নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

শব্দকবিতা : শব্দেই দৃশ্য, শব্দেই অনুভূতি \n\[email protected]

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই

দুঃখের কবিতাই শ্রেষ্ঠ কবিতা। ভালোবাসা হলো দুঃখ, এক ঘরে কবিতা ও নারী।

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই › বিস্তারিত পোস্টঃ

স্বরচিত বাণী চিরন্তনী (রম্য নহে)

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১২:৫৩

বিবাহের ক্ষেত্রে সহায়তা পাবার উদ্দেশ্যে ইতিপূর্বে আপনাদের জন্য বিয়ে শীর্ষক বাণী চিরন্তণী পোস্ট করেছিলাম। তাতে আপনাদের প্রভূত উপকার সাধিত হয়েছিল। পরের বর্তীতে ফেইসবুক থেকে কতিপয় ব্লগারের বাণী একত্র করে ব্লগে শেয়ার করেছিলাম। এতে আপনাদের জ্ঞান হুহু করে বেড়ে গিয়েছিল, রিখটার স্কেলে ৮.৯ পর্যন্ত। এবার আপনাদের জন্য আরো কিছু বাণী চিরন্তনী নিয়ে হাজির হলাম। তবে, এ বাণী চিরন্তনীগুলো আমার স্বরচিত। এবং কবিতাকারে। উল্লেখ্য, এগুলো আমার ফেইসবুক ওয়াল থেকে নেয়া হয়েছে।


কাল যা লিখেছি
আজ পড়ে দেখি
হয় নি তা মোটে কিচ্ছু
কী যে যন্ত্রণা-
এর চেয়ে ভালো
কামড়ায় যদি বিচ্ছু

৩১ অক্টোবর ২০১৯



এমন দরদি কোথাও খুঁজিয়া
পাবে নাকো তুমি ভ্রাতা
গোপনে তোমারে বাঁশ হান্দাইয়া
বাহিরে সাজিব ত্রাতা

৩১ অক্টোবর ২০১৯


যখন তুমি অনেক ভালোবাসো
তখন যেন স্বর্গ থেকে দেবী হয়ে নেমে আসো
যখন তুমি ঝাঁঝরা করো এ বুক
তখন ভাবি, অন্য কেহ হয়ত-বা দিত সুখ

২৯ অক্টোবর ২০১৯


যাহা চাই খুব বুঝেশুনে চাই
যাহা চাই তাহা পাই না
উস্তা না রেঁধে পাটশাক রাঁধো
যাহা আমি কভু খাই না

২০ অক্টোবর ২০১৯


আমাদের দেশে পাবো
সেই ছেলে কবে
আমারে সে বড়ো করে
নিজে ছোটো হবে

১৯ অক্টোবঅর ২০১৯


যখন আমি থাকবো নাকো
তখন তুমি করবে কী?
ঝগড়া করার সময় হলেই
আমায় মনে পড়বে কি?

১৯ অক্টোবর ২০১৯


তোমারে যা দিয়েছিনু
সবই মোর আব্বার টাকা
গ্রহণ করেছ যত
ততই বাবার পকেট হয়ে গেছে ফাঁকা

১৯ অক্টোবর ২০১৯


প্রতিদিন কত বাণী চিরন্তণী লিখি, কিন্তু কোনোটাই ভাইরাল হয় না। ছোট্ট একটা বাণীও যদি ভাইরাল হইত, ফেইসবুকিং ছাইড়া দিতাম।

১৯ অক্টোবর ২০১৯


খাই দাই গান গাই
এর চেয়ে সুখ নাই
সুখ আছে ঘুমে
প্রেমিকার চুমে
সব চেয়ে বেশি সুখ
যার কোনো চোখ নাই
মুখে কোনো কথা নাই
শুনবার কান নাই
চলো সবে ঘরে বসে
একযোগে গান গাই

১৮ অক্টোবর ২০১৯

১০
যদিবা জীবনে কিছুই না পান
ঘুমের ভেতরে শুধুই হাঁপান
ধোলাই খালকে ভাবেন জাপান
চুনের পানিতে করেন চা পান
তখন একটু সময় করুন
গোসলখানায় ঢুকে পড়ুন
ঠান্ডা পানির শাওয়ার ছাড়ুন
তারপরে-
গলার আওয়াজ জোরসে তুলে
কলাবাবার গানটি ধরুন

৬ অক্টোবর ২০১৯

মন্তব্য ৪৩ টি রেটিং +৮/-০

মন্তব্য (৪৩) মন্তব্য লিখুন

১| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১:২৪

মোঃমোস্তাফিজুর রহমান তমাল বলেছেন: এগুলো আসলেই বাণী চিরন্তনী।রম্য নয়।

১-সময়ের সাথে মানসিকতার পরিবর্তন, ২-ছদ্মবেশি শত্রু, ৩-আমরা প্রসংশা নিতে ভালোবাসি,সমালোচনা না, ৪-মানুষের আকাঙ্ক্ষা ও প্রাপ্তির অসামঞ্জস্যতা, ৫- যশ-খ্যাতির আশা না করে পরোপকার, ৬-অন্যের স্মৃতিতে ঠাই পাবার আকুতি, ৭-একই সাথে পিতার আত্মত্যাগ ও প্রেমিকের বোকামি, ৮-অবমূল্যায়নের প্রতি ক্ষোভ, ৯-যে কি না পৃথিবীর সবকিছু উপেক্ষা করে থাকতে পারে সেই সুখী (ভর্ৎসনা) , ১০-নিজে পরিশ্রম করে সফল হতে হবে পরশ্রীকাতরতা বাদ দিয়ে।

প্রত্যেকটিতেই গভীর গুরুত্বপূর্ণ কথা আছে।
পোস্টের জন্য ধন্যবাদ।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৩০

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: তমাল ভাই, আপনার বিশ্লেষণী ক্ষমতা অসাধারণ, যা আগেও বলেছি।

এগুলো টুকরো কবিতা, কোনো না কোনো ঘটনার প্রেক্ষিতে ফেইসবুকে একগুলো শেয়ার করা। ঘটনাগুলো ব্যক্তিগত/পারিবারিক/মানসিক কিংবা জাতীয় পর্যায়ের। ব্যঙ্গ বা রম্য হিসাবেই লেখা, তবে গতকাল পুরোনো টাইমলাইনে যেয়ে দেখি কথাগুলো একেবারে ফেলনাও না, তাই সবগুলো কম্পাইল করে ব্লগে পোস্ট করলাম। আপনার বিশ্লেষণী মতামত পেয়ে ভালো লাগলো।

অনেক অনেক ধন্যবাদ।

২| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১:৩৯

মা.হাসান বলেছেন:
ঐ সময়ে আপনার মাথায় বাণীর দেবি চড়াও হয়েছিলেন।
অক্টোবর মাসে ভাবি আপনাকে একা রেখে কোথাও বেড়াতে গেছিলেন নাকি? ভাবি থাকলে তো আর কেউ চড়াও হবার কথা না।

আরেকটা সম্ভাবন-- অক্টোবরে আপনার বিয়ে হয়েছিলো, সেই আনন্দে আপনি এই বাণী নিঃসরন করেছেন B-))

কয়েকটা শুনে কেনো জানি এই গানটার কথা মনে পড়ে গেলোঃ

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৩৮

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: হাহাহাহাহাহাহা। অনেক ভালো বলেছেন প্রিয় মা.হাসান ভাই, ঐ সময়ে মাথার উপর বাণীভূতের আছরও হইয়া থাকতে পারে :) দেখি, আবার সময় পাইলে ফেইসবুকে পুরোনো স্টেটাসগুলো দেখতে হবে, কবে কী লিখেছিলাম :)

৩| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৩:২৯

সাবিনার বচন বলেছেন: ২ এবং ৫ সেই হয়েছে।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৩৯

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যনাদ সাব। আপনার নাম থেকে অনুমেয়, আপনি 'বচন' প্রচারে প্রসার লাভ করে থাকবেন। ঠিক বলেছি কি?

৪| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ৯:৪১

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: এইগুলি সব ঠেকে ঠেকে শিখেছেন ও লিখেছেন মনে হচ্ছে। বাস্তব অভিজ্ঞতা লব্ধ বাণী কখনও ভুল হতে পারে না আর সেই অভিজ্ঞতা যদি হয় আপনার মতো সূক্ষ্ম পর্যবেক্ষণ ক্ষমতার মানুষের তাহলে তো কথাই নেই।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৫৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: হ্যাঁ, এগুলো কোনো না কোনো ঘটনার প্রেক্ষিতে লেখা, যা তাৎক্ষণিকভাবে ফেইসবুকে শেয়ার করা হয়েছিল। কোনোটা ব্যক্তিগত ক্ষোভ, বিতৃষ্ণা বা অভিমান থেকে, কোনোটার পেছনে আবার ফেইসবুকে ঝড় উঠানো আবার জাতীয় পর্যায়ের ইস্যুও আছে :) যাই হোক, ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র, ফেলনা বা অপাঙ্‌ক্তেয় কথাগুলো আপনারা মূল্যায়ন করছেন দেখে ভালো লাগছে। অনেক ধন্যবাদ সুন্দর কমেন্টের জন্য।

৫| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:৫৬

পগলা জগাই বলেছেন: সবগুলি ভালো হয়েছে।
২ আর ৩ সম্পূর্ণ উলটারূপ, খাটি বাস্তব।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৫

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ পাগলা জগাই ভাই। শুভেচ্ছা।

৬| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৪০

রামিসা রোজা বলেছেন:
রমা খাঁটি সত্য লিখেছেন ।
২, ৫ ,৬ ,৭ দারুন উপভোগ্য ।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপু। শুভেচ্ছা।

৭| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৫০

সাহাদাত উদরাজী বলেছেন: দারুন।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ সাহাদাত উদরাজী ভাই। শুভেচ্ছা।

৮| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: অতি মনোরম।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ রাজীব নুর ভাই। শুভেচ্ছা।

৯| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৮

বিএম বরকতউল্লাহ বলেছেন: ভাল লেগেছে তবে এক বা দুই লাইনের মধ্যে আনতে পারলে ভাল হবে।

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:০১

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আপনার ভালো লেগেছে জেনে খুশি হলাম। পরামর্শের জন্য ধন্যবাদ বিএম বরকতউল্লাহ ভাই।

১০| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:২৭

পদ্ম পুকুর বলেছেন: বাহ, বাহ উজবেক পরিচালক দমুহমা ললিখ আজকাল হুমায়ুন আজাদ এর মত প্রবচনগু্চছ দিচ্ছে.... বাহ বাহ বাহ...

এই লেখা পড়তে পড়তেই মোবাইলে হোম মিনিস্ট্রিকে শুনালাম- উচ্ছে না রেঁধে পাটশাক রাঁধো, যাহা আমি কভু খাইনা...

১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:১৯

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: এই লেখা পড়তে পড়তেই মোবাইলে হোম মিনিস্ট্রিকে শুনালাম- উচ্ছে না রেঁধে পাটশাক রাঁধো, যাহা আমি কভু খাইনা... হাহাহাহাহা। ঘটনা তো দেখি মিলে গেলো :) বাসায় কিছুদিন শাশুড়ি ছিলেন। আমার স্ত্রী আর শাশুড়ি মাঝেমধ্যে এমন আনন্দ করে পাটশাক রান্না করে খাইত, মনে হইত ইহা ইলিশের চাইতেও সুস্বাদু :) আর পাটশাক সামনে দেখলেই মনে হইত পানিতে জাগ দেয়া পাটের পঁচাপাতার কালো স্তুপ সামনে রাখা হয়েছে :) অদ্ভুত বিষয় হলো, ছোটোবেলায় আমার মাকেও দেখেছি পাটশাক খেতে এবং আমার বাবা, দাদিও খাইতেন। এমনকি ডালও পাটশাক রান্না করা হইত। সবকিছু পর্যালোচনা করে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হইছি যে, পাটশাক খাওয়া যায় :)

'উজবেক' অর্থ কী পদ্ম পুকুর ভাই? জানতাম, ভুলে গেছি :(

১১| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫১

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: ভালো লাগলো সবগুলোই, একসঙ্গে পড়ার সুযোগ করে দেয়ার জন্য ধন্যবাদ ভাই।
আরো বেশি লেখেন আর এভাবে আমাদের দেখার সুযোগ করে দেন সেই কামনায়

শুভকামনা জানবেন

১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২১

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: প্রিয় জাহাঙ্গীর নয়ন ভাই, অনেক দিন পর ব্লগে আপনাকে দেখছি আজ। ওয়েল কাম ব্যাক।

রম্য পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। শুভ কামনা রইল।

১২| ১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১২:১২

লরুজন বলেছেন: আমি কইছিলামনি?
অহনকা আমার কতা মিলছেনি

বুড়া বেডির প্রেমে ফইরুইন্না
কই গেছে ১৫-২০টা কমেন্ট


আনফের লেহার ইজ্জত মাইরা অহনকা ভাগছেনি?

আনফে অইতাছুইন গিয়া হিমেশ
আনফে গিয়া রেনু মন্ডলরে দইরা আনছুইন
ইজ্জত কার গেছে?




১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: কিছু ভালো গানও শোনার অভ্যাস করতে হবে প্রিয় লরুজন ভাই। ভালো থাকবেন।

১৩| ১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৩:৩৫

সোহানী বলেছেন: ব্যপক গবেষনা লাগবে... এখন সময় কম, আবার আসবো!!

১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২৪

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ওকে আপু, শুভেচ্ছা নিয়েন।

১৪| ১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৪৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




পাট শাক করলা দুটিই আমার পছন্দের খাবার। জীবনে ঠান্ডা গরম কোমল সব পানিতেই গোসল করতে হয়েছে। তবে আপনার বরফ শীতল পানিতে গোসল করার অভিজ্ঞতা আছে কিনা জানিনা - আমার আছে! ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা। ঠিক তেমনি গনগনে গরম না হলেও কম গরম ছিলো না - ঠিক তেমন পানিতেও গোসল সারতে হয়েছে - জীবন যেখানে যেমন।

বিচ্ছু ভয়ঙ্কর! বুট স্যু দিয়ে লাথি দিতেও ভয় করে। বিচ্ছু আপনি সামনা সামনি দেখলে বুঝতে পারবেন কি ভয়ঙ্কর দৃশ্য। বিচ্ছুর কামড় আরও ভয়ঙ্কর।

১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:০৯

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন:


উস্তা বা করলার তিতা আমার কাছে তিতা মনে হয় না, মধুর মনে হয়। আমার সবচাইতে প্রিয় ভেজিটেবল এটা, যদিও ছোটোবেলায় খাইতাম না, খাওয়ার অভ্যাস করাইছে আমার স্ত্রী, তার রান্নার গুণে এটা সম্ভব হয়েছে :) তবে, এখনো পাটশাক ধরাইতে পারে নাই, আর পারবেও না, বুকে টোকা দিয়া বললাম :)

একবার ফিনল্যান্ডে একটা বহুজাতিক গোষ্ঠীর সাথে সাওনা বাথের অ্যাটেম্পট নিয়েছিলাম। মাইনাস ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের পানির কুয়ায় নেমে ডুব দিয়ে উঠে এসে হট সাওনায় যেতে হবে। সবাই যাচ্ছে। আমি বীর বাহাদুরও হেঁটে চলছি ডিচের দিকে। শরীর ঠিক আছে, কিন্তু পায়ের পাতা সহ্য করতে পারছে না। আমি অধম শুধু আন্ডারওয়্যার পরা, বাকিদের পোশাক হলো বার্থ ড্রেস। আমি এমনিতেই কিছুটা অসুস্থ তখনো। এই অবস্থায় এই অ্যাটেম্পট নিব কিনা ভাবতে ভাবতেই এই দর্শন মাথায় এলো, এই বিভুঁইয়ে ডুব দিতে যাইয়া আর উঠে আসতে পারবো কিনা, নিশ্চিত নই। বিদেশীরা আমার খোঁজ পেতে পেতে আমি মরে ভুত হয়ে যাব। এত সাহস নিয়া মরার দরকার নাই।

ফিরে এসে সাওনায় ঢুকলাম। শুরুতে ৮২, এরপর আস্তে আস্তে উপরের লেয়ারে ৯৪ বা ৯৬ ছিল বোধহয়, মগজ গলে যাওয়ার আগেই নীচে নেমে এসেছিলাম, যেখানে সম্ভবত ৭০+ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল। এই আমার দুঃসাহসিক অভিযাত্রা।

তবে, প্রচণ্ড শীতের রাতে, ৪ তলা দালানের ছাদে উদোম গায়ে, যখন ঝিরিঝিরি বাতাসও বইছে, ঠান্ডা পানি গায়ে মাখার অভিজ্ঞতা খুব কমন :( :( :)

বিচ্ছু প্রচুর দেখেছি, মেরেছিও প্রচুর। এটা খুব বিষাক্ত, তা জানি বলেই মেরেছি, তবে যথাযথ সতর্কতা অবলম্বন করেই মেরেছি। তো, বিচ্ছুর কামড়ে কত যন্ত্রণা তা তো বোঝেনই। যখন দেখি, আগের লেখাগুলোকে আর লেখাই মনে হচ্ছে না, সেই যন্ত্রণা এই বিচ্ছুর কামড়ের যাইতে আরো বেশি মর্মান্তিক :)


পোস্ট পড়ার জন্য ধন্যবাদ ঠাকুর মাহমুদ ভাই।

১৫| ১৭ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:১০

ঢুকিচেপা বলেছেন: সবগুলোই ভালো লেগেছে। তারমধ্যে ২ নম্বরটা দারুণ।

১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২৪

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ ঢুকিচেপা। ২ নাম্বার ভালো লাগায় আনন্দিত। এ পোস্টের হিরো বোধহয় নাম্বার টু :)

১৬| ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:০৭

মিরোরডডল বলেছেন:



বিচ্ছু দেখলেই তো অজ্ঞান হয়ে যাবো আর কামড় খেলেতো নির্ঘাত মৃত্যু ।
This is something I’m scared of.

তিন ভালো লেগেছে ।
চার পাঁচ ছয় সাত মজার :)
ধুলোর কি সত্যিই ভাইরাল হবার খুব শখ :|


১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০১

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: বিচ্ছু একটা ভয় পাবার বস্তুই, যেমন সাপও। তবে, পৃথিবীতে আমি জোঁককে সবচাইতে বেশি ভয় পাই :)

ভালো এবং মজার কথা শুনে আনন্দিত।

ভাইরাল কে না হইতে চায়? ভাইরাল তো কম হই নাই, কিন্তু ওটা ছিল একটা ব্যঙ্গ স্টেটাস, মানুষের ভাইরাল হইবার আকাঙ্খাকে ব্যঙ্গ কইরা :) গট ইট?

১৭| ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১১

মিরোরডডল বলেছেন:

ইয়েস বস, গট ইট :)

১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২০

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: মি হ্যাপি :)

১৮| ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৩

মিরোরডডল বলেছেন:

এতো হ্যাপি হলে হবে না । প্যারা সন্দেশ খাওয়াবার জন্য আমিতো আছি :)
আমার প্রশ্ন ছিলো একটা ।

১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:৫৯

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন:


আমি জানতাম, আমার একটা ছড়ায় সন্দেশ কথাটা আছে। কিন্তু প্যারা সন্দেশের কথা শুনে ভয় পাই নি। প্রশ্ন কী?

১৯| ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:২৮

অপু তানভীর বলেছেন: বাহ

১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:০০

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ অপু তানভীর ভাই।

২০| ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:১০

মিরোরডডল বলেছেন:



ধুলোর করা আমার পছন্দের যে দুটো গান, ঘরের মানুষ আর মাটি, যখন ধুলোর কণ্ঠে তখন লেখা কথা ও সুর খলিল মাহমুদ । আবার যখন দোহারির কণ্ঠে, ওখানে লেখা কথা খলিল মাহমুদ, সুর দোহারি ।

এটা কেনো ? আমিতো কনফিউজড :|
একই গান সুর দুবার দুজনের কি করে হয় ।
ধুলো এটা বুঝিয়ে বলবে , তানাহলে মাথা বনবন :(


১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:২১

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: চঞ্চল ভাইকে গানটা গাইতে দিলে তিনি গানটা আমার সুরে না গেয়ে তার নিজের সুরে গেয়েছেন। এজন্য ওটার সুরকার চঞ্চল ভাই। ক্লিয়ার হয়েছে? দুটো সুর তো ডিস্টিংকলি ডিফারেন্ট, কনফিউশন হলো কেন? চঞ্চল ভাই মূলত লালন গীতি গেয়ে থাকেন, এজন্য আমার করা সুর তুলতে গেলেও আমি ধারণা করি ওটা লালন-ঘেঁষা এবং ভিন্ন একটা সুর হয়ে যায়।

১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:২৩

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: যেহেতু ও-দুটো ভিন্ন সুর হয়ে গেছে, এজন্য সুরকারের ক্রেডিট চঞ্চল ভাইয়ের।

২১| ১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৪৯

মিরোরডডল বলেছেন:



এ বিষয়ে নো সেকেন্ড থট যে চঞ্চলের গাওয়া গানের সুর প্রফেশনাল এবং খুবই খুবই সুন্দর ।
মাটি গান দুজনের ডিফারেন্ট কিন্তু ঘর গানটার সুর সিমিলার ।

ধুলোর গানের অরিজিনাল সুরের ওপর বেইজ করেই চঞ্চলের সুরটা তোলা হয়েছে ।
এটাতে মিল আছে ।
যাইহোক , এগেইন হ্যাভ টু সে, ইয়েস বস, গট ইট :)



১৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৫৮

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: মি হ্যাপি এগেইন, থ্যাঙ্কিউ :)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.