নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পদহীনদের জন্য শিক্ষাই সম্পদ

চাঁদগাজী

শিক্ষা, টেকনোলোজী, সামাজিক অর্থনীতি ও রাজনীতি জাতিকে এগিয়ে নেবে।

চাঁদগাজী › বিস্তারিত পোস্টঃ

২৬ জুট মিলে "সোনালী হ্যান্ডশেক", শেখ হাসিনার বুদ্ধিমত্তার স্বাক্ষর?

০৩ রা জুলাই, ২০২০ বিকাল ৩:৫৮



আমি বিডি-নিউজ-২৪ ও 'সাউথ এশিয়া মনিটর' নামে একটি ওয়েব-সাইট থেকে রাষ্ট্রায়াত্ব জুটমিলগুলো "সোনালী হ্যান্ডশেক" নিয়ে সরকারের গতকালের নেয়া সিদ্ধান্তটি পড়লাম; অনেক কিছু পরিস্কার হয়নি; আপনারা যারা পড়েছেন, আপনারা কতটুক বুঝেছেন, সম্ভব হলে ব্যাখ্যা করবেন। সরকার ২৬টি জুটমিলের প্রোডাকশান বন্ধ করছে, এতে ২৫ হাজার শ্রমিক ও কর্মচারীর চাকুরী চলে যাবে। বন্ধ করার কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, মিলগুলোর আধুনিকরণ করা হবে; নাকি আসলে, এগুলোকে আদমজী জুটমিলের মত ধ্বংস করে দেয়া হবে?

এসব শ্রমিকদের বেনেফিট ও এককালীন প্যাকেজ দিতে সরকারের ৫০ বিলিয়ন টাকা খরচ হবে। এর আগে, সরকার এই ২৬টি কারখানায় ১০৭ বিলিয়ন টাকা লোকসান দিয়েছে। স্বাধীনতার পর থেকে জুটমিলগুলো লোকসান দিয়ে এসেছে; ৪৪ বছর লোকসান হয়েছে, ৪ বছর লোকসান হয়নি।

মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানের পরাজয়ের সময়, পশ্চিম পাকিস্তানী নাগরিকদের ফেলে যাওয়া কলকারখানাগুলো বাংলাদেশ সরকারের হাতে আসে। যেসব মালিক ফেরত আসেনি, তাদের কলকারখানাগুলোর মালিকানা বাংলাদেশ সরকার পায়। তখন শেখ সাহেব ও তাজুদ্দিন সাহেব একটা ভুল শব্দ "রাষ্ট্রায়াত্ব" ব্যবহার করে একটা 'ভুল ধারণা'র জন্ম দেন। "রাষ্ট্রায়াত্ব" করা মোটামুটি "সোস্যালিজমের" একটি অর্থনৈতিক ও ফাইন্যান্সিয়েল পদক্ষেপ, যা শেখ সাহেব ও তাজুদ্দিন সাহেব করেননি; উনাদের সরকার এই কলকারখানাগুলো "পরিত্যক্ত সম্পত্তি" হিসেবে পেয়েছিলেন, এগুলো রাষ্ট্রের সম্পদে পরিণত হয়েছিলো। রাষ্ট্রের তখন সিদ্ধান্ত নেয়ার দরকার ছিলো, রাষ্ট্র এগুলো নিজে চালাবে, নাকি বিক্রয় করে দেবে? শেখ সাহেব ও তাজুদ্দিন সাহেব এগুলোকে রাষ্ট্রের ব্যবস্হাপনায় চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন; সেটা ছিলো ভালো সিদ্ধান্ত।

এসব কলকারখানা চালাতে গিয়ে সরকার শুরু থেকে লোকসান দিয়ে আসছিলো; এখন দেখা যাচ্ছে যে, ৪৪ বছর লোকসান দিয়েছে! ৪৪ বছর ব্যবসায় লোকসান চলছে, অথচ যেইসব ম্যানেজমেন্টের কারণে লোকসান হয়ে আসছিলো, তারা সেখানে ৪৪ বছর চাকুরী করেছে। যেই ব্যবসায় লোকসান হয়, সেই ব্যবসার ম্যানেজমেন্টের চাকুরী কি করে থাকে ৪৪ বছর? ১/২ বছরের লোকসানের পর, ম্যানেজমেন্টের লোকদের, সেক্রেটারী ও মন্ত্রীর চাকুরী কিভাবে থাকলো?

এসব জুটমিল বেগম জিয়া ও সাইফুর রহমানের সময় বন্ধ হয়ে গিয়েছিলো; কারণ, ২ জনই ভয়ংকর ধরণের ইডিয়ট মানুষ ছিলেন। শেখ হাসিনা ২০০৯ সালের পর থেকে এসব কলকারখানা চালু করে মানুষের জন্য চাকুরী সৃষ্টির উদ্যোগ নেন, এটা ছিলো বিশাল মহৎ ভাবনা; চাকুরী সৃষ্টি হলো সরকারের সবচেয়ে বড় দায়িত্ব।

এইবার শেখ হাসিনা ১২ বছর সরকার চালাচ্ছেন; এই সময়ে এসব জুটমিলের পেছনে লোকসান হয়েছে ১০৭ বিলিয়ন টাকা; উনি কি ঘুমায়ে ছিলেন? ১ বিলিয়ন লোকসানের পর, উনার ঘুম ভাংগার দরকার ছিলো: ম্যানেজমেন্টের যেই একজন লোক লাভ করতে জানে না, তাকে ২/৩ মাস দেখে বাদ দেয়ার দরকার ছিলো। তখন গেছে ১০৭ বিলিয়ন, এখন যাবে ৫০ বিলিয়ন ও সাথে ২৫ হাজার মানুষ বেকার হবে, ২৫ হাজার পরিবার ছিন্নমুলে পরিণত হবে; ইহা শেখ হাসিনার বুদ্ধিমত্তার পরিচয় নয়, এগুলো ভয়ংকর ধরণের নির্বুদ্ধতা।

মন্তব্য ৪১ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (৪১) মন্তব্য লিখুন

১| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:২৬

ডার্ক ম্যান বলেছেন: আমি যে স্কুল থেকে এসএসসি পাশ করেছি সেখানে বড় জুটমিল ছিল । বর্তমানে আরএফএল গোডাউন হিসেবে ইউজ হয় ।
লস প্রজেক্ট অনেক আগে বন্ধ করা উচিত ছিল

০৩ রা জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:৩৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


জুটে যাদের লস হয়, তারা বেকুব।
জুটমিলে যারা লাভ করতে পারে না, ম্যানেজমেন্টে সেইসব লোকের চাকুরী ২/৩ মাসের বেশী রাখার দরকার ছিলো না।

২| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৫

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
কেউ্ই সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে নাই।
'তবে সব দ্বায়ভার প্রধানমন্ত্রীর কাধে
চাপাতে হবে কেন? যারা বিশাল অংকের
বেতন ভাতা নিছেন এসব সেক্টরের দ্বায়িত্ব
নিয়ে তাদের ধরতে হবে। পরামর্শদাতারা
কই?

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:১৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



উনি দেখে শুনে এডভাইজার নেন; যারা কোন কারণে উপরে শ্রেণীতে আছে, কিন্তু গাধা, উনি ওদেরকে নেন।

৩| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ৮:০৫

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: আগের মন্তব্যটি ভুল পোস্টে দিয়ে ফেলেছি। এজন্য দুঃখিত। ওটা ছিল গ্লোব বায়ওটেকের বাংলাদেশী ভ্যাকসিন নিয়ে পোস্ট সংক্রান্ত।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:১৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


ঠিক আছে

৪| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ৮:০৯

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: এদেরকে গোল্ডেন হ্যান্ডশেক দেয়া হচ্ছে ( বেশ ভালো টাকা এরা পাবে অবসরে যাওয়ার জন্য) আবার বলা হচ্ছে পরে কারখানাগুলি যখন পুনরায় খুলবে তখন এই সকল শ্রমিকরা অগ্রাধিকার পাবে। তাহলে যারা পুনরায় চাকরী পাবে তাদের এই এককালিন মোটা অংকের টাকা কেন দেয়া হচ্ছে। নাকি পুনরায় চালুর ব্যাপারটা শুধু একটা কৌশল মাত্র।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:১৮

চাঁদগাজী বলেছেন:



কি হবে, "আপা জানেন"!

উনি এই দেশকে ইয়েমেনের সম পর্যায়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

৫| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ৮:১২

পগলা জগাই বলেছেন: ভাালো বলেছেন।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


ম্যানেজমেন্ট বদলায়ে, শ্রমিকদের বেনেফিটের অর্ধেক টাকায় কারখানা চালু রাখার দরকার ছিলো।

৬| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ৯:১৮

কল্পদ্রুম বলেছেন: আমার বাসা যেখানে সেখানে বাংলাদেশের অনেকগুলো পুরাতন জুটমিল আছে।আমার স্কুল কলেজের ক্লাসমেটদের ভিতরে কয়েকজন ছিলো যাদের বাবারা ওখানে চাকরি করতো।এক কালীন টাকা কত দিবে তা তো জানি না।কিন্তু তারপরেও আমার ধারণা অনেক পরিবার বিপদে পড়বে।এখানে অনেক অস্থায়ী শ্রমিক কাজ করে।এই গোল্ডেন হ্যান্ডশেকে তাদের জন্য গোল্ডেন হবে কি না!যদি কিছু টাকা পায়ও স্থায়ীদের সমান টাকা পাবে না বলে মনে হয়।ম্যানেজমেন্টের বড় পদ ধারীদের কিছু স্থানীয় সাপোর্ট থাকে।তাদের সরালে শ্রমিকদের আন্দোলন করতে দেখেছি।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:২২

চাঁদগাজী বলেছেন:



শ্রমিকভাগ দের ৫০ মালিকানা দিয়ে, ওদের থেকে ম্যানেজমেন্ট রিপ্রেজেন্টেটিভ বানায়ে, অর্ধেক ডিরেক্টর সরকার থেকে দিলে সবাই নিজের আয়ের জন্য কাজ করতো।

৭| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ৯:৫৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
মাথা ব্যাথা তাই মাথা কেটে ফেলতে হবে।
উত্তম চিন্তা।
কিন্তু মাথা ব্যাথার চিকিৎসা তো করা সম্ভব।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:




উনি ১২ বছর পর ঘুম থেকে জেগেছেন।

৮| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:০০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:

আদমজী জুট মিল বন্ধ হয়ে যাবার পর ওখানে যারা চাকরি করতো তাদের মানবেতর জীবনের কিছুটা আমি দেখেছি।
মানুষ খুব কষ্ট করেছে। অনেকেই আবার মালয়েশিয়া কিংবা মধ্যপ্র্রাচ্যে চলে গিয়েছে।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:২৬

চাঁদগাজী বলেছেন:



আডমজীতে থাকটে পরিবারের সাথে ঘুমাতো, সৌদী গিয়ে বেগম জিয়ার সৌজন্যে গাল ও লাথি খেয়ে জীবন কাটায়েছে।

৯| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:০২

বিজন রয় বলেছেন: যত বেকুবের বেকুব সব এই দেশে বাস করে।

সামনে অন্ধকার।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


অর্ধেক মানুষ কাজ করছে,বাকীরা ওদের আয়গুলো দিয়ে ব্যবসা বাণিজ্য করে, ও সেবার নামেে ডাকাতী করে চলছে।

১০| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:৩২

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
আমার এক বন্ধু থাকে টেক্সাসে। করোনার এই সময়েও তার চাকরি আছে। কিন্তু তার স্ত্রীকে কাজে যেতে হচ্ছে না। কেননা, কোম্পানীর স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ । কিন্তু বন্ধ থাকার পরেও নাকি উনি ৮০ % বেতন পাচ্ছেন। সেই সাথে সরকারী অনুদান নাকি পাচ্ছে প্রায় হাজার দুই ডলার। আরা আমার বন্ধুর কোম্পানীর কার্যক্রম চলতে । সে ব্তেন পাচ্ছে । কিন্তু সরকারী অনুদান পাচ্ছে না।

এখন কথা হলো, তার স্ত্রী তো ভালো সুবিধা পাচ্ছে। কাজে যেতে হচ্ছে না বলে বেতনের ৮০% পাচ্ছে সেই সাথে সরকারী অনুদান। আর বন্ধু পাচ্ছে কেবল বেতন। তাহলে তো কাজ চলে গেলেই ভালো।

" এইডা আবার কোন বিচার?" - কাঙ্গালিনী সুফিয়া।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১১:১৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


ট্রাম্পের কারণে আমেরিকা ১০ বছরের জন্য অভাবের মাঝে পড়ে যাচ্ছে। করোনার সময়, যখন মানুষ কাজ করছে না, তাদেরক শুধু ১ মাস চলার মতো টাকা দিয়ে " একই সাথে পুরো আমেরিকা ১ মাসের জন্য বন্ধ করে দিলে'" ১ ট্রিলিয়নের মাঝে সমস্যার সমাধান হয়ে যেতো; এখন ৪ ট্রলিয়ন চলে গেছে, করোনা আগের থেকে অনেক বেশী বেড়ে গেছে।

আপনার বন্ধুর স্ত্রীকে অকারণে বেশী টাকা দিচ্ছে। তবে, মানুষকে বেশী টাকা দিলেও আমেরিকার ক্ষতি নেই; ট্রাম্প মুল বেশী টাকা দিয়েছে কর্পোরেশনগুলোকে, একেবারে অকারণে।

১১| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:৩৩

শূন্য সারমর্ম বলেছেন: আগে পরীক্ষার জন্য জুট রচনা মুখস্ত করতে হতো। এখন এসবের বালাই নেই।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১১:১৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


এখন পদ্মাসেতু শিখার সময় হয়েছে।

১২| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১০:৫৮

রাজীব নুর বলেছেন: অদক্ষ ও অযোগ্য লোকেরা এই দেশ পরিচালনা করছে।
তাই স্বাধীনতার এত বছর পরও আমরা অনেক পিছিয়ে আছি।

০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১১:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:



দেশ চালনার জন্য শেখেরা গোষ্ঠীসহ অদক্ষ।
শেখ হাসিনা ১টি সঠিক কাজ করেছে, বিএনপি-জামাতকে থামায়েছে; উনার বাকী কাজের জন্য উনার বদনাম হবে।

১৩| ০৩ রা জুলাই, ২০২০ রাত ১১:২৬

শূন্য সারমর্ম বলেছেন: পদ্মাসেতুতে কি শিখাবে?পিলার সংখ্যা,সময়কালীন ব্যয়, করোনাকালীন সময়ে শ্রমিকদের অসন্তোষ, এসব থাকবে? নাকি পুরোটা জুড়েই থাকবে সেতুপূজা।

০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৩৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা ১ সেতু নিয়ে যেই পরিমান কথা বলেছেন, মনে হয়, জাতি স্বাধীনতা চেয়েছিলো শুধু পদ্মা সেতু বানাতে।

১৪| ০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ রাত ১:৩৪

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:

সর্বশেষ ২৫টি পাটকল বন্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশে
সরকারি পাটকল যুগের অবসান হলো৷ তবে
ভবিষ্যতে এই পাটকলগুলো পাবলিক- প্রাইভেট
পার্টনারশিপ (পিপিপি) চালুর সম্ভাবনা আছে।
২৫টি পাটকল বন্ধের ফলে ২৫ হাজারেরও
বেশি স্থায়ী শ্রমিক চাকরি হারাবে। একথা
অনস্বীকার্য যে বাংলাদেশ জুটমিলস কর্পোরেশন
(বিজেএমসি) প্রতিষ্ঠার পর থেকে ৪৮ বছরে মাত্র
চার বার পাটকলগুলো লাভ করতে পেরেছে৷ ৪৪
বছরই লোকসান দিয়েছে৷ বর্তমানে এর পুঞ্জীভূত
লোকসানের পরিমাণ ১০ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে,
যদিও বেসরকারি খাতের অনেক পাটকল ঠিকই মুনাফা করছে৷

০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ রাত ১:৪৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



শেখ হাসিনা ভয়ংকর অযোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছেন, ও বড় ধরণের অন্যায় করছেন। এই ধরণের ভুল করতে করতে বেগম জিয়া জেলে চলে গেছেন। পিপিপি যদি করতে চান, উনি শ্রমিকদের সাথে না করে, বিলিওনিয়ারদের পকেটে জাতির সম্পদ ঢুকিয়ে দিচ্ছেন? জাতি বুদ্ধিমান নন, উনার এসব ভুল/পাগলামী ধরতে পারবে না।

১৫| ০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ রাত ২:৫৭

আমি সাজিদ বলেছেন: লোকসান হলেই শ্রমিকের দোষ। ম্যানেজমেন্ট - মন্ত্রনালয় - সচিবালয় ওইখানে সবাই ফেরেশতা থাকেন।

০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ রাত ৩:৪০

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনি গত কয়েক বছর ঘুমায়েছিলেন; এখন উনার মাথায় ডাকাতরা কদুর তেল ঢালছে, ডাকাতেরা এই কারখানাগুলো দখল করবে।

১৬| ০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ ভোর ৫:১০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:



ভাল বিষয় নিয়ে লিখেছেন ।
আমার পরশ পাথর নিয়ে লেখাটির পরবর্তী পর্বে এ বিষয়টি
নিয়ে আমার চিন্তা ভাবনার কিছু কথা উঠে আসবে ।


০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫০

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমাদের সাধারণ মানুষগুলোকে আমাদের সরকারগুলো ঠিক পাকীদের মতো রাস্তার ভিক্ষুক বানায়ে রাখলো।

১৭| ০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ সকাল ১১:৫৬

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: রাজনৈতিক চাপ, ভোট, শ্রমিক আন্দোলন ইত্যাদি কারণে সরকারী লোকসানী প্রতিষ্ঠান বন্ধ করতে সরকারী দল সাহস করে না। তবে আমি সব সময়ই লোকসানী প্রতিষ্ঠান বন্ধের পক্ষে। কারণ বন্ধ হলে আবার নতুন ফ্যাক্টরী হবে। নতুন কর্মসংস্থান হবে। বিমান, রেল - এগুলোও নিয়ন্ত্রণে রেখে বেসরকারীতে ছেড়ে দেয়া উচিত...

০৪ ঠা জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫২

চাঁদগাজী বলেছেন:



এগুলো বন্ধ হবে না, ঠগীদের হাতে চলে যাবে; দেশে যেই অবস্হা, আপনি অথবা ব্লগারেরা কিংবা সাধারণ মানুষ কোন নতুন ফ্যাক্টরী করতে পারবে?

১৮| ০৬ ই জুলাই, ২০২০ রাত ২:৫৬

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: শেখ হাসিনা ২০০৯ সালের পর থেকে এসব কলকারখানা চালু করে মানুষের জন্য চাকুরী
সৃষ্টির উদ্যোগ নেন, এটা ছিলো বিশাল মহৎ ভাবনা; চাকুরী সৃষ্টি হলো সরকারের সবচেয়ে বড় দায়িত্ব।

......................................................................................................................................
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহৎ ভাবনা থেকে লোকসান, প্রনোদনা দিয়ে পাটশিল্প বাচাঁয়ে রেখে পাটকল চালু
রাখার জন্য উদারতা দেখায়েছিলেন আমাদের এক শ্রেণীর লোকজন দুর্বলতা ভেবে লুটপাট করেছে, সিন্ডিকেটের
দাপটে সেখানে ভালো মানুষের কোন জায়গা নেই, যখন পাট কিনে গুদাম জাত করার কথা, তখন
পাট কেনা হয়না, দালালদের মাধ্যমে ২/৩ গুন দামে পাট কিনে তা দিয়ে উৎপাদন করলে কি প্রতিষ্ঠান
বাঁচে ???

০৬ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৩:৪১

চাঁদগাজী বলেছেন:


উনি কি মাসে ১ ঘন্টা ব্যয় করে, সিন্ডিকেট মিন্ডিকেট সম্পর্কে জেনে ব্যবস্হা নিতে পারতেন না? ২০১২ সাল থেকে উনাকে ভয় পেতো না যে, সেই রকম বাংগালী ছিলো না।

০৬ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৩:৪৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



এখন উনার দুর্বলতা প্রকাশ পাবার শুরু করেছে, ব্যুরোক্রেটরা উহাকে কাজে লাগাচ্ছে; না হয়, আজকেও সেটার সটিক সমাধান করা সম্ভব ছিলো, গোল্ডেন হ্যান্ডসেকের দরকার ছিলো না।

১৯| ০৬ ই জুলাই, ২০২০ ভোর ৪:০৬

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: আমি একবার পাটের ব্যবসা করতে চেয়ে ছিলাম,
ফরিদপুর , ভাঙ্গা, কাশিয়ানী , মুকসেদপুর এসব অন্চল
দিয়ে উন্নত মানের পাট হয় ।

......................................................................................
লোকজন নিয়োগ করতে গিয়ে দেখি ওরে বাব্বা, দাপ্তরিক লোকজন
যেন অজানা ভয়ে কোন কথাই বলতে চায় না, আকারে ইঙ্গিতে
যেটা বুঝলাম, এখানে ভদ্রলোকেরা ব্যবসা করতে পারবে না,
পেশীশক্তি ছাড়া, জান বাঁচানো দায় ।

......................................................................................
ইতিহাস বলে ক্ষমতার কেন্দ্রে যিনি থাকেন তার চারপাশে একটি
অদৃশ্য বলয় সৃষ্টি হয়, যারা এই কাজটি করেন ,তারা বিভিন্ন পন্থায়
অর্থসম্পদ গড়ে তুলেন, কিন্ত প্রধান ব্যক্তি সত্য সঠিক বিষয়টি
জানতে অনেক সময় চলে যায় ।
এটাই আমাদের দুর্ভাগ্য !!!

০৬ ই জুলাই, ২০২০ বিকাল ৪:০৪

চাঁদগাজী বলেছেন:



শেখ হাসিনা ৪০ বচর আওয়ামী লীগের সভাপতি; উনার আর কত বছর দরকার জাতিকে ও উনার চারিপাশের বলয়কে বুঝার জন্য?

২০| ২৪ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১১:২৬

খায়রুল আহসান বলেছেন: যে কোন উৎপাদনমুখি কল কারখানা বন্ধ করা ভুল সিদ্ধান্ত। লাভ লোকসান নির্ভর করে সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনার উপর। সেখানে নজর না দিয়ে কারখানা বন্ধ করার সিদ্ধান্তটাকে একটা মারাত্মক ভুল বলে মনে করি।

২৫ শে জুলাই, ২০২০ রাত ১২:৩০

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিশেষ করে, যেখানে চাষীরা পাট উৎপাদন করছে চলছে; চাষীদের কি অবস্হা হবে? সরকারে চাকুরী করলে মানুষের বুদ্ধি লোপ পায়, মনে হয়।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.