নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পদহীনদের জন্য শিক্ষাই সম্পদ

চাঁদগাজী

শিক্ষা, টেকনোলোজী, সামাজিক অর্থনীতি ও রাজনীতি জাতিকে এগিয়ে নেবে।

চাঁদগাজী › বিস্তারিত পোস্টঃ

বাংলাদেশ, আধুনিক ক্রীতদাস ব্যবসায়ীদের স্বর্গ

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৮:২২



সরকারের মন্ত্রী, এমপি ও প্রশাসনের কথা শুনলে মনে হয়, আমাদের দেশের মানুষের জন্য চাকুরী সৃষ্টির দায়িত্বে আছে সৌদী আরব, অন্যান্য আরবদেশ, মালয়েশিয়া, আফ্রিকা ও ইউরোপ। ঐসব দেশ আমাদের দেশ থেকে মানুষ না নিলে, আমাদের প্রশাসন ও মিডিয়া মাঝে মাঝে ওদের উপর ক্ষেপে যায়, ওদের আচরণে হতাশ হয়, ওদেরকে দোষারোপ করে, ওদের বন্ধুত্ব নিয়ে সন্দেহ পোষণ করে, অভিমান করে; এতে করে, আমাদের জনতারও বিশ্বাস জন্মে গেছে যে, আমাদের সরকার আমাদের জন্য চাকুরী সৃষ্টি করার কথা নয়, আমাদের সরকারের দায়িত্ব হলো, মানুষ পাঠানোর চুক্তি করা, ওসব দেশকে হাতেপায়ে ধরে মানুষ নিতে অনুরোধ করা।

বাংলাদেশ হলো ৩য় বিশ্বের গলাকাটা ক্যাপিটেলিষ্ট দেশ, এখন এখানে সবকিছুই পণ্য: ভুমিহীন চাষীর ছেলে, দরিদ্র ঘরের মেয়ে, বস্তির কিশোরী সবই পণ্য, দেশের একশ্রেণী মানুষ আবিস্কার করেছে যে, এদের বেচাকেনা করে লাভবান হওয়া যায়। বিশ্বের অনেক গরীবদেশ নিজেদের লোকদের অন্য দেশে কাজ করতে পাঠায়, এতে জাতির দরকারী হার্ড-কারেন্সী আয় হয়; তবে, তারা নিজেদের লোকদের সামাজিক, পারিবারিক, স্বাস্হ্য ও শ্রম-অধিকারকে সমুন্নত রাখে। বাংলাদেশের শ্রমিকদের নিয়ে যারা ব্যবসা করে, তারা "আদমবেপারী" নামেই পরিচিত, নামের সাথে এদের কামের মিল আছে, এরা আসলে এমনভাবে শ্রমিক পাঠায় যে, ইহা আধুনিক "ক্রীতদাস" ব্যবসা ছাড়া অন্য কিছু নয়। এদের কবলে পড়ে মানুষ ভুমিহীন হয়েছে, নতুন বউ'য়ের কানের দুল ও বাপ-মায়ের ভিটাবাড়ী বিক্রয় করে লাখ লাখ মানুষ নি:স্ব হয়ে গেছে; স্বামী স্ত্রী-হীন জীবন কাটায়েছে, স্ত্রী স্বামীহীন জীবন কাটিয়েছে; কিন্তু আদম বেপারীরা সমাজের উপরের তলায় আছে।

আজ সারা বিশ্বে জাতি সমুহের অর্হনীতির স্বাস্হ্য মাপা হয়, জিডিপি, মাথাপিছু আয় ও বেকারত্বের হার মেপে। আমাদের ১৮ কোটী লোকের জন্য আমাদের জিডিপি কম, মাত্র ২৪০/২৫০ বিলিয়ন ডলার হতে পারে; মাথাপিছু আয়ও কম ১২০০ ডলার হতে পারে; তবে, ইহা গড় সংখ্যা, একজন টোকাই'র আয় ১২০০ ডলার, বসুন্ধরার মালিকের আয়ও ১২০০ ডলার, সামিট পাওয়ারের মালিকের আয়ও ১২০০ ডলার।

আমাদের বেকারত্বের হার আসলে কেহ জানে বলে মনে হয় না; সরকার এই নিয়ে কখনো চিন্তিত নয়। বর্তমান বিশ্বে সব দেশের নির্বাচনে বেকারত্বের হার থাকে ১নং নির্বাচনী ইস্যু হিসেবে।

তাজুদ্দিন সাহেব, শেখ সাহেব ও শেখ হাসিনা কখনো বেকারত্বের অবসান ঘটানোর ঘোষণা দেননি; বেকারত্বই যে, আমাদের অর্থনীতির মুল সমস্যা, সেটা এরা ৩ জন বুঝেছিলেন বলে মনে হয় না।

মানুষ নিজের বেকারত্ব নিজে ঘুচানোর চেষ্টা করাতে আদমবেপারীরা, মানে আধুনিক ক্রীতদাস ব্যবসায়ীরা সুযোগ পেয়ে, আজ প্রায় ৪৫/৪৬ বছর এই ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। ক্রীতদাস ব্যবসায়ীরা ও প্রশাসনে অবস্হিত তাদের বেরাদরেরা আমাদের দরিদ্র মেয়েদেরও বিদেশে বিক্রয় করাকে নাগরিক অধিকার হিসেবে চালিয়ে দিচ্ছে। বামরু না হামরু নামের কি এক অর্গেনাইজেশনের চীফ গবেষনাকারী এক পিএইচডি মহিলাও ঘোষণা করেছেন যে, আমাদের নারীদের বিদেশে(সৌদীতে) কাজ করার অধিকার আছে; কিন্তু উনি বলেননি যে, আমাদের দরিদ্র নারীদের বাংলাদেশে কাজ করার অধিকার আছে।

মন্তব্য ৬৫ টি রেটিং +৭/-০

মন্তব্য (৬৫) মন্তব্য লিখুন

১| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৮:৩৮

প্রকৌশলী মোঃ সাদ্দাম হোসেন বলেছেন: আমাদের মাথামোটা পাবলিক ই এটা বুঝে না, সরকারের দোষ দিয়ে আর কি হবে। ধন্যবাদ এটা নিয়ে লেখার জন্য।

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৮:৪৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


ব্যুরোক্রেটরা ও সরকারগুলো মিলে, অনেক চেষ্টা করে সাধারণ মানুষকে স্কুলের বাহিরে রেখেছে, এই কারণেই সাধারণ পাবলিকের মাথটা একটু বেশী মোটা

২| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:০০

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: অকর্মণ্য জনবিরোধী সরকার কেবল সমাজের ওপর তলার মানুষের স্বার্থ রক্ষা করতে ব্যস্ত। তারা কখনোই এই বিশাল কর্মহীন দরিদ্র মানুষদের নিয়ে ভাবে না।

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমাদের সরকারের লোকেরা, প্রশাসনের লোকেরা ও বড় ব্যবসায়ীরা মিলে একটা ক্ষমতাশালী শ্রেণী, এরা বাকীদেরকে ব্যবহার করছে অনেকটা।

৩| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৪২

রাজীব নুর বলেছেন: গত দশ বছরে বহু ট্রাভেল এজেন্সী খুলেছে। তারা বিদেশে শ্রমিক পাঠায়। এত লোক বিদেশে যাচ্ছে, তারা হিমসিম খাচ্ছে। শ্রমিক পাঠিয়ে তারা সীমাহীন টাকা ইনকাম করছে। গুলশান এলাকায় তাদের বিশাল অফিস। তারা নিজেরা শ্রমিকদের বিদেশ যাওয়ার আগে স্বাস্থ্যপরীক্ষা করে, সেখান থেকেও বহু টাকা ইনকাম করে।

আমাদের কর্মসংস্থান মন্ত্রনালয়ের কাজ কি? তারা গত দশো বছরে কয়জন কর্মসংস্থান করেছে? অথচ এই প্রতিষ্ঠানের চেয়ার এমডি এবং জনসংযোগ কর্মকর্তাকে অফিসে পাওয়াই যায় না। অফিসে গেলেই বলে, স্যার দেশের বাইরে আছেন, মিটিং এ আছেন, ট্রেনিং এ আছেন। তাদের মিটিং, কনফারেন্স আর ট্রেডিং এ দেশের কি উপকার হচ্ছে।

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


বর্তমান বিশ্বে সরকারগুলো ১ম দায়িত্ব কর্মসংস্হান করা, এটা এখনো বাংলাদেশ সরকার বুঝতে পারেনি। সরকারী কর্মচারীরা অফিসে বসে নিজ পরিবারের কাজকর্ম করে প্রথমে, সময় পেলে নাগরিকের কাজ করে।

৪| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৪৮

ইমরান আশফাক বলেছেন: বাংলাদেশ কিন্তু সৌদি আরবকে পাল্টা হুমকি দেয়ার সামর্থ্য রাখে, কিন্তু সরকার একথা বুঝলে তো। এত চীফ রেটে এমন কর্মদক্ষ ও পরিশ্রমি শ্রমিক আর কোন দেশ সরবরাহ করতে পারবে না। নারী শ্রমিকের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরনের জন্য গুটিকয়েক শর্ত আরোপই যথেষ্ট। এইগুলি কিন্তু সৌদি আরব জানে কিন্তু আমাদেরকে বুঝতে দিতে চায় না, জানে যে একবার আমরা বুঝে গেলেই তাদের উপর পাল্টা চড়াও হতে পারবো আমরা।

এগুলি বুঝার এবং সরকারকে বুঝানোর দায়িত্ব আমাদের তথাকথিত সুশীল সমাজের (অর্থনীতিবীদ, সমাজবীদ, প্রশাসন, জনপ্রতিনীধি, কূটনীতিবীদ, সাংবাদিক ইত্যাদি), কিন্তু তাদের ধান্ধা ভীন্ন।

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪১

চাঁদগাজী বলেছেন:


একজন বিবাহিত নারী, সৌদীর মতো দেশে, বা অন্য দেশে কতদিন স্বামী ব্যতিত রাত কাটাতে পারবে বলে আপনার মনে হয়?

৫| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:০৪

মিরোরডডল বলেছেন: স্বাধীনতার এতো বছর পরও আমাদের দেশ্ স্বনির্ভর হতে পারেনি ।
খুবই দুঃখজনক
সবচেয়ে বড় সমস্যা বেকারত্ব এখনো ভয়াবহ ।
কতো খাঁতে কতো টাকা খরচ হচ্ছে কিন্তু দেশের মানুষের কাজের ব্যাবস্থা করাটা প্রায়োরিটি হওয়া উচিত

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:



বেকারত্ব যে বড় সমস্যা, চাকুরী পাবার পর, একজন বেকারও এটা ভুলে যায়

৬| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৫৭

হাবিব স্যার বলেছেন: আমাদের এক আমলা বলেছেন সমস্যা নাকি সৌদীর না, সমস্যা ঢাকারই

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



উনি সৌদীতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদুত; এরা আদমবেপরীদের থেকে মাথাপিছু টাকা আদায় করে।

৭| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:১৯

রাশিয়া বলেছেন: আগেকার দিনে মালিকেরা দাসদেরকে ফ্রি নিয়ে যেত। এ যুগের দাসেরা জমি জমা বিক্রি করে আরেকজনের দাস হতে বিদেশে পাড়ি দেয়। সরকার কখনও এই দাস ব্যবসায় হাত দেবেনা, কারণ এই ব্যবসায়ের বখরার ভাগ তাদের মন্ত্রী এম পি পাতি নেতা ছাত্র নেতারাও পায়।

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


আদম ব্যবসা এখনো বাংলাদেশের আদমবেপারী, প্রশাসন ও সরকারের জন্য বড় ব্যবসা

৮| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:২২

হাসান রাজু বলেছেন: হাসিনা বুঝে নাই !!! অবাক ???

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনি বুঝেন, কিন্তু দেশে চাকুরী সৃষ্টি করার মতো দক্ষতা উনার নেই, মনে হয়।

৯| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:২১

কিরমানী লিটন বলেছেন: একি সূর্য নাকি- স্বপ্নের চিতা
একি পাখীর কুজন নাকি- হাহাকার....
এ কোন সকাল- রাতের চেয়েও অন্ধকার!!

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



এগুলোর সমাধান কি আপনি জানেন?

১০| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:১৬

নূর আলম হিরণ বলেছেন: শেখ হাসিনার হাতে অর্থ আছে, ক্ষমতা আছে কিন্তু সঠিক পরিকল্পনা নেই।

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫০

চাঁদগাজী বলেছেন:


সরকার দেশে চাকুরী সৃষ্টির জন্য সঠিক পদক্ষেপ কখনো নেয়নি; সরকার কোন বাজেটের পুরো টাকা কোনদিন খরচ করতে পেরেছে বলে মনে হয় না।

১১| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




সচরাচর বাংলাদেশী নারী এখনো প্রবাসে চাকুরী করার মতো যোগ্যতা অর্জন করতে পারেনি, আর যারা যোগ্য তারা যুক্তরাজ্য যুক্তরাষ্ট্র সহ উন্নত দেশে ভালো আছেন। তবে মধ্যপ্রাচ্য বাংলাদেশী কেনো?- কোনো দেশী নারীদের জন্যই নিরাপদ কর্মস্থান নয়। - মধ্যপ্রাচ্য এখনো মধ্যযুগে রয়ে গেছে তাদের চিন্তা চেতনা বর্বরতাকেও হার মানায়।

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৫২

চাঁদগাজী বলেছেন:


নারীকে বিদেশে কাজ করতে হলে, পরিবার সাথে থাকতে হয়। সৌদীতে বিক্রয় হচ্ছে, গরীব ও বস্তির মেয়েরা

১২| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৫

জাহিদ হাসান বলেছেন: গুম হয়ে যাওয়ার ভয়ে আপনার কথার সাথে কষে সহমত পোষণ করতে পারলাম না।
আসলে আমি আপনার পোস্ট পড়িনি এবং কমেন্টও করিনি। সব ভূতে করেছে !

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩০

চাঁদগাজী বলেছেন:


কথা বলার সাথে কাজ করতে পারলে, কেহ গুম করতো না; আমরা শুধু কথা বলছি

১৩| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:২০

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




চাঁদগাজী ভাই,
বাংলাদেশী মানুষ দেশ প্রেমের গান, ছড়া, কবিতা, গল্প, উপন্যাস, প্রবন্ধ লিখে ভরপুর করেছেন! দেশপ্রেমের নমুনা কি? - মানুষ বিক্রি! বাংলাদেশ আফ্রিকা মহাদেশের একটি দেশের নাম যেখানে অবাধে মানুষ বিক্রি হয়। আর বাংলাদেশের মানুষ বিক্রির অন্যতম বাজার মালয়েশিয়া সহ মধ্যেপ্রাচ্যের ঊটের দেশ - যেখানে মানুষ নামক উট বসবাস করে।

৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩২

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংগালীরা এখন চীনাদের মতো, নিজ পরিবারের বাহিরে অন্য কারো জন্য কিছু করতে চাচ্ছে না; এজন্যই চীনারা বাংলাদেশে বড় বড় প্রজেক্ট পাচ্ছে

১৪| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৫৪

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
গাজীসাব বিদেশে বসে দেশের সমস্যার সমাধান দিচ্ছেন !
যারা সমস্যা এড়িয়ে যায় সে সকল নন্দলালদের জন্য করুনাই হয়।
আমরা সমস্যা নিয়ে থাকলেও আত্মতৃপ্তি আছে। আর
যারা দেশের জন্য যুদ্ধ করে তার বিনিময় প্রত্যাশা করে আর তা
না পেয়ে দেশ ছেড়ে বিদেশে পাড়ি জমায় তারা কোন স্তরের দেশ
প্রেমিক তার নিকাশ করা আবশ্যক।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:২৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি যা বুঝাতে চাচ্ছেন, তা আমি বুঝেছি; কিন্তু ১ লাখ ৪৪ হাজার বর্গ কিলোমিটারে এত মানুষ থাকার মত পরিবেশ নেই; ১ কোটী ১০ লাখ বাইরে থাকায় আপনি অক্সিজেন পাচ্ছেন, এটা হলো ভালো দিক।

১৫| ৩০ শে নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩৮

নুরহোসেন নুর বলেছেন: ভারতীয়রা বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠানগুলোর উপর লেভেলে তদারকি করছে,
তাদের সারায়ে আমাদের বেকারদের ২/১জনকে সুযোগ দেওয়ার বিষয়ে একটা পোস্ট দিন।
ব্লগারগণ আশাবাদী,
ব্লগের দুর্দিনে আপনি চমৎকার চমৎকার পোস্ট করেছেন;
যুক্তিতর্কে সঠিক পথ দেখাচ্ছেন।
আপনার পোস্ট পড়ে হয়তো সরকার ভাল বুদ্ধি পেতেও পারে।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৩২

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংলাদেশে শিক্ষিত বেকারদের হার থেকে সরকারের বুঝা উচিত, বিদেশী আইনষ্টাইনকেও বাংলাদেশে চাকুরী দেয়ার উপায় নেই; দেশের ছেলে যাই পারুক, যাই করুক, তাদেরকেই কাজে নিতে হবে, এটাই নিয়ম।

১৬| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:২৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
একদম সঠিক চিত্রই উঠে এসেছে লেখাটিতে।
দেশে কর্ম সংস্থানের সমস্যা, অন্তরায় ও সমাধানের বিষয় নিয়ে
সকলে মিলে কিছু একটা লিখতে হবে বলে মনে হচ্ছে্ ।
ঢাকার আগারগাওয়ে সরকারী অর্থায়নে পরিচলিত
বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেশনা প্রতিষ্ঠান
Bangladesh Institute of Development Studies
( BIDS)নামে একটি গবেষনা প্রতিষ্ঠান আছে।
এ বিষয়ে তাদের তেমন কোন উল্লেখযোগ্য লেখা
মাস মিডিয়ায় দেখতে পাচ্ছিনা । তাঁরা তাদের নীজস্ব
জার্নাল ও বিদেশী জার্নালে বেশ উচ্চ মার্গের ইংরেজীতে
প্রবন্ধ লিখে থাকেন কিন্তু সেগুলির পাঠক কিংবা অনুধাবনকারী
বা অনুসরণকারী কে বা কারা তা জানা যায় না । সেই
পন্ডিত বাহিনীর রেফারেন্স দিয়ে ব্লগেও কোন লেখা
চোখে পড়েনা । যাহোক সেই পন্ডিত বাহিনী যদি
ব্লগের এই লেখাটি পাঠ করতো তাহলে কতই
ভাল হত ।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৩৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



Bangladesh Institute of Development Studies ( BIDS)'এর লোকজন হয়তো এমন কিছু লিখছেন, যা পড়লে নিজেরাও বুঝেন না।


১৭| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:০৯

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: আমার পরিবার আমাকে দেশে আসতে মানা করে। কারণ, বয়স,সার্টিফিকেট, সামাজিক স্ট্যাটাস জটিলতার কারণে দেশে এসে আমি আর কিছু করতে পারব না। যারাই প্রবাসে একবার প্রবেশ করে, তাদের পরিবারের সদস্য, বন্ধু, আত্মীয় স্বজন, শুভাকাঙ্খীরা চায় যে সে যেন সামর্থের শেষ বিন্দু পর্যন্ত প্রবাস জীবন চালিয়ে যায়...

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:২৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



দেশের মানুষ ইডিয়টে পরিণত হয়েছেন।

১৮| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৫২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




ডঃ এম এ আলী ভাই ও চাঁদগাজী ভাই,
বাংলাদেশে প্রাইভেট ইউনিভার্সিটিতে পড়ে গ্রেজুয়েশন - মাষ্টার্স করে উদ্দমী তরুণ তরুণী মাত্র ৫,০০০ - ৮,০০০ টাকায় সুপার শপে কাজ করছেন এটি খুবই লজ্জাজনক একটি দেশের জন্য আর এটি বোঝার সাধারণ জ্ঞান কবে হবে দেশের সাংসদ ও আমলাদের? এই দেশে সরকারী বড় বড় প্রতিষ্ঠানগুলোকে হত্যা করা হয়েছে তাতে কর্মসংস্থান হারিয়েছে লক্ষ কোটি পরিবারের সন্তান।

পাট শিল্প চিনি শিল্পকে গলা চিপে হত্যা করে এখন আর ফিরে যাওয়া যাবে না। কারণ ইউ টার্ন নেই মানুষের জীবনে! ইউ টার্ন নেই একটি দেশেরও। দেশের ১৭ কোটি মানুষ যদি অকথ্য ভাষায় তাদের গালাগাল করে তাতেও লাভ নেই। এরা মানুষ নয় মনুষ্যত্ব এরা মোরগ পোলাওয়ের সাথে গপ গপা গপ করেছেন অনেক অনেক আগে।

ডঃ এম এ আলী ভাই, পন্ডিত বাহিনী কপি পেষ্ট দলের আওতাভুক্ত। তাদের নিজের লেখা কিছুই নেই। সময় কোথায় তিনি - তারা কিছু লেখবেন? আমার জীবনে আমি তথাকথিত পন্ডিত বাহিনীকে দেখিনি নিজে কিছু লিখেছেন - যা কিছু লেখা সব ভলান্টিয়ারদের লেখা, সহকারীদের লেখা, যা নিজের করে চালিয়ে দিয়ে যাচ্ছেন। নিজের লেখা থেকে দুটি লাইন বলতে বললে বলেন “ইয়ে আমি যা লিখেছি সেখান থেকে পড়ে নেবেন” ধন্যবাদ।। - নিজের লেখা দেখে দেখে পড়তে হয়? আমার নিজের লেখাতো আমার মুখস্ত এই হচ্ছে পন্ডিতের পান্ডিত্য।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৫৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


দেশে সরকার ২টি: একটি প্রশাসন, অন্যটি আওয়ামী লীগের দলীয় সরকার; এরা ২ সরকার মিলেমিশে দেশের মানুষকে বাজারে পরিণত করেছে।

আমাদের সম্পদ ও জনবল আছে, কিছু দক্ষ মানুষ সরকার চালালে আমাদের ভালো থাকার কথা

১৯| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:০২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




বাংলাদেশের তথাকথিত গবেষকগণ অনুষ্ঠানে আম আম আম করে নিজের লেখা রিসার্চ পড়েন, ভুল ভালে ভরা ইংরেজি কার জন্য লিখেছেন? না বিদেশী বোঝেন! না বাংলাদেশী বোঝেন! না তিনি নিজে বোঝেন? নিজের লেখা দেখে দেখে পড়তে হয় চাঁদগাজী ভাই? বামরু রামরু এরা হচ্ছে আদম ব্যাবসার আদম রপ্তানির কাগুজে প্রাতিষ্ঠানিক দালল। তারা নিজেরা সাউদি আরবে বাসায় গিয়ে কাজ করুক থালা বাসন মাজুক।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:২৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা, বেগম জিয়া, স্পীকার শিরীন আখ্তার, সাজেদাচৌধুরী যখন দরিদ্র মেয়েদের জন্য চাকুরী সৃষ্টি করেনি, বাকী কেহ কোনদিনও কিছু করবে না; এরা সুযোগ মত আমাদের দেশের দরিদ্র মেয়েদের বিক্রয় করে দেবে।

২০| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৪৪

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: তাজুদ্দিন সাহেব, শেখ সাহেব ও শেখ হাসিনা কখনো বেকারত্বের অবসান ঘটানোর ঘোষণা দেননি; বেকারত্বই যে, আমাদের অর্থনীতির মুল সমস্যা, সেটা এরা ৩ জন বুঝেছিলেন বলে মনে হয় না।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৫০

চাঁদগাজী বলেছেন:



আমার বক্তব্য সঠিক

২১| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:৫৭

স্বপ্নবাজ সৌরভ বলেছেন: সঠিক মানছি বলেই কোট করেছি। ++

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


ধন্যবাদ

২২| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:১৯

পুলক ঢালী বলেছেন: আমাদের দেশের শিক্ষাব্যবস্থা ধ্বংস হয়ে গেছে। দেশের বড় বড় প্রতিষ্ঠানের সিইও বিদেশী এটাই সবচেয়ে বড় প্রমান। আমলা কর্মকর্তা কর্মচারী সব রেফারেন্সের লোক, উন্মুক্ত মেধা পরীক্ষার আয়োজন করলে সব ফেল করবে।

মাথাপিছু আয়ের ধারনাটা শুভঙ্করের মুলা যা গর্ধভ জনতাকে খাইয়ে নেশাগ্রস্ত করা যায়।

আমাদের মেয়েদের বিদেশে পতিতাবৃত্তির জন্য না পাঠিয়ে দেশেই পতিতাবৃত্তিতে নিয়োজিত করা উচিৎ তাহলে শরীর বিক্রির টাকাটা অন্ততঃ হাতে পাবে দেশে থাকবে। বিদেশে সব হারিয়ে খালি হাতে ফিরতে হবেনা।
আমাদের দেশে পাহাড়ে, সমুদ্রের তীরে পর্যটন স্পট গড়ে তুলে সেখানে হোটেল, ক্যাসিনো, ম্যাসেজ পারলারে এবং হোটেলের রুম সার্ভিস/ম্যানেজমেন্টে মেয়েদের চাকুরী দেওয়া উচিৎ এভাবেও প্রচুর ডলার আয় করা সম্ভব এখানে সৌদী বর্বরতা খাটানোর কোন সুযোগই থাকবেনা ।

পিএইচডি মহিলা এগুলোর কথা না বলে বিদেশে মেয়েদের কাজ করার কথা কেন বললেন তাই ভাবছি ?
কৃতদাস ব্যাপারীরা মনে হয় অনেক টাকা দিয়েছে। X((

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৯

চাঁদগাজী বলেছেন:



বামরু, হামরুতে যেইসব পিএইচডি আছে, এগুলো ভুয়া

২৩| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৮

জুল ভার্ন বলেছেন: গুড পোস্ট!

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:০১

চাঁদগাজী বলেছেন:



আমাদের জাতির ভুল ও অদক্ষতা আমাদের একাংশকে ক্রীতদাসে পরিণত করেছে

২৪| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৩৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: অসাধারণ একটি পোস্ট, স্যার। খুবই ভালো লাগলো। বিশেষ করে শেষের দিকের কথা গুলো।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


জাতি মগজ হারায়ে ডলার গুনছে

২৫| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৪:৪৮

জাতির বোঝা বলেছেন: আমাকে এক জন বলেছেন, টান বাজারের সাবেক কর্মীদের নাকি বিদেশে পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে মাঝে মাঝে নাকি সাধারণ ঘরের মেয়েরাও দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে।

আপনার পোস্ট পড়ার পর ভাবনা বেড়ে গেল।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


টান বাজারে যারা ছিল, বা আছে, সেও এই বাংলার কারো না কারো সন্তান, যার সত্বা ছিলো একজন মায়াবতী মা হওয়ার

২৬| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:২২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





আসলে এতো কিছু টাল বাহানা না করে সরাসরি ঘোষণা দেওয়া যেতে পারে বাংলাদেশ ক্রিতদাসের মুক্ত বাজার অর্থনীতিতে বিস্বাস করে। বিশ্বের দাস, দাসী, গোলাম ক্রেতারা ক্রিতদাসের জন্য বাংলাদেশে আসুন।


০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:২১

চাঁদগাজী বলেছেন:


সরকার কি নিয়ে ব্যস্ত বুঝা মুশকিল

২৭| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:১৬

:):):)(:(:(:হাসু মামা বলেছেন: এই দেশে ঠিকমত ইনবেস করার মত শক্তিশালী কোনো মানুষ থাকলে বাংলাদেশ কর্ম সয়ংসম্পূণ্য একটা দেশ হতে মাত্র তিনদিন
সময় লাগবে। এ কথা আমি ১০০% গেরান্টি দিয়ে বলতে পারি। শুধু আপনি তিলে তিলে ধংশ হয়ে যাওয়া গার্মেন্টস বা পোশাক
শিল্প খ্যাতের বিষয়টা একবার ভাবুন তাহলেই আপনার কাছে সব জলের মতো পরিস্কার হয়ে যাবে। ভালো লাগল ওস্তাদ।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


গার্মেন্টস কমপিটিশনের সন্মুখীন হয়েছে।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:২০

চাঁদগাজী বলেছেন:



:):):)(:(:(:হাসু মামা বলেছেন, " এই দেশে ঠিকমত ইনবেস করার মত শক্তিশালী কোনো মানুষ থাকলে বাংলাদেশ কর্ম সয়ংসম্পূণ্য একটা দেশ হতে মাত্র তিনদিন সময় লাগবে। "

-এই রকম মানুষ থাকে নাকি?

২৮| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:২৩

:):):)(:(:(:হাসু মামা বলেছেন: লেখক বলেছেন:


গার্মেন্টস কমপিটিশনের সন্মুখীন হয়েছে।


এই কমপিটিশনের সুযোগটা কিন্তু ওস্তাদ আপনার জানের জান রাজনীতির দলই করিয়েছে ।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:০৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


সম্ভব; কিন্তু ইহা বিশ্ব অর্থনীতি ও ফাইন্যান্সের সাথে জড়িত।

২৯| ০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৫৯

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
@ঠাকুরমাহমুদ , চাঁদগাজী অন্য সকল প্রিয় সহব্লগার বৃন্দ
নিন্মোক্ত দুটি উদ্দেশ্য নিয়ে Labor market study for skills for employment investment project (seip)
শীরোনামে BIDS এর একটি গবেষনা প্রকল্প বর্তমানে চলমান আছে ।
OBJECTIVES
1. The main objective of assignment is to analyze labor supply and demand over the next 10-year period (2020-2030) in order to assist the government and the private industry to better plan the capacity and quality of skills training systems according to the evolving skills/trade/market demands from rapidly growing industry sectors.
2. The second objective of the assignment is to determine sector priorities, assess skills gap by sector, analyze sector-wise occupational composition of employment (including gender composition of employment), assess occupation-wise training requirement by sector and trade.
Team Composition for the study:
Study Director: Dr. Kazi Iqbal
সুত্র: https://bids.org.bd/page/researches/?rid=182
এটা পর্যবেক্ষনে রেখেছি। সম্ভব হলে আপনারা সকলেই এটা পর্যবেক্ষনে রাখবেন। দেখি আগামী দশ বছরের জন্য শ্রমবাজর উন্নয়নের জন্য দেশের এই পন্ডিত বাহিনী সরকারী ও বেসরকারী পর্যায়ে বাস্তবায়ন যোগ্য কি শুপারিশ রাখেন,এর মধ্যে বিদেশে শ্রমিক প্রেরনকারী দাস ব্যবসার সাথে জড়িত আদম বেপারিদের তৎপরতা সংকোচন কিংবা প্রসারনের জন্যই বা তাদের পরামর্শ কি জানা যেতে পারে। ধারনা করি তাদের এই গবেশনা প্রকল্পের মুপারিশ মালা অনুসারে পরিকল্পনা কমিশন ও সংষ্লিষ্ট ন্যান্য মন্ত্রনালয় তাদের বার্ষিক উন্নয়ন পরিকল্পনা প্রনয়ন করবেন। তাই এটি দেশের জন্য একটি গুরুত্বপুর্ণ গবেষনা কর্ম তাতে কোন সন্দেহ নাই ।

দেশের সবচেয়ে বড় এই পাবলিক সেকটর রিসার্চ ইন্সটিটিউটটির কর্মকান্ডের ব্যপারে দেশের শতকরা ৯৯.৯৯ ভাগ মনুষ কিছুই জানেন না , জনগনের অর্থে লালিত পালিত প্রতিষ্ঠানটির গবেষনা কর্ম বহুল প্রচারিত গনমাধ্যমে বা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রচার করে দেশের টেক্স পেয়ার সকল জনতাকে জানানো উচিত বলে মনে করি ।

০১ লা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



ইন্টারেষ্টিং বিষয়; আপনি ইহার উপর চোখ রাখুন, আমিও খেয়াল রাখবো।

৩০| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৩৩

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
গাঙ্গেয় ব-দ্বীপ অঞ্চলটি আমার মনে হয় অনেক অনেক প্রাচীনকাল থেকেই অভিশপ্ত । যত ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ, মনুষ্য সৃষ্ট সমস্যা , আর অসততা নিয়ে চলছে অধিকাংশ অঞ্চল। এটা কোন দিন ভালো হবে বলে আমার বিশ্বাস হয় না।
পৃথিবীর ক্রমাগতভাবে এগিয়ে চলেছে আর আমরা দিনে দিনে পিছিয়ে পড়েছি।

০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংগালী চরিত্রে 'অসতত'ই বড় অংশ

৩১| ০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:২৬

সুপারডুপার বলেছেন: আজকের বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম এর প্রতিবেদন : নির্যাতনের ভয়ঙ্কর বিবরণ দিলেন সৌদি ফেরত তরুণী। লিংক :Click This Link

সমস্যা কোথায়?

১) বাংলাদেশ সরকার, যার গলা নাই প্রতিবাদের; শুধু পারে দেশের ভিতরে মানুষকে ডান্ডার ভয় দেখিয়ে থামিয়ে রাখতে।কিন্তু বহিঃবিশ্বে প্রতিবাদে, বাংলাদেশ সরকার হচ্ছে মিউ মিউ বিলাই।

২) আদম ব্যাপারীর ছোবল।

৩) জনসাধারণের মধ্যে সচেতনার অভাব। দুম্বাল্যান্ডে / নবীর দেশে নির্যাতনের চেয়ে, দেশে ভালো কর্মসংস্থান / স্বাবলম্বী হওয়া সম্ভব এই সচেতনার অভাব রয়েছে।

০২ রা ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৩২

চাঁদগাজী বলেছেন:



দরিদ্র মেয়েদের সাহায্য করার মতো বাংগালী দেশে নেই। সরকার দরিদ্রদের নয়।

৩২| ১০ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:০৫

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
সৌদি অর্থনীতিতে ধ্বস নামতে শুরু করেছে।
চলতি বছর নাকি বাজেট ঘাটতি হবে পাঁচ হাজার কোটি ডলার।
তার মানে সৌদি আরবে আমাদের শ্রমদাস তথা আমাদের জনসম্পদের চাহিদা আর থাকবে না । কয়েক লক্ষ জনসম্পদ যখন দেশে ফিরে আসবে এই সম্পদ দিয়ে বাংলাদেশে কি করবে এক বার ভেবে দেখেছেন কি?

ব্লগার রাজীব নূর নাকি এই জনসম্পদ কে কাজে লাগাবেন ।দেখি এবার ওনার কি চিন্তাভাবনা। প্রয়োজনের অতিরিক্ত জনসংখ্যাকে কোনো ভাবেই কাজে লাগানো সম্ভব নয়। বরং যে ভূখণ্ডে প্রয়োজনের অতিরিক্ত জনগণ আছে সেই ভূমিখণ্ড বরাবরই পিছিয়ে থাকে। উদাহরণস্বরূপ ভারতের উত্তর প্রদেশ এবং আমাদের বাংলাদেশ এক উজ্জ্বলতম দৃষ্টান্ত।

১২ ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ভোর ৫:৫১

চাঁদগাজী বলেছেন:


বর্তমান বিশ্বে জ্ঞানী লোকেরা দেশের সবাইকে কাজ দিতে পারেন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.