লগে কোনো ব্যাক্তি একটি ধর্ষণের ছবি দিয়েছেন ব্লগে কোনো মৃত শিশুর মাথা থেতলানো ছবি - ছবি দেখেই মাথা এলোমেলো হয়ে যাবে - এই ছবি তো পত্রিকাতেও জায়গা হবে না। আমিও ধর্ষণ নিয়ে লিখেছি ব্লগে। কিন্তু এই ধরনের ছবি দিয়ে ব্লগের নামে মানসিক অত্যাচার কতোটা ন্যায় ?

ব্লগে লিখতে চাই - কিন্তু বিরক্ত লাগছে বেশ কিছুদিন যাবত, তাই এখন আর লেখার মন মানসিকতা হয়ে উঠে না।



৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:২৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


কিছুদিন ব্লগিং করে, কিছুটা অভিজ্ঞ হওয়ার পর, অনেক ব্লগার ব্লগ ছাড়ছেন, নতুন ব্লগারদের লেখাই আমরা বেশী পড়ছি; একই বৃত্তে ঘুরছি, মনে হয়; এটা ঠিক, অনেকেই ফেসবুকের অভিজ্ঞতা নিয়ে ব্লগে আসছেন।

৯| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৩০

জাহিদ অনিক বলেছেন: আমি অফলাইনে ছিলাম। আপনার এই লেখাটা পড়ার পরে লগিন করতে হলো।
লেখক বলেছেন:


ভেতরে কি অন্তসার একবারেই শুন্য?
না মোটেই শূন্য না। ব্লগে অনেক লেখা দেখতেছি যেগুলো হয়ত সে ফেসবুকে দিয়েছিল বেশী লাইক পেয়ে ভেবেছে ব্লগেও দেয়া যায়। এমন পোষ্ট সত্যিই পড়তে চাই না। কোনও পোষ্ট ব্লগে দেয়ার আগে তিন বার চারবার ভাবা উচিত।

কবিতার ক্ষেত্রে- নিজের কাছে সেটা কবিতা বলে মনে হলে তবেই দেয়া উচিত। কবিতার নামে যা তা দেয়া ঠিক না। যদিও কেউ কেউ দিচ্ছেন, কিছু বলাও যাচ্ছে না। কি বলতে আবার কি বুঝে !

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:২৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


কবিতার বেলায়, কমপক্ষে কবির কাছে ভালো লাগতে হবে; অবশ্য সব লেখার বেলায়, লেখকের ভালো লাগতে হবে; যদি পাঠক কমও হয়, লেখক যেন অনুভব করেন যে, পড়ে নিজের কাছে ভালো লেগেছে।

১০| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪০

আহমেদ জী এস বলেছেন: চাঁদগাজী,




সম্ভবত ব্লগের পোস্টগুলোতে আপনার দেয়া মন্তব্যগুলো কেন যে করেন তার একটা যৌক্তিক ব্যাখ্যা পাওয়া গেল এই লেখায়। আপনার অমন মন্তব্যগুলোর পেছনের কারন আমি জানি অনেক আগে থেকেই। অনেকেই জানেন না বলে আপনার উপর নাখোশ থাকেন সব সময়। বিদ্বেষও ছড়ান কেউ কেউ।

কাওসার চৌধুরী সাথে আমিও বলি - ব্লগ "বাঁধ ভাঙার আওয়াজ" হলেও ব্লগারদের পাবলিক প্লাটফর্মে কি লিখছেন, কেন লিখছেন, কাকে উদ্যেশ্য করে লিখছেন এই বিষয়গুলো সেলফ সেন্সর করার প্রয়োজন আছে। আরো যোগ করে বলি - লেখার স্বাধীনতা আছে বলেই আপনি যা খুশি তা লিখতে পারেন না। উন্মুক্ত প্লাটফরমে লিখতে হলে উন্মুক্ততার পরিধি জানতে হবে, বুঝতে হবে। স্বাধীনতা আছে বলেই যে আমরা ন্যাংটো হয়ে রাস্তায় হাটবো, তা কিন্তু করিনা।

একটু ভেবেচিন্তে লিখুন, আমরা আপনার পোষ্ট পড়তেছি
এই শিরোনামটির শানে নযুল এবার নিশ্চয়ই সবার বোধগম্য হবে। কারন মূল লেখায় ( কপি করা গেলে তুলে ধরতে পারতুম) অতি সরল ভাবে মনে হয় সবার মনের কথাটিই উঠে এসেছে যদিও তিরষ্কারের ভয়ে , সম্পর্ক নষ্ট হবার আশংকায় তারা মুখে এমনটা রা কাড়েন না।

আশা করি, এই লেখাটি আপনাকে বুঝতে অনেককে সাহায্য করবে। পাশাপাশি এটাও অনুরোধ, আপনার মন্তব্যের কিছু কিছু তীর্যক ভাষা আপনি নিজেই পরিহার করবেন যদিও এমন কথা আপনার কোন পোস্টে আমি আগেও করেছি।
শুভেচ্ছান্তে।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৩২

চাঁদগাজী বলেছেন:


অনেকই কিছু একটা পোষ্ট করতে হবে ভেবেই কিছু একটা টাইপ করে দেন; এটা সঠিক হচ্ছে না; অনেক পাঠক এখানে ৮/১০ বছর পড়ছেন; তাঁরা নিশ্চয় কারো উপস্হিতি নিয়ে মাথা ঘামান না, তাঁরা পড়তে চান, সুন্দর কিছু একটা পড়তে চান; এটা বুঝার দরকার।

১১| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৭

কাজী মাসউদ বলেছেন: আপনার সাথে দ্বিমত করার সুযোগ নেই। তবে নতুনদের হাত পাকার জন্য কোন সুযোগ তৈরী করা দরকার।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪১

চাঁদগাজী বলেছেন:


কত কমজানা ব্লগারকে নতুন বলা সম্ভব?

১২| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫০

রাজীব নুর বলেছেন: আমি আপানর প্রতিটা পোষ্ট এবং পোষ্টের মন্তব্য গুলো মন দিয়ে পড়ি।
সবাই ভালো লিখতে পারে না। সবার চিন্তা ভাবনা করার ক্ষমতাও এক নয়।
যারা অগোছালো লিখে তবু তাদের সাহস আর ভরসা দিতে হবে। তারা এলোমেলো লিখে লিখেই ভালো লিখতে শিখবে।
আমি গত এক বছর প্রত্যেকের পোষ্টে গিয়েছি। তাদের ভালো মন্তব্য করেছি। উৎসাহ দিয়েছি।
ব্লগ তো আর আমার অফিসের বস না যে অনেক ভেবে চিন্তে বলতে হবে। ব্লগ হলো স্বাধীন। এখানে ১০০% লেখার স্বাধীনতা আছে।
কেউ'ই চায় না খারাপ লিখতে। তবু কারো কারো লেখা সস্তা হয়ে যায়।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৫৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


ভালো লেখা একদিনে হয় না, সময় লাগে, এবং প্রচেষ্টার দরকার হয়; লেখা এক লেভেলে দীর্ঘদিন থাকলে, পাঠক সেটা পড়তে চাহে না।

১৩| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:১৪

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: শ্রদ্ধেয় মান্যবরেষু ,

বেশ ভালো একটি বিষয়ে আলোকপাত করেছেন। প্রথম পেজে লেখার সুযোগে অনেকে ব্লগকে ফেসবুক আকারে ব্যবহার করেন। কয়েকজনকে দেখেছি একই পোস্ট পরপর দুবার পোস্ট করতে। পোস্ট দিয়ে এরকম অনেক ব্লগার দেখেন না যে তাদের পোস্ট রিপিট হয়ে গেছে। সঙ্গে থাকে বানান ভুলের ছড়াছড়ি। হয়তো অনেকে সাধারণ লেখালেখি করে নিজের মান উন্নতির চেষ্টা করেন । কিন্তু এরকম দায়িত্বজ্ঞানহীন পোস্ট দিলে উন্নতি তো হবেই না উল্টে পাঠকদের বিরাগভাজন হতে বাধ্য। কয়েকজন আবার পোষ্টের সঙ্গে ছবি দিয়ে পেশার বিজ্ঞাপনও দেন। ব্লগ একটি উন্মুক্ত ডিজিটাল মঞ্চ যেখানে অনেক কিছু লেখা যায় আবার শেখাও যায়। যে কারণে সকলের একটু দায়িত্ববোধ হওয়াটা বোধহয় দরকার।
ব্যক্তিগতভাবে কাউকে নিরুৎসাহিত করা - আমার না পছন্দ। কিন্তু এমন লেখা যে ব্লগের মান কমাতে বাধ্য তা অস্বীকার করি কেমন করে।

শ্রদ্ধা ও শুভকামনা সতত।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৫৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


পাঠকের মনে দাগ কাটার মতো কিছু থাকতে হবে লেখায়; সেটার দিকে যেতে হবে।

১৪| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:২৪

নাহিদ০৯ বলেছেন: খুব ভালো লাগলো আপনার এই পোষ্ট টা।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৫৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


ভাবার দরকার, ব্লগের পাঠকদের বুঝার দরকার।

১৫| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৪০

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন:





এটা একটা পাবলিক প্ল্যাটফর্ম তাই ভেবে লেখা জরুরি। পারসোনাল ব্লগে যা খুশি তা লেখা যেতে পারে তবে স্যোসাল ব্লগে নয়।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:০১

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগের পাঠকদের বুঝে, ভেবেচিন্তে পোষ্ট করার দরকার।

১৬| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৪৯

:):):)(:(:(:হাসু মামা বলেছেন: ওস্তাদ আমার কি অবস্থা বুঝতে পারছেন ? আমি কি কোন দিন ব্লগ লেখতে বা ব্লগার হতে পারবো ? :)

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:০৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার রাজনৈতিক লেখাগুলো অনেকটা খবরের মতো, আপনার নিজস্ব বক্তব্য, মতামত কম থাকে; অনেক সময় মুল বিষয় পরিস্কার হয় না।

১৭| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৫২

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: ব্লগে দরকার হলে কম লিখুন কিন্তু ভেবেচিন্তে লিখুন সবাই | কম সংখ্যক কিন্তু মানসম্পন্ন ব্লগ পোস্ট পাঠকদের অনেক বেশি আনন্দ দেয় | একথা মানি ব্লগ হলো স্বাধীন এবং এখানে সবারই লেখার স্বাধীনতা আছে। কিন্তু তাই বলে সবাইকে prolific লেখক হতেই হবে এমনটা ঠিক নয়,আর বেশি সংখ্যক ব্লগ পোস্ট করে কারো কারো সেলিব্রিটি হওয়ার চেষ্টা করাটাও অনেক সময় হাস্যকর ঠেকে পাঠকদের কাছে | আর বন্ধুবান্ধবদের "সেইরাম হইছে, পোস্টে +++, অছাম .." প্রশংসার ঠেলায় অত্যুৎসাহী হয়ে কারো কারো সকাল বিকাল পোস্ট প্রসব করাও সাধারণ পাঠকদের জন্য যন্ত্রণার কারণ হয়ে দাঁড়ায় |

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:০৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



কিছু কিছু পাঠকের মন্তব্যের তেমন ওজন থাকে না, এটাও সমস্যা

১৮| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:০৭

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
অনেকদিন পরে আপনার একটা গঠনমুলক একটি মহামূল্যবান
লেখা পাইলাম যাহা পাঠ করিয়া পাঠককূল উপকৃত হইবার সমূহ
সম্ভাবনা রহিয়ছে। তিরস্কার, উপহাস এবং খোঁচা মারা বক্তব্য/মন্তব্য
সংশ্লিষ্ট পোস্টে না করিয়া আলাদা ভাবে আপনার আগ্নেয়গিরী থেকে
লাভা উদগীরণ করিয় মহতী কর্মটি সাধন করিয়াছেন সেই জন্য আপনাকে
সাধুবাদ জানাইতেছি। তবে ধর্মীয় ব্যাপারে আপনার উন্নাসিকতা পরিহার
করিবার স্বনির্বন্ধ অনুরোধ জানাইতেছি। যাহার যাহার ধর্ম বিশ্বাস নিয়ে
তাহাদের থাকিতে দিন। জিব্রাইল (আঃ) কুরআনে তাকে পবিত্র আত্মা বা
রুহুল কুদুস বলা হয়েছে। আল্লাহর আদেশ-নিষেধ এবং সংবাদ আদান-প্রদান
যেসব ফেরেশতার দায়িত্ব, জিব্রাইল তাদের প্রধান। বলা হয়, জিব্রাইল-(আঃ} ই
আল্লাহর নবীদের বা বাণীবাহকদের কাছে ওহী পৌছিয়ে দিতেন।

জিব্রাইল আঃ বিভিন্ন রকম আকৃতি ধারণ করতেন। তিনি মানুষের আকৃতি ধারণ করতেন। আবার কখনো কখনো তিনি ফেরেশতার আকৃতিও ধারণ করতেন কিন্তু সেটা তাঁর পূর্ণাঙ্গ আকৃতি ছিল না। রাসূল সঃ বলেন, আমি জিব্রাইল আঃ কে দেখেছি আর তাঁর ছিল ৬০০ ডানা। রাসূল সঃ বলেন, তিনি আল্লাহ প্রদত্ত একটি বিশাল সিংহাসনে উপবিষ্ট হয়ে সম্পূর্ণ দিগন্তকে ঢেকে ফেলতেন। রাসূল সঃ আরও বলেন, ঐ ৬০০ ডানা শুধু ছড়ানোই থাকতো না, তাঁর ডানাগুলো থেকে প্রতিনিয়ত মনি মুক্তা ঝরতে থাকতো। আর তাঁর ডানার রং ছিল সবুজ, তাঁর পায়ের পাতার রং ও ছিল সবুজ। ফেরেশতার আকৃতিতে তাঁকে এমন দেখাতো, আর তিনি হলেন অন্য সকল ফেরেশতাদের চেয়ে আলাদা।

জিব্রাইল আ কয়েকজন মানুষের আকৃতি ধারণ করতেন। তাঁকে বিভিন্ন রকম দেখাতো। কিন্তু যখন তিনি রাসূল সঃ এর নিকটে আসতেন তিনি সুনির্দিষ্ট একটি রূপ নিয়ে আসতেন। রাসূল সঃ বলেন, জিব্রিল আ কে দিহইয়াহ ইবন খালিফা আল কালবি রা এর মত দেখাতো। দিহইয়াহ রা কে বলা হতো বনু কালবের ইউসুফ। দিহইয়াহ কে বলা হতো বনি কালবের ইউসুফ।

যরত জিব্রাইল (আঃ) কে আসল আকৃতিতে দেখার ঘটনা।
প্রথমবার তিনি যখন হেরা গুহায় অবস্থান করছিলেন, তিনি হযরত জিবরাঈল ( আঃ) তাঁর আসল আকৃতি দেখানোর অনুরোধ করেন। হুযুরের অনুরোধের প্রেক্ষিতে তিনি তাঁর আসল আকৃতি ধারণ করে দেখান।
দ্বিতীয়বার মেরাজ শরীফের ঘটনায় তাাঁকে আসল আকৃতিতে দেখেছেন অর্থ্যা “সিদরাতুল মুনতাহা ” নামক সেই উর্ধ্ব জগতে।
তৃতীয়বার মক্কায়“ আজয়াদ নামক স্থানে দেখেছেন। এই ঘটনা নবুয়াত প্রাপ্তির নিকটবর্তী সময়ে সংঘটিত হয়েছিল।
চতুর্থবার হুযুরের শ্রদ্বেয় চাচা হযরত আবু হামযা (রাযিঃ) যখন অনুরোধ করেছিলেন যে, আমি হযরত জিবরাঈল (আঃ) কে তাঁর আসল আকৃতি সহকারে দেখতে চাই। তখন প্রথম, হুযুর (সাঃ) তাঁকে নিষেধ করলেন যে, আপনি তাঁকে দেখতে পারবেন না। কিন্তু তিনি আবারো আরয করলেন যে, আপনি অনুগ্রহ করে দেখিয়ে দিন। তখন হুযুর (সাঃ) বললেনঃ আপনি বসুন। হযরত হামযা (রাযিঃ) তাঁর পাশে বসে গেলেন। এ সময়ে হযরত জিবরাঈল (আঃ) অবতরণ করেন। হুযুর(সাঃ) হযরত হামযা (রাযি) কে বললেন ঐ যে চেয়ে দেখুন। তিনি দৃষ্টি উঠিয়ে দেখলেন। হযরত জিবরাঈল (আঃ) এর দেহ সবুজাভ পাথরের ন্যায় চমকাচ্ছিল। হযরত হামযা (রাযি) এই উজ্জল্য সহ্য করতে না পেরে বেঁহুশ হয়ে পড়ে গেলেন।
এগুলো মুসলমানদের বিশ্বাস। সুতরাং তাদের বিশ্বাস নিয়ে ঠাট্টা মসকরা করা থেকে বিরত থাকুন।

আপনার চক্ষুদ্বেয়ের প্রতি আন্তরিক যত্নবান হইবেন।
আপনার সু-স্বস্থ্য কমনা করছি।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৪০

চাঁদগাজী বলেছেন:


জিব্রাইল (আ: )'এর কথা এসেছে উদাহরণ হিসেবে; ধর্ম সম্পর্কে মানুষের ভাবনাচিন্তা নিশ্চয় লজিকের বাহিরে নয়; যেমন, কারো আকার যদি পৃথিবীর সমান হয়, কোন মানব সন্তান উনাকে দেখতে পারার কথা নয়; অথবা তাঁকে দেখতে হলে চাঁদের সমান দুরত্ব থেকে দেখতে হবে।

যাক, আমি বলছিলাম, ভেবেচিন্তে লেখার জন্য

১৯| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:০৮

পবন সরকার বলেছেন: হে হে হে চাঁদা গাজী ভাই, কি আর কমু-- লগইন করার ইচ্ছা আছিল না, শুধু আপনার ল্যাহাডা পড়োনের লাইগা লগইন করলাম। এতদিনে একটা ভালো কথা কইছেন। আমি আপনারে হগগলের চাইতে বেশি ধন্যবাদ দিলাম। তয় আপনি একটু মন্তব্যতে নরম হইয়া ঠেলামারা মন্তব্য না কইরা গঠন মূলক মন্তব্য করলে ব্লগাররা আরো খুশি হইবো। হগগলেই আপনার এই লেহার প্রশংসা করছে এহন দেহি আপনার সমবয়সি দোস্ত নুরু ভাই কি বলে? হের লাইগা চাইয়া আছি। তয় আমরা কিন্তু আপনারে অসংখ্য ধন্যবাদ দিয়া গেলাম।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:


ভালো, আমি মন্তব্যের বেলায়, ভাবনাচিন্তা করবো।

২০| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:১০

পবন সরকার বলেছেন: আহহারে কপালডাই মন্দ---- আমি কওনের আগেই নুরু ভাই অলরেডি মন্তব্য কইরা ফালাইছে।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৪৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনি আমার পোষ্টে উদার চিত্তে, খোলামনে মন্তব্য করেন; আমার পোষ্টে মন্তব্য করাটা উনার জন্য আনন্দদায়ক হওয়ার কথা

২১| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:১৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আপনার সাথে এ লেখায় একেবারেই সুযোগ নেই দ্বিমত করার। চমৎকার লেখা! অনেকের মন্তব্য ই ভালোলেগেছে এবং আমার মতামত ও সেসব মন্তব্যে উঠে এসছে।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৪৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


সমযয়ের সাথে, ব্লগারেরা ক্রমেই মানসম্পন্ন লেখা পড়ার দাবী রাখেন।

২২| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:২৭

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
পবন সরকার বলেছেন: আহহারে কপালডাই মন্দ---- আমি কওনের আগেই নুরু ভাই অলরেডি মন্তব্য কইরা ফালাইছে।

কপাল আপনার মন্দ নয়। চাঁদমারীর মতো বিশাল কপাল আপনার। মুখ থেকে বের করার আগেই অধম হাজির!
আমি এই পোস্টে তাকে নসিহত করেছি কারো পোস্টে বাটারিং, অয়েলিং এবং ফুয়েলিং করতে না পারলেও কারো ধর্ম বিশ্বাস নিয়ে ফ্লাটারিং করবেন না।
তার অদ্যকার লেখার শিরোনাম কোট করেই তাকে বলছি একটু ভেবেচিন্তে লিখুন, আমরা আপনার পোষ্ট পড়তেছি

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:১৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমিও ভাবছি, আমার পাঠক যেন হতাশ না হন।

২৩| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৫৮

সুমন কর বলেছেন: ছোট ছোট করে সবই তুলে ধরেছেন।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:১৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগিং এক সীমাহীন সুযোগ, ইহা লেখার মান বাড়াতে পারে খুবই সীমিত সময়ের মাঝেই।

২৪| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:০০

সিগন্যাস বলেছেন: আপনি যা করতে বলছেন তা তো পুরোপুরি কমিউনিস্ট চিন্তাভাবনা। লোকজন যা ভালবাসে তাই লিখবে।যেমন কামরুন্নাহার কলি জিবরাইল এর ডানা নিয়ে লিখতে পছন্দ করেন তাই লিখেছেন।সবাই যদি নিয়ম মেনে লেখা শুরু করে তাহলে তো রবোটের সাথে কোন পার্থক্য রইলো না।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৩৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি অবশ্য সোস্যালিজমের ভক্ত, সেটা হয়তো আমাকে কিছুটা একচোখা করতে পারে; মানুষ যা লিখেন, সেটা উনাকে বুঝতে হবে, সেটার মাঝে সাধারণ লজিক থাকতে হবে: জিব্রাইল ( আ: )'এর আকার যদি পৃথিবীর সমান হয়, এবং উনার যদি ৬০০ পাখা থাকে, এবং সেগুলো থেকে যদি মণিমুক্তো পড়তে থাকে; পৃথিবীতে কত ফুট মনিমুক্তো বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা?

২৫| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:০৯

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: ব্লগের প্রত্যেকটা পোস্টই কোন না কোন ক্লাসিফেকেসনে পড়ে। আমি আপনি যা লিখতে চাইছি এই টাইপের লিখা গুলি ভাল লিখকরা কি ভাবে লিখছেন, তাঁদের পোস্টগুলি পড়ে একটা ধারনা নেয়া দরকার। তার পর লিখুন, নিজে অন্তত ১০ বার পড়ুন। আপনার নিজের কাছে যদি ভাল লাগে তবেই পোস্ট করুন।
ব্লগে কেউ পাঠক হতে চায়না, সবাই লিখক হতে চায়। সমস্যার মুল কিন্তু এখানে।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৩৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


লেখার আগে, বিষয়ের উপর সমসাময়িক কিছু পড়ার দরকার! আমার পোষ্ট আমি বেশ কয়েকবার পড়ি, নিজের পোষ্ট পড়তে ভালো লাগে।

২৬| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:১৫

আরোগ্য বলেছেন: প্রথমে বলতে চাই এভাবে সমসাময়িক ব্লগার হাবিব স্যারের নাম উল্লেখ করায় আমি দুঃখিত। সিনিয়র ব্লগার হিসেবে আপনাদের উচিত জুনিয়রদের দিকনির্দেশনা দেয়া, যাতে তারা নিজেদের ভুল শুধরে নিতে পারে এবং সামুকে ভালো কিছু দিতে পারে।

এছাড়া বাকি কথাগুলোর সাথে দ্বিমত পোষণ করার কোন কারণ নেই। ঠিক একই কারণে আমিও ইদানিং ব্লগে কম থাকি। আমার মনে হয় আবারও যদি মাইনাস মার্কিংয়ের ব্যবস্হা করা হয় তবে কেউ যা ইচ্ছা তা ই পোস্ট করার সাহস করবে না।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৪০

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিষয়ভিত্তিক লেখার সম্পুরক কিছু লেখা সম্ভব, কবিতার সম্পুরক কবিতা মানায় না।

২৭| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১০:২৫

জাহিদ হাসান বলেছেন: ব্লগে লিখার আগে আমি খাতায় লিখে একটা ড্রাফট তৈরি করি। তারপরে সেটা ব্লগে প্রকাশ করি।
প্রকাশের আগে বন্ধুবান্ধবদের দেখিয়ে মান যাচাই করেছি অনেকগুলো।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:


অনেকের নিজস্ব পদ্ধতি আছে; ভালো পোষ্টের জন্য এগুলোর দরকার আছে।

২৮| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:১০

আখেনাটেন বলেছেন:

একটি সাধারণ থিওরি হল: লিখতে হলে জানতে হবে; জানতে হলে পড়তে হবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে আমরা পড়তে কিংবা জানতে কতটা ইচ্ছুক??? গত একবছরে কে কয়টা বই কিংবা...? কবি এখানে নিরব। জ্ঞানভিত্তিক সমাজের উল্টোপথে রয়েছি আমরা। তাই আমাদের হাত দিয়ে গার্বেজ বের হবে না তো কি...

কবিতা লিখছে অথচ দশটা ভালো কবিতা পড়ে দেখে নি; গল্প লিখছে কিন্তু দশটা ভালো গল্পকারের নামও জানে না। বিকাশের আগেই প্রকাশ হওয়ার জন্য আমরা সবাই মাতাল হয়ে গেছি।

আমার মতে প্রতিটা লেখা লিখে লেখকের নিজেকেই প্রশ্ন করা উচিত (আমি করি), 'এই গার্বেজটি আদৌ অন্যকে গেলানো উচিত কিনা'। যখন মনে হয় এটার ফলে অন্যদের বদহজম হওয়ার সম্ভাবনা কম (যদিও অনেক সময় মিস ফায়ার করে :P ) তবেই লেখাটি ব্লগের পাতায় ভুস করে ভেসে উঠে।

তবে ইদানিং লেখার সেই ইচ্ছেটাও মরে গেছে মনে হচ্ছে। কিছু লেখা আছে সেগুলো পোস্ট করতেও মহাবিরক্তি ভর করেছে। ব্লগে লগ ইন করতেও বিরাট আলসেমী...আপনার ভাষায় 'পিগমী' হয়ে গেলাম নাকি আবার। :(

ভালো ভালো লেখায় ব্লগপাতা ভরে উঠুক। আর আপনার এই মূল্যবান সমালোচনা কিংবা পরামর্শগুলোও ব্লগে আমাদের লেখার মানের উত্তরোত্তর উন্নতি ঘটাক এই কামনা।


৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:২৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


বই পড়ার কথা উঠলে, আমার অবস্হা কাহিল; আমার অবশ্য কারণ আছে: চোখের কারণে আমার পক্ষে কয়েক পাতা একাধারে পড়া সম্ভব নয়।

নিজের লেখা নিজের কাছে ভালো লাগাটাই লেখার মান মাপার বড় একটা উপায়।

২৯| ২৯ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:২০

করুণাধারা বলেছেন: জিবরাঈল আলাইহিস সালাম সংক্রান্ত লেখাটা পড়ার পর আমিও হতবাক হয়ে গেছিলাম- এমন উদ্ভট পোস্টে উৎসাহব্যঞ্জক মন্তব্যকারী আছেন দেখে! যাক, অন্তত এই ব্যাপারে আপনার সাথে আমার মতের মিল হলো........... B-)

ভালো লিখেছেন। পোস্টে আপনার সব ভাবনায় সহমত।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:১৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


ধর্মীয় ব্যাপারে যা পরিস্কার নয়, যা লজিক্যাল নয়, সেটার উপর আলোকপাত করা, বা উহাকে সম্প্রসারণ করা ঠিক নয়।

৩০| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৩৮

রাকু হাসান বলেছেন:




আমরা নিজেদের লেখার প্রতি উদাসীন । শওকত আলী তাঁর বিখ্যাত বই প্রদোষে প্রাকৃতজন লিখতে ২০ বছরের মতো সময় নিয়েছিলেন যতটুকু বিভিন্ন মাধ্যমে জানতে চেয়েছি । মহামূল্যবান বইটি নিশ্চয় দীর্ঘজীবী করবে । খোয়াবনামা বইটি লিখতে লেখক দীর্ঘ দিন থেকেছিলেন সংশ্লিষ্ট এলাকাতে । অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন।তারপর লিখছেন।জীবনান্দ দাসের নাক ড্রাম থেকেও নাকি চারটি বই উদ্ধার হয়েছিল ,যা তিিনি প্রকাশ করতে চাচ্ছিলেন না। আখতারুজ্জামান ইলিয়াস স্যারের অগ্রন্থিত প্রকাশিত গল্পগুলোও পাঠক মহলে প্রশংসিত অথচ গার্বেজ ভেবে রেখেই দিয়ে ছিলেন । ইংরেজ লেখক শ্লীম্যান ঠগীদের লিখতে গিয়ে তো ওদের রক্তেই মিশে গেলেন ।হেমিংয়ে a farewell to arms বইটি লিখতে ৩৯ রিভিউ করেছেন । তারপর পাবলিশ । সেই বই কেমন জনপ্রিয় জানেন নিশ্চয় ।

এমন উদাহারণের অভাব নেই । দুঃখজনক হলো আমরা জেনে বুঝেও সচেতন হচ্ছি না । নিজের মান বৃদ্ধি করছি না । অবশ্যই ভেবে চিন্তে লেখা উচিত । ব্লগে যখন প্রথম পাতায় শর্তে কর্তৃপক্ষ উদার হলো ,তখনই একটা ভাবনা এসেছিল।একটা নেতিবাচক প্রভাব পড়বে । সহজে পার হয়ে তাঁরা ফেসবুক আর ব্লগ একসাথে মিলিয়ে ফেলছে। আমাদের দ্বায়বদ্ধতাও অনেক বলে আমিও মনে করি । গঠনমূলক মন্তব্য রাখি না। রাখলেও পোস্ট দাতা ইতিবাচকভাবে গ্রহণ করে না ,অনেক সময়ই । এত কিছুর মাঝেও ভালো লেখা অল্প হলেও আসছে বলেই আমার মতামত ।তবে সংখ্যাটা খুব কম তা ঠিক । দারুণ একটি জিনিস নোটিশ করেছেন আপনি । এসব কারণে কিছু গুণী ব্লগার সমস্যায় আছেন।

আখেনাটেন--এখন প্রশ্ন হচ্ছে আমরা পড়তে কিংবা জানতে কতটা ইচ্ছুক??? গত একবছরে কে কয়টা বই কিংবা...? কবি এখানে নিরব ;) =p~ ,কবি নিরব হলে চলবে না :)
জ্ঞানভিত্তিক সমাজের উল্টোপথে রয়েছি আমরা।---একমত পোষণ করছি আমি ।

আপনার পোস্টের সুন্দর ভাবনার সাথে আমিও একমত । দোয়া প্রার্থী উত্তরোত্তর যেন মান সম্মত লেখা লিখতে পারি । আমার জন্য পাঠশালা হয়ে গেল পোস্ট ও মন্তব্য ,পাঠগ্রহণ করতে পারলেই সার্থক । ।শ্রদ্ধা স্যার ।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৫১

চাঁদগাজী বলেছেন:


লেখার মান বাড়তে সময় লাগে; আমি কিছু ব্লগারের লেখায় ভালো পরিবর্তন দেখেছি; কিন্তু অনেকে শুধুমাত্র ঝুলে আছেন; তাঁদের লেখা পড়তে গিয়ে, পড়া শেষ হয় না।

৩১| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৩:৫৬

সোহানী বলেছেন: পোস্টে সহমত।

তারপরও ভাবি নতুনরা যা কিছু পারুক তা দিয়েই লিখা শুরু করুক। তারপর আস্তে আস্তে ম্যাচিউর হবে।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪০

চাঁদগাজী বলেছেন:


কোন বিষয়ে লেখার আগে, সেই বিষয় নিয়ে একটু ভাবার দরকার; তখন, সিমানটিক ভুল হওয়ার সম্ভাবনা কম; কমপক্ষে, পাঠক বিরক্ত হবেন না।

৩২| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৪:৪৪

রাফা বলেছেন: হুমমম....কথা কিন্তু আংশিক সত্য । আমরা যা বলি বা বিশ্বাস করি ।তা কি নিজেরা মেনে চলি ? প্রথমে সব কিছুর শুরুটা করতে হয় নিজের ঘর থেকে।এই কথাটা সবাই বলি ।কিন্তু করি ঠিক তার উল্টোটা।

আমি কবিতা ,গল্প,ছড়া আরো অনেক জনারের লেখাই লিখতে পারিনা ।তাহলে কি আমার লেখার অধিকার নেই ? মনে করুন আমার কবিতা ভালো লাগেনা।তাই বলে কি যারা লিখছে তাদেরকে অসন্মান করার অধিকার আমার আছে? আমি মনে করি নেই ,অনেকের কাছে সেটাই হয়তো ভালো লাগছে।

এর পুর্বেও অনেকবার আমি বলেছি ।ব্লগের নিতীমালা মেনে দুর্বল সবল সব রকমের লেখাই লেখার অধিকার সবারই আছে।ঠিক তেমনি আপনার ভালো না লাগলে তা এড়িয়ে যাওয়ার অধিকারও আপনার আছে।এখানে কেউ কারো মুখাপেক্ষী নয়।বরং কাউকে ব্যাক্তি আক্রমন ও অপ্রাসাঙ্গিক মন্তব্য করে হেয় করাটাই অপরাধ।সমালোচনা বা আলোচনা সব কিছুই গ্রহণযোগ্য কিন্তু নোংরামি অবশ্যই পরিত্যাজ্য?
পরিশেষে অন্যের অধিকার খর্ব করে আমার অধিকার প্রতিষ্ঠা যেনো মূল লক্ষ না হয়।অনেককেই দেখেছি কিছুই লিখতে পারতোনা ।কিন্ত লিখতে লিখতে মোটামুটি মানে পৌছে গেছে।সুযোগ পেয়েছে বলেই এটা সম্ভব।আমি কারো মত বা পথ রুদ্ধ করার পক্ষে নই।সেটা আমার মতাদর্শের না হলেও।

লেখা চলছে ………চলবে……

ধন্যবাদ,চাদঁগাজী।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৩৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


কবিতা নিয়ে আমি খুব একটা কিছু বলতে চাই না; আমি নিজে কবিতা লিখতে পারি না; শুরুতে সব কবিতার মান সমান হবে না, এটা সত্য; তবে, বছরের পর বছর, একই বৃত্তে ঘুরতে থাকলে, ব্লগারের নাম দেখে অনেকই হয়তো ক্লিকও করবেন না। বিষয়ভিত্তিক লেখার সময়, লেখার মান ও সমসাময়িক বেন্চমার্কের দিকে নজর দেয়ার দরকার। আমি লেখার পক্ষে, তবে লেখকের কাছে যেন নিজের লেখাটিকে ভালো লাগে।

৩৩| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৫

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: আসলেই আজকাল ব্লগে ভালো লেখা আসছে না। চিন্তা ভাবনা করে লেখার পরিবর্তে যেনতেন ভাবে লিখে পোস্ট দেওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। আপনি একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন। ধন্যবাদ।

উনার মন্তব্যের সাথে আমি এক মত।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৫৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনি সময় নিয়ে, সাজিয়ে লেখেন; যাঁদের পাঠক আছে, তাঁদের স্টাইল ইত্যাদি বুঝার দরকার।

৩৪| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:১৮

বলেছেন: শিক্ষনীয় পোস্ট - ভালো লাগলো।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:১১

চাঁদগাজী বলেছেন:


ভেবেচিন্তে পোষ্ট করলে, লেখার মান উপরে যাবার সম্ভাবনা আছে

৩৫| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:৪৬

পুলক ঢালী বলেছেন: আপনার পোষ্টের সাথে সহমত। চাকুরীর বিষয়ে একটা ব্যাপার চোখে পড়লো ডমিষ্টিক যে কয়টা ফ্লাইটে উঠেছি প্রত্যেকটিতে দেখেছি বুড়ো বুড়ীরা কেবিন ক্রু হিসাবে কাজ করছে। অবাক হয়ে কারন খুঁজে মনে হলো যুবক যুবতীরা বোধহয় এই কাজ পছন্দ করছেনা অথবা বেতন পছন্দ করছেনা। আর বুড়োবুড়ীরা মনে হয় সময় পার করার জন্য কাজ করছেন, কারন তারা যে ভাতা পায় তাতে তাদের চলে যায়। আমার এমন মনে হলো, তবে আমার ধারনা ভুলও হতে পারে। ভাল থাকুন।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:২৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমেরিকায় গড়ে, সর্বনিম্ন বেতন ১৫ ডলার হয়ে যাওয়ায়, অনেক বয়স্করা ভাতায় চলতে পারবে না; এখন থেকে শতকরা ৩০/৩৫ ভাগ বয়স্ককে কাজ করতে হবে।

৩৬| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:১৬

নতুন নকিব বলেছেন:




ধর্মীয় বিষয়ে লিখুন, ভেবেচিন্তে লিখুন: জিব্রাইল (আ: )'এর ৬০০ ডানা থেকে হীরা, মনিমুক্তো ঝরছে লিখলে, আমাদের মনে অবশ্যই প্রশ্ন আসবে, হীরা, মনিমুক্তোগুলো ঝরে কোনদিকে পড়ছে? মনিমুক্তো কোনদিকে ঝরে পড়ছে সেটা জানলে আমার হয়তো চাকুরী করার দরকার হবে না, কি দরকার তরুণ তরুণীদের সাথে প্রতিযোগিতা করার? জিব্রাইল (আ: )'এর শরীর নাকি এত বড় যে, সেই শরীর দ্বারা পৃথিবীকে আচ্ছাদন করে দেয়া সম্ভব! তা'হলে পাঠকের মনে প্রশ্ন আসতে পারে, উনি হেরা পর্বতের গুহায় কিভাবে প্রবেশ করলেন? লেখেন, তবে পাঠকের কথাও মনে রাখেন, লেখাগুলোকে একটু লজিক্যাল করার চেষ্টা করেন; যা শুনেছেন, শুধু তা লিখলে, বিশ্বে নতুন ভাবনা আসবে কোথা থেকে; বিশ্বে সবকিছু বদলে যাচ্ছে প্রতিদিন! আগে যেসব এলাকার লোকজন লেখাপড়া জানতেন না, যা'তা বলতেন; এখন তারা লেখাপড়া শিখছেন, ভেবেচিন্তে কথা বলছেন!

--- এই পোস্টটিতে কয়েকবার মন্তব্য করার ইচ্ছে করেও আবার ফিরে গেছি। গতরাতেও তাই করেছি। পোস্টটির উদ্দেশ্য যে ভালো তাতে সন্দেহ নেই। এরকম বিষয়ে পোস্ট দেয়ায় আপনাকে ধন্যবাদও জানাচ্ছি।

কিন্তু অন্যদের সাবধান করতে গিয়ে সেই সাবধানতার পোস্টেই আপনি জিবরাইল আলাইহিসসালাম এর হেরা গুহায় প্রবেশ করা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করা বিষয়ক মুসলমানদের ধর্মীয় বিশ্বাস নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। এটা না করলেই বরং ভালো হত।

এছাড়াও পোস্টে ব্লগারদের নাম উল্লেখ করার প্রয়োজন ছিল না। এতে কাউকে হেয় করা হচ্ছে কি না বিষয়টিও আমাদের মাথায় রাখা উচিত।

আপনার চোখের যত্ন নিচ্ছেন আশা করি। আপনি যে এই বয়সে ব্লগিং করেন সেটাই বড় কথা। আপনার সুস্থতা কামনা করছি।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমার মনে হয়, ধর্মগুলোতে কিছু বিষয় আছে, যেগুলোতে মানুষ নিজের অজান্তেই বিবিধ কিছু যোগ করছেন; যেমন জিব্রাইল (আ: )'এর পাখা থেকে হীরা-মণিমুক্তো ঝরার কথা লিখেছেন এক ব্লগার; আমি যোগ করলাম, "হীরার টুকরো থেকে "ঝলমল আলোক বিচ্ছুরিত হতে থাকে চারিদিকে"; এটা লজিক্যালী ভুল হবে না; কিন্তু সমস্যা যোগ হবে; এগুলো ভেবে দেখবেন, ব্লগারেরা এসব বিষয়ে লিখতে কিভাবে লিখলে, ধর্মকে না বদলায়ে লেখা সম্ভব।

৩৭| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ২:৪৬

কাল্পনিক_ভালোবাসা বলেছেন: এই পোষ্টের সাথে ধর্মীয় কোন কনফ্লিক্ট নেই। যে ঘটনাটি বলা হয়েছে, সেটা উদহারন হিসেবে বলা হয়েছে। এই সব বুঝতে পারার জন্য স্যার আইজ্যাক নিউটন হবার প্রয়োজন নেই। সব কিছু সব সময় ধর্মের চোখ দিয়ে না দেখে মানুষের চোখ দিয়ে দেখা প্রয়োজন। অনেক মানুষ আছেন যারা ধর্মীয় বিভিন্ন বর্ণনায় মাত্রাতিরিক্ত ম্যাটাফোর ব্যবহার করে সামগ্রিক ঘটনাটিকে হাস্যকর করে তোলেন। তারা আশা করি সর্তক হয়ে শুধুমাত্র সঠিক বর্ণনা করবেন, এমনটাই প্রয়োজন। আশা করি অপ্রয়োজনীয় বিতর্ক বন্ধ হবে।

আর এটা একটা কমিউনিটি ব্লগ, যে যার ইচ্ছে তা লিখে প্রকাশ করবে। মত প্রকাশের একটি সুনির্দিষ্ট নীতিমালা আছে। সেটা অনুসরন করলেই হবে।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৩১

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার অনুধাবনের জন্য অনেক ধন্যবাদ; শিক্ষার লেভেল অনুসারে ধর্মের ব্যাখ্যাগুলোও কিছুটা লেভেল বদলায়; ব্লগে, ধর্মকে যেন বিতর্কিত না করা হয়, সেটার দিকে খেয়াল রেখে লিখলে ভালো হবে।

৩৮| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:১৪

রাজীব নুর বলেছেন: আরেকবার এসে পোষ্ট এবং মন্তব্য গুলো মন দিয়ে পড়লাম।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগে লেখার সময়, পাঠকদের বর্তমান লেভেলকে গণনায় রাখার দরকার।

৩৯| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:২৪

ব্লগ মাস্টার বলেছেন: আপনি আমার পোস্টের মানে বুঝেন নাই সেটা নিশ্চয় আপনার ব্যাক্তিগত বিষয় । B:-/

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


৭ লাইনের পোষ্টে, "বিয়ে করে লাভ নেই' বলতে আপনি কি বুঝাতে চেয়েছিলেন, যা আমি বুঝতে পারনি? একটু বুঝায়ে বলেন।

৪০| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৩০

কানিজ ফাতেমা বলেছেন: স্যার কেমন আছেন?
অনেকদিন পর ব্লগে লগইন করে আপনার লেখাটিতে হিউমারের চমৎকার উপস্থাপনায় মুগ্ধ হলাম এবং আপনার সাথে সহমত পোষন করছি। হতে পারে প্রথম দিকে হয়তো লেখার ক্ষেত্রে কিছু দূর্বলতা থাকবে কিন্তু সেটা যেন কন্টিনিউ না করে এটা অবশ্যই আমাদের ভেবে দেখা উচিৎ । আপনার এই লেখাটি পড়ার পর অন্তত আমি চেষ্টা করবো আরেকটু সচেতন হতে ।

আপনার সুস্বাস্থ এবং দীর্ঘায়ূ কামনা করছি ।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমাকে স্যার ইত্যাদি ডেকে বিপদে ফেলবেন না, জাষ্ট সহ-ব্লগার; লেখার মানের ব্যাপারটার সাথে সময় একটা ফ্যাক্টর, এটা সঠিক! তবে, চেষ্টা করতে হবে, বিষটাকে ভেবেচিন্ত উপস্হাপন করতে; এতে পাঠক বাড়বে।

৪১| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৪

শায়মা বলেছেন: ভেবে চিন্তে লিখতে হবে কথাখানা অবশ্য সত্য.....

যেন লেখা এমন না হয় যা পড়ে কারো ক্ষতি, দুঃখ, হতাশা বা ভুল শিক্ষার সুযোগ না হয়.... লেখার সময় দেশ ও দশের কথা স্মরণে রাখতে হবে.....

কথাও অতি সাবধানেই বলা উচিৎ যেন তা শুনে অন্যের ক্ষতি, দুঃখ, হতাশা বা ভুল শিক্ষার সুযোগ না হয়......

এই বিশ্ব যোগে কাজ কর্মও একটু সাবধানে ও সামলেই করা উচিৎ যেন নিজের ও অন্যের সমস্যা না হয় .....

তবে সৃজনশীল প্রতিভা ক্রমাগত চর্চায় বর্ধিত হয় .....তাহা কখনই এক লাফে আসমানে উঠে না মানে উচ্চস্তরের হতে পারে না .......

তবে অতিরঞ্জিত কথন বা লেখক হাস্যরসের সৃষ্টি করিয়া আমাদিগকে বিনোদিত করে...... কাজেই ভাবুক না ভাবুক লেখা পড়ে যদি হাসতে হাসতে হাসিতেও মোনি মুক্তো ঝরে ..... মন্দ কি ভাইয়া??? :)

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২১

চাঁদগাজী বলেছেন:


কিছু কিছু ব্লগার ব্লগে থেকেও সহ-ব্লগারদের নিয়ে তেমন ভাবছেন না, না ভেবে কিছু একটা লিখে যাচ্ছেন, আমাদেরকে ফিল্টার করতে হচ্ছে

৪২| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০৮

সৈয়দ সামিদ বলেছেন: ভাবিতে ভাবিতে যায় বেলা , ভাবনাগুলো আর হয় না লেখা

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



সেটা হয়তো অলসতা, কিংবা অতি ভাবনা

৪৩| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৫

গড়ল বলেছেন: তাহলেতো আমারও যা কিছু লিখেছি তাও আর লেখা যাবে না, আমার কোন পোষ্ট কোনদিন নির্বাচিত পোষ্টে যায় নাই। তার মানে হচ্ছে আমার লেখা মাণসম্মত না, অতএব আমার আর ব্লগিং করা হবে না।

৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার লেখা আমি প্রায়ই পড়ি, নির্বাচিত পোষ্টে কেন যায়নি, সেটা বলতে পারবো না; নির্বাচিত পোষ্টে এলাকায় আমি যাই না, আমি আলোচিত পোষ্টগুলো দেখি; আলোচিত পোষ্টে যেতে হলে, আপনাকে অন্যদের পোষ্ট পড়তে হবে।

৪৪| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২৭

কাজী ফররুখ আহমেদ বলেছেন: @ আরোগ্য বলেছেন: প্রথমে বলতে চাই এভাবে সমসাময়িক ব্লগার হাবিব স্যারের নাম উল্লেখ করায় আমি দুঃখিত। সিনিয়র ব্লগার হিসেবে আপনাদের উচিত জুনিয়রদের দিকনির্দেশনা দেয়া, যাতে তারা নিজেদের ভুল শুধরে নিতে পারে এবং সামুকে ভালো কিছু দিতে পারে।

< হাবিব সাহেব ব্লগার নন, যেদিন ব্লগার হবেন নিজের নিক বদলে নতুন কোনো নিকে এসে সবাইকে জানাবেন তাঁর ভুল নিক ছিলো, সামহোইয়ারইনব্লগে তার নাম কিভাবে “হাবিব স্যার” হয় তাও একটি রম্য রচনা ! - কালকে কেউ আব্বা নামে নিক খোলে নিলে সবাই কি তাকে আব্বা নামে ডাকবে ? - এটিও মানতে হবে ! তিনি ব্লগে শুধু যে জুনিয়র তা নয়, তিনি বয়ষেও জুনিয়র, তার চেয়ে অনেক বয়ষ্ক লোক, সিনিয়র ব্লগার, সহ সম্মানী লোক ব্লগে অতি সামান্য নিক নিয়ে ব্লগিং করছেন, “নিকে নয় - লেখায় তাঁদের পরিচয়” আর হাবিব সাহেব ব্লগে হাবিব স্যার হয়ে জন্মেছেন এটি নিতান্ত শিশু সুলভ আচড়ন না বলে বলতে হবে জোকার টাইপ হয়ে গেলো না ?

<ব্লগে তো এ্যাডমিন “কাল্পনিক ভালোবাসা” ভাই পারতেন নতুন একটা নিক খোলে নিতে যেখানে তার নাম হবে “ব্লগ বাদশাহ অমুক”, ব্লগ সম্রাট তমুক - তিনি তা করেন নি, কারন শিক্ষা মানুষকে জ্ঞানের আলো দেয়, আর কুশিক্ষা ভিসি স্যারের মতো ১০ টাকার আলুর চপ সিঙ্গারা আর এক কাপ চা এর বিবৃতি দিতে উৎসাহ দেয়।

<বাংলাদেশে বিল্ডিং ও বাউন্ডারী দেয়ালে এতোদিন দেখতাম S@IFUR'S SIR, LI@KAT'S SIR - এদের কাছে কারা পড়ে জানি না, তবে আমি পড়ি নি, কারণ তাদের নিজেদেরই শিক্ষার অভাব আছে, আমার মতো অভাজনেকে অন্ধকার কুয়োতে ফেলে দেবেন তখন আমিও ফররুখ না হয়ে সাথে স্যার অথবা নামের ভেতর @ নিয়ে চড়ে বেড়াবো।


৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:২২

চাঁদগাজী বলেছেন:


পাবলিক ডোমেইনে নিকগুলো মানানসই হলে ভালো হয়!

৪৫| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:১৬

আখ্যাত বলেছেন: রাজিব নুরের কমেন্ট ভাল লেগেছে।
আসলে উসাইন বোলটরাও একসময় হামাগুড়ি দিতো।

৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


শুরুটা নিয়ে কেহ হয়তো মাথা ঘামাবে না; কিন্তু সময়ের সাথে ভালো করার চেষ্টা অব্যাহত রাখার দরকার।

৪৬| ৩০ শে জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:০৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: অনেক সমালোচনা করলেন অন্যদের। আপনার নিজের লেখাগুলোর আত্মসমালোচনা কবে করবেন? আপনার রাজনৈতিক লেখাগুলো কি আদৌতেই মানসম্পন্ন লেখা?

৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:২৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমার নিজের দিকে নজর দেবো।

৪৭| ৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৫০

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: এ পর্যন্ত আপনার যতগুলো লেখা পড়েছি তার মধ্যে আজকের লেখাটি আমার কাছে অধিক যুক্তিযুক্ত মনে হয়েছে। এই লেখাটির জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:১৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


ধন্যবাদ; আশাকরি, ব্লগারেরা লেখক হিসেবে সুপরিচিতি পাবেন।

৪৮| ৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৭

সিগন্যাস বলেছেন: জার্মানি নিয়ে একটা পোস্ট করুন। আমেরিকাকে বাদ দিলেই তারাই বিশ্বের সেরা প্রযুক্তিধর রাস্ট্র।

৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আচ্ছা, লিখবো; আপনি নিজেই চেষ্টা করেন!

৪৯| ৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৪০

নজসু বলেছেন:




শ্রদ্ধেয়, আশা করি ভালো আছেন।
আপনার পোষ্ট এবং প্রিয় ব্লগারদের কমেন্টগুলো খুব মন দিয়ে পাঠ করলাম।
আপনার পোষ্টের বিষয়বস্তুর সাথে আমি একমত।

কমেন্টের মধ্যে আরোগ্য ভাইয়ের কমেন্টটির সাথে একমত।

৩১ শে জানুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:৫৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগারেরই এই দেশের অন্যতম লেখকে পরিণত হবেন শীঘ্রই, দরকার প্রস্তুতি

৫০| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৬

অপর্ণা মম্ময় বলেছেন: বহু বছর পর ব্লগে আসলাম। পাস ওয়ার্ড ভুলে গেছিলাম। বহু কসরত করতে হলো।
এসেই আপনার পোস্ট খুঁজে নিয়ে পড়লাম।
সময় সুযোগ পেলে একটু ঘুরে দেখব ব্লগে এখন ব্লগাররা কি কি লিখছে আর ব্লগাররা কি কি পড়ছেন!

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২১

চাঁদগাজী বলেছেন:


এসব টেকনিক্যাল সমস্যাগুলো হতাশ হওয়ার জন্য যথেষ্ঠ; যাক, লিকার শুরু করেন।

৫১| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:০৫

রূপক বিধৌত সাধু বলেছেন: এমনিতেই কিছু লিখতে পারি না, ইদানীং একটু লিখতে শুরু করেছিলাম। এখন তো মনে হচ্ছে থেমে যেতে হবে।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৮:৫২

চাঁদগাজী বলেছেন:


থামতে হবে কেন? লিখে পড়বেন, আপনার কাছে ভালো লাগলে পোষ্ট করবেন; এতে, পাঠকেরা খুশী হবেন, মনে হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.