নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

শব্দকবিতা : শব্দেই দৃশ্য, শব্দেই অনুভূতি \n\[email protected]

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই

দুঃখের কবিতাই শ্রেষ্ঠ কবিতা। ভালোবাসা হলো দুঃখ, এক ঘরে কবিতা ও নারী।

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই › বিস্তারিত পোস্টঃ

কমেডিময় ট্র্যাজেডি; কিংবা ট্র্যাজেডিময় কমেডি

১৭ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৪২

জীবনটাই বৃথা

কেউ খায় সিঙ্গারা
কেউ খায় ডালপুরি
জীবনটা বৃথা তার
যে না খায় ঝালমুড়ি
২৮ অক্টোবর ২০২০


বড়ো
এ জগতে হায় সেই বেশি খায়
যার পেট যত বড়ো
গোবেচারা স্বামী; স্ত্রীর দাবি-
আরো বেশি রুজি করো
১৭ নভেম্বর ২০২০


বাজার সদাই
তুমি আছ সুখে রাঁধুনির ঘরে
আমি আছি কাঁচা বাজারে
আলু ও পেঁয়াজে আগুন লেগেছে
টেংরারও কেজি হাজারে
১৭ নভেম্বর ২০২০


বেড়ানো : কারো বাপের বাড়ি, কারো শ্বশুর বাড়ি
হাবা গেল তার শ্বশুর বাড়িতে
বউ গেল তার বাপের বাড়ি
শোয়ার সময় গোল বেঁধে গেল
এক খাট নিয়ে কাড়াকাড়ি
১৭ নভেম্বর ২০২০


মূর্খের ট্র্যাজেডি এবং শিক্ষিতের আশীর্বাদ

দেখিনু সেদিন রেলে
যাত্রীরা এক পকেটমারকে
হাতেনাতে ধরে ফেলে

পেটাও শালাকে! চোর পেটানোর
এমন সুযোগ পেয়েই
ক্ষীপ্ত জনতা পিটিয়ে চোরকে
মেরে ফেলে নিমিষেই

কেউবা জীবনে চোরকে মারার
প্রথম সুযোগ পেল
হাউশ মিটিয়ে পেটালো - জীবন
সার্থক হয়ে গেল

লাশের পকেট খুঁজে অবশেষে
যাত্রীরা গুনে দেখে
পাঁচ-দশ-বিশ কয়েকটা নোট-
নব্বই টাকা মোটে

তদন্ত শেষে জানা গিয়েছিল
সে ছিল দিনমজুর
কাজ না থাকায় পেটের ক্ষুধায়
তাই হাতে নেয় ক্ষুর

ইশকুলে কভু পারে নাই যেতে
বাবাও কামলা ছিল
কামলার ছেলে কামলাই হবে
নিয়তির এ বিধান

দৈবাৎ যদি লেখাপড়া শিখে
শিক্ষিত হতে পারতো
এক কলমের খোঁচায় হয়ত
লাখ লাখ টাকা মারতো

লেখাপড়া শিখে শিক্ষিত হলে,
পথঘাট সবই জানতো-
লাখ লাখ টাকা, কোটি কোটি টাকা
বস্তায় ভরে আনতো।

লেখাপড়া শেখো; মূর্খ থেকো না-
মূর্খরা হয় ছ্যাঁচড়া চোর
দেখো নি - যারা শত কোটি মারে
'শিক্ষা'ই তাদের খুঁটির জোর!

১৭ নভেম্বর ২০২০

মন্তব্য ৩৭ টি রেটিং +৭/-০

মন্তব্য (৩৭) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৫১

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




চমকপ্রদ ছড়া কবিতা!
আমি নিজেও কিছু হাবিজাবি লেখার আগ্রহ পাচ্ছি।

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৪৪

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আমি নিজেও কিছু হাবিজাবি লেখার আগ্রহ পাচ্ছি। আপনার কমেন্ট পড়ে আমিও খুব আশান্বিত হচ্ছি যে, আপনি কিছু ছড়াকবিতা লিখবেন। আপনার সুগ্রন্থিত গদ্য পড়েছি, পদ্য-কবিতা পড়েছি বলে মনে পড়ে না। আমাদের জন্য আপনি আপনার নতুন পরিচয় শীঘ্র প্রকাশ করুন। প্লিজ। অধীর আগ্রহে থাকলাম।

২| ১৭ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:০৬

মোঃমোস্তাফিজুর রহমান তমাল বলেছেন: দারুণ ছড়া।
ঝালমুড়ি খুব প্রিয় খাবার আমার। বাহারি কম্বিনেশনের ঝালমুড়ি খুবই তৃপ্তিদায়ক।
মানুষের চাহিদার শেষ নেই।দুর্নীতিবাজদের বহুলাংশের পরিবারই প্রশ্রয় দেয় এবং আরো বেশি দুর্নীতি করার তাগাদা দেয়। দ্রব্যমূল্যের আগুন অসহনীয় তাপ সঞ্চারিত করছে দেশে।
দুজন তো একই জায়গায় গিয়েছে।এক খাটে শুয়ে পড়লেই তো হয়।
অশিক্ষিত গরীবেরা চুরি করলে শাস্তি পায়, শিক্ষিতরা কলমের খোঁচায় টাকা মারে।তাদের শাস্তি হয় না।পার পেয়ে যায়।

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৪৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: আপনার কমেন্টের এই ধারাটা আমার সত্যিই পছন্দের। প্রতিটা সেগমেন্ট ধরে কমেন্ট করেন। নিজেকে চিনতে পারি - ভালো বা মন্দ যাই হই না কেন। ভালো লাগে, আনন্দ দেয়।

অনেক ধন্যবাদ প্রিয় তমাল ভাই।

৩| ১৭ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১১:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: অত্যন্ত মনোমুগ্ধকর।

ঝালপুরি কোথায় পাবো?

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৪৯

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: সুরভিকে বলুন ডালপুরি বানাতে। আপনি বাজার থেকে রাঁধুনী গুঁড়ামরিচ কিনে আনুন। একটা প্লেটে ডালপুরি রাখুন, তার উপর কয়েক চামচ গুঁড়ামরিচ ছড়িয়ে দিন। ঝালপুরি হয়ে গেল। সুরভি যদি এগুলো বানাতে না পারেন, বাজার থেকেও কিনে আনতে পারেন।

সতর্কতা : পরীকে যেন এ ঝালপুরি খেতে না দেন, খেয়াল রাখবেন।

ছড়া মনোমুগ্ধকর হয়েছে জেনে ভালোলাগা পাচ্ছি।
ধন্যবাদ রাজীব নুর ভাই।

৪| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১২:২২

:):):)(:(:(:হাসু মামা বলেছেন: বরাবরের মতই অসাধারন লেখা।

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৮:৫০

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ সামু মামা। শুভেচ্ছা।

৫| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১২:৫০

মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন বলেছেন: যে খায় নাই চটপটি
তার-ও জীবন কটকটি!!!

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩১

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: হাহাহাহাহা। খুব সুন্দর হয়েছে এটা :)

৬| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১:৫৫

নেওয়াজ আলি বলেছেন: অনিন্দ্য সুন্দর লেখা

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ নেওয়াজ আলি ভাই।

৭| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৫

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: চমৎকার অন্তমিলবিশিষ্ট এরূপ কাব্য অনেক দিন পড়িনি।
সেশ চার লাইন রীতিমত কোটেশন!

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩৩

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ প্রিয় গিয়াস উদ্দিন ভাই। শেষ চার লাইনের প্রশংসায় আপ্লুত। শুভেচ্ছা নিন।

৮| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:০৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: খুব সুন্দর
ভালো লাগলো

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩৩

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ আপু।

৯| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:৩২

মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন বলেছেন: চমৎকার উপস্থাপন । দারুণ মনোমুগ্ধকর লেখনি।

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩৪

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন। ব্লগে স্বাগতম।

১০| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:৫০

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: ছড়ায়, কবিতায় সময়কে আটকে রেখেছেন!

হাস্যরসের মাধ্যদিয়ে দারুন সব অসংগতি আর যাতনার কথাও
অবলীলায় বলে গেছেন অন্তমিলে!

++++

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: চমৎকার কমেন্ট প্রিয় বিদ্রোহী ভৃগু ভাই। অনেক অনেক ধন্যবাদ।

শুভেচ্ছা এবং ভালোবাসা সতত।

১১| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


মহাকাব্য

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ চাঁদগাজী ভাই।

১২| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: ঝাল আমি খেতে পারি না।
গুড়ো মরিচ খাওয়া আমার জন্য অসম্ভব। চটপটি, ভরতা বা পেয়ারা, জাম্বুরা মাখার সাথে শুকনো মরিচ আমি খেতে পারি না।

১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৩৭

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: তাইলে তো আর ঝালপুরি খাইতে পারবেন না, আপনি শুধু পায়েশ আর জাও খাবেন :)

১৩| ১৮ ই নভেম্বর, ২০২০ রাত ১০:৪৮

কালো যাদুকর বলেছেন: একেবারে ঝালমুড়ির ঘ্রান পাচ্ছি।
সত্যিই শেষেরটা দারুন হয়েছে।

২০ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৫০

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ঝালমুড়ির ঘ্রাণ ছড়িয়ে দিতে পেরে নিজেকে মহান মনে হইতেছে :)

যাই হোক, শেষের প্রশংসায় অনেক ধন্যবাদ কালো যাদুকর।

১৪| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৪:২৬

নুরহোসেন নুর বলেছেন: লেখাপড়া শেখো; মূর্খ থেকো না-
মূর্খরা হয় ছ্যাঁচড়া চোর
দেখো নি - যারা শত কোটি মারে
'শিক্ষা'ই তাদের খুঁটির জোর!

উফফ কথার আঘাত কিন্তু মারাত্মক!

২০ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৫২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: লাস্ট ৪ লাইন লিখতে পেরে এখন খুব তৃপ্তি পাচ্ছি। ধন্যবাদ উদ্ধৃতির জন্য।

১৫| ১৯ শে নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:৪৫

এম ডি মুসা বলেছেন: ছন্দের কারুকার্যে সবগুলি অসাধারণ হয়েছে

২০ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৫২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ধন্যবাদ এম ডি মুসা ভাই। শুভেচ্ছা।

১৬| ২০ শে নভেম্বর, ২০২০ সকাল ৯:৩২

মেহবুবা বলেছেন: চমৎকার!
শেষটা পড়ে মেজাজ বিগড়ে গেল; পত্রিকা আর টিভিতে যা দেখতে হয় সেটাই!

২০ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:৫৬

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: দেশের কোটি কোটি টাকা পাচার করা, ঘুষ দুর্নীতি করা, পুকুরচুরি করা, কালো টাকার পাহাড় গড়ে তোলা - এ কর্মগুলো আমরা তথাকথিত শিক্ষিত লোকেরাই করে থাকি। সাম্প্রতিক ঘটনাগুলো আমাদের নৈতিকতার চূড়ান্ত অধঃপতনের সাক্ষী, যেগুলো টিভি, পত্রিকা, সোশ্যাল মিডিয়ার আলোচনার বিষয় ছিল এবং এখনো আছে।

অনেকদিন পর ব্লগে দেখে ভালো লাগলো আপু। শুভেচ্ছা রইল।

১৭| ২২ শে নভেম্বর, ২০২০ সকাল ১০:২৭

বিএম বরকতউল্লাহ বলেছেন: ছড়া পড়িয়া হাসিয়া কাশিয়া চেৌচির হয়ে গেছি

২২ শে নভেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৯

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: হাহাহাহাহাহা। আপনি চৌচির হইলে তো চলবে না। সুন্দর সুন্দর ছড়াগুলো ব্লগে কে লিখবে? :)

১৮| ২২ শে নভেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:২৭

মিরোরডডল বলেছেন:



সিঙ্গারা ডালপুরি ঝালমুড়ি এগুলো খুবই প্রিয় খাবার কিন্তু এখন কোথায় পাই :(

সবগুলো ছড়া কবিতা ভালো লেগেছে ।


২২ শে নভেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:১২

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: বাজারের সিঙ্গারা ডালপুরি এগুলো এখন আর নিরাপদ না, ঝালমুড়ি তো না-ই। কোন খাবারটা যে নিরাপদ, তাও অবশ্য বিরাট প্রশ্ন।

ছড়া কবিতা ভালো লেগেছে জেনে খুশি হলাম। ধন্যবাদ পড়ার জন্য।

১৯| ২৩ শে নভেম্বর, ২০২০ রাত ৯:১৯

মেহবুবা বলেছেন: বেশ কিছুদিন পরেই না লিখেছি , তাই বলে থাকবে না সকল পোষ্ট অথবা নির্বাচিত পোষ্টে? সামু কি আজকাল কোন রীতি নীতি চালু করেছে নতুন?

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.