নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পদহীনদের জন্য শিক্ষাই সম্পদ

চাঁদগাজী

শিক্ষা, টেকনোলোজী, সামাজিক অর্থনীতি ও রাজনীতি জাতিকে এগিয়ে নেবে।

চাঁদগাজী › বিস্তারিত পোস্টঃ

মেলায় ব্লগারদের বই কিনুন প্রথমে, তারপর পয়সা থাকলে

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:১৫



তারপরেও পয়সা থাকলে বিনা-বরফে ১ গ্লাস করে তরমুজের শরবত খাবেন প্রত্যেকে! গত বছর মেলায় ৪৫৯০টি নতুন বই বের হয়েছিলো, বই বিক্রয় হয়েছে ৮০ কোটি টাকার; মাত্র ৫ বছর আগে্, ২০১৩ সালে ৩৯৬৩টি নতুন বই প্রকাশিত হয়েছিলো, বিক্রয় হয়েছিলো মাত্র ১০ কোটী টাকার বই; ৫ম বছর ৮ গুণ বেশী টাকার বই বিক্রয় হয়েছিলো! বইয়ের দাম বেড়েছে, নাকি পাঠক বেড়েছে?

গত বছরের মেলায়, নতুন বইদের মাঝে শতকরা ৯০ ভাগই নাকি গার্বেজ ছিলো! তা'হলে, পাঠকেরা কি ৭২ কোটী টাকার গার্বেজ কিনেছিলেন? আমার ভাবনা, ৭২ কোটীর গার্বেজ পড়ে, বিশাল পরিমান পাঠক নিজের মগজের ভেতর গার্বেজের বীজ বপন করেছেন!

আপনি কি গার্বেজ কিনবেন টাকা দিয়ে? তা কিনেন, বই শেষ করে ব্লগে আসেন, আমরা টের পাবো, গার্বেজের এ্যারোমা সময়ের সাথে বাড়ে, কখনো কমে না; এলাকায় বেশী পরিমাণ কাউয়া থাকলে কিছুটা রক্ষা।

আপনারা সামুর ব্লগারদের চেনেন: আমাকে চেনেন, ব্লগার খায়রুল আহসান সাহেবকে চেনেন, ব্লগার শায়মাকে চেনেন, ব্লগার কানিজ ফাতেমাকে চেনেন; আমি এই রকম ৫০/৬০ জনের নাম বলতে পারবো, যাঁদের লেখা ব্লগে আপনারা নিয়মিত পড়ছেন, কমেন্ট করছেন, আলাপ করছেন; তাঁদের লেখার সাথে আপনারা পরিচিত। এসব ব্লগারেরা অপরিচিত নতুন কোন লেখক নন, এঁরা হচ্ছেন, যাঁদের সাথে প্রতিদিন আপনাদের কথা হচ্ছে, আলাপ হচ্ছে, যাঁদেরকে আপনারা জন্মদিনে অভিনন্দন জানাচ্ছেন, প্রশংসা করছেন; এঁরা হঠাৎ করে ৭২ কোটী টাকার গার্বেজ উৎপাদন করবেন না। এঁদের বই কিনলে নিশ্চয়তা আছে, ভালো বই কিনবেন; আপনাদের পয়সাগুলো ভালোভাবে ইনভেষ্ট হবে, আপনারা পরিবারের লোকদের কাছে গল্প করার সুযোগ পাবেন; পয়সা খরচ করার পর, আপনার নিজের মুল্য বেড়ে যাবে।

এই বছরের জন্য একটা বড় সুযোগ পাচ্ছেন, আমার সাথে আপনার পরিচয় থাকলেও আমার বই কিনতে হবে না; আমি বই বের করিনি: সম্প্রতি, আমি লক্ষ্য করেছি যে, ব্লগের প্রতিষ্টিত কিছু ব্লগার আমার পোষ্টে আসেন না, কমেন্ট করেন না; অর্থাৎ আমার বাজার ছোট হয়ে এসেছে, বই বের করার জন্য এটা ভালো সময় নয়। এই বছরও আমি চোখের সমস্যায় ভুগছি, মেজাজও তেমন ফুরফুরে নয়; কেহ আমার বই পড়ে খারাপ রিভিউ করলে হয়তো যুদ্ধ লেগে যাবে; যুদ্ধ থেকে দুরে থাকাই ভালো!

ব্লগারদের একটি সংকলনও বের হয়েছে, সেটা কিনলে আপনি একই সাথে ২০/২৫ জনের লেখা পেয়ে যাবেন; ওখানে কারা কারা লিখেছেন, আমি ঠিক জানি না; তবে, আলোচনার প্রথম ৫ লাইন পড়ে বুঝলাম যে, ব্লগার গিয়াসুদ্দিন লিটন আছেন ওখানে; উনি ফেনীর মানুষ, ঐ এলাকার লোকজন রম্যের জন্য বেশ পরিচিত; মনে হয়, উনি রম্য লিখতে পারেন; উনি রম্য লিখলে আপনি অবশ্যই হাসবেন; ব্লগারদের বই কিনুন, হাসুন, আর তরমুজের শরবত খান।

মন্তব্য ৬১ টি রেটিং +১২/-০

মন্তব্য (৬১) মন্তব্য লিখুন

১| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৩৯

নজসু বলেছেন:



সুন্দর আহ্বান।
আমি দূরে থাকি। অনলাইন থেকে যতোটা সম্ভব প্রিয় ব্লগারদের বই কিনবো।
ভালো থাকবেন শ্রদ্ধেয়।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৫৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমিও দুরে, তরমুজের শরবত হয়তো খাওয়া হবে না; তবে, বই সংগ্রহ করা সম্ভব হবে, আশাকরি

২| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৭:৫৯

আরোহী আশা বলেছেন: সুন্দর আহবান, আপনার সাথে সহমত

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:০০

চাঁদগাজী বলেছেন:


তরমুজের শরবত পছন্দ করেন তো?

৩| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:২১

রাজীব নুর বলেছেন: তরমুজের জুস অহরহ পাওয়া যায় না।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:০১

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংলাদেশে অনেক তরমুজ হয়; ত্রিপুরা চলে যযায় নাকি?

৪| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:২৩

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: 100% সহমত আপনার সঙ্গে। কম বাজেট হলেও অন্তত একটি বই কেনা দরকার ব্লগারদের। এতে ব্লগারদের মন মানসিকতা বা নতুন লেখার প্রতি যেমন আগ্রহ বাড়বে তেমনি বাণিজ্যিক দিকটিও উপকৃত হবে।
লিটনভাইদের সংকলন সহ অন্যান্য ব্লগারদের বই পেতে ব্যক্তিগতভাবে আগ্রহী হলেও কলকাতা বইমেলায় সে সুযোগ নেই । আগামী দিনে ব্লগাররা সংশ্লিষ্ট পাবলিশার্স এর সঙ্গে কথা বলে যদি কলকাতা বইমেলায় বই পাঠানোর ব্যবস্থা করে তাহলে আমরাও বই ক্রয়ের সুযোগ পাবো।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:০৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


কলকাতার বইমেলা কতদিন চলে? আগামী বছর ব্লগার রাজিব নুর কলকাতা বই মেলায় যেতে পারেন।

৫| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:৩০

সোহানী বলেছেন: হাহাহাহা.......আপনার লিখা মানেই নতুন ভাবনার খোরাক। ভালোলাগলো ব্লগারদের প্রতি আপনার আত্মবিশ্বাস দেখে। এটা এক ধরনের কঠিন ভালোবাসা, এর থেকে আপনার পরিত্রান নেই কিন্তু।

আহবানে কঠিনভাবে সহমত। আর বই বের করার অনুরোধ থাকলো। আপনার বই জনপ্রিয়তা পাবে এ ব্যাপারে গ্যারিন্টি দিতে পারি।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:০৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগারেরা নতুন জেনারেশনের বাংগালী, এঁদের লেখা প্রতিদিনই অন্য ব্লগারেরা পড়ছেন; লেখা নিয়ে আলোচনা, সমালোচনা হচ্ছে, তর্ক-বিতর্ক, মান খারাপ হচ্ছে; এর থেকে বেশী রিফাইন হওয়ার উপায় নেই; ফলে, বই ভালো হওয়ার কথা, শতকরা ৯০ ভাগের মাঝে পড়ার সম্ভাবনা নেই।

এখন থেকে প্রতিদিন ১ টাকা করে জমাতে থাকেন, আগামী বছর আমার বই বের হবে। এখন থেকে সবার সাথে ভালো হয়ে যাবো।

৬| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:৩৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
দেশে গিয়ে বই কিনবো।
বেশী বেশী বই পড়া দরকার।
গার্বেজ হলেও পড়া দরকার।
কাদের মাথায় গার্বেজ তৈরী হয় জানা যাবে।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:১০

চাঁদগাজী বলেছেন:


কিছু সমস্যা হচ্ছে: কিছু লোকজন লিখতে জানেন না, কিন্তু হাতে টাকা আছে; এদেরকে টাকার বিনিময়ে বই ছাপিয়ে দিচ্ছেন কিছু ভুয়া প্রকাশক; এতে বেশ গার্বেজ এসে গেছে বাজারে

৭| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৩৮

রাফা বলেছেন: এ্যাডভ্যার্টাইজমেন্ট ভালো হইছে ব্লগারদের পক্ষে।আপনিও ২/৪টা কিনিয়েন...মুক্তধারায় কিছু কিছু বই চলে আসছে ।মার্চে নিউ ইয়র্কে বই মেলা হবে।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:১২

চাঁদগাজী বলেছেন:


বই সংগ্রহ করার ব্যবস্হা করছি।

৮| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:১৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: কলকাতার বইমেলাতে নতুন লেখক মূলত ব্লগারদের বই না পাওয়াতে আমি হতাশ।[/sb

এইবার বুঝেন অবস্থা। কি পরিমান কবি সাহিত্যিক গিজগিজ করছে এপার বাংলায়!!! তার ওপড় আপনিও আপনার পোস্টে অধিক পরিমান কমেন্ট পাবার প্রত্যাশায় বিজ্ঞাপন করতে নেমে গেছেন!!!!!

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:১৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি কমেন্ট পছন্দ করি; তবে, অপ্রয়োজনীয় কমেন্ট ভালোবাসি না।

৯| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৪৩

বাকপ্রবাস বলেছেন: গতকাল সময় পাইনি তায় আপনাকে কথা দেয়া আলমগীর মোহাম্মদ সিরাজ এর ফেইসবুকে পোষ্ট করা লাষ্ট কবিতাটা আজ শেয়ার করলাম


আলমগীর মুহাম্মদ সিরাজ
January 9 at 6:37 PM ·
আমি শপথ করছি যে...

আমি শপথ করছি যে,
গোপন চক্ষু দিয়ে আর কখনো ধারন করবো না দরদী শকুনের নাচ।
আর কখনো আঁকবো না বুলেটের আঁচড়ে বিভৎস শিল্পকর্ম হয়ে যাওয়া মানুষের শব্দচিত্র।
আমি শপথ করছি,
অপ্রাপ্ত বয়সে অপবিত্র হয়ে যাওয়া এই কানে আর কখনো শুনবো না বোবা বৃক্ষের গান।
কক্ষনো শুনবো না, সঞ্চিত অন্ধকারের প্রগাঢ়তায় ডেকে ওঠা অনার্য শিয়ালের উল্লাস।
আমি শপথ করছি,
এই টেরাকোটা হৃদয়ে আর কখনো পুষবো না কুকড়ানো চুলে মায়াবতী মেঘ নিয়ে দেশান্তরীত নারীর প্রেম।
আর কখনো জমাবো না বর্তমানের চাকায় ধমনীর ব্লাড দিতে দিতে জেগে থাকা সংশপ্তকের মায়া।
অবশেষে দুর্বৃত্তদের মতো নিজের বিবেককে পেরেকবিদ্ধ করে এলোপাতাড়ি জখমে বানিয়ে ফেলবো অজ্ঞাতনামা লাশ।
তারপর আমি অন্ধ হবো,
বধির হবো,
বোবা হবো।
ধীরে ধীরে হয়ে উঠবো একখণ্ড পাথর। সময়ের ক্ষরস্রোতা ঢেউয়ে ক্রমাগত ক্ষয়ে যাবে তার শরীর। আমি শপথ নিলাম আজ।

০৯, ০১, ২০১৯
আলমগীর মুহাম্মদ সিরাজ
চট্টগ্রাম।

https://www.facebook.com/msirajuazad?eid=ARBXj-CaIGw-mkGi8l3uFxHZVuBFqOi4VGZxxx4LlXwIZQyOjl0K9pb1cp35QNPI_LGB3pYtJz89e4x3

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:১৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনার জন্য শুভেচ্ছা রলো; তবে, উনার কবিতাটা ভালো লাগেনি

১০| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৫৪

কানিজ ফাতেমা বলেছেন: ব্লগারদের প্রতি আপনার এই আত্মবিশ্বাসে মুগ্ধতা । আপনার লেখা বই বের হলে সেটা দারুণ হবে । কারন আপনার প্রতিটি লেখায় ভিন্নতা থাকে । আর কিছু হেটার্স থাকে যারা কখনো বুঝে এবং কখনো না বুঝেই শুধু শুধু বিক্রিয়া দেয় ।

সবোর্পরি অাপনার সুস্থতা এবং দীর্ঘায়ূ কামনা করছি ।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:১৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


ধন্যবাদ, চোখ ভালো হয়ে যাবে, আশাকরি।

আপনি ও অন্য ব্লগারদের লেখার প্রতি আমার আস্হা আছে সব সময়।

১১| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১১:৫৪

নাহিদ০৯ বলেছেন: ব্লগারদের বই নিয়ে ব্লগে একটা স্টিকি পোস্ট করা দরকার। স্টল নম্বর আর ব্লগার এর নাম সহ অল্প কিছু তথ্য নিয়িমত আপেডট হবে এরকম একটা পোস্ট!!

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


সেটা প্রতি বছরই হয়ে থাকে; এবারও নিশ্চয়ই হবে।

১২| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৭

আখেনাটেন বলেছেন: হা হা হা। বেশ মজা করে লিখেছেন। :D


বেশি বেশি বই কিনি আমরা সকলেই।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:২১

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগারদের বই ব্লগারদের কিনতে হবে; এতে ব্লগারদের বই'এর সন্মান বাড়বে।

১৩| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:১৩

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: প্রতিমন্তব্যে আবার আসা। কলকাতা বইমেলা সপ্তাহব্যাপী ( ৭+১) চলে। 31 শে জানুয়ারি মেলার উদ্বোধন হয়েছে ; চলবে 6 ও 7 ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।
কিছুদিন আগে ওনার মা আর ছোট ভাই কলকাতা থেকে ঘুরে গেছেন। আগামীবার উনি এলে নিশ্চয় আমার সঙ্গে দেখা হবে ; যেমন আশাকরি আপনার সাক্ষাতেরও।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আগামী বছর কলকাতায় আসব, আপনার সাথে দেখা হবে; রাজিব নুর ও আরো কিছু ব্লগারসহ আসবো আমরা, কয়েকটা স্কুল, ২/১ টা কলেজ, ইউনিভার্সিটি ইত্যাদি ঘুরে দেখার ইচ্ছে আছে।

১৪| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৫

গড়ল বলেছেন: ব্লগারদের কি কি বই বের হয়েছে একটা লিষ্ট পেলে ভালো হত, আসলে বুঝব কিভাবে যে কোন লেখক সামুতে ব্লগিং করে।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:



শীঘ্রই ব্লগে নিশ্চয়ই বইয়ের লিষ্ট, ষ্টল নম্বর দিয়ে পোষ্ট ষ্টিকি হবে; একটু তাড়াতাড়ি ষ্টিকি এসে গেলে ভালো হতো, শেষে ব্লগারেরা যদি বাজেটের টাকা খরচ করে ফেলেন সমস্যা হবে।

১৫| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: ব্লগে অনেকে অনুবাদ লিখে প্রসদ্ধি, যেই অনুবাদ আমি হয়তো ৩০-৪০ বছর আগে পড়েছি, তাছাড়া ব্লগে যেই কবিতা আছে তা নিয়েও সন্দিহান আমার কেনো জানি মনে হয় এই গুলোও অনুবাদ। ইরানী/আরবী/রাশিয়ান/সিরিয়ান - কবিতা/গান গুগল ট্রান্সলেটে দিয়ে ট্রান্সলেট করে নিজে কিছু শব্দমালা বসিয়ে নিতে হবে - হয়ে গেলো কবিতা । কাজী নজরুল রবীন্দ্রনাত বেঁচে থাকলে এতো এতো কবিতা দেখে নির্ঘাত মামলা ঠুকে দিতেন !!!

আর বাসার রান্না ও তার ছবি যারা ব্লগে দিয়ে ২০০ কমেন্ট যোগার করেন তাদের বই মাজাদার হবার কথা না তাদের রান্না হয়তো মজাদার হতেও পারে !!!

বই মেলায় প্রচুর বই প্রকাশ হয় তার মধ্যে অনেক বই পল্টন নীলক্ষেত ফুটপাতে চলে যায় - এটি দুঃখজনক হলেও স্বার্থকতা আছে - মেয়ে পড়ালেখা ছাড়া কি করেন - তিনি একজন লেখিকা, পাত্র কি করেন - তিনি একজন লেখক ! এই নিন পাত্র পাত্রীর লেখা সহ ব্যাক কভারে তাদের ছবি সম্বলিত বই। - !!!


০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ বিকাল ৫:০০

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগারদের মাঝে যাঁরা বই লিখেছেন, এঁরা ব্লগে নিজেদের রিফাইন করার সুযোগ পেয়েছেন; ফলে, অন্য লেখকদের থেকে এঁদের ভাবনাশক্তি বেশী চ্যালেন্জের সন্মুখীন হয়েছেন।

১৬| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৪

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন:
লেখাজোকা১ খোঁজলাম সিলেটে; পাইনি। দু'দিনের সফরে সিলেট গেছিলাম, কাওসার ভাইয়ের সাথে দেখা হয়েছে। ঢাকা আসার পথে উনার বইয়ের গল্পগুলো পড়লাম অনেক সুন্দ গাঁথুনি। আর কী রৌপ্পিক প্রকাশ। রহমান লতিফ ভাইয়ের জীবনের ব্যাকরণ কাব্যগ্রন্থটিও কেনা হল সেখান থেকে। ভালই লাগলো কবিতাগুলো। মুগ্ধতা আছে বটে। কিন্তু নীল দা'র এক রঙা এক ঘুড়িতে অনেক নতুন বই এখনো পৌঁছায়নি (!) অথচ সিলেটের ১০ দিনের বই মেলার ৪দিন শেষ রেখে এসেছি। আজ মনে হয় নীল দা ওখানে যাওয়ার কথা। জানি না, গেলেন কিনা!


লেখাটা ভাল লেগেছে মুরব্বি ;) +

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি আমাদের মাঝে সবার আগে বই কেনার খবর দিলেন, শুখবর! কাওসার ও লতিফ সাহেবের বই ভালো লেগেছে, এটাও ভালো খবর।

১৭| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: পোস্টে ব্লগারদের প্রতি আপনার ভালোবাসা ফুটে উঠেছে। আমাকেও আপনি আস্থায় রেখেছেন দেখে আমি আবিভুত।
আমি নিজেই আপনার রসবোধের ভক্ত। আমেরিকার অভিজ্ঞতা নিয়ে আপনি একটি বই লিখুন। আগামী বই মেলায় আপনার একটি বই প্রকাশিত হোক এটা অনেক পাঠকই চাইছেন।
শুভ কামনা জানবেন জনাব চাঁদ গাজী।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪১

চাঁদগাজী বলেছেন:


যদিও মাঝে মাঝে রেগেমেগে যাই, তারপরও ব্লগারদের সন্মান করি।

১৮| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫২

তারেক ফাহিম বলেছেন: পোষ্টটি লেখার সময় সম্ভবত মেজাজ ফুরফুরা ছিল B-)

আপনার আহ্বান ভালো লাগছে।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৩

চাঁদগাজী বলেছেন:



আমি বেশীরভাগ সময়ে হাসিখুশী থাকি; সমস্যা হয়ে যায়, কেহ যদি আমার পোষ্টের সমালোচনা করে!

১৯| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:১২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: বাহ ! খুব ভালো লাগলো আপনার এ লেখা!
আপনি নিঃসন্দেহে একজন ভালো ব্লগার ! ব্লগারদের প্রতি আপনার মমতা লেখায় ফুটে উঠেছে দারুণ ভাবে।
চমৎকার লেখার জন্য ধন্যবাদ !

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার বই তো বের হচ্ছে এবার? শুভকামনা রলো।

২০| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:৫৪

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন:



অবশ্যই কিনবো ।

এক বার গিয়েছি । আরও কয়েক বার যাবো ।

তবে ব্লগারদের বইয়ের উপর একটা পোস্ট দেখে ছিলাম সেটা পেলে ভাল হতো । বই লিস্ট করতে সুবিধা হতো ।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


অবশ্যই আপনার উপর ব্লগার লেখকেরা আশা করছেন।

২১| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১১:১৫

কাওসার চৌধুরী বলেছেন:



লেখক ব্লগারদের প্রতি আপনার দরদ দেখে ভাল লাগলো। আপনি অনেক বড় মনের একজন মানুষ। দোয়া করি, এভাবে ব্লগটিকে প্রাণবন্ত করে রাখুন। আমার "বায়স্কোপ" বইটির জন্য আশীর্বাদ করবেন। সিলেটে গতকাল বইটির সব কপি বিক্রি হয়ে গেছে। ঢাকা আরো পাঠাচ্ছে। আশা করি, ঢাকার মেলায়ও সাড়া পাবো।

ভাল থাকুন।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনার লেখা ব্লগে সমাদৃত হয়েছে; আপনার বই পাঠক পাবে সহজেই।

২২| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:২৭

আলমগীর কাইজার বলেছেন: সুন্দর পরামর্শ।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৪০

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগারেরা ব্লগারদেরকে সহজেই বুঝার কথা।

২৩| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১২:৪৩

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: আপনার সাথে ১০০% সহমত। ব্লগারদের প্রতি এই ভালবাসা সত্যি প্রসংশনীয়।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৪১

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগারেরা একটি নতুন জেনারেশন, এঁরা জাতির জন্য লিখবেন।

২৪| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ১:৪০

বলেছেন:

আপনার প্রজ্ঞাময় একটি বই বের করার প্রতি বিশেষ দৃষ্টি প্রদান ও উদ্যোগ গ্রহণের বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৬:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি লিখলে কি খিচুড়ী হবে, বলা মুশকিল

২৫| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ২:০৯

জাহিদ অনিক বলেছেন:

বাহ ! চমৎকার কথা লিখেছেন।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৪০

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি কি কবি হয়ে যাচ্ছি? অনেক কথা বলতে ইচ্ছে করে; সমস্যা হলো নুরু সাহেব; উনি থামায়ে দেন।

২৬| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৩:৪০

শিবলী আখঞ্জী বলেছেন: ব্লগারগণ গৃহপালিত নন ।ব্লগারদের লেখায় কার্পণ্য নেই ব্লগারদের বই তৈরি হয় সত্য ও সঠিক শব্দের গাঁথুনি দিয়ে। ব্লগারদের লেখা বই নিজে কিনবো অন্যদেরকে উৎসাহ দেওয়ার যথেষ্ট চেষ্টা অব্যাহত থাকবে

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ভোর ৫:৩৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



আমিও আপনার মতো একই ধারণা পোষণ করি! আপনি তরমুজের শরবত পছন্দ করেন তো?

২৭| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:০৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: বাংলাদেশে বই ছাপানোর সাম্প্রতিক চালচ্চিত্র নিয়ে যা বলেছেন তাতে সহমত । বই প্রকাশ নিয়ে এখানে চলে তুঘলকি কাণ্ড। এখানে বই প্রকাশ করার ক্ষেত্রে বলতে গেলে নিয়মনীতি খুব একটা অনুসৃত হয় না । দেশের বেশিরভাগ প্রকাশনীরই নেই কোনো এডিটোরিয়াল বোর্ড। পাশ্চাত্বের দেশগুলোর প্রত্যেকটি প্রকাশনীতেই থাকে একটি সম্পাদকমণ্ডলী । প্রকাশনা সংস্থায় যখন একটি বই জমা পড়ে সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যগণ তখন ভালো করে খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখেন বইটি আদৌ প্রকাশের যোগ্য কিনা। শতভাগ নিশ্চিত না হয়ে কিছুতেই তারা একটি উপন্যাস, গল্প , কবিতা কিংবা অন্য গোছের যে কোনো বই তুলে দিতে চান না পাঠকের হাতে। তারা মনে করেন যে কোনো কারণেই হোক, একটি দুর্বল বই প্রকাশ করে পাঠকদের ঠকানোর অধিকার তাদের নেই। সেখানে প্রায় প্রত্যেকটি লেখককেই সূক্ষ্ম ছাঁকনির মধ্য দিয়ে যেতে হয়। নিজের মেধা, মনন, মনোবল ও দৃঢ়তা দিয়ে স্ব-স্ব লেখক সত্ত্বাকে প্রতিষ্ঠিত করতে হয়। আমাদের দেশে অবশ্য এসব দিক বিবেচনা করলে দেখা যায় একেবারেই ভিন্ন অবস্থা। এখানে ফেব্রুয়ারি মাস এলেই শত শত লেখকযশ্বপ্রার্থী হন্যে হয়ে দৌড়ঝাঁপ শুরু করে দেন। তখন এ সুযোগটিই কাজে লাগান আমাদের দেশের কিছু প্রকাশনালয়। তারা টাকা নিয়ে বই ছাপান। ধারও ধারেন না বইটিতে আদৌ কোনো সারবস্তু আছে কিনা। আর এতে করে বঞ্চিত হন প্রকৃত লেখক। যেখানে নিয়ম হচ্ছে প্রকাশক দৌড়াবে প্রতিভাবান লেখকদের পেছনে সেখানে আমাদের লেখকগণই অনেক ক্ষেত্রে হন্যে হয়ে বেড়ান প্রকাশনালয়গুলোতে। অবশ্য এটা পুর্বেও ছিল বলা যায়, যথা প্রথিতযশা কবি নির্মলেন্দু গুণ তার প্রথম কাব্যগ্রন্থ প্রেমাংশুর রক্ত চাই প্রকাশের জন্য ১৯৭০ সালে বিভিন্ন প্রকাশনীতে ধরণা দিয়ে বারবার ব্যর্থ হন। কোনো প্রকাশকই তার বই প্রকাশের ঝুঁকি নিতে চায়নি। অবশেষে খান ব্রাদার্স নিজ থেকে তার প্রথম কবিতার বইটি প্রকাশে উদ্যোগ গ্রহণ করে।

যাহোক , যে সকল সুলেখক ব্লগারের লেখার সাথে আমরা পরিচিত তাদের বই পাঠে ভাল লাগবে তাতে কোন সন্দেহ নেই । তবে এর বাইরেও অনেক গুণী লেখক থাকতে পারেন যাদেরকে আমরা তেমন চিনিনা কিন্তু তাদের মধ্যেও থাকতে পারে কালজয়ী প্রতিভা এবং তাঁদের রচনা হতে পারে খুবই উচ্চ মানের যা কিনে পাঠ না করা পর্যন্ত বুঝা যাবেনা আসলে সে গুলি কি বস্তু । উদাহরণ স্বরুপ বলা যায় বাংলা সাহিত্যে গ্রামীণ পটভূমিকায় যে বরেণ্য কথাশিল্পী সফল কালজয়ী উপন্যাস রচনা করেছেন তিনি বিভূতি ভূষণ বন্দোপাধ্যায় ।তাঁর প্রথম উপন্যাস পথের পাঁচালী লেখেই তিনি খ্যাতির উঁচু শিখরে উঠেছিলেন । তাঁর পথের পাঁচালী অবলম্বনে নির্মিত ছবিটিই সত্যজিৎ রায়ের পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র এবং এই পথের পাঁচালীর জন্যই তিনি ১৯৯২ সালে অস্কার পুরস্কার পান, যা সকল ভারতবাসী বিশেষ করে বাংলা ভাষাবাসীদের কাছে খুবই গৌরবের বিষয় | তাই আমার মনে হয় আমাদের পরিচিত ব্লগার সহ সকলের বই-ই কেনা উচিত । তবে কেনার পুর্বে কারো কোন বিজ্ঞাপনি কথায় প্রলুব্দ না হয়ে কেনার সময় দোকানে দাঁড়িয়ে বইটির আদি অন্ত কিছুটা হলেও পাঠ করে দেখা যায় , যা আমি নীজেও কোন একটি বই কেনার সময় করে থাকি । কোন একটি বই এর কিয়দংশ পাঠ করলেই বুঝা যায় এটা আমাকে কতটুকু সন্তুষ্টি দিবে আমার টাকা জলে যাবে কিনা কিছুটা বুঝা যাবে বইটি ক্রয় কালেই ।

ধন্যবাদ মুল্যবান একটি পোষ্ট দিয়ে আলোচনার সুযোগ করে দেয়ার জন্য ।

০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৫১

চাঁদগাজী বলেছেন:



প্রকাশকদের শতকরা ৬০ ভাগই ভুয়া; ওরা জানে যে, মানুষের হাতে টাকা এসেছে, মানুষ কিছু একটা ছাপাতে চায়, গার্বেজের মালিকানা নিয়ে মাথা ঘামায় না

২৮| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৮:২৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: এই পথের পাঁচালীর জন্যই তিনি ১৯৯২ সালে অস্কার পুরস্কার পান, যা সকল ভারতবাসী বিশেষ করে বাংলা ভাষাবাসীদের কাছে খুবই গৌরবের বিষয় এর স্থলে কথাটি হবে ১৯৯২ সালে পাওয়া তাঁর একাডেমি সম্মানসূচক পুরস্কারটির (অস্কার) এর ভিত্তি ছিল তাঁর সমগ্র কর্মজীবনের স্বীকৃতি যার মধ্যে পথের পাচালী অন্যতম । এই পুরস্কারটি সকল ভারতবাসী বিশেষ করে বাংলা ভাষাবাসীদের কাছে খুবই গৌরবের বিষয়

০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ৯:৪৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্লগারেরা তরমুজের শরবত খাবেন না, উনারা অন্যদের বইও কিনবেন।

আপনি কি কিছু নিয়ে ব্যস্ত?

২৯| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:০৩

জাহিদ অনিক বলেছেন:
লেখক বলেছেন:


আমি কি কবি হয়ে যাচ্ছি? অনেক কথা বলতে ইচ্ছে করে; সমস্যা হলো নুরু সাহেব; উনি থামায়ে দেন।
আপনি একটা দুইটা কবিতা লিখে দেখতে পারেন। কবিতা যে কেউ লিখতে পারে- এমন কঠিন কিছু না।

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সকাল ১০:০১

চাঁদগাজী বলেছেন:



আসলেই? আমি কবিতা লিখলে, নুরু সাহেব সেটা নিয়ে টিউটরের কাছে যাবেন।

৩০| ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৪

ধ্রুবক আলো বলেছেন: গাজী ভাই, আপনে গ্রেট+++

১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৭

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনার চাকুরী কেমন চলছে?

৩১| ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৯

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: ব্লগার চাঁদগাজীর বই চাই B-))

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.